× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

খেলা
Barcelona beat Inter Miami 6 0
hear-news
player
print-icon

বেকহ্যামের দলকে ৬-০ গোলে হারাল বার্সেলোনা

বেকহ্যামের-দলকে-৬-০-গোলে-হারাল-বার্সেলোনা
ইন্টার মায়ামির বিপক্ষে ৬-০তে ম্যাচ জিতে বার্সেলোনার উদযাপন। ছবি: এএফপি
ইন্টার মায়ামির বিপক্ষে ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলতে বুধবার ভোরে মাঠে নামে বার্সেলোনা। ডেভিড বেকহ্যামের মালিকানাধীন ক্লাবটিকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে প্রাক মৌসুম প্রস্তুতি শুরু করে স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

ক্লাব ফুটবলের মৌসুম শুরুর আগে প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতি ম্যাচে ব্যস্ত ইউরোপের পরাশক্তিরা। বার্সেলোনা রয়েছে আমেরিকা সফরে।

দেশটির মেজর লিগ সকারের দল ইন্টার মায়ামির বিপক্ষে ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলতে বুধবার ভোরে মাঠে নামে বার্সেলোনা। ডেভিড বেকহ্যামের মালিকানাধীন ক্লাবটিকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে প্রাক মৌসুম প্রস্তুতি শুরু করে স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

ম্যাচের শুরু থেকেই ইন্টার মায়ামিকে চাপে রাখে বার্সেলোনা। সদ্য যোগ দেয়া ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার রাফিনিয়ার নিজের প্রথম ম্যাচে বাজিমাত করেছেন। ৬ গোলের ম্যাচে, শুরুর ৩ গোলে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভূমিকা রাখেন সাবেক এ লিডস তারকা ।

ম্যাচের ১৯তম মিনিটে রাফিনিয়ার পাস থেকে গোল করে ১-০ তে দলকে এগিয়ে নেন পিয়েরে-এমেরিক অবামেয়াং। প্রথম গোলটি করতে অন্যকে সহযোগিতা করলেও দ্বিতীয় গোলটি নিজে করেন রাফিনিয়া।

প্রথম গোলের মিনিট ছয়েক পর অ্যালেক্স বালদের বাড়ানো পাস থেকে বল পেয়ে নিখুঁত শটে বল জালে জড়ান তিনি।

বিরতির আগে, ম্যাচের ৪১তম মিনিটে বার্সাকে ৩-০ গোলের লিড এনে দেন দীর্ঘ সময় পর ইনজুরি থেকে ফেরা আনসু ফাতি।

দ্বিতীয়ার্ধে খেলা শুরু হলে আবারও একের পর এক আক্রমণ শুরু করে বার্সেলোনা। ৫৫তম মিনিটে স্প্যানিশ উঠতি গাভির গোলে ৪-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় তারা।

১৪ মিনিট পর মেম্ফিস ডিপায় নিজের নাম তোলেন স্কোরশিটে। ফলে ব্যবধান বাড়িয়ে ৫-০ করে নেয় চাভি এরনান্দেসের শিস্যরা। পরের মিনিটে উসমান ডেম্বেলে দলের শেষ গোলটি করেন।

আগামী রোববার লাস ভেগাসে রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা।

আরও পড়ুন:
মায়ামিতে বার্সেলোনার ক্যাম্পে যোগ দিলেন লেওয়ানডোভস্কি
যেভাবে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বার্সেলোনা
বার্সেলোনাতেই থাকছেন ডেম্বেলে

মন্তব্য

আরও পড়ুন

খেলা
Ballon dOr Shortlist Released

ব্যালন ডরের সংক্ষিপ্ত তালিকায় নেই মেসি, নেইমার

ব্যালন ডরের সংক্ষিপ্ত তালিকায় নেই মেসি, নেইমার ব্যালন ডর ট্রফি। ছবি: সংগৃহীত
আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড লিওনেল মেসি ও ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড নেইমারের নাম নেই মনোনয়ন পাওয়া ৩০ জনের তালিকায়। এতে নাম রয়েছে মেসির পিএসজি সতীর্থ কিলিয়ান এমবাপের। ৩৭ বছর বয়সী পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালডোর নামও আছে তালিকায়।

গেল মৌসুমে বর্ষসেরা ফুটবলারের মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার ব্যালন ডর জিতেছিলেন আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। গতবারের ব্যালন ডরসহ তিনি সব মিলিয়ে সাতবার জিতেছেন এ পুরস্কার, তবে ২০০৫ সালের পর প্রথমবার মেসির নাম নেই পুরস্কারের জন্য মনোনীতদের সংক্ষিপ্ত তালিকায়।

গত বছর বার্সেলোনা ছেড়ে মেসি পাড়ি জমান ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইতে (পিএসজি)। সেখানে দলীয় ও ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স একদমই ভালো হয়নি মেসির। মূলত এ কারণেই তালিকায় নেই মেসির নাম।

ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড নেইমারের নামও নেই সংক্ষিপ্ত তালিকায়, তবে মেসির আরেক পিএসজি সতীর্থ কিলিয়ান এমবাপে রয়েছেন এতে। অন্যদিকে তালিকায় নাম রয়েছে ৩৭ বছর বয়সী পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালডোর। তিনি এর আগে আরও পাঁচবার জিতেছেন এ পুরস্কার।

ফুটবল সাময়িকী ফ্রান্স ফুটবল শুক্রবার রাতে ব্যালন ডরের লড়াইয়ে থাকা ফুটবলারদের নামের এ তালিকা প্রকাশ করে । এ পুরস্কারের জন্য ছয় ধাপে ৩০ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা প্রকাশ করে ‘ফ্রান্স ফুটবল’ ম্যাগাজিন।

তালিকায় প্রত্যাশিতভাবে রয়েছেন ২০২১-২২ মৌসুমে ফর্মের চূড়ায় থাকা ফরাসি স্ট্রাইকার কারিম বেনজেমা। অন্যদিকে বেনজেমার সঙ্গে টক্কর দেবেন পোলিশ স্ট্রাইকার রবার্ট লেওয়ানডোভস্কি। এই দুই অভিজ্ঞের সঙ্গে জায়গা করে নিয়েছেন তরুণ প্রতিভাবান নরওয়েজিয়ান স্ট্রাইকার আর্লিং হালান্ড।

চলতি বছরের মার্চে ব্যালন ডরের নিয়মে পরিবর্তন আনা হয়েছে। ইতোপূর্বে পুরো বছরের পারফরম্যান্স হিসাব করা হলেও চলতি বছর থেকে বিবেচনায় নেয়া হচ্ছে ইউরোপিয়ান ফুটবলের একটি পূর্ণাঙ্গ মৌসুমের সময়কে (এক বছরের আগস্ট থেকে পরের বছরের জুলাই পর্যন্ত)।

ব্যালন ডরের সংক্ষিপ্ত তালিকা

কিলিয়ান এমবাপে, আর্লিং হালান্ড, কারিম বেনজেমা, মোহামেদ সালাহ, ক্রিস্টিয়ানো রোনালডো, ভিনিসিয়াস জুনিয়র, জশুয়া কিমিখ, বের্নার্দো সিলভা, লুইস দিয়াস, রবার্ট লেওয়ানডোভস্কি, ফিল ফোডেন, সাদিও মানে, লুকা মদ্রিচ, থিবো কোর্তোয়া, রাফায়েল লিয়াও, ফ্যাবিনিয়ো, ক্রিস্টোফার এনকুকু, ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার আর্নল্ড, রিয়াদ মাহরেজ, ক্যাসেমিরো, সন হিউং মিন, মাইক মিয়া, হ্যারি কেইন, ডারউইন নুনেজ, অ্যান্টোনিও রুডিগার, কেভিন ডি ব্রুইনা, দুসান ভ্লাহোভিচ, ভার্জিল ফন ডাইক, জোয়াও ক্যান্সেলো ও সেবাস্তিয়ান হলার।

আগামী ১৭ অক্টোবর প্যারিসে জমকালো আয়োজনে ঘোষণা করা হবে ২০২২ সালের ব্যালন ডর জয়ীর নাম।

আরও পড়ুন:
মেসি উদাহরণ তৈরি করে: গলতিয়ে
আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল ম্যাচ হচ্ছে না
মেসি-নেইমারের সামনে দাঁড়াতেই পারল না ক্লেমোঁ

মন্তব্য

খেলা
Messi is loved by all Galtiye

মেসি উদাহরণ তৈরি করে: গলতিয়ে

মেসি উদাহরণ তৈরি করে: গলতিয়ে লিওনেল মেসি। ছবি: এএফপি
গেলো মৌসুমে দলবদলের বাজারে মেসি বাধ্য হয়ে বার্সেলোনা ছেড়ে যোগ দেন পিএসজিতে। ৩৪টি ম্যাচ খেলে গোল করেছেন ১১টি, অন্যকে গোল পেতে সহায়তা করেছেন ১৪টি।

ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইতে (পিএসজি) লিওনেল মেসির প্রথম বছরটি ভালো কাটেনি। গেল মৌসুমে নিজের পারফরম্যান্সে খরার সঙ্গে দলীয় পারফরম্যান্সও ছিল যাচ্ছেতাই। চাকরি হারিয়ে তার খেসারত দিতে হয়েছে সাবেক কোচ মরিসিও পচেত্তিনোকে।

পিএসজির নতুন কোচ ক্রিস্তোফ গলতিয়ে দারুণ আশাবাদী এই দল নিয়ে। দলের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় মেসিকে নিয়েও তিনি দারুণ উৎসাহিত। তার প্রশংসায় ভাসছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মেসি।

মেসি সম্পর্কে বলতে গিয়ে গলতিয়ে বলেন, ‘সে অনেক ভালো একজন মানুষ। তাকে দেখে আমি বিস্মিত না হয়ে পারি না। কারণ আপনার দারুণ রেকর্ড থাকবে, এতগুলো ম্যাচ যখন খেলবেন, এমন সব ট্রফি যখন জিতবেন, তার মানে তো এই যে আপনি একজন দারুণ খেলোয়াড়!’

তিনি যোগ করেন, ‘অনুশীলনে মেসি অনেক কিছু করার চেষ্টা করে। যখন অনুশীলনে ব্যস্ত থাকে তখন সে একেবারে গভীরে চলে যায়। তাছাড়া সতীর্থদের সঙ্গে কথা বলা থেকে শুরু করে ওর ব্যবহারও দারুণ।

‘সবসময় হাসি থাকে তার মুখে। তাছাড়া অন্য খেলোয়াড়দের জন্য সে (মেসি) সব সময় অনুপ্রেরণা। তাকে মাঠে দেখা প্রতিটি মুহূর্ত, তাকে হ্যালো বলাটা উপভোগ করি আমি। কারণ সে উদাহরণ তৈরি করে। অন্য সবার জন্য দারুণ উদাহরণ মেসি।’

মেসিকে দলে পেয়ে বেশ আনন্দিত পিএসজি কোচ গলতিয়ে। তিনি বলেন, ‘সে ক্লাব পর্যায়ে সবকিছু জিতেছে, শুধু বিশ্বকাপটা এখনও জয় করতে পারেনি। ব্যক্তিগত পুরস্কারও জিতেছে অনেক। তারপরও সে সন্তুষ্ট নয়। কারণ সে আরও অনেক দূর যেতে চায়। আমি মনে করি লিও (মেসি) যখন হাসে,দল হাসে। তাকে দলের সবাই ভালোবাসে ও সতীর্থরা তার তারিফ করে।’

গেল মৌসুমে দলবদলের বাজারে মেসি বাধ্য হয়ে বার্সেলোনা ছেড়ে যোগ দেন পিএসজিতে। ৩৪টি ম্যাচ খেলে গোল করেছেন ১১টি, অন্যকে গোল পেতে সহায়তা করেছেন ১৪টি।

আরও পড়ুন:
আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল ম্যাচ হচ্ছে না
মেসি-নেইমারের সামনে দাঁড়াতেই পারল না ক্লেমোঁ
মৌসুমের প্রথম ম্যাচে খেলছেন না এমবাপে

মন্তব্য

খেলা
Qatar World Cup schedule changes

এক দিন এগোল ফুটবল বিশ্বকাপ

এক দিন এগোল ফুটবল বিশ্বকাপ ফুটবল বিশ্বকাপ ট্রফি। ছবি: এএফপি
বিশ্বকাপের সূচি বদলানোর বিষয়ে ফিফার বিবৃতিতে জানানো হয়, বিশ্বকাপের উদ্বোধনকেন্দ্রিক ঐতিহ্যকে ধরে রেখেছে ফিফা। সাধারণত উদ্বোধনী ম্যাচে খেলে থাকে স্বাগতিক বা শিরোপাধারীরা। বিষয়টি মাথায় রেখে ফিফা এ পরিবর্তন এনেছে।

কাতারে অনুষ্ঠেয় ফুটবল বিশ্বকাপের সূচি পরিবর্তনের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল বেশ কিছুদিন ধরেই। সেটি সত্যি হলো। ২১ নভেম্বরের পরিবর্তে গ্রেটেস্ট শো অন আর্থের পর্দা উঠছে ২০ নভেম্বর।

বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘোষণা দেয়। এই ঘোষণার পর কাতার বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ এগিয়ে এলো এক দিন।

আগের সূচি অনুযায়ী, বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিল সেনেগাল ও নেদারল্যান্ডসের, তবে নতুন সূচি অনুসারে উদ্বোধনী ম্যাচে মাঠে নামবে স্বাগতিক কাতার ও ইকুয়েডর।

ফিফার ঘোষণার ফলে বিশ্বকাপের সময় এক দিন বেড়ে ২৯ দিন হলো।

নতুন সূচিতে উদ্বোধনী ম্যাচ বদলে গেলেও ফাইনালের দিনক্ষণ একই থাকছে। অন্য সব ম্যাচের সূচিও অপরিবর্তিত রয়েছে।

১৮ ডিসেম্বর ফাইনালের মধ্য দিয়েই পর্দা নামবে এবারের আসরের।

বিশ্বকাপের সূচি বদলানোর বিষয়ে ফিফার বিবৃতিতে জানানো হয়, বিশ্বকাপের উদ্বোধনকেন্দ্রিক ঐতিহ্যকে ধরে রেখেছে ফিফা। সাধারণত উদ্বোধনী ম্যাচে খেলে থাকে স্বাগতিক বা শিরোপাধারীরা। বিষয়টি মাথায় রেখে ফিফা এ পরিবর্তন এনেছে।

আরও পড়ুন:
সুপার লিগ শুরু হচ্ছে আফ্রিকায়
২০৩০ সালের বিশ্বকাপ আয়োজনে চার দেশের বিড
ইউরোপে নারী ফুটবল পেছনে ফেলল পুরুষদের

মন্তব্য

খেলা
Bangladesh will play two friendly matches against Cambodia Nepal

নেপাল, কম্বোডিয়ার সঙ্গে প্রীতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ

নেপাল, কম্বোডিয়ার সঙ্গে প্রীতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ এএফসি এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বের ফুটবল ম্যাচের একটি মুহূর্ত। ছবি: এএফপি
কম্বোডিয়া ও নেপালের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটির বিপক্ষে বাংলাদেশ ম্যাচ খেলেছে সবচেয়ে বেশি। এ পর্যন্ত ২৩ বার নেপালের মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। জয়ের পাল্লাটাও বাংলাদেশের দিকে। বাংলাদেশ ১৩ ম্যাচ জিতেছে, ৭টিতে হেরেছে, ড্র করেছে ৩টি ম্যাচ।

ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা দুই দল নেপাল ও কম্বোডিয়ার সঙ্গে প্রীতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে হবে ম্যাচ দুটি।

বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থার র‌্যাঙ্কিংয়ে ২১০ দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৯২তম। অন্যদিকে কম্বোডিয়া ও নেপালের অবস্থান যথাক্রমে ১৭৪ ও ১৭৬তম।

র‌্যাঙ্কিংয়ে পিছিয়ে থাকা দলগুলোর আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার সুযোগ তুলনামূলক কম। তাই ফিফা উইন্ডো কাজে লাগিয়ে দুটি ম্যাচ খেলার ব্যবস্থা করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।

কম্বোডিয়ার সঙ্গে তাদের ঘরের মাঠে ২২ সেপ্টেম্বর মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। সেখান থেকে নেপালের উদ্দেশে রওনা হবেন লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। দক্ষিণ এশিয়ার দেশটির সঙ্গে বাংলাদেশের ম্যাচটি হবে ২৭ সেপ্টেম্বর।

এ দুই ম্যাচকে সামনে রেখে আগস্টের শেষের দিকে আবাসিক ক্যাম্প শুরু হবে বলে জানিয়েছে বাফুফে।

দুই দেশের মধ্যে নেপালের বিপক্ষে বাংলাদেশ ম্যাচ খেলেছে সবচেয়ে বেশি। এ পর্যন্ত ২৩ বার নেপালের মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। জয়ের পাল্লাটাও বাংলাদেশের দিকে। বাংলাদেশ ১৩ ম্যাচ জিতেছে, ৭টিতে হেরেছে, ড্র করেছে ৩টি ম্যাচ।

অন্যদিকে কম্বোডিয়ার বিপক্ষে তেমন একটা ম্যাচ খেলা হয়নি বাংলাদেশের। ২০০৬ সালে এএফসি চ্যালেঞ্জ কাপে প্রথমবার মুখোমুখি হয়েছিল দল দুটি। সে ম্যাচে ২-১ গোলের ব্যবধানে জিতেছিল বাংলাদেশ।

২০১৯ সালের ৯ মার্চ কম্বোডিয়ার বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ। সেই ম্যাচও হয়েছিল কম্বোডিয়ার মাঠে। রবিউল হাসানের একমাত্র গোলে বাংলাদেশ জিতে ফিরেছিল।

সব মিলিয়ে কম্বোডিয়ার বিপক্ষে চারবারের সাক্ষাতে ৩ জয় ও ১ ড্র করে বাংলাদেশ।

আরও পড়ুন:
‘সুইস ব্যাংকের কাছে অর্থ পাচারের তথ্য চেয়েছে বিএফআইইউ’
সাকিব দলে থাকছেন; বেটউইনারের সঙ্গে চুক্তি বাতিল
এশিয়া কাপে নেই লিটন ও সোহান

মন্তব্য

খেলা
Silva told City about his future destination

সিটিকে নিজের ভবিষ্যত গন্তব্য জানিয়ে দিয়েছেন সিলভা

সিটিকে নিজের ভবিষ্যত গন্তব্য জানিয়ে দিয়েছেন সিলভা ম্যান সিটির জার্সিতে বার্নার্দো সিলবা। ছবি: সংগৃহীত
বার্সেলোনা সিলভাকে ৮ কোটি ইউরোর বিনিময়ে কিনতে চাচ্ছে। গত শুক্রবার সিটি ম্যানেজার পেপ গার্দিওলা নিজেও স্বীকার করেছেন যে, সিলভা যেতে চাইলে তিনি আটকাবেন না।

বার্সেলোনার চাহিদার তালিকায় থাকা বার্নার্দো সিলভা নিজের বর্তমান ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিকে নিজের ভবিষ্যত গন্তব্যের কথা জানিয়ে দিয়েছেন। কোথায় যাচ্ছেন সেটি প্রকাশ না করলেও এ পর্তুগিজ তারকা ইঙ্গিত দিয়েছেন ক্লাব ছাড়ার।

বার্সেলোনা সিলভাকে ৮ কোটি ইউরোর বিনিময়ে কিনতে চাচ্ছে। গত শুক্রবার সিটি ম্যানেজার পেপ গার্দিওলা নিজেও স্বীকার করেছেন যে, সিলভা যেতে চাইলে তিনি আটকাবেন না।

গত ৫ মৌসুমের মধ্যে ৪টি প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা জয়ে ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা রেখেছেন সিলভা। এ ক্লাবে খেলেই ইউরোপের অন্যতম সেরা মিডফিল্ডারে পরিণত হয়েছেন তিনি। যে কারণে ক্লাবের প্রতি তার কৃতজ্ঞতার শেষ নেই।

ক্রীড়া মাধ্যম ইএসপিএনকে সিলভা বলেন, ‘সিটির সঙ্গে আমার সম্পর্ক ভালো। আমি তাদের কাছে কিছুই গোপন রাখিনি। আমি কী চাই তারা সেটা জানে। এখানে থেকে যেতে পারলে আমি খুশি হব। কারণ এই ক্লাবটির প্রতি আমার সম্মানবোধ রয়েছে। এখানে আমি নিজের সর্বোচ্চটা দিতে রাজি।

তেমনটা না হলে দেখা যাবে কী হয়। এটি ফুটবল। এখানে যে কোনো কিছুই ঘটতে পারে। এটি একটি বড় ক্লাব। এখানে যারা সন্তুষ্ট নয় তারা রাখবে না। খেলোয়াড় ছেড়ে দেয়ার বিনিময়ে উপযুক্ত অর্থ আয় করতে চায় সিটি। তবে ক্লাবের সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্ক অন্য জিনিস এবং সেটি খুবই সম্মানজনক।’

এরই মধ্যে দল বদলে ১০ কোটি ইউরো খরচ করেছে বার্সেলোনা। এ সময় তারা দলে ভিড়িয়েছে রবার্ট লেওয়ানডোভস্কি, রাফিনিয়া ও জুলেস কুন্দেকে। ফ্রি এজেন্ট হিসেবে দলে নিয়েছে আন্ড্রেস ক্রিস্টেনসেন ও ফ্রাঙ্ক কেসিকে।

আরও পড়ুন:
খেলোয়াড় বিক্রি করতে মরিয়া বার্সেলোনা
গাম্পার ট্রফি জিতে মৌসুম শুরু বার্সেলোনার
ইউরোপে নারী ফুটবল পেছনে ফেলল পুরুষদের

মন্তব্য

খেলা
African football is launching a new super league

সুপার লিগ শুরু হচ্ছে আফ্রিকায়

সুপার লিগ শুরু হচ্ছে আফ্রিকায় আফ্রিকান ফুটবলের অন্যতম সেরা ক্লাব আল আহলি এসসি। ছবি: সংগৃহীত
আফ্রিকান কনফেডারেশন আয়োজিত এ টুর্নামেন্টে ২৪টি দল অংশ নেবে। তবে কোন কোন ক্লাব এই সুপার লিগে অংশ নিতে পারবে সে ব্যপারে এখনো চূড়ান্ত কিছু জানা যায়নি।

১০ কোটি ডলার খরচ করে সুপার লিগ চালু করতে যাচ্ছে আফ্রিকান ফুটবল কনফেডারেশন (সিএএফ)। এর মাধ্যমে এই অঞ্চলের আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ ক্লাবগুলো কিছুটা হলেও লাভবান বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে সংস্থাটি।

২০২৩ সালের আগস্ট থেকে ২০২৪ সালের মে মাস পর্যন্ত এই লিগ অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে জানিয়েছে তারা। এরই মধ্যে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ফিফা অনুমতি দিয়েছে। প্রথমবারের মতো আফ্রিকান কনফেডারেশন আয়োজিত এ টুর্নামেন্টে ২৪টি দল অংশ নেবে। তবে কোন কোন ক্লাব এই সুপার লিগে অংশ নিতে পারবে সে ব্যপারে এখনো চূড়ান্ত কিছু জানা যায়নি।

সিএইফ সভাপতি প্যাট্রিস মোটসেপে নতুন লিগের ঘোষণা দিয়েছেন। তবে এটি সিএএফের নিয়মিত আয়োজন চ্যাম্পিয়নস লিগ ও দ্বিতীয় স্তরের কনফেডারেশন কাপের বদলে নতুন কোনো টুর্নামেন্ট কিনা সে সম্পর্কে কিছু বলেননি মোটসেপে।

তানজানিয়ার শহর আরুশায় নতুন এই সুপার লিগ নিয়ে সভা শেষে মোটসেপে বৃহস্পতিবার বলেন, ‘আফ্রিকার সুপার লিগ এই অঞ্চলের ফুটবলের উন্নতিতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি টুর্নামেন্ট হিসেবে বিবেচিত হবে। আফ্রিকায় অন্যতম বড় সমস্যা হচ্ছে অর্থ। আফ্রিকান ফুটবলের ইতিহাসে এই সুপার লিগ রেকর্ড হয়ে থাকবে।

‘এই টুর্নামেন্টের লক্ষ্য একেবারেই স্পষ্ট। এর মাধ্যমে আমরা আফ্রিকার ক্লাবগুলোকে বিশ্বমানে তুলে আনতে চাই। যাতে তারা বিশ্বের বড় ক্লাবগুলোর সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারে। আমাদের ইচ্ছা প্রাইজ মানি হিসেবে ১০ কোটি ডলার দেয়া।’

আরও পড়ুন:
২০৩০ সালের বিশ্বকাপ আয়োজনে চার দেশের বিড
ইউরোপে নারী ফুটবল পেছনে ফেলল পুরুষদের
শিরোপা খরা কাটল ইংল্যান্ডের

মন্তব্য

খেলা
Argentina Brazil match is not happening

আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল ম্যাচ হচ্ছে না

আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল ম্যাচ হচ্ছে না ২০১৮ সালে প্রীতি ম্যাচে বাজিল ও আর্জেন্টিনা ম্যাচে বল দখলের লড়াই। ছবি: এএফপি
ব্রাজিল জাতীয় দলের হেড কোচ লিওনার্দো তিতের মতে বিশ্বকাপের আগে এ ম্যাচ খেলার কিছু অসুবিধা রয়েছে। আনুষ্ঠানিক ম্যাচ হওয়ায় যদি কোনো খেলোয়াড় লাল বা হলুদ কার্ড পান তাহলে তা বিশ্বকাপের ম্যাচেও তা বহাল থাকবে।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের স্থগিত ম্যাচটি গত বছর সেপ্টেম্বরে হওয়ার কথা থাকলেও মাঠে গড়ায়নি এখনও। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দলের খেলা নিয়ে জটিলতা বেড়েই চলছে। ফিফার নির্দেশনা অনুযায়ী আগামী মাসে ব্রাজিলে ম্যাচটি মাঠে গড়ানোর কথা। তবে ব্রাজিল ম্যাচটি বাতিল করতে চাইছে। ফিফার কাছে আবেদন করেছে তারা ।

ব্রাজিল জাতীয় দলের হেড কোচ লিওনার্দো তিতের মতে বিশ্বকাপের আগে এ ম্যাচ খেলার কিছু অসুবিধা রয়েছে। আনুষ্ঠানিক ম্যাচ হওয়ায় যদি কোনো খেলোয়াড় লাল বা হলুদ কার্ড পান তাহলে তা বিশ্বকাপের ম্যাচেও তা বহাল থাকবে। নিষেধাজ্ঞায় থাকা খেলোয়াড়রা গ্রুপ পর্বের ম্যাচ খেলতে পারবেন না।

অন্যদিকে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের কোচ লিওনেল স্কালোনিও ম্যাচটি খেলতে আগ্রহী নন। ওই ম্যাচের বদলে আমেরিকা বা ক্যানাডার বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে চায় আর্জেন্টিনা।

বাছাইপর্ব পূর্ণতার জন্য ফিফা চেয়েছিল ম্যাচটি সম্পন্ন করতে। তবে দুই দলের বিশ্বকাপ নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় ম্যাচটি এখন শুধু আনুষ্ঠানিকতা।

গত বছর ৫ সেপ্টেম্বর ব্রাজিলের ঘরের মাঠে মুখোমুখি হয়েছিল দল দুটি। কিন্তু করোনাভাইরাসের কড়াকড়ি নিয়মের মধ্যে কোয়ারেন্টাইন না মেনে আর্জেন্টিনার চার খেলোয়াড় মূল একাদশে মাঠে নামলে বাধে বিপত্তি। তাদের মাঠ থেকে তুলে নেয়ার জন্য ম্যাচ শুরুর ৫ মিনিটের মধ্যে হাজির হন ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। একপর্যায়ে থেমে যায় দুই দলের ম্যাচটি।

আরও পড়ুন:
মেসি-নেইমারের সামনে দাঁড়াতেই পারল না ক্লেমোঁ
মৌসুমের প্রথম ম্যাচে খেলছেন না এমবাপে
মেসির সমালোচকদের একহাত নিলেন নেইমার

মন্তব্য

p
উপরে