× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

খেলা
Messi Mbappe disappointed despite losing to Juventus
hear-news
player
google_news print-icon

ইউভেন্তাসকে হারালেও হতাশ মেসি-এমবাপেরা

ইউভেন্তাসকে-হারালেও-হতাশ-মেসি-এমবাপেরা
লিওনেল মেসির কাছ থেকে বল দখলের লড়াইয়ে ইউভেন্তাসের খেলোয়াড়রা। ছবি: এএফপি
গ্রুপপর্বের শেষ দিনে ২-১ গোলে জিতেছে পিএসজি। কিলিয়ান এমবাপের সঙ্গে অন্য গোলটি করেন নুনো মেন্দেস। অন্যদিকে ইউভেন্তাসের হয়ে গোলটি করেন লিওনার্দো বোনুচ্চি।

চ্যাম্পিয়নস লিগে ইউভেন্তাসের বিপক্ষে জয় পেয়েছে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)। টানা জয় পেলেও গ্রুপসেরা হতে পারেননি মেসি-নেইমাররা।

রাতের আরেক ম্যাচে মাকাবি হাইফার বিপক্ষে গোল উৎসবে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে পরের রাউন্ডে খেলবে বেনফিকা। এ ম্যাচে বেনফিকা ৬-১ গোলের ব্যবধানে জয় পেয়েছে।

তুরিনের আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে বুধবার রাতে গ্রুপপর্বের শেষ দিনে ২-১ গোলে জিতেছে পিএসজি। কিলিয়ান এমবাপের সঙ্গে অন্য গোলটি করেন নুনো মেন্দেস। অন্যদিকে ইউভেন্তাসের হয়ে গোলটি করেন লিওনার্দো বোনুচ্চি।

ম্যাচের শুরু থেকে ইউভেন্তাসকে চাপে রাখে পিএসজি। ১৩ মিনিটের মাথায় দলকে এগিয়ে নেন ফরাসি ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপে। মেসির কাছ থেকে বল পেয়ে বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে বল জালে জড়ান তিনি।

আসরে ৬ ম্যাচের ৫টিতেই গোলের দেখা পেয়েছেন এমবাপে। এটি তার সপ্তম গোল।

ইউভেন্তাস সমানতালে আক্রমণ করলেও সুযোগ তৈরি করতে বেশ বেগ পেতে হয়েছে তাদের। পাল্টা আক্রমণে লিওনার্দো বনুচ্চি দলকে সমতায় ফেরান ৩৯ মিনিটে। ১-১ গোলে সমতায় থেকে বিরতিতে যায় দুই দলই।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে অনেকটা সময় কেটে যায় দুই দলের সাদামাটা ফুটবলে, তবে ৬৯তম মিনিটে দারুণ নৈপুণ্যে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মেন্দেস। এমবাপের কাছ থেকে বল পেয়ে কোনাকুনি শটে জয়সূচক গোল করেন এ পর্তুগিজ। এতে ২-১ গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ক্রিস্তোফ গলতিয়ের দল।

চলতি মৌসুমের গ্রুপ পর্বে ছয় ম্যাচের পাঁচটিতেই হেরে বিদায় নিল ইউভেন্তাস। ৩ পয়েন্ট নিয়ে ‘এইচ’ গ্রুপে তৃতীয় হয়ে ইউরোপা লিগে খেলবে তারা। তাদের সমান পয়েন্ট নিয়ে তলানিতে রয়েছে মাকাবি।

পয়েন্ট টেবিলে পিএসজি ও বেনফিকার লড়াইটাও অবিশ্বাস্য। দুই দলের সমান ১৪ পয়েন্ট।

ছয় ম্যাচ শেষে পিএসজি ও বেনফিকার গোল ব্যবধান শূন্য। দুটি দলই গোল করেছে ১৬টি করে; গোল হজম করেছে সমান সাতটি করে। শেষ পর্যন্ত বেশি অ্যাওয়ে গোল করায় সেরা বেনফিকা।

আরও পড়ুন:
জয় দিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ শেষ করল বার্সেলোনা
উড়তে থাকা নাপোলিকে হারাল লিভারপুল
তিন তারকার গোলে জয় পিএসজির

মন্তব্য

আরও পড়ুন

খেলা
England beat Senegal in the last eight in front of France

সেনেগালকে উড়িয়ে শেষ আটে ফ্রান্সের সামনে ইংল্যান্ড

সেনেগালকে উড়িয়ে শেষ আটে ফ্রান্সের সামনে ইংল্যান্ড সেনেগালের বিপক্ষে এবারের বিশ্বকাপে প্রথম গোলের দেখা পান ইংল্যান্ডের হ্যারি কেইন। ছবি: টুইটার
সেনেগালকে রাউন্ড অফ সিক্সটিনের ম্যাচে ৩-০ গোলে হারিয়েছে থ্রি লায়নস। দলের হয়ে গোল করেছেন জর্ডান হেন্ডারসন, হ্যারি কেইন ও বুকায়ো সাকা। 

একরকম হেসেখেলেই নকআউটে নিজেদের প্রথম বাধা টপকে গেছে ইংল্যান্ড। সেনেগালকে রাউন্ড অফ সিক্সটিনের ম্যাচে ৩-০ গোলে হারিয়েছে থ্রি লায়নস। দলের হয়ে গোল করেছেন জর্ডান হেন্ডারসন, হ্যারি কেইন ও বুকায়ো সাকা।

আল বাইত স্টেডিয়ামে কিছুটা ঢিমেতালে শুরুর পর গতি পায় দুই দলের খেলা। সেনেগালের হয়ে দুটি সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেন ইসমাইলিয়া সার। প্রথমে বারের ওপর দিয়ে মারেন আর দ্বিতীয় দফায় তার শট ঠেকিয়ে দেন ইংল্যান্ডের গোলকিপার জর্ডান পিকফোর্ড।

এরপরই ম্যাচ নিজেদের করে নেয় ইংল্যান্ড। ৩৮ মিনিটে প্রথম গোল পায় তারা।

জুড বেলিংহ্যামের চমৎকার পাস বক্সে খুঁজে নেয় জর্ডান হেন্ডারসনকে। কাছ থেকে গোল করতে ভুল করেননি লিভারপুলের এ তারকা।

বিরতির বাঁশির ঠিক আগ মুহূর্তে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন হ্যারি কেইন। ইংল্যান্ডের হয়ে কাউন্টার অ্যাটাকে যাওয়া বেলিংহ্যাম বল ছাড়েন ফিল ফোডেনের উদ্দেশে।

ফোডেন প্রথমবারেই তা পাঠিয়ে দেন ফাঁকায় দাঁড়ানো কেইনের কাছে। কাছ থেকে স্কোরলাইন ২-০ করে দেন কেইন। এবারের বিশ্বকাপে এটি তার প্রথম গোল।

দ্বিতীয়ার্ধেও প্রাধান্য ধরে রাখেন ইংল্যান্ড। ৫৭ মিনিটে বুকায়ো সাকার গোলে ম্যাচভাগ্য নিশ্চিত করে দেয় ইংল্যান্ড।

ফিল ফোডেনের পাস থেকে বক্সে লক্ষ্যভেদ করেন আর্সেনালের হয়ে খেলা এ ফরোয়ার্ড।


ম্যাচে ফিরে আসার বা গোল শোধ করার জন্য প্রায় ৪০ মিনিট সময় পায় সেনেগাল। আফ্রিকান দলটি সেটি কাজে লাগাতে পারেনি।

সেরা তারকা সাদিও মানেকে ছাড়া বিশ্বকাপ খেলতে নামা সেনেগাল বড় ম্যাচে মিস করেছে তার টেম্পারমেন্ট। শেষ সময়ে তাদের খেলায় ছিল না কোনো সৃষ্টিশীলতা।

ফলে, ৩-০ গোলের বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে ইংল্যান্ড। শনিবারের কোয়ার্টার ফাইনালে তারা লড়বে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের বিপক্ষে।

রাতের প্রথম ম্যাচে পোল্যান্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়ে শেষ আট নিশ্চিত করে ফ্রান্স।

আরও পড়ুন:
প্রথমার্ধে হেন্ডারসন ও কেইন এগিয়ে দিলেন ইংল্যান্ডকে
এমবাপে-জিরুর গোলে পোল্যান্ড বাধা টপকাল ফ্রান্স
জিরুর রেকর্ড গোলে প্রথমার্ধ শেষে এগিয়ে ফ্রান্স

মন্তব্য

খেলা
Henderson and Kane put England ahead in the first half

প্রথমার্ধে হেন্ডারসন ও কেইন এগিয়ে দিলেন ইংল্যান্ডকে

প্রথমার্ধে হেন্ডারসন ও কেইন এগিয়ে দিলেন ইংল্যান্ডকে জুড বেলিংহ্যামের সঙ্গে গোল করার পর উদযাপনে জর্ডার হেন্ডারসন। ছবি: টুইটার
জর্ডার হেন্ডারসনের করা ৩৮ মিনিট ও হ্যারি কেইনের করা ৪৫ মিনিটের গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করেছে ইংল্যান্ড।

শেষ ষোলোর লড়াইয়ে সেনেগালের বিপক্ষে সুবিধাজনক অবস্থানে আছে ইংল্যান্ড। আফ্রিকান চ্যাম্পিয়নদের আক্রমণ প্রতিহত করে গোলের দেখা পেয়েছে সাবেক চ্যাম্পিয়নরা।

জর্ডার হেন্ডারসনের করা ৩৮ মিনিট ও হ্যারি কেইনের করা ৪৫ মিনিটের গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করেছে ইংল্যান্ড। এ ম্যাচে জয়ীরা শেষ আটে মোকাবিলা করবে ফ্রান্সের।

আল-বাইত স্টেডিয়ামে ছনি পেতে সময় নিয়ে নেয় দুই দল। শুরুটা ভালো করে সেনেগাল।

২২ মিনিটে ইংলিশ ডিফেন্ডার হ্যারি ম্যাগুয়ারের ভুলে আক্রমণের সুযোগ পায় আফ্রিকানরা। বক্সের সামনে বল পেয়েও লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি ইসমাইলিয়া সার।

মিনিট দশেক পর আবারও সারের শট ঠেকিয়ে দলকে নিরাপদে রাখেন ইংলিশ গোলকিপার জর্ডান পিকফোর্ড।

৩৮ মিনিটে প্রথম গোল পায় ইংল্যান্ড। জুড বেলিংহ্যামের চমৎকার পাস বক্সে খুঁজে নেয় জর্ডান হেন্ডারসনকে। কাছ থেকে গোল করতে ভুল করেননি লিভারপুলের এ তারকা।

বিরতির বাঁশির ঠিক আগ মুহূর্তে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন হ্যারি কেইন। ইংল্যান্ডের হয়ে কাউন্টার অ্যাটাকে যাওয়া বেলিংহ্যাম বল ছাড়েন ফিল ফোডেনের উদ্দেশে।

ফোডেন প্রথমবারেই তা পাঠিয়ে দেন ফাঁকায় দাঁড়ানো কেইনের কাছে। কাছ থেকে স্কোরলাইন ২-০ করে দেন কেইন। এবারের বিশ্বকাপে এটি তার প্রথম গোল।

আরও পড়ুন:
এমবাপে-জিরুর গোলে পোল্যান্ড বাধা টপকাল ফ্রান্স
জিরুর রেকর্ড গোলে প্রথমার্ধ শেষে এগিয়ে ফ্রান্স

মন্তব্য

খেলা
Mbappe Giros goal prevents Poland to topple France

এমবাপে-জিরুর গোলে পোল্যান্ড বাধা টপকাল ফ্রান্স

এমবাপে-জিরুর গোলে পোল্যান্ড বাধা টপকাল ফ্রান্স গোলের পর সতীর্থ অলিভিয়ে জিরুর সঙ্গে উদযাপনে কিলিয়ান এমবাপে। ছবি: টুইটার
৩-১ গোলের জয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ফরাসিদের পক্ষে জোড়া গোল করেন কিলিয়ান এমবাপে। একটি গোল আসে অভিলিয়ে জিরুর পা থেকে। পোল্যান্ডের হয়ে শেষ মুহুর্তে একটি গোল শোধ করেন লেওয়ানডোভস্কি।

নকআউট পর্বেও গ্রুপে পর্বের মতো অপ্রতিরোধ্য দেখা গেলো ফ্রান্সকে। তাদের সামনে শেষ ষোলোর লড়াইতে দাঁড়াতেই পারেনি পোল্যান্ড। ৩-১ গোলের জয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ফরাসিদের পক্ষে জোড়া গোল করেন কিলিয়ান এমবাপে। একটি গোল আসে অভিলিয়ে জিরুর পা থেকে। পোল্যান্ডের হয়ে শেষ মুহুর্তে একটি গোল শোধ করেন লেওয়ানডোভস্কি।

আল থুমামা স্টেডিয়ামে শুরু থেকে পোল্যান্ডকে চাপের ওপর রাখে ফ্রান্স। পোলিশরা রক্ষণাত্মক না খেলে আক্রমণে যাওয়ায় ফরাসিদের জন্য মাঠে পর্যাপ্ত জায়গা তৈরি হয়। যার ফায়দা লুটে নেন এমবাপে ও জিরু।

প্রথমার্ধে, একটাই ভালো সুযোগ পায় পোল্যান্ড। ৩৬ মিনিটে বারতোস বেরেজিনস্কির কাট ব্যাকে জোরাল শট নেন পিটর জিয়েলিনস্কি। তার শট একেবারে কাছ থেকে ঠেকিয়ে দেন ফ্রান্সের গোলকিপার ও অধিনায়ক হুগো লরিস।

পোল্যান্ডের আক্রমণ সামলে আবারও প্রতিপক্ষের ওপর চড়াও হয় ফ্রান্স। ৪৪ মিনিটে ডেড লক ভাঙেন জিরু।

এমবাপের ক্রসে পোলিশ বক্সের মধ্যে বল পেয়ে যান অভিজ্ঞ এ স্ট্রাইকার। পোল্যান্ডের গোলকিপার ভইচেক শেজনিকে পরাস্ত করতে বেগ পেতে হয়নি তাকে।

এ গোল করে ফ্রান্সের সর্বোচ্চ গোলদাতা বনে যান জিরু। ৫২তম গোল করে ছাড়িয়ে যান আগের রেকর্ডধারী থিয়েরি অঁরিকে।

এছাড়া ১৯৯০ সালে ক্যামেরুনের ৩৮ বছর বয়সী রজার মিলার পর নকআউটে গোল করা সবচেয়ে বয়সী খেলোয়াড় এখন এসি মিলানে খেলা ৩৬ বছর বয়সী জিরু।



১-০ গোলে এগিয়ে দ্বিতীয়ার্ধ শুরু করে ফ্রান্স। এবারে ম্যাচের পুরো আলো নিজের দিকে টেনে নেন এমবাপে। তার গতির কাছে বারবার পরাস্ত হচ্ছিল পোলিশ ডিফেন্স। এর খেসারতও দিতে হয় তাদের।

৭৪ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাক শুরু করে ফ্রান্স। উসমান ডেম্বেলের ক্রস বক্সের বাম প্রান্তে পেয়ে যান এমবাপে। সেখান থেকে সময় নিয়ে মাপা শটে শেজনিকে ফাঁকি দেন তিনি।

এতে করে ২৪ বছরের কমে বিশ্বকাপে ৮ গোল করে পেলের রেকর্ড ভাঙেন এমবাপে। পেলে ২৩ বছর বয়সে বিশ্বকাপে ৭ গোল করেছিলেন।

ফ্রান্সের স্কোরলাইনে আরেকটি গোল যোগ করেন এমবাপে। ৯০ মিনিট শেষে অতিরিক্ত সময়ের শুরুতেই মার্কাস থুরামের পাসে গোল করে পোল্যান্ডকে ছিটকে দেন ম্যাচ থেকে। এরই সঙ্গে ৫ গোল করে পৌঁছে যান এবারের বিশ্বকাপের গোলদাতাদের শীর্ষে।

একেবারে শেষ মুহূর্তে পেনাল্টি থেকে থেকে গোল করেও ম্যাচের ফলে প্রভাব ফেলতে পারেননি পোল্যান্ডের অধিনায়ক রবার্ট লেওয়ানডোভস্কি।

আরও পড়ুন:
জিরুর রেকর্ড গোলে প্রথমার্ধ শেষে এগিয়ে ফ্রান্স
সিসে অসুস্থ, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ডাগআউটে থাকা নিয়ে সংশয়

মন্তব্য

খেলা
Zirous record goal leads France at the end of the first half

জিরুর রেকর্ড গোলে প্রথমার্ধ শেষে এগিয়ে ফ্রান্স

জিরুর রেকর্ড গোলে প্রথমার্ধ শেষে এগিয়ে ফ্রান্স ফ্রান্সকে এগিয়ে দেয়ার পর অলিভিয়ে জিরুর উচ্ছ্বাস। ছবি: টুইটার
অলিভিয়ে জিরুর গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে গেছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ৪৪ মিনিটে এমবাপের ক্রসে পোলিশ বক্সের মধ্যে বল পেয়ে যান অভিজ্ঞ জিরু। শেজনিকে পরাস্ত করতে বেগ পেতে হয়নি তাকে।

শেষ ষোলোর ম্যাচে পোল্যান্ডের বিপক্ষে লিড নিয়েছে ফ্রান্স। অলিভিয়ে জিরুর গোলে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে গেছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে রক্ষণাত্মক ফুটবল খেলে সমালোচনার মুখে পড়ে পোল্যান্ড। টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে ফ্রান্সকে আক্রমণ করা ছাড়া উপায় ছিল না তাদের সামনে।

নকআউটের ম্যাচে আল থুমামা স্টেডিয়ামে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে শুরুটা আক্রমণাত্মকই করে পোল্যান্ড। তবে এতে করে তারা মাঠে বাড়তি জায়গা দিয়ে দেয় ফরাসিদের। যা নিখুঁতভাবে কাজে লাগিয়েছেন কিলিয়ান এমবাপে ও তার সতীর্থরা।

আক্রমণ-পালটা আক্রমণের ম্যাচে প্রথমার্ধের শেষ দিকে ভালো সুযোগ পান এমবাপে। ৩৫ মিনিটে বাম প্রান্ত থেকে বল পেয়ে চমৎকার ড্রিবলে ঢুকে পড়েন পোল্যান্ডের বক্সে। ডান প্রান্তের জোরাল শট নিলেও পোলিশ গোলকিপার ভইচেক শেজনিকে পরাস্ত করতে পারেননি।

পরের মিনিটে সুযোগ তৈরি করে পোল্যান্ড। বারতোস বেরেজিনস্কির কাট ব্যাকে জোরাল শট নেন পিটর জিয়েলিনস্কি। তার শট একেবারে কাছ থেকে ঠেকিয়ে দেন ফ্রান্সের গোলকিপার ও অধিনায়ক হুগো লরিস।

পোল্যান্ডের আক্রমণ সামলে আবারও প্রতিপক্ষের ওপর চড়াও হয় ফ্রান্স। ৪৪ মিনিটে ডেড লক ভাঙেন জিরু।

এমবাপের ক্রসে পোলিশ বক্সের মধ্যে বল পেয়ে যান অভিজ্ঞ এ স্ট্রাইকার। শেজনিকে পরাস্ত করতে বেগ পেতে হয়নি তাকে।

এ গোল করে ফ্রান্সের সর্বোচ্চ গোলদাতা বনে যান জিরু। ৫২তম গোল করে ছাড়িয়ে যান আগের রেকর্ডধারী থিয়েরি অঁরিকে।

এছাড়া ১৯৯০ সালে ক্যামেরুনের ৩৮ বছর বয়সী রজার মিলার পর নকআউটে গোল করা সবচেয়ে বয়সী খেলোয়াড় এখন এসি মিলানে খেলা ৩৬ বছর বয়সী জিরু।

আরও পড়ুন:
সিসে অসুস্থ, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ডাগআউটে থাকা নিয়ে সংশয়
ইংল্যান্ডের সামনে সেনেগালের চ্যালেঞ্জ
কোরিয়ার বিপক্ষে খেলতে পারেন নেইমার

মন্তব্য

খেলা
Cisse doubts to stay in dugout against ill England

সিসে অসুস্থ, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ডাগআউটে থাকা নিয়ে সংশয়

সিসে অসুস্থ, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ডাগআউটে থাকা নিয়ে সংশয় সেনেগালের কোচ আলিউ সিসে। ফাইল ছবি
সেনেগালের সহকারী কোচ রেজিস বোগার্ট জানিয়েছেন, দুই দিন ধরে জ্বরে ভুগছেন সিসে। শুক্রবার দলের অনুশীলনেও ছিলেন না তিনি

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নকআউটের মহা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে রাতে মাঠে নামছে সেনেগাল। ম্যাচের আগে দুঃসংবাদ পেয়েছে আফ্রিকান চ্যাম্পিয়নরা। দুই দিন ধরে অসুস্থ তাদের হেড কোচ আলিউ সিসে।

২০০২ সালের পর এই প্রথম সেনেগাল বিশ্বকাপের নকআউটে খেলছে। সেবার দলের অন্যতম খেলোয়াড় ছিলেন সিসে। আর এবার তিনি দলের কোচ। সেনেগালিজ ফুটবলের জন্য ঐতিহাসিক এই ম্যাচে তাকে দলের ডাগআউটে দেখা না-ও যেতে পারে।

সেনেগালের সহকারী কোচ রেজিস বোগার্ট জানিয়েছেন, দুই দিন ধরে জ্বরে ভুগছেন সিসে। শুক্রবার দলের অনুশীলনেও ছিলেন না তিনি। যদিও তার নির্দেশনা অনুযায়ী অনুশীলন হয়েছে।

সিসে আশাবাদী তিনি ম্যাচের সময় উপস্থিত থাকবেন। কোনো কারণে সিসে মাঠে যেতে না পারলে দলকে কোচিংয়ের ভার থাকবে বোগার্টের কাঁধে। সহকারী কোচ অবশ্য হেড কোচকে নিয়ে আশাবাদী।

তিনি বলেন, ‘আশা করি তিনি কাল (শনিবার) খেলোয়াড়দের সঙ্গে মাঠে আসবেন ও বেঞ্চে থাকবেন। তার গায়ে জ্বর। তাকে নিয়ে তাই আমাদের সাবধান থাকতে হচ্ছে।’

মন্তব্য

খেলা
England and Senegal face each other in the knockout stage

ইংল্যান্ডের সামনে সেনেগালের চ্যালেঞ্জ

ইংল্যান্ডের সামনে সেনেগালের চ্যালেঞ্জ সেনেগালের বিপক্ষে ম্যাচের আগে ইংল্যান্ডের অনুশীলন। ছবি: এএফপি
দ্বিতীয় শিরোপা উঁচিয়ে ধরার লক্ষ্যে ইনফর্ম স্কোয়াড নিয়ে মাঠ মাতাচ্ছে থ্রি লায়ন্স। দুর্দান্ত ফর্মে আছেন ফিল ফোডেন, মার্কাস র‍্যাশফোর্ড, রাহিম স্টার্লিং ও বুকায়ো সাকারা।

ফিফা বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের খেলায় ড্র করলেও অপরাজিত থেকে নকআউট পর্বে এসেছে নেদারল্যান্ডস, ইংল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়া।

নকআউট পর্বের দ্বিতীয় দিনে দ্বিতীয় ম্যাচে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিতের লক্ষ্যে মাঠে নামবে সেনেগাল ও ইংল্যান্ড। বিশ্বমঞ্চে প্রথমবারের মতো মুখোমুখি হচ্ছে দল দুটি। কাতারের আল-বায়াত স্টেডিয়াম রোববার রাত ১টায় সেনেগালের বিপক্ষে মাঠে নামবে ইংল্যান্ড।

এবারের বিশ্বকাপে অন্যতম সেরা দল ইংল্যান্ড। দ্বিতীয় শিরোপা উঁচিয়ে ধরার লক্ষ্যে ইনফর্ম স্কোয়াড নিয়ে মাঠ মাতাচ্ছে থ্রি লায়ন্স। দুর্দান্ত ফর্মে আছেন ফিল ফোডেন, মার্কাস র‍্যাশফোর্ড, রাহিম স্টার্লিং ও বুকায়ো সাকারা।

ইংলিশ কোচের চিন্তার অন্যতম কারণ আক্রমণভাগে হ্যারি কেইনের সঙ্গে কাকে রাখবেন। গ্রুপ পর্বে ৩ গোল করে সর্বাধিক গোলের তালিকায় থাকা রাশফোর্ড ইংলিশদের শক্তির আভাস দিচ্ছেন।

দলে ইনজুরি না থাকায় কিছুটা স্বস্তিতেই রয়েছে ইংল্যান্ড কোচ গ্যারেথ সাউথগেইট। তার মতে, দলের সেরা ফুটবলার সাদিও মানে না থাকলেও সেনেগাল দল হিসেবে দারুণ।

অন্যদিকে গ্রুপ পর্বে দ্বিতীয় হয়ে নকআউট নিশ্চিত করেছিল সেনেগাল। নেদারল্যান্ডসের সঙ্গে ২-০ গোলে হারলেও কাতার ও ইকুয়েডরকে হারিয়েছে তারা। তিন ম্যাচে তারা গোল করেছে পাঁচটি।

সেনেগাল নিজেদের ফুটবল ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের নকআউট পর্ব খেলতে নামবে। ২০০২ সালের বিশ্বকাপে শেষবার সেরা ষোলোতে খেলেছিল দলটি। সেবার দলের অধিনায়ক ছিলেন আলিয়ু সিসে আর এবার তিনি কোচ।

তার নেতৃত্বে প্রথমবারের মতো আফ্রিকা কাপ অফ নেশনস জিতেছে সেনেগাল। সিসের লক্ষ্য খেলোয়াড়ি জীবনের কীর্তি কোচ হিসেবেও পুনরাবৃত্তি করার।

আরও পড়ুন:
কোরিয়ার বিপক্ষে খেলতে পারেন নেইমার
বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের মুখোমুখি পোল্যান্ড

মন্তব্য

খেলা
Doctors optimistic about Neymar

কোরিয়ার বিপক্ষে খেলতে পারেন নেইমার

কোরিয়ার বিপক্ষে খেলতে পারেন নেইমার ভক্তদের অভিবাদনের জবাব দিচ্ছেন নেইমার। হবি: এএফপি
রোববার সংবাদ সম্মেলনে তিতে আবারও আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন রোববার অনুশীলনে তারকা এ ফরোয়ার্ডের অবস্থা পর্যালোচনা করা হবে।

ব্রাজিলের আহত তারকা নেইমারকে নিয়ে আশার কথা শুনিয়েছেন ব্রাজিল দলের হেড কোচ লিওনার্দো তিতে ও দলের চিকিৎসক রদ্রিগো লাসমার। তাদের মতে, নেইমারকে বিশ্বকাপে আবারও মাঠে দেখার সম্ভাবনা রয়েছে।

বিশ্বকাপে ব্রাজিলের প্রথম ম্যাচে সার্বিয়ার বিপক্ষে পায়ে চোট পান নেইমার। ব্রাজিলের কোচ লিওনার্দো তিতে জানিয়েছিলেন গ্রুপ পর্বের পরের দুই ম্যাচে নেইমারকে পাওয়ার সম্ভাবনা নেই। বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে তাকে পাওয়ার আশা করছেন তিনি।

রোববার সংবাদ সম্মেলনে তিতে আবারও আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন রোববার অনুশীলনে তারকা এ ফরোয়ার্ডের অবস্থা পর্যালোচনা করা হবে।

তিতে যোগ করেন, ‘নেইমার আজ (রোববার) অনুশীলন করবে। সে যদি সুস্থ থাকে তাহলে কাল খেলতে পারে। আমি মিথ্যা তথ্য ছড়াই না। আজ অনুশীলনে সব কিছু ঠিক থাকলে কাল সে খেলবে।’

স্প্যানিশ দৈনিক মার্কাকে ব্রাজিলের চিকিৎসক লাসমার শুক্রবার জানান নকআউটে খেলার সম্ভাবনা রয়েছে নেইমারের।

তিনি বলেন, ‘এখনও ম্যাচের ৭২ ঘণ্টা বাকি। আমাদের অপেক্ষা করতেই হচ্ছে। শনিবার সে আবারও হালকা অনুশীলন করতে পারবে। আমরা তখন বুঝতে পারব তার উন্নতি কতটুকু।’

নেইমার নিজেও ইনস্টাগ্রামে নিজের অনুশীলনের ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘ভালো লাগছে। জানি, এখন কী করতে হবে।’

সোমবার রাত ১টায় কোরিয়ার বিপক্ষে নকআউটের লড়াইয়ে নামছে ব্রাজিল।

আরও পড়ুন:
বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের মুখোমুখি পোল্যান্ড
নেদারল্যান্ডস ম্যাচের জন্য প্রস্তুত আর্জেন্টিনার ২৬ যোদ্ধা: রোমেরো

মন্তব্য

p
উপরে