× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

খেলা
Todays game on TV
hear-news
player
print-icon

টিভিতে আজকের খেলা

টিভিতে-আজকের-খেলা
এশিয়া কপে শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তান ম্যচের একটি মুহূর্ত। ফাইল ছবি/এএফপি
পর্দা নামছে এশিয়া কাপের ১৫তম আসরের। রোববার ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান। রাতে ইউএস ওপেনের পুরুষ এককের ফাইনাল।

ক্রিকেট

এশিয়া কাপ ফাইনাল

শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তান, রাত ৮টা, বিটিভি, গাজী ও স্টার স্পোর্টস ওয়ান।

তৃতীয় ওয়ানডে

অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড, সকাল ১০টা ২০ মিনিট, সনি টেন টু।

ওভাল টেস্ট: চতুর্থ দিন

ইংল্যান্ড-সাউথ আফ্রিকা, বিকেল ৪টা, সনি সিক্স

রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ ক্রিকেট

বাংলাদেশ লেজেন্ডস–ওয়েস্ট ইন্ডিজ লেজেন্ডস, বিকেল ৪টা, টি স্পোর্টস।

অস্ট্রেলিয়া লেজেন্ডস–শ্রীলঙ্কা লেজেন্ডস, রাত ৮টা, টি স্পোর্টস।

ফুটবল

লা লিগা

রিয়াল মাদ্রিদ-মায়োর্কা, সন্ধ্যা ৬টা, স্পোর্টস এইটিন-ওয়ান ও এ স্পোর্টস।

সিপিএল

জ্যামাইকা-বার্বাডোজ, রাত ৮টা, স্টার স্পোর্টস টু।

অন্যান্য

ইউএস ওপেন পুরুষ একক ফাইনাল, রাত ২টা, সনি টেন টু ও থ্রি।

ফর্মুলা ওয়ান, ইতালিয়ান গ্রাঁ প্রি

সন্ধ্যা ৭টা, স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট টু।

আরও পড়ুন:
টিভিতে আজকের খেলা

মন্তব্য

আরও পড়ুন

খেলা
Federer

বিদায়বেলায় কাঁদলেন, কাঁদালেন ফেডেরার

বিদায়বেলায় কাঁদলেন, কাঁদালেন ফেডেরার রজার ফেডেরারের অবসরে কেঁদ ফেললেন আরেক টেনিস তারকা রাফায়াল নাদাল। ছবি: এএফপি
খেলা শেষে ফেডেরারের পাশে বসা ছিলেন আরেক টেনিস তারকা রাফায়াল নাদাল। তার বিদায়বেলায় নাদাল নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি। প্রিয় বন্ধুর বিদায়ে একপর্যায়ে কেঁদে ফেলেন তিনি।

২৪ বছরের টেনিস ক্যারিয়ারের ইতি টানলেন টেনিস কিংবদন্তি রজার ফেডেরার। সর্বকালের সেরা ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী এই টেনিস তারকার অবসরে ক্রীড়াঙ্গন ভেসে যাচ্ছে আবেগে। ক্যারিয়ায়ের বিদায়বেলা ফেডেরারকে শুভেছা জানিয়েছেন খেলোয়াড় ও অন্য সেলেব্রিটিরা।

খেলা শেষে ফেডেরারের পাশে বসা ছিলেন আরেক টেনিস তারকা রাফায়াল নাদাল। তার বিদায়বেলায় নাদাল নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি। প্রিয় বন্ধুর বিদায়ে একপর্যায়ে কেঁদে ফেলেন তিনি।

প্রায় দুই দশক নাদালের বিপক্ষে কোর্টে লড়েছেন ফেডেরার। ক্যারিয়ারের সেরা সময়ে দুজন মিলে জিতেছেন ৪২টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম। এই জুটি প্রথমবার ২০০৪ সালে একে অপরের মুখোমুখি হন। ৯টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের ফাইনালসহ ৪০ বার মোকাবিলা করেছেন দুজন। এর মধ্যে নাদাল জিতেছেন ২৪টি, ফেডেরার ১৬টি।

এমন প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বীর বিদায়ে আবেগে ভেসে গেছেন নাদাল। ম্যাচ শেষে প্রতিক্রিয়ায় জানান, ফেডেরারের বিদায়ে নিজের একটা অংশকেই যেন বিদায় দিতে হচ্ছে তাকে।

নাদাল বলেন, ‘আমাদের খেলাটির ঐতিহাসিক এ মুহূর্তের অংশ হতে পেরে আমি সম্মানিত। আমরা এতগুলো বছরে অনেক কিছু শেয়ার করেছি। রজার খেলা ছাড়ার অর্থ আমার জীবনেরও একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশের চলে যাওয়া।’

ক্রীড়াঙ্গনে এমন স্পোর্টসম্যানশিপ দেখে আপ্লুত হয়েছেন অন্য খেলোয়াররাও। ভারতীয় তারকা ক্রিকেটার ভিরাট কোহলি মনে করেন, একজন খেলোয়াড়ের সঙ্গে আরেকজনের সম্পর্কটা এমনই হওয়া উচিত।

কোহলি টুইট করে লেখেন, ‘কে ভেবেছিল প্রতিদ্বন্দ্বীরা একে অপরের প্রতি এমনটা অনুভব করতে পারে। এটাই খেলার সৌন্দর্য। এটা আমার জন্য খেলাধুলার সবচেয়ে সুন্দর ছবি। যখন আপনার সঙ্গীরা আপনার জন্য কাঁদে, তখন বুঝতে হবে ঈশ্বরের দেয়া প্রতিভা আপনি কাজে লাগাতে পেরেছেন। এই দুজনের প্রতি শ্রদ্ধা ছাড়া আর কিছু বলার নেই।’

পাকিস্তান জাতীয় দলের অধিনায়ক বাবর আজমও এক টুইটবার্তায় লেখেন, ‘গ্রেটনেস তাকে দিয়েই বোঝায়। আইকনিক। শুভ হোক অবসর, আপনি পরম কিংবদন্তি।’

ফরমুলা ওয়ান ড্রাইভার ও ফেরারি দলের তারকা কার্লোস সাইঞ্জও টুইট করেছেন ফেডেরারের প্রতি।

সাইঞ্জ লিখেছেন, ‘এতগুলো বছর আপনাকে খেলতে দেখাটা ছিল পরম আনন্দের। ধন্যবাদ।’

শুধু ক্রীড়া জগতেরই নয়, ফেডেরারের বিদায়ে উদ্বেলিত হয়েছেন অন্য সেলেব্রিটিরাও। গুগলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সুন্দর পিচাই টুইট করে লিখেছেন, ‘ক্রীড়ার জন্য দারুণ একটি মুহূর্ত। ধন্যবাদ রজার ফেডেরার। চমৎকার মুহূর্তগুলোর জন্য।’

টেনিসের সবচেয়ে প্রাচীন ও মর্যাদাসম্পন্ন প্রতিযোগিতা উইম্বলডন চ্যাম্পিয়নশিপ। ফেডেরারের বিদায়বেলায় এমন আবেগঘন মুহূর্ত সৃষ্টি হবে এমনটাই আশা করেছে উইম্বলডন কর্তৃপক্ষ।

উইম্বলডনের পক্ষ থেকে এক টুইটে লেখা হয়, ‘এটি (রজার ফেডেরারের বিদায়) উৎসবের মতো মনে হচ্ছে। শেষ মুহূর্তে এমন কিছুই আমরা চেয়েছিলাম।’

আরও পড়ুন:
ফেডেরারের আবেগি বিদায়
বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় টেবিল টেনিসে স্বর্ণ আইইউবির
জিনিয়াস ফেডেরারকে শ্রদ্ধা মেসি ও টেন্ডুলকারের

মন্তব্য

খেলা
Federers emotional farewell

ফেডেরারের আবেগি বিদায়

ফেডেরারের আবেগি বিদায় শেষ ম্যাচ খেলার পর দর্শকদের অভিবাদনের জবাব দিচ্ছেন ফেডেরার। ছবি: এটিপি
সর্বকালের সেরা এ টেনিস তারকার বিদায়ের ক্ষণে এমন উৎসবের পরই ছিল বাঁধভাঙা আবেগ। লন্ডনের ওটু অ্যারেনায় জায়ান্ট স্ক্রিনে ফেডেরারের ক্যারিয়ারের ভিডিও ক্লিপ দেখানো হচ্ছিল, তখন কেঁদে ফেলেন ফেডেরার।

আগেই জানিয়েছিলেন লেভার কাপ হতে যাচ্ছে তার ২৪ বছরের ক্যারিয়ারের সবশেষ আনুষ্ঠানিক টুর্নামেন্ট। শনিবার ভোরে লেভার কাপের প্রথম রাউন্ডেই শেষ হলো রজার ফেডেরারের টেনিস কোর্টে পথচলা।

ফ্রান্সেস টিয়াফো ও জ্যাক সক জুটির কাছে গেরে গেছেন রজার ফেডেরার ও রাফায়াল নাদালের জুটি। ৪-৬, ৭-৬ (৭/২), ১১-৯ গেমে হার মানেন ফেডেরার ও নাদাল।

তবে এমন একটা ম্যাচে স্কোরলাইন ছিল শুধুই যেন আনুষ্ঠানিকতা। ম্যাচ শেষ হওয়া মাত্র ফেডেরারকে ঘিরে ধরেন খেলোয়াড়রা। সবাই তাকে শুভেচ্ছা জানান ও কাঁধে তুলে নিয়ে কিছুক্ষণ উল্লাসও করেন।

সর্বকালের সেরা এ টেনিস তারকার বিদায়ের ক্ষণে এমন উৎসবের পরই ছিল বাঁধভাঙা আবেগ। লন্ডনের ওটু অ্যারেনায় জায়ান্ট স্ক্রিনে ফেডেরারের ক্যারিয়ারের ভিডিও ক্লিপ দেখানো হচ্ছিল তখন কেঁদে ফেলেন ফেডেরার।

ফেডেরারের আবেগি বিদায়
ম্যাচ শেষে ফেডেরারকে কাঁধে নিয়ে উল্লাস করেন সতীর্থরা। ছবি: এটিপি

অবাক করার মতো ব্যাপার হলো, ফেডেরারের পাশে বসা নাদালও নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি। টেনিস কোর্টে ফেডেরারের সবচেয়ে প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী নাদাল কোর্টের বাইরে ছিলেন কাছের বন্ধু। প্রিয় বন্ধুর বিদায়ে নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি তিনি।

ম্যাচ শেষে প্রতিক্রিয়ায় জানান, ফেডেরারের বিদায়ে নিজের একটা অংশকেই যেন বিদায় দিতে হচ্ছে তাকে।

নাদাল বলেন, ‘আমাদের খেলাটির ঐতিহাসিক এ মুহূর্তের অংশ হতে পেরে আমি সম্মানিত। আমরা এতগুলো বছরে অনেক কিছু শেয়ার করেছি। রজার খেলা ছাড়ার অর্থ আমার জীবনেরও একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশের চলে যাওয়া।’

ম্যাচ শেষে ফেডেরার নিজের প্রতিক্রিয়ায় জানান আনুষ্ঠানিক খেলা শেষ হলেও, প্রদর্শনী ম্যাচ তিনি খেলতে চান। এখনও বিশ্বের অনেক জায়গায় তার টেনিস খেলা বাকি আছে।

তিনি বলেন, ‘আমার আপাতত কোনো পরিকল্পনা নেই কোথায় কবে আবার খেলব। যেটা জানি তা হচ্ছে এমনসব জায়গায় টেনিস খেলার ইচ্ছা যেখানে আমি যাইনি। এতদিন ধরে আমাকে যারা সমর্থন দিচ্ছেন তাদের কাছে যেতে চাই ও ধন্যবাদ জানাতে চাই।’

১৭ বছর বয়সে ১৯৯৮ সালে পেশাদার টেনিসে অভিষেক হয় ফেডেরারের। ২০০৩ সালে উইম্বলডন দিয়ে শুরু হয় তার গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়।

এরপর একে একে আটটি উইম্বলডন, ছয়টি অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, পাঁচটি ইউএস ওপেন ও একটি ফ্রেঞ্চ ওপেন জিতেছেন অনেকের চোখে সর্বকালের সেরা এ টেনিস তারকা।

নিজের ২০টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের শেষটি ২০১৮ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে জেতেন ফেডেরার।

২০০৩ সালে র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষে ওঠার পর ৩১০ সপ্তাহ শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন তিনি। তার এ রেকর্ড সম্প্রতি ভেঙেছেন নোভাক জকোভিচ।

সবচেয়ে বেশি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের তালিকায় ৩ নম্বরে থেকে ক্যারিয়ার শেষ করলেন ফেডেরার। তার চেয়ে বেশি স্ল্যাম জিতেছেন নোভাক জকোভিচ (২১টি) ও রাফায়েল নাদাল (২২টি)।

তবে গত ৩ বছর চোটের সঙ্গে লড়াই আর অস্ত্রোপচার করেই কাটাতে হয়েছে আটবারের উইম্বলডনজয়ী এ তারকাকে।

২০২০ সাল থেকে অনুষ্ঠিত ১১টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের মাত্র তিনটিতে খেলতে পেরেছেন তিনি।

মন্তব্য

খেলা
Todays match on TV including UEFA Nations League

নেশনস লিগসহ টিভিতে আজকের খেলা

নেশনস লিগসহ টিভিতে আজকের খেলা প্রতীকী ছবি
ইউয়েফা নেশনস লিগে শনিবার স্পেনের বিপক্ষে মাঠে নামবে সুইজারল্যান্ড।

ক্রিকেট

রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ
শ্রীলঙ্কা-নিউজিল্যান্ড
রাত ৮টা, টি স্পোর্টস।

ফুটবল

ইউয়েফা নেশনস লিগ
আর্মেনিয়া-ইউক্রেন
সন্ধ্যা ৭টা, সনি টেন টু।

উত্তর আয়ারল্যান্ড-কসোভো
রাত ১০ টা, সনি টেন টু।

স্পেন-সুইজারল্যান্ড
রাত পৌনে ১টা, সনি সিক্স।

চেক প্রজাতন্ত্র-পর্তুগাল
রাত পৌনে ১টা, সনি টেন টু।

অন্যান্য

টেনিস

লেভার কাপ
সরাসরি, বিকেল সাড়ে ৫টা, সনি টেন ওয়ান।

আরও পড়ুন:
ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচসহ টিভিতে আজকের খেলা
বাংলাদেশের খেলাসহ টিভিতে আজ যা দেখবেন

মন্তব্য

খেলা
The day before the game the teacher protested the beating of the students by shaving their heads

বেণির কারণে কাবাডির ছাত্রীদের ‘মারধর’, মাথা ন্যাড়া করে প্রতিবাদ শিক্ষকের

বেণির কারণে কাবাডির ছাত্রীদের ‘মারধর’, মাথা ন্যাড়া করে প্রতিবাদ শিক্ষকের ছাত্রীদের মারধরের অভিযোগে মাথা ন্যাড়া করার কথা জানিয়েছেন চট্টগ্রামের এয়াকুব আলী দোভাষ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক জাহিদা পারভীন। ছবি: সংগৃহীত
ফেসবুক স্ট্যাটাসে চট্টগ্রামের এয়াকুব আলী দোভাষ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক জাহিদা পারভীন লেখেন, ‘স্কুলের মেয়েদের মাসখানেক কষ্ট করে খেলা শিখিয়ে মাঠে নিতে যাওয়ার আগের দিন তাদের ফেঞ্চ বেণি করে ছবি তোলা ও খেলতে যাওয়ার অপরাধে আমার স্কুলের হেডমাস্টার মেয়েদের চুল ধরে মারা ও বকার প্রতিবাদে নিজের মাথার চুল ফেলে দিয়েছি। খুব কি খারাপ দেখা যাচ্ছে?’ তার এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন প্রধান শিক্ষক নিপা চৌধুরী।

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ী নারী ফুটবল দলকে নিয়ে সারা দেশ যখন উচ্ছ্বসিত, তখন ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আগের দিন ফ্রেঞ্চ বেণি করে ছবি তোলা চট্টগ্রামের একটি স্কুলের ছাত্রীদের মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে মাথা ন্যাড়া করার কথা জানিয়েছেন ওই স্কুলের শিক্ষক জাহিদা পারভীন।

এ শিক্ষকের অভিযোগ, তার প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রাম নগরীর এয়াকুব আলী দোভাষ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে গত ৭ সেপ্টেম্বর ছাত্রীদের মারধর ও বকা দেন প্রধান শিক্ষক নিপা চৌধুরী, তবে নিপা এ ধরনের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

কী অভিযোগ জাহিদার

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বৃহস্পতিবার রাতে ব্যক্তিগত আইডি থেকে নিজের মাথা ন্যাড়া করা ছবি পোস্ট করেন জাহিদা। এর আগে ১৪ সেপ্টেম্বর তিনি মাথা ন্যাড়া করেন।

ওই ছবির ক্যাপশনে তিনি লেখেন, ‘স্কুলের মেয়েদের মাসখানেক কষ্ট করে খেলা শিখিয়ে মাঠে নিতে যাওয়ার আগের দিন তাদের ফেঞ্চ বেণি করে ছবি তোলা ও খেলতে যাওয়ার অপরাধে আমার স্কুলের হেডমাস্টার মেয়েদের চুল ধরে মারা ও বকার প্রতিবাদে নিজের মাথার চুল ফেলে দিয়েছি। খুব কি খারাপ দেখা যাচ্ছে?

‘পুনশ্চ: আমার মেয়েরা খেলার মাঠে খেলতে নামার অনুমতি পায়নি। স্কুলের সভাপতি আবার বর্তমানে চট্টগ্রামের সিডিএর চেয়ারম্যান এবং স্কুলটি উনার বড় আব্বার নামে।’

জাহিদা নিউজবাংলাকে জানান, গত ৮ সেপ্টেম্বর কোতোয়ালি থানা জোনে ৪৯তম গ্রীষ্মকালীন জাতীয় ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় কাবাডি খেলার সময় নির্ধারণ করা হয়েছিল। স্কুলের শারীরিক শিক্ষার শিক্ষক হিসেবে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার জন্য টিম তৈরি তার দায়িত্ব। অংশগ্রহণের নিয়ম অনুযায়ী খেলার এক দিন আগে অংশগ্রহণকারী দলের ছবি তোলে কো-অর্ডিনেটরকে জমা দিতে হয়।

তার ভাষ্য, ওই দিন (৭ সেপ্টেম্বর) ছাত্রীদের পরীক্ষা ছিল। পরীক্ষা শেষে ছবি তোলার জন্য তিনি তাদের জার্সি পরে তৈরি হতে বলেন। কাবাডি খেলায় চুলে কোনো অলংকার বা ক্লিপ থাকতে পারে না। তাই বেণি করতে হয়। সে কারণে সবাই বেণি করেছিল। ছবি তোলার জন্য মেয়েদের ডেকে তিনি টয়লেটে গিয়েছিলেন। এর মধ্যে চিৎকার শোনেন যে, প্রধান শিক্ষক তাদের বকাবকি করছেন।

তিনি আরও জানান, ছাত্রীরা দ্বিতীয় তলায় ছিল। এর মধ্যে প্রধান শিক্ষক তাদের নিচে ডেকে নিয়ে চুল ধরে মারছিলেন। তিনি (জাহিদা) বের হয়ে ছাত্রীদের মারতে ও বকতে দেখে প্রধান শিক্ষিকাকে নিবৃত্ত করেন।

জাহিদা পারভীন নিউজবাংলাকে বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা বেণি কেন করছে সেটা বলে তিনি তাদের মারছিলেন, বকাবকিও করছিলেন। এর মধ্যে কাবাডি টিমের মীম নামের একজনকে বলছিলেন যে, সে-ই সব নষ্টের মূল, সে সব মেয়েদের নষ্ট করছে। আমি বের হয়ে উনাকে থামাই। বলি যে, আমিই তাদের বেণি করত বলেছি।

‘তিনি তখন আমাকেও বলেন যে, এভাবে বেণি করতে পারবে না। তা ছাড়া খেলার দিন মাঠে যাওয়ার আগে নানা ছুতোয় আমাদের দেরি করছিলেন। যেমন: মেয়েদের খাবার-দাবারের হিসাব দিয়ে যেতে বাধ্য করেছিলেন, এটা তো এসেও দেয়া যায়, কিন্তু উনি হিসাব দিয়ে তবেই যেতে বলেছেন।’

শিক্ষক জাহিদার অভিযোগ অস্বীকার করেন এয়াকুব আলী দোভাষ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিপা চৌধুরী। নিউজবাংলাকে তিনি বলেন, ‘আমি ওই দিন শিক্ষার্থীদের মারধর বা বকাবকি কোনোটাই করিনি; বরং আমিও তাদের সঙ্গে ছবি তুলেছিলাম।’

বেণির কারণে কাবাডির ছাত্রীদের ‘মারধর’, মাথা ন্যাড়া করে প্রতিবাদ শিক্ষকের
এয়াকুব আলী দোভাষ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে প্রধান শিক্ষক নিপা চৌধুরী। ছবি: নিউজবাংলা

এই বিষয়ে জাহিদা পারভীন বলেন, ‘উনি মারধর ও বকাবকির পর নিয়ম রক্ষার ছবি উঠিয়েছেন।’

খেলার দিন প্রধান শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মডেল টেস্ট পরীক্ষায় অংশগ্রহণে বাধ্য করায় ভেন্যুতে যেতে দেরি হয়েছে বলে অভিযোগ জাহিদার। তার ভাষ্য, দেরি হওয়ার কারণে আগে জানিয়ে রাখা সত্ত্বেও কো-অর্ডিনেটর শিক্ষার্থীদের মাঠে নামতে দেননি।

জাহিদা বলেন, ‘৩ তারিখ এই সম্পর্কিত একটা মিটিং হয়েছিল। আমি মিটিংয়ে সবার সামনে স্কুলে মডেল টেস্ট চলায় আমার একটু দেরি হবে বলে জানিয়েছিলাম। থানা শিক্ষা কর্মকর্তাকেও জানিয়েছিলাম, কিন্তু খেলার দিন ১০ থেকে ১৫ মিনিট দেরিতে যাওয়ার অজুহাতে কো-অর্ডিনেটর খাস্তগীর স্কুলের কাজল স্যার আমার মেয়েদের মাঠে নামতে দেননি। আমি এটার প্রতিবাদ জানানো সত্ত্বেও তারা কর্ণপাত করেনি।’

শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা দিতে বাধ্য করা এবং নানা ছুতোয় দেরি করানোর অভিযোগের বিষয়ে প্রধান শিক্ষক নিপা চৌধুরী বলেন, ‘এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা; বরং আমি বলেছি যে, মডেল টেস্ট পরীক্ষা না দিলে কিছু হবে না। তিনি বলেছেন, পরীক্ষা দিক, তিনি কো-অর্ডিনেটরকে বলে রেখেছেন। তা ছাড়া খেলার দিন সকালে আমি উনাকে (জাহিদা) বলেছিলাম যে, আপনার দেরি হয়ে যাচ্ছে। উনি সেটা গুরুত্ব দেননি।’

এই বিষয়ে ডা. খাস্তগীর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক কাজল চৌধুরীর সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও সাড়া মেলেনি।

কোতোয়ালি থানা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জিয়াউল হুদা ছিদ্দিকী বলেন, ‘দেরি হবে বলে আমাকে খেলার আগে তো জানায়ইনি। খেলতে না দেয়ার বিষয়েও কিছু জানায়নি; বরং উনার সময়ের চেয়ে দুই ঘণ্টা দেরিতে অন্যান্য স্কুলের টিচারদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণের অভিযোগ এসেছে জাহিদা পারভীনের বিরুদ্ধে। তিনি নাকি কাজল স্যারসহ আরও কয়েকজনকে খুব বাজেভাবে গালাগাল করেছেন।

‘তা ছাড়া উনি দুই ঘণ্টা দেরিতে এসেছেন বলে দায়িত্বে থাকা শিক্ষকরা জানিয়েছেন। এতক্ষণ অপেক্ষা করা সম্ভব ছিল না। কারণ ২০ মিনিটের ওই খেলা এক দিনেই শেষ করতে হয়েছে। ওই এক দিনে মোট ২০টা খেলা শেষ করতে হয়েছে।’

চাপ দিয়ে পদত্যাগপত্র নেয়ার অভিযোগ

ওই ঘটনার পর প্রধান শিক্ষক চাপ দিয়ে পদত্যাগপত্র দিতে বাধ্য করে বৃহস্পতিবার থেকে আর স্কুলে ঢুকতে দিচ্ছেন না বলে অভিযোগ করেছেন জাহিদা পারভীন। তিনি নিউজবাংলাকে বলেন, ‘খেলার দিন বিকেলে বাসায় ফিরে আমি ডায়াবেটিসজনিত সমস্যায় অসুস্থ হয়ে পড়ি। তখন থেকে তিন দিন হাসপাতালে ভর্তি ছিলাম। তিন দিন পর আমি প্রধান শিক্ষককে বিষয়টি জানিয়েছিলাম।

‘তিনি আমার অসুস্থতার বিষয়টি গুরুত্বই দেননি; বরং আমার ভাইকে ফোন দিয়ে আমার ওপর চাপ তৈরি করেছেন। আমার নামে খুব বাজে কথা বলেছেন। এমনকি আমি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে টি-শার্ট পরে ছবি তুলেছিলাম। সেটা নিয়ে বাজে কথা বলেছে। আমাকে পদত্যাগপত্র দিতে বাধ্য করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘১৩ বা ১৪ তারিখ নিজের ভেতর জমে থাকা ক্ষোভ থেকে বাসার সামনের সেলুনে গিয়ে আমি আমার মাথা ন্যাড়া করেছি প্রতিবাদস্বরূপ। কারও প্রতি অভিযোগ থেকে না।’

চাপ দেয়ার বিষয়ে প্রধান শিক্ষক নিপা চৌধুরী বলেন, ‘এটা আসলে মিথ্যা কথা, আমি কোনো ধরনের চাপ প্রয়োগ করিনি; বরং তিনি শিক্ষদানের যোগ্য নন উল্লেখ করে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। আমার স্কুলে সিসিটিভি ফুটেজ আছে। তাকে ঢুকতে না দেয়ার বিষয়টাও মিথ্যা।’

স্কুলের শিক্ষককে চাপ দিয়ে পদত্যাগপত্র নেয়ার আইনি কোনো সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন কোতোয়ালি থানার শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জিয়াউল হুদা ছিদ্দিকী।

তিনি বলেন, ‘প্রধান শিক্ষকের এ রকম কোনো সুযোগ নেই। এটা তিনি কোনোভাবেই পারবেন না। বিদ্যালয়ের কমিটি হলে অন্য বিষয়।’

আরও পড়ুন:
ছাত্র অধিকার পরিষদের দুই কর্মীর ওপর হামলা
ছাত্রলীগ কর্মীদের লাঠিপেটা: আরও ৫ পুলিশ প্রত্যাহার
বরগুনায় কর্মীদের সংঘর্ষ তদন্তে ছাত্রলীগের কমিটি
এমপি শম্ভুর সঙ্গে তর্কাতর্কি: অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহররম প্রত্যাহার
ছাত্রলীগ কর্মীদের বেধড়ক পিটুনির তদন্তে পুলিশের কমিটি

মন্তব্য

খেলা
Todays match on TV including India vs Pakistan match

ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচসহ টিভিতে আজকের খেলা

ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচসহ টিভিতে আজকের খেলা প্রতীকী ছবি
তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয়টিতে শুক্রবার ভারতের মুখোমুখি হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। পাকিস্তান ও ইংল্যান্ডের তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ আজ।

ক্রিকেট

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি
ভারত-অস্ট্রেলিয়া
সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা, স্টার স্পোর্টস ওয়ান ও টি স্পোর্টস।

তৃতীয় টি-টোয়েন্টি
পাকিস্তান-ইংল্যান্ড
রাত সাড়ে ৮টা, সনি সিক্স।

নারী টি-টোয়েন্টি বাছাই পর্ব
বাংলাদেশ-থাইল্যান্ড
রাত ৯টা, আইসিসি টিভি।

দুলীপ ট্রফির ফাইনাল
ওয়েস্ট জোন-সাউথ জোন
সকাল ১০টা, স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট টু।

ফুটবল

ইউয়েফা নেশনস লিগ
ইতালি-ইংল্যান্ড
রাত পৌনে ১টা, সনি টেন টু।

জার্মানি-হাঙ্গেরি
রাত পৌনে ১টা, সনি সিক্স।

অন্যান্য

টেনিস

লেভার কাপ
সন্ধ্যা ৬টা ও রাত ১২টা, সনি টেন ওয়ান।

আরও পড়ুন:
বাংলাদেশের খেলাসহ টিভিতে আজ যা দেখবেন
টিভিতে আজকের খেলা

মন্তব্য

খেলা
Shirins call to build the roof of the players houses

খেলোয়াড়দের বাড়ির ছাদ তৈরির আহ্বান শিরিনের

খেলোয়াড়দের বাড়ির ছাদ তৈরির আহ্বান শিরিনের সাবেক জাতীয় কুস্তিগির শিরিন সুলতানা। ছবি: সংগৃহীত
সাফজয়ী দলকে নিয়ে যারা প্রশংসার তুবড়ি ছোটাচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের উদ্দেশে দেয়া এক পোস্টে শিরিন আবেদন করেন, সাবিনা-কৃষ্ণাদের জন্য সত্যিকারের সাহায্য করার।

সাফ শিরোপাজয়ী ফুটবলারদের প্রশংসার বানে ভাসাচ্ছেন সবাই। শুভেচ্ছা, প্রশংসা ও উৎসর্গের বার্তায় সোশ্যাল মিডিয়া পূর্ণ। নারী ফুটবলারদের জন্য নানা কিছুই আবেদন করছেন সমর্থক-সংগঠকরা।

তবে আবেগে গা না ভাসিয়ে ফুটবলারদের জন্য সত্যিকারের কিছু করে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশের সাবেক নারী কুস্তিগির শিরিন সুলতানা।

২০০৯ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত টানা জাতীয় কুস্তিতে স্বর্ণ জেতা শিরিন এখন একজন সফল উদ্যোক্তা। শত ব্যস্ততার মাঝেও সাফজয়ী দলের পারফরম্যান্সে নজর রেখেছেন তিনি।

সাফজয়ী দলকে নিয়ে যারা প্রশংসার তুবড়ি ছোটাচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের উদ্দেশে দেয়া এক পোস্টে শিরিন আবেদন করেন, সাবিনা-কৃষ্ণাদের জন্য সত্যিকারের সাহায্য করার।

বৃহস্পতিবার বিকেলে এক পোস্টে তিনি লিখেছেন (বানান ও ভাষারীতি অপরিবর্তিত) , ‘Facebook এর ছাদ না সাজিয়ে ক্ষমতাধর ব্যাক্তিরা আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল...প্লেয়ারদের বাড়ির ছাদ করে দেওয়ার দায়িত্ব নিন সৌন্দর্য অনেক বেড়ে যাবে ব্যাক্তি হিসেবে...’

এর আগে বুধবার নারী ফুটবল দলের গোলকিপার রূপনা চাকমাকে বাড়ি তৈরি করে দেয়ার নির্দেশ দেন শেখ হাসিনা। রূপনার নিজ জেলা রাঙ্গামাটিতেই বাড়িটি তৈরি করে দেয়া হবে। দক্ষিণ এশিয়ার সেরা নারী গোলকিপার রূপনার বাড়ি রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর উপজেলায়।

এ ঘোষণার পরদিন দলের যে খেলোয়াড়ের বাড়ি প্রয়োজন হবে, তাকে তা তৈরি করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার সকালে এ তথ্য জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র সফররত প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং।

আরও পড়ুন:
সাফজয়ী আঁখির বাড়িতে পুলিশ: এসআই-কনস্টেবল প্রত্যাহার
বেতন বাড়ছে সাবিনা-কৃষ্ণাদের
মনে হয় শেখ হাসিনা ক্যাপ্টেন ছিলেন: মান্না

মন্তব্য

খেলা
Police at Safjayi Ankhis house SI constable withdrawn

সাফজয়ী আঁখির বাড়িতে পুলিশ: এসআই-কনস্টেবল প্রত্যাহার

সাফজয়ী আঁখির বাড়িতে পুলিশ: এসআই-কনস্টেবল প্রত্যাহার
সাফ চ্যাম্পিয়নশিপজয়ী দলের ডিফেন্ডার আঁখি বলেন, ‘গতকাল (বুধবার) সন্ধ্যায় শাহজাদপুর থানা থেকে এসআই মামুন আমাদের বাড়িতে এসে আমার বাবাকে আদালতের একটি কাগজে সই করতে বলে। আমার বাবা সেই কাগজে সই করেননি। তাই আমার বাবাকে এসআই মামুন থানায় নিয়ে যাবে বলে হুমকি দেয় এবং গালাগাল করে। পরে বাবা আমাকে ফোনে বিষয়টি জানান।’

নেপালে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপজয়ী নারী ফুটবল দলের অন্যতম ফুটবলার আঁখি খাতুনের বাড়িতে পুলিশ যাওয়ার ঘটনায় শাহজাদপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কনস্টেবলকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন শাহজাদপুর থানার ওসি (অপারেশন) আব্দুর মজিদ।

তিনি জানান, আদালতের ১৪৪ ধারার সমন নিয়ে বুধবার সন্ধ্যার পর থানা পুলিশের ওই দুই সদস্য আঁখি খাতুনের বাড়িতে যান। এক পর্যায়ে আঁখির বাবা আক্তার হোসেন সমন জারির কাগজে স্বাক্ষর দিতে রাজি না হলে তাকে থানায় নিয়ে যাওয়ার হুমকি দেয়া হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

তিনি আরও জানান, আঁখির বাবার সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণের জন্য সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার ওই দুই পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করেছেন।

ডিফেন্ডার আঁখি অভিযোগ করে বলেছিলেন, ‘গতকাল (বুধবার) সন্ধ্যায় শাহজাদপুর থানা থেকে এসআই মামুন আমাদের বাড়িতে এসে আমার বাবাকে আদালতের একটি কাগজে সই করতে বলে। আমার বাবা সেই কাগজে সই করেননি। তাই আমার বাবাকে এসআই মামুন থানায় নিয়ে যাবে বলে হুমকি দেয় এবং গালাগাল করে।

‘পরে বাবা আমাকে ফোনে বিষয়টি জানান। এসআই নাকি বলেছে, আমি বাড়ি যাওয়ার পর থানায় যেতে হবে আমাকে। আসলে গতকাল এমন এক আনন্দঘন মুহূর্তে এমন সংবাদে আমার মনটা অনেক খারাপ হয়ে যায়।’

আঁখির বাবা আক্তার হোসেন বলেন, “গতকাল সন্ধ্যায় থানা থেকে এসআই মামুন সাহেব এসে আমাকে একটা কাগজ দিয়ে বলে, ‘আঁখি তো বাড়িতে নেই। তার পরিবর্তে আপনি এই কাগজে সই দেন।’ আমি বলি কেন সই দেব? আমি তো বাদী বা আসামি কোনোটাই না। আমি পুলিশকে বলেছি, আপনারা ইউএনও মহোদয় বা ডিসি স্যারের সঙ্গে কথা বলেন।

“তখন আমাকে কটূক্তি করেছে, আর এক পুলিশ সদস্য আমাকে ধরে নিয়ে যাবে বলেছে। আসলে এই জায়গা তো আমাদের সরকার দিয়েছে। কোনো মামলা বা অভিযোগ হলে সরকারের নামে হবে। আমাদের নামে কেন আদালত সমন পাঠাবে?”

পুলিশ ও ইউএনওর ভাষ্য

শাহজাদপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ মামুন বৃহস্পতিবার বলেন, ‘আসলে গতকালের যে ঘটনাটা আপনারা বলছেন, তা সত্য না। আঁখির নামে শাহজাদপুরের দাবারিয়ায় একটি জায়গা আছে। সেই জায়গা নিয়ে মোকাররম হোসেন নামের এক ব্যক্তি সিরাজগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা জজ আদালতে অভিযোগ করে।

‘সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বিজ্ঞ আদালত শান্তির লক্ষ্যে ১৪৪ ধারা জারি করে একটি নোটিশ প্রেরণ করে। আমি বিজ্ঞ আদালতের সেই কাগজটিতে একটি স্বাক্ষর দিতে বলি, কিন্তু আঁখির বাবা সেই স্বাক্ষর দিতে রাজি না হলে আমি থানায় চলে আসি। আমি তাকে কোনো প্রকার হুমকি-ধমকি দিইনি বা থানায়ও নিয়ে আসতে চাইনি।’

শাহজাদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আসলে গতকালের ঘটনাটা একটু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। পরে রাতেই আমি মিষ্টি নিয়ে ও আমার এসআইকে সঙ্গে নিয়ে আঁখিদের বাড়িতে যাই এবং এই ভুল বোঝাবুঝির ঘটনাটা মিউচুয়াল করে দিই।

‘আসলে আদালতের সমন এলে আমাদের সেই কাজ করতে হয়। বিষয়টি তেমন কিছু না।’

শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তরিকুল ইসলাম বলেন, ‘তাদের (নারী দলের ফুটবলার) ঘিরে যখন গোটা দেশ মেতেছে উৎসবে, তখন এমন ঘটনা অপ্রত্যাশিতই বটে, তবে আমি রাতে শোনার সঙ্গে সঙ্গে ওসি সাহেবকে সঙ্গে নিয়ে আঁখিদের বাড়িতে যাই। আঁখির বাবা ও মায়ের সঙ্গে কথা বলি। আর আঁখিকে যে জায়গা দেয়া হয়েছে, সেটা সরকারের একটা নিষ্কণ্টক জায়গা।

‘এখানে কোনো সমস্যা নেই, তবে এক ব্যক্তি যে অভিযোগ দিয়েছে, তা আমরা তদন্ত করে দেখব। সেই সঙ্গে আদালতে প্রতিবেদন জমা দেব। আঁখির এই জায়গা নিয়ে কোনো সমস্যা হবে না।’

আরও পড়ুন:
সাফজয়ী আঁখির বাড়িতে পুলিশ
বিমানবন্দরে লাগেজ কেটে সাফজয়ী ৩ ফুটবলারের ডলার চুরি
প্রয়োজন অনুযায়ী বাড়ি পাবেন সাফজয়ী নারী ফুটবলাররা
বাফুফের পরিকল্পনাকে ধন্যবাদ দিলেন অধিনায়ক ও কোচ
এবারে লক্ষ্য এশিয়া বিজয়: সালাউদ্দিন

মন্তব্য

p
উপরে