× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

খেলা
Messi said Mbappe is the best of the future
hear-news
player
google_news print-icon

এমবাপেকে ভবিষ্যতের সেরা বললেন মেসি

এমবাপেকে-ভবিষ্যতের-সেরা-বললেন-মেসি
পিএসজির জার্সিতে কিলিয়ান এমবাপে ও লিওনেল মেসি। ফাইল ছবি
আমেরিকার স্প্যানিশ টিভি নেটওয়ার্ক টিইউডিএনকে এক সাক্ষাৎকারে মেসি সোমবার বলেন, বিশ্বসেরা হওয়ার সব বৈশিষ্ট্য আছে ২৩ বছর বয়সী এমবাপের মধ্যে।

দীর্ঘ দেড় দশক ফুটবলবিশ্বে রাজত্ব করেছেন লিওনেল মেসি ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালডো। এই দুই বিশ্বসেরা তারকার ক্যারিয়ারের সায়াহ্নে কে হবেন তাদের উত্তরসূরি, সেটা নিয়ে ভক্তদের মধ্যে চলছে তুমুল আলোচনা।

কেউ বলছেন ফ্রান্স ও পিএসজি তারকা কিলিয়ান এমবাপের হাতেই উঠছে মেসি-রোনালডোর ব্যাটন। আবার একদলের বিশ্বাস নরওয়ে ও ম্যানচেস্টার সিটির স্ট্রাইকার আর্লং হালান্ডই ভবিষ্যতে কাঁপাবেন ফুটবলবিশ্ব।

তবে নিজের পছন্দ হিসেবে এমবাপেকে বেছে নিয়েছেন লিওনেল মেসি। আমেরিকার স্প্যানিশ টিভি নেটওয়ার্ক টিইউডিএনকে এক সাক্ষাৎকারে মেসি সোমবার বলেন, বিশ্বসেরা হওয়ার সব বৈশিষ্ট্য আছে ২৩ বছর বয়সী এমবাপের মধ্যে।

মেসি যোগ করেন, ‘কিলিয়ান একেবারে আলাদা ধাঁচের খেলোয়াড়। মাঠে ওয়ান-অন-ওয়ানে বা খালি জায়গায় সে দানবের মতো। ও খুব দ্রুতগতির আর প্রচুর গোলও করে। আমার চোখে সে পূর্ণাঙ্গ একজন খেলোয়াড়। বহুদিন ধরেই সে এমনটা খেলে আসছে। ভবিষ্যতে আমি নিশ্চিত সে সেরাদের একজন হবে।’

পিএসজিতে গত মৌসুমটা ম্লান কাটলেও চলতি মৌসুমে দারুণ ফর্মে রয়েছেন মেসি। মেসি-নেইমার ও এমবাপে ত্রয়ীর ওপর ভর করে লিগে এখনও অপরাজিত পিএসজি।

এমবাপের পাশাপাশি প্রিয় বন্ধু নেইমারের প্রশংসাও করেছেন মেসি। ব্রাজিলের এ তারকার সঙ্গে খেলা উপভোগ করেন বলে জানান আর্জেন্টাইন অধিনায়ক।

মেসি বলেন, ‘নেইমারকে আমি খুব ভালো করে জানি। বার্সেলোনায় আমরা অনেকটা সময় একসঙ্গে উপভোগ করেছি। বার্সেলোনায় ওর সঙ্গে আরও কিছুদিন খেলতে পারলে ভালো লাগত। কিন্তু প্যারিসে আমরা আবার একসঙ্গে হয়েছি। আমরা দারুণ আনন্দিত একসঙ্গে খেলতে পেরে। আমি তার সঙ্গে খেলতে ভালোবাসি। প্রতিদিন তার সঙ্গে সময় কাটাতে আমার ভালো লাগে।’

আপাতত জাতীয় দলের হয়ে নেশনস লিগ ও ফিফা ফ্রেন্ডলির দায়িত্বে রয়েছেন মেসি, নেইমার ও এমবাপে। তিন তারকাকে নিয়ে পিএসজি আবারও মাঠে নামছে ২ অক্টোবর। নিজ মাঠে ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের ম্যাচে চ্যাম্পিয়নরা মোকাবিলা করবে নিসের।

আরও পড়ুন:
মেসির জোড়া গোলে আর্জেন্টিনার জয়
মেসি জাতীয় দলের হয়ে সব ম্যাচ খেলতে চান: স্কালোনি
মেসির গোলে টেবিলের শীর্ষে পিএসজি

মন্তব্য

আরও পড়ুন

খেলা
Japan in danger of exit after losing to Costa Rica

দুর্দান্ত জাপানকে থামাল কোস্টারিকা

দুর্দান্ত জাপানকে থামাল কোস্টারিকা ম্যাচের একমাত্র গোলের পর কেইশার ফুলারের উচ্ছ্বাস। ছবি: এএফপি
কোস্টারিকার বিপক্ষে ১-০ গোলের হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে জাপান। ম্যাচের শেষ দিকে কোস্টারিকার হয়ে একমাত্র গোলটি করেন কেইশার ফুলার।

চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানির বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় পেয়ে শেষ ষোলোর পথে এগিয়ে যায় এশিয়ার পরাশক্তি জাপান। দ্বিতীয় ম্যাচে কোস্টারিকার কাছে হেরে তাদের নকআউট পর্বের স্বপ্ন ধাক্কা খেয়েছে।

কাতারের আহম্মেদ বিন আলি স্টেডিয়ামে রোববার কোস্টারিকার বিপক্ষে ১-০ গোলের হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে জাপান। ম্যাচের শেষ দিকে কোস্টারিকার হয়ে একমাত্র গোলটি করেন কেইশার ফুলার।

ম্যাচের শুরুটা দুই দলের ভালো হয়নি। ম্যাড়মেড়ে প্রথমার্ধ কাটিয়েছে জাপান ও কোস্টারিকা। কোনো দলই উল্লেখ করার মতো আক্রমণ করতে পারেনি।

৩৬তম মিনিটে কোস্টারিকা কাউন্টার অ্যাটাক থেকে দারুণ সুযোগ পায়। জাপান সেই আক্রমণ থামায় ফাউলের বিনিময়ে। অন্য প্রান্তে জাপানের আক্রমণ ঠেকিয়ে কোস্টারিকাকে নিরাপদে রাখেন অভিজ্ঞ গোলকিপার কেইলর নাভাস।

বিরতির পর খেলা শুরু হওয়ার পরও দুই দল সমান তালে খেললেও গোলের দেখা পাচ্ছিল না। ম্যাচের মোড় ঘুরে যায় ম্যাচ শেষের ৯ মিনিট আগে।

ডি বক্সের সামান্য ভেতর থেকে মাপা শটে বল জাপানের জালে জড়ান কেইশার ফুলার। ওই এক গোলেই শেষ পর্যন্ত জয় পায় কোস্টারিকা।

আরও পড়ুন:
মেসিদের জাগরণে স্বস্তি ঢাবিতে
আর পেছনে তাকাতে চায় না দল: মেসি
মেসি ম্যাজিকে হাসি ফিরল আর্জেন্টিনার
এমবাপের জোড়া গোলে ফ্রান্স নকআউট পর্বে
আর্জেন্টিনার দলে ৫ পরিবর্তন

মন্তব্য

খেলা
World Cup graffiti at Jagannath University

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশ্বকাপ গ্রাফিতি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশ্বকাপ গ্রাফিতি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বিভিন্ন দেয়ালে রং-তুলির ছোঁয়ায় তুলে এনেছেন মেসি, ম্যারাডোনা, পেলেদের। ছবি: নিউজবাংলা
বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের ভবনের দুপাশে, বজলুর রহমান মিলনায়তনে আর ভিসি ভবনের পেছনে গ্রাফিতিগুলো আঁকা হয়েছে। গ্রাফিতিতে মেসি-ম্যারাডোনাদের সঙ্গে জায়গা করে নিয়েছেন রোনালডো, নেইমার, লুকা মডরিচ, কিলিয়ান এমবাপে, মানুয়েল নয়্যাররা।

ফিফা বিশ্বকাপের উন্মাদনায় যোগ দিয়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাফিতি আঁকিয়েরা। চারুকলা বিভাগের দুই শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বিভিন্ন দেয়ালে রং-তুলির ছোঁয়ায় তুলে এনেছেন মেসি, ম্যারাডোনা, পেলেদের।

বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের ১১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী সাব্বির হোসাইন ও ১২তম ব্যাচের উচ্ছ্বাস দাসের আগ্রহেই মূলত গ্রাফিতিগুলো আঁকা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের ভবনের দুপাশে, বজলুর রহমান মিলনায়তনে আর ভিসি ভবনের পেছনে গ্রাফিতিগুলো আঁকা হয়েছে। গ্রাফিতিতে মেসি-ম্যারাডোনাদের সঙ্গে জায়গা করে নিয়েছেন রোনালডো, নেইমার, লুকা মডরিচ, কিলিয়ান এমবাপে, মানুয়েল নয়্যাররা।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশ্বকাপ গ্রাফিতি

গ্রাফিতি শিল্পী সাব্বির হোসাইন জানান, বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে সারা দেশে উন্মাদনা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে দিতেই তাদের এই প্রয়াস।

তিনি যোগ করেন, ‘আমাদের কাজগুলো তৈরি করতে সময় লাগছে ৪ থেকে ৫ ঘণ্টা এবং দেয়ালে বসাতে ২ থেকে ৩ ঘণ্টা সময় লেগেছে। সব মিলে ৬ থেকে ৭ ঘণ্টায় ৪টি জায়গায় করতে পেরেছি।’

গ্রাফিতিগুলো অল্প সময়েই নজর কেড়েছে সবার। ফুটবলারদের গ্রাফিতি দেখতে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ভিড় জমাচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ অনেকেই।

আরও পড়ুন:
জবি ক্যাম্পাসে বদ্ধ নর্দমা, মশার রাজত্ব
মিডিয়া কাপ প্রীতি ম্যাচে জিতল নগদ
অ্যাকাউন্টিং দিবসে আয়োজিত হলো ফুটবল ফেস্ট
বিজিএমইএ কাপ: চতুর্থবারের মতো শিরোপা বান্দো ডিজাইনের
পেনাল্টি মিসে শিরোপা মিস বাংলাদেশের

মন্তব্য

খেলা
The frenzy of Bangladeshi fans on the FIFA page

বাংলাদেশি ভক্তদের উন্মাদনা ফিফার টুইটারে

বাংলাদেশি ভক্তদের উন্মাদনা ফিফার টুইটারে ফটো কোলাজ: নিউজবাংলা
একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের জায়ান্ট স্ক্রিনে খেলার দেখার ভিডিও শেয়ার করেছে ফিফা। টুইটারে ভিডিওটি ১২ লাখেরও বেশি মানুষ দেখেছে।

ক্রিকেটে বাংলাদেশ বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে খেলার সু্যোগ পেলেও ফুটবলে তা এখনও হয়ে উঠেনি। ফিফা বিশ্বকাপ নিয়ে বাংলাদেশের সমর্থকদের মাতামাতি দেখে মনে হতেই পারে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা এ দেশেরই অংশ।

বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে বাংলাদেশ খেলার সু্যোগ না পেলেও ফুটবলের উন্মাদনা নজর কেড়েছে ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার। একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের জায়ান্ট স্ক্রিনে খেলার দেখার ভিডিও শেয়ার করেছে ফিফা। টুইটারে ভিডিওটি ১২ লাখেরও বেশি মানুষ দেখেছে।

ফিফা ভিডিওটি শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখে, ‘এটাই ফুটবলের শক্তি।’

মধ্যরাতে বিশ্ববিদ্যালয়য়ের হল রুমে ম্যাচটি উপভোগ করতে উপস্তিত ছিলেন কয়েক শ ফুটবল সমর্থক। ভিডিওতে দেখা যায় মেসি গোল করার সঙ্গে সঙ্গেই সবাই উল্লাসে মেতে উঠছেন। সমর্থকদের প্রিয়দল ও সুপারস্টার মেসি গোল করার আনন্দে লাফিয়ে ওঠেন।

বাংলাদেশি ভক্তদের উন্মাদনা ফিফার টুইটারে
২০১৮ সালে ফিফার ফেসবুক পেজে পোস্ট করা বাংলাদেশি সমর্থকদের ছবি।


আর্জেন্টিনা ও মেক্সিকোর ম্যাচটি কাতারের লুসাইল স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময়ে রোববার রাত ১টায় অনুষ্ঠিত হয়। ওই ম্যাচে মেক্সিকোর বিপক্ষে ২-০ গোলে জয়ে পেয়েছে লিওনেল মেসির দল। দুই গোলের একটি করেন ৭ বারের ব্যালন ডর জয়ী মেসি ও অন্যটি করেন বিশ্বকাপে প্রথম বার খেলতে আসা তরুণ রারকা এনজো ফার্নান্দেস।

এর আগে ২০১৮ সালেও রাশিয়া বিশ্বকাপেও ফিফার ভেরিফাড ফেসবুক পেজে স্বীকৃতি পেয়েছিল বাংলাদেশি সমর্থকদের উন্মাদনার ছবি।

আরও পড়ুন:
আর পেছনে তাকাতে চায় না দল: মেসি
মেসি ম্যাজিকে হাসি ফিরল আর্জেন্টিনার
এমবাপের জোড়া গোলে ফ্রান্স নকআউট পর্বে
আর্জেন্টিনার দলে ৫ পরিবর্তন
সৌদির হারে বাড়ল আর্জেন্টিনার চাপ

মন্তব্য

খেলা
Neymar posted a picture of his feet

নেইমারের পা ফুলে ঢোল

 নেইমারের পা ফুলে ঢোল ছবি কোলাজ: নিউজবাংলা
নেইমার তার পায়ের নতুন ছবি পোস্ট করেছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। ৩০ বছর বয়সী নেইমার ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে যে ছবি পোস্ট করেছেন তাতে সমর্থকদের মনে শঙ্কা আরও বাড়বে।

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে চোটে পড়েন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড নেইমার জুনিয়র। সার্বিয়ার বিপক্ষে সেই ম্যাচের পর শঙ্কা জাগে গ্রুপ পর্বের বাকি খেলা নিয়ে। সে শঙ্কা শেষ পর্যন্ত সত্যি হয়েছে নেইমারের।

সার্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে গোড়ালির চোটে পড়েন পিএসজির তারকা ফরোয়ার্ড নেইমার। ওই ম্যাচে এক নেইমারকেই ৯ বার ফাউল করেন প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়রা। যা এই বিশ্বকাপে কোনো একক খেলোয়াড়ের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ।

এতে করে সুইজারল্যান্ড ও ক্যামেরুনের বিপক্ষে পরের দুই ম্যাচে নেইমারকে পাবেন না কোচ লিওনার্দো তিতে।

এই পরিস্থিতিতে নেইমার তার পায়ের নতুন ছবি পোস্ট করেছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। ৩০ বছর বয়সী নেইমার ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে যে ছবি পোস্ট করেছেন তাতে সমর্থকদের মনে শঙ্কা আরও বাড়বে।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে তার গোড়ালি এখনও বেশ ফুলে আছে। এমন অবস্থায় বুটে যে তার পা ঢুকবে না, এটা নিশ্চিত করেই বলা যায়।

 নেইমারের পা ফুলে ঢোল

বৃহস্পতিবার সার্বিয়ান ডিফেন্ডার নিকোলা মিলেনকোভিচের বাজে একটি ট্যাকেলে নেইমার ডান গোড়ালির ইনজুরিতে পড়ে ৮০ মিনিটে মাঠ ত্যাগ করেন। মাঠ থেকে বেরিয়ে ডাগআউটে নেইমারকে বেশ আবেগপ্রবণ মনে হয়েছিল।

ইনজুরির প্রায় ২৪ ঘণ্টা পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক আবেগঘন পোস্টে নেইমার লিখেন, ‘এই জার্সিটি পরে আমি যে গর্ব ও ভালোবাসা অনুভব করি তা বর্ণনাতীত। যদি সৃষ্টিকর্তা আমাকে কোনো একটি নির্দিষ্ট দেশ বেছে নিতে বলেন যেখানে আমি জন্মাতে চাই তবে আমি আবারও ব্রাজিলকেই বেছে নেব।’

চোটের কাছে হার মানতে নারাজ নেইমার। তিনি বলেছেন ‘এটা যন্ত্রণা দেবে, তবে আমি ফিরে আসতে পারব। কারণ, আমি নিজ দেশ, সতীর্থ এবং নিজেকে সাহায্য করতে সম্ভাব্য সবকিছু করব।’

আরও পড়ুন:
মেসি ম্যাজিকে হাসি ফিরল আর্জেন্টিনার
এমবাপের জোড়া গোলে ফ্রান্স নকআউট পর্বে
আর্জেন্টিনার দলে ৫ পরিবর্তন
সৌদির হারে বাড়ল আর্জেন্টিনার চাপ
চাপ সামলে জয় অস্ট্রেলিয়ার

মন্তব্য

খেলা
Germany will enter the field against Spain in the fight for survival
ফিফা বিশ্বকাপ

টিকে থাকার লড়াইয়ে স্পেনের বিপক্ষে নামছে জার্মানি

টিকে থাকার লড়াইয়ে স্পেনের বিপক্ষে নামছে জার্মানি অনুশীলনে জার্মানির খেলোয়াড়রা। ছবি: এএফপি
২০১০ সালে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হবার পর থেকে আন্তর্জাতিক আসরে স্পেন নিজেদের মেলে ধরতে ব্যর্থ হয়। ২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের পর চার বছর আগে রাশিয়ায় শেষ ১৬ থেকে তাদের বিদায় নিতে হয়েছিল। তবে জার্মানীর বিপক্ষে জিততে পারলে আবারো প্রতিদ্বন্দ্বীতায় ফিরবে স্প্যানিশরা।

সৌদি আরবের কাছে আর্জেন্টিনার হারের পর বিশ্বকাপের আরেক পরাশক্তি দল জার্মানি হেরে বসে জাপানের কাছে। এশিয়ার দুই দেশের কাছে হেরে হট ফেভারিট দুই দল আর্জেন্টিনা ও জার্মানির শঙ্কা জাগে নক আউট পর্বে খেলা নিয়ে।

সে শঙ্কা কিছুটা কাটিয়ে মেক্সিকোর বিপক্ষে স্বস্তির জয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে দুই বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। এবার বিশ্বকাপে টিকে থাকার লড়াইয়ে স্পেনের বিপক্ষে মাঠে নামবে জার্মানি।

কাতারের আল বাইত স্টেডিয়ামে রোববার বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় শুরু হবে ম্যাচটি, তবে জার্মানির বিপক্ষে এ ম্যাচে কাগজে কলমে এগিয়ে থাকবে স্পেন।

ম্যাচের আগে শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে স্ট্রাইকার হাভার্টজ জানান, খেলোয়াড়রা তাদের আত্মবিশ্বাস ধরে রেখেছেন। তবে কোস্টা রিকাকে ৭-০ গোলে উডিয়ে দেয়া স্পেনের বিপক্ষে জয় পাওয়াটাও সহজ হবে না বলেও মনে করেন চেলসির এ স্ট্রাইকার।

হাভার্টজ বলেন, ‘সবাই আমাদের পরিকল্পনা জানে এবং সেটা কিভাবে কাজে লাগাতে হবে সেটা নিয়েই আমরা কাজ করেছি। অবশ্যই আমাদের শতভাগ মনোযোগ এখন ফুটবলকে ঘিরে, অন্য কিছু নয়।’

জাপানের কাছে পরাজয়ে স্পন্সরশিপ হারানোসহ ৩০ বছর ইতিহাসে এ ম্যাচটি সবচেয়ে কম টিভি রেটিং পেয়েছে। হাভার্টজ বিষয়গুলো স্বীকার করে নিয়ে বলেন, ‘আমরা জানি এই মুহূর্তে সবাই আমাদের সঙ্গে নেই। টিম মিটিংয়েও কোচ আমাদের সেই বার্তাটাই দেয়ার চেষ্টা করেছেন।’

এবারের বিশ্বকাপে দুই ইউরোপীয়ান হেভিওয়েট স্পেন ও জার্মানি এই প্রথম কোন ম্যাচে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে। ২০০৬ সালের পর প্রথমবারের মতো স্পেন বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে বড় ব্যবধানে জিতেছে। জার্মানীর বিপক্ষে জয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রাখাই এখন স্পেনের মূল লক্ষ্য।

সর্বশেষ ২০২০ সালের নভেম্বরে ইউয়েফা নেশনস লিগে জার্মানির মুখোমুখি হয়েছিল স্পেন। সে ম্যাচে ৬-০ গোলে হেরেছিল জার্মানি। ১৯ বছরের মধ্যে শেষ সাতবারের মোকাবেলায় জার্মানী মাত্র একবার স্পেনকে হারিয়েছে। ২০১৪ সালের নভেম্বরে প্রীতি ম্যাচটিতে ১-০ গোলে জয়ী হয়েছিল জার্মানী।

২০১০ সালে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হবার পর থেকে আন্তর্জাতিক আসরে স্পেন নিজেদের মেলে ধরতে ব্যর্থ হয়। ২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের পর চার বছর আগে রাশিয়ায় শেষ ১৬ থেকে তাদের বিদায় নিতে হয়েছিল। তবে জার্মানীর বিপক্ষে জিততে পারলে আবারো প্রতিদ্বন্দ্বীতায় ফিরবে স্প্যানিশরা।

ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে দশম স্থানে থাকা জার্মানী সব ধরনের প্রতিযোগিতায় শেষ ১০টি ম্যাচের মাত্র দুটিতে জয়ের দেখা পেয়েছে। কোচ হান্সি ফ্লিক স্বীকার করেছেন স্পেনের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে তার দল অবশ্যই চাপে আছে। চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের এখন একটাই লক্ষ্য অন্তত গ্রুপ পর্ব থেকে যেন টানা দ্বিতীয়বারের মত বিদায় না ঘটে।

আরও পড়ুন:
সাকিব-তামিমদের পথে হাঁটলেন বাবর
সেরা ৫ বোলারের কেউই ভারত-পাকিস্তানের নন
যাত্রার সফল সমাপ্তিতে গর্বিত বাটলার
তারকাদের ভিড়ে টুর্নামেন্ট সেরা কারান
এক যুগ পর শিরোপা ইংল্যান্ডের

মন্তব্য

খেলা
There is only Messi in the fairys eyes

পরীর দু চোখে শুধুই মেসি

পরীর দু চোখে শুধুই মেসি টেলিভিশন পর্দায় মেসির সামনে পরীমনির উল্লাস। ছবি: সংগৃহীত
জয়ের উল্লাসে শামিল হয়েছেন পরীমনি। তাই তো রোববার ভোরে তিনি তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, ‘আল্লাহ রে আমার ঘুম আসতেছে না! মেসি গো মেসি! আমার দুই চোক্ষে শুধুই মেসিইইইইইইই…’

ঘুম আসছে না পরীমনির। অভিনেত্রী মনে করছেন, তার চোখে ফুটবল লেজেন্ড মেসি এসে বসে আছে। বোঝাই যাচ্ছে আর্জেন্টিনার এ সমর্থক কতটা আনন্দে আছেন।

শনিবার রাতে মেক্সিকোকে হারিয়ে ফিফা বিশ্বকাপে প্রথম জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনা। আর এই উল্লাস শুরু হয় মেসির দেয়া গোলের মাধ্যমে।

জয়ের উল্লাসে শামিল হয়েছেন পরীমনি। তাই তো রোববার ভোরে তিনি তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, ‘আল্লাহ রে আমার ঘুম আসতেছে না! মেসি গো মেসি! আমার দুই চোক্ষে শুধুই মেসিইইইইইইই…’

শুধু এটাই না, আর্জেন্টিনা-মেক্সিকো খেলা শেষেও ফেসবুকে পোস্ট করে উল্লাস করেছেন এই অভিনেত্রী। একটি ভিডিও পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, ‘মেসি একটা ভালোবাসা।’

এক ভিডিওতে দেখা যায়, খেলা শেষে মেসি ক্যামেরার সামনে এসে অনুভূতি জানাচ্ছেন, আর পরী টিভিস্ক্রিনের সামনে গিয়ে মেসিকে দিচ্ছেন উরন্ত চুমু।

খেলার ৬৩ মিনিটের দিকে মেসি প্রথম গোল করলে ফেসবুকে পোস্ট করেন পরী। টিভির পর্দা থেকে তোলা একটি ছবি দিয়ে তিনি লেখেন, ‘ওহ মেসি, আই লাভ ইউ।’

আরও পড়ুন:
পরীর জন্য রাজের ‘জার্সি বদল’
আবারও রাজকে নিয়ে মিমকে খোঁচা পরীমনির
পরীর সমর্থন আর্জেন্টিনায়, রাজের ব্রাজিলে

মন্তব্য

খেলা
Enzo recognized himself

নিজেকে চেনালেন এনজো

নিজেকে চেনালেন এনজো বিশ্বকাপে নিজের প্রথম গোল উদযাপন করছেন আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার এনজো ফার্নান্দেস। ছবি: এএফপি
২০০৬ সালে যেটি করেছিলেন মেসি, ২০২২ সালে তা করে দেখালেন ফার্নান্দেস। সবচেয়ে কম বয়সে আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ্বকাপে গোল করে রেকর্ড বুকে থাকলেন দ্বিতীয় হয়ে। তখন মেসির বয়স ছিল ১৯ বছর আর ফার্নান্দেস জালের দেখা পেলেন ২১ বছর বয়সে।

বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সৌদি আরবের কাছে হেরে শঙ্কা জাগে নক আউট পর্বে ওঠা নিয়ে। সেই শঙ্কা কাটিয়ে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপে টিকে থাকার লড়াইয়ে মেক্সিকোর বিপক্ষে ২-০ গোলের স্বস্তির জয় পেল দুই বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

গুরুত্বপূর্ণ এ ম্যাচে দলের হয়ে গোল করেছেন লিওনেল মেসি ও এনজো ফার্নান্দেস। মেসির পর আর্জেন্টিনার হয়ে ফার্নান্দেস গড়েছেন সবচেয়ে কম বয়সে গোল করার কীর্তি। সেই সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে দলকে সাহায্য করে গড়েছেন রেকর্ডও।

বিরতির পর তখনও কোনো গোলের দেখা পায়নি মেসি-দি মারিয়ারা। সে সময়ে কোচ লিওনেল স্কালোনি গিদো রদ্রিগেসের জায়গায় নামান এনজো ফার্নান্দেসকে। আর সেই সুযোগের সবটুকু লুফে নেন প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলতে আসা এনজো।

২০০৬ সালে যেটি করেছিলেন মেসি, ২০২২ সালে তা করে দেখালেন ফার্নান্দেস। সবচেয়ে কম বয়সে আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ্বকাপে গোল করে রেকর্ড বুকে থাকলেন দ্বিতীয় হয়ে। তখন মেসির বয়স ছিল ১৯ বছর আর ফার্নান্দেস জালের দেখা পেলেন ২১ বছর বয়সে।

আর্জেন্টাইন এই মিডফিল্ডার বর্তমানে লিগ পর্তুগাল ও চ্যাম্পিয়নস লিগে বেনফিকার হয়ে খেলছেন। ক্লাবটির হয়ে ১৩ ম্যাচ খেলে একটি গোল করেছেন তিনি। এ ছাড়া তিনি খেলেছেন আর্জেন্টিনার ক্লাব রিভার প্লেটের হয়ে।

মেক্সিকোর বিপক্ষে ম্যাচে ফার্নান্দেসকে গোল করতে সহায়তা করা মেসিও এ দিন গড়েছেন ভিন্ন রেকর্ড।

আর্জেন্টিনা জার্সিতে পঞ্চম বিশ্বকাপে এসে ছুঁয়েছেন কিংবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনাকে। বিশ্বকাপে ম্যারাডোনার ২১ ম্যাচে ৮ গোলের কীর্তি সমান ম্যাচেই ছুঁয়ে এখন সামনে এগোনোর সুযোগ পাচ্ছেন মেসি।

মেক্সিকোর বিপক্ষে বাঁচা-মরার ম্যাচে গোল করে মেসি বসেছেন কম বয়সী ও বেশি বয়সী ফুটবলার হিসেবে গোল করার যৌথ রেকর্ডে। ১৯৬৬ সালের পর গোল পাওয়া কোনো বর্ষীয়ান হিসেবেও নাম লিখিয়েছেন তিনি। গোল এনেছেন ৩৫ বছর ১৫৫ দিন বয়সে।

আরও পড়ুন:
সৌদির হারে বাড়ল আর্জেন্টিনার চাপ
চাপ সামলে জয় অস্ট্রেলিয়ার
আর্জেন্টিনার সামনে যেসব সমীকরণ
সৌদি ফুটবলারদের রোলস রয়েস পাওয়ার খবরটি ভুয়া
মুহিন-ঝিলিকের ‘ছুটছে মেসি ছুটছে নেইমার’

মন্তব্য

p
উপরে