× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

খেলা
The design of Messis World Cup jersey was leaked
hear-news
player
google_news print-icon

ফাঁস হলো মেসিদের বিশ্বকাপ জার্সি

ফাঁস-হলো-মেসিদের-বিশ্বকাপ-জার্সি
আর্জেন্টিনার ২০২২ বিশ্বকাপের জার্সি। ছবি: টুইটার
আর্জেন্টিনার ক্রীড়া সাংবাদিক গাসতোন আদুলের বরাত দিয়ে নিজ টুইটার হ্যান্ডলে অফিশিয়াল জার্সিটির ছবি পোস্ট করেছেন আরেক ক্রীড়া সাংবাদিক রয় নেমার।

বিশ্বকাপ ফুটবল শুরু হতে এখনও ৫ মাস বাকি। মূল পর্বে সুযোগ পাওয়া দলগুলো ব্যস্ত তাদের স্কোয়াড কাটাছেঁড়ায়। শিগগিরই দলগুলো প্রকাশ করবে তাদের প্রাথমিক স্কোয়াড। অনেকেই আবার কাজ করছে বিশ্বকাপের জার্সি নিয়ে।

এর মধ্যে অনলাইনে ফাঁস হয়েছে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জার্সি। বিশ্বখ্যাত স্পোর্টস ব্র্যান্ড আডিডাসের তৈরি জার্সিটি আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রকাশ করা হবে ৮ জুলাই।

তবে, আনুষ্ঠানিকতার এক সপ্তাহ আগেই অনলাইনে ফাঁস হয়ে গেছে মেসিদের জার্সি। আর্জেন্টিনার ক্রীড়া সাংবাদিক গাসতোন আদুলের বরাত দিয়ে নিজ টুইটার হ্যান্ডলে অফিশিয়াল জার্সিটির ছবি পোস্ট করেছেন আরেক ক্রীড়া সাংবাদিক রয় নেমার।

বরাবরের মতো আর্জেন্টিনার পতাকার আদলে জার্সিটিতে রয়েছে সাদার ওপর আকাশী নীলের স্ট্রাইপ। হাত, গলা ও কাঁধে রয়েছে কালো রঙের বর্ডার। আর আডিডাসের বিখ্যাত থ্রি স্ট্রাইপ ডিজাইন রাখা হয়েছে হাতায়।

২০১৪ সালের জার্সির সঙ্গে অনেকখানি মিল রয়েছে আর্জেন্টিনার এবারের জার্সিটির।

মেসি, দি মারিয়াদের কাছে এ জার্সি পৌঁছাবে ৮ জুলাই। বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে আর্জেন্টিনা ও মেসিকে আডিডাসের বিশেষ ক্যাম্পেইন শুরু হবে এরপর।

লিওনেল মেসি আডিডাসের পণ্যদূত ও জার্মান এ স্পোর্টস ব্র্যান্ডের আইকন খেলোয়াড়।

আরও পড়ুন:
জার্সি বিক্রিতে রোনালডোকে ছাড়ালেন মেসি
মেসির ৩৫
আলবার বিয়েতে একসঙ্গে মেসিসহ সাবেক বার্সা তারকারা
মেসি-নেইমার-এমবাপেরা মাঠে নামছেন ৭ আগস্ট
মেসিকে পূর্ণাঙ্গ বিদায় জানাতে চায় বার্সেলোনা

মন্তব্য

আরও পড়ুন

খেলা
Iran US match is an opportunity to strengthen relations

সম্পর্ক জোরদারের সুযোগ ইরান-যুক্তরাষ্ট্র ম্যাচ!

সম্পর্ক জোরদারের সুযোগ ইরান-যুক্তরাষ্ট্র ম্যাচ! একই ফ্রেমে ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থকরা। ছবি: সংগৃহীত
কানাডিয়ান-যুক্তরাষ্ট্র বংশোদ্ভূত ভিগনেশ রাম বলেন, ’আন্তর্জাতিক ভ্রমণের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল সমর্থকরা বিভিন্ন অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারে। এটি মানুষকে এমনভাবে একত্রিত করে যা সত্যিই অর্থপূর্ণ। যুক্তরাষ্ট্র দলটি কখনই দুর্দান্ত ছিল না, তাই হারানোর মতো কিছু নেই। আমার মনে হয় এই খেলার মাধ্যমে দুই দেশের সমর্থকদের সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে।’

নারীর পোশাকের স্বাধীনতা নিয়ে ইরানে চলা বিক্ষোভের জন্য আমেরিকাসহ পশ্চিমাদের দায়ী করছে তেহরান। অন্যদিকে ওয়াশিংটনও বিক্ষোভকারীদের সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে। এমন প্রেক্ষাপটে আর কিছু সময় পর বিশ্বকাপে মাঠে গড়াতে যাচ্হছে ইরান-যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল ম্যাচ। স্বাভাবিকভাবেই এই ম্যাচ ঘিরে রাজনৈতিক উত্তেজনা এখন তুঙ্গে।

তবে এই ম্যাচ ঘিরে ইতিবাচক কিছুই ভাবছেন ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের অনেক সমর্থক।

ইংল্যান্ডের কাছে নিজেদের প্রথম ম্যাচ হেরেছে ইরান। পরের ম্যাচ ওয়েলসের সঙ্গে ২-০ গোলে জয় পায় তারা। অন্যদিকে ইংল্যান্ডের সঙ্গে গোল শূন্য ড্র করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তাই কাতার বিশ্বকাপে টিকে থাকতে মঙ্গলবারের ম্যাচটি দুই দলের কাছেই গুরুত্বপূর্ণ।

সঠিকভাবে হিজাব না করার অভিযোগে ইরানের নৈতিকতা পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার কুর্দি তরুণী মাহসা আমিনির মৃত্যু ঘিরে শুরু হওয়া বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে গোটা ইরানে। এই আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়ে রোববার যুক্তরাষ্ট্র ফুটবল ফেডারেশন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইরানের একটি পতাকা পোস্ট করে; যেখানে ইরানের পতাকার মাঝে থাকা ইসলামি প্রজাতন্ত্রের প্রতীক বাদ দেয়া হয়।

এ ঘটনায় পতাকা বিকৃতির অভিযোগ তুলে যুক্তরাষ্ট্রকে বিশ্বকাপ থেকে বের করে দেয়ার আহ্বান জানায় তেহরান। পতাকা বিকৃতির ঘটনায় অবশ্য ইতোমধ্যে ক্ষমা চেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের হেড কোচ গ্রেগ বেরহাল্টার।

তবে এসব কিছু ছাপিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের সমর্থকরা এই ম্যাচকে সম্পর্ক জোরদারের সুযোগ হিসেবেই দেখছেন।

ফ্রান্সে ১৯৯৮ বিশ্বকাপে শেষবার মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। ইরানের ১৯৭৯ সালের ইসলামি বিপ্লবের পর তেহরান-ওয়াশিংটন সম্পর্ক ছিন্ন হয়। তারপর সেই ম্যাচেই হয়েছিল দু'দলের প্রথম দেখা।

সম্পর্ক জোরদারের সুযোগ ইরান-যুক্তরাষ্ট্র ম্যাচ!

সে ম্যাচের আগে অভূতপূর্ব এক ঘটনা ঘটেছিল। উত্তেজনায় পানি ঢেলে ইরানি খেলোয়াড়রা প্রতিপক্ষের হাতে তুলে দিয়েছিলেন সাদা গোলাপ। তোলা হয়েছিল গ্রুপ ছবিও।

ইরান-যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচকে নিয়ে আমেরিকা-ইরান বংশোদ্ভূত বাসিন্দা ৩১ বছরের শেরভিন শরিফি জানান, তার কাছে জাতীয় দল ও বিভিন্ন ক্লাবের ১০৭টি জার্সি রয়েছে। যার মধ্যে ইরানের ফুটবল দলেরই ৪০ থেকে ৪৫টি।

শরিফি বলেন, ‘আমি একরকম আসক্ত। এটিই আমার জীবন। আমি এ জন্যই বাঁচি।’

আমেরিকার টেক্সাস থেকে ইরানকে সমর্থন দিতে কাতারে এসেছেন শরিফি এবং তার বন্ধু।

সম্পর্ক জোরদারের সুযোগ ইরান-যুক্তরাষ্ট্র ম্যাচ!
আমেরিকান-ইরান বংশোদ্ভূত শেরভিন শরিফি। ছবি: সংগৃহীত

দোহার একটি মার্কেটে দাঁড়িয়ে শরিফি বলেন, ‘আমি আপনাকে নিশ্চিতভাবে বলতে পারি যে ইরানি খেলোয়াড়দের এই খেলাটির প্রতি আরও বেশি আবেগ রয়েছে। কারণ তারা কেবল নিজেদের সাফল্যের জন্য খেলছে না। তাদের দিকে তাকিয়ে আছে ৮ কোটি মানুষ।’

শরিফি জানান, ১৯৯৮ সালের যুক্তরাষ্ট্র-ইরানের ম্যাচ দেখেই তিনি ফুটবলকে ভালোবেসেছেন। সেই ম্যাচে যুক্তরাষ্ট্রকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল ইরান। সাত বছর বয়সে মায়ের সঙ্গে সেই ম্যাচ দেখেছিলেন শরিফি।

ওই ম্যাচের আগে ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনিও ইরানের খেলোয়াড়দের মাঠ থেকে তুলে নেয়ার হুমকি দিয়েছিলেন। তিনি চাননি যে ইরানের ফুটবলাররা আমেরিকারন ফুটবলারদের সঙ্গে করমর্দন করুক।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া থেকে কাতার বিশ্বকাপ দেখতে এসেছেন কানাডিয়ান-যুক্তরাষ্ট্র বংশোদ্ভূত ৩৭ বছরের ভিগনেশ রাম।

সম্পর্ক জোরদারের সুযোগ ইরান-যুক্তরাষ্ট্র ম্যাচ!
বাবাকে নিয়ে কাতার বিশ্বকাপ দেখতে এসেছেন ভিগনেশ রাম। ছবি: সংগৃহীত

তিনি বলেন, ’আন্তর্জাতিক ভ্রমণের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল সমর্থকরা বিভিন্ন অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারে। এটি মানুষকে এমনভাবে একত্রিত করে যা সত্যিই অর্থপূর্ণ। যুক্তরাষ্ট্র দলটি কখনই দুর্দান্ত ছিল না, তাই হারানোর মতো কিছু নেই। আমার মনে হয় এই খেলার মাধ্যমে দুই দেশের সমর্থকদের সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে।’

শরিফি মনে করেন ফুটবল মানুষের সহানুভূতিকে জাগিয়ে তুলতে পারে। তবে তিনি স্বীকার করেন যে জাতীয় দলকে রাজনীতির বাইরে রাখা কঠিন।

তিনি বলেন, ‘মানুষ এখন শুধু ফুটবলের জন্য আসছে না। এর সঙ্গে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যও রয়েছে। আশার কথা হলো, আমেরিকান ভক্তরা ইরানি জনগণের প্রতি সহানুভূতিশীল হচ্ছে। কারণ সরকার থেকে ইরানের জনগণ আলাদা।’

মন্তব্য

খেলা
Senegal is the partner of the Netherlands in the knock out

নক আউটে নেদারল্যান্ডসের সঙ্গী সেনেগাল

নক আউটে নেদারল্যান্ডসের সঙ্গী সেনেগাল কাতারের বিপক্ষে দ্বিতীয় গোল করার পর মেম্ফিস ডিপায়ের সঙ্গে উদযাপন করছেন ফ্র্যাঙ্কি ডি ইয়ং। ছবি: টুইটার
গ্রুপ-এর শেষ রাউন্ডের ম্যাচে স্বাগতিক কাতারকে ২-০ গোলে হারিয়েছে নেদারল্যান্ডস। আর ইকুয়েডরকে ২-১ গোলে হারিয়েছে সেনেগাল।

ফিফা বিশ্বকাপের নক আউট পর্বে চতুর্থ ও পঞ্চম দল হিসেবে কোয়ালিফাই করেছে নেদারল্যান্ডস ও সেনেগাল। গ্রুপ-এর শেষ রাউন্ডের ম্যাচে স্বাগতিক কাতারকে ২-০ গোলে হারিয়েছে নেদারল্যান্ডস। আর ইকুয়েডরকে ২-১ গোলে হারিয়েছে সেনেগাল।

আগের দুই ম্যাচে সেনেগালের সঙ্গে জয় ও ইকুয়েডরের সঙ্গে ড্র করা নেদারল্যান্ডসের নক আউট নিশ্চিত করতে দরকার ছিল পরাজয় এড়ানো। কাতারের বিপক্ষে দুই অর্ধে দুই গোল করে পুরো তিন পয়েন্ট নিজেদের করে টেবিলের শীর্ষে থেকেই গ্রুপ পর্ব শেষ করেছে ডাচরা।

পুরো ম্যাচে প্রাধান্য ধরে রেখে খেলেছে নেদারল্যান্ডস। তাদের হয়ে ২৬ মিনিটে প্রথম লক্ষ্যভেদ করেন কোডি গেকপো। ওই এক গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যায় নেদারল্যান্ডস।

বিরতির পর থেকে ফেরার পরপরই দলের লিড দ্বিগুণ করে দেন ফ্র্যাঙ্কি ডি ইয়ং। বার্সেলোনা তারকার ৪৯ মিনিটের গোলে ম্যাচকে কাতারের ধরাছোঁয়ার বাইরে নিয়ে যায় ডাচরা।

দ্বিতীয়ার্ধে আরও একবার লক্ষ্যভেদ করেন বদলি হিসেবে নামা স্টিফেন বারগুইস। তবে রিপ্লেতে দেখা যায় বারগুইস গোল করার আগে তার সতীর্থ গেকপো হ্যান্ডবল করেছেন।

ফলে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্টের পরামর্শে রেফারি বাতিল করেন নেদারল্যান্ডসের তৃতীয় গোল।

তাতে জয় পেতে সমস্যা হয়নি ডাচদের। ২-০ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে তারা। গ্রুপ সেরা হওয়ায় বি-গ্রুপের দ্বিতীয় দলের সঙ্গে নকআউটে দেখা হবে তাদের। সেটা হওয়ার সম্ভাবনা আছে ইউএসএ বা ইরানের।

একই সময় গ্রুপের আরেক ম্যাচে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে পর ২-১ গোলের জয়ে নেদারল্যান্ডসের সঙ্গী হয়েছে সেনেগাল।

ইকুয়েডরের বিপক্ষে ম্যাচে আগে গোলের দেখা পায় সেনেগালিজরা। ইসমাইলা সার ৪৪ মিনিটে পেনাল্টি স্পট থেকে সুযোগ কাজে লাগাতে ভুল করেননি।

নক আউটে নেদারল্যান্ডসের সঙ্গী সেনেগাল
সেনেগালের দ্বিতীয় গোল করার পর সতীর্থদের সঙ্গে কালিদু কোলিবালির উদযাপন। ছবি: টুইটার

দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচে দারুণভাবে ফিরে আসে ইকুয়েডর। মইসেস কাইসেদো ৬৭ মিনিটে গোল করলে সমতা ফেরে ম্যাচে।

দক্ষিণ আমেরিকানদের উচ্ছ্বাস বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। গোল হজম করার মিনিট পাঁচেক পর কালিদু কোলিবালির গোলে লিড নেয় সেনেগাল।

শেষ ২০ মিনিট ও যোগ করা ৬ মিনিটে মরিয়া চেষ্টা চালালেও ম্যাচে ফিরতে পারেনি ইকুয়েডর। ফলে গ্রুপের দ্বিতীয় সেরা দল হয়ে নক আউটে পৌঁছে যায় সেনেগাল।

আরও পড়ুন:
কথা না শুনলে ইরানি ফুটবলারদের পরিবার পড়বে বিপদে
ইরান ম্যাচের আগে ক্ষমা চাইলেন আমেরিকার কোচ
পোল্যান্ডের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার একাদশে আসছে একাধিক বদল

মন্তব্য

খেলা
Iran US standoff in Qatar

ইরান-আমেরিকা ‘মহারণ’ কাতারে

ইরান-আমেরিকা ‘মহারণ’ কাতারে মাঠের লড়াই ছাপিয়ে বড় হয়ে উঠতে পারে ইরান-যুক্তরাষ্ট্রের রাজনৈতিক উত্তাপ। ছবি: সংগৃহীত
আল থুমামা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় মুখোমুখি হচ্ছে ইরান-যুক্তরাষ্ট্র। গ্রুপ ‘বি’ থেকে দুই দলেরই নক আউট পর্বে খেলার সুযোগ রয়েছে। তবে মাঠের লড়াই ছাপিয়ে বড় হয়ে উঠতে পারে দুই দেশের রাজনৈতিক উত্তাপ।

কাতার বিশ্বকাপে মঙ্গলবার গভীর রাতে যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে মাঠে নামছে ইরান। ফুটবলে শক্তির দিক থেকে দুই দলের খুব একটা পার্থক্য নেই। ফিফা রেটিংয়ে যুক্তরাষ্ট্র ১৬ নম্বরে; চার ধাপ পিছিয়ে ইরানের অবস্থান ২০-এ। তবে মাঠের লড়াই ছাপিয়ে বড় হয়ে উঠতে পারে দুই দেশের রাজনৈতিক উত্তাপ।

নারীর পোশাকের স্বাধীনতার দাবিতে ইরানে চলমান বিক্ষোভ-প্রতিবাদের ঢেউ এরই মধ্যে কাতার বিশ্বকাপের মাঠেও পৌঁছে গেছে। বিক্ষোভে সংহতি জানিয়ে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জাতীয় সংগীত গাননি ইরানি ফুটবলাররা। পাশাপাশি আগের দুই ম্যচে গ্যালারিতেও দৃশ্যমান ছিল ইরানিদের প্রতিবাদ। আমেরিকার বিপক্ষে ইরানের তৃতীয় ম্যাচে ক্ষোভের এই মাত্রা আরও তীব্র হতে পারে।

আল থুমামা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় মুখোমুখি হচ্ছে ইরান-যুক্তরাষ্ট্র। গ্রুপ ‘বি’ থেকে দুই দলেরই নক আউট পর্বে খেলার সুযোগ রয়েছে। মাঠের লড়াইটাও তাই হাড্ডাহাড্ডি হবে।

ফ্রান্সে ১৯৯৮ বিশ্বকাপে শেষবার মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। ইরানের ১৯৭৯ সালের ইসলামি বিপ্লবের পর তেহরান-ওয়াশিংটন সম্পর্ক ছিন্ন হয়। তারপর সেই ম্যাচেই হয়েছিল দু'দলের প্রথম দেখা।

সে ম্যাচের আগে অভূতপূর্ব এক ঘটনা ঘটেছিল। উত্তেজনায় পানি ঢেলে ইরানি খেলোয়াড়রা প্রতিপক্ষের হাতে তুলে দিয়েছিলেন সাদা গোলাপ। তোলা হয়েছিল গ্রুপ ছবিও।

ম্যাচে হামিদ ইস্টিলি এবং মেহেদি মাহদাভিকিয়ার গোলে ২-০তে জয় পায় ইরান। সেটি ছিল বিশ্বকাপের কোনো ম্যাচে ইরানের প্রথম জয়। আনন্দের বন্যা বয়ে গিয়েছিল তেহরানের রাস্তায়।

এবার কাতার বিশ্বকাপে গত শুক্রবার ওয়েলসের বিপক্ষে প্রথম জয় পায় ইরান। এর আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৬-২ গোলে হার মানতে হয়েছিল ইরানি ফুটবলারদের। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে এবার জয় পেলে প্রথমবারের মতো নক আউট পর্বে খেলবে তারা।

তবে আমেরিকার বিপক্ষে লড়াইটা কেবল ফুটবল নিয়ে নয়।

ইসলামি শাসনের ইরান যে কয়েকটি স্তম্ভের ওপর দাঁড়িয়ে দেশ শাসন করছে, নারীদের হিজাব তার একটি। ৭০ দিনের বেশি সময় ধরে ইরানে হিজাববিরোধী তুমুল বিক্ষোভ চলছে; যেটা এখন ইরানের সরকার পতনের আন্দোলনে পরিণত হয়েছে।

বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থার হিসাবে, বিক্ষোভ দমাতে ইরানের নিরাপত্তা বাহিনীর কঠোর অবস্থানের কারণে প্রাণ দিয়েছেন চার শতাধিক মানুষ। তাদের মধ্যে আছে ৬০ জনের বেশি শিশু। ইরানি কর্তৃপক্ষ অবশ্য আনুষ্ঠানিক পরিসংখ্যান প্রকাশ করেনি।

হিজাব ঠিকমতো না করার অভিযোগে গ্রেপ্তার কুর্দি তরুণী মাহসা আমিনি পুলিশি হেফাজতে মারা যান গত ১৬ সেপ্টেম্বর। সেদিন থেকেই বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে রাজধানী তেহরান। অল্প দিনে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে গোটা ইরানে।

‘নারী, জীবন, স্বাধীনতা’ স্লোগানটি বিশ্বকাপেও দেখা যাচ্ছে অনেক ইরানি বিক্ষোভকারী আশা করছেন জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের পাশাপাশি সাবেক এবং বর্তমান অ্যাথলেটিকরাও তাদের সমর্থন দেবেন।

ইরান দলের অধিনায়ক এহসান হাজিসাফি গত সপ্তাহে দোহায় সংবাদ সম্মেলনে বিক্ষোভে সংহতি প্রকাশ করেন। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ শুরুর আগে খেলোয়াড়রা জাতীয় সংগীত গাইতে অস্বীকৃতিও জানান। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে জাতীয় সংগীতে কণ্ঠ মিলিয়েছেন খেলোয়াড়রা।

ইংল্যান্ড ম্যাচের পর ইরানে আবার চাঙা হয় বিক্ষোভ। নিরাপত্তা বাহিনীর ব্যাপক তৎপরতা ও ইন্টারনেটের গতি কমিয়ে দেয়ার ঘটনাও ঘটতে থাকে।

তবে ওয়েলসের বিপক্ষে জয়ের পর নিরাপত্তা বাহিনীর চোখের সামনেই রাস্তায় উদযাপনে মাতে ইরানি জনতা। এর আগে বিক্ষোভ দমাতে যে পুলিশ সরাসরি গুলি ছুড়তে দ্বিধা করেনি, সেই পুলিশ সদস্যরাও সেদিন পতাকা নাড়িয়ে তাদের উৎসাহ দেয়। মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা, রাস্তায় নাচতে-গাইতেও দেখা গেছে তাদের। সেদিন প্রথা ভেঙে ইরানের রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত নিউজ ওয়েবসাইটগুলো হেডস্কার্ফহীন উল্লসিত নারীদের ছবি প্রকাশ করে৷

ইরানের শীর্ষ কর্মকর্তারা তাদের দেশে ‘দাঙ্গা’ এবং ‘সন্ত্রাসবাদ’-এর মূল চালিকাশক্তি হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রকে অভিযুক্ত করছেন, তবে তা অস্বীকার করেছে ওয়াশিংটন।

আরও পড়ুন:
ফিফার টুইটে এবার বাংলাদেশে ব্রাজিল উদযাপন
নেইমারকে মিস করেছেন তিতে
ব্রাজিলের জয়ে জগন্নাথে বাঁধভাঙা উল্লাস
ম্যাচের আগে মেসিকে পোলিশ ডিফেন্ডারের হুঁশিয়ারি
আর্জেন্টিনার খেলা নিয়ে বন্ধুকে খুন

মন্তব্য

খেলা
The American coach apologized before the Iran match

ইরান ম্যাচের আগে ক্ষমা চাইলেন আমেরিকার কোচ

ইরান ম্যাচের আগে ক্ষমা চাইলেন আমেরিকার কোচ যুক্তরাষ্ট্রের হেড কোচ হেড কোচ গ্রেগ বেরহাল্টার। ছবি: সংগৃহীত
ইরান-যুক্তরাষ্ট্র ম্যাচ নিয়ে রোববার ফেসবুক, টুইটার ও ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট করে যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল ফেডারেশন। সেই পোস্টে তারা ইরানের পতাকার মাঝে থাকা ইসলামী প্রজাতন্ত্রের প্রতীক বাদ দিয়ে বিকৃত ছবি প্রকাশ করে।  

কাতার বিশ্বকাপে মঙ্গলবার মাঠে নামছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরান। ইরানের টিকে থাকার এ ম্যাচের আগে দেশটির পতাকা বিকৃতি করে ফেসবুক, টুইটার ও ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট করে যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল ফেডারেশন। যা নিয়ে বেশ ক্ষুব্ধ হয় তেহরান। এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র ফুটবল ফেডারেশনের হয়ে ক্ষমা চেয়েছেন দলের হেড কোচ গ্রেগ বেরহাল্টার।

সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইরান-যুক্তরাষ্ট্র ম্যাচ নিয়ে রোববার ফেসবুক, টুইটার ও ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট করে যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল ফেডারেশন। সেই পোস্টে তারা ইরানের পতাকার মাঝে থাকা ইসলামী প্রজাতন্ত্রের প্রতীক বাদ দিয়ে প্রকাশ করে।

যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল ফেডারেশন সিএনএনকে জানায়, মৌলিক মানবাধিকারের জন্য ইরানের নারীদের আন্দোলনে সমর্থন দিয়ে তারা ২৪ ঘণ্টার জন্য দেশটির পতাকা পরিবর্তন করেছে। তবে ইরানের মূল পতাকা আমেরিকার ফুটবল ফেডারেশনের ওয়েবসাইট ও অন্যান্য জায়গায় আছে বলেও জানানো হয়।

আরও পড়ুন: যুক্তরাষ্ট্রকে বিশ্বকাপ থেকে বের করে দেয়ার আহ্বান ইরানের

এরপর যুক্তরাষ্ট্রকে চলমান কাতার বিশ্বকাপ থেকে বের করে দেয়ার আহ্বান জানায় ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম।

সোমবার সংবাদ সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্র দলের কোচ বারহল্টার সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন, ‘যা পোস্ট হয়েছে সে ব্যাপারে খেলোয়াড় ও স্টাফরা কিছু জানে না। কিছু জিনিস থাকে যা আমাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে। ফেডারেশন কী করেছে, এ বিষয়ে বিন্দুমাত্র ধারণা নেই আমাদের। বাইরের ব্যাপার নিয়ে আমরা ভাবি না। তারপরও খেলোয়াড় ও স্টাফদের পক্ষ থেকে ক্ষমা চাইতে পারি আমরা। ’

ইরানে চলমান সরকারবিরোধী আন্দোলনে একাত্মতা প্রকাশ করে বেরহাল্টার বলেন, ‘আমাদের ভাবনাটা ম্যাচ নিয়ে। তাদের (ইরান) হারাতে খুবই মনোযোগী আমরা। অবশ্যই ইরানিদের পাশে আছি আমরা। দলসহ সবাই তাদের পাশে আছে, তবে আমাদের মনোযোগটা খেলা নিয়েই।’

সংবাদ সম্মেলনে ইরানকে বারবার ‘আইরান’ বলছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের অধিনায়ক টাইলার অ্যাডামস। ভুল উচ্চারণের জন্য তাকে একহাত নেন এক ইরানের সংবাদমাধ্যম প্রেসটিভির এক সাংবাদিক। অ্যাডামসের উদ্দেশ্যে তার প্রশ্ন ছিল, ‘কৃষ্ণাঙ্গদের ওপর বৈষম্যবাদী আচরণ করা একটি দেশের প্রতিনিধিত্ব করে কেমন লাগে?’

ইরান ম্যাচের আগে ক্ষমা চাইলেন আমেরিকার কোচ
যুক্তরাষ্ট্র ফুটবল দলের অধিনায়ক টাইলার অ্যাডামস। ছবি: সংগৃহীত

জবাবে অ্যাডামস বলেন, ‘ভুল উচ্চারণের জন্য ক্ষমা চাচ্ছি। বৈষম্য সর্বত্রই আছে। দেশের বাইরে থেকে এটা বুঝেছি যে বিভিন্ন সংস্কৃতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে আমাদের প্রতিনিয়ত উন্নতি হচ্ছে। ’

মন্তব্য

খেলা
Several changes are coming to Argentinas XI against Poland

পোল্যান্ডের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার একাদশে আসছে একাধিক বদল

পোল্যান্ডের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার একাদশে আসছে একাধিক বদল আর্জেন্টিনার অনুশীলনে লিওনেল মেসি। ছবি: টুইটার
আক্রমণভাগে দুই ম্যাচে অকার্যকর লাউতারো মার্তিনেসের জায়গায় মেসি-দি মারিয়ার সঙ্গী হিসেবে হুলিয়ান আলভারেসকে দেখা যেতে পারে।

বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ হারের পর দ্বিতীয় ম্যাচের একাদশে ৫টি পরিবর্তন নিয়ে খেলতে নামে আর্জেন্টিনা। মেক্সিকোকে ২-০ গোলে হারানোর পরও তৃতীয় ম্যাচে একাদশ ধরে রাখছেন না হেড কোচ লিওনেল স্কালোনি।

খেলোয়াড় রোটেশন করে দেখতে চান তিনি। পোল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের শেষ ম্যাচে বুধবার রাত ১টায় মাঠে নামছেন লিওনেল মেসি-আনহেল দি মারিয়ারা। এ ম্যাচেও আর্জেন্টিনার একাদশে একাধিক পরিবর্তনের সম্ভাবনা রয়েছে।

আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যমগুলোর দাবি স্কালোনি রক্ষণে দুটি পরিবর্তন আনতে চাচ্ছেন। মেক্সিকোর বিপক্ষে দারুণ খেলা লিসান্দ্রো মার্তিনেসের জায়গায় ক্রিশ্চিয়ানো রোমেরো ও ডান প্রান্তে গন্সালো মন্তিয়েলের জায়গায় নায়ুয়েল মলিনাকে দেখা যেতে পারে।

মাঝমাঠেও রদ্রিগো দে পলের জায়গায় খেলতে পারেন মেক্সিকোর বিপক্ষে চমৎকার গোল করা এনজো ফার্নান্দেস।

আক্রমণভাগে দুই ম্যাচে অকার্যকর লাউতারো মার্তিনেসের জায়গায় মেসি-দি মারিয়ার সঙ্গী হিসেবে হুলিয়ান আলভারেসকে দেখা যেতে পারে।

পোল্যান্ডের বিপক্ষে জিতলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউটে পৌঁছাবে আর্জেন্টিনা। ড্র করলে তাদের অপেক্ষায় থাকতে হবে সৌদি আরব-মেক্সিকো ম্যাচের দিকে।

আরও পড়ুন:
মেসির সমর্থনে আগুয়েরো-ফাব্রেগাস
বাংলাদেশের পতাকা হাতে মেসির ছবি কীভাবে?
নক আউটে চোখ রেখে কাতারের বিপক্ষে নামছে নেদারল্যান্ডস

মন্তব্য

খেলা
The former took the bat for Messi

মেসির সমর্থনে আগুয়েরো-ফাব্রেগাস

মেসির সমর্থনে আগুয়েরো-ফাব্রেগাস মেক্সিকোর বক্সার সাউল আলভারেস ও লিওনেল মেসি। ছবি: সংগৃহীত
মেসির হয়ে আলভারেসকে জবাব দিয়েছেন সাবেক ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার ফিলিপে মেলো, সাবেক আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড সার্হিও আগুয়েরো, স্প্যানিশ সাবেক তারকা সেস্ক ফাব্রেগাস।

মেক্সিকোর সঙ্গে ২-০ গোলের জয়ে বিশ্বকাপে দারুণভাবে ফিরে এসেছে আর্জেন্টিনা। স্বস্তির এই জয়ের পর পুরো স্কোয়াড নেচেগেয়ে উদযাপন করেছে ড্রেসিংরুমে। মেসিদের উল্লাসের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

বিপত্তি বাধে ভিডিওর একটি দৃশ্যে। সেখানে দেখা যায় মেসি বসে আছেন, তার পায়ের নিচে মেক্সিকোর জার্সি। আর তাতেই খেপেছেন মেক্সিকোর বক্সার সাউল আলভারেস। তার দাবি উল্লাস করার সময় মেসি মেক্সিকোর জার্সিতে লাথি মেরেছেন।

লিওনেল মেসির উদ্দেশে করা এক টুইটে আলভারেস লেখেন, ‘ঈশ্বর না করুন! তিনি যেন আমার মুষ্ঠির বাইরে থাকেন।’

আর তাতে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। সবাই জার্সি অবমাননার অভিযোগ আনতে শুরু করে মেসির বিরুদ্ধে।

বিষয়টিকে কোনভাবেই অবমাননার কাতারে ফেলছেন না সাবেক ফুটবলাররা। মেসির হয়ে আলভারেসকে জবাব দিয়েছেন সাবেক ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার ফিলিপে মেলো, সাবেক আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড সার্হিও আগুয়েরো, স্প্যানিশ সাবেক তারকা সেস্ক ফাব্রেগাস।

আলভারেসকে জবাব দিয়ে ফিলিপে মেলো টিএনটি স্পোর্টসকে বলেন, ‘বক্সিং পছন্দ করায় সাউলকে শ্রদ্ধা করতাম। কিন্তু সে ফুটবলের কিছু বোঝে না। তাই চুপ থাকা উচিত। অন্যদের সম্মান দেওয়ার ক্ষেত্রে মেসির চেয়ে ভালো কেউ নেই। কোনো দলেই নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘তার বিপক্ষে অনেকবারই খেলেছি, প্রতিবারই তার কাছ থেকে সম্মান পেয়েছি। যে লোক মুখ খুলে আজেবাজে কথা বলে, তার (মেসি) সেসব কথার উত্তর দেওয়ার দরকার নেই।’

আলভারেসের টুইট রিটুইট করে আগুয়েরো লেখেন, ‘জনাব সাউল, কোনো সমস্যা আর অজুহাত টানবেন না। আপনি অবশ্যই জানেন না ফুটবল কী ও লকার রুমে কী হয়। জার্সিগুলো খেলার পর মাটিতেই পড়ে থাকে কেননা অতিরিক্ত ঘামে সেগুলো ভেজা থাকে। আপনি যদি ভালো করে লক্ষ্য করেন তাহলে দেখবেন অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে সেটি বুট খোলার সময় পায়ে লেগেছে।’

ফাব্রেগাসও আলভারেসের টুইট রিটুইট করেন। তিনি লেখেন, ‘আপনি তাকে চেনেন না। আপনি জানেনও না লকার রুমের পরিস্থিতি কেমন থাকে ম্যাচের শেষে। সব জার্সি খেলা শেষে মাটিতেই পড়ে থাকে। এমনকি আমাদেরগুলোও। পরে সেগুলো পরিষ্কার করা হয়।’

আরও পড়ুন:
বাংলাদেশের পতাকা হাতে মেসির ছবি কীভাবে?
ফিফার টুইটে এবার বাংলাদেশে ব্রাজিল উদযাপন
নেইমারকে মিস করেছেন তিতে
ম্যাচের আগে মেসিকে পোলিশ ডিফেন্ডারের হুঁশিয়ারি

মন্তব্য

খেলা
How about the photo of Messi holding the flag of Bangladesh?

বাংলাদেশের পতাকা হাতে মেসির ছবি কীভাবে?

বাংলাদেশের পতাকা হাতে মেসির ছবি কীভাবে? মেক্সিকোর বিপক্ষে গোল দেয়ার পর মেসির আলোচিত ছবিটি তোলা হয়। ছবি কোলাজ: নিউজবাংলা
আর্জেন্টিনার প্রফেশনাল ফুটবল লিগ তাদের অফিশিয়াল সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে মেক্সিকোর বিপক্ষে লিওনেল মেসির গোল উদযাপনের একটি ছবি পোস্ট করেছে। সেই ছবিতে ফটোশপের মাধ্যমে মেসির প্রসারিত দুই হাতে বসিয়ে দেয়া হয়েছে বাংলাদেশের পতাকা। ছবিটি তুলেছেন ফটোসাংবাদিক জেনস ফার্নান্দো।

বাংলাদেশি ফুটবল-ভক্তদের মাঝে লিওনেল মেসি ও আর্জেন্টিনাকে নিয়ে উন্মাদনা নতুন কিছু নয়। ডিয়েগো ম্যারাডোনার কারণে আর্জেন্টিনার প্রতি বিপুল সমর্থন তৈরি হয়। সেটা বহু গুণে বেড়েছে ২০০৬ সালে মেসির প্রথম বিশ্বকাপ থেকে।

২০২২ সালে ফিফা বিশ্বকাপেও আর্জেন্টিনা ও মেসিকে নিয়ে বাংলাদেশি ভক্তদের মাঝে রয়েছে বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস। আর্জেন্টিনার ম্যাচ ঘিরে টান টান উত্তেজনায় ভরপুর সমর্থকরা। আর্জেন্টিনার সমর্থনে দেশের বিভিন্ন স্থানে হচ্ছে পতাকা মিছিল।

আর্জেন্টিনার প্রতি বাংলাদেশি সমর্থকদের বিপুল ভালোবাসার স্বীকৃতি দিচ্ছে ফুটবল-বিশ্বও। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মেক্সিকোর বিপক্ষে মেসির গোলের পর দর্শকদের উচ্ছ্বাসের ভিডিও নিজেদের অফিশিয়াল টুইটার হ্যান্ডল থেকে শেয়ার করেছে ফিফা। সেটি রি-টুইট করেছেন গ্যারি লিনেকারের মতো ফুটবল কিংবদন্তিসহ অনেকে।

বহু দূরের ও সম্পূর্ণ ভিন্ন সংস্কৃতির একটি দেশে আর্জেন্টিনাকে নিয়ে এমন উচ্ছ্বাসে আর্জেন্টাইনরাও মুগ্ধ। আর্জেন্টিনার প্রফেশনাল ফুটবল লিগ সোমবার টুইটার ও ফেসবুকে একটি বিশেষ পোস্টের সম্মান জানিয়েছে বাংলাদেশি ভক্তদের।

তাদের অফিশিয়াল সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে মেক্সিকোর বিপক্ষে লিওনেল মেসির গোল উদযাপনের একটি ছবি পোস্ট করা হয়েছে। সেই ছবিতে ফটোশপের মাধ্যমে মেসির প্রসারিত দুই হাতে বসিয়ে দেয়া হয়েছে বাংলাদেশের পতাকা।

বাংলাদেশের পতাকা হাতে মেসির ছবি কীভাবে?
আর্জেন্টিনার প্রফেশনাল ফুটবল লিগের ফেসবুক ও টুইটারে বাংলাদেশের পতাকাযুক্ত মেসির ছবি

পোস্টটি ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। বাংলাদেশের ভক্তদের পাশাপাশি দেশের বাইরের অনেকেও সেটি শেয়ার করেছেন।

এই পোস্টে ব্যবহৃত ছবির প্রকৃত উৎস অনুসন্ধান করেছে নিউজবাংলা।

দেখা গেছে আর্জেন্টিনার প্রফেশনাল ফুটবল লিগ সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ১০টা ৫২ মিনিটে তাদের টুইটার হ্যান্ডলে প্রথম আলোচিত পোস্টটি দেয়। এরপর তাদের ফেসবুক পেজে একই ছবিযুক্ত পোস্টটি দেয়া হয় রাত ১০টা ৫৩ মিনিটে।

দুটি পোস্টের ক্যাপশনেই লেখা হয়,

Lionel Messi Bangladesh

That's it. That's the tweet.

মঙ্গলবার বেলা ৩টা পর্যন্ত ফেসবুকের পোস্টটি ২২ হাজারের বেশি শেয়ার করা হয়েছে। আর ৫৩ হাজারের বেশি লাইক করা হয়েছে টুইটারে, রি-টুইট হয়েছে আড়াই হাজারের বেশি।

বাংলাদেশের পতাকা হাতে মেসির ছবি কীভাবে?
আর্জেন্টিনার প্রফেশনাল ফুটবল লিগের প্রকাশ করা ছবিটি গাভির ফেসবুক ফ্যানপেজেও আপলোড করা হয়েছে

অনেক জনপ্রিয় ফ্যানপেজও শেয়ার করেছে পোস্টটি। স্পেন ও বার্সেলোনার তরুণ মিডফিল্ডার গাভির ফেসবুক ফ্যানপেজ থেকে পোস্টটি শেয়ার করা হয় রাত ১টা ৯ মিনিটে। তাদের পোস্টটি মঙ্গলবার বেলা ৩টা পর্যন্ত শেয়ার হয়েছে ৫ হাজার ৬০০ বার।

ফটোশপের মাধ্যমে মেসির হাতে বাংলাদেশের পতাকা বসানো ছবিটির উৎস সন্ধান করে দেখা গেছে এটি তুলেছেন ফটোসাংবাদিক জেনস ফার্নান্দো।

বাংলাদেশের পতাকা হাতে মেসির ছবি কীভাবে?
আলোচিত ছবিটি তোলেন টেলাম-এর ফটোসাংবাদিক জেনস ফার্নান্দো

আর্জেন্টিনার সরকারি প্রচারমাধ্যম টেলাম-এর ফটোসাংবাদিক ফার্নান্দো ছবিটি তোলেন মেক্সিকোর বিপক্ষে মেসির গোলের পরপর।

টেলাম ছবিটি প্রকাশের সময় ক্যাপশনে লিখেছে, ‘ফিফা বিশ্বকাপে গ্রুপ-সি এ নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে রোসারিওর তারকা লিওনেল মেসি মেক্সিকোর বিপক্ষে দ্বিতীয়ার্ধের ১৮ মিনিটে গোল করে দলকে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে নেন।’

টেলাম-এর ওয়েবসাইটে ছবিটি প্রকাশ করা হয় গত শনিবার আর্জেন্টিনার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে।

বাংলাদেশের পতাকা হাতে মেসির ছবি কীভাবে?
বিভিন্ন সংবাদম্যধমের প্রতিবেদনে আলোচিত ছবিটি ব্যবহার করা হয়েছে

আর্জেন্টিনার বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম ওই দিন তাদের বিভিন্ন প্রতিবেদনে টেলম-এর ছবিটি ব্যবহার করে।

একই ছবিতে মেসির হাতে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার ছবি বসিয়ে সোমবার বাংলাদেশি ভক্তদের সম্মান জানায় আর্জেন্টিনার প্রফেশনাল ফুটবল লিগ। আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের অধীনে এই কর্তৃপক্ষ দেশটির ঘরোয়া লিগ পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে।

আরও পড়ুন:
আর্জেন্টিনার খেলা নিয়ে বন্ধুকে খুন
উরুগুয়েকে শঙ্কায় ফেলে শেষ ষোলোতে পর্তুগাল
কাসেমিরোর গোলে শেষ ষোলোতে ব্রাজিল
সুইসদের বিপক্ষে প্রথমার্ধে গোল পায়নি ব্রাজিল
দুই পরিবর্তন নিয়ে মাঠে ব্রাজিল

মন্তব্য

p
উপরে