গাজায় সহিংসতা: ‘ভুয়া তথ্য’ ছড়ানো ঠেকাবে ফেসবুক

গাজায় সহিংসতা: ‘ভুয়া তথ্য’ ছড়ানো ঠেকাবে ফেসবুক

নিউইয়র্ক টাইমসের বুধবারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ফেসবুক মালিকানাধীন মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপে গ্রুপ খুলে ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে সহিংসতা উস্কে দিচ্ছে কট্টর ইহুদিরা।

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি আগ্রাসন নিয়ে ‘ভুয়া তথ্য’ ছড়ানো ও অপপ্রচার রোধে ব্যবস্থা নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিদ্বেষ ও সহিংসতা উস্কে দেয়া ঠেকানোর লক্ষ্যে সপ্তাহে সাত দিন ২৪ ঘণ্টা কাজ করবে ফেসবুকের একটি বিশেষ দল।

এ জন্য গত সপ্তাহে ‘স্পেশাল অপারেশন্স সেন্টার’ গঠন করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

ফেসবুকের পক্ষ থেকে বুধবার জানানো হয়, ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংকটের মধ্যে অনলাইন এ প্ল্যাটফর্মে প্রচারিত কনটেন্টে নজর রাখতে নেয়া হয়েছে এ পদক্ষেপ।

গত কয়েকদিন ধরেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটিতে ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংকট নিয়ে ভুয়া তথ্য, বিদ্বেষ ও সহিংসতা উস্কে দেয়ার প্রবণতা বেড়েছে বলে দাবি ফেসবুকের।

প্রতিষ্ঠানটির কনটেন্ট পলিসিবিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট মনিকা বাইকার্ট বলেছেন, ‘ফেসবুকের নীতিমালার সঙ্গে সাংঘর্ষিক যে কোনো কনটেন্ট দ্রুততম সময়ে সরিয়ে ফেলতে নজরদারি চালানো হবে।’

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নির্বাচন সামনে রেখে আগেও এ ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

নিউইয়র্ক টাইমসের বুধবারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ফেসবুক মালিকানাধীন মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপে গ্রুপ খুলে ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে সহিংসতা উস্কে দিচ্ছে কট্টর ইহুদিরা।

অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও চলছে কড়াকড়ি।

গত সপ্তাহে বাজফিড নিউজ জানায়, ফেসবুক মালিকানাধীন ছবি ও স্বল্পদৈর্ঘ্য ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ ইনস্টাগ্রাম ভুলবশত জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ বিষয়ক একটি কনটেন্ট সরিয়ে দিয়েছে।

পূর্ব জেরুজালেম থেকে ফিলিস্তিনিদের সরিয়ে দেয়া শংকা জানিয়ে দেয়া একটি পোস্ট ইনস্টাগ্রাম ও টুইটার থেকে সরিয়ে দেয়া হয় বলে জানিয়েছিল রয়টার্স।

ফেসবুক এ পর্যন্ত গাজার শাসকদল হামাসকে নিজেদের প্ল্যাটফর্মে নিষিদ্ধ করেছে। ইসরায়েল, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নকে সন্ত্রাসী খেতাব দিয়ে করা পোস্টও মুছে দেয়া হয়েছে।

ফেসবুকের মুখপাত্র অ্যান্ডি স্টোন জানিয়েছেন, প্রতিষ্ঠানটির গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্সবিষয়ক প্রধান নিক ক্লেগসহ অন্যান্য নির্বাহী কর্মকর্তারা মঙ্গলবার ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শাতায়ের সঙ্গে কথা বলেছেন।

এর আগে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গানৎজের সঙ্গে অনলাইন প্ল্যাটফর্ম জুমে একটি বৈঠকও করেছেন তারা।

আরও পড়ুন:
ট্রাম্পকে ফেসবুকের শাস্তি ‘বিধিবহির্ভূত’
কিশোরদের টার্গেট করে ধূমপান, জুয়ার বিজ্ঞাপন দেয় ফেসবুক
শিশুদের ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে জাকারবার্গকে চিঠি
করোনা টিকা নিতে উদ্বুদ্ধ করবে ফেসবুক
দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট দেবে ফেসবুক

শেয়ার করুন

মন্তব্য

কারাগারে আত্মহত্যা অ্যান্টিভাইরাস স্রষ্টা ম্যাকাফির?

কারাগারে আত্মহত্যা অ্যান্টিভাইরাস স্রষ্টা ম্যাকাফির?

জনপ্রিয় অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার উদ্ভাবক জন ম্যাকাফির মরদেহ পাওয়া গেছে কারাগারে। ছবি: এএফপি

ম্যাকাফি আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন বলে মনে করছেন তাকে উদ্ধারের পর চেতনা ফেরানোর চেষ্টাকারী কারা কর্মকর্তারা।

স্পেনে কারাগারের কক্ষ থেকে বুধবার উদ্ধার করা হয়েছে অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার ম্যাকাফির উদ্ভাবক জন ম্যাকাফির মরদেহ।

ম্যাকাফি আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন বলে মনে করছেন তার চেতনা ফেরানোর চেষ্টাকারী কারা কর্মকর্তারা।

ডয়চে ভেলের প্রতিবেদনে জানানো হয়, করফাঁকির অভিযোগের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে ম্যাকাফিকে যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যর্পণের পক্ষে রায় দিয়েছিল স্পেনের একটি আদালত।

গত বছরের অক্টোবরে ইস্তাম্বুলগামী একটি ফ্লাইটে ওঠার আগে স্পেনের বার্সেলোনা বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার হন ম্যাকাফি। এর পর থেকে যুক্তরাজ্যে জন্ম নেয়া এ কম্পিউটার প্রোগ্রামার বন্দি ছিলেন স্পেনের কাতালোনিয়ার ব্রায়ানস-২ কারাগারে।

সেখান থেকে মরদেহ উদ্ধারের পর ম্যাকাফির আইনজীবী হাভিয়ের ভিয়ালবা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, এটি নিষ্ঠুর ব্যবস্থার ফল। ম্যাকাফিকে এত দীর্ঘসময় ধরে কারাগারে রাখার কোনো কারণই ছিল না।

এর আগে স্পেনের আদালত বুধবার জানিয়েছিল, প্রযুক্তিবিষয়ক উদ্যোক্তাকে যুক্তরাষ্ট্রের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা উচিত।

চলতি মাসের শুরুতে ভিডিওলিংকের মাধ্যমে শুনানিতে ম্যাকাফি বলেছিলেন, তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যর্পণ করা হলে তাকে বাকি জীবন কারাগারে কাটাতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রসিকিউটরদের অভিযোগ, ৭৫ বছর বয়সী ম্যাকাফি পরামর্শ, বক্তৃতা ও ক্রিপ্টোকারেন্সির মাধ্যমে লাখ লাখ ডলার আয় করলেও গত চার বছরে জমা দেননি আয়কর রিটার্ন।

করফাঁকির অভিযোগ প্রমাণ হলে ম্যাকাফিকে ৩০ বছর পর্যন্ত কারাভোগ করতে হতো।

আশির দশক থেকে অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যারের মাধ্যমে বিপুল অর্থ আয় করেন ম্যাকাফি। এরপর তিনি নিজেকে বিটকয়েন গুরু হিসেবে জাহির করেন।

আরও পড়ুন:
ট্রাম্পকে ফেসবুকের শাস্তি ‘বিধিবহির্ভূত’
কিশোরদের টার্গেট করে ধূমপান, জুয়ার বিজ্ঞাপন দেয় ফেসবুক
শিশুদের ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে জাকারবার্গকে চিঠি
করোনা টিকা নিতে উদ্বুদ্ধ করবে ফেসবুক
দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট দেবে ফেসবুক

শেয়ার করুন

টিকটক বন্ধে সরকারে আলোচনা

টিকটক বন্ধে সরকারে আলোচনা

ভারতে বাংলাদেশি তরুণীকে যৌন নির্যাতনের ভিডিও ফাঁসের পর আলোচনায় আসেন হৃদয় বাবু। তিনি ভারতে গ্রেপ্তার হয়েছেন।

সম্প্রতি ভারতে বাংলাদেশি তরুণীকে যৌন নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর টিকটক-এর ফাঁদের মাধ্যমে নারী পাচারের একটি সংঘবদ্ধ চক্রের খোঁজ পাওয়া যায়। বাংলাদেশ ও ভারতে এই চক্রের বহুজন গ্রেপ্তার হয়েছে, যার মধ্যে নারীও আছেন।

চীনা ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ টিকটক-এর ফাঁদে ফেলে নারী পাচারের ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর অ্যাপটি বন্ধে আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

বুধবার দুপুরে কারা অধিদপ্তরে কারাবন্দি পোষ্যদের বঙ্গবন্ধু বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে এই আয়োজন করা হয়।

মন্ত্রী বলেন, ‘তরুণ প্রজন্মকে বিপথগামী না করতে ভিডিও অ্যাপ টিকটক বন্ধে আলোচনা চলছে।’

উঠতি বয়সী তরুণ-তরুণীসহ সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

সম্প্রতি ভারতে বাংলাদেশি তরুণীকে যৌন নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর টিকটক-এর ফাঁদের মাধ্যমে নারী পাচারের একটি সংঘবদ্ধ চক্রের খোঁজ পাওয়া যায়। বাংলাদেশ ও ভারতে এই চক্রের বহুজন গ্রেপ্তার হয়েছে, যার মধ্যে নারীও আছেন।

কেবল ভারত নয়, মালয়েশিয়া ও দুবাইয়েও নারী পাচারের তথ্য মিলেছে।

এই পরিপ্রেক্ষিতে মানবাধিকার সংগঠন ‘ল অ্যান্ড লাইফ’ ফাউন্ডেশন গত ১৯ জুন টিকটক ছাড়াও বিগো লাইভ, পাবজি, ফ্রি ফায়ার গেম, লাইকি এবং এ ধরনের অ্যাপগুলো বন্ধে সরকারকে আইনি নোটিশ পাঠায়।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব, বিটিআরসির চেয়ারম্যান, শিক্ষা সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, আইন সচিব, স্বাস্থ্য সচিব এবং পুলিশ প্রধানকে ই-মেইলযোগে এ নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

নোটিশে বলা হয়, পাবজি এবং ফ্রি ফায়ারের মতো গেমে বাংলাদেশের যুবসমাজ এবং শিশু-কিশোররা ব্যাপকভাবে আসক্ত হয়ে পড়েছে। এর ফলে সামাজিক মূল্যবোধ, শিক্ষা, সংস্কৃতি বিনষ্ট হচ্ছে। এসব গেমস যুবসমাজকে সহিংসতার দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

টিকটক বন্ধে সরকারে আলোচনা
ভারতে বাংলাদেশি তরুণীকে নির্যাতনের ভিডিও ফাঁসের পর টিকটক ব্যবহার করে নারীদের ফাঁদে ফেলে পাচারের বিষয়টি সামনে আসে

অন্যদিকে টিকটক, লাইকি অ্যাপস ব্যবহার করে দেশের শিশু-কিশোর এবং যুবসমাজ বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হচ্ছে। অপরাধের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ছে এবং সারা দেশে কিশোর গ্যাং কালচার তৈরি হচ্ছে। টিকটক অনুসারীরা বিভিন্ন গোপনীয় জায়গায় ‘পুল পার্টির’ নামে অনৈতিক বিনোদন যৌন কার্যক্রমে লিপ্ত হচ্ছে।

এ ছাড়া সম্প্রতি নারী পাচারের ঘটনা এবং বাংলাদেশ থেকে দেশের বাইরে অর্থ পাচারের ঘটনায়ও টিকটক, লাইকি এবং বিগো লাইভের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। তা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক এবং দেশের ও জনস্বার্থের পরিপন্থি। এটি শৃঙ্খলা ও মূল্যবোধ পরিপন্থি।

এনআইডির দায়িত্ব স্বরাষ্ট্রে নেয়া যথার্থ

এ সময় এক প্রশ্নে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নির্বাচন কমিশনের কাছ থেকে জাতীয় পরিচয়পত্রের দায়িত্ব নিয়ে নেয়ার বিষয়েও কথা বলেন।

২০০৭ সালে সেনা-সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারে আমলে দুই বছরে ছবিসহ ভোটার তালিকা ও জাতীয় পরিচয়পত্র করা হয়। তখন থেকে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ই এই তথ্যভাণ্ডার এর দায়িত্বে ছিল।

তবে সম্প্রতি এনআইডির নিয়ন্ত্রণ স্বরাষ্ট্রে নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। আর প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা এখনও এতে সম্মতি দেননি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরির দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের কাছ থেকে নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে দেয়া যথার্থ হয়েছে। এ বিষয়ে যেসব কথা হচ্ছে তা একেবারেই অবান্তর।’

তিনি বলেন, ‘আমরা জেনে-বুঝেই সবার মতামত নিয়ে এনআইডি সেবাকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে দিয়েছি। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শও নেয়া হয়েছে এ বিষয়ে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে এলে জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে জটিলতা হবে না।’

অনুষ্ঠানে সারা দেশের ৫৯টি কারাগারে সর্বমোট ১০০০ জন কারাবন্দির সন্তানদের বঙ্গবন্ধু বৃত্তি দেয়া হয়।

দেশের সব কারাগারের কর্মীরা ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানে সংযুক্ত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান মামুন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজি মো. সেলিম, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা বিভাগের সচিব মোকাব্বির হোসেন।

আরও পড়ুন:
ট্রাম্পকে ফেসবুকের শাস্তি ‘বিধিবহির্ভূত’
কিশোরদের টার্গেট করে ধূমপান, জুয়ার বিজ্ঞাপন দেয় ফেসবুক
শিশুদের ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে জাকারবার্গকে চিঠি
করোনা টিকা নিতে উদ্বুদ্ধ করবে ফেসবুক
দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট দেবে ফেসবুক

শেয়ার করুন

মেয়েদের ফেসবুক আইডি হ্যাক যে কৌশলে

মেয়েদের ফেসবুক আইডি হ্যাক যে কৌশলে

মামুন ফিশিং লিংক তৈরি করে বিভিন্ন ব্যক্তির ফেসবুক মেসেঞ্জারে পাঠাতেন। এই লিংকে ক্লিক করলে ফেসবুক ইন্টারফেস আসে। তখন সেই লিংকে ঢুকতে ফেসবুক আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিলে মামুনের কাছে সেই একাউন্টের আইডি ও পাসওয়ার্ড চলে যায়।

ফিশিং লিংক ব্যবহার করে ফেইসবুক আইডি হ্যাক করে অপকর্মের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ।

তার নাম মামুন মিয়া। তার কাছ থেকে প্রতারণার কাজে ব্যবহার করা মোবাইল উদ্ধার করে সাইবার পুলিশ। পরে তাকে আদালতে তোলা হলে দুই দিনের রিমান্ডে পাঠান বিচারক।

গত সোমবার রাতে সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারা বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে ধরা হয়। আর দুই দিন পর বুধবার ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হয়।

ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার জানান, মামুন তথ্য প্রযুক্তি জ্ঞান সম্পর্কে পারদর্শী। তিনি স্থানীয়ভাবে প্রশিক্ষণ নেয়ার পাশাপাশি ইউটিউব ও গুগল ঘেটে ফেইসবুক আইডি হ্যাক করার ফিশিং প্রক্রিয়া রপ্ত করেন।

এরপর নিজেই ফিশিং লিংক তৈরি করে বিভিন্ন ব্যক্তির ফেসবুক মেসেঞ্জারে পাঠাতেন। এই লিংকে ক্লিক করলে ফেসবুক ইন্টারফেস আসে। তখন সেই লিংকে ঢুকতে ফেসবুক আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিলে মামুনের কাছে সেই একাউন্টের আইডি ও পাসওয়ার্ড চলে যায়।

পরে তিনি সেই আইডি পাসওয়ার্ড দিয়ে ফেসবুকে ঢুকে পাসওয়ার্ড পাল্টে ফেলতেন। পরে সেই আইডি থেকে স্বজন ও বন্ধুদের কাছ থেকে বিভিন্ন অজুহাতে টাকা চাইতেন।

ভুক্তভোগীরা সেই আইডিতে নক করলে তিনি পাসওয়ার্ড জানাতে মোটা অংকের টাকা দাবি করতেন বলে জানায় পুলিশ।

একাধিক প্রবাসীসহ অসংখ্য নারী মামুনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলেন পুলিশের কাছে।

পুলিশ কর্মকর্তা হাফিজ আক্তার বলেন, ‘মামুন কয়েকজন প্রবাসী নারীকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিলেন যে, তাকে ধরা সম্ভব না। সেই চ্যলেঞ্জ ধরে আমরা তাকে সুনামগঞ্জের হাওর এলাকায় খুঁজে পেয়েছি।’

সংবাদ সম্মেলনে ফেসবুক আইডি হ্যাক প্রতিরোধে পুলিশের কিছু পরামর্শও দিয়েছে। সেগুলো হলো:

১. যাচাই না করে কোন ধরনের URL লিংক ক্লিক করা থেকে বিরত থাকা;

২. কোন URL লিংকে ক্লিক করার পর কোন ফেসবুক পেজে বা অন্য কোথাও রিডাইরেক্ট হলে লগইনের জন্য ফেসবুক আইডি/ পাসওয়ার্ড প্রদান করা থেকে বিরত থাকা;

৩. ফেসবুক আইডিতে টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশনের সঙ্গে একটি ই-মেইল এড্রেস যোগ করে রাখা;

৪. Authorized logins অপশন চেক করা;

৫. ফেসবুক আইডি বা ম্যাসেঞ্জারে একান্ত ব্যাক্তিগত তথ্য ছবি আদান প্রদান, ভিডিও কথপোকথন থেকে বিরত থাকা;

৬. মোবাইলে আসা নোটিফিকেশনে Yes/No ক্লিক করার পূর্বে ভালোভাবে পড়ে নেয়া;

এবং

৭. ফেসবুকে তিন থেকে পাঁচ জন ট্রাস্টেড কনটাক্ট যোগ করা।

আরও পড়ুন:
ট্রাম্পকে ফেসবুকের শাস্তি ‘বিধিবহির্ভূত’
কিশোরদের টার্গেট করে ধূমপান, জুয়ার বিজ্ঞাপন দেয় ফেসবুক
শিশুদের ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে জাকারবার্গকে চিঠি
করোনা টিকা নিতে উদ্বুদ্ধ করবে ফেসবুক
দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট দেবে ফেসবুক

শেয়ার করুন

অনলাইন শপিংয়ের চার ফিচার আনল ফেসবুক

অনলাইন শপিংয়ের চার ফিচার আনল ফেসবুক

অনলাইন শপিংয়ের চার ফিচার আনল ফেসবুক । ছবিঃ সংগৃহীত

ফিচার চারটি হলো ইনস্টাগ্রাম ভিজ্যুয়াল সার্চ, মার্কেটপ্লেস শপ, হোয়াটসঅ্যাপ শপ ও অ্যাডভার্টাইজমেন্ট।

ই-কমার্স তথা অনলাইন শপিংয়ের গ্রাহককে আরও আকৃষ্ট করতে ও অনলাইনে বিক্রি বাড়াতে ফেইসবুক নতুন চারটি ফিচার আনার ঘোষণা দিয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বুধবার এক পোস্টে এ তথ্য জানান প্রতিষ্ঠানটির সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জাকারবার্গ।

এ ছাড়া ‘ফেসবুক ফর বিজনেস’ এ বিষয়টি নিয়ে একটি নিবন্ধও প্রকাশ করেছে ফেসবুক নিউজরুম।

ফিচার চারটি হলো ইনস্টাগ্রাম ভিজ্যুয়াল সার্চ, মার্কেটপ্লেস শপ, হোয়াটসঅ্যাপ শপ ও অ্যাডভার্টাইজমেন্ট।

জাকারবার্গ প্রত্যাশা করেন, অনলাইন শপিংয়ের ক্ষেত্রে যুগান্তকারী পরিবর্তন আনতে এই ফিচারগুলো কাজ করবে। এতে অনলাইনে ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়ে উপকৃত হবেন।

ইনস্টাগ্রাম ভিজ্যুয়াল সার্চ

ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারীরা ইনস্টাগ্রাম ভিজ্যুয়াল সার্চে তাদের চাহিদা অনুযায়ী পণ্যের নাম লিখে সার্চ করতে পারবেন। আমরা অনেকেই জানি, প্রায় সময়ই মার্ক জাকারবার্গ ধূসর রংয়ের টি-শার্ট ব্যবহার করেন। তাই এ বিষয়ে মার্ক জাকারবার্গ মজা করে বলেন যে, ‘আমি এখানে একটি ধূসর রঙের টি-শার্ট সার্চ দেব।’

অনলাইন শপিংয়ের চার ফিচার আনল ফেসবুক
ছবিঃ ফেসবুক ফর বিজনেস

মার্কেটপ্লেস শপ

বিশ্বব্যাপী প্রতি মাসে ১০০ কোটিরও বেশি মানুষ ফেসবুক মার্কেটপ্লেস ব্যবহার করেন। সে কারণে অনলাইন শপ থেকে ফেইসবুক মার্কেটপ্লেসে আসার উপায় সহজ করে তুলতে ফেসবুক শিগগিরই একটি নতুন ফিচার আনবে যার নাম মার্কেটপ্লেস শপ। জাকারবার্গ আশা করছেন, ফিচারটির মাধ্যমে ব্যবহারকারীর কাছে ফেইসবুক মার্কেটপ্লেস আরও সহজ হয়ে উঠবে।

হোয়াটসঅ্যাপ শপ

শিগগিরই হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীরা অ্যাপটিতে ছোটখাটো দোকানের মাধ্যমে পণ্য কেনা-বেচা করতে পারবেন। অনলাইন শপের মাধ্যমে পণ্য কেনার আগেই বিক্রেতার সঙ্গে ক্রেতা চ্যাট করার সুবিধা পাবেন এই ফিচারে। এটি সেট-আপ করতে হবে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম সমন্বয়ে।

অ্যাডভার্টাইজমেন্ট

জাকারবার্গ জানান, অনলাইন শপের বিজ্ঞাপন দেয়ার জন্য অ্যাডভার্টাইজমেন্ট ফিচার চালু করা হবে।

ফেসবুকে তিনি বলেন, অ্যাডভার্টাইজমেন্টের মাধ্যমে অনলাইন শপের পরিমাণ আরও বাড়বে।

আরও পড়ুন:
ট্রাম্পকে ফেসবুকের শাস্তি ‘বিধিবহির্ভূত’
কিশোরদের টার্গেট করে ধূমপান, জুয়ার বিজ্ঞাপন দেয় ফেসবুক
শিশুদের ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে জাকারবার্গকে চিঠি
করোনা টিকা নিতে উদ্বুদ্ধ করবে ফেসবুক
দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট দেবে ফেসবুক

শেয়ার করুন

বিটকয়েনের দাম ৫ মাসে সর্বনিম্ন

বিটকয়েনের দাম ৫ মাসে সর্বনিম্ন

বিটকয়েনের দাম আরও কমে প্রতিটি ৩০ হাজার ডলারের নিচে নেমেছে। ফাইল ছবি

ব্যাপক জনপ্রিয় মুদ্রাটি গত এপ্রিলে সর্বোচ্চ ৬৪ হাজার ৮৭০ ডলারে পৌঁছানোর পর এবার দাম কমে দাঁড়িয়েছে ২৮ হাজার ৮৯০ ডলার।

কিপ্টোকারেন্সি বিটকয়েনের দামে আরও পতন দেখা গেছে। ভার্চুয়াল মুদ্রাটির দাম গত পাঁচ মাসের বেশি সময়ের পর সর্বনিম্ন হয়েছে। মুদ্রাটির বিষয়ে চীন কঠোর অবস্থানের ঘোষণা দেয়ার পর এবার প্রতি বিটকয়েনের দাম কমে ৩০ হাজার ডলারের নিচে নেমেছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ব্যাপক জনপ্রিয় মুদ্রাটি গত এপ্রিলে সর্বোচ্চ ৬৪ হাজার ৮৭০ ডলারে পৌঁছানোর পর এবার দাম কমে দাঁড়িয়েছে ২৮ হাজার ৮৯০ ডলার।

যা এই দুই মাসের ব্যবধানে দাম ৫০ শতাংশ কমে গেছে।

চীনের ব্যাংক ও পেমেন্ট প্লাটফর্মগুলো বলছে তারা আর ডিজিটাল মুদ্রাটির লেনদেন সাপোর্ট করবে না।

চীনের সিচুয়ান প্রদেশে শুক্রবার বিটকয়েন মাইনিং বন্ধে যে আদেশ দেয়া হয়, সেটি অনুসরণ করেই এমন ব্যবস্থ নিয়েছে।

সোমবার চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানিয়েছে, তারা সম্প্রতি বেশ কয়েকটি বড় ব্যাংক ও অর্থপ্রদানকারী সংস্থাগুলোকে ক্রিপ্টোকারেন্সির ব্যবসাযর বিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

পিপলস ব্যাংক অফ চায়না এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ব্যাংকগুলোকে ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেনের জন্য বাণিজ্য, ক্লিয়ারিং ও নিষ্পত্তির মতো পণ্য বা পরিষেবা না দেয়ার জন্য বলা হয়েছিল।

চীনের তৃতীয় বৃহত্তম এগ্রিকালচার ব্যাংক অফ চাইনা বলেছে, তারা পিবিওসির নির্দেশনা মেনে কাজ করবে। এমনকি অবৈধ ক্রিপ্টোকারেন্সি মাইনিংয়ের মতো কাজে যারা জড়িত থাকবে তাদের বিষয়ে গ্রাহকদের সতর্ক করতেও কাজ করবে।

চীনের পোস্টাল সেভিংস ব্যাংকও জানিয়েছে, তারা ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন আর করবে না।

চীনের শীর্ষস্থানীয় মোবাইল ও অনলাইন পেমেন্ট প্লাটফর্ম আলি পে’র মূর প্রতিষ্ঠান চীনের আর্থিক প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যান্ট গ্রুপ বলেছে, তারার অবৈধ ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেনের বিষয়টি নজরদারি করবে।

চীনের দক্ষিণপূর্বাঞ্চলের সিচুয়ান প্রদেশ কর্তৃপক্ষ শুক্রবার বিটকয়েন মাইনিং বন্ধ ঘোষণা করলে এমন ব্যবস্থা নিতে শুরু করে সংশ্লিষ্টরা।

ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের মতে, বিশ্বের মোট বিটকয়েনের ৬৫ শতাংশই গত বছর উৎপাদন করে চীন। যার বেশিরভাগই কার হয় সিচুয়ান প্রদেশ থেকে।

প্রযুক্তিক্ষেত্রে চীনের যে কয়েকটি অঞ্চল সবচেয়ে অগ্রসর তার মধ্যে সিচুয়ান প্রদেশ অন্যতম।

বিটকয়েনের দাম কমলেও গত কয়েক মাসে বেড়েছে ডজকয়েনের দাম। বিশেষ করে টেসলা প্রতিষ্ঠাতা ইলোন মাস্কের একটি টুইটের পর থেকে জনপ্রিয় হতে থাকে মুদ্রাটি।

মাস্ক তার মহাকাশ প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্সের চাঁদে অভিযান পরিচালনার ব্যয় ডজকয়েনে করবেন ঘোষণা দিলে মুদ্রাটির দাম বাড়ে।

আরও পড়ুন:
ট্রাম্পকে ফেসবুকের শাস্তি ‘বিধিবহির্ভূত’
কিশোরদের টার্গেট করে ধূমপান, জুয়ার বিজ্ঞাপন দেয় ফেসবুক
শিশুদের ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে জাকারবার্গকে চিঠি
করোনা টিকা নিতে উদ্বুদ্ধ করবে ফেসবুক
দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট দেবে ফেসবুক

শেয়ার করুন

পোষাপ্রাণির অভাব মেটাবে তামাগোচি হাতঘড়ি

পোষাপ্রাণির অভাব মেটাবে তামাগোচি হাতঘড়ি

তামাগোচি স্মার্ট হাতে জাপানি গানের দল নিজিউর সদস্যরা। ছবি: সংগৃহীত

তামাগোচি ডিভাইসটিতে পোষাপ্রাণিকে আদর করা, খাওয়ানো ও লালনপালনের অনুভূতি পান ব্যবহারকারীরা। এটিকে অনেকে ‘ডিজিটাল পেট’ নামেও অভিহিত করেন।

পোষাপ্রাণির বিকল্প হিসেবে নব্বইয়ের দশক থেকে তামাগোচি নামে একটি ডিভাইস ব্যবহার করছেন জাপানের অনেক মানুষ। এটি তৈরি করেছে ভিডিও গেম নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বানদাই।

এবার সেই তামাগোচিকে হাতঘড়ির আকারে বাজারে আনার ঘোষণা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। নতুন এই ভার্সনটির নাম দেয়া হয়েছে তামাগোচি স্মার্ট।

সোমবার সংবাদমাধ্যম ভাইসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

তামাগোচি ডিভাইসটিতে পোষাপ্রাণিকে আদর করা, খাওয়ানো ও লালনপালনের অনুভূতি পান ব্যবহারকারীরা। এটিকে অনেকে ‘ডিজিটাল পেট’ নামেও অভিহিত করেন।

১৯৯৬ সালের নভেম্বরে প্রথমবারের মতো বাজারে আসে তামাগোচি। ডিভাইসটির প্রধান ক্রেতা ছিল জাপানের স্কুলগামী মেয়েরা। শিগগিরই এটি জাপানের বাইরেও বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।

বানদাইয়ের হিসাব অনুযায়ী, ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত প্রায় ৮৩ মিলিয়ন তামাগোচি ডিভাইস বিক্রি করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

এবছর তামাগোচির রজতজয়ন্তীতে ডিভাইসটির প্রচারে যুক্ত হয়েছে জনপ্রিয় জাপানি ব্যান্ড নিজিউ।

তামাগোচির আগের ভার্সনটিতে কিছু সীমাবদ্ধতা ছিল। ব্যবহারকারীর কাছে ঠিকমতো আদরযত্ন না পেলে বন্ধ হয়ে যেত ডিভাইসটি। নতুন ভার্সনে এই সমস্যা কাটিয়ে ওঠা হয়েছে।

তামাগোচি স্মার্ট উল্টো ব্যবহারকারীর মন খারাপের সময় পাশে থাকার চেষ্টা করবে। হাতঘড়ির আকারে হওয়ায় এটি যেকোনো জায়গায় সঙ্গে নিতে পারবেন ব্যবহারকারী। এছাড়া মোবাইল অ্যাপেও তামাগোচি ইন্সটল করে নিজের ডিজিটাল প্রাণিকে সঙ্গে রাখতে পারবেন।

২৩ নভেম্বর বাজারে আসতে যাওয়া তামাগোচি স্মার্টে দশটি ডিজিটাল পোষাপ্রাণির সঙ্গ পাওয়ার সুবিধা থাকবে। প্রতিটি ডিভাইসের দাম পড়বে ৫৭ দশমিক ৬৪ ডলার।

বানদাই জানিয়েছে, ডিভাইসটি শুরুতে জাপানের বাজারে পাওয়া গেলেও আন্তর্জাতিক বাজারে আসতে আরও সময় লাগতে পারে।

শিশুদের খেলনা হিসেবে নব্বইয়ের দশক থেকেই ডিজিটাল পেট জনপ্রিয় হয়ে উঠতে থাকে। প্রথমবারের মতো ম্যাজিকস ডগস নামে ডিজিটাল পেট আনে ভিডিও গেম নির্মাতা প্রতিষ্ঠান পিএফ। এরপরে তামাগোচি ও নাইনটেনডগস নামে আরও কয়েকটি ডিজিটাল পেট বাজারে আসে।

আরও পড়ুন:
ট্রাম্পকে ফেসবুকের শাস্তি ‘বিধিবহির্ভূত’
কিশোরদের টার্গেট করে ধূমপান, জুয়ার বিজ্ঞাপন দেয় ফেসবুক
শিশুদের ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে জাকারবার্গকে চিঠি
করোনা টিকা নিতে উদ্বুদ্ধ করবে ফেসবুক
দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট দেবে ফেসবুক

শেয়ার করুন

দেশের সবচেয়ে বড় ছাদ সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র চালু

দেশের সবচেয়ে বড় ছাদ সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র চালু

দেশের বৃহত্তম এই সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্রটি সংযুক্ত থাকবে জাতীয় গ্রিডের সঙ্গে। নেট মিটারিং পদ্ধতির মাধ্যমে এই কেন্দ্র থেকে গ্রিডে চলে যাবে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ।

চট্টগ্রামে দেশের সবচেয়ে বড় ছাদ সৌরবিদ্যুৎ (রুফটপ সোলার পাওয়ার) প্রকল্পের প্রথম কেন্দ্রটি চালু হয়েছে, যার উৎপাদনক্ষমতা ১৬ মেগাওয়াট।

দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক বহুজাতিক কোম্পানি ইয়াংওয়ান করপোরেশনের অর্থায়নে জেলার আনোয়ারায় কেইপিজেডে রোববার এই কেন্দ্রটি চালু হয়েছে।

সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানিয়েছে ইয়াংওয়ান করপোরেশন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের (প্রায় ৩৪০ কোটি টাকা) এই পরিবেশবান্ধব জ্বালানি প্রকল্পে উৎপাদিত হবে ৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, দেশের বৃহত্তম এই সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্রটি সংযুক্ত থাকবে জাতীয় গ্রিডের সঙ্গে। নেট মিটারিং পদ্ধতির মাধ্যমে এই কেন্দ্র থেকে গ্রিডে চলে যাবে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ।

তিন ধাপে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পটির প্রথম ধাপে স্থাপিত ১৬ মেগাওয়াটের একটি বিদ্যুৎকেন্দ্র রোববার চালু হয়েছে।

সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্রটির উদ্বোধন করেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং গুন এবং ইয়াংওয়ান করপোরেশনের চেয়ারম্যান কিহাক সাঙ।

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) চট্টগ্রাম দক্ষিণাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী দেওয়ান সামিনা বানু বলেন, দেশে এটিই প্রথম রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল বা ইপিজেড, যেখানে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যবস্থা চালু হয়েছে। প্রথম ধাপে এই কেন্দ্র চালু হয়েছে। আরও দুটি কেন্দ্র চালুর পর এই সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হলে আশপাশের এলাকায় অন্তত ১২ হাজার নতুন সংযোগ দেয়া সম্ভব হবে।

ইয়াংওয়ান করপোরেশনের চেয়ারম্যান কিহাক সাঙ জানান, ১৬ মেগাওয়াটের প্রথম সৌর ফটোভোলটাইক (পিভি) বিদ্যুৎকেন্দ্রটি স্থাপনে খরচ হয়েছে ১৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এটির কাজ শেষ করতে সময় লেগেছে আট মাস। দ্বিতীয় ধাপে স্থাপিত হবে ৪ দশমিক ৩ মেগাওয়াটের সৌর প্যানেল।

তিনি আরও জানান, আগামী অক্টোবরে এই প্যানেল স্থাপনের কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। এরপর তৃতীয় ধাপে ২০ মেগাওয়াটের অপর একটি কেন্দ্র স্থাপিত হবে ইনডিপেন্ডেন্ট পাওয়ার প্ল্যান্ট (আইপিপি) হিসেবে। সৌরশক্তির সব প্যানেলই কোরিয়া থেকে আমদানি করা।

১৯৯৬ সালে দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক ইয়াংওয়ান করপোরেশন চট্টগ্রামে বেসরকারি রপ্তানি প্রক্রিয়াজাতকরণ অঞ্চল স্থাপন করে, যা কেইপিজেড নামে পরিচিত। ২০১১ সালের ২ অক্টোবর প্রথম কারখানা হিসেবে কর্ণফুলী শুজ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড কোরিয়ান ইপিজেডে উৎপাদন শুরু করে। সেখানে বর্তমানে ৩৪টি বিশ্বমানের কারখানায় ফুটওয়্যার, পোশাকশিল্প এবং টেক্সটাইল পণ্য উৎপাদিত হচ্ছে।

আরও পড়ুন:
ট্রাম্পকে ফেসবুকের শাস্তি ‘বিধিবহির্ভূত’
কিশোরদের টার্গেট করে ধূমপান, জুয়ার বিজ্ঞাপন দেয় ফেসবুক
শিশুদের ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার নিয়ন্ত্রণে জাকারবার্গকে চিঠি
করোনা টিকা নিতে উদ্বুদ্ধ করবে ফেসবুক
দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় দ্রুতগতির ইন্টারনেট দেবে ফেসবুক

শেয়ার করুন