20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
অনেক ছাড় দেয়া হয়েছে, এখন শুধু ফুটবলের সময়: সালাউদ্দিন

অনেক ছাড় দেয়া হয়েছে, এখন শুধু ফুটবলের সময়: সালাউদ্দিন

সামনের চার বছরে কোনো ছাড় দিতে নারাজ তিনি। কঠোর ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন 'আর ফ্রেন্ডশিপ নয়। এখন শুধুই ফুটবলের সময়'। রোববার বাফুফের কার্যনির্বাহী কমিটির প্রথম বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন কাজী সালাউদ্দিন।

টানা চতুর্থবারের সভাপতি নির্বাচিত হয়েই হুঁশিয়ারি কাজী সালাউদ্দিনের। সামনের চার বছরে কোনো ছাড় দিতে নারাজ তিনি। কঠোর ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন 'আর ফ্রেন্ডশিপ নয়। এখন শুধুই ফুটবলের সময়'।

রোববার বাফুফের কার্যনির্বাহী কমিটির প্রথম বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন কাজী সালাউদ্দিন।

এই মেয়াদে দেশের সর্বোচ্চ লিগ নিয়ে এবার কোনো অজুহাত চলবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘প্রিমিয়ার লিগে কিছু শর্টকামিং আছে। আমার অফিসে উনার (আব্দুস সালাম মুর্শেদী) সঙ্গে আমার ব্যক্তিগতভাবে কথা হয়েছে। প্রশাসনিক যে তারিখ দিবেন, সেই তারিখেই খেলা হবে। কোনো টালবাহানা নয়।

‘যদি কোন দল খেলতে না চায়, সিদ্ধান্ত হচ্ছে ১৩ দলের থেকে তিন দল খেলবে না। খেলবে না। ১০ দলে খেলা হবে। অনেক ছাড় দেয়া হয়েছে। অনেক ফ্রেন্ডশিপ হয়েছে। আর ফ্রেন্ডশিপ নয়। এখন শুধুই ফুটবলের সময়।’

এবার এএফসির শর্ত মেনেই লিগে বিদেশি খেলোয়াড় আনা হবে বলে জানিয়েছেন কাজী সালাউদ্দিন, ‘ফরেন প্লেয়ার চারজন আগের বারের মতো। এএফসি নির্দেশনা অনুযায়ী। আমি যতদিন প্রেসিডেন্ট থাকবো। এটা চেঞ্জ হবে না। এটা ৫ ও হবে না ৩ ও হবে না।’
কাজী সালাউদ্দিন ও বাফুফের নতুন কমিটি

নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর এবার জেলা ও তৃণমূল ফুটবল উন্নয়নে উদ্যোগী হচ্ছেন কাজী সালাউদ্দিন। আর্থিক সহায়তার নিশ্চয়তা দিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি নিশ্চিত করতে চাই, প্রতি জেলায় খেলা হবে। আমি তাদের আর্থিক সহায়তা দেবো। আমার কলিগরাও আমাদের সঙ্গে থাকবে, আমি কমিটি করে আপনাদের দেখিয়ে দেবো এর চেয়ে শক্তিশালী কমিটি বাংলাদেশে হতে পারে না।

‘এই কমিটি ফাইনানশিয়াল ও টেকনিক্যাল সহায়তা দেবে। খুব শক্তভাবে লিগ মনিটরিং করা হবে। এসবের পরেও যদি কোন জেলা করতে না পারে, তবে প্রশাসন দায়িত্ব নিয়ে লিগ করে দেবে।’

আরও পড়ুন: জেলার দায়িত্বে সালাউদ্দিন, পুরনো দায়িত্বে মুর্শেদী-নাবিল

এই বছর শেষের আগে ফেডারেশন কাপ আয়োজনের আশ্বাস দিয়েছেন পেশাদার লিগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী। বলেন, ‘নভেম্বরেই দলবদল রেখে ডিসেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে আমরা মাঠে ফুটবল ফেরাতে চাই। ফেডারেশেন কাপ দিয়ে শুরু হবে ফুটবল মৌসুম। দুই একদিনের মধ্যে ক্লাবগুলোর সঙ্গে বসে এটা চূড়ান্ত করা হবে।’

নতুন মৌসুমের আগে খেলোয়াড়দের বেতন সংক্রান্ত ঝামেলাও মিটমাট করে ফেলবে বাফুফে জানিয়েছেন সিনিয়র সহ-সভাপতি। বলেন, ‘আমরা নির্বাচনের আগে আশ্বাস দিয়েছিলাম। জয়ী হওয়ার পর এখন আশ্বাস পূরণ করবো। খেলোয়াড়দের বেতন নিয়ে যে ঝামেলা হচ্ছে দুই পক্ষের মধ্যে মধ্যস্থতা করে একটা সুবিধাজনক সিদ্ধান্ত নিবো। যাতে খেলোয়াড়ও খুশি থাকে, ক্লাবও খুশি থাকে।’

শেয়ার করুন

মন্তব্য