20201002104319.jpg
ফুটবলারদের বকেয়া আদায়ের প্রতিশ্রুতি সালাউদ্দিনের

ফুটবলারদের বকেয়া আদায়ের প্রতিশ্রুতি সালাউদ্দিনের

ক্লাব ও খেলোয়াড়দের সঙ্গে নিজেই বসবেন টানা চতুর্থবারের সভাপতি। এই সপ্তাহেই ডাকবেন ফুটবলারদের। পরে ক্লাবগুলোর সঙ্গে বসে একটা সমাধান টানবেন বলে জানিয়েছেন বাফুফে প্রধান।

ডিসেম্বরে ফুটবল মাঠে ফেরানোর উদ্যোগ নিচ্ছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। নভেম্বরে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলের দলবদল করতে চায় সংস্থাটি। তার আগে ফুটবলারদের বকেয়া পারিশ্রমিকের সমস্যা সমাধান করতে চান বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন।

ক্লাব ও খেলোয়াড়দের সঙ্গে নিজেই বসবেন টানা চতুর্থবারের সভাপতি। এই সপ্তাহেই ডাকবেন ফুটবলারদের। পরে ক্লাবগুলোর সঙ্গে বসে একটা সমাধান টানবেন বলে জানিয়েছেন বাফুফে প্রধান।

নিউজ বাংলাকে কাজী সালাউদ্দিন বলেন, ‘ফুটবলারদের বেতন সংক্রান্ত একটি বিষয় আছে। এটা নিয়ে একটা কনফিউশন আছে। আমার প্লেয়ারদের সঙ্গে মিটিং আছে দুদিন পরে। ওরা অলরেডি অনেকের সঙ্গে মিটিং করেছে। কিন্তু আমি তাদের সঙ্গে অফিসিয়িালি বসতে পারি নাই, কারণ প্রেসিডেন্ট না হওয়া পর্যন্ত আমি কোন প্রতিজ্ঞা করতে পারি না।’বাফুফে সভাপতি সালাউদ্দিন

আমি তাদের বলেছিলাম একটা অ্যাডজাস্টমেন্ট করবো ক্লাব ও তোমাদের সঙ্গে। প্লেয়ারদের সঙ্গে বসে তার দুদিন পর ক্লাবদের সঙ্গে বসে একটা সমঝোতায় নিয়ে যেখানে দুই পক্ষই খুশি থাকবে। ফুটবলটা যেন মাঠে গড়ায়।’

নির্বাচনের আগে দফায় দফায় ক্লাব ও ফুটবলারদের সঙ্গে বসেছে ফেডারেশন। খেলোয়াড়দের অনুরোধ ছিল বাতিল হওয়া গত লিগের চুক্তির পুরো অর্থ দেয়ার পাশাপাশি যেন নতুন মৌসুমে অন্তত ৫০ শতাংশ পারিশ্রমিক দেয়া হয়। ক্লাবগুলো দিতে চাইছে গেল মৌসুমের বকেয়া অর্থের পুরোটা আর নতুন মৌসুমে ২৫ শতাংশ।আরও পড়ুন: অনেক ছাড় দেয়া হয়েছে, এখন শুধু ফুটবলের সময়: সালাউদ্দিন

নতুন মৌসুমের আগে খেলোয়াড়দের বেতন সংক্রান্ত এই ঝামেলা মিটমাট করে ফেলার আশা বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদীর। তিনি বলেন, ‘আমরা নির্বাচনের আগে আশ্বাস দিয়েছিলাম। জয়ী হওয়ার পর এখন আশ্বাস পূরণ করবো। খেলোয়াড়দের বেতন নিয়ে যে ঝামেলা হচ্ছে দুই পক্ষের মধ্যে মধ্যস্থতা করে একটা সুবিধাজনক সিদ্ধান্ত নিবো। যাতে খেলোয়াড়রাও খুশি থাকে, ক্লাবও খুশি থাকে।’

শেয়ার করুন

মন্তব্য