মাঠের বাইরের সমালোচনাকে পাত্তা দিলেন না ডমিঙ্গো

মাঠের বাইরের সমালোচনাকে পাত্তা দিলেন না ডমিঙ্গো

বাংলাদেশের অনুশীলনে মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে আলোচনায় হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। ফাইল ছবি

গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্ট চলার সময়ে সংবাদমাধ্যমে আসা চটকদার খবরে মাথা ঘামাচ্ছেন না বাংলাদেশের হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। মূল পর্বে যাত্রা শুরুর আগের দিন সংবাদসম্মেলনে তিনি জানান শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচের রণকৌশল নিয়ে ব্যস্ত তিনি।

বাংলাদেশ দল বৈশ্বিক কোনো টুর্নামেন্ট খেলতে গেলেই সরব হয়ে ওঠে দেশের সংবাদমাধ্যম। সরব হয়ে ওঠেন বিসিবি সভাপতি। এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও ব্যতিক্রম হয়নি।

বিশ্বকাপ চলাকালীন সংবাদমাধ্যমের কাছে দল নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। সমালোচনা করেছেন অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহসহ অন্য দুই সিনিয়র খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিমের। পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে ম্যাচ শেষ করে টাইগার অধিনায়ক জবাব দেন কিছু সমালোচনার।

মাহমুদুল্লাহ দলের কমিটমেন্ট নিয়ে প্রশ্ন তোলা থেকে বিরত থাকতে অনুরোধ জানান। বিসিবি সভাপতি পালটা বক্তব্য দেন অধিনায়কের। ইঙ্গিত দেন, বিশ্বকাপ শেষে দলের দায়িত্ব নাও থাকতে পারে তার কাঁধে।

গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্ট চলার সময়ে সংবাদমাধ্যমে আসা এসব চটকদার খবরে অবশ্য মাথা ঘামাচ্ছেন না বাংলাদেশের হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। মূল পর্বে যাত্রা শুরুর আগের দিন সংবাদসম্মেলনে তিনি জানান শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচের রণকৌশল নিয়ে ব্যস্ত তিনি। অন্য কিছু নয়।

ডমিঙ্গো বলেন, ‘আমি এখানে শুধু ক্রিকেটে ফোকাস করতে চাই। দলের বাইরে কী বলা হচ্ছে সেটা নিয়ে আমি চিন্তিত নই। দলকে শারীরিক ও মানসিকভাবে কালকের (রোববার) চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্য তৈরি করা আমার লক্ষ্য।’

সমালোচনা কেনো হচ্ছে? কে করছে বা কোন উদ্দেশ্যে হচ্ছে সেসব প্রশ্নের ধার না ধেরে পেশাদার কোচের মতোই ডমিঙ্গো জানালেন দলের মনোযোগ এখন মাঠের খেলায়।

তিনি বলেন, ‘জাতীয় দলের হয়ে খেলার সময় যখন পারফরম্যান্স খারাপ হবে তখন সমালোচনা নেয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। আন্তর্জাতিক স্পোর্টসের অংশই এটি। কোচিংয়ের অন্যতম দিক হচ্ছে যে বিষয়গুলো আমাদের নিয়ন্ত্রণে আছে সেটা নিয়ে কাজ করা।

‘মানুষ কী বলছে বা লিখছে সেটা আমাদের নিয়ন্ত্রণে নেই। আমরা নিজেদের পারফরম্যান্সের মূল্যায়ন করতে পারি। কোন জায়গায় উন্নতি দরকার সেটা নিয়ে চিন্তা করতে পারি। মাঠের বাইরে কী হচ্ছে সেটা নিয়ে চিন্তা করলে মাঠের আসল কাজ, ক্রিকেট খেলা, তা থেকে আমাদের ফোকাস সরে যাবে।’

কঠিন বাছাইপর্বের পর ডমিঙ্গো ও তার শিষ্যদের মূলপর্বের চ্যালেঞ্জ শুরু হচ্ছে রোববার থেকে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বিকেল চারটায় মাঠে নামছে বাংলাদেশ।

আরও পড়ুন:
২০১৬ ফাইনালের ‘রি-ম্যাচে’ নামছে দুই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন
বিশ্বকাপ না জেতা দুই বড় দলের লড়াই
বাংলাদেশের বিপক্ষে নেই লঙ্কান ‘রহস্য স্পিনার’

শেয়ার করুন

মন্তব্য

বৃষ্টিতে শঙ্কায় ঢাকা টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা

বৃষ্টিতে শঙ্কায় ঢাকা টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা

বৃষ্টিতে মিরপুরের উইকেট ঢেকে রাখা হয়েছে। ছবি: এএফপি

রোববার সারা রাত বৃষ্টি হওয়ার কারণে সোমবার ম্যাচের তৃতীয় দিনের খেলা নির্ধারিত সময়ে মাঠে গড়াচ্ছে না। সকাল সাড়ে নয়টায় খেলা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও ১০টায়ও দুই দল হোটেল থেকে মাঠে এসে পৌঁছায়নি।

ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদের’ প্রভাবে ঢাকা টেস্টের প্রথম দিন থেকেই ছিল বৃষ্টির হানা। আর এই বৃষ্টির কারণেই শঙ্কা জেগেছে সিরিজের শেষ টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা মাঠে গড়ানো নিয়ে।

রোববার সারা রাত বৃষ্টির কারণে সোমবার ম্যাচের তৃতীয় দিনের খেলা নির্ধারিত সময়ে মাঠে গড়াচ্ছে না। সকাল সাড়ে ৯টায় খেলা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও ১০টায়ও দুই দল হোটেল থেকে মাঠেই এসে পৌঁছায়নি।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের দেয়া তথ্য অনুযায়ী সারা দিন অব্যাহত থাকতে পারে বৃষ্টি। আর সেটি যদি হয় তাহলে বাতিল হয়ে যেতে পারে তৃতীয় দিনের খেলা।

এর আগে বৃষ্টির বাধায় মাত্র ৬.২ ওভার খেলে শেষ হয় টেস্টের দ্বিতীয় দিন। সকাল থেকেই হালকা বৃষ্টির কারণে রোববার প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা দেরিতে শুরু হয় দিনের খেলা। ১২.৫০ মিনিটে নামে দুই দল।

মাঠে গড়ানোর ৩০ মিনিট পর ফের শেরে বাংলায় আঘাত হানে বৃষ্টি। যার ফলে দিনের সপ্তম ওভারের মাঝপথে মাঠ ছাড়তে হয় দুই দলের ক্রিকেটারদের।

বিকেল ৩টায় পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা না দেখে দিনের খেলার সমাপ্তি ঘোষণা করেন আম্পায়াররা। এখন পর্যন্ত প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের পুঁজি ২ উইকেটের বিনিময়ে ২৮৮ রান।

মিরপুর টেস্টের প্রথম দিন থেকে শুরু হয় বৃষ্টি। আলোকস্বল্পতা ও বৃষ্টির বাধায় প্রথম দিনের খেলা ৩৩ ওভার আগে শেষ হলে ম্যাচ অফিশিয়ালরা দ্বিতীয় দিন সকাল সাড়ে ৯টায় খেলা শুরুর সিদ্ধান্ত নেয়।

দ্বিতীয় দিন সকাল থেকে বৃষ্টি থাকায় খেলা শুরুর সময় পিছিয়ে প্রথমে ১০.৪০ এরপর ১১.২০ করা হয়। এরপরও সম্ভব না হলে মধ্যাহ্ন বিরতির ঘোষণা দেন আম্পায়াররা।

দ্বিতীয় সেশন ১২.১০ থেকে শুরুর কথা থাকলেও মাঠ খেলার উপযোগী করে তুলতে আধঘণ্টার মতো সময় লাগে। ফলে ১২.৫০ মিনিটে শুরু হয় দ্বিতীয় দিনের খেলা। ২ উইকেটে ১৬১ রান দিয়ে দিনের খেলা শুরু করে পাকিস্তান।

আরও পড়ুন:
২০১৬ ফাইনালের ‘রি-ম্যাচে’ নামছে দুই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন
বিশ্বকাপ না জেতা দুই বড় দলের লড়াই
বাংলাদেশের বিপক্ষে নেই লঙ্কান ‘রহস্য স্পিনার’

শেয়ার করুন

ওয়াংখেড়েতে সিরিজ জয়ের সুবাস পাচ্ছে ভারত

ওয়াংখেড়েতে সিরিজ জয়ের সুবাস পাচ্ছে ভারত

জয়ের দ্বারপ্রান্তে ভারত। ছবি: টুইটার

জয়ের জন্য নিউজিল্যান্ডের দরকার পাহাড়সম ৪০০ রান। আর ড্র করতে হলে আরও দুই দিন টিকে থাকতে হবে উইকেটে। অন্যদিকে ভারতের দরকার পাঁচ উইকেট।

কানপুরে টেস্ট ড্রয়ের পর মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে জয়ের স্বপ্ন দেখছে ভারত।

ঘরের মাটিতে এ টেস্টে বেশ সুবিধাজনক অবস্থানে আছে রাহুল দ্রাবিড়ের বাহিনী।

আজাজ প্যাটেলের ১০ উইকেটের ইতিহাসের মাইলফলকের পরও নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে খুব একটা আলো ছড়াতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। টপ অর্ডারের পাঁচ উইকেট হারিয়ে ১৪০ রান তুলেছে তারা।

জয়ের জন্য তাদের দরকার পাহাড়সম ৪০০ রান। আর ড্র করতে হলে আরও দুই দিন টিকে থাকতে হবে উইকেটে।

অন্যদিকে ভারতের দরকার পাঁচ উইকেট। পরিস্থিতি বলছে, নিউজিল্যান্ডের জন্য কাজটি প্রায় অসম্ভব। ঘরের মাঠে নিঃসন্দেহে চালকের আসনে ভারত।

ব্যাটিংয়ে অপরাজিত হয়ে টিকে আছেন নিউজিল্যান্ডের ব্যাটার হেনরি নিকোলস ও রাচিন রাভিন্দ্রা। ৩৬ রানে অপরাজিত হেনরি ও ২ রানে রাভিন্দ্রা।

ভারতের হয়ে আশউইন নেন তিন উইকেট। একটি আক্সার প্যাটেল আর রান আউট হন উইকেটকিপার টম ব্লান্ডল।

এর আগে নিজেদের প্রথম ইনিংসে সব উইকেট হারিয়ে ৩২৫ রান তোলে ভারত। একাই ১০টি উইকেট নিয়ে তৃতীয় বোলার হিসেবে মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলেন নিউজিল্যান্ডের স্পিনার আজাজ প্যাটেল।

পরে ব্যাটিংয়ে নেমে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৬২ রানে অল আউট হয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। এখানেই মূলত পিছিয়ে পড়ে তারা।

ব্ল্যাক ক্যাপদের অল্প রানে গুটিয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে সাত উইকেটে ২৭৬ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে ভারত। এ ইনিংসেও জাদু অব্যাহত রেখে চার উইকেট তুলে নেন আজাজ প্যাটেল।

৫৪০ রানের টার্গেট দাঁড়ায় নিউজিল্যান্ডের সামনে। তৃতীয় দিনে ব্যাটিংয়ে নেমে ধারাবাহিকভাবে উইকেট হারাতে থাকে তারা। সর্বোচ্চ ৬০ রানের ইনিংস আসে ড্যারিল মিচেলের ব্যাট থেকে।

আরও পড়ুন:
২০১৬ ফাইনালের ‘রি-ম্যাচে’ নামছে দুই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন
বিশ্বকাপ না জেতা দুই বড় দলের লড়াই
বাংলাদেশের বিপক্ষে নেই লঙ্কান ‘রহস্য স্পিনার’

শেয়ার করুন

‘এক ইনিংস খেলতে পারলেও ড্র হবে’

‘এক ইনিংস খেলতে পারলেও ড্র হবে’

বৃষ্টির সময় ফিল্ড আম্পায়ারের সঙ্গে আলোচনায় বাংলাদেশের অধিনায়ক মুমিনুল হক। ছবি: এএফপি

তিন দিন বৃষ্টিতে হারালে টেস্টে ফল আসার সম্ভাবনা ক্ষীণ। তবে টাইগারদের ফিল্ডিং কোচের মতে, বাংলাদেশ এক ইনিংস খেললেও অন্তত ড্রয়ের সম্ভাবনা থাকত।

ঢাকা টেস্টে এখন চলছে বৃষ্টির ব্যাঘাত। প্রথম দিনে ৩৩ ওভার নষ্ট হওয়ার পরদিন খেলা হয়েছে মাত্র ৩৮ বল। তৃতীয় দিনেও আছে বৃষ্টির প্রবল সম্ভাবনা। এমন অবস্থায় ড্র-ই যেন হয়ে উঠছে বাংলাদেশ-পাকিস্তান সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের একমাত্র পরিণতি।

স্বাগতিক দল অবশ্য এমনটা চায়নি। চট্টগ্রামে হারের পর দল ঢাকায় এসেছিল জয়ের তৃষ্ণা নিয়ে। জয়ের জন্য দল মুখিয়ে থাকলেও বৃষ্টিতে এখন সেটা দূরের সম্ভাবনা বলে মনে হচ্ছে টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে।

দিনের খেলা পরিত্যক্ত হওয়ার পর অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানান বাংলাদেশের ফিল্ডিং কোচ মিজানুর রহমান।

তিনি বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি হারার পরও টেস্টে আমাদের বডি ল্যাংগুয়েজ ইতিবাচক ছিল। ভালো করার মানসিকতা ছিল। আমরা জেতার জন্য খেলতে এসেছিলাম।’

তিন দিন বৃষ্টিতে হারালে টেস্টে ফল আসার সম্ভাবনা ক্ষীণ। তবে টাইগারদের ফিল্ডিং কোচের মতে, বাংলাদেশ এক ইনিংস খেললেও অন্তত ড্রয়ের সম্ভাবনা থাকত।

মিজানুর বলেন, ‘একটা ইনিংস খেলতে পারলে ড্র হতো। এখনও ইতিবাচক মানসিকতা আছে আমাদের। আমরা কখনই ড্রয়ের জন্য খেল না। চট্টগ্রামে হারের প্রতিশোধ এখানে নেওয়ার ইচ্ছে থাকলেও আবহাওয়ার কারণে শুরু করতে পারিনি।’

বৃষ্টির কারণে শেরেবাংলার মাঠে খেলার চেয়ে বাইরের বিষয় নিয়ে আলোচনা বেশি চলছে। এর অন্যতম হচ্ছে নিউজিল্যান্ড সফর থেকে সাকিবের ছুটির আবেদন। তবে মিজানুরের কাছে ছুটির বিষয়টা ব্যক্তিগত।

তিনি বলেন, ‘এটা ব্যক্তিগত ব্যাপার। সাকিব যাবে কি যাবে না, এটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। বোর্ডের বিষয়। এগুলো দলে কোনো প্রভাব ফেলে না। কেউ না গেলে তাকে নিয়ে চিন্তা করার সুযোগ নেই। তবে সাকিব বা অন্য যারা ভালো খেলোয়াড় তারা থাকলে দলের শক্তি বাড়ে।’

দ্বিতীয় দিনের মতো ঢাকা টেস্টে তৃতীয় দিনও সকাল সাড়ে ৯টায় শুরু হবে প্রথম সেশন। পাকিস্তান খেলা শুরু করবে ২ উইকেটে ১৮৮ রানের স্কোর নিয়ে।

আরও পড়ুন:
২০১৬ ফাইনালের ‘রি-ম্যাচে’ নামছে দুই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন
বিশ্বকাপ না জেতা দুই বড় দলের লড়াই
বাংলাদেশের বিপক্ষে নেই লঙ্কান ‘রহস্য স্পিনার’

শেয়ার করুন

৩৮ বলে শেষ দ্বিতীয় দিনের খেলা

৩৮ বলে শেষ দ্বিতীয় দিনের খেলা

শেরে বাংলার পিচ কভারের ওপর স্লাইড করছেন সাকিব আল হাসান। ছবি: এএফপি

ছয় ওভারে রান এসেছে ২৭। দিন শেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ ২ উইকেটের খরচায় ১৮৮ রান। উইকেটে ৫২ রান নিয়ে আছেন আজহার আলি। তার সঙ্গী বাবর আজমের সংগ্রহ ৭১।

বৃষ্টির বাধায় মাত্র ৬.২ ওভার খেলে শেষ হলো ঢাকা টেস্টের দ্বিতীয় দিন। সকাল থেকেই হালকা বৃষ্টির কারণে প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা দেরিতে শুরু হয় দিনের খেলা। ১২.৫০ মিনিটে নামে দুই দল।

মাঠে গড়ানোর ৩০ মিনিট পর ফের শেরে বাংলায় আঘাত হানে বৃষ্টি। যার ফলে দিনের সপ্তম ওভারের মাঝপথে মাঠ ছাড়তে হয় দুই দলের ক্রিকেটারদের।

এই ৬ ওভার দুই বলে রান এসেছে ২৭। দিন শেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ ২ উইকেটের খরচায় ১৮৮ রান। উইকেটে ৫২ রান নিয়ে আছেন আজহার আলি। তার সঙ্গী বাবর আজমের সংগ্রহ ৭১।

বেলা ৩টায় পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা না দেখে দিনের খেলার সমাপ্তি ঘোষণা করেন আম্পায়াররা।

মিরপুর টেস্টের প্রথম দিন থেকে শুরু হয় বৃষ্টির ব্যাঘাত। আলোকস্বল্পতা ও বৃষ্টির বাধায় প্রথম দিনের খেলা ৩৩ ওভার আগে শেষ হলে ম্যাচ অফিশিয়ালরা দ্বিতীয় দিন সকাল সাড়ে ৯টায় খেলা শুরুর সিদ্ধান্ত নেয়।

দ্বিতীয় দিন সকাল থেকে বৃষ্টি থাকায় খেলা শুরুর সময় পিছিয়ে প্রথমে ১০.৪০ এরপর ১১.২০ করা হয়। এরপরও সম্ভব না হলে মধ্যাহ্ন বিরতির ঘোষণা দেন আম্পায়াররা।

দ্বিতীয় সেশন ১২.১০ থেকে শুরুর কথা থাকলেও মাঠ খেলার উপযোগী করে তুলতে আধঘণ্টার মতো সময় লাগে।

ফলে ১২.৫০ মিনিটে শুরু হয় দ্বিতীয় দিনের খেলা। ২ উইকেটে ১৬১ রান দিয়ে দিনের খেলা শুরু করে পাকিস্তান।

আরও পড়ুন:
২০১৬ ফাইনালের ‘রি-ম্যাচে’ নামছে দুই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন
বিশ্বকাপ না জেতা দুই বড় দলের লড়াই
বাংলাদেশের বিপক্ষে নেই লঙ্কান ‘রহস্য স্পিনার’

শেয়ার করুন

৬ ওভার পর আবারও বৃষ্টিতে বন্ধ খেলা

৬ ওভার পর আবারও বৃষ্টিতে বন্ধ খেলা

বৃষ্টিতে মিরপুরের উইকেট ঢেকে রাখা হয়েছে। ছবি: এএফপি

৬ ওভার খেলার পর মাঠ ছাড়তে হয় দুই দলের ক্রিকেটারদের। এই ছয় ওভারে রান এসেছে ২৭। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে পাকিস্তানের সংগ্রহ ২ উইকেটের খরচায় ১৮৮ রান।

বৃষ্টিতে প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর মাঠে গড়ায় বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তান সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা। কিন্তু মাঠে গড়ানোর ৩০ মিনিট পর ফের শেরে বাংলায় আঘাত হেনেছে বৃষ্টি।

৬ ওভার খেলার পর মাঠ ছাড়তে হয় দুই দলের ক্রিকেটারদের। এই ছয় ওভারে রান এসেছে ২৭। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে পাকিস্তানের সংগ্রহ ২ উইকেটের খরচায় ১৮৮ রান।

উইকেটে ৫২ রান নিয়ে আছেন আজহার আলি। তার সঙ্গী বাবর আজমের সংগ্রহ ৭১।

মিরপুর টেস্টের প্রথম দিন থেকে শুরু হয় বৃষ্টির ব্যাঘাত। আলোকস্বল্পতা ও বৃষ্টির বাধায় প্রথম দিনের খেলা ৩৩ ওভার আগে শেষ হলে ম্যাচ অফিশিয়ালরা দ্বিতীয় দিন সকাল সাড়ে ৯টায় খেলা শুরুর সিদ্ধান্ত নেয়।

দ্বিতীয় দিন সকাল থেকে বৃষ্টি থাকায় খেলা শুরুর সময় পিছিয়ে প্রথমে ১০.৪০ এরপর ১১.২০ করা হয়। এরপরও সম্ভব না হলে মধ্যাহ্ন বিরতির ঘোষণা দেন আম্পায়াররা।

দ্বিতীয় সেশন ১২.১০ থেকে শুরুর কথা থাকলেও মাঠ খেলার উপযোগী করে তুলতে আধঘণ্টার মতো সময় লাগে।

ফলে ১২.৫০ মিনিটে শুরু হয় দ্বিতীয় দিনের খেলা। ২ উইকেটে ১৬১ রান দিয়ে দিনের খেলা শুরু করে পাকিস্তান।

আরও পড়ুন:
২০১৬ ফাইনালের ‘রি-ম্যাচে’ নামছে দুই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন
বিশ্বকাপ না জেতা দুই বড় দলের লড়াই
বাংলাদেশের বিপক্ষে নেই লঙ্কান ‘রহস্য স্পিনার’

শেয়ার করুন

সাড়ে তিন ঘণ্টা পর শুরু হলো খেলা

সাড়ে তিন ঘণ্টা পর শুরু হলো খেলা

দ্বিতীয় দিন পাকিস্তানের হয়ে উইকেটে আছেন বাবর আজম ও আজহার আলি। ছবি: এএফপি

১২.৫০ মিনিটে শুরু হয় দ্বিতীয় দিনের খেলা। দুই উইকেটে ১৬১ রান দিয়ে দিনের খেলা শুরু করে পাকিস্তান। 

বৃষ্টিতে প্রায় সাড়ে ৩ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর অবশেষে শুরু হয়েছে ঢাকা টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা। পাকিস্তানের হয়ে উইকেটে আছেন বাবর আজম ও আজহার আলি।

প্রথম দিন আলোকস্বল্পতায় ৩৩ ওভার আগে খেলা শেষ হলে ম্যাচ অফিশিয়ালরা দ্বিতীয় দিন সকাল সাড়ে ৯টায় খেলা শুরুর সিদ্ধান্ত নেন।

দ্বিতীয় দিন সকাল থেকে বৃষ্টি থাকায় খেলা শুরুর সময় পিছিয়ে প্রথমে ১০.৪০ এরপর ১১.২০ করা হয়। এরপরও সম্ভব না হলে মধ্যাহ্ন বিরতির ঘোষণা দেন আম্পায়াররা।

দ্বিতীয় সেশন ১২.১০ থেকে শুরুর কথা থাকলেও মাঠ খেলার উপযোগী করে তুলতে আধঘণ্টার মতো সময় লাগে।

ফলে ১২.৫০ মিনিটে শুরু হয় দ্বিতীয় দিনের খেলা। দুই উইকেটে ১৬১ রান দিয়ে দিনের খেলা শুরু করে পাকিস্তান।

বাবর আজম ৬০ ও আজহার ৩৬ রান নিয়ে খেলছেন।

আরও পড়ুন:
২০১৬ ফাইনালের ‘রি-ম্যাচে’ নামছে দুই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন
বিশ্বকাপ না জেতা দুই বড় দলের লড়াই
বাংলাদেশের বিপক্ষে নেই লঙ্কান ‘রহস্য স্পিনার’

শেয়ার করুন

খেলা শুরুর নতুন সময় বেলা ১২.৫০

খেলা শুরুর নতুন সময় বেলা ১২.৫০

বৃষ্টির কারণে ঢেকে রাখা হচ্ছে উইকেট। ছবি: এএফপি

দিনের দ্বিতীয় সেশনের খেলা শুরু হওয়ার কথা ছিল ১২.১০ মিনিটে। তবে বৃষ্টি অবিরত থাকায় খেলা শুরু করা যায়নি। খেলা শুরু হওয়ার নতুন সময় নির্ধারিত হয়েছে ১২.৫০ মিনিট।

ঢাকা টেস্টের দ্বিতীয় দিনের শুরুতে বাধ সেধেছে বৃষ্টি। বৃষ্টির কারণে মাঠে নামতে দেরি হচ্ছে দুই দলের। ঢেকে রাখা হয়েছে উইকেট। চলছে মাঠ রোলিংয়ের কাজ।

আম্পায়াররা মধ্যাহ্ন বিরতি ঘোষণা করে দিয়েছেন। ফলে দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশন পুরোটাই নষ্ট হলো। দিনের খেলা হবে দুই সেশনের। দিনের দ্বিতীয় সেশনের খেলা শুরু হওয়ার কথা ছিল ১২.১০ মিনিটে।

তবে বৃষ্টি অবিরত থাকায় খেলা শুরু করা যায়নি। খেলা শুরু হওয়ার নতুন সময় নির্ধারিত হয়েছে ১২.৫০ মিনিট।

সকাল সাড়ে ৯টায় খেলা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও নির্ধারিত সময়ে খেলা মাঠে গড়ায়নি। ১০টা ৪০ মিনিটে মাঠ পর্যবেক্ষণের কথা থাকলেও বৃষ্টির কারণে ১১টায় মাঠে আসেন ম্যাচ অফিসিয়ালরা।

মাঠ পর্যবেক্ষণের পর আম্পায়াররা সিদ্ধান্ত দেন বেলা ১১টা ২০ মিনিটে শুরু হবে খেলা। তবে আবারও বৃষ্টি শুরু হলে ম্যাচ নির্ধারিত সময়ে শুরু করা যায়নি।

এর আগে ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনে বাবর আজম ও আজহার আলির ধৈর্য্যশীল ব্যাটিংয়ে সুবিধাজনক অবস্থানে থেকে দিন শেষ করেছে পাকিস্তান। প্রথম দিন শেষে সফরকারী দলের সংগ্রহ দুই উইকেটে ১৬১ রান।

আলোকস্বল্পতার কারণে চা বিরতির পর আর মাঠে গড়ায়নি দিনের খেলা। ৩৩ ওভার বাকি থাকতেই শেষ করা হয় প্রথম দিন। দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু হওয়ার কথা ছিল রোববার সকাল ৯.৩০ মিনিটে।

৯৯ বলে ৬০ রানে অপরাজিত রয়েছেন বাবর আজম। ১১২ বল খেলে ৩২ রান করে তাকে সঙ্গ দিচ্ছেন আজহার আলি।

আরও পড়ুন:
২০১৬ ফাইনালের ‘রি-ম্যাচে’ নামছে দুই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন
বিশ্বকাপ না জেতা দুই বড় দলের লড়াই
বাংলাদেশের বিপক্ষে নেই লঙ্কান ‘রহস্য স্পিনার’

শেয়ার করুন