× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

খেলা
Sanjida is feeling sorry
hear-news
player
print-icon

খোলা বাসের স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে সানজিদার

খোলা-বাসের-স্বপ্ন-পূরণ-হচ্ছে-সানজিদার
খেলার একটি মুহূর্ত। ছবি: সংগৃহীত
সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ সাউথ এশিয়ার ফুটবলের সবচেয়ে বড় টুর্নামেন্ট। টুর্নামেন্টের শিরোপাজয়ী স্বভাবতই হবে এশিয়ার সেরা দল। সেই সেরা দল হিসেবে এবার আত্মপ্রকাশ হলো বাংলাদেশের।

শিরোপাজয়ী দল শিরোপাসহ পুরো শহর ঘুরবে ছাদখোলা বাসে। এটাই শিরোপা জয়ের পর দেশে ফেরা দলের জন্য চিরাচরিত দৃশ্য। একটি প্রথাও বলা যায় একে। বড় কোনো শিরোপা জিতে দল দেশে ফিরলে তাদের ছাদখোলা বাসে করে শহর প্রদক্ষিণ করিয়ে হেড কোয়ার্টারে নিয়ে যাওয়া হয়।

সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ সাউথ এশিয়ার ফুটবলের সবচেয়ে বড় টুর্নামেন্ট। টুর্নামেন্টের শিরোপাজয়ী স্বভাবতই হবে এশিয়ার সেরা দল। সেই সেরা দল হিসেবে এবার আত্মপ্রকাশ হল বাংলাদেশের।

নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো নারী সাফের শিরোপার স্বাদ পেল বাংলার মেয়েরা।

জাতীয় দলের মেয়ে বিভাগটা বরাবরই নিগৃহের শিকার। ক্রিকেট, ফুটবল দুই খেলাতেই। সে কারণে নারীদের টুর্নামেন্ট নিয়ে খুব একটা মাথাব্যথা থাকে না বোর্ড কর্তাদের। কিন্তু বাংলাদেশের ক্রীড়া ক্ষেত্রে বড় দুই সফলতা, সাফ ও এশিয়া কাপের শিরোপা দুটিই এসেছে বাংলার মেয়েদের হাত ধরে।

প্রথমটা আসে ক্রিকেটের কল্যাণে। এশিয়া কাপের শিরোপা জিতে এশিয়ার সেরা হয়েছিলেন জাহানারা-সালমারা। এবার এশিয়ার ফুটবলের সর্বোচ্চ টুর্নামেন্ট সাফ জিতে ইতিহাস গড়লেন সাবিনা-কৃষ্ণারা।

এশিয়া কাপ জয়ের পর খুব একটা আলোচনাই হয়নি টাইগ্রেসদের নিয়ে। তাদের নিয়ে ছিল না বিসিবির আলাদা কোনো আয়োজন। ফুটবলেও যে বাংলার মেয়েরা খুব একটা সুবিধা শুরু থেকেই পেয়েছে সেটিও বলার জো নেই। সেই না পাওয়ার আক্ষেপটাই ফুট উঠেছে বারবার।

ফাইনালের আগে আক্ষেপ প্রকাশ করে জাতীয় দলের উইঙ্গার সানজিদা বলেছিলেন, ‘ছাদখোলা চ্যাম্পিয়ন বাসে ট্রফি নিয়ে না দাঁড়ালেও চলবে, শুধু শিরোপা জিততে চাই আমরা।’ তার এই আক্ষেপ মন ছুঁয়েছে সবার।

শিরোপা বাংলাদেশ জিতেছে। কিন্তু সেই আক্ষেপটা রয়েই যাওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছিল। তার কারণ আমাদের ফুটবল ফেডারেশনের দায়িত্বহীনতা। যেই ফেডারেশন এত বড় একটা সাফল্যের দুই ঘণ্টা পর শুধু ম্যাচের ফলাফল জানিয়ে অফিশিয়াল ফেসবুকে পোস্ট করে, সেই বোর্ডের কাছে শিরোপাজয়ী দলের জন্য ছাদখোলা বাসের আয়োজন করা বেশ হ্যাপার কাজই বটে।

শিরোপা জয়ের পর সব মহল থেকেই জোর দাবি ওঠে বাংলাদেশ দলকে সংবর্ধনা দেয়ার জন্য ছাদখোলা বাসের ব্যবস্থা করার। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম উত্তাল হয়ে ওঠে এই দাবিতে।

তারই জেরে অনেক কষ্ট করে ছাদখোলা বাসের ব্যবস্থা করতে যাচ্ছে বাফুফে। ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বাফুফের একটি সূত্র নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেছে, ‘বিষয়টি পরিকল্পনায় রয়েছে, এয়ারপোর্ট থেকে ছাদ খোলা বাসে তাদের আনা হবে বাফুফেতে।’

এদিকে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সচিব আবু নাছের ভুঁইয়া সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে সানজিদার ভাইরাল হওয়া পোস্টটি মন্ত্রী মহোদয়ের নজরে আসে। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরে তিনি নিজেই চ্যাম্পিয়ন মেয়েদের জন্য ছাদখোলা চ্যাম্পিয়ন বাসের ব্যবস্থাই করেছেন। এই বাসে চড়েই এয়ারপোর্ট থেকে ট্রফি নিয়ে বের হবে মেয়েরা।’

আরও পড়ুন:
‘সেরা দলের প্রমাণ রেখেছে বাংলাদেশ’
সাবিনা-কৃষ্ণার জয়ে মুশফিকের ‘আলহামদুলিল্লাহ’
সাফ শিরোপা: ছেলেদের থেকে এগিয়ে মেয়েরা

মন্তব্য

আরও পড়ুন

খেলা
Rupayaan Group welcomed the clean champions

পরিশ্রম ও ত্যাগের কারণেই দল আজ দক্ষিণ এশিয়ার সেরা: ছোটন

পরিশ্রম ও ত্যাগের কারণেই দল আজ দক্ষিণ এশিয়ার সেরা: ছোটন সাফজয়ী নারী ফুটবলারদের সংবর্ধনা। ছবি: নিউজবাংলা
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নারী দল ও সাফ নিয়ে নিজেদের অভিজ্ঞতার কথা জানান বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের সহ-অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা ও কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

নারী ফুটবলার পরিশ্রম ও ত্যাগের কারণেই বাংলাদেশ বর্তমানে দক্ষিণ এশিয়ার সেরা দল। সন্ধ্যায় এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এমনটা বলেছেন, জাতীয় দলের হেড কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটন।

বুধবার সাফ নারী ফুটবল চ্যাম্পয়নশিপ ২০২২ এর অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন নারী দলকে সংবর্ধনা দেয় উত্তরা রূপায়ণ সিটি।

রাজধানীর উত্তরার রূপায়ণ সিটিতে সন্ধ্যায় এ আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী জনাব মো. জাহিদ আহসান রাসেল। আরও উপস্থিত ছিলেন রূপায়ণ গ্রুপের প্রধান লিয়াকত আলী খান মুকুল।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নারী দল ও সাফ নিয়ে নিজেদের অভিজ্ঞতার কথা জানান বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের সহ-অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা ও কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

সাফ জয় করে দেশের ফেরার পর থেকে নারী দল ভাসছে পুরস্কার ও সংবর্ধনায়। দলের ফুটবলারদের জন্য এটি অনুপ্রেরণার মনে করেন ছোটন।

তিনি বলেন, ‘এমন একটি সংবর্ধনা থেকে মেয়েরা অনুপ্রাণিত হবে। আরও এগিয়ে যাওয়ার উৎসাহ পাবে। এখানে যারা উপস্থিত সবাইকে আমি সবাইকে বলতে চাই, এ অর্জন আমাদের জন্য সহজ ছিল না। ফুটবল ফেডরেশনে সবার সহযোগিতায় আজ আমরা এটা অর্জন করতে পেরেছি।

‘মেয়েরা কঠোর অনুশীলন করেছেন। অনেক কিছু ত্যাগ করেছে। কষ্ট ও ত্যাগের পরই আমাদের এ অর্জন এসেছে। আমরা এখন দক্ষিণ এশিয়ার সেরা দল।’

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের নারী ফুটবলারদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন অতিথিরা। অনুষ্ঠানে রূপায়ণ গ্রুপের পক্ষ থেকে ৩০ লাখ দেয়া হয় নারী ফুটবলারদের।

আরও পড়ুন:
ট্রফি উঁচিয়ে নিজ শহরে সাবিনা
খেলোয়াড়দের বাড়ির ছাদ তৈরির আহ্বান শিরিনের
সাফজয়ী আঁখির বাড়িতে পুলিশ: এসআই-কনস্টেবল প্রত্যাহার
বেতন বাড়ছে সাবিনা-কৃষ্ণাদের
মনে হয় শেখ হাসিনা ক্যাপ্টেন ছিলেন: মান্না

মন্তব্য

খেলা
Brazil completed the preparations for the World Cup by beating Tunisia

তিউনিসিয়াকে উড়িয়ে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শেষ ব্রাজিলের

তিউনিসিয়াকে উড়িয়ে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শেষ ব্রাজিলের তিউনিসিয়ার বিপক্ষে গোল উদযাপন নেইমারের। ছবি: এএফপি
তিউনিসিয়ার বিপক্ষে নিজের জোড়া গোলের সঙ্গে অন্যকে আরও একটি গোল পেতে সহায়তা করেন রাফিনিয়া। নেইমার, রিচারলিসন ও পেদ্রো করেন একটি করে গোল।

ফিফা আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে তিউনিসিয়ার বিপক্ষে দাপুটে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ব্রাজিল।

রাফিনিয়ার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের সঙ্গে নেইমারের ধারাবাহিকতায় ৫-১ গোলে জয় পেয়েছে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

গত শুক্রবার আফ্রিকার দেশ ঘানার বিপক্ষে ৩-০ গোলে জয়ের এবার ৫-১ গোলের বড় জয়ে দুই প্রীতি ম্যাচে ৮ গোল করেছে ব্রাজিল।

তিউনিসিয়ার বিপক্ষে নিজের জোড়া গোলের সঙ্গে অন্যকে আরও একটি গোল পেতে সহায়তা করেন রাফিনিয়া। নেইমার, রিচারলিসন ও পেদ্রো করেন একটি করে গোল।

গত বছরের কোপা আমেরিকার ফাইনালে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে হারের পর থেকে ১২ জয় ও ৩ ড্র নিয়ে টানা ১৫ ম্যাচে অপরাজিত ব্রাজিল।

তিউনিসিয়ার সঙ্গে ব্রাজিলের দেখা হয়েছে দুইবার। ১৯৭৩ সালের প্রথম দেখায় জয় পেয়েছিল ব্রাজিল। এবারও তারা জয় পেল দলটির বিপক্ষে।

প্যারিসে মঙ্গলবার রাতের ম্যাচে শুরুটা দারুণ করে নেইমার বাহিনী। ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে ৩০তম স্থানে থাকা তিউনিসিয়াকে শুরু থেকে চেপে ধরে এক নম্বর দল ব্রাজিল। ম্যাচের ১১ মিনিটের মাথায় লিড নেয় লিওনার্দো তিতের শিষ্যরা।

মাঝমাঠ থেকে কাসেমিরোর কাছ থেকে বল পেয়ে লক্ষ্যভেদ করেন ফরোয়ার্ড রাফিনিয়া, তবে ৭ মিনিটের মাথায় সমতায় ফিরে প্রতিপক্ষ তিউনিসিয়া। মনতাসার তালবির গোলে ১-১ গোলের সমতায় ফেরে স্কোরলাইন।

এক মিনিট পরে আবারও লিড নেয় তিতের দল। ডান দিক থেকে রাফিনিয়ার কাছ থেকে পেয়ে বল জালে জড়ান রিচারলিসন। এতে করে ২-১ গোলে আবারও এগিয়ে যায় দক্ষিণ আমেরিকার দেশটি। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি নেইমার-রাফিনিয়াদের।

তিউনিসিয়ার বিপক্ষে একের পর এক গোল উৎসবে বিরতির আগে পেনাল্টি কিকে গোল পান নেইমার। ২৭তম মিনিটে কাসেমিরোকে ডি-বক্সে তিউনিসিয়ার একজন টেনে ফেলে দিলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। সফল স্পট-কিকে ব্যবধান বাড়িয়ে ৩-১ করেন নেইমার।

বিশ্বকাপের আগে দারুণ ফর্মে আছেন রিচারলিসন। এ নিয়ে ব্রাজিলের সবশেষ ছয় ম্যাচে তার গোল হলো ৭টি। জাতীয় দলের জার্সিতে সব মিলিয়ে ১৭টি।

৪০তম মিনিটে স্কোরলাইন ৪-১ করে দলকে বড় জয়ের পথে এগিয়ে নেন রাফিনিয়া। দুই মিনিট পর বড় ধাক্কা খায় তিউনিসিয়া। নেইমারকে ফাউল করে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন ডিলান ব্রন। একপর্যায়ে দুই দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হলে হলুদ কার্ড দেখেন ব্রাজিলের রিচার্লিসন।

৭৪তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়ান পেদ্রো। এতে ৫-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন তিতের শিষ্যরা।

আরও পড়ুন:
প্রীতি ম্যাচে ঘানাকে উড়িয়ে দিল ব্রাজিল
নেইমারের গোলে আবারও জয় পিএসজির
নেইমারের সঙ্গে সম্পর্ক কখনো উত্তপ্ত, কখনো শীতল: এমবাপে

মন্তব্য

খেলা
Argentina won with Messis double goal

মেসির জোড়া গোলে জ্যামাইকার বিপক্ষে বড় জয় আর্জেন্টিনার

মেসির জোড়া গোলে জ্যামাইকার বিপক্ষে বড় জয় আর্জেন্টিনার জ্যামাইকার বিপক্ষে লিওনেল মেসির গোল উদযাপন। ছবি: এএফপি
জ্যামাইকাকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। জোড়া গোল করেছেন মেসি। একটি গোল এসেছেন হুলিয়ান আলভারেসে কাছ থেকে।

ফিফা আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে বদলি নেমে জোড়া গোল করেছেন আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। তার সঙ্গে গোলের দেখা পান দলের আরেক তারকা ফরোয়ার্ড হুলিয়ান আলভারেস।

তাদের ৩ গোলে জ্যামাইকার বিপক্ষে বড় জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনা। এ নিয়ে টানা ৩৫ ম্যাচে অপরাজিত রইল দলটি। আর ৩ ম্যাচ না হারলেই ইতালির গড়া ৩৭ ম্যাচে অপরাজিত থাকার রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে আলবিসেলেস্তেরা।

বাংলাদেশ সময়ে বুধবার সকালে এই প্রীতি ম্যাচের জয়ের মধ্য দিয়ে কাতার বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শেষ করল দুবারের আর্জেন্টিনা।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির রেডবিল অ্যারেনায় অনুষ্ঠিত ম্যাচে আর্জেন্টিনার একাদশে ছিলেন না মেসি। ঠান্ডাজ্বর থেকে সেরে ওঠার পর বেঞ্চে ছিলেন তিনি।

ম্যাচের শুরুতে মেসিবিহীণ আর্জেন্টিনাকে চেপে ধরে জ্যামাইকা। তবে দ্রুতই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয় আর্জেন্টিনা। ১৩ মিনিটে আলভারেসের গোলে লিড নেয় দলটি।

শুরুতে এগিয়ে গেলেও আর কোনো গোলের দেখা পাচ্ছিল না লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরা। প্রথমার্ধে বেশ কয়েকবার আক্রমণ করলেও দারুণভাবে প্রতিরোধ করে জ্যামাইকা।

১-০ গোলে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরু করলেও দ্রুত ব্যবধান বড় করতে পারেনি আর্জেন্টিনা। ৫৫তম মিনিটে লাউতারো মার্তিনেসের বদলি নামেন লিওনেল মেসি। তার নামার পরই পাল্টে যায় দৃশ্যপট। একের পর এক আক্রমণে যায় আর্জেন্টিনা।

৮৬তম ও ৮৯তম মিনিটে দুটি গোল করেন ৭বারের ব্যলন ডর জয়ী মেসি।

৮৫তম মিনিটে মেসির উঁচু করে বাড়ানো বলে ঠিকমতো শট নিতে পারেননি নিকোলাস তালিয়াফিকো। পরের মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে দারুণ ফিনিশিংয়ে লক্ষ্যভেদ করেন মেসি। ৮৯তম মিনিটে ফ্রি-কিকে আবার জালে জড়ান আর্জেন্টিনার অধিনায়ক।

হ্যাটট্রিকের সুযোগও পেয়েছিলেন মেসি। তৃতীয়বারের মতো এক ভক্ত মাঠে ঢুকে যাওয়ায় শেষ পর্যন্ত আর সেই আক্রমণে হ্যাটট্রিকের সফলতা আসেনি মেসির।

দেশের হয়ে আর্জেন্টাইন এ তারকা ফরোয়ার্ডের গোল ৯০টি। আন্তর্জাতিক ফুটবলে মোখতার দাহারিকে পেছনে ফেলে সর্বোচ্চ গোল স্কোরের তালিকায় সেরা তিনে জায়গা করে নিয়েছেন মেসি।

আন্তর্জাতিক ফুটবল সর্বোচ্চ স্কোরার ক্রিস্টিয়ানো রোনালডোর চেয়ে ১৭ গোল পিছিয়ে আছেন মেসি। তবে মেসি জাতীয় দলের হয়ে রোনালডোর চেয়ে ৩৩টি ম্যাচ কম খেলেছেন।

আর জ্যামাইকার বিপক্ষে জয়টি ছিল জাতীয় দলের হয়ে মেসির শততম জয়।

আরও পড়ুন:
জ্যামাইকার বিপক্ষে নাও খেলতে পারেন মেসি
এমবাপেকে ভবিষ্যতের সেরা বললেন মেসি
মেসির জোড়া গোলে আর্জেন্টিনার জয়

মন্তব্য

খেলা
Spain beat Portugal in the finals with a last minute goal

শেষ মুহূর্তের গোলে পর্তুগালকে হারিয়ে ফাইনালসে স্পেন

শেষ মুহূর্তের গোলে পর্তুগালকে হারিয়ে ফাইনালসে স্পেন পর্তুগালের বিপক্ষে একমাত্র জয়সূচক গোল উদযাপন স্পেনের খেলোয়াড়দের। ছবি: এএফপি
পর্তুগালের ব্রাগায় মঙ্গলবার রাতে ‘এ’ লিগের দুই নম্বর গ্রুপের শেষ রাউন্ডে ১-০ গোলে জিতেছে স্প্যানিশরা। এতে করে টানা দ্বিতীয়বার নেশনস লিগের ৪ দলের ফাইনালসে উঠল দলটি।

পর্তুগালের স্বপ্ন ভেঙে এবার নেশনস লিগে শেষ দল হিসেবে ফাইনালসে উঠল স্পেন।

পর্তুগালের ব্রাগায় মঙ্গলবার রাতে ‘এ’ লিগের দুই নম্বর গ্রুপের শেষ রাউন্ডে ১-০ গোলে জিতেছে স্প্যানিশরা। এতে করে টানা দ্বিতীয়বার নেশনস লিগের ৪ দলের ফাইনালসে উঠল দলটি।

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলার লক্ষ্যে মাঠে নামে কোচ ফার্নান্দো সান্তোসের দল। সেই অনুযায়ী শুরু থেকে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেললেও শেষ পর্যন্ত জয় পাননি রোনালডো-জোতারা।

প্রথমার্ধে রোনালডোদের অসংখ্য সুযোগ নষ্ট করার খেসারত দিতে হলো দ্বিতীয়ার্ধে। স্পেনের ওপর চাপ তৈরি করেও শেষ পর্যন্ত গোলের দেখা পায়নি দলটি। শেষের দিকে আক্রমণের তীব্রতা বাড়িয়ে কাঙ্ক্ষিত ৩ পয়েন্ট তুলে নিল স্পেন।

ম্যাচ শেষ হওয়ার দুই মিনিট আগে স্পেনের পক্ষে ব্যবধান গড়েন আলভারো মোরাতা। নিকো উইলিয়ামসের কাছ থেকে বল পেয়ে ডান পায়ের শটে গোলটি করেন আতলেতিকো মাদ্রিদের এ স্ট্রাইকার।

৬ ম্যাচে ৩ জয় ও ২ ড্রয়ে ১১ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে স্পেন। আর ১ পয়েন্ট কম নিয়ে দুই নম্বরে পর্তুগাল।

স্পেনের সঙ্গে আগামী বছরের শিরোপা লড়াইয়ে জায়গা করে নেয়া অন্য ৩ দল হলো ক্রোয়েশিয়া, ইতালি ও নেদারল্যান্ডস।

একই গ্রুপে রাতের আরেক ম্যাচে চেক রিপাবলিককে ২-১ গোলে হারিয়েছে সুইজারল্যান্ড। ৯ পয়েন্ট নিয়ে তাদের অবস্থান তিনে।

গ্রুপের তলানিতে থেকে ‘বি’ লিগে নেমে গেল চেক রিপাবলিক।

আরও পড়ুন:
হাঙ্গেরিকে উড়িয়ে ফাইনালসে ইতালি
নেশনস লিগের সেমিতে ক্রোয়েশিয়া ও নেদারল্যান্ডস
ঘরের মাঠে স্পেনের হারের দিনে বড় জয় পর্তুগালের

মন্তব্য

খেলা
Army felicitates victorious womens football team

সাফ জয়ী নারী ফুটবল দলকে সেনাবাহিনীর সংবর্ধনা

সাফ জয়ী নারী ফুটবল দলকে সেনাবাহিনীর সংবর্ধনা সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ কথা বলেন ফুটবলার ও কোচের সঙ্গে। ছবি: আইএসপিআর
ঢাকা সেনানিবাসের আর্মি মাল্টিপারপাস কমপ্লেক্সে আড়ম্বরপূর্ণ এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। অনুষ্ঠানে জাতীয় নারী ফুটবল দলের খেলোয়াড়, কোচ ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে ক্রেস্ট, উপহার সামগ্রী এবং এক কোটি টাকার চেক দেয়া হয়।

সাফ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ-২০২২ জয়ী বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দলের গর্বিত সব খেলোয়াড়, কোচ ও কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের মঙ্গলবার সংবর্ধনা দিয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

ঢাকা সেনানিবাসের আর্মি মাল্টিপারপাস কমপ্লেক্সে আড়ম্বরপূর্ণ এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। অনুষ্ঠানে জাতীয় নারী ফুটবল দলের খেলোয়াড়, কোচ ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে ক্রেস্ট, উপহার সামগ্রী এবং এক কোটি টাকার চেক দেয়া হয়।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

নেপালের কাঠমান্ডুতে ১৯ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত সাফ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দল ফাইনালে শক্তিশালী নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সেনাবাহিনী প্রধান বলেন, ‘এই জয়ের অনুপ্রেরণা নিয়ে বাংলাদেশের নারী ফুটবল দল আগামীতে আরও এগিয়ে যেতে পারবে। বিশ্বের বুকে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে বাংলাদেশের নারী ফুটবলাররা বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলে সবাই দৃঢ় আশাবাদী। সে সঙ্গে দেশের ক্রীড়াঙ্গনে এই সাফল্য নতুন প্রেরণার সঞ্চার করবে।’

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন, জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শিদী এমপি, ফিফা কাউন্সিলের সদস্য ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের মহিলা উইং-এর চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চিফ অফ জেনারেল স্টাফ (সিজিএস) লেফটেন্যান্ট জেনারেল আতাউল হাকিম সারওয়ার হাসান এবং সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার (পিএসও) লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান ছাড়াও সামরিক বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, চ্যাম্পিয়ন দলের নারী ফুটবলারদের গর্বিত অভিভাবকগণ ও অন্য অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন:
সাবিনা-কৃষ্ণার জয়ে মুশফিকের ‘আলহামদুলিল্লাহ’
সাফ শিরোপা: ছেলেদের থেকে এগিয়ে মেয়েরা
বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন
বাংলাদেশের সামনে ইতিহাসের হাতছানি
অপরাজিত থেকেই ফাইনালে ছোটনের শিষ্যরা

মন্তব্য

খেলা
In the field of Nepal where girls champion boys returned with defeat

নেপালের যে মাঠে মেয়েরা চ্যাম্পিয়ন, সেখানে ছেলেদের হার

নেপালের যে মাঠে মেয়েরা চ্যাম্পিয়ন, সেখানে ছেলেদের হার বাংলাদেশের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছেন অঞ্জন বিস্ত। ছবি: টুইটার
ফিফা প্রীতি ম্যাচে নেপালের কাছে ৩-১ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ। নেপালের পক্ষে প্রথমার্ধে হ্যাটট্রিক করে বাংলাদেশকে ম্যাচ থেকে ছিটকে দেন অঞ্জন বিস্ত। সফরকারীদের পক্ষে সান্ত্বনাসূচক গোল এসেছে সাজ্জাদ হোসেনের কাছ থেকে।

নেপালের মাটিতে যে মাঠে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল স্বাগতিকদের হারিয়েছিল, সেই মাঠে একই ব্যবধানে নেপালের কাছে হেরেছে বাংলাদেশের ছেলেরা। ৮ দিনের ব্যবধানে নারী দলের ইতিহাস গড়ার মাঠে ছেলেরা নাস্তানাবুদ হয়েছে স্বাগতিক দলের কাছে।

ফিফা প্রীতি ম্যাচে নেপালের কাছে ৩-১ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ। নেপালের পক্ষে প্রথমার্ধে হ্যাটট্রিক করে বাংলাদেশকে ম্যাচ থেকে ছিটকে দেন অঞ্জন বিস্ত। সফরকারীদের পক্ষে সান্ত্বনাসূচক গোল এসেছে সাজ্জাদ হোসেনের কাছ থেকে।

ক্যাম্বোডিয়াকে ১-০ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয় ফিফা ফ্রেন্ডলি খেলতে কাঠমান্ডুর মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ দল। আগের ম্যাচের আত্মবিশ্বাস কাজে লাগাতে পারেনি লাল-সবুজরা। বরং ডিফেন্সের দুর্বলতায় নেপালের কাছে প্রথমার্ধে ৩ গোল হজম করে বড় হারের মুখোমুখি জামাল-জিকোরা।

কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেডিয়ামে নেপালের হয়ে ৩টি গোলই এসেছে অঞ্জন বিস্তর পা থেকে। ৩-০ গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে গেছে বাংলাদেশ দল।

ম্যাচে শুরুটা ভালো করেছিল বাংলাদেশ। ১৫ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো তারা। তবে জামাল ভূঁইয়ার নেয়া ফ্রি-কিক নেপালের পোস্টে লেগে প্রতিহত হলে গোলবঞ্চিত হয় সফরকারী দল।

এর দুই মিনিট পর ফ্রি-কিকে গোল হজম করে বাংলাদেশ। বক্সের ভেতরে আসা বলে মাথা ছুঁইয়ে গোল করেন অঞ্জন বিস্ত।

২৬ মিনিটে বাংলাদেশকে আরও একবার ধাক্কা দেয় নেপাল। নেপালের ডান উইং থেকে বাড়ানো ক্রস বাংলাদেশের বক্সে পড়লে তা ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হয় সফরকারীদের ডিফেন্স। জটলা থেকে শট হলে গোলকিপার আনিসুর রহমান জিকো একবার তা প্রতিহত করেন। কিন্তু ফিরতি বলে কিক করে লক্ষ্যভেদ করেন বিস্ত।

বিস্ত নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন ৩৮ মিনিটে। ডি বক্সের বাইরে থেকে নেপালের নেয়া ফ্রি-কিক আবারও ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হয় বাংলাদেশের ডিফেন্স। অনেকটা লাফিয়ে উঠে নিজের ও দলের তৃতীয় গোল করেন বিস্ত।

৩-০ গোলে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয়ার্ধ শুরু করে বাংলাদেশ। এ অর্ধেও তাদেরকে চেপে ধরে নেপাল। কাউন্টার অ্যাটাকে খেলে চাপ থেকে মুক্ত হওয়ার চেষ্টা করে সফরকারীরা।

৫৪ মিনিটে তেমনই এক কাউন্টার অ্যাটাক থেকে বল পেয়ে যান রাকিব হোসেন। জায়গা ফাঁকা পেয়ে ডান প্রান্ত দিয়ে বেশ খানিকটা এগিয়ে যাওয়ার পর নেপালের বক্সে ক্রস ছাড়েন এ মিডফিল্ডার।

ফার পোস্টে ওঁত পেতে থাকা সাজ্জাদ হোসেন হেড করে ব্যবধান কমান বাংলাদেশের। পরের সময়টুকু মরিয়া আক্রমণ চালিয়ে যায় বাংলাদেশ। তবে গোলের দেখা পায়নি।

শেষ পর্যন্ত ৩-১ গোলে হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় হাভিয়ের কাবরেরার দলকে।

আরও পড়ুন:
বিস্তর হ্যাটট্রিকে প্রথমার্ধে ৩-০ গোলে পিছিয়ে বাংলাদেশ
লাল-সবুজের আরেক জয় কম্বোডিয়ায়
বেতন বাড়ছে সাবিনা-কৃষ্ণাদের

মন্তব্য

খেলা
Messi may not play against Jamaica

জ্যামাইকার বিপক্ষে নাও খেলতে পারেন মেসি

জ্যামাইকার বিপক্ষে নাও খেলতে পারেন মেসি হন্ডুরাসের বিপক্ষে গোল করার পর উদযাপনে মেসি। ছবি: টুইটার
প্রীতি ম্যাচ হওয়ায় আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি দলের সেরা তারকাকে নিয়ে ঝুঁকি নিতে চান না। মেসির জায়গায় আক্রমণভাগে সুযোগ পেতে পারেন উঠতি তারকা হুলিয়ান আলভারেস।

বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে কাল সকাল ৬টায় জ্যামাইকার বিপক্ষে মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা। আলবিসেলেস্তেদের জন্য শঙ্কার খবর এই ম্যাচে নাও খেলতে পারেন লিওনেল মেসি।

আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টস জানিয়েছে, বুধবারের ম্যাচে মেসির খেলার সম্ভাবনা কম। শারীরিকভাবে সুস্থ নন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক। দলের একাধিক সূত্রের বরাত দিয়ে তারা জানিয়েছে মেসি ঠান্ডা জ্বরে ভুগছেন।

প্রীতি ম্যাচ হওয়ায় আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি দলের সেরা তারকাকে নিয়ে ঝুঁকি নিতে চান না। মেসির জায়গায় আক্রমণভাগে সুযোগ পেতে পারেন উঠতি তারকা হুলিয়ান আলভারেস।

জ্যামাইকার বিপক্ষে শুধু মেসিই নন, একাদশে একাধিক পরিবর্তন আনতে যাচ্ছেন স্কালোনি। দলের নিয়মিত রদ্রিগো দে পল, লিয়ান্দ্রো পারেদেস ও মারকোস আকুনিয়া বিশ্রাম পেতে পারেন। তাদের জায়গায় খেলবেন গিদো রদ্রিগেস, আলেক্সিস ম্যাক্যালিস্টার ও নিকোলাস তালিয়াফিকো।

এছাড়া আগের ম্যাচে বিশ্রাম পাওয়া এমিলিয়ানো মার্তিনেস, আনহেল দি মারিয়া ও ক্রিশ্চিয়ান রোমেরো সুযোগ পেতে পারেন একাদশে।

আমেরিকার নিউজার্সির রেড বুল অ্যারেনায় অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচ। এরপর মেসিদের ফিরতে হবে ইউরোপীয় ফুটবলের নিয়মিত খেলায়।

আরও পড়ুন:
এমবাপেকে ভবিষ্যতের সেরা বললেন মেসি
মেসির জোড়া গোলে আর্জেন্টিনার জয়
মেসি জাতীয় দলের হয়ে সব ম্যাচ খেলতে চান: স্কালোনি

মন্তব্য

p
উপরে