× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
গ্রুমিং পর্বে মিস্টার অ্যান্ড মিস ফটোজেনিক
google_news print-icon

গ্রুমিং পর্বে ‘মিস্টার অ্যান্ড মিস ফটোজেনিক’

গ্রুমিং-পর্বে-মিস্টার-অ্যান্ড-মিস-ফটোজেনিক
‘মিস্টার অ্যান্ড মিস ফটোজেনিক ২০২১’ এর অডিশন
গত ২৯ ডিসেম্বর রাজধানীর নিকেতনে সরাসরি ও অনলাইন অডিশনের মাধ্যমে প্রতিযোগী বাছাই করা হয়। প্রথম ধাপ পেরিয়ে এখন ২৫ জন প্রতিযোগী আছেন। এরই মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় ধাপ; গ্রুমিং সেশন।

মডেল অন্বেষণের প্রতিযোগিতা ‘মিস্টার অ্যান্ড মিস ফটোজেনিক ২০২১’-এর অডিশন শেষ হয়েছে। এখন চলছে গ্রুমিং পর্ব।

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে তৃতীয় বারের মতো আয়োজন করা হয়েছে প্রতিযোগিতাটির। আয়োজকদের ভাষ্য, প্রতিযোগিতায় মানা হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি।

যৌথভাবে আয়োজনটি করছেন ফ্যাশন ডিজাইনার ওয়ালিউদ্দিন আহমেদ ও জনপ্রিয় র‌্যাম্প মডেল, কোরিওগ্রাফার সৈয়দ রুমা।

গত ২৯ ডিসেম্বর রাজধানীর নিকেতনে সরাসরি ও অনলাইন অডিশনের মাধ্যমে প্রতিযোগী বাছাই করা হয়। প্রথম ধাপ পেরিয়ে এখন ২৫ জন প্রতিযোগী আছেন। এরই মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় ধাপ; গ্রুমিং সেশন।

এতে ক্লাস থাকবে ১২ থেকে ১৬টি। প্রথম অংশে বিচারক ছিলেন সৈয়দ রুমা, মারিয়া কিসপট্টা, ইউসুফ আহমদ, সালমা সরোয়ার কবিতা, আবির চৌধুরী ও জেরিন চৈতি।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সেমিফাইনাল ও চূড়ান্ত পর্বে বিচারকদের তালিকায় থাকবে চমক।

গ্রুমিং পর্বে ‘মিস্টার অ্যান্ড মিস ফটোজেনিক’
‘মিস্টার অ্যান্ড মিস ফটোজেনিক ২০২১’ এর অডিশন

এ বিষয়ে আয়োজক ওয়ালিউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘করোনার কারণে এবার ঢাকার বাইরে থেকে যারা আবেদন করেছেন, তাদের নিতে পারিনি। সম্প্রতি প্রথম অডিশন রাউন্ড সম্পন্ন করেছি। তাদের দিয়ে বিভিন্ন ফটোশুট, ভিডিও শুটসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ডের শুট করা হবে।’

আরেক আয়োজক সৈয়দ রুমা বলেন, ‘ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি এখন অনেক সম্প্রসারিত হয়েছে। তবে দেশে ভালো মডেলের সংখ্যা খুব কম।

‘এক দিনে একাধিক শো পড়লে ভালো মানের মডেল খুঁজে পাওয়া মুশকিল। তাই চেষ্টা করছি, কিছু ছেলেমেয়েকে হাতে-কলমে শিখিয়ে তৈরি করতে, যাতে তারা নিজ যোগ্যতায় কাজ করতে পারে শোবিজে।’

এ অনুষ্ঠানের ডিজিটাল পার্টনার এসকে মিডিয়া ডটকম। এ সংক্রান্ত সব আপডেট পাওয়া যাবে এসকে মিডিয়ার ফেসবুকে পেজে।

প্রতিযোগিতার গ্রুমিং পার্টনার ত্রয়ী স্টুডিও। বিউটি পার্টনার হিসেবে আছে রাজিয়া’স বিউটি সেলুন।

আরও পড়ুন:
মার্চেই উদ্বোধন হচ্ছে ৫০ মডেল মসজিদ
রানি যখন টিকার মডেল

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
The officer was attacked while trying to rescue the forest land

বনের জমি উদ্ধারে গিয়ে হামলার শিকার কর্মকর্তা

বনের জমি উদ্ধারে গিয়ে হামলার শিকার কর্মকর্তা দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ভূমিদস্যুদের হামলার শিকার বন কর্মকর্তা খাইরুল আলম। ছবি: নিউজবাংলা
আহত খাইরুল আলম বলেন, ‘বনের জমি দখলমুক্ত করতে গেলে তারা আমাদের ওপর ক্ষিপ্ত হন। এক পর্যায়ে লাঠিসোটা নিয়ে আমার উপর হামলা করেন।’

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ বনের জমিতে অবৈধ দখল উচ্ছেদ করতে গিয়ে স্থানীয়দের হামলার শিকার হয়েছেন খাইরুল আলম নামে এক বন কর্মকর্তা। বর্তমানে তিনি দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে নবাবগঞ্জ উপজেলার মালিপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নবাবগঞ্জ বনবিভাগে কর্মরত মোকারম হোসেন বলেন, ‘মালিপাড়া এলাকায় বাবলু নামে একজন অবৈধভাবে বনের জমি দখল করে ইটের দেয়াল করছিলেন। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে দেয়াল অপসারণ করে রওয়ানা দিয়েছি। হঠাৎ বাবলু তার পরিবারের সদস্যরাসহ ১০ থেকে ১৫ জন মিলে লাঠিসোটা নিয়ে আমাদের ওপর হামলা করেন।

‘এতে মাথা, হাত ও পায়ে আঘাত পান কর্মকর্তা খাইরুল আলম। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।’

আহত খাইরুল আলম বলেন, ‘বনের জমি দখলমুক্ত করতে গেলে তারা আমাদের ওপর ক্ষিপ্ত হন। এক পর্যায়ে লাঠিসোটা নিয়ে আমার উপর হামলা করেন।’

দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের ইনডোর মেডিক্যাল অফিসার ডা. রবিউল ইসলাম বলেন, ‘বন কর্মকর্তা খাইরুল আলমের মাথার ডান দিকে আঘাত লেগেছে। পাশাপাশি বাম পা ও হাতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। আমরা প্রাথমিকভাবে চিকিৎসা দিয়েছি। কয়েকটি পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর বিস্তারিত জানা যাবে।’

চোরকাই রেঞ্জের বন কর্মকর্তা নিশিকান্ত মালাকার বলেন, ‘একদল ভূমিদস্যু বিভিন্ন উপায়ে বনের জায়গা দখল করে ঘরবাড়িসহ বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণ করে থাকে। সেগুলো দখলমুক্ত করতে গিয়ে বারবার হামলার শিকার হচ্ছি আমরা। আজকে খাইরুল আলমের সঙ্গেও এমনটা হয়েছে।

‘আমরা এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ওসির সঙ্গে কথা বলেছি। এ ঘটনায় আমরা মামলা করব।’

আরও পড়ুন:
শাসন করায় ছাত্র-অভিভাবকদের হামলা, প্রধান শিক্ষকসহ আহত ৫
অফিস সহকারীকে কক্ষ পরিদর্শনে রেখে বনভোজনে শিক্ষক, খাতা উধাও
পুলিশের ওপর মৌলভীবাজার যুবলীগ ছাত্রলীগের হামলার অভিযোগ

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Make PSC a Center of Excellence President

পিএসসিকে সেন্টার অফ এক্সিলেন্সে পরিণত করুন: রাষ্ট্রপতি

পিএসসিকে সেন্টার অফ এক্সিলেন্সে পরিণত করুন: রাষ্ট্রপতি পিএসসি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল বুধবার বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির কাছে কমিশনের বার্ষিক প্রতিবেদন পেশ করে। ছবি: পিআইডি
মো. সাহাবুদ্দিন বলেন, ‘দেশের মেধাবী তরুণরা যাতে তাদের মেধা ও যোগ্যতার স্বাক্ষর রেখে জনগণের সেবার মনোভাব নিয়ে সরকারি চাকরিতে প্রবেশ করতে পারে সে লক্ষ্যে কর্মকমিশনের সব কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে।’

সরকারি কর্ম কমিশনকে (পিএসসি) সব কাজে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিতের মাধ্যমে সেন্টার অফ এক্সিলেন্সে পরিণত করার নির্দেশ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন।

পিএসসি চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইনের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল বুধবার বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির কাছে কমিশনের বার্ষিক প্রতিবেদন-২০২৩ পেশকালে তিনি এই নির্দেশ দেন।

সাক্ষাৎকালে পিএসসি চেয়ারম্যান প্রতিবেদনের বিভিন্ন দিক এবং কমিশনের সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘দেশের মেধাবী তরুণরা যাতে তাদের মেধা ও যোগ্যতার স্বাক্ষর রেখে জনগণের সেবার মনোভাব নিয়ে সরকারি চাকরিতে প্রবেশ করতে পারে সে লক্ষ্যে কর্ম কমিশনের সব কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে।

‘বাছাই প্রক্রিয়ায় চাকরিপ্রার্থীদের দেশপ্রেম, সততা ও নিষ্ঠা এবং স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সম্পর্কিত বিষয়াদির ওপর গুরুত্ব দিতে হবে।’

নিয়োগ প্রক্রিয়ার জটিলতা ও সময়সীমা কমিয়ে আনতে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়ানোসহ কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার ওপর জোর দেন রাষ্ট্রপতি।

পিএসসির কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করে রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন, ভবিষ্যতে পিএসসি আরও গতিশীল হবে এবং নিয়োগ প্রক্রিয়ার দীর্ঘসূত্রতা কমিয়ে আনতে সক্ষম হবে।

আরও পড়ুন:
প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
বিরোধীদের সহিংসতা-নৈরাজ্য পরিহারে রাষ্ট্রপতির আহ্বান
দ্বাদশ সংসদের প্রথম অধিবেশন বসছে বিকেলে
দ্বাদশ সংসদের প্রথম অধিবেশন বসছে মঙ্গলবার
পাবনায় নির্মাণ হবে শেখ কামাল হাইটেক পার্ক: রাষ্ট্রপতি

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Over 100 injured in Brahmanbaria group clash 33 detained

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গোষ্ঠীগত সংঘর্ষে আহত শতাধিক, আটক ৩৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গোষ্ঠীগত সংঘর্ষে আহত শতাধিক, আটক ৩৩ বিজয়নগরে বুধবারের সংঘর্ষে আহত অনেককে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। ছবি: নিউজবাংলা
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিল্লাল হোসেন জানান, সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে ৬ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করা হয়েছে। কয়েকজন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ৩৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষে শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছে। বুধবার সকালে উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নের বুল্লা গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ৩৩জনকে আটক করেছে পুলিশ।

বিজয়নগর থানার ওসি আসাদুল ইসলাম জানান, বেশ কিছুদিন আগে স্থানীয় ইউপি মেম্বার কাউসার মিয়ার মেয়ে জয়নাল মেম্বারের গোষ্ঠীর এক তরুণের সঙ্গে পালিয়ে বিয়ে করেন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধসহ নির্বাচন, রাজনৈতিক মতবিরোধ ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বুধবার সকালে দুই গোষ্ঠীর লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় বেশকিছু বাড়িঘর ভাংচুর করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গোষ্ঠীগত সংঘর্ষে আহত শতাধিক, আটক ৩৩

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষের এ ঘটনায় দু’পক্ষের শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে। আহতদের জেলা সদর হাসপাতাল ও মাধবপুর হাসপাতাল এবং স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়া আহতরা হলেন- কাউসার, মুখলেস, মোহন, জহুরুল হক, আব্দুল্লাহ, ছোট্ট মিয়া, মিলন, রিপন, জাকির, আব্বাস আলি, তানভীর, আশু, শফিকুল, রফিক, জসিম, রিপন, আবু লাল, কাউসার, আবন মিয়া, জয়নাল, লুৎফুর, সাদেকুল, নাজমুল, ওহিদ, তারেক, রামিত, জসিম, সিরাজ, কুশনাহার, রাসেল, নাসির মিয়া, ফায়েজ মিয়া, বিল্লাল, আব্দুল্লাহ, আবু তাহের, মোশাররফ, সাকিব, মিলন, মনা, নাঈম, হাকিম, শামীম, আবুল হোসেন, মোজাম্মেল, মামুন ও আজগর।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিল্লাল হোসেন জানান, সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে ৬ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করা হয়েছে। এ ঘটনায় কয়েকজন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন।

সংঘর্ষে জড়িত থাকায় বিভিন্ন স্থান থেকে ৩৩ জনকে আটক করা হয়েছে। থানায় পুলিশ এসল্ট মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। পরবর্তী সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:
মুন্সিগঞ্জে আ.লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধসহ আহত ৭
দুই বংশের বিরোধে সংঘর্ষ, একজন নিহত
চবিতে দফায় দফায় সংঘর্ষ: কঠোর ব্যবস্থা নিতে বললেন শিক্ষামন্ত্রী
চবিতে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ থামছেই না, এবার পুলিশসহ আহত ১৩
নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগ-যুবলীগ সংঘর্ষে যুবক নিহত

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Transport strike in Sylhet called off

সিলেটে পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার

সিলেটে পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার ছবি: নিউজবাংলা
বুধবার ভোর ছয়টা থেকে পুরো জেলায় শুরু হয় এ ধর্মঘট। এতে ভোগান্তিতে পড়ে সাধারণ মানুষ।

সিলেটে ৫ দফা দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে। সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী ও জেলা প্রশাসক শেখ মো. রাসেল হাসানের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বুধবার পৌনে চারটার দিকে সিলেট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে বৈঠক শেষে ধর্মঘট প্রত্যাহারের এ ঘোষণা দেন পরিবহন শ্রমিক সংগঠনের নেতারা।

কর্মবিরতি প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক আলী আকবর রাজন।

বুধবার ভোর ছয়টা থেকে পুরো জেলায় শুরু হয় এ ধর্মঘট। এতে ভোগান্তিতে পড়ে সাধারণ মানুষ।

শ্রমিকরা জানান, সিএনজি স্টেশনগুলোতে গ্যাসের সংকট দূর করা, রাজনৈতিক বিভিন্ন মামলায় শ্রমিকদের মুক্তি ও ২০২১ সালে নগরীর চৌহাট্টায় শ্রমিকদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দেন তারা। আজকেই মধ্যে এ দাবি মেনে না নিলে আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে পুরো বিভাগজুড়ে ধর্মঘট করার হুঁশিয়ারি দেন তারা।

এর আগে মঙ্গলবার সিলেট জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি ময়নুল ইসলাম জানান, সিলেটের সিএনজি রিফুয়েলিং স্টেশনগুলোতে প্রতি মাসের ২০ থেকে ২২ তারিখ আসার পর গ্যাসের লিমিট শেষ হওয়ার কথা বলে বন্ধ রাখা হয়। এতে পরিবহনশ্রমিকেরা বিপাকে পড়েন। ঘণ্টার পর ঘণ্টা পরিবহনশ্রমিকদের যানবাহন নিয়ে রাস্তা দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। এর ফলে পরদিন কাজে যোগ দিতে পারছেন না। এ সমস্যা সমাধানের জন্য একাধিকবার জালালাবাদ গ্যাস কর্তৃপক্ষ এবং প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানানো হয়েছে। এরপরও এর কোনো সুরাহা হয়নি।

তিনি আরও জানান, ২০২১ সালে সিলেট নগরের চৌহাট্টা স্ট্যান্ড নিয়ে শ্রমিকদের সঙ্গে সিটি করপোরেশনের কর্মীদের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করে। ওই ঘটনা আপস-মীমাংসার পরও মামলা চলমান। সেই মামলার সমাধান চান তারা। অন্য দাবির মধ্যে পরিবহনশ্রমিকদের রাজনৈতিক মামলায় বিভিন্ন সময় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দেখা গেছে, যে শ্রমিক ঘটনাস্থলে ছিলেন না, তাকেও মামলার আসামি করে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এরপর ওই শ্রমিককে জামিন দেয়া হচ্ছে না। এসব মামলায় গ্রেপ্তার শ্রমিকদের জামিন চাচ্ছেন তারা।

দীর্ঘদিন ধরে সিলেটে প্রতি মাসের ১৮-২০ দিন পর থেকেই ‘লিমিট’ শেষ হয়ে যায় সিলেটের সিএনজি ফিলিং স্টেশনগুলোর। ফরে চরম ভোগান্তিতে পড়েন সিএনজিচালিত গাড়িগুলোর চালক। শুধু তাই নয়, সড়কের যানবাহন কম চলাচল করায় ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীসাধারণরাও।

আরও পড়ুন:
সিলেটে অনির্দিষ্টকাল পরিবহন ধর্মঘটের ডাক

মন্তব্য

বাংলাদেশ
1 killed 6 injured in factory explosion in Gazipur

গাজীপুরে কারখানায় বিস্ফোরণে নিহত ১, আহত ৬

গাজীপুরে কারখানায় বিস্ফোরণে নিহত ১, আহত ৬ গাজীপুরের বাবারুল সুখীনগর ধীরাশ্রম এলাকায় ইন্টেলিজেন্ট কার্ড লিমিটেড নামের কারখানায় বুধবার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। ছবি: নিউজবাংলা
গাজীপুর মহানগরীর বাবারুল সুখীনগর ধীরাশ্রম এলাকায় ইন্টেলিজেন্ট কার্ড লিমিটেড নামের একটি কারখানায় বুধবার দুপুরে লেনিনেশন মেশিন বিস্ফোরিত হয়। এতে কারখানায় আগুন ধরে যায়। এ সময় হতাহতের ঘটনা ঘটে।

গাজীপুরে একটি কারখানায় লেনিনেশন মেশিন বিস্ফোরণ ও আগুনের ঘটনায় এক যুবক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ছয়জন। তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস।

এলাকাবাসী ও ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, গাজীপুর মহানগরীর বাবারুল সুখীনগর ধীরাশ্রম এলাকায় ইন্টেলিজেন্ট কার্ড লিমিটেড নামের একটি কারখানায় বুধবার দুপুর পৌনে ১টার সময় লেনিনেশন মেশিন বিস্ফোরিত হয়। এতে কারখানার ভেতরে আগুন ধরে যায়।

আগুন ও বিস্ফোরণে লিখন মিয়া নামে একজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ছয়জন। লিখন মিয়ার বাড়ি গাইবান্ধা জেলায় বলে জানা গেছে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠান। আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ওই হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল্লাহ আল আরেফিন জানান, তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। বিস্ফোরণের কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ তদন্তসাপেক্ষে বলা যাবে।

আরও পড়ুন:
ঠাকুরগাঁওয়ে বয়লার বিস্ফোরণে নারী দুই শিশুর মৃত্যু
ভারতে গ্লাভস কারখানায় আগুনে ৬ মৃত্যু
ফেনীতে ফ্রিজের কম্প্রেসর বিস্ফোরণে বাবা-মা-ছেলে দগ্ধ

মন্তব্য

বাংলাদেশ
MP of reserved 50 women constituencies took oath

শপথ নিলেন সংরক্ষিত ৫০ নারী আসনের এমপি

শপথ নিলেন সংরক্ষিত ৫০ নারী আসনের এমপি
টেলিভিশন থেকে নেয়া
সংসদ ভবনের শপথ কক্ষে প্রথমে আওয়ামী লীগের ৪৮ জন এবং পরের ধাপে জাতীয় পার্টির দুজন এমপিকে শপথ বাক্য পাঠ করান স্পিকার।

শপথ নিয়েছেন জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা।

বুধবার স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী তাদের শপথ বাক্য পাঠ করান।

সংসদ ভবনের শপথ কক্ষে প্রথমে আওয়ামী লীগের ৪৮ জন এবং পরের ধাপে জাতীয় পার্টির দুজন এমপিকে শপথ বাক্য পাঠ করান স্পিকার।

সংরক্ষিত নারী আসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা (যুগ্ম সচিব) মুনিরুজ্জামান তালুকদার গত ২৫ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনি আইনের ১২ ধারা অনুযায়ী, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ৫০ জন প্রার্থীকে নির্বাচিত ঘোষণা করেন।

নির্বাচনের বিধি অনুযায়ী, সরাসরি ভোটে জয়ী দলগুলোর আসন সংখ্যার অনুপাতে নারী আসন বণ্টন করা হয়।

এবার জোট শরিক ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সমর্থনে ৪৮টি সংরক্ষিত নারী আসনে প্রার্থী মনোনয়ন দেয় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। বিরোধী দল জাতীয় পার্টি মনোনয়ন দিয়েছিল ২টি আসনে। কোন প্রতিদ্বন্দ্বিতা না থাকায় তাদেরকে সরাসরি নির্বাচিত ঘোষণা করা হয।

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Roja office 9 am to 330 pm

রোজায় অফিস সকাল ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা

রোজায় অফিস সকাল ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা ফাইল ছবি
চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১২ বা ১৩ মার্চ থেকে রমজান মাস শুরু হতে পারে। রোজা শুরুর দিন থেকে নতুন সূ‌চিতে অফিস চলবে।

আসন্ন রমজান মাসে সকাল ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত অফিস চলবে।

বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়।

বৈঠক শেষে বিকেলে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বিয়ষটি নিশ্চিত করেছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন।

তিনি জানান, সব সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত এবং আধাস্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের জন্য রমজান মাসের অফিসের এ সময়সূচি।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১২ বা ১৩ মার্চ থেকে রমজান মাস শুরু হতে পারে। রোজা শুরুর দিন থেকে নতুন সূ‌চিতে অফিস চলবে।

মন্তব্য

p
উপরে