বাফুফেসহ সদস্য দেশগুলোকে বাড়তি ১৩৭ কোটি টাকা দেবে ফিফা

player
বাফুফেসহ সদস্য দেশগুলোকে বাড়তি ১৩৭ কোটি টাকা দেবে ফিফা

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিন। ফাইল ছবি

র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকা ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, ফ্রান্সের মতো দলগুলোর সঙ্গে পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশ, গুয়ামও এই বাড়তি অর্থ পাবে। বর্তমানে চার বছরের চক্রে ফিফার কাছ থেকে সদস্য দেশগুলো পাচ্ছে ৬০ লাখ ডলার বা ৫১ কোটি টাকা। তবে ফিফার বিশ্বকাপ আয়োজনের নতুন পরিকল্পনায় সমর্থন দিলে এই অনুদান বেড়ে দাঁড়াতে পারে ১৩৭ কোটি টাকায়।

বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফা চেষ্টা করছে দুই বছর পরপর বিশ্বকাপ আয়োজন করার। তাদের এ পরিকল্পনা সফল হলে সদস্য দেশের ফেডারেশনগুলোকে আগামী চার বছরে বাড়তি ১৩৭ কোটি টাকা দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছে ফিফা।

ফলে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকা ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, ফ্রান্সের মতো দলগুলোর সঙ্গে পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশ, গুয়ামও এই বাড়তি অর্থ পাবে।

বর্তমানে চার বছরের চক্রে ফিফার কাছ থেকে সদস্য দেশগুলো পাচ্ছে ৬০ লাখ ডলার বা ৫১ কোটি টাকা। তবে ফিফার বিশ্বকাপ আয়োজনের নতুন পরিকল্পনায় সমর্থন দিলে এই অনুদান বেড়ে দাঁড়াতে পারে ১৩৭ কোটি টাকায়।

ফিফা নতুন এক সম্ভাব্যতা জরিপে দেখেছে, দুই বছর পরপরই বিশ্বকাপ আয়োজন করলে আগামী চার বছরে ৪৪০ কোটি ডলার বাড়তি অর্থ আয় করতে পারবে তারা। ফলে সদস্য দেশগুলোকে সহায়তার পরিমাণ বাড়াতেও কোনো সমস্যা থাকবে না তাদের।

ফিফার সবশেষ অনলাইন সামিটে সোমবার রাতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সামিটে ফিফার ২০১১ সদস্যের ২০৭টিই উপস্থিত ছিল।

তবে ফিফার দুই বছরের অন্তরে বিশ্বকাপ আয়োজনের কঠোর বিরোধিতা করে এসেছে ইউরোপের ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা (ইউয়েফা) ও দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল সংস্থা (কনমেবোল)।

ইউয়েফার করা এক জরিপে দেখা গেছে, দুই বছর পরপর বিশ্বকাপ হলে তাদের আয় ৩৪০কোটি ডলার পর্যন্ত হ্রাস পেতে পারে।

ইউয়েফা ও কনমেবোলের শোপিস ইভেন্ট ইউরো ও কোপা আমেরিকা চার বছর পরপর অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্বকাপ দুই বছর পরপর অনুষ্ঠিত হলে, অধিকাংশ স্পনসর প্রতিষ্ঠান বিশ্বকাপের দিকে ঝুঁকে পড়বে বলে আশঙ্কা ইউয়েফার।

বিরোধিতার কথা উল্লেখ করে ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘এই প্রস্তাবের বিপক্ষে ও পক্ষে প্রচুর কথা হচ্ছে। বৈশ্বিক সমন্বয়কারী সংস্থা হিসেবে আমাদের সব ধরনের দৃষ্টিভঙ্গিকে একসঙ্গে করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।’

আরও পড়ুন:
ফিফা বর্ষসেরার তালিকায় মেসি-রোনালডো-নেইমার
সাইফে নাইজেরিয়াসহ তিন দেশের জাতীয় ফুটবলার
দুই বছর পরপর বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনায় বসছে ফিফা

শেয়ার করুন

মন্তব্য

চিলির বিপক্ষে মেসি-স্কালোনি বিহীন আর্জেন্টিনার পরীক্ষা

চিলির বিপক্ষে মেসি-স্কালোনি বিহীন আর্জেন্টিনার পরীক্ষা

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে গোল উদযাপনে চিলির আর্তুরো ভিদাল। ফাইল ছবি

চিলির বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচে ডাগ আউটে থাকছেন না আর্জেন্টিনার হেড কোচ লিওনেল স্কালোনি। চূড়ান্ত স্কোয়াডেও নেই লিওনেল মেসি।

কাতার বিশ্বকাপের টিকিট আগেই কেটে রেখেছে আর্জেন্টিনা। দক্ষিণ আমেরিকার বাছাইপর্বে এখন দল নিয়ে যাচাই-বাছাইয়ের সময়। এমন অবস্থায় চিলির ম্যাচের কয়েক ঘণ্টা আগে আর্জেন্টিনা শিবিরে দুঃসংবাদ।

চিলির বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচে ডাগ আউটে থাকছেন না আর্জেন্টিনার হেড কোচ লিওনেল স্কালোনি। চূড়ান্ত স্কোয়াডেও নেই লিওনেল মেসি।

এ দুই গুরুত্বপূর্ণ সদস্যকে ছাড়াই চিলির মাঠে নামতে চলেছে আলবেসিলেস্তেরা।

বাছাইপর্বের দুই ম্যাচকে সামনে রেখে বিশ্রামে রাখা হয়েছে মেসিকে। ফরাসি জায়ান্ট প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের সঙ্গে অবস্থান করছেন এ মহাতারকা।

তাকে ছাড়াই যখন মাঠে নামার চিন্তা করছে দল, তখন কোভিড ধরা পড়েছে আর্জেন্টিনার কোচ স্কালোনির। আইসোলেশনে রাখা হয়েছে তাকে।

যদিও ম্যাচের আগে কোপা আমেরিকাজয়ী এ কোচ বলেন, আইসোলেশন পর্ব পালন সম্পন্ন করেছেন তিনি। অপেক্ষায় আছেন কভিড টেস্টের ফলের দিকে। নেগেটিভ আসলে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন।

তবে ফল না আসা পর্যন্ত দলের বাইরে থাকতে হচ্ছে তাকে। এ দিকে স্কালোনির সহচার্যে থাকার কারণে আইলোসেশনে আছেন সহকারি কোচ পাবলো আইমার। দলের ডাগ আউটে থাকবেন দিয়েগো প্লাসেন্তে।

এমন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে চিলির বিপক্ষে বাংলাদেশ সময় শুক্রবার সকাল সোয়া ৬ টায় মাঠে নামবে আর্জেন্টিনা।

চিলির বিপক্ষে সবশেষ ৫ ম্যাচে হারেনি আর্জেন্টিনা। দুটি জয় আর তিনটি ম্যাচে ড্র করেছে আলবেসিলেস্তেরা। সবশেষ ১০ অ্যাওয়ে ম্যাচে অপরাজিত আর্জেন্টিনা। সবমিলে ২৭ ম্যাচে হারেনি স্কালোনির বাহিনী।

চিলির জন্যও ম্যাচটা মহাগুরুত্বপূর্ণ। এ ম্যাচে জিতলে শীর্ষ চারে ওঠে আসার সুযোগ থাকছে তাদের সামনে। ১৬ পয়েন্ট তারা অবস্থান করছে ছয়ে। ২৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আর্জেন্টিনা। আর ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ব্রাজিল।

আর্জেন্টিনার আগে বাংলাদেশ সময় শুক্রবার ভোর সোয়া তিনটায় ইকুয়েডরের বিপক্ষে মাঠে নামছে ব্রাজিল।

আরও পড়ুন:
ফিফা বর্ষসেরার তালিকায় মেসি-রোনালডো-নেইমার
সাইফে নাইজেরিয়াসহ তিন দেশের জাতীয় ফুটবলার
দুই বছর পরপর বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনায় বসছে ফিফা

শেয়ার করুন

জাতীয় দলের উন্নতির চাবি ‘শিশু ফুটবল’

জাতীয় দলের উন্নতির চাবি ‘শিশু ফুটবল’

জাতীয় ফুটবল দল ও শিশু ফুটবল ছবি: সংগৃহীত

যেখানে পিছিয়ে থাকা প্রতিবেশী দেশগুলো তরতর করে এগিয়ে যাচ্ছে, সেখানে বাংলাদেশ পেছাচ্ছে কেন? ফুটবল বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পিছিয়ে থাকার রোগের ওষুধটা তৃণমূলের ফুটবলে। শিশু ফুটবলই জাতীয় দলের উন্নতির চাবি-কাঠি। জাতীয় দলের সাফল্য পেতে কাজ করতে হবে শিশু ফুটবল নিয়ে।

২০০৩ সালে সবশেষ সাফের শিরোপা জেতে বাংলাদেশ। প্রায় দেড় যুগেরও সময় ধরে শিরোপা খরায় ভুগছে জাতীয় দল। এর মাঝে কোচ আসা- যাওয়ার মিছিল। পূর্ণ প্রতিযোগিতার বাজারে দিনদিন যেন পিছিয়ে পড়ছে দেশের ফুটবল!

যেখানে পিছিয়ে থাকা প্রতিবেশী দেশগুলো তরতর করে এগিয়ে যাচ্ছে সেখানে বাংলাদেশ পেছাচ্ছে কেন?

ফুটবল বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পিছিয়ে থাকার রোগের ওষুধটা তৃণমূলের ফুটবলে। শিশু ফুটবলই জাতীয় দলের উন্নতির চাবি-কাঠি। জাতীয় দলের সাফল্য পেতে কাজ করতে হবে শিশু ফুটবল নিয়ে।

বিষয়টার ব্যাখ্যা করেছেন বাংলাদেশকে ২০০৫ সালের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে তোলা সাবেক কোচ ডিয়েগো ক্রুসিয়ানি।

এ আর্জেন্টাইন কোচ বলেন, ‘আমাদের দেশসহ (আর্জেন্টিনা) ইউরোপ, আমেরিকায় যে জায়গা নিয়ে বেশি কাজ হয় তা হলো ফর্মেশন। বাচ্চাদের থেকে শুরু করে কিশোরদের-সব জায়গায় এ নিয়ে কাজ হয়। বাংলাদেশেও এ নিয়ে কাজ হওয়া উচিত। এটাই সাফল্যের চাবিকাঠি।

জাতীয় দলের চিরচরিত রোগ গোলস্কোরিংয়ের সমস্যার সমাধানও এর মধ্যে আছে মনে করেন তিনি, ‘উদাহরণ হিসেবে বলা যায়-আমাদের বেশি বেশি স্ট্রাইকার, গোলস্কোরার লাগবে। তৃণমূলে যদি এ নিয়ে কাজ করা যায় সাফল্য আসবেই।’

দেশে শিশু ফুটবল বলতে তেমন কিছুই নেই। গ্রাম বা শহরে শিশু ফুটবল নিয়ে কাজ হচ্ছে তা বলার সুযোগ নেই। যত টুর্নামেন্ট রয়েছে সবই ১২ বছরের ওপরে। তার নিচে বা ৫ থেকে শুরু করে তার ওপরের কোনোও টুর্নামেন্ট হয় না এ দেশে।

ক্রীড়া প্রতিষ্ঠান বিকেএসপিতে ভর্তি শুরু হয় ১২-১৩ বছর থেকে। সুতরাং সেখানে কিশোর ফুটবলের উন্নয়ন আসলেও শিশু ফুটবলের উন্নয়ন ছায়ায় রয়ে যাচ্ছে।

বিষয়টি কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা মনে করিয়ে দিলেন দেশের একমাত্র উয়েফা প্রো লাইসেন্স প্রাপ্ত কোচ মারুফুল হক।

জাতীয় দলের সাবেক এক কোচ নিউজবাংলাকে বলেন, ‘শিশু বলতে বাংলাদেশে যা বোঝায় তাহলো ১২ বছরের ওপরে। মোটেও তা শিশু নয়। ওই বয়সে পা মোটামুটি শক্ত হয়ে যায়। একদম ছোট বয়স অর্থাৎ ৪-৫ বছর থেকে ফুটবল উন্নয়ন করলে বড় হয়ে আরও পরিপক্ক হবে তারা।’

দেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ পর্যায়ের ক্লাবগুলোর দশা আরও করুণ। কোনও ক্লাবের কোনও একাডেমি নেই। নেই বয়সভিত্তিক ক্লাব কোনো কার্যক্রম। শুধু নামে মাত্র অনূর্ধ্ব-১৮ বছরের টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হয়। সেটাও এএফসি-ফিফার গাইডলাইনের চাপে পড়ে। রীতিমত ধার-দেনা করে খেলোয়াড়দের এ টুর্নামেন্টে অংশ নেয় শীর্ষ ক্লাবগুলো।

জেলা ও বিভাগ পর্যায়েও শিশু ফুটবল নিয়ে কার্যক্রম নাই। অবহেলিত থেকে গেছে ফুটবল শেখার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জায়গাটি।

আর এ জায়গায় কার্যক্রম বাড়িয়ে ভারত-মালদ্বীপের মতো দেশগুলো এগিয়ে যাচ্ছে। এমনটা মনে করেন ভারত-যুক্তরাষ্ট্র ও স্পেনের শিশু ফুটবলে কাজ করা বিদেশি কোচ হাভিয়ের কাবরেরা।

এ স্প্যানিশ কোচ নিউজবাংলাকে বলেন, ‘বাংলাদেশের কী অবস্থা তা বলতে পারি না। তবে ভারতে শিশু ফুটবলের ওপর জোর দেয়া হচ্ছে। তার ফলও তারা এক যুগের মধ্যে পেয়ে যাবে।’

শিশু ফুটবলের সঙ্গে দেশের ফুটবল অবকাঠামো উন্নয়নটাও এগিয়ে নেয়ার বিকল্প নাই। দেশের তথাকথিত সর্বোচ্চ পেশাদার লিগের কোনোও ক্লাবেরই ‘হোম গ্রাউন্ড’ নাই। বা নিজস্ব ক্লাবের মাঠকে হোম ভেন্যু হিসেবে খেলা হয় না লিগে।

এমনকি মোহামেডান-সাইফসহ বেশিরভাগ ক্লাবের নাই অনুশীলন করার মাঠ। ভাড়া করা মাঠে খেলতে হয় ক্লাবগুলোকে।

সেজন্য শিশু ফুটবলের সঙ্গে অবকাঠামো উন্নয়ন জরুরি বলছেন ডিয়েগো ক্রুসিয়ানি।

তিনি বলেন, ‘শুধু শিশু-কিশোরদের নিয়ে কাজ করলেই হবে না। অবকাঠামোর উন্নয়ন করতে হবে। আফ্রিকায় দেখবেন বাচ্চারা রাস্তা থেকে শুরু করে সবখানেই ফুটবল নিয়ে ব্যস্ত। এটাই তো পার্থক্য।’

আরও পড়ুন:
ফিফা বর্ষসেরার তালিকায় মেসি-রোনালডো-নেইমার
সাইফে নাইজেরিয়াসহ তিন দেশের জাতীয় ফুটবলার
দুই বছর পরপর বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনায় বসছে ফিফা

শেয়ার করুন

মার্চের আগেই জাতীয় দল চূড়ান্তের পরিকল্পনা

মার্চের আগেই জাতীয় দল চূড়ান্তের পরিকল্পনা

জাতীয় দলের অধিনায়কের সঙ্গে হাভিয়ের কাবরেরা। ছবি: বাফুফে

ফিফা উইন্ডোয় জাতীয় দলের কয়েকটি ম্যাচ খেলার পরিকল্পনা করছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। তার আগে স্কোয়াড নিয়ে ক্যাম্প শুরু করতে চান কোচ। এ সময়ে ক্যাম্পের ভেন্যু বাছাইও সম্পন্ন করতে চান কাবরেরা।

আগামী মার্চের আগেই জাতীয় ফুটবল দলের জন্য স্কোয়াড চূড়ান্ত করতে চান নতুন হেড কোচ হাভিয়ের কাবরেরা।

রাজধানীর বেরাইদের ফর্টিজ গ্রাউন্ড পরিদর্শন শেষে বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের এই পরিকল্পনার কথা জানান জাতীয় দলের হেড কোচ।

কাবরেরা বলেন, ‘মার্চে ফিফা উইন্ডো আছে। তখন কিছু ম্যাচ খেলার লক্ষ্য আছে আমাদের। এ জন্য আগেই ক্যাম্প করতে চাই।’

ফিফা উইন্ডোয় জাতীয় দলের কয়েকটি ম্যাচ খেলার পরিকল্পনা করছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। তার আগে স্কোয়াড নিয়ে ক্যাম্প শুরু করতে চান কোচ। এ সময়ে ক্যাম্পের ভেন্যু বাছাইও সম্পন্ন করতে চান কাবরেরা।

তিনি বলেন, ‘ক্যাম্পের ভেন্যু হিসেবে ফর্টিজ অ্যাকাডেমি একটা বিকল্প হতে পারে। এ ছাড়া সিলেট বা চট্টগ্রাম যেখানে আবাসন এবং অনুশীলন মাঠের পর্যাপ্ত সুবিধা আছে, সেখানেও হতে পারে।’

ভারতের মুম্বাইয়ে চিকিৎসাধীন জাতীয় দলের গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার ও বসুন্ধরা কিংসের অধিনায়ক তপু বর্মণের খোঁজখবর নিয়মিত রাখা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন এ স্প্যানিশ কোচ।

কাবরেরা বলেন, ‘তপুর সঙ্গে কথা বলেছি। তার পরিস্থিতি কেমন, অস্ত্রোপচার কেমন হলো, সেসব বিষয়ে জানতে চেয়েছি। কথা বলে মনে হয়েছে দ্রুত রিকভারির বিষয়ে তিনি ইতিবাচক।’

খেলোয়াড় বাছাইয়ের অংশ হিসেবে ঘরোয়া ফুটবলের ক্লাবগুলো পরিদর্শনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন কাবরেরা। ইতোমধ্যে ঢাকা আবাহনী, উত্তর বারিধারা ও সাইফ এসসি পরিদর্শন করেছেন স্প্যানিশ এই কোচ।

আরও পড়ুন:
ফিফা বর্ষসেরার তালিকায় মেসি-রোনালডো-নেইমার
সাইফে নাইজেরিয়াসহ তিন দেশের জাতীয় ফুটবলার
দুই বছর পরপর বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনায় বসছে ফিফা

শেয়ার করুন

‘ফাঁকা’ ট্রফি শোকেস ভরে তোলার অপেক্ষায় জামাল

‘ফাঁকা’ ট্রফি শোকেস ভরে তোলার অপেক্ষায় জামাল

ঘরোয়া ফুটবলের ক্লাব সাইফ এসসির জার্সিতে জামাল ভূঁইয়া। ছবি: সংগৃহীত

৩ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে প্রিমিয়ার লিগের আসর। লিগ জিতে ব্যক্তিগত ও দলের জন্য শিরোপা জিততে মুখিয়ে আছেন জামাল। তিনি বলেন, ‘সামনে লিগ আছে। এখানে আমরা সবাই ফোকাস করছি।’

ডেনমার্ক থেকে বাংলাদেশে এসে এখন দেশের ফুটবলের পোস্টারবয়ে পরিণত হয়েছেন জামাল ভূঁইয়া। ক্যারিয়ার জুড়ে বিপুল জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছেন। রীতিমত আইকনে পরিণত হয়েছেন। তবে জাতীয় দল বা ক্লাব ক্যারিয়ার দুই জায়গায় আক্ষেপ রয়ে গেছে এ প্রবাসী ফুটবলারের।

বাংলাদেশে ১১ বছর ফুটবল ক্যারিয়ারে তার নামের পাশে সর্বসাকুল্যে শিরোপা ৪টি। জাতীয় দলের জার্সিতে এখনও পর্যন্ত বড় কোনো ট্রফি জেতা হয়নি তার। ক্লাব ক্যারিয়ারে ট্রফির সংখ্যা ৩ টি। তার সবশেষটি বছর ছয়েক আগে জেতা।

জামালের ক্লাব ক্যারিয়ারে সেরা সময় ছিল ২০১৪ থেকে ২০১৬ মৌসুম পর্যন্ত। দেশের ফুটবলের টানে ডেনমার্ক থেকে শেখ জামালে নাম লেখান এ ফুটবলার। ধানমন্ডির জায়ান্টদের হয়ে দুই মৌসুমে একটি প্রিমিয়ার লিগের শিরোপাসহ একটি করে ফেডারেশন কাপ ও কিংস কাপের শিরোপা জেতেন জামাল।

ক্লাব ক্যারিয়ারের সেরা সময়টা তখনই পার করেন তিনি। পরের গল্পটা শুধু হতাশার। সেরা ফর্ম নিয়ে ২০১৭ সালে নাম লেখান সাইফ এসসিতে। গেল ৫ বছরে এখনও শিরোপা জিততে পারেননি দেশের ফুটবলের পোস্টার বয়। জাতীয় দলের অধিনায়কের শোকেসে জায়গা পায়নি নতুন কোনও ট্রফি।

এবার আর্জেন্টাইন কোচ দিয়েগো ক্রুসিয়ানির অধীনে আশা দেখছেন সাইফ। শিরোপা খরা মেটানোর স্বপ্ন দেখছেন সাইফের অধিনায়কও।

নিউজবাংলাকে জামাল বলেন, ‘অবশ্যই আমি নিজে চেষ্টা করছি। দলের জন্য আর নিজের জন্য আরও ভালো খেলতে চাই।’

‘ফাঁকা’ ট্রফি শোকেস ভরে তোলার অপেক্ষায় জামাল
সাইফের হয়ে মাঠে অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। ছবি: সংগৃহীত

ক্রুসিয়ানির অধীনে এবার ফেডারেশন কাপের সেমিতে রেফারি বিতর্কে আবাহনীর কাছে বিদায় নিতে হয় তার দলকে। তা নিয়ে মন্তব্য করতে চান না জামাল।

সাইফের অধিনায়ক বলেন, ‘ফেডারেশন কাপে কী হয়েছে তা সবাই দেখেছে। এটা নিয়ে মন্তব্য করতে চাই না। শিরোপার জেতার অনেক কাছে গিয়েছিলাম’।

৩ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে প্রিমিয়ার লিগের আসর। লিগ জিতে ব্যক্তিগত ও দলের জন্য শিরোপা জিততে মুখিয়ে আছেন জামাল।

তিনি বলেন, ‘সামনে লিগ আছে। এখানে আমরা সবাই ফোকাস করছি।’

আরও পড়ুন:
ফিফা বর্ষসেরার তালিকায় মেসি-রোনালডো-নেইমার
সাইফে নাইজেরিয়াসহ তিন দেশের জাতীয় ফুটবলার
দুই বছর পরপর বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনায় বসছে ফিফা

শেয়ার করুন

বাছাইপর্বে ব্রাজিলের নজর ভিনিসিয়াসের দিকে

বাছাইপর্বে ব্রাজিলের নজর ভিনিসিয়াসের দিকে

ব্রাজিল দলের অনুশীলনে ভিনিসিয়াস জুনিয়র। ছবি: এএফপি

ভিনিসিয়াসের জাতীয় দলের ফর্ম নিয়ে প্রায় সময়ই নাখোশ ছিলেন ব্রাজিলের কোচ লিওনার্দো তিতে। ২১ বছর বয়সী এই তরুণ ফরোয়ার্ড নিজেকে সেভাবে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে প্রমান করতে পারছেন না।

দক্ষিণ আমেরিকান বাছাইপর্বের বাঁধা উতরে ইতোমধ্যে ২০২২ কাতার বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করে ফেলেছে হট ফেভারিট ব্রাজিল। তবে এখনও বাছাইপর্বের খেলা শেষ হয়নি। শেষ দুই ম্যাচে ব্রাজিল তাদের বিকল্প খেলোয়াড়দের দিকে বাড়তি নজর দিতে চাচ্ছে।

চোটের কারণে শুক্রবার রাত ৩টায় ইকুয়েডরের বিপক্ষে ম্যাচে থাকছেন না ব্রাজিলের সবচেয়ে বড় তারকা নেইমার জুনিয়র। তার জায়গায় আক্রমণভাগের দায়িত্ব নিতে হচ্ছে ভিনিসিয়াস জুনিয়রকে।

রিয়াল মাদ্রিদের এ তারকা স্ট্রাইকার জাতীয় দলের হয়ে প্রথম ৯টি ম্যাচে কোন গোল করতে পারেননি। ভিনিসিয়াসের জাতীয় দলের ফর্ম নিয়ে প্রায় সময়ই নাখোশ ছিলেন ব্রাজিলের কোচ লিওনার্দো তিতে। ২১ বছর বয়সী এই তরুণ ফরোয়ার্ড নিজেকে সেভাবে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে প্রমান করতে পারছেন না।

এ সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসতে ভিনিসিয়াসকে সব ধরনের সহযোগিতা করতেও প্রস্তুত আছেন তিতে। ভিনিসিয়াসকে নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে আরও সময় দিতে চান তিনি।

একই মনোভাব ব্রাজিলের অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার ও ভিনিসিয়াসের রিয়াল মাদ্রিদ সতির্থ কাসেমিরোর। তার মতে দলে তরুণদের নিয়ে তাড়াহুড়ো করা ঠিক হবে না।

বুধবার অনুশীলন শেষে কাসেমিরো বলেন, ‘ভিনিসিয়াস ভিন্ন ধরনের খেলোয়াড়। আমি প্রতিদিন তাকে দেখি আর মুগ্ধ হই। আমি তাকে ক্লাবে বড় হতে দেখেছি। জাতীয় দলে খেলার ধরন সম্পূর্ণ ভিন্ন । এখানকার পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেয়াটা অনেক সময় কঠিন হয়ে পড়ে। তবে যত তাড়াতাড়ি মানিয়ে নিতে পারবে ততই তার জন্য মঙ্গল। ভুলে গেলে চলবে না ভিনিসিয়াসের বয়স মাত্র ২১।’

কাতার বিশ্বকাপের জন্য দক্ষিন আমেরিকান বাছাইপর্ব থেকে শীর্ষ চার দল সরাসরি খেলার যোগ্যতা অর্জণ করবে। পঞ্চম স্থানে থাকা দলকে এশিয়ান প্রতিপক্ষের বিপক্ষে প্লে-অফে অংশ নিতে হবে।

ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা ছাড়া বাকি দুই দল এখনও নিশ্চিত হয়নি। ১০ দলের প্রতিযোগিতা থেকে ৭ পয়েন্ট নিয়ে সর্বশেষ অবস্থানে থাকা ভেনেজুয়েলা ইতোমধ্যে বাছাইপর্ব থেকে ছিটকে গেছে।

৩৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থানে থেকে প্রথম দল হিসেবে বিশ্বকাপের টিকিট পেয়েছে ব্রাজিল। ২৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে আর্জেন্টিনা। বাছাইপর্বে টিকে থাকা প্রতিটি দলের এখনো চারটি করে ম্যাচ বাকি রয়েছে।

আরও পড়ুন:
ফিফা বর্ষসেরার তালিকায় মেসি-রোনালডো-নেইমার
সাইফে নাইজেরিয়াসহ তিন দেশের জাতীয় ফুটবলার
দুই বছর পরপর বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনায় বসছে ফিফা

শেয়ার করুন

জাতীয় দলের নতুন কোচকে সাবেকের পরামর্শ

জাতীয় দলের নতুন কোচকে সাবেকের পরামর্শ

হাভিয়ের কাবরেরা, ডিয়েগো ক্রুসিয়ানি ও মাসুদ কায়সার

কোচ যাওয়া-আসার পালায় সদ্য জাতীয় দলের হেড কোচের দায়িত্ব পেয়েছেন হাভিয়ের কাবরেরা। অতীত অভিজ্ঞতা থেকে স্প্যানিশ এ কোচকে পরামর্শ দিয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক কোচ ডিয়েগো ক্রুসিয়ানি।

জাতীয় ফুটবল দলের হেড কোচের দায়িত্ব নেয়া স্প্যানিশ কোচ হাভিয়ের কাবরেরাকে অভিজ্ঞতা থেকে পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক আর্জেন্টাইন কোচ ডিয়েগো ক্রুসিয়ানি।

প্রথম লাতিন কোচ হিসেবে ২০০৫ সালে জাতীয় ফুটবল দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন আর্জেন্টিনার ডিয়েগো ক্রুসিয়ানি। এই মৌসুমে ঘরোয়া ফুটবলের অন্যতম শীর্ষ দল সাইফের দায়িত্ব নিয়েছেন এ আর্জেন্টাইন।

কোচ যাওয়া-আসার পালায় সদ্য জাতীয় দলের হেড কোচের দায়িত্ব পেয়েছেন হাভিয়ের কাবরেরা। অভিজ্ঞতা থেকে স্প্যানিশ এ কোচকে পরামর্শ দিয়েছেন ক্রুসিয়ানি।

জাতীয় দলের সাবেক এ কোচ বলেন, ‘আমি ইতিমধ্যে ওকে (কাবরেরা) বলেছি দেখতে থাকো। সবকিছু জানার চেষ্টা করো। আমি ওকে বলেছি, এখান থেকে ভালো কাউকে তুমি পাবেই। আমি তার সাফল্যও কামনা করেছি।’

ক্রুসিয়ানির অধীনে ২০০৫ সালে করাচি সাফে রানার আপ হয়েছিল বাংলাদেশ। প্রায় দেড় যুগ পর আবারও বাংলাদেশে কোচ হয়ে এসেছেন এ আর্জেন্টাইন। এবার সাইফের দায়িত্ব নিয়েছেন।

ক্লাব পরিচিতি ও খেলোয়াড় বাছাইপ্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে মঙ্গলবার সাইফ পরিদর্শনে গিয়েছিলেন কাবরেরা। তখনই ক্রুসিয়ানির সঙ্গে আলাপ হয় স্প্যানিশ এ কোচের।

এর আগে ফেডারেশন ও স্বাধীনতা কাপ চ্যাম্পিয়ন ঢাকা আবাহনী ও উত্তর বারিধারার অনুশীলন দেখতে যান কাবরেরা। তিন দলের অনুশীলন দেখে শক্তিশালী জাতীয় দল গড়ার ব্যাপারে প্রত্যাশার কথা জানিয়েছিলেন তিনি।

জাতীয় দলের হেড কোচ বলেন, ‘খেলোয়াড়দের পারফর্ম দেখে মুগ্ধ। বিশেষ করে তাদের টেকনিক্যাল সক্ষমতা, প্রগাঢ়তা আমার ভালো লেগেছে। আশা করি ভালো একটা জাতীয় দল গড়তে পারব।’

সামনে প্রিমিয়ার লিগ আছে। এর পরে মার্চে ফিফা উইন্ডোতে জাতীয় দলের ম্যাচ থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। এরই মধ্যে প্রাথমিক স্কোয়াড গঠন করে ফেলার কথা কাবরেরার।

আরও পড়ুন:
ফিফা বর্ষসেরার তালিকায় মেসি-রোনালডো-নেইমার
সাইফে নাইজেরিয়াসহ তিন দেশের জাতীয় ফুটবলার
দুই বছর পরপর বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনায় বসছে ফিফা

শেয়ার করুন

মেসির অনুপস্থিতিতে দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত দিবালা

মেসির অনুপস্থিতিতে দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত দিবালা

আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের অনুশীলনে পাওলো দিবালা। ছবি: এএফপি

কোচ লিওনেল স্কালোনির অধীনে গত বছর কোপা আমেরিকা জয় করা আর্জেন্টিনা এখনও আত্মবিশ্বাসী। দারুণ ফর্মে থাকা ২৮ বছরের দিবালাকে নিয়ে স্কালোনি বাড়তি পরিকল্পনা সাজিয়েছেন। 

চিলির বিপক্ষে কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা। এরই মধ্যে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে দ্বিতীয় সেরা হয়ে বিশ্বকাপের মূল পর্ব নিশ্চিত করে ফেলায় শুক্রবার রাতের ম্যাচটি আর্জেন্টিনার জন্য শুধু আনুষ্ঠানিকতা।

যে কারণে এ ম্যাচ থেকে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে বিশ্বসেরা লিওনেল মেসিকে। মেসির জায়গায় আক্রমণ ভাগের দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন ইউভেন্তাসের ফরোয়ার্ড পাওলো দিবালা।

কোচ লিওনেল স্কালোনির অধীনে গত বছর কোপা আমেরিকা জয় করা আর্জেন্টিনা এখনও আত্মবিশ্বাসী। দারুণ ফর্মে থাকা ২৮ বছরের দিবালাকে নিয়ে স্কালোনি বাড়তি পরিকল্পনা সাজিয়েছেন।

উরুগুয়ের বিপক্ষে গত নভেম্বরে বাছাইপর্বে ১-০ গোলের জয়ের ম্যাচটিতে দিবালা আর্জেন্টিনার মূল একাদশে ছিলেন। ঐ ম্যাচে হাঁটুর ইনজুরি থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা মেসি দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমেছিলেন।

বিশ্বকাপের মূল পর্বের টিকিট নিশ্চিতের পরও আর্জেন্টাইন গোলকিপার এমিলিয়ানো মার্টিনেস বলেছেন দল জয়ের জন্য ক্ষুধার্ত অবস্থায় রয়েছে।

মার্তিনেস বলেন, ‘দল হিসেবে এগিয়ে যেতে চাই। বাছাইপর্বের বাকি ম্যাচগুলোতে আমাদের লক্ষ্য জয়। এ বছর বিশ্বকাপে যেন সবাই সেরা আর্জেন্টিনা দলকে দেখতে পায় সেই লক্ষ্যেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

বাছাইপর্বে টিকে থাকতে হলে বৃহস্পতিবারের আরেক ম্যাচে নবম স্থানে থাকা প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ৭ নম্বরে থাকা উরুগুয়েকে অবশ্যই জিততে হবে। বরখাস্ত অভিজ্ঞ কোচ অস্কার তাবারেসের জায়গায় ডাক পাওয়া দিয়েগো আলোনসোর অধীনে এটাই উরুগুয়ের প্রথম ম্যাচ।

একই দিন মুখোমুখি হবে চতুর্থ স্থানে থাকা কলম্বিয়া ও পঞ্চম স্থানে থাকা পেরু আর ভেনিজুয়েলাকে আতিথ্য দেবে বলিভিয়া।

আরও পড়ুন:
ফিফা বর্ষসেরার তালিকায় মেসি-রোনালডো-নেইমার
সাইফে নাইজেরিয়াসহ তিন দেশের জাতীয় ফুটবলার
দুই বছর পরপর বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনায় বসছে ফিফা

শেয়ার করুন