খেলা নিয়ে জুয়া: আইন চান ব্যারিস্টার সুমন

খেলা নিয়ে জুয়া: আইন চান ব্যারিস্টার সুমন

ব্যারিস্টার সুমন। ছবি: নিউজবাংলা

জুয়াড়ি ও ফিক্সারদের বিরুদ্ধে আওয়াজ উঠিয়েছেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। ক্রিমিনাল অফেন্সে তাদের বিরুদ্ধে মামলার সুযোগ চান এই আইনজীবী।

দীর্ঘদিন ধরে ক্রীড়াজগতের বিভিন্ন অসংগতির বিরুদ্ধে সোচ্চার ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। প্রায় সময়ই তাকে দেখা যায় ক্রীড়ার উন্নয়নে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিতে।

তার ধারাবাহিকতায় এবারে জুয়াড়ি ও ফিক্সারদের বিরুদ্ধে আওয়াজ উঠিয়েছেন তিনি। ক্রিমিনাল অফেন্সে তাদের বিরুদ্ধে মামলার সুযোগ চান এই আইনজীবী।

নিউজবাংলাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সুমন বলেন, ‘এই যে ফুটবলে যে জুয়া খেলা হয় বা ম্যাচ ফিক্সিং হয়, বা যে কোনো খেলাতে, এগুলা আসলে ক্রিমিনাল অফেন্স। ফৌজদারি অপরাধ। কিন্তু এগুলো যখন ফুটবল ফেডারেশন বা ক্রিকেটের অ্যাসোশিয়েশনের অধীনে বিচার করা হয়, তখন এগুলোকে ক্রিমিনাল অফেন্সে বিচার করা হয় না। এদেরকে সিভিল পানিশমেন্ট দেয়া হয়।’

উপযুক্ত আইন না থাকায় অনেকেই এর সুবিধা নিয়ে নিজের পকেট ভরছেন দাবি সুমনের। তিনি বলেন, ‘আপনি ফুটবলের নাম দিয়ে ১ হাজার কোটি টাকা লুটপাট করবেন, জুয়া খেলবেন, মানি লন্ডারিং করবেন; এদের বিরুদ্ধে যদি ক্রিমিনাল কোনো ব্যবস্থা না নেন বা কেউ যদি মামলা না করে, তাহলে সে মনে করবে কী যে আমি ফুটবল না খেললাম, ব্যান থাকলাম কিন্তু এক হাজার কোটি টাকা তো বানিয়ে ফেলতে পারলাম।’

এ সব অপরাধীকে কেন ফৌজদারি মামলার আওতায় না হবে না সেটি তিনি কোর্টের মাধ্যমে জানতে চাইবেন বলে জানান নিউজবাংলাকে। একই সঙ্গে নতুন আইন প্রয়োগ করে বর্তমান আইন সংশোধনের পদক্ষেপও নিতে চান।

তিনি বলেন, ‘এগুলা তো আপডেটেড অফেন্স, আমাদের সিস্টেমটা এখনও ডেভেলপ হয়নি। আমরা সিস্টেমের ডেভেলপ করতে চাই। আইন শুরু করতে চাই সংসদের মাধ্যমে। যারা এ ধরণের অপরাধের সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে কেন ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হবে না সেটি জানতে চাই কোর্টের মাধ্যমে।’

আরও পড়ুন:
নিশো-মেহজাবিন-ব্যারিস্টার সুমনদের মামলার প্রতিবেদন পেছাল
সুদ কারবারিদের তালিকা চেয়ে ব্যারিস্টার সুমনের রিট
বিমানবন্দরে র‍্যাপিড পিসিআর ল্যাব চান ব্যারিস্টার সুমন

শেয়ার করুন

মন্তব্য

জয়ে লিগ জমাল ইংলিশ জায়ান্টরা

জয়ে লিগ জমাল ইংলিশ জায়ান্টরা

জয়ের পর ম্যানচেস্টার সিটি, চেলসি ও লিভারপুল। ছবি: এএফপি

এ দিনটা বেশ গুরুত্বপূর্ণ ছিল ইংলিশ জায়ান্ট চেলসি, লিভারপুল ও ম্যানচেস্টার সিটির জন্য । মাত্র এক পয়েন্টের ব্যবধানে টেবিলের এক থেকে তিনে রয়েছে তিনটি দল। হোঁচট খেলেই ব্যবধান বাড়ত, তবে তিন অ্যাওয়ে ম্যাচে সমর্থকদের হতাশ করেনি কেউই। জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে তিন দলই।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে বৃহস্পতিবার কোনো অঘটন ঘটেনি। জয় পেয়েছে ইংলিশ জায়ান্টরাই।

লিগের ১৪তম রাউন্ডের ম্যাচে জয় পেয়েছে চেলসি, ম্যানচেস্টার সিটি ও লিভারপুল। এতে জমে উঠেছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান দখলের লড়াই।

এ দিনটা বেশ গুরুত্বপূর্ণ ছিল তিন দলের জন্য। মাত্র এক পয়েন্টের ব্যবধানে এক থেকে তিনে রয়েছে তিনটি দল। হোঁচট খেলেই ব্যবধান বাড়ত।

তবে তিন অ্যাওয়ে ম্যাচে সমর্থকদের হতাশ করেনি কোনো দলই।

ওয়াটফোর্ডের বিপক্ষে ৩-১ ব্যবধানে জয় পেয়েছে চেলসি। ম্যাচের ২৯ মিনিটে ম্যাসন মাউন্টের গোলে লিড, ৪৩ মিনিটে ডেনিসের গোলে সমতা আর জিয়েখের গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে চেলসি।

এ জয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে থমাস টুখেলের বাহিনী।

বিশেষ নজর ছিল অ্যাস্টন ভিলা-ম্যানচেস্টার সিটি ম্যাচে। স্টিভেন জেরার্ড প্রথম কোনো বড় পরীক্ষার মুখোমুখি হলেন ভিলার দায়িত্ব নেয়ার পর।

তবে এ পরীক্ষায় পাস না করতে পারলেও সমর্থকদের মন জিতে নিয়েছে লিভারপুলের সাবেক ইংলিশ ফুটবল তারকা।

ম্যাচের ২৭ মিনিটে রুবেন দিয়াসের গোলে লিড নেয় সিটি। ৪৩ মিনিটে বার্নান্দো সিলভার গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ। আর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ওয়াটকিনসের গোলে ব্যবধান কমায় জেরার্ড বাহিনী।

অবশ্য শেষ পর্যন্ত জয়ের স্বস্তি নিয়ে মাঠ ছাড়ে পেপ গার্দিওলার বাহিনী।

দিনের অন্য ম্যাচে সবচেয়ে বড় জয়টা তুলে নেয় লিভারপুল। মোহাম্মদ সালাহর জোড়া গোলে এভারটনকে ৪-১ ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়েছে অল রেডরা।

ম্যাচের নবম মিনিটে হ্যান্ডারসনের গোলে লিড নেয় লিভারপুল। ১৯ মিনিটে সালাহর গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে দল।

৩৮ মিনিটে গ্রের গোলে ব্যবধান কমায় এভারটন। পরে ৬৪ মিনিটে সালাহর দ্বিতীয় গোলে ব্যবধান বাড়ায় লিভারপুল। শেষে জোটার গোলে ৪-১ ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে তারা।

অন্যদিকে সাউদাম্পটনের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে লিস্টার সিটি। ওয়েস্টহ্যামের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করে ব্রাইটন। আর উলভসের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করে বার্নলি।

পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ থাকার লড়াই জমে উঠেছে। ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে চেলসি।

এক পয়েন্ট কম নিয়ে দুইয়ে সিটি। আর ৩১ পয়েন্ট নিয়ে তিনে লিভারপুল। সাত পয়েন্ট কম নিয়ে ওয়েস্টহ্যাম আছে চারে।

আরও পড়ুন:
নিশো-মেহজাবিন-ব্যারিস্টার সুমনদের মামলার প্রতিবেদন পেছাল
সুদ কারবারিদের তালিকা চেয়ে ব্যারিস্টার সুমনের রিট
বিমানবন্দরে র‍্যাপিড পিসিআর ল্যাব চান ব্যারিস্টার সুমন

শেয়ার করুন

বেনজেমার গোলে শীর্ষস্থান ধরে রাখল রিয়াল

বেনজেমার গোলে শীর্ষস্থান ধরে রাখল রিয়াল

গোলের পর করিম বেনমেজার উদযাপন। ছবি: এএফপি

ঘরের মাঠে কার্লো আনচেলোত্তির বাহিনী ১-০ গোলে হারিয়েছে বিলবাওকে। দলের হয়ে একমাত্র গোলটি আসে কারিম বেনজেমার পা থেকে।

সান্তিয়াগো বার্নাব্যুয়ে আথলেতিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে কারিম বেনজেমার গোলে কষ্টার্জিত জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। এ জয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষস্থান আরও পাকাপোক্ত করে স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

ঘরের মাঠে কার্লো আনচেলোত্তির বাহিনী ১-০ গোলে হারিয়েছে বিলবাওকে। দলের হয়ে একমাত্র গোলটি আসে বেনজেমার পা থেকে।

এ জয়ে টানা পাঁচ ম্যাচে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছেড়েছে রিয়াল মাদ্রিদ।

যদিও ম্যাচে জয় পাওয়া সহজ ছিল না লস ব্লাঙ্কোদের। বেশ কয়েকবার বিলবাওয়ের দারুণ কিছু আক্রমণে তটস্থ ছিল রিয়াল রক্ষণ।

তবে শেষ পর্যন্ত জয়ের হাসি নিয়ে মাঠ ছাড়ে বেনজেমা-ভিনিসিয়াসরা।

ম্যাচের শুরুর দিকে ততটা আক্রমণাত্মক হতে দেখা যায়নি রিয়ালকে। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে নিজেদের ধার বাড়ায় তারা।

প্রথমার্ধের শেষ দিকে বিলবাওয়ের রক্ষণে চাপ বাড়াতে থাকে রিয়াল। গোলপোস্ট বরাবর শট নিয়ে হতাশ হন টনি ক্রুস।

ম্যাচের ৪০ মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোল আদায় করে নেয় রিয়াল।

বক্সের একটু ওপর থেকে মার্কো আসেনসিওর জোরালো শট বিলবাও গোলকিপার উনাই সিমোন ঝাঁপিয়ে ঠেকালে বল চলে যায় বক্সের ভেতরে থাকা লুকা মডরিচের সামনে। তার বুদ্ধিদীপ্ত পাস থেকে বেনজেমার শটে বল চলে যায় জালে।

বিলবাওয়ের বিপক্ষে গোলটি এ মৌসুমে ফরাসি ফরোয়ার্ডের ১২তম গোল। লা লিগার শীর্ষ গোলদাতার আসনে আছেন বেনজেমা।

তার দল রিয়াল মাদ্রিদও শীর্ষে রয়েছে পয়েন্ট টেবিলের। ১৫ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৩৬। দুইয়ে থাকা আতলেতিকো মাদ্রিদের সঙ্গে তাদের গোল ব্যবধান সাত। অবশ্য এক ম্যাচ কম খেলেছে নগর প্রতিদ্বন্দ্বীরা। ২০ পয়েন্ট নিয়ে আটে বিলবাও।

১৪ ম্যাচ খেলে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে সাতে আরেক স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা।

আরও পড়ুন:
নিশো-মেহজাবিন-ব্যারিস্টার সুমনদের মামলার প্রতিবেদন পেছাল
সুদ কারবারিদের তালিকা চেয়ে ব্যারিস্টার সুমনের রিট
বিমানবন্দরে র‍্যাপিড পিসিআর ল্যাব চান ব্যারিস্টার সুমন

শেয়ার করুন

ব্যালন প্রদর্শনের দিনে নিসের দেয়াল ভাঙা হয়নি মেসিদের

ব্যালন প্রদর্শনের দিনে নিসের দেয়াল ভাঙা হয়নি মেসিদের

মেসিকে বোতলবন্দী করে রাখে নিস। ছবি: এএফপি

নিসের জালের দেখা পাওয়া সম্ভব হয়নি ফরাসি জায়ান্টদের। ঘরের মাঠে গোলশূন্য ড্রয়ে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছেড়েছে দুই দল।

ব্যালন ড'র জেতার পর ক্যারিয়ারের প্রথমবার প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) জার্সিতে মাঠে প্রদর্শন করলেন লিওনেল মেসি। এর আগে প্রতিবার বার্সেলোনার জার্সিতে ব্যালন প্রদর্শন করেছেন এ আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। তবে এমন খুশির দিনটা রাঙানো হয়নি মেসিদের। ঘরের মাঠে নিসের সঙ্গে হোঁচট খেয়েছে পিএসজি।

নিসের জালের দেখা পাওয়া সম্ভব হয়নি ফরাসি জায়ান্টদের। গোলশূন্য ড্রয়ে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছেড়েছে দুই দল।

পয়েন্ট টেবিলের চারে থাকা নিসের বিপক্ষে বল দখলের লড়াইয়ে বেশ এগিয়ে ছিল পিএসজি। ৭০ শতাংশ বল পায়ে রেখে নিসের গোলবারে ২২টি শট নিয়েছেন মেসি-এমবাপেরা।

চোটের কারণে দুই মাস মাঠের বাইরে ছিটকে যাওয়া নেইমার নেই ম্যাচে। নেইমার ও চোট সেরে মাঠে ফেরা রামোসকে ছাড়া আনহেল দি মারিয়াকে নিয়ে আক্রমণ ভাগ সাজান মাউরিও পচেত্তিনো।

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ সাজিয়ে গেছে পিএসজি। ২৭তম মিনিটে মেসির পাস থেকে এমবাপের নেয়া ডান পায়ের শট ঝাঁপিয়ে পড়ে রুখে দেন নিস গোলকিপার বেনিতেস।

আগের ম্যাচে দলের তিন গোলে অ্যাসিস্ট করে অবদান রাখা মেসি এ ম্যাচেও নিসের রক্ষণ ব্যস্ত রাখেন। ম্যাচের ৩৫ মিনিটে তার নেয়া শট ঠেকিয়ে দেন মেসির স্বদেশি গোলকিপার ওয়ালটার বেনিতেস।

দ্বিতীয়ার্ধেও চাপ অব্যাহত রাখে পিএসজি। দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম ৬ মিনিটে ভালো ‍দুটি সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি দলটি। এমবাপের পাসে মারিয়ার শট পা বাড়িয়ে রুখে দেন বেনিতেস। মেসির পাস ধরে নুনো মেন্দেসের শটও ঠেকিয়ে দেন এ আর্জেন্টাইন গোলকিপার।

শেষে নিসের রক্ষণের ভুলে বল পেয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে মেসির নেয়া শট বাইরে চলে গেলে হতাশ হয় পিএসজি।

পুরো ম্যাচে বেনিতেসকে ফাঁকি দেয়া সম্ভব হয়নি পচেত্তিনোর শিষ্যদের। ফলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদের।

পয়েন্ট খোয়ালেও টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে পিএসজি। ১৬ ম্যাচে ১৩ জয় ও দুই ড্রয়ে পিএসজির পয়েন্ট ৪১। এক ম্যাচ কম খেলা মার্সেই ২৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে। ১৬ ম্যাচে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে রেন তৃতীয় স্থানে এবং ২৭ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে আছে নিস।

আরও পড়ুন:
নিশো-মেহজাবিন-ব্যারিস্টার সুমনদের মামলার প্রতিবেদন পেছাল
সুদ কারবারিদের তালিকা চেয়ে ব্যারিস্টার সুমনের রিট
বিমানবন্দরে র‍্যাপিড পিসিআর ল্যাব চান ব্যারিস্টার সুমন

শেয়ার করুন

শেখ জামালের হোঁচট, জয়ে শীর্ষে শেখ রাসেল

শেখ জামালের হোঁচট, জয়ে শীর্ষে শেখ রাসেল

শেখ জামাল ও শেখ রাসেল। ছবি: বাফুফে

বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে বুধবার গ্রুপ -বি এর দুটি ম্যাচ হয়। দিনের প্রথম ম্যাচে শেখ জামালকে গোলশূন্যভাবে রুখে দেয় উত্তর বারিধারা। পরের ম্যাচে বিমানবাহিনীকে ২-০ ব্যবধানে হারায় শেখ রাসেল।

চলমান স্বাধীনতা কাপে উত্তর বারিধার কাছে হোঁচট খেয়েছে শেখ জামাল। ড্রয়ে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছে দুই ক্লাব। আর পরের ম্যাচে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীকে হারিয়েছে শেখ রাসেল।

টানা ‍দুই জয়ে শেখ জামালকে হটিয়ে গ্রুপের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে গেছে অল ব্লুস।

বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে বুধবার গ্রুপ-বি এর দুটি ম্যাচ হয়। দিনের প্রথম ম্যাচে শেখ জামালকে গোলশূন্যভাবে রুখে দেয় উত্তর বারিধারা। পরের ম্যাচে বিমানবাহিনীকে ২-০ ব্যবধানে হারায় শেখ রাসেল।

এর আগে প্রথম ম্যাচে জয় তুলে নেয় শেখ জামাল ও শেখ রাসেল। বুধবার ছিল পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান আরও পাকাপোক্ত করার ম্যাচ।

সেই জায়গায় টুর্নামেন্টে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে হতাশ হয়েছে শেখ জামাল। তাদের আটকে দেয় বারিধারা। পুরো ম্যাচে গোলের দেখা পায়নি কোনো দল। ফলে এক পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়ে দুই দল।

শেখ জামালের হোঁচটের খবর নিয়ে পরের ম্যাচে মাঠে নেমে এইল্টন মাসাডোর জোড়া গোলে জয়ের সুবাতাস ছড়িয়ে মাঠ ছাড়ে শেখ রাসেল।

প্রথমার্ধের দুই গোলে ম্যাচ পকেটে পুরে নেয় সাইফুল বারী টিটুর বাহিনী। ম্যাচের ৮ ও ২৫ মিনিটে দুটি গোল করে দলকে গুরুত্বপূর্ণ জয় উপহার দেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড মাসাডো।

এ জয়ে ছয় পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে শেখ রাসেল। চার পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে শেখ জামাল।

এক পয়েন্ট নিয়ে তিনে উত্তর বারিধারা। পয়েন্টের খাতা না খুলতে পারা বিমানবাহিনী আছে টেবিলের তলানিতে।

আরও পড়ুন:
নিশো-মেহজাবিন-ব্যারিস্টার সুমনদের মামলার প্রতিবেদন পেছাল
সুদ কারবারিদের তালিকা চেয়ে ব্যারিস্টার সুমনের রিট
বিমানবন্দরে র‍্যাপিড পিসিআর ল্যাব চান ব্যারিস্টার সুমন

শেয়ার করুন

শুরু হলো বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপের মূল পর্ব

শুরু হলো বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপের মূল পর্ব

বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধনের মুহূর্ত। ছবি: সংগৃহীত

জাতীয় পর্যায়ের এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে আট বিভাগের বালক ও বালিকা দল। উদ্বেধনী ম্যাচে মাঠে নামে বালকদের ঢাকা বিভাগ ও বরিশাল বিভাগ। উদ্বোধনী ম্যাচে টাইব্রেকারে ঢাকা বিভাগ বরিশালকে পরাজিত করেছে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের মূল পর্ব শুরু হলো বুধবার। বালক ও বালিকা দুই বিভাগে অনূর্ধ্ব-১৭ বয়সের ফুটবলাররা অংশ নিবেন দেশের জাতীয় পর্যায়ের খেলায়।

কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে বিকেলে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেলের সভাপতিত্বে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তাজুল ইসলাম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই খেলাধুলার প্রতি বিশেষ গুরুত্ব প্রদান করেন। যার ফলে ক্রিকেট ফুটবলসহ সকল খেলায় অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে এবং হচ্ছে।

‘এই টুর্নামেন্ট গ্রাম-গঞ্জের সর্বত্র ব্যাপক সাড়া সৃষ্টি করেছে। খেলাধুলায় সম্পৃক্ত হওয়ায় আমাদের সন্তানরা বিপথগামী না হয়ে সঠিক পথের দিশা পাচ্ছে। এ জন্য ক্রীড়া মন্ত্রণালয় প্রশংসার দাবিদার।’

সভাপতির বক্তব্যে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, ‘মানসম্মত খেলোয়াড় তৈরির লক্ষ্যে আমরা এই টুর্নামেন্ট থেকে প্রতিভাবান ফুটবলারদেরকে দেশের ভিতরে এবং বিদেশে উন্নত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করছি। গত টুর্নামেন্টগুলো থেকে চার জন প্রতিভাবান ফুটবলারকে ব্রাজিলের গামা শহরের ক্লাবে উচ্চতর প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।

‘এ ছাড়াও ৪২ জন ফুটবলারকে বিকেএসপিতে তিন মাস উন্নত প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।’

এবারের টুর্নামেন্ট শেষেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এ বছরও বালক-বালিকা হতে বাছাই করা সেরা প্রতিভাবান তরুণ ফুটবলারদের ব্রাজিল ও ইউরোপসহ বিভিন্ন দেশে উচ্চতর প্রশিক্ষণ দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। দুই ধাপে ৮০ জন খেলোয়াড়কে বিকেএসপিতে দীর্ঘমেয়াদী প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।’

জাতীয় পর্যায়ের এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে আট বিভাগের বালক এবং বালিকা দল।

উদ্বেধনী ম্যাচে মাঠে নামে বালকদের ঢাকা বিভাগ ও বরিশাল বিভাগ। উদ্বোধনী ম্যাচে টাইব্রেকারে ঢাকা বিভাগ বরিশালকে পরাজিত করেছে।

২৯ মার্চ টঙ্গীর শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার স্টেডিয়ামে উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে শুরু হয় ২০২১ সালের খেলা।

উপজেলা পর্যায়ে বালক বিভাগে অংশ নেয় সারাদেশের ৪ হাজার ৫৭১টি ইউনিয়ন ও ২৫৭ টি পৌরসভা সহ ৪,৮২৮টি দলের মোট ৮৬ হাজার ৯০৪ জন খেলোয়াড়।

আরও পড়ুন:
নিশো-মেহজাবিন-ব্যারিস্টার সুমনদের মামলার প্রতিবেদন পেছাল
সুদ কারবারিদের তালিকা চেয়ে ব্যারিস্টার সুমনের রিট
বিমানবন্দরে র‍্যাপিড পিসিআর ল্যাব চান ব্যারিস্টার সুমন

শেয়ার করুন

একাডেমি কাপ ফাইনালে সানরাইজার্স ও ভৈরব

একাডেমি কাপ ফাইনালে সানরাইজার্স ও ভৈরব

ফাইনালে ওঠার পর বিজয়ী দলের উল্লাস। ছবি: সংগৃহীত

বুধবার প্রথম সেমিফাইনালে ফুটবল একাডেমি দিরাইকে ১-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে জায়গা করে নেয় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সানরাইজার্স ফুটবল একাডেমি। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ছাগলনাইয়া ফুটবল একাডেমিকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে কিশোরগঞ্জের ভৈরব ফুটবল একাডেমি।

বসুন্ধরা কিংস বিএফএসএফ অনূর্ধ্ব-১৪ একাডেমি কাপ-২০২১ ফুটবল প্রতিযোগিতার ফাইনালে লড়বে সানরাইজার্স ফুটবল একাডেমি ও ভৈরব ফুটবল একাডেমি।

বুধবার প্রথম সেমিফাইনালে ফুটবল একাডেমি দিরাইকে ১-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে জায়গা করে নেয় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সানরাইজার্স ফুটবল একাডেমি।
জয়ের একমাত্র গোলটি করেন সাজেদুল ইসলাম ইমন। সে সুবাদে তিনি সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। এ ম্যাচেও হলুদ কার্ডের দেখা পান সানরাইজার্সের মাসুদ রানা। ২টি হলুদ কার্ড হওয়ায় তিনি ফাইনালে খেলতে পারছেন না।

দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি হয় ছাগলনাইয়া ফুটবল একাডেমি ও ভৈরব ফুটবল একাডেমি। নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলে ড্র হওয়ায় খেলা টাইব্রেকারে গড়ায়।

টাইব্রেকারে ছাগলনাইয়া ফুটবল একাডেমিকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে কিশোরগঞ্জের ভৈরব ফুটবল একাডেমি।

ট্রাইবেকারে তিনটি শট রুখে দিয়ে ভৈরবের গোলরক্ষক তারেক ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন।

বসুন্ধরা কিংসের পৃষ্ঠপোষকতায় এবং জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ ও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সার্বিক সহযোগিতায় বাংলাদেশ ফুটবল সাপোর্টার্স ফোরামের (বিএফএসএফ) আয়োজনে তৃতীয় বারের মতো পল্টনের আউটার স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বাংলাদেশের তৃণমূল ফুটবলের এই টুর্নামেন্ট।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচটি মাঠে গড়াবে।

আরও পড়ুন:
নিশো-মেহজাবিন-ব্যারিস্টার সুমনদের মামলার প্রতিবেদন পেছাল
সুদ কারবারিদের তালিকা চেয়ে ব্যারিস্টার সুমনের রিট
বিমানবন্দরে র‍্যাপিড পিসিআর ল্যাব চান ব্যারিস্টার সুমন

শেয়ার করুন

পিএসজির মাঠে রাতে ব্যালন ডর প্রদর্শন করবেন মেসি

পিএসজির মাঠে রাতে ব্যালন ডর প্রদর্শন করবেন মেসি

সপ্তম ব্যালন ডর ট্রফি হাতে লিওনেল মেসি। ছবি: এএফপি

ম্যাচ শুরুর আগে পিএসজির হোম গ্রাউন্ড পার্ক দ্য প্রিন্সেসে নিজের ব্যালন ডর ট্রফি প্রদর্শন করবেন মেসি। ক্লাবের সমর্থকদের সঙ্গে তার ট্রফি জয় উদযাপন করতেই বিশেষ এ আয়োজন রেখেছে পিএসজি।

নিজের ৭ নম্বর ব্যালন ডর ট্রফি জেতার পরদিনই মাঠে নামতে হচ্ছে লিওনেল মেসিকে। ফ্রেঞ্চ লিগে নিসের বিপক্ষে বাংলাদেশ সময় রাত ২টায় নামছেন প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) আর্জেন্টাইন মহাতারকা।

ব্যালন ডর জেতার পরদিন অবশ্য অনুশীলন করেননি মেসি। পেটের পীড়ার কারণে মঙ্গলবার তাকে এক দিনের বিশ্রাম দেয় পিএসজি।

তবে প্যারিসিয়ানদের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে বুধবার নিসের বিপক্ষে ম্যাচে থাকছেন মেসি।

ম্যাচ শুরুর আগে পিএসজির হোম গ্রাউন্ড পার্ক দ্য প্রিন্সেসে নিজের ব্যালন ডর ট্রফি প্রদর্শন করবেন এ ফুটবল জাদুকর।

ক্লাবের সমর্থকদের সঙ্গে তার ট্রফি জয় উদযাপন করতেই বিশেষ এ আয়োজন রেখেছে পিএসজি।

প্যারিসিয়ানদের হয়ে দারুণ ছন্দে আছেন মেসি। গোল স্কোরারের ভূমিকা পাল্টে বেছে নিয়েছেন প্লে-মেকারের ভূমিকা।

ফলটাও পিএসজি পেয়েছে হাতেনাতে। সবশেষ লিগ ম্যাচে সেইন্ট এতিয়েনের বিপক্ষে পিএসজির করা তিন গোলের তিনটির অ্যাসিস্টই ছিলেন মেসি।

নিসের বিপক্ষে পিএসজি মেসিকে পেলেও পাচ্ছে না আরেক তারকা ফরোয়ার্ড নেইমারকে। পায়ের চোটে ৬ থেকে ৮ সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে চলে গেছেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার।

তার জায়গায় মেসি ও এমবাপের সঙ্গে আক্রমণ ভাগে দেখা যেতে পারে আনহেল দি মারিয়াকে।

আরও পড়ুন:
নিশো-মেহজাবিন-ব্যারিস্টার সুমনদের মামলার প্রতিবেদন পেছাল
সুদ কারবারিদের তালিকা চেয়ে ব্যারিস্টার সুমনের রিট
বিমানবন্দরে র‍্যাপিড পিসিআর ল্যাব চান ব্যারিস্টার সুমন

শেয়ার করুন