× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

খেলা
Some new rules are included in cricket
hear-news
player
google_news print-icon

ক্রিকেটে অন্তর্ভুক্ত হলো নতুন কয়েকটি নিয়ম

ক্রিকেটে-অন্তর্ভুক্ত-হলো-নতুন-কয়েকটি-নিয়ম
আইসিসির প্রধান নির্বাহী কমিটির সভা। ফাইল ছবি
মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে পরিবর্তনের কথা জানিয়েছে আইসিসি। এ বছরের ১ অক্টোবর থেকে পরিবর্তন হওয়া নতুন নিয়মগুলো কার্যকর হবে। 

ভারতের সৌরভ গাঙ্গুলীর নেতৃত্বাধীন পুরুষ ক্রিকেট কমিটির সুপারিশ অনুমোদন করেছে আইসিসি প্রধান নির্বাহীদের কমিটি (সিইসি)। তাদের অনুমোদনের পর প্লেয়িং কন্ডিশনে বেশ কিছু পরিবর্তনের ঘোষণা করেছে ক্রিকেটের প্রধান সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে পরিবর্তনের কথা জানিয়েছে আইসিসি। এ বছরের ১ অক্টোবর থেকে পরিবর্তন হওয়া নতুন নিয়মগুলো কার্যকর হবে।

যে নিয়মগুলো বদলানো হয়েছে সেগুলো হলো:

ক্যাচ আউটে নতুন ব্যাটারের অবস্থান: নতুন নিয়মে কোনো ব্যাটার ক্যাচ আউট হলে, ক্রিজে আসা নতুন ব্যাটার স্ট্রাইকে খেলবেন। এতদিন নিয়ম ছিল, ব্যাটার ক্যাচ আউট হলে ক্রিজে থাকা দুই ব্যাটার যদি নিজেদের ক্রস করে ফেলেন, তা হলে নতুন ব্যাটার নন স্ট্রাইক প্রান্তে থাকেন। নতুন নিয়মে এটি আর থাকছে না।

বলে লালার ব্যবহারে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা: করোনাভাইরাস শুরুর পর থেকে বলে লালা ব্যবহার নিষিদ্ধ করে আইসিসি। গত দুইবছর ধরে চলা সেই নিষেধাজ্ঞা বজায় রেখেছে তারা। আগের নিয়মে বলে লালা লাগালে প্রথমবার দলকে সতর্ক করা হতো। দ্বিতীয়বার করলে দেওয়া হতো শাস্তি।

নতুন ব্যাটারের ব্যাটিং শুরুর সময়: টেস্ট ও ওয়ানডে ফরম্যাটে ২ মিনিটের মধ্যে নতুন ব্যাটারকে প্রথম বল খেলতে হবে। বর্তমান নিয়মে ওয়ানডে ও টেস্টে ব্যাটাররা ৩ মিনিট সময় পান। আর টি-টোয়েন্টিতে ৯০ সেকেন্ডই থাকছে।

পিচে খেলতে হবে ব্যাটার ও বোলারকে: যেকোনো ডেলিভারি খেলার জন্য ব্যাটারের ব্যাট বা শরীরের যে কোনো অংশ পিচের ভেতরেই থাকতে হবে। না থাকলে ডেড বল হিসেবে গণ্য হবে। আবার বোলারের কোনো ডেলিভারি যদি ব্যাটারকে পিচের বাইরে নিয়ে যায়, তবে সেটি নো বল ডাকা হবে।

বোলিং শুরুর পর ফিল্ডিং পরিবর্তন করা যাবে না: বোলার বোলিংয়ের জন্য দৌঁড় শুরু করার পর ফিল্ডিং দল নিজেদের অবস্থান পরিবর্তন করতে পারবে না। নতুন নিয়মে এটি করলে ব্যাটিং দলকে পেনাল্টি হিসেবে ৫ রান দেয়া হবে। পাশাপাশি ঐ ডেলিভারিটি ডেড বল ঘোষণা করা হবে।

নন-স্ট্রাইকারকে মানকাডিং আউটের বৈধতা: এতোদিন ধরে মানকাডিং আউটকে ক্রিকেটে নৈতিকতা পরিপন্থী বিবেচনা করা হতো। নতুন নিয়মে মানকাডিং রান আউট হিসেবে গণ্য হবে।

বল ডেলিভারির আগেই স্ট্রাইকারকে রান আউটের চেষ্টা বাতিল: এতদিন কোনো বোলার বোলিং করার আগে যদি দেখেন, ব্যাটার ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়েছেন তখন থ্রো করে স্ট্রাইকের ব্যাটারকে রান আউটের সুযোগ ছিল। তবে নতুন নিয়মে এটি করা যাবে না।

অন্যান্য বড় সিদ্ধান্ত: এ বছরের জানুয়ারি থেকে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে স্লো ওভার রেটের কারনে ম্যাচের মধ্যে পেনাল্টি দেয়া শুরু হয়। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ইনিংস শেষ করতে না পারলে বৃত্তের বাইরে একজন কম ফিল্ডার নিয়ে খেলতে হয় ফিল্ডিং দলকে। চলতি বিশ্বকাপ সুপার লিগ শেষে ওয়ানডে ক্রিকেটেও এটি কার্যকর করা হবে।

আরও পড়ুন:
ভারত আইসিসির ‘পছন্দের ছেলে’
ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে সেরা দশে মুস্তাফিজ
উইজডেনের অনূর্ধ্ব ২৫ একাদশে নেই বাংলাদেশের কেউ

মন্তব্য

আরও পড়ুন

খেলা
Papon target final

পাপনের টার্গেট ফাইনাল

পাপনের টার্গেট ফাইনাল থাইল্যান্ডকে ৯ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। ছবি: নিউজবাংলা
‘আমাদের প্রথম টার্গেট সেমিফাইনাল, এরপর ফাইনাল। ফাইনালেও ভালো খেলার আশা করছি। এশিয়া কাপ জয়ের পথে ভারত বড় বাধা হতে পারে, গত এক বছরে তারা অনেক ইম্প্রুভ করেছে। বাংলাদেশও অনেক ইম্প্রুভ করেছে। তাই বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচটা টাইট হবে।’

থাইল্যান্ডকে ৯ উইকেটে হারিয়ে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বড় জয় তুলে নিয়েছে নিগার সুলতানা জ্যোতি বাহিনী। নারী ক্রিকেটারদের এমন জয়ে বেজায় খুশি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তবে তার লক্ষ্য ফাইনাল, এশিয়া কাপ জয়।

শনিবার সিলেটে উদ্বোধনী ম্যাচের পর সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘আমরা যদি র‍্যাঙ্কিং দেখি সেখানে বাংলাদেশের অবস্থান ৯ নম্বরে। এরপর আয়ারল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, থাইল্যান্ড ও জিম্বাবুয়ে কাছাকাছি মানের।

‘থাইল্যান্ড শক্তিশালী প্রতিপক্ষ। তাদের নিয়ে একটু ভয় পাচ্ছিলাম, টাইট ম্যাচ হবে মনে করেছিলাম। কিন্তু আমাদের মেয়েরা যেভাবে খেলেছে, আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলেছে, তা দেখে খুবই ভালো লাগছে।’

উদ্বোধনের পর বিসিবি সভাপতি পুরো ম্যাচ দেখেন গ্যালারিতে বসে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের মেয়েরা অনেকদিন ধরেই ভালো খেলছে। এর আগেও কোয়ালিফাই চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছে, এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে, সাফ গেমসে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। তারাতো ধারাবাহিকভাবে ভালো করছে।’

এশিয়া কাপে বাংলাদেশ দলের ফাইনালে খেলার সম্ভাবনার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রথম টার্গেট সেমিফাইনাল, এরপর ফাইনাল। ফাইনালেও ভালো খেলার আশা করছি। এভাবে ভালো খেলতে থাকলে সফলতা আসবেই।

‘এশিয়া কাপ জয়ের পথে ভারত বড় বাধা হতে পারে, গত এক বছরে তারা অনেক ইম্প্রুভ করেছে। তারা ক্রিকেটের পরাশক্তি অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের মতো দলকে হারাচ্ছে। বাংলাদেশও অনেক ইম্প্রুভ করেছে। তাই বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচটা টাইট হবে।’

আরও পড়ুন:
পরিকল্পনা কাজে লাগিয়েছেন বোলাররা: জ্যোতি
জয় দিয়ে এশিয়া কাপ শুরু টাইগ্রেসদের
শনিবার শুরু হচ্ছে নারী এশিয়া কাপ

মন্তব্য

খেলা
India started the Asia Cup with a win

জয় দিয়ে এশিয়া কাপ শুরু ভারতের

জয় দিয়ে এশিয়া কাপ শুরু ভারতের ভারতের দিপ্তী শর্মার থ্রোতে লঙ্কান ব্যাটার মালশা শেহানীর রান আউট। ছবি: সংগৃহীত
জবাবে শুরু থেকেই ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় শ্রীলঙ্কার মেয়েরা। ২৫ রানের উদ্বোধনী জুটি ভেঙে সাজঘরে ফিরেন চামারী অথপথু। তিনি ২০ বলে ২৬ রান করে আউট হন।

নারীদের এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বড় জয় দিয়ে আসর শুরু করেছে ভারত। শুরুতে উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়লেও শেষ পর্যন্ত জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে হরমনপ্রীত কৌরের দল।

এশিয়া কাপের দ্বিতীয় ম্যাচে শনিবার সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামে ভারত। নির্ধারিত ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫০ রানের পুঁজি দাঁড় করায় দলটি। জবাবে ১০৯ রানে গুটিয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। এতে করে ৪১ রানের দারুণ জয় পায় ভারত নারী দল।

ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি ভারতের। দলীয় ১৩ রানে স্মৃতি মান্ধানার উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে তারা। ৭ বলে ৬ রান করে আউট হন স্মৃতি। আরেক ওপেনার ব্যাটার শেফালি ভার্মাও ফিরে যান দ্রুতই। ১০ বলে ১১ রান করে সাজঘরের পথ ধরেন।

দুই ওপেনারকে ব্যাটারকে হারিয়ে ঘুরে দাঁড়ায় ভারত। অধিনায়ক হরমানপ্রিত কৌরের সঙ্গে ৯২ রানের জুটি গড়েন জেমিমাহ রদ্রিগেজ। তবে জুটি ভেঙে অধিনায়ক কৌর আউট হলে দলের হাল ধরেন জেমিমাহ রদ্রিগেস।

৩০ বলে ৩৩ রান করে কৌর ফিরে গেলেও নিজের হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন রদ্রিগেস। ১১ চার ও ১ ছক্কায় ৫৩ বলে ৭৬ রান করেন তিনি। ফলে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫০ রানের সংগ্রহ পায় ভারত।

জবাবে শুরুতেই ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় শ্রীলঙ্কার মেয়েরা। ২৫ রানের উদ্বোধনী জুটি ভেঙে সাজঘরে ফেরেন চামারী অথপথু। তিনি ২০ বলে ২৬ রান করে আউট হন।

অথপথুর আউটের পর রীতিমতো ধস নামে লঙ্কানদের ব্যাটিংয়ে। ৬১ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারায় দলটি।

সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি লঙ্কান মেয়েরা। ব্যাটারদের আসা যাওয়ার মাঝে হাসিনি পেরেরার ৩২ বলে ৩০ রানে শুধু হারের ব্যবধানই কমিয়েছে। জয়ের জন্য আর কোনো লঙ্কান ব্যাটার প্রতিরোধ গড়তে পারেননি ভারতের বিপক্ষে।

ভারতের পক্ষে ২ ওভার ২ বল খেলে ১৫ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন দায়ালান হেমালাতা।

আরও পড়ুন:
পরিকল্পনা কাজে লাগিয়েছেন বোলাররা: জ্যোতি
জয় দিয়ে এশিয়া কাপ শুরু টাইগ্রেসদের
‘খেলা হবে’ দিবসের সেই এমপি এবার নেচে ভাইরাল

মন্তব্য

খেলা
Bowlers put plans into action Jyoti

পরিকল্পনা কাজে লাগিয়েছেন বোলাররা: জ্যোতি

পরিকল্পনা কাজে লাগিয়েছেন বোলাররা: জ্যোতি বাংলাদেশের উইকেট উদযাপন। ছবি: বিসিবি
বাংলাদেশের হয়ে তিনটি উইকেট নেন রুমানা আহমেদ। দুটি করে উইকেট নেন নাহিদা আক্তার, সানজিদা আক্তার ও সোহেলি আক্তার। একটি উইকেট যায় সালমা খাতুনের ঝুলিতে।

বড় জয়ে এশিয়া কাপের মিশন শুরু করলেন টাইগ্রেসরা। থাইল্যান্ডকে ৯ উইকেটে হারিয়ে দিয়ে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই জয় তুলে নিয়েছে নিগার সুলতানা জ্যোতি বাহিনী।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ম্যাচের শুরু থেকেই টাইগ্রেস বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে নাজেহাল হয়ে পড়ে থাইল্যান্ড। রানের চাকার গতি কমিয়ে দেয়ার পাশাপাশি নিয়মিত বিরতিতে উইকেট তুলে নিতে থাকেন রুমানা-সানজিদারা। এতে ৮২ রানেই গুটিয়ে যায় থাইল্যান্ড।

বাংলাদেশের হয়ে তিনটি উইকেট নেন রুমানা আহমেদ। দুটি করে উইকেট নেন নাহিদা আক্তার, সানজিদা আক্তার ও সোহেলি আক্তার। একটি উইকেট যায় সালমা খাতুনের ঝুলিতে।

বোলাররা অল্পতে আটকে দেয়ার পর ব্যাট হাতে থাইল্যান্ডকে জবাব দিতে খুব একটা বেগ পেতে হয়নি শামিমা-ফারজানাদের। ৯ উইকেট ও ৫৪ বল হাতে রেখেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা।

দুর্দান্ত এই জয়ের পুরো কৃতিত্ব বোলারদের দিচ্ছেন জাতীয় দলের অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি। বোলাররা পরিকল্পনা কাজে লাগাতে পেরেছেন বলেই এমন দুর্দান্ত পারফরম্যান্স এসেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

ম্যাচ শেষে নিগার বলেন, ‘যেভাবে মেয়েরা আজ বোলিং করেছে, সেটা আসলেই দুর্দান্ত ছিল। আমরা পরিকল্পনা কাজে লাগাতে পেরেছি। আমরা তাদের আটকে দিয়েছি।

‘তাতে করে আমাদের আত্মবিশ্বাস বেড়ে গিয়েছিল ও আমরা ব্যাট হাতেও ভালো করতে পেরেছি। আমাদের এক রান দরকার ছিল। আমরা চেষ্টা করেছিলাম ছক্কা মেরে শেষ করতে।’

নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সোমবার মাঠে নামবে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সকাল ৯টা থেকে শুরু হবে ম্যাচটি।

আরও পড়ুন:
প্রথম নারী এফটিপিতে টাইগ্রেসরা খেলবে ৫০ ম্যাচ
ডিএলএস নিয়মে থাইল্যান্ডের কাছে হারল বাংলাদেশ
বিশ্বকাপ বাছাইয়ে নারীদের অধিনায়ক নিগার সুলতানা
বাছাই দিয়ে কমনওয়েলথ গেমস খেলতে হবে জাহানারাদের
প্রস্তুত হয়েই আমিরাত যাচ্ছেন সালমা-জাহানারা

মন্তব্য

খেলা
Bangladeshs World Cup jersey has been unveiled

জামদানি, সুন্দরবন, বাঘ নিয়ে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জার্সি

জামদানি, সুন্দরবন, বাঘ নিয়ে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জার্সি জাতীয় দলের বিশ্বকাপের জার্সি। ছবি: সংগৃহীত
এবারের জার্সির থিম সাজানো হয়েছে ঐতিহ্যবাহী জামদানি, রয়েল বেঙ্গল টাইগার ও সুন্দরবন নিয়ে। গাঢ় সবুজ রঙের সঙ্গে ব্যবহার করা হয়েছে টকটকে লাল রং; রয়েছে জলছাপ। বুকের বাম দিকে বিসিবি ও ডানে বিশ্বকাপের লোগো। বুকের নিচে সাদা রঙে ‘বাংলাদেশ’ লেখা।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসতে যাচ্ছে ২২ অক্টোবর। এর আগে ১৬ অক্টোবর থেকে মাঠে গড়াবে বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব। এবারের আসরে বাংলাদেশ সরাসরি খেলবে মূল পর্বে।

বিশ্বকাপ ও ত্রিদেশীয় সিরিজকে সামনে রেখে শুক্রবার দেশ ছেড়েছেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। সেদিনই বিশ্বকাপের জার্সি উন্মোচন করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

নিজেদের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে শুক্রবার রাতে একটি ট্রেইলার পোস্ট দিয়ে এই জার্সি উন্মোচন করে বোর্ড।

এবারের জার্সির থিমে প্রাধান্য পেয়েছে ঐতিহ্যবাহী জামদানি, রয়েল বেঙ্গল টাইগার ও সুন্দরবন। গাঢ় সবুজ রঙের সঙ্গে ব্যবহার করা হয়েছে টকটকে লাল রং। রয়েছে জলছাপ। বুকের বাম দিকে বিসিবি ও ডানে বিশ্বকাপের লোগো। বুকের নিচে সাদা রঙে বাংলাদশ লেখা।

বিশ্বকাপের আগে নিজেদের শেষবারের মতো ঝালিয়ে নিতে নিউজিল্যান্ড ও পাকিস্তানের সঙ্গে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। ৭ অক্টোবর পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের মধ্য দিয়ে শুরু হবে সিরিজটির আনুষ্ঠানিকতা।

সিরিজ শেষ করে সরাসরি বিশ্বকাপের বিমানে চড়বে বাংলাদেশ। এবারের আসরে গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ভারত, পাকিস্তান, সাউথ আফ্রিকা ও বাছাইপর্ব থেকে উঠে আসা দুটি দল।

মূল পর্বের খেলার আগে আফগানিস্তান ও সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচও খেলবে বাংলাদেশ।

২৪ অক্টোবর বাছাইপর্ব থেকে আসা দলের বিপক্ষে ম্যাচের মধ্য দিয়ে শুরু হবে টাইগারদের বিশ্বকাপের লড়াই।

আরও পড়ুন:
বাংলাদেশের বিপক্ষে পাকিস্তান দলের মেন্টর হেইডেন
প্রোটিয়া ও আফগানদের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ সাকিবদের
৩ বছর পর ইংল্যান্ড দলে হেইলস
অভিজ্ঞ ও তরুণদের নিয়ে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা নেদারল্যান্ডসের
আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে শুরু নারী দলের বাছাইপর্ব

মন্তব্য

খেলা
Jamaica tasted the title after six years
সিপিএল

৬ বছর পর শিরোপা জ্যামাইকার

৬ বছর পর শিরোপা জ্যামাইকার জ্যামাইকার শিরোপা উল্লাস। ছবি: সংগৃহীত
বার্বাডোজের দেয়া ১৬২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেট ও ২৩ বল হাতে রেখেই জয় পায় জ্যামাইকা। এর মধ্য দিয়ে কাটে তাদের ৬ বছরের শিরোপাখরা।

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) ফাইনালে টেবিলের শীর্ষে থাকা বার্বাডোজ রয়্যালসকে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তুলেছে জ্যামাইকা তালাওয়াশ।

এর মধ্য দিয়ে ৬ বছরের শিরোপাখরা ঘুচেছে দলটির।

সবশেষ ২০১৬ সালে সিপিএলের শিরোপা নিয়েছিল জ্যামাইকা।

বার্বাডোজের দেয়া ১৬২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেট ও ২৩ বল হাতে রেখেই জয় পায় জ্যামাইকা।

গায়ানার প্রভিডেন্স স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দুর্দান্ত হয় বার্বাডোজের। রাকিম কর্নওয়েল ও কাইল মায়ার্সের উদ্বোধনী জুটিতেই আসে ৬৩ রান।

এই দুই ওপেনারকে অল্পতেই থামিয়ে দিয়ে ব্রেক থ্রু আনেন ফ্যাবিয়ান অ্যালেন। ৩৬ রানে ইমাদ ওয়াসিমের তালুবন্দি হয়ে সাজঘরের পথ ধরেন কর্নওয়েল। আর মায়ার্স ফেরেন ১৯ বলে ২৯ করে।

উইকেটের এক প্রান্তে আশা-যাওয়ার মিছিল শুরু হলেও অপর প্রান্ত আগলে ধরে দুর্দান্ত এক অর্ধশতকের ইনিংস খেলেন আজম খান।

শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬১ রানের পুঁজি পায় বার্বাডোজ।

জ্যামাইকার হয়ে তিনটি করে উইকেট পান ফ্যাবিয়ান অ্যালেন ও নিকোলসন গর্ডন। একটি উইকেট যায় ইমাদ ওয়াসিমের ঝুলিতে।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের চতুর্থ বলেই রানের খাতা খোলার আগে সাজঘরে ফিরতে হয় জ্যামাইকার ওপেনার কেনার লুইসকে।

এরপর শামারাহ ব্রুকস ও ব্রেন্ডন কিং মিলে গড়ে তোলেন প্রতিরোধ। ব্রুকস ৪৭ রানে বিদায় নিলেও অধিনায়ক রভম্যান পাওয়েলকে নিয়ে বাকি কাজটা সারেন কিং।

৫০ বলে ৮৩ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলার পাশাপাশি দলকে এনে দেন ৮ উইকেটের বড় জয়।

আরও পড়ুন:
সাকিবের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে প্লে অফে গায়ানা
সাকিব নৈপুণ্যে গায়ানার জয়
সিপিএলের দ্বিতীয় ম্যাচে ২ উইকেট শিকার সাকিবের
ওয়ারিয়র্সের হয়ে জ্বলে উঠতে পারেননি সাকিব
ওয়ারিয়র্স ক্যাম্পে যোগ দিলেন সাকিব

মন্তব্য

খেলা
Tigresses start Asia Cup mission with victory

জয় দিয়ে এশিয়া কাপ শুরু টাইগ্রেসদের

জয় দিয়ে এশিয়া কাপ শুরু টাইগ্রেসদের জয়সূচক রানের দৌড়ে বাংলাদেশের দুই ব্যাটার। ছবি: বিসিবি
থাইল্যান্ডের দেয়া ৮৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৫৪ বল ও ৯ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ।

বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। জয়ের সেই ধারাবাহিকতা অব্যাহত রইল এশিয়া কাপের শুরুতেও।

থাইল্যান্ডের বিপক্ষে ৯ উইকেটের বড় জয় দিয়ে এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের লড়াই শুরু করলেন জাহানারা-সালমারা।

থাইল্যান্ডের দেয়া ৮৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৫৪ বল ও ৯ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে টাইগ্রেস বোলারদের চেপে ধরা বোলিংয়ে শুরু থেকেই চাপে পড়ে থাইল্যান্ড।

১৬ রান তুলতেই তারা হারায় দুই টপ অর্ডারকে। ওপেনার নান্নাপাত মেঘলার শিকার হয়ে মাঠ ছাড়েন ৮ রান করে। আর অধিনায়ক নরেমল চাইওয়াইয়ের ব্যাট থেকে আসে ২ রান।

এরপর নাত্থাকান চানথাম ও ফান্নিতা মায়ার জুটিতে ভর করে কিছুটা হলেও ট্র্যাকে ফেরার চেষ্টা চালায় থাইল্যান্ড, কিন্তু দলীয় ৫৪ রানে মায়া ও ৫৯ রানে চানথামের বিদায়ের পর তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে থাইল্যান্ডের ব্যাটিং লাইনআপ।

মায়া ও চানথামের বিদায়ের পর শুধু তিপোচ ও রজনানের পক্ষে সম্ভব হয় দুই অঙ্কের রান ছোঁয়া। বাকিদের মাঠ ছাড়তে হয় এক অঙ্কে আটকে থেকেই।

শেষ পর্যন্ত টাইগ্রেস বোলারদের দাপুটে বোলিংয়ে সব উইকেট হারিয়ে ৮২ রানের পুঁজি নিয়ে মাঠ ছাড়ে থাইল্যান্ড।

বাংলাদেশের হয়ে তিনটি উইকেট নেন রুমানা আহমেদ। দুটি করে উইকেট নেন নাহিদা আক্তার, সানজিদা আক্তার ও সোহেলি আক্তার। একটি উইকেট যায় সালমা খাতুনের ঝুলিতে।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ৬৯ রানে ১ রানের জন্য অর্ধশতক হাতছাড়া হওয়ার আক্ষেপ নিয়ে শামিমা সুলতানা মাঠ ছাড়েন। বাকি কাজটা সেরে আসেন ফারজানা হক ও নিগার সুলতানা জ্যোতি। দলকে ৯ উইকেটের বড় জয় এনে দিয়ে মাঠ ছাড়েন এ দুই ব্যাটার।

আরও পড়ুন:
প্রথম নারী এফটিপিতে টাইগ্রেসরা খেলবে ৫০ ম্যাচ
ডিএলএস নিয়মে থাইল্যান্ডের কাছে হারল বাংলাদেশ
বিশ্বকাপ বাছাইয়ে নারীদের অধিনায়ক নিগার সুলতানা
বাছাই দিয়ে কমনওয়েলথ গেমস খেলতে হবে জাহানারাদের
প্রস্তুত হয়েই আমিরাত যাচ্ছেন সালমা-জাহানারা

মন্তব্য

খেলা
England returned to parity with the bat of Salt

সল্টের ব্যাটে সমতায় ফিরল ইংল্যান্ড

সল্টের ব্যাটে সমতায় ফিরল ইংল্যান্ড খেলার একটি মুহূর্ত। ছবি: এএফপি
সিরিজের ষষ্ঠ ম্যাচে বাবর আজমের বিধ্বংসী ৫৯ বলে ৮৭ রানের সুবাদে ৬ উইকেটে ১৬৯ রানের পুঁজি পায় স্বাগতিকরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ফিল সল্টের ৪১ বলে ৮৮ রানের সুবাদে ৮ উইকেটের জয়ে সিরিজে ফেরে সফরকারীরা।

সিরিজটি ৭ ম্যাচের। এই সাত ম্যাচের সিরিজের এক ম্যাচে পাকিস্তান জয় পায় তো পরের ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়ায় ইংল্যান্ড। সিরিজের পঞ্চম ম্যাচেই শেষ ওভারে নাটকীয় জয় দিয়ে ৩-২ এ এগিয়ে গিয়েছিল পাকিস্তান। পরের ম্যাচেই দাপটের সঙ্গে বাগিয়ে নেয়া জয়ে সিরিজে সমতায় ফিরল ইংলিশরা।

সিরিজের ষষ্ঠ ম্যাচে বাবর আজমের বিধ্বংসী ৫৯ বলে ৮৭ রানের সুবাদে ৬ উইকেটে ১৬৯ রানের পুঁজি পায় স্বাগতিকরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ফিল সল্টের ৪১ বলে ৮৮ রানের সুবাদে ৮ উইকেটের জয়ে সিরিজে ফেরে সফরকারীরা। এতে সিরিজের শেষ ম্যাচটি হতে যাচ্ছে অলিখিত ফাইনাল।

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টসে জিতে পাকিস্তানকে ব্যাট করতে পাঠায় ইংল্যান্ড। ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৫ রানেই মোহাম্মদ হারিস ও শান মাসুদের উইকেট হারায় স্বাগতিকরা।

তবে দ্রুত দুই উইকেট পতনের রেশ কাটানোর দায়িত্বভার কাঁধে তুলে নেন বাবর আজম। উইকেটের অপরপ্রান্ত থেকে সাড়া না মিললেও তিনি একাই চালাতে থাকেন ব্যাট।

সঙ্গী হিসেবে থাকা হায়দার আলির ব্যাট থেকে আসে ১৮ রান। ইফতিখার আহমেদ খেলেন ২১ বলে ৩১ রানের ইনিংস, মোহাম্মদ নেওয়াজ ১২ ও আসিফ আলির ব্যাট থেকে আসে ৯ রান।

শেষ পর্যন্ত বাবরের হার না মানা ৫৯ বলে ৮৭ রানের ইনিংসে ভর করে ইংল্যান্ডের সামনে ১৭০ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দেয় পাকিস্তান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই পাক বোলাররা তোপের মুখে পড়েন ফিল সল্টের। অ্যালেক্স হেলস ১২ বলে ২৭ ও ডাওয়িড মালান ১৮ বলে ২৬ করে বিদায় নিলেও উইকেট কামড়ে ধরে লাহোরে ঝড় তোলেন সল্ট।

তার অপরাজিত ৪১ বলে ৮৮ রানের ইনিংসের সুবাদে ৮ উইকেটের জয় নিয়ে ৩-৩ ব্যবধানে সিরিজে সমতা আনে ইংল্যান্ড।

আরও পড়ুন:
টস হেরে বোলিংয়ে বাংলাদেশ
ত্রিদেশীয় সিরিজ ও বিশ্বকাপ মিশনে দেশ ছেড়েছে জাতীয় দল
শনিবার শুরু হচ্ছে নারী এশিয়া কাপ

মন্তব্য

p
উপরে