১৩ বছর পর দলে নেই পঞ্চপাণ্ডবের কেউই

player
১৩ বছর পর দলে নেই পঞ্চপাণ্ডবের কেউই

বাংলাদেশের পঞ্চপাণ্ডব। ছবি: সংগৃহীত

মাশরাফি বিন মুর্ত্তোজা, মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। দারুণ পারফরম্যান্সে তারা জাতীয় দলে ভরসার জায়গা করে নেয়ার পাশাপাশি সম্মিলিত প্রচেষ্টায় অবদান রাখতে থাকেন ঐতিহাসিক সব জয়ে। পারস্পারিক সম্পর্কের রসায়নের কারণে তারা পরিচিত হয়ে ওঠেন ‘পঞ্চপাণ্ডব’ নামে।

২০০৯ সালে দেশের ক্রিকেটে আবির্ভাব ঘটে পাঁচ সেরার। মাশরাফি বিন মুর্ত্তোজা, মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের। সেই থেকে শুরু বাংলাদেশে ক্রিকেটের বদলে যাওয়া।

দারুণ পারফরম্যান্সে তারা জাতীয় দলে ভরসার জায়গা করে নেয়ার পাশাপাশি সম্মিলিত প্রচেষ্টায় অবদান রাখতে থাকেন ঐতিহাসিক সব জয়ে। পারস্পারিক সম্পর্কের রসায়নের কারণে তারা পরিচিত হয়ে ওঠেন ‘পঞ্চপাণ্ডব’ নামে।

সব ম্যাচেই বাকিদের ছাপিয়ে যেতে থেকেন জাতীয় দলের এই পঞ্চপাণ্ডব। এই পাঁচ ক্রিকেটারকে ছাড়া খেলাই যেন ভুলে গিয়েছিল বাংলাদেশ।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বদল হয় দিনের। নতুনদের জায়গা করে দিতে সরে যেতে হয় প্রবীণদের। এর ফলে একে একে দল থেকে বিদায় হচ্ছেন পঞ্চপাণ্ডবের সদস্যরা।

দল থেকে সবার আগে বিদায় হয়েছে মাশরাফির। ২০০৯ সালে শেষ টেস্ট খেলা মাশরাফি ২০১৭ সালে বিদায় জানান টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকে। আন্তর্জাতিক ২২ গজে তার দেখা নেই ২০২০ সালের জিম্বাবুয়ে সিরিজ থেকে।

সেই সিরিজে ওয়ানডে দলের অধিনায়কত্ব ছাড়ার পর মূলত তার জন্য বন্ধ হয়ে গিয়েছিল জাতীয় দলের দরজা। আর তাতে করে ফাটল ধরে জাতীয় দলের শক্ত ভীতে।

মাশরাফির বিদায়ের পর হুট করে যেন খেই হারিয়ে ফেলে দল। অবস্থাটা এমন দাঁড়িয়েছিল যে ঘরেই চলছিল যুদ্ধও।

এরপর হুট করেই আরেক স্তম্ভ মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ঘোষণা দেন টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের।

এদিকে ইনজুরির জন্য লম্বা সময় ধরে জাতীয় দলের বাইরে রয়েছেন তামিম ইকবাল। যার ফলে ফাটল আরও বেড়ে গেল মাশরাফির হাতে গড়া শক্ত ভিতের।

আর বাকি দুজন সাকিব ও মুশফিক তো এই আছেন এই নেই।

এর মধ্যে চলছে নিউজিল্যান্ড সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট। এই সিরিজে ইনজুরির কারণে নেই তামিম ইকবাল। ব্যক্তিগত কারণে ছুটিতে সাকিব। অবসরে রিয়াদ। নেই মাশরাফি।

প্রথম টেস্টে থাকলেও চোটের কারণে দ্বিতীয় টেস্টে নেই মুশফিকও। ফলে ১৬ বছর পর পঞ্চপাণ্ডব ছাড়াই টেস্ট খেলতে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। ২০০৬ সালের পর এই প্রথম বাংলাদেশের কোন টেস্টে মাঠে নেই এই পাঁচ তারকার একজনও।

২০০৯ সালে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের অভিষেকের পর একটি টেস্টে মাশরাফি থাকলেও ছিলেন না বাকিগুলোতে। তবে বাকি চারজনের কেউ না কেউ ছিলেন বাংলাদেশের টেস্ট দলে।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এই ম্যাচে দেশের ১০০ তম ক্রিকেটার হিসেবে টেস্টে অভিষেক হল নাঈম শেখের। আর ইনজুরিতে পরা মুশফিকের বদলে খেলছেন নুরুল হাসান সোহান।

আরও পড়ুন:
লেইথামের সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহের পথে নিউজিল্যান্ড
সিরিজ জয়ে আবহাওয়া টাইগারদের অনূকুলে
পেইসারদের ওপর নির্ভর করছে নিউজিল্যান্ড
দলকে নিজেদের মতো পারফর্ম করার পরামর্শ মাশরাফির
আমি না থাকাটা বড় বিষয় না: সাকিব

শেয়ার করুন

মন্তব্য

অনড় তামিম, ছয় মাস ভাববেন না টি-টোয়েন্টি নিয়ে

অনড় তামিম, ছয় মাস ভাববেন না টি-টোয়েন্টি নিয়ে

মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকার অনুশীলনে মাশরাফি মোর্ত্তজার সঙ্গে তামিম ইকবাল। ছবি: বিপিএল

নিজের এমন সিদ্ধান্ত মান-অভিমান বা কারও ওপর রাগ থেকে নয়, পুরোটাই ক্রিকেটীয় কারণ থেকে নিয়েছেন বলে জানান তামিম। বিশেষ করে তরুণদের জায়গা করে দিতে এমন সিদ্ধান্ত, এমনটা বলেন এ অভিজ্ঞ তারকা।  

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি না খেলার সিদ্ধান্ত বদলাননি জাতীয় দলের ওপেনার তামিম ইকবাল। বোর্ডের সমঝোতার চেষ্টা ব্যর্থ করে টি-টোয়েন্টি না খেলার সিদ্ধান্তে স্থির এ বাঁহাতি।

আগে বেশ কয়েকবার আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি না খেলার সিদ্ধান্ত বোর্ডকে জানালেও এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খোলেননি তামিম। বৃহস্পতিবার বিপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকার অনুশীলনের আগে সংবাদমাধ্যমকে তামিম নিজের সিদ্ধান্ত জানালেন।

চট্টগ্রামে তামিম বলেন, ‘আগামী ছয় মাস আমি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের সঙ্গে থাকছি না। এই ছয় মাসে আমার ফুল ফোকাস হবে টেস্ট ও ওয়ানডে। বিশ্বকাপের আগে যদি দলের অবস্থা খারাপ হয়, আশা করি তেমনটা হবে না। তখন যদি দরকার পড়ে তাহলে হয়তো আবার চিন্তা করে দেখব।’

নিজের এমন সিদ্ধান্ত মান-অভিমান বা কারও ওপর রাগ থেকে নয়, পুরোটাই ক্রিকেটীয় কারণ থেকে নিয়েছেন বলে জানান তামিম। বিশেষ করে তরুণদের জায়গা করে দিতে এমন সিদ্ধান্ত, এমনটা বলেন এ অভিজ্ঞ তারকা।

তিনি বলেন, ‘ছয় মাস পর আশা করি আমার দরকার পড়বে না। দল অনেক ভালো খেলবে। তবে বড় ইভেন্টের আগে যদি বোর্ড ও টিম ম্যানেজমেন্ট মনে করে তাহলে আমি আবার চিন্তা করে দেখব। এখানে মান-অভিমানের কিছু না পুরোটাই ক্রিকেটীয় সিদ্ধান্ত।

‘আমার যেসব জায়গায় কথা বলে মিডিয়ায় এসে কথা বলা লাগে সেটাই বলি। হুট করে কোনো কথা বলি না।’

২০২০ সালে জিম্বাবুয়ে সিরিজের পর থেকে ক্রিকেটের শর্টার ভার্সনে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দেখা যায়নি দেশসেরা এই ওপেনারকে। এমনকি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন তিনি।

এরপর বোর্ডপ্রধানের সঙ্গে আলোচনায় টি-টোয়েন্টি না খেলার সিদ্ধান্তের কথা জানান তামিম। তরুণদের সুযোগ করে দিতেই তার এমন সিদ্ধান্ত সে কথাও বলেন এ অভিজ্ঞ তারকা।

তামিমের সিদ্ধান্ত নিয়ে তার সঙ্গে আলোচনা করেন জাতীয় দলের টিম ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন। গত রোববারের সে আলোচনা ফলপ্রসূ হয়নি। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে তাই ফেরার সম্ভাবনা নেই তামিমের।

গত শনিবার বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও সংবাদমাধ্যমকে জানান তামিম টি-টোয়েন্টি না খেলার বিষয়ে অটল। তবে ওয়ানডে ও টেস্ট ক্রিকেট চালিয়ে যেতে চান তিনি।

২০২০ সালের মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঢাকায় খেলা ম্যাচটিই তামিমের জন্য শেষ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি হয়ে রইল।

অন্য ফরম্যাটের মতো টি-টোয়েন্টিতেও বাংলাদেশের হয়ে অনন্য রেকর্ডধারী তামিম। ৭৮ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ১ হাজার ৭৫৮ রান করেছেন তিনি।

এর মধ্যে বাংলাদেশের হয়ে ৭৪ ম্যাচে ১ হাজার ৭০১ রান তার, যা টাইগার ব্যাটারদের মধ্যে তৃতীয় সর্বোচ্চ।

সাতটি হাফ সেঞ্চুরির পাশাপাশি একটি সেঞ্চুরিও আছে তার। ২০১৬ বিশ্বকাপে ওমানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি করেছিলেন তামিম।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি না খেললেও ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি চালিয়ে যাবেন তামিম।

আরও পড়ুন:
লেইথামের সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহের পথে নিউজিল্যান্ড
সিরিজ জয়ে আবহাওয়া টাইগারদের অনূকুলে
পেইসারদের ওপর নির্ভর করছে নিউজিল্যান্ড
দলকে নিজেদের মতো পারফর্ম করার পরামর্শ মাশরাফির
আমি না থাকাটা বড় বিষয় না: সাকিব

শেয়ার করুন

অস্ট্রেলিয়ার হল অফ ফেইমে জাস্টিন ল্যাঙ্গার

অস্ট্রেলিয়ার হল অফ ফেইমে জাস্টিন ল্যাঙ্গার

অস্ট্রেলিয়ান অনুশীলনে হেড কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। ছবি: এএফপি

অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলের হয়ে দেড় দশকের ক্যারিয়ারে ১০৫টি টেস্ট ও ৮টি ওয়ানডে খেলেছেন ল্যাঙ্গার। টেস্টে তার ব্যাট থেকে এসেছে ২৩টি সেঞ্চুরি সহ ৭,৬৯৬ রান। নব্বই দশক ও এর পরের প্রায় ১০ বছর ল্যাঙ্গার ও হেইডেনের ওপেনিং জুটি ছিল টেস্ট ক্রিকেটের বিশ্বসেরা।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) হল অফ ফেইমে এ বছর জায়গা করে নিয়েছেন জাস্টিন ল্যাঙ্গার। সাবেক এ অজি ওপেনার ও বর্তমান জাতীয় দলের হেড কোচের সঙ্গে বিশেষ এ সম্মাননা পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়া নারী দলের সাবেক অধিনায়ক ও পেইসার রাইলি টমসন।

অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলের হয়ে দেড় দশকের ক্যারিয়ারে ১০৫টি টেস্ট ও ৮টি ওয়ানডে খেলেছেন ল্যাঙ্গার। টেস্টে তার ব্যাট থেকে এসেছে ২৩টি সেঞ্চুরি সহ ৭,৬৯৬ রান। নব্বই দশক ও এর পরের প্রায় ১০ বছর ল্যাঙ্গার ও হেইডেনের ওপেনিং জুটি ছিল টেস্ট ক্রিকেটের বিশ্বসেরা।

ল্যাঙ্গারকে হল অফ ফেইমে অন্তর্ভুক্ত করার পর হল অফ ফেইমের প্রধান পিটার কিং জানান অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটে ল্যাঙ্গারের দীর্ঘস্থায়ী অবদানের জন্য তাকে এ সম্মানের জন্য নির্বাচন করা হয়েছে।

কিং আরও বলেন, ‘ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সফল দলের খেলোয়াড় ছিলেন তিনি। আর কোচ হিসেবে দলের বিপদের সময় হাল ধরেছেন ও অস্ট্রেলিয়া দলকে সফলতার সঙ্গে নেতৃত্ব দিয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক তাদের দল নিয়ে গর্বিত।’

আর অস্ট্রেলিয়া নারী দলের হয়ে ১৬টি টেস্ট ও ২৩টি ওয়ানডে খেলেছেন। তার নেতৃত্বেই ৩০ বছর পর ১৯৮৫ সালে নারীদের অ্যাশেজ জেতে অস্ট্রেলিয়া।

আরও পড়ুন:
লেইথামের সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহের পথে নিউজিল্যান্ড
সিরিজ জয়ে আবহাওয়া টাইগারদের অনূকুলে
পেইসারদের ওপর নির্ভর করছে নিউজিল্যান্ড
দলকে নিজেদের মতো পারফর্ম করার পরামর্শ মাশরাফির
আমি না থাকাটা বড় বিষয় না: সাকিব

শেয়ার করুন

পাওয়েলের সেঞ্চুরিতে সিরিজে এগিয়ে উইন্ডিজ

পাওয়েলের সেঞ্চুরিতে সিরিজে এগিয়ে উইন্ডিজ

প্রথম টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরির পর উদযাপন করছেন রভম্যান পাওয়েল। ছবি: এএফপি

ব্রিজটাউনে স্বাগতিকদের করা ৫ উইকেটে ২২৪ রানের জবাবে ৯ উইকেটে ২০৪ রানের বেশি করতে পারেনি ইংল্যান্ড।

পাঁচ ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডকে ২০ রানে হারিয়ে সিরিজে লিড নিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ব্রিজটাউনে স্বাগতিকদের করা ৫ উইকেটে ২২৪ রানের জবাবে ৯ উইকেটে ২০৪ রানের বেশি করতে পারেনি ইংল্যান্ড।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে ব্রেন্ডন কিং ও শেই হোপের উইকেট হারালেও রানের গতি কমায়নি উইন্ডিজ। তৃতীয় উইকেটে নিকোলাস পুরান ও রভম্যান পাওয়েলের বড় জুটি উইন্ডিজকে রান পাহাড়ের দিকে নিয়ে যায়।

১২২ রান যোগ করেন এ দুই ব্যাটার। পুরান ৭০ রানে আউট হলেও পাওয়েল তুলে নেন তার প্রথম টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি।

৫১ বলে ১০০ রান করেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ৫৩ বলে ১০৭ রান করে আউট হন এ হার্ডহিটার। তার ইনিংসে ছিল ১০টি ছক্কা ও ৪টি চার।

পুরান ও পাওয়েলের তাণ্ডবে ২০০ ছাড়ায় স্বাগতিকদের সংগ্রহ।

বড় রান তাড়া করতে নেমে নিয়মিত উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে ইংল্যান্ড। টম ব্যান্টন শুরুতে ঝড় তোলেন সফরকারী দলের হয়ে।

৩৯ বলে ৭৩ রান করে আউট হন তিনি। এরপর মিডল অর্ডারে কেউ হাল ধরতে না পারলে আস্কিং রেটে পিছিয়ে যায় ইংল্যান্ড।

শেষ দিকে ফিল সল্টের ২৪ বলে ৫৭ রানে হারের ব্যবধান কমায় ইংলিশরা। ম্যাচ হেরে যায় ২০ রানে।

স্বাগতিক দলের পক্ষে রোমারিও শেপার্ড ৩ উইকেট নিলেও রান দেন ৫৯।

এ ম্যাচ জয়ে ২-১ ব্যবধানে সিরিজে এগিয়ে গেল উইন্ডিজ।

আরও পড়ুন:
লেইথামের সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহের পথে নিউজিল্যান্ড
সিরিজ জয়ে আবহাওয়া টাইগারদের অনূকুলে
পেইসারদের ওপর নির্ভর করছে নিউজিল্যান্ড
দলকে নিজেদের মতো পারফর্ম করার পরামর্শ মাশরাফির
আমি না থাকাটা বড় বিষয় না: সাকিব

শেয়ার করুন

লঙ্কান টিমে বিশেষ কোচ হয়ে ফিরলেন মালিঙ্গা

লঙ্কান টিমে বিশেষ কোচ হয়ে ফিরলেন মালিঙ্গা

লাসিথ মালিঙ্গা। ছবি: টুইটার

এবার শ্রীলঙ্কার জাতীয় ক্রিকেট দলের বিশেষ প্রশিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেলেন মালিঙ্গা। অস্ট্রেলিয়ায় ফেব্রুয়ারি থেকে আসন্ন পাঁচ ম্যাচের সিরিজ সামনে রেখে লঙ্কানদের দলের ‘বোলিং স্ট্র্যাটেজি কোচ’ হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন তিনি। তার মেয়াদকাল হবে পহেলা থেকে ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

১৭ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ার ছেড়ে গত বছর অবসরে গিয়েছিলেন লাসিথ মালিঙ্গা। আবারও মাঠে ফিরছেন কালো-সোনালি ঝাঁকড়া চুলের অদ্ভূত বোলিং অ্যাকশনের সাবেক এ পেইসার লঙ্কান।

এবার শ্রীলঙ্কার জাতীয় ক্রিকেট দলের বিশেষ প্রশিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেলেন মালিঙ্গা। অস্ট্রেলিয়ায় ফেব্রুয়ারি থেকে আসন্ন পাঁচ ম্যাচের সিরিজ সামনে রেখে লঙ্কানদের দলের ‘বোলিং স্ট্র্যাটেজি কোচ’ হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন তিনি। তার মেয়াদকাল হবে পহেলা থেকে ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

বুধবার এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড।

বিবৃতিতে তারা জানায়, ‘‘শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সফরের জন্য জাতীয় দলের ‘বোলিং স্ট্র্যাটেজি কোচ’ হিসেবে শ্রীলঙ্কার ফাস্ট বোলিং কিংবদন্তি এবং ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলের সাবেক অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গাকে নিয়োগের ঘোষণা দিতে চায়।

‘বিশেষজ্ঞ কোচ হিসেবে মালিঙ্গা তার নতুন স্বল্পমেয়াদী ভূমিকায়, শ্রীলঙ্কার বোলারদের সমর্থন করবেন, কৌশলগত অন্তর্দৃষ্টি এবং প্রযুক্তিগত দক্ষতা প্রদান করবেন যাতে মাঠে কৌশলগত পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সহায়ক হয়।

মালিঙ্গার বিশাল অভিজ্ঞতা এবং প্রসিদ্ধ ডেথ-বোলিং দক্ষতা, বিশেষ করে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে, দলকে এই সিরিজে ভালো করতে সাহায্য করবে বলে আশাবাদী লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড।

নতুন দায়িত্বের প্রতিক্রিয়ায় মালিঙ্গা বলেন, ‘আমাদের কিছু খুব প্রতিভাবান তরুণ বোলার আছে এবং আমি তাদের বিকাশে সহায়তা করার জন্য আমার অভিজ্ঞতা ও জ্ঞান বিনিময় করতে মুখিয়ে আছি।’

২০২১ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নেন মালিঙ্গা।

শ্রীলঙ্কার হয়ে ৩০ টেস্টে ১০১ উইকেট রয়েছে মালিঙ্গার। একদিনের ক্রিকেটে ২২৬ ম্যাচে ৩৩৮ উইকেট নিয়েছেন। দেশের হয়ে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন ৮৪টি। উইকেট নিয়েছেন ১০৭টি।

আরও পড়ুন:
লেইথামের সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহের পথে নিউজিল্যান্ড
সিরিজ জয়ে আবহাওয়া টাইগারদের অনূকুলে
পেইসারদের ওপর নির্ভর করছে নিউজিল্যান্ড
দলকে নিজেদের মতো পারফর্ম করার পরামর্শ মাশরাফির
আমি না থাকাটা বড় বিষয় না: সাকিব

শেয়ার করুন

পায়ের চোটে বিপিএল শেষ আল আমিনের

পায়ের চোটে বিপিএল শেষ আল আমিনের

পেইসার আল আমিন হোসেন। ফাইল ছবি

সানরাইজার্সের চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন আল আমিনের পায়ের আঙুলে গ্রেড টু চোট লেগেছে। তাকে চার সপ্তাহের বিশ্রাম দেয়া হয়েছে। যে কারণে বিপিএলে আর খেলা হবে না তার।

এ বছর আর বিপিএলে নামা হচ্ছে না সিলেট সানরাইজার্সের পেইসার আল আমিন হোসেনের। বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) অনুশীলনে পায়ে চোট পেয়েছিলেন জাতীয় দলের এ অভিজ্ঞ তারকা।

সেটি বিপিএলের সময় সারেনি। সানরাইজার্সের চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন তার পায়ের আঙুলে গ্রেড টু চোট লেগেছে। তাকে চার সপ্তাহের বিশ্রাম দেয়া হয়েছে। যে কারণে বিপিএলে আর খেলা হবে না আল আমিনের।

আর বদলে আরেক পেইসার আলাউদ্দিন বাবুকে সানরাইজার্স দলে অন্তর্ভুক্ত করার অনুমতি দিয়েছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল।

বিপিএলের দ্বিতীয় পর্ব খেলতে এরই মধ্যে চট্টগ্রামে পৌঁছেছে সানরাইজার্স। ঢাকায় প্রথম পর্বে দুই ম্যাচ খেলেছে সিলেট। এক ম্যাচে জয় ও এক ম্যাচে হার নিয়ে তারা টেবিলে পাঁচ নম্বর স্থানে আছে।

মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করার পরের ম্যাচে কুমিল্লা ভিকটোরিয়ানসের কাছে ২ উইকেটে হারে সানরাইজার্স।

চট্টগ্রামে শুক্রবার তারা আবারও মুখোমুখি হবে মিনিস্টার ঢাকার। শনিবার সিলেট খেলবে চট্টগ্রামের বিপক্ষে।

আরও পড়ুন:
লেইথামের সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহের পথে নিউজিল্যান্ড
সিরিজ জয়ে আবহাওয়া টাইগারদের অনূকুলে
পেইসারদের ওপর নির্ভর করছে নিউজিল্যান্ড
দলকে নিজেদের মতো পারফর্ম করার পরামর্শ মাশরাফির
আমি না থাকাটা বড় বিষয় না: সাকিব

শেয়ার করুন

করোনা আক্রান্ত বিপিএল রেফারি রকিবুল হাসান

করোনা আক্রান্ত বিপিএল রেফারি রকিবুল হাসান

বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক রকিবুল হাসান। ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম যাওয়ার আগে করোনা পরীক্ষা করা হয় খেলোয়াড় ও স্টাফদের। সেখানে রকিবুল ও আম্পায়ার গাজী সোহেল পজিটিভ হন।

ঢাকায় প্রথম পর্ব শেষ করে দ্বিতীয় পর্বের অপেক্ষায় রয়েছে বিপিএলের দলগুলো। চট্টগ্রামে শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে বিপিএলের দ্বিতীয় পর্ব। ঢাকা থেকে দলগুলো আজই চলে গেছে চট্টগ্রামে।

তবে আপাতত চট্টগ্রামে যাওয়া হচ্ছে না বিপিএলের ম্যাচ রেফারি রকিবুল হাসানের। বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক এ অধিনায়ক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বিষয়টি নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন রকিবুল নিজেই।

চট্টগ্রাম যাওয়ার আগে করোনা পরীক্ষা করা হয় খেলোয়াড় ও স্টাফদের। সেখানে রকিবুল ও আম্পায়ার গাজী সোহেল পজিটিভ হন।

তাই আপাতত এই দুইজনের চট্টগ্রামে যাওয়া হচ্ছে না। ঢাকায় আইসোলেশনে থাকছেন তারা। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) জানিয়েছে দুই জনই সুস্থ আছেন।

বিপিএলে ঢাকা পর্বে চার দিনে আটটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে ঢাকা পর্বে ম্যাচ পরিচালনা করেননি রকিবুল। চট্টগ্রাম পর্বে তার ম্যাচ পরিচালনা করার কথা ছিল।

২ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে থেকে ঢাকা পর্ব শেষ করেছে কুমিল্লা ভিকটোরিয়ানস ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

আর ৪ ম্যাচে ২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলে সবার শেষে আছে মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকা।

আরও পড়ুন:
লেইথামের সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহের পথে নিউজিল্যান্ড
সিরিজ জয়ে আবহাওয়া টাইগারদের অনূকুলে
পেইসারদের ওপর নির্ভর করছে নিউজিল্যান্ড
দলকে নিজেদের মতো পারফর্ম করার পরামর্শ মাশরাফির
আমি না থাকাটা বড় বিষয় না: সাকিব

শেয়ার করুন

তামিম-সাকিব-মুশফিককে লম্বা সময় খেলাতে চায় বিসিবি

তামিম-সাকিব-মুশফিককে লম্বা সময় খেলাতে চায় বিসিবি

বাংলাদেশের অনুশীলনে মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান। ফাইল ছবি

জালাল ইউনূস বলেন, ‘তামিমের নিজস্ব একটা পরিকল্পনা আছে। ও সেভাবেই এগোতে চাচ্ছে। এ বিষয়য়ে আমরা এখনই কিছু বলতে পারছি না। সোমবারও তামিমের সঙ্গে লম্বা মিটিং হয়েছে। তামিমের সঙ্গে সভাপতি আর আমি ছিলাম।’

বাংলাদেশ ক্রিকেটে দেড় দশকেরও বেশি সময় জাতীয় দলের ভার নিজ কাঁধে রেখেছেন সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিম। এ তিন সিনিয়র ক্রিকেটার শুধু জাতীয় দলেরই নন, বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

তিন মহাতারকাই এখন ক্যারিয়ারের শেষভাগে। বিসিবি তাই কিছুটা চিন্তিত। দেশের ক্রিকেটের তিন স্তম্ভ শেষ বেলায় এসে গেলেও, বোর্ডের হাতে নেই পর্যাপ্ত বিকল্প।

তিন সিনিয়র ক্রিকেটার এখন সব ফরম্যাটে নিয়মিত নন। মুশফিক জাতীয় দলের সবশেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেননি। সাকিব টেস্ট, ওয়ানডে কিংবা টি-টোয়েন্টি খেলছেন বেছে বেছে। তামিম জানিয়েছেন, আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি আর খেলতে চান না।

ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি বা টেস্ট কোনো ফরম্যাটেই সাকিব, তামিম ও মুশফিকের রিপ্লেসমেন্ট এখনও খুঁজে পায়নি বোর্ড। এমন অবস্থায় এই তিন পরীক্ষিত সৈনিকের কাছ থেকে আরও সার্ভিস চাইছে টাইগার ক্রিকেট।

সংবাদমাধ্যমকে বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনসের প্রধান জালাল ইউনূস জানিয়েছেন এমনটাই।

তিনি বলেন, ‘অবশ্যই আমরা চাই তামিম কন্টিনিউ করুক। তামিম, সাকিব, মুশফিক, রিয়াদ তারা এখনও আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। আমরা চাই ওরা চালিয়ে যাক। আমরা সে কারণে তামিমের সঙ্গে কথা বলেছি।’

পুরো আলোচনাটা শুরু হয়েছে মূলত তামিম ইকবালের টি-টোয়েন্টি না খেলার সিদ্ধান্ত থেকে। বিশ্বকাপের বছরে বিসিবির আশা দেশসেরা ওপেনার নিজের মত পরিবর্তন করবেন। তাই মানা করে দেয়ার পরও সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের জন্য আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন বোর্ডের কর্তারা।

জালাল ইউনূস বলেন, ‘তামিমের নিজস্ব একটা পরিকল্পনা আছে। ও সেভাবেই এগোতে চাচ্ছে। এ বিষয়ে আমরা এখনই কিছু বলতে পারছি না। সোমবারও তামিমের সঙ্গে লম্বা মিটিং হয়েছে। তামিমের সঙ্গে সভাপতি আর আমি ছিলাম।’

তামিম অবশ্য নিজের সিদ্ধান্ত থেকে এখনও সরে আসেননি। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি না খেলার সিদ্ধান্ত নিলেও ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

আরও পড়ুন:
লেইথামের সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহের পথে নিউজিল্যান্ড
সিরিজ জয়ে আবহাওয়া টাইগারদের অনূকুলে
পেইসারদের ওপর নির্ভর করছে নিউজিল্যান্ড
দলকে নিজেদের মতো পারফর্ম করার পরামর্শ মাশরাফির
আমি না থাকাটা বড় বিষয় না: সাকিব

শেয়ার করুন