× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

খেলা
Simon is the referee of Argentina Australia match
hear-news
player
google_news print-icon

আর্জেন্টিনা-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে পোলিশ রেফারি

আর্জেন্টিনা-অস্ট্রেলিয়া-ম্যাচে-পোলিশ-রেফারি
পোল্যান্ডের রেফারি সাইমন মারসিনিয়াক। ফাইল ছবি/এএফপি
যে পোল্যান্ডকে হারিয়ে নকআউট নিশ্চিত করে আর্জেন্টিনা। সে দেশের রেফারি সাইমন মারসিনিয়াক পরিচালনা করবেন এই ম্যাচ। এই রেফারির পরিচালনায় আগেও ম্যাচ খেলেছিল দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের খেলা শেষ হওয়ার পরের দিনই শুরু হচ্ছে নকআউট পর্বের ম্যাচ। নকআউট পর্বের প্রথম দিনেই আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হচ্ছে আস্ট্রেলিয়া।

যে পোল্যান্ডকে হারিয়ে নকআউট নিশ্চিত করে আর্জেন্টিনা। সে দেশের রেফারি সাইমন মারসিনিয়াক পরিচালনা করবেন এই ম্যাচ। এই রেফারির পরিচালনায় আগেও ম্যাচ খেলেছিল দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

২০১৮ সালের বিশ্বকাপে মারসিনিয়াক দায়িত্ব পালন করেন আর্জেন্টিনা-আইসল্যান্ডের ম্যাচে। ওই ম্যাচে আলবিসেলেস্তেদের পক্ষে একটি পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন তিনি। সে পেনাল্টি থেকে গোল করতে পারেননি লিওনেল মেসি।

২০১৪ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে রেফারি হিসেবে ইউয়েফায় ক্যারিয়ার শুরু করেন মারসিনিয়াক। এ ছাড়া দীর্ঘদিন ধরে পোল্যান্ডের পেশাদার ফুটবল রেফারি হিসেবে বিভিন্ন ম্যাচ পরিচালনা করে আসছেন তিনি।

আরও পড়ুন:
হাজারতম ম্যাচে লিওনেল মেসি
আত্মবিশ্বাস নিয়ে মুখোমুখি আর্জেন্টিনা-অস্ট্রেলিয়া
অপরাজিত থাকল না ব্রাজিল, নকআউটে সঙ্গী সুইজারল্যান্ড
নকআউটে কে কার প্রতিপক্ষ
উরুগুয়েকে কাঁদিয়ে শেষ ষোলোতে কোরিয়া

মন্তব্য

আরও পড়ুন

খেলা
Bangladesh girls beat Nepal

নেপালকে হারাল বাংলাদেশের মেয়েরা

নেপালকে হারাল বাংলাদেশের মেয়েরা
শুরুটা ছিল ঝড়ের গতিতে। মাত্র ১৩ মিনিটের মধ্যেই ২ গোল করে ফেলে মেয়েরা। আকলিমা খাতুন দলকে এগিয়ে নেয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন অধিনায়ক শামসুন্নাহার (জুনিয়র)।

সাফ অনূর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়নশিপে নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে শুভসূচনা করেছে বাংলাদেশের মেয়েরা।

কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে শুক্রবারের এই জয়ের মধ্যদিয়ে পরের ম্যাচে ভারতের বিরুদ্ধে লড়তে আত্মবিশ্বাসও সঞ্চয় করে নিল বাংলাদেশ।

শুরুটা ছিল ঝড়ের গতিতে। মাত্র ১৩ মিনিটের মধ্যেই ২ গোল করে ফেলে মেয়েরা। আকলিমা খাতুন দলকে এগিয়ে নেয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন অধিনায়ক শামসুন্নাহার (জুনিয়র)।

তবে তৃতীয় গোল পেতে ৯০ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে বাংলাদেশকে। দলের জয় নিশ্চিত করেন শাহেদা আক্তার রিপা।

এর মাঝে নেপাল একটি গোল শোধ করে। শেষ পর্যন্ত ৩-১ ব্যবধানে জয় নিয়ে ঘরের মাঠে দারুণ শুরুটা করে বাংলাদেশেশের মেয়েরা।

আরও পড়ুন:
সাফজয়ী নারী ফুটবল দলকে সোনালী ব্যাংকের সংবর্ধনা

মন্তব্য

খেলা
Bashundharas victory over Mohammedans Tulkalam

মোহামেডানের এ কেমন আচরণ!

মোহামেডানের এ কেমন আচরণ! কুমিল্লা শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে শুক্রবার বিপিএল ফুটবলের খেলা শেষে রেফারি ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার লোকজনের ওপর চড়াও হন মোহামেডানের খেলোয়াড় ও স্টাফরা। ছবি: নিউজবাংলা
অতিরিক্ত সময়ের শেষ মিনিটে গোল পেয়ে মোহামেডানের বিরুদ্ধে জয় তুলে নিয়েছে লাল জার্সিধারীরা। তবে শেষ মুহূর্তের এই গোল নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে মোহামেডানের খেলোয়াড় ও স্টাফরা রেফারি ও কুমিল্লা জেলা ক্রীড়া সংস্থার লোকজনের ওপর চড়াও হয়।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) ফুটবলের শুক্রবার খেলায় জয় পেয়েছে বসুন্ধরা কিংস। কুমিল্লা শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে নির্ধারিত সময়ে কোনো গোল হয়নি। খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। এই ৫ মিনিট সময়কালের ঠিক শেষ মিনিটে গোল পেয়ে মোহামেডানের বিরুদ্ধে জয় তুলে নিয়েছে লাল জার্সিধারীরা।

তবে শেষ মুহূর্তের এই গোল নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে মোহামেডানের খেলোয়াড় ও স্টাফরা রেফারি ও কুমিল্লা জেলা ক্রীড়া সংস্থার লোকজনের ওপর চড়াও হয়। তারা জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আহসান ফারুক রোমেন, জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক বাদল খন্দকার, নগরীর ১১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাবিবুর আল আমিন সাদি ও ফুটবল এসোসিয়েশনের সদস্য দেলোয়ার হোসেন জাকির ও জাহানকে লাঞ্ছিত করে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

তারা রেফারির ভূমিকাকে পক্ষপাতমূলক বলে অভিযোগ করেন। যদিও এ বিষয়ে মোহামেডানের কোচ ও খেলোয়াড়দের আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

কুমিল্লা কোতয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ত্রিনাথ সাহা তন্ময় বলেন, ‘মাঠে গন্ডগোল হচ্ছে এমন খবরে অতিরিক্ত পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। পুলিশ পাহারায় দুই দলের খেলোয়াড় ও অফিসিয়ালসহ সবাইকে বের করে আনি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এখন পর্যন্ত কেউ কোনো বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করেনি।

কুমিল্লা স্টেডিয়ামে খেলা দেখতে আসা অন্তত দশজন দর্শক বলেন, নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা শেষ হয়। রেফারি অতিরিক্ত ৫ মিনিট দেন। ৪ মিনিট পর বসুন্ধরার আক্রমণ ভাগের একটি হেডে মোহামেডানের জালে জড়ায় বল। গোল পেয়ে উচ্ছ্বাসে মেতে উঠে বসুন্ধরা।

অন্যদিকে এই গোল নিয়ে রেফারির সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়ান মোহামেডানের খেলোয়াড়রা। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে বাকি সময়ের খেলা হয়।

শেষ বাঁশি বাজার সঙ্গে সঙ্গে মোহামেডানের একজন স্টাফ মাঠে প্রবেশ করে বোতল ছুড়ে মারেন রেফারির দিকে। তিনি রেফারিকে ধাক্কা মারেন। এ সময় কুমিল্লা জেলা ক্রীড়া সংস্থার লোকজন এগিয়ে গেলে মোহামেডানের খেলোয়াড় ও ক্রীড়া সংস্থার লোকজনের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আহসান ফারুক রোমেন বলেন, ‘মোহামেডানের একজন স্টাফ রেফারির ওপর চড়াও হয়। তাকে কিল-ঘুষি মারে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে এগিয়ে গেলে তারা আমাদের ওপরও চড়াও হয়। বিষয়টি আমরা বাফুফেকে জানিয়েছি।’

মন্তব্য

খেলা
The excitement of Bangladeshis about Argentina has touched Messi

আর্জেন্টিনা নিয়ে বাংলাদেশিদের উচ্ছ্বাস ছুঁয়েছে মেসিকে

আর্জেন্টিনা নিয়ে বাংলাদেশিদের উচ্ছ্বাস ছুঁয়েছে মেসিকে কাতার বিশ্বকাপে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বড় পর্দায় আর্জেন্টিনার একটি ম্যাচ দেখতে আসা ‍দর্শকদের একাংশ। ছবি: নিউজবাংলা
সাক্ষাৎকারগ্রহীতা আর্জেন্টিনার মানুষের উদযাপনের সূত্র ধরে মেসিকে মনে করিয়ে দেন বাংলাদেশের কথা। জবাবে আর্জেন্টিনা দলের প্রাণভোমরা বলেন, ‘হ্যাঁ, হ্যাঁ, দেখেছি আমি। সব জায়গায় মানুষ টি-শার্ট পরে ঘুরছিল। ফাইনালের আগে সোফি (আর্জেন্টাইন সাংবাদিক সোফি মার্তিনেস) বলেছিল।’

বিশ্বকাপের সময় আর্জেন্টিনাকে নিয়ে বাংলাদেশি দর্শকদের উচ্ছ্বাস-উন্মাদনা নতুন বিষয় নয়। গত বছরের নভেম্বর-ডিসেম্বরে কাতারে অনুষ্ঠিত ফুটবল বিশ্বকাপজুড়ে তেমনটি দেখা গেছে।

পুরো আসরে বাড়িতে পতাকা টানিয়ে, জার্সি গায়ে পরে, হৈ-হুল্লোড় করে জয় উদযাপনের মধ্য দিয়ে আর্জেন্টিনায় বুঁদ ছিলেন বাংলাদেশি দর্শকরা। তাদের এ মাতামাতির ছবি, ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে নেট দুনিয়ায়, যা নজর এড়ায়নি লাতিন আমেরিকার বিশ্বকাপজয়ী দলের অধিনায়ক লিওনেল মেসির।

আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম ওলেতে প্রকাশিত সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশিদের উন্মাদনার ছবি, ভিডিও দেখার কথা জানিয়েছেন তিনি।
সাক্ষাৎকারে মেসির কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল, বিশ্বকাপ জয় নিয়ে তার উচ্ছ্বাসটা আগের মতো আছে কি না, যার জবাবে তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ। কারণ এটি (বিশ্বকাপ জয়) অনন্য। সেটি করতে পারা, তার ওপর শেষটা যেভাবে হয়েছে…এরপর মানুষের আনন্দ দেখতে পাওয়া।

‘আর্জেন্টিনার মানুষ ওই একটা মাস অনেক উপভোগ করেছে। যত যন্ত্রণার মধ্য দিয়ে যেতে হয় তাদের, সেগুলো থেকে এক মাসের জন্য তাদের বের করে আনতে পেরেছি। ওই এক মাস তারা শুধু ফুটবল আর বিশ্বকাপেই বুঁদ ছিলেন।’

এরপরই সাক্ষাৎকারগ্রহীতা বাংলাদেশের প্রসঙ্গ আনেন। আর্জেন্টিনার মানুষের উদযাপনের সূত্র ধরে তিনি মেসিকে মনে করিয়ে দেন বাংলাদেশের কথা।

জবাবে আর্জেন্টিনা দলের প্রাণভোমরা বলেন, “হ্যাঁ, হ্যাঁ, দেখেছি আমি। সব জায়গায় মানুষ টি-শার্ট পরে ঘুরছিল। ফাইনালের আগে সোফি (আর্জেন্টাইন সাংবাদিক সোফি মার্তিনেস) বলেছিল। ‘মেসি’ লেখা, আর্জেন্টিনার ১০ নম্বর আঁকা জার্সি পরে মানুষকে আনন্দ করতে দেখে খুব ভালো লেগেছে। সব জায়গাতেই এমন হয়েছে।”

আরও পড়ুন:
মাঠে ফিরেই গোল মেসির
বিশ্বকাপের পর মাঠে নামছেন মেসি
মাঠে ফিরছেন আগুয়েরো
বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনা মাঠে নামছে মার্চে
মেসি ‘চ্যাম্পিয়ন অফ চ্যাম্পিয়নস’

মন্তব্য

খেলা
Mbappe out for three weeks

তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে এমবাপ্পে

তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে এমবাপ্পে চোট কারণে তিন সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে এমবাপ্পে। ছবি: এএফপি
পিএসজি জানিয়েছে, এমবাপ্পের বাঁ উরুতে চোটটা একেবারে হালকা নয়। তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাকে।

মপঁলিয়ের মাঠে পরশুর ম্যাচটা পিএসজি আর কিলিয়ান এমবাপ্পের জন্য স্রেফ দুঃস্বপ্নের মতো কেটেছে! ৭ মিনিটে দুই দফায় পেনাল্টিতে শট নিয়েও গোল করতে পারেননি তিনি, তা থেকে আবার ফিরতি শটও ফাঁকা পোস্টে ঢোকাতে পারেননি। এরপর ২১ মিনিটে উরুর চোটে মাঠ ছাড়তে হল।

পিএসজি জানিয়েছে, এমবাপ্পের বাঁ উরুতে চোটটা একেবারে হালকা নয়। তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাকে। ম্যাচে মাথায় চোট নিয়ে মাঠ ছেড়েছেন সের্হিও রামোসও, তবে তার চোটে আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষা হবে বলে জানিয়েছে পিএসজি।

এমবাপ্পের চোট পিএসজির জন্য বড় ধাক্কাই কারণ বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগের ম্যাচটিতে পিএসজি নামবে ১৪ ফেব্রুয়ারি।

আরও পড়ুন:
অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জয়, নাদালকে ধরে ফেললেন জকোভিচ
নভোএয়ার ৩৮তম জাতীয় জুডো প্রতিযোগিতা শুরু
পুতিনপন্থিদের সঙ্গে ছবি, জকোভিচের বাবাকে মাঠে ঢুকতে বাধা
যে কারণে ফুটবল মাঠে সাদা কার্ড
নাসিমের বোলিং তাণ্ডব, ঢাকার ষষ্ঠ হার

মন্তব্য

খেলা
Messi wanted to take the World Cup from Maradonas hands
বিশ্বকাপের পর প্রথম সাক্ষাৎকারে মেসি

‘বিশ্বকাপটা ম্যারাডোনার হাত থেকে নিতে চেয়েছিলাম’

‘বিশ্বকাপটা ম্যারাডোনার হাত থেকে নিতে চেয়েছিলাম’ বিশ্বকাপ ট্রফিতে চুমু খাচ্ছেন লিওনেল মেসি। ছবি: সংগৃহীত
সাক্ষাৎকারে দিয়েগো ম্যারাডোনার কথা স্মরণ করে আর্জেন্টাইন ফুটবল সুপারস্টার বলেন, ‘দিয়েগো সেদিন থাকলে আমার হাতে কাপটা তিনিই দিতেন, ওই ছবিটা কী দারুণই না হতো! ’

লিওনেল মেসির নেতৃত্বে গত মাসেই কাতারে ফুটবল বিশ্বকাপ জিতেছে আর্জেন্টিনা দল। ফাইনালে টাইব্রেকারে ফ্রান্সকে হারিয়ে কাতার বিশ্বকাপে মেসির ক্যারিয়ার পূর্ণতা পাওয়ার সেই স্মৃতি এখনও তরতাজা।

বিশ্বকাপ জেতার পর দেয়া প্রথম সাক্ষাৎকারে মেসি জানালেন, দিয়েগো ম্যারাডোনার হাত থেকে বিশ্বকাপটা নেয়ার ইচ্ছা ছিল তার।

আর্জেন্টাইন রেডিও ‘উরবানা প্লেই’-তে দেয়া সাক্ষাৎকারে সবকিছুর জন্য সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ দিয়েছেন মেসি।

সাক্ষাৎকারে ম্যারাডোনার কথা স্মরণ করে আর্জেন্টাইন ফুটবল সুপারস্টার বলেন, ‘দিয়েগো সেদিন থাকলে আমার হাতে কাপটা তিনিই দিতেন, ওই ছবিটা কী দারুণই না হতো! ’

ফাইনালের আগের রাতের কথা স্মরণ করে মেসি বলেন, ‘ঘুমটা ভালো হয়েছিল, তেমন দুশ্চিন্তা ছিল না। এটাই বারবার মনে হচ্ছিল যে বিশ্বকাপ জেতার জন্য যতটা সম্ভব সব চেষ্টাই করছি।’

টাইব্রেকারের শেষ গোলটির বিষয়ে জানতে চাইতে আর্জেন্টিনা দলের অধিনায়ক বলেন, ‘ঈশ্বরকে ডাকছিলাম। ক্যারিয়ারজুড়েই তো তিনি আমার পাশে ছিলেন! আর প্রার্থনা করছিলাম মন্তিয়েল যাতে শেষটা করে আসতে পারে, যাতে আর ভুগতে না হয়।’

আরও পড়ুন:
বিশ্বকাপের পর মাঠে নামছেন মেসি
মাঠে ফিরছেন আগুয়েরো
বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনা মাঠে নামছে মার্চে
মেসি ‘চ্যাম্পিয়ন অফ চ্যাম্পিয়নস’
অনুশীলনে ফিরে গার্ড অফ অনার পেলেন মেসি

মন্তব্য

খেলা
Bangladeshi in Qatar in 10 years The High Court wants to know the number of workers killed

কাতার বিশ্বকাপ: বাংলাদেশি শ্রমিক নিহতের সংখ্যা জানতে চায় হাইকোর্ট

কাতার বিশ্বকাপ: বাংলাদেশি 
শ্রমিক নিহতের সংখ্যা জানতে চায় হাইকোর্ট কাতারে বিশ্বকাপ ফুটবলের ম্যাচগুলো হয়েছে এসব স্টেডিয়ামে, যেগুলো নির্মাণ করতে গিয়ে বিদেশি অনেক শ্রমিক নিহত হওয়ার খবর রয়েছে। ছবি কোলাজ: নিউজবাংলা
রিটকারী মাসুদ রেজা সোবহান নিউজবাংলাকে বলেন, ‘কাতারে ফুটবল বিশ্বকাপ উপলক্ষে স্টেডিয়ামসহ বড় বড় স্থাপনা নির্মাণের সময় বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের শ্রমিকের মৃত্যু নিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। ওই সংবাদ যুক্ত করে রিট দায়ের করি। আদালত শুনানি নিয়ে রুলসহ আদেশ দিয়েছেন।’

ফুটবল বিশ্বকাপ উপলক্ষে স্টেডিয়ামসহ বড় স্থাপনা নির্মাণে ১০ বছরে কাতারে কতজন বাংলাদেশি শ্রমিক নিহত হয়েছেন তার তালিকা দাখিলের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে এই সময়ে কতজন বাংলাদেশি শ্রমিক কাতারে নির্মাণ কাজে যুক্ত হয়েছেন এবং কতজন নিহত হয়েছেন তার তালিকা দাখিলে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না তা জানাতে রুল জারি করা হয়েছে।

পররাষ্ট্র সচিব, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব, কাতারে বাংলাদেশ দূতাবাস, সুইজারল্যাণ্ডের জেনেভায় বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন প্রধানকে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

জনস্বার্থে দায়ের করা রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সোমবার বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেয়।

রিটকারী আইনজীবী মাসুদ রেজা সোবহান নিজেই আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মো. আবুল কালাম খান (দাউদ)।

মাসুদ রেজা সোবহান নিউজবাংলাকে বলেন, ‘কাতারে ফুটবল বিশ্বকাপ উপলক্ষে স্টেডিয়ামসহ বড় বড় স্থাপনা নির্মাণের সময় বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের শ্রমিকের মৃত্যু নিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। ওই সংবাদ যুক্ত করে রিট দায়ের করি। আদালত শুনানি নিয়ে রুলসহ আদেশ দিয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘২০১০ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত কাতারে ১১টি স্টেডিয়াম, রাস্তা, হোটেল ও অন্যান্য অবকাঠামোর নির্মাণ কাজ করতে গিয়ে নির্মাণে যুক্ত অভিবাসী বাংলাদেশি নির্মাণ শ্রমিকের তালিকা তৈরি করতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না তা জানতে চেয়েছেন আদালত।

‘একইসঙ্গে কাতারে ফুটবল বিশ্বকাপ কেন্দ্রিক নির্মাণ কাজ করতে গিয়ে আনুমানিক সাড়ে চারশ’ অভিবাসী নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যুর যে অভিযোগ উঠেছে, তা সত্যি হলে এর মধ্যে বাংলাদেশের কতজন নির্মাণ শ্রমিক রয়েছেন, সে তথ্য সংগ্রহ করতে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না তা-ও জানতে চাওয়া হয়েছে। পাশাপাশি হতাহত বাংলাদেশি শ্রমিকদের যথাযথ ক্ষতিপূরণ দিতে রুল দিয়েছেন আদালত।’

পররাষ্ট্র সচিব, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব, কাতারে বাংলাদেশ দূতাবাস, সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন প্রধান, আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও), ফেডারেশন অফ ইন্টারন্যাশনাল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (ফিফা), কাতারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (ইন্টেরিয়র) ও শ্রমমন্ত্রীকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, বিশ্বকাপ আয়োজনের গৌরব অর্জনের পর থেকে কাতারে প্রতি সপ্তাহে গড়ে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, নেপাল ও শ্রীলঙ্কার ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। পাকিস্তান বাদে ৪টি দেশে গার্ডিয়ানের নির্ভরযোগ্য সূত্র ও দেশগুলোর সরকারি হিসাবই বলছে—কাতারে ২০১১ থেকে ২০২০ পর্যন্ত ৫ হাজার ৯২৭ জন প্রবাসী শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে মৃত বাংলাদেশি শ্রমিকের সংখ্যা ১ হাজার ১৮ জন। কাতারে পাকিস্তানের দূতাবাস থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, এ সময়ে ৮২৪ জন পাকিস্তানি শ্রমিক মারা গেছেন মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশে।

মন্তব্য

খেলা
That is why the white card on the football field

যে কারণে ফুটবল মাঠে সাদা কার্ড

যে কারণে ফুটবল মাঠে সাদা কার্ড রোববার স্পোর্টিং লিসবন ও বেনফিকার নারী দলের একটি ম্যাচে রেফারি দেখান সাদা কার্ড রেফারি কাতারিনা কাম্পোস। ছবি: এএফপি
গত রোববার স্পোর্টিং লিসবন ও বেনফিকার নারী দলের একটি ম্যাচে রেফারি দেখান সাদা কার্ড! ম্যাচ চলাকালীন বিরতির খানিক আগে ডাগআউটে একজন অসুস্থ হয়ে পড়েন। তখন দুই দলের মেডিকেল স্টাফরা তার চিকিৎসা করেন। তখন তাদের উদ্দেশ্যে ওই সাদা কার্ড দেখান রেফারি কাতারিনা কাম্পোস।

ফুটবলের ইতিহাসে প্রথম বার ঘটল এমন ঘটনা। পর্তুগাল সাক্ষী থাকল সেই ঘটনার।

গত রোববার স্পোর্টিং লিসবন ও বেনফিকার নারী দলের একটি ম্যাচে রেফারি দেখান সাদা কার্ড! ম্যাচ চলাকালীন বিরতির খানিক আগে ডাগআউটে একজন অসুস্থ হয়ে পড়েন। তখন দুই দলের মেডিকেল স্টাফরা তার চিকিৎসা করেন। তখন তাদের উদ্দেশে ওই সাদা কার্ড দেখান রেফারি কাতারিনা কাম্পোস।

লাল ও হলুদ কার্ড ফুটবল ম্যাচের অবিচ্ছেদ্য অংশ, তবে ফুটবল খেলাকে আকর্ষণীয় করে তুলতে ও আরও বেশি রোমাঞ্চকর করতেই পর্তুগালে নেয়া হয়েছে বেশ কিছু উদ্যোগ। যার অন্যতম হল সাদা কার্ড।

পর্তুগালের ক্রীড়াবিষয়ক সংস্থা ন্যাশনাল প্ল্যান ফর এথিক্স ইন স্পোর্ট জানায়, ফেয়ার প্লে-কে স্বীকৃতি দিতেই এই উদ্যোগ। পরিষ্কার -পরিচ্ছন্ন ফুটবল খেলাকে উৎসাহ জোগাতেই প্রথম ব্যবহার করা হয়েছে সাদা কার্ড।

এ ঘটনায় স্টেডিয়ামে উপস্থিত দর্শকেরাও করতালি দিয়ে অভিনন্দন জানিয়েছেন রেফারিকে। তবে এর অনেক আগেই উয়েফা সভাপতি মিশেল প্লাতিনি প্রস্তাব দিয়েছিলেন সাদা কার্ড ব্যবহারের। রেফারির সিদ্ধান্তে কোনো ফুটবলার ভিন্নমত হলে শাস্তি হিসেবে এটি দেখানোর কথা জানিয়েছিলেন তিনি। প্লাতিনি সাদা কার্ড পাওয়া খেলোয়াড়দের ১০ মিনিটের জন্য মাঠের বাইরে রাখার প্রস্তাব করেছিলেন।

আরও পড়ুন:
কাতালান ডার্বিতে পয়েন্ট হারাল বার্সেলোনা
সাফজয়ী নারী ফুটবল দলকে সোনালী ব্যাংকের সংবর্ধনা
পেলেকে শেষবিদায় জানাতে ভক্তদের ভিড়
‘আকাশ থেকেও ঝরেছে অশ্রু’
চলে গেলেন ফুটবল সম্রাট

মন্তব্য

p
উপরে