এবার কোচদের ‘কোচ’ সালাউদ্দিন

এবার কোচদের ‘কোচ’ সালাউদ্দিন

কোচ সালাউদ্দিন। ফাইল ছবি

অক্টোবরের মাঝামাঝি বিসিবি শুরু করতে যাচ্ছে স্থানীয় কোচদের লেভেল ওয়ান কোচিং প্রোগ্রাম। আর সেখানে প্রধান নির্দেশকের দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন সাকিব-তামিমদের গুরু সালাউদ্দিন।

কোচ হিসেবে মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের নামডাক রয়েছে তারকা তৈরির কারিগর হিসেবে। সাকিব-তামিমদের মতো খেলোয়াড় গড়ে তোলার কারিগর এই কোচকে বোর্ডের সঙ্গে যুক্ত করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

অক্টোবরের মাঝামাঝি বিসিবি শুরু করতে যাচ্ছে স্থানীয় কোচদের লেভেল ওয়ান কোচিং প্রোগ্রাম। আর সেখানে প্রধান নির্দেশকের দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন সাকিব-তামিমদের এই গুরু।

সংবাদমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন।

সুজন বলেন, ‘আমাদের লেভেল ওয়ান কোচিং প্রোগ্রামে প্রধান নির্দেশকের ভূমিকায় থাকবে সালাউদ্দিন। সে অনেক অভিজ্ঞ একজন কোচ। সে তার অভিজ্ঞতা কোচদের সঙ্গে ভাগাভাগি করে নিতে পারবে।’

সাবেক এই পেইসার জানান, জেলা পর্যায় থেকে বাছাই করে ২৪ জন কোচকে এই প্রোগ্রামের আওতায় আনা হবে।

সুজন বলেন, ‘আমরা ২৪ জন কোচকে মনোনীত করব। দেশের বিভিন্ন জায়গায় কোচের প্রয়োজনীয়তা মাথায় রেখে তাদের আমরা বাছাই করব।’

তিনি আরও বলেন, ‘অনেক জেলা আছে, যেখানে লেভেল ওয়ান ডিগ্রিধারী কোনো কোচ নেই। আমরা চাই সেসব জেলার খেলোয়াড়রাও যেন লেভেল ওয়ান কোচের অধীনের নিজেদের অনুশীলন চালিয়ে নিতে পারে।’

বোর্ডের দেয়া দায়িত্ব পেয়ে বেশ খুশি কোচ সালাউদ্দিন। ক্যারিয়ারের লম্বা সময় তিনি কাটিয়েছেন ডেভ হোয়াটমোর, জেমি সিডন্সের মতো অভিজ্ঞ কোচদের সঙ্গে। সেখান থেকে অর্জিত শিক্ষা তিনি বিলিয়ে দিতে চান তৃণমূল পর্যায়ে কাজ করে।

এ প্রসঙ্গে সালাউদ্দিন বলেন, ‘এটি আমার জন্য অনেক বড় একটা সুযোগ। আমি এর জন্য অপেক্ষায় আছি। আমি যদি নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করার মাধ্যমে তাদের আরও ভালো কোচ বানাতে পারি, তাহলে এটা আমার জন্য বড় অর্জন হবে। কারণ তারা সবাই তৃণমূল পর্যায়ে কাজ করবে।’

আরও পড়ুন:
চট্টগ্রামে হচ্ছে উন্নতমানের ক্রিকেট অ্যাকাডেমি
ঢাকার বাইরের ক্রিকেটে নজর দুর্জয়ের
বৃষ্টিতে ভেসে গেল তামিমদের প্রথম ম্যাচ
এনসিএল দিয়ে টেস্ট মৌসুমের প্রস্তুতি শুরু করতে চায় বিসিবি
পাঁচ ওয়ানডে খেলতে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে যুবদল

শেয়ার করুন

মন্তব্য

দলের সঙ্গে যোগ দিলেন সাকিব

দলের সঙ্গে যোগ দিলেন সাকিব

সাকিব আল হাসান। ফাইল ছবি

আইপিএল পর্ব চুকিয়ে শনিবার দুপুরে জাতীয় দলের সতীর্থদের সঙ্গে যোগ দেন সাকিব আল হাসান। এর আগে একই দিন ভোর ছয়টায় টিম হোটেলে পৌঁছান তিনি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব শুরু হতে যাচ্ছে রোববার। এতে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ লড়বে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে।

সে ম্যাচের আগের দিন শনিবার দুপুরে আইপিএল পর্ব চুকিয়ে জাতীয় দলের সতীর্থদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। এর আগে একই দিন ভোর ছয়টায় টিম হোটেলে পৌঁছান সাকিব।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কোয়ারেন্টিনের জটিলতা এড়াতে আরব আমিরাত থেকে সড়কপথে ওমানে এসেছেন দেশসেরা অলরাউন্ডার।

সড়কপথে আসায় কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে না সাকিবকে। এর ফলে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের বাছাই পর্বের প্রথম ম্যাচেই থাকতে পারবেন দলের সঙ্গে।

বাছাই পর্বের আগে ওমানের স্থানীয় সময় শনিবার সন্ধ্যা ছয়টায় শেষবারের মতো অনুশীলনে নামবে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা, তবে এই অনুশীলনে সাকিব থাকবেন কি না, সেই বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু জানা যায়নি।

বাছাই পর্বে স্কটল্যান্ড ছাড়াও বাংলাদেশকে লড়তে হবে স্বাগতিক ওমান ও পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে। এ পর্বে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হলেই ডমিঙ্গো শিষ্যদের মিলবে বিশ্বকাপের মূল পর্বের টিকিট।

বাছাই পর্বে খেলার আগে সাকিববিহীন তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে টাইগাররা। কেবল ওমানের এ-দলের বিপক্ষে জয়ের দেখা পেয়েছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। বাকি দুই ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে হারকে সঙ্গী করে মাঠ ছাড়তে হয়েছে লিটন-সৌম্যদের।

আরও পড়ুন:
চট্টগ্রামে হচ্ছে উন্নতমানের ক্রিকেট অ্যাকাডেমি
ঢাকার বাইরের ক্রিকেটে নজর দুর্জয়ের
বৃষ্টিতে ভেসে গেল তামিমদের প্রথম ম্যাচ
এনসিএল দিয়ে টেস্ট মৌসুমের প্রস্তুতি শুরু করতে চায় বিসিবি
পাঁচ ওয়ানডে খেলতে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে যুবদল

শেয়ার করুন

বাংলাদেশের যুব দল থেকে ছিটকে গেলেন ৪ ফুটবলার

বাংলাদেশের যুব দল থেকে ছিটকে গেলেন ৪ ফুটবলার

ছবি: সংগৃহীত

দলের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সদস্য নিউজবাংলাকে জানান, পাসপোর্ট জটিলতায় বাদ পড়েন নিহাত জামান উচ্ছ্বাস। দলে যোগ দেননি জাফর ইকবাল। বাদ পড়েছেন ফাহিম মোর্শেদ ও ইনজুরিতে ছিটকে গেছে আমির হাকিম বাপ্পি।

এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ এশিয়ান কাপ সামনে রেখে চলমান বাংলাদেশের ক্যাম্প থেকে ছিটকে গেলেন চার ফুটবলার। তারা হলেন নিহাত জামাল উচ্ছ্বাস, ফাহিম মোর্শেদ, জাফর ইকবাল ও আমির হাকিম বাপ্পি।

দলীয় সূত্রে বিষয়টি জানা গেছে।

দলের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সদস্য নিউজবাংলাকে জানান, পাসপোর্ট জটিলতায় বাদ পড়েন নিহাত জামান উচ্ছ্বাস। দলে যোগ দেননি জাফর ইকবাল। বাদ পড়েছেন ফাহিম মোর্শেদ ও ইনজুরিতে ছিটকে গেছে আমির হাকিম বাপ্পি।

এদের চার জনই জাতীয় বয়সভিত্তিক দলে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

বাপ্পি আর জাফর গত বিপিএল আসরে খেলেছেন মোহামেডানের জার্সিতে। ফাহিম খেলেছেন বসুন্ধরায় ও উচ্ছ্বাস আরামবাগের হয়ে। ওই আসরে সেরা উদীয়মান ফুটবলার নির্বাচিত হন উচ্ছ্বাস।

গত আড়াই সপ্তাহধরে অনূর্ধ্ব-২৩ এশিয়ান কাপ সামনে রেখে অনুশীলন করছে যুব দল। মারুফুল হকের নেতৃত্বে এই দলে সম্প্রতি যোগ দিয়েছেন ইংল্যান্ড প্রবাসী বাংলাদেশি ফুটবলার ইউসুফ ‍জুলকারনাইন হক।

সাফে জাতীয় দলের হয়ে খেলেছেন তারিক কাজীসহ নয়জন যোগ দেবেন এই দলে।

চূড়ান্ত দল এই সপ্তাহের মধ্যেই প্রকাশ করা হবে বলে জানায় বাফুফে।

২৫ অক্টোবর থেকে মাঠে গড়াতে যাচ্ছে এএফসি অনূর্ধ্ব ২৩ এশিয়ান কাপের বাছাইপর্ব। কুয়েতে অনুষ্ঠিত হবে বাছাইপর্বের ম্যাচগুলো। বাছাইপর্বে বাংলাদেশ লড়বে সৌদি আরব, উজবেকিস্তান ও স্বাগতিক কুয়েতের বিপক্ষে।

বাছাইপর্বে অংশ নিতে ২১ অক্টোবর দেশ ছাড়বে লাল সবুজের প্রতিনিধিরা।

আরও পড়ুন:
চট্টগ্রামে হচ্ছে উন্নতমানের ক্রিকেট অ্যাকাডেমি
ঢাকার বাইরের ক্রিকেটে নজর দুর্জয়ের
বৃষ্টিতে ভেসে গেল তামিমদের প্রথম ম্যাচ
এনসিএল দিয়ে টেস্ট মৌসুমের প্রস্তুতি শুরু করতে চায় বিসিবি
পাঁচ ওয়ানডে খেলতে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে যুবদল

শেয়ার করুন

‘ওমান, পাপুয়া নিউগিনির মতো দল’ বাংলাদেশ

‘ওমান, পাপুয়া নিউগিনির মতো দল’ বাংলাদেশ

বাংলাদেশ বনাম স্কটল্যান্ড ম্যাচের একটি মুহূর্ত। ফাইল ছবি

এ পর্যন্ত একবারই বাংলাদেশের মুখোমুখি হয় স্কটল্যান্ড। ২০১২ সালের সে ম্যাচে ৩৪ রানের হার নিয়ে মাঠ ছেড়েছিল বাংলাদেশ।

রাত পোহালেই বেজে উঠবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দামামা। সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত করতে বাছাই পর্বে বাংলাদেশ প্রথম খেলায় প্রতিপক্ষ হিসেবে পাচ্ছে স্কটল্যান্ডকে।

শক্তি ও সামর্থ্যের দিক দিয়ে বাংলাদেশের চেয়ে অনেক পিছিয়ে স্কটল্যান্ড। শুধু স্কটল্যান্ডই নয়, ওমান, পাপুয়া নিউগিনির নাগালের বাইরের দল বাংলাদেশ। তারপরও বাংলাদেশকে নিয়ে ভয়ের কিছু দেখছেন না স্কটিশ কোচ শেন বার্জার।

এমনকি বাংলাদেশ জাতীয় দলকে ওমান এবং পাপুয়া নিউগিনির সমপর্যায়ে ফেলছেন তিনি। সম্প্রতি ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানান বার্জার।

তিনি বলেন, ‘গ্রুপ ম্যাচগুলোতে বাংলাদেশকে আমরা পিএনজি বা ওমানের চেয়ে উপরে কোথাও দেখি না। আমরা জানি, সব দলই জয়ের জন্য মরিয়া থাকবে, তবে আমরা চাইব তাদের সবার জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হতে। আমরা প্রস্তুত।’

এ পর্যন্ত একবারই বাংলাদেশের মুখোমুখি হয়েছে স্কটল্যান্ড। ২০১২ সালের সে ম্যাচে ৩৪ রানের হার নিয়ে মাঠ ছেড়েছিল বাংলাদেশ। সে অভিজ্ঞতা থেকেই বিশ্বমঞ্চে নিজেদের সেরাটা দিয়ে বাকিদেরও বিপাকে ফেলার বিষয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী এ কোচ।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা জানি, নিজেদের সেরাটা খেলতে পারলে আমরা সব দলের জন্যই বিপদের কারণ হতে পারব। আমাদের পর্যাপ্ত সামর্থ্য আছে।

‘যদি নিজেদের সেরাটা দিতে পারি, যেকোনো দলকে হারাতে পারি আমরা, তা বাংলাদেশ কিংবা ওমান, পাপুয়া নিউগিনি যেই হোক না কেন।’

১৭ অক্টোবর বাছাই পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে স্কটল্যান্ডের। এ পর্বে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন অথবা রানার আপ হলেই মূল পর্বের টিকিট মিলবে ডমিঙ্গো শিষ্যদের।

আরও পড়ুন:
চট্টগ্রামে হচ্ছে উন্নতমানের ক্রিকেট অ্যাকাডেমি
ঢাকার বাইরের ক্রিকেটে নজর দুর্জয়ের
বৃষ্টিতে ভেসে গেল তামিমদের প্রথম ম্যাচ
এনসিএল দিয়ে টেস্ট মৌসুমের প্রস্তুতি শুরু করতে চায় বিসিবি
পাঁচ ওয়ানডে খেলতে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে যুবদল

শেয়ার করুন

নিয়াজ মোর্শেদের কাছে ১২ মিনিটও টিকলেন না পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিয়াজ মোর্শেদের কাছে ১২ মিনিটও টিকলেন না পররাষ্ট্রমন্ত্রী

গ্র্যান্ড মাস্টার নিয়াজ মোর্শেদের সঙ্গে শনিবার দাবা খেলায় অংশ নেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন। ছবি: নিউজবাংলা

খেলা শুরুর দেড় মিনিটের মধ্যেই মন্ত্রী খোয়ান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এরপর হাতি, ঘোড়া, নৌকাসহ বেশ কিছু সৈন্য হারিয়ে রাজাকে রক্ষায় বিপাকে পড়ে যান তিনি।

রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে শনিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘শেখ রাসেল মেমোরিয়াল র‌্যাপিড চেজ টুর্নামেন্টে ২০২১’ উদ্বোধন শেষে একটি প্রদর্শনী ম্যাচ হয়। তাতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে অংশ নেন গ্র্যান্ড মাস্টার নিয়াজ মোর্শেদ।

খেলা শুরুর দেড় মিনিটের মধ্যেই মন্ত্রী খোয়ান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এরপর হাতি, ঘোড়া, নৌকাসহ বেশ কিছু সৈন্য হারিয়ে রাজাকে রক্ষায় বিপাকে পড়ে যান তিনি। খেলার ১২ মিনিটের মধ্যেই আন্তর্জাতিক দাবাড়ু নিয়াজ মোর্শেদের চালে আটকে যায় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর রাজা। সব শেষ মন্ত্রী ছাড়া রাজাকে রক্ষা করা যে কঠিন, সেটি বলে হাসতে হাসতে খেলা শেষ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ওই সময় নিয়াজ মোর্শেদ বলেন, ‘দীর্ঘদিন পর হলেও আপনি বেশ ভালো খেলেছেন।’ পরে উপস্থিত সবাই মন্ত্রীকে উৎসাহ দেন।

এর আগে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘দাবা বুদ্ধির খেলা, মজার খেলা। যারা এটা খেলতে পারে, তারা কিন্তু কৌশল নির্ণয়ে ভালো হয়। এটা খুবই প্রয়োজন।

‘বিশেষ করে আমাদের যারা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আছেন, আমি তাদের অনুরোধ করব।’

নিজের দাবা খেলার অভিজ্ঞতা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমি যখন ছাত্র ছিলাম তখন দাবা খেলতাম। ১৯৭১ সালে যুদ্ধের সময় আমি শেষ দাবা খেলেছি। ১৯৭১ সালে আমরা যখন শহর থেকে পালিয়ে গ্রামে যাই, আশ্রয় নিই বিভিন্ন জায়গায়, তখন আমরা সময় কাটাতাম দাবা খেলে।

‘আমার ধারণা যারা দাবা খেলে, তাদের আইকিউ (বুদ্ধিমত্তা) খুব শার্প। আমি শুনেছিলাম, দাবা চ্যাম্পিয়ন গ্যারি কাসপারভের নাকি আইকিউ ছিল ১৫০ প্লাস। বিজ্ঞানী আইনস্টাইনের পরেই নাকি তার অবস্থান। আইনস্টাইনের আইকিউ ছিল ২০৫।’

মোমেন বলেন, ‘আমি যেটা শুনেছি এই দাবা খেলা আমাদের এই ভারতবর্ষে সপ্তম শতাব্দীতে শুরু হয়। তারপর আরব-পার্সিরা যখন এখানে আসে, তারা খেলাটি শেখে। এরপর দাবা খেলা চলে যায় আরব দেশে। সেখান থেকে চলে যায় দক্ষিণ ইউরোপে। প্রাতিষ্ঠানিকভাবে সম্ভবত ১৫০০ বা ১৬০০ খ্রিষ্টাব্দ থেকে শুরু হয়। এরপর ১৮৮৬ সালে প্রথম এটি গেম হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়।’

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন, চেজ ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শাহাবুদ্দিন শামীম, গ্র্যান্ড মাস্টার নিয়াজ মোর্শেদ ও জিয়াউর রহমান।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে দাবা খেলায় ৩০ জন অফিসার অংশ নেন।

আরও পড়ুন:
চট্টগ্রামে হচ্ছে উন্নতমানের ক্রিকেট অ্যাকাডেমি
ঢাকার বাইরের ক্রিকেটে নজর দুর্জয়ের
বৃষ্টিতে ভেসে গেল তামিমদের প্রথম ম্যাচ
এনসিএল দিয়ে টেস্ট মৌসুমের প্রস্তুতি শুরু করতে চায় বিসিবি
পাঁচ ওয়ানডে খেলতে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে যুবদল

শেয়ার করুন

আফসোসের সাফ ফাইনাল রাতে

আফসোসের সাফ ফাইনাল রাতে

নেপাল ম্যাচে বাংলাদেশের গোল উদযাপনের দৃশ্য। ছবি: বাফুফে

লাল-সবুজদের অপেক্ষা বাড়ার সময়ে মালদ্বীপে দক্ষিণ এশিয়ার বিশ্বকাপ খ্যাত এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল গড়াচ্ছে শনিবার রাতে। মালের জাতীয় স্টেডিয়ামে ফাইনালে মুখোমুখি হবে ভারত ও নেপাল।

১৬ বছর পর এবার সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলার স্বপ্ন বুনেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু নেপালের বিপক্ষে লাল কার্ড আর পেনাল্টি বিতর্কে ভেঙে যায় লাল-সবুজদের সেই স্বপ্ন।

আফসোসটা আরও বেড়ে যায় যখন দুই ফাইনালিস্ট ভারত ও নেপালের সঙ্গে এই সাফে বাংলাদেশের গল্পগুলোও ছিল স্মরণীয়।

সাফে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ভারতকে ১০ জনের দল নিয়েও রুখে দেয় বাংলাদেশ। এক গোলের লিডে থাকা ভারতের বিপক্ষে সেই ম্যাচে ইয়াসিনের দুর্দান্ত গোলে প্রত্যাবর্তন করেছিল টাইগাররা। ঝুলিতে এক পয়েন্টের স্বস্তি নিয়ে মাঠ ছেড়েছিল বাংলাদেশ।

জিতলেই ফাইনাল, এমন সমীকরণ নিয়ে নেপালের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ। এমন অবস্থায় মাঠে নেমে সুমন রেজার গোলে লিড নিয়ে বাংলাদেশ যখন ফাইনাল খেলার স্বপ্ন বুনছিল তখন ভিলেন হয়ে হাজির হোন রেফারি।

আনিসুর রহমান জিকোকে লাল কার্ড দিয়ে বের করে দেয়ার পর ম্যাচের অন্তিম মুহূর্তে নেপালের পক্ষে পেনাল্টি দিয়ে বসেন উজবেক রেফারি আখরোল রিসকিয়ালেভ। এই বিতর্কিত পেনাল্টিতে গোল করে ড্র করে নেপাল। আর তাতেই সাফ মিশন শেষ হয়ে যায় জামালদের।

ফাইনালে খেলার বিষয়টি বিবেচনায় রেখে ১৭ অক্টোবর মালদ্বীপ থেকে দেশে ফেরার ফ্লাইট বুকিং করে রেখেছিল বাংলাদেশ। এখন আফসোস নিয়ে দর্শক হয়ে মালদ্বীপ থেকে ফাইনাল দেখবেন জামাল-তারিকরা।

ফাইনালে নিঃসন্দেহে ভারতই ফেভারিট। টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ সাতবার চ্যাম্পিয়ন দেশটি। আর প্রথমবারের মতো ফাইনালে খেলছে নেপাল।

চলতি আসরে ভারতের কাছে হেরেছিল নেপাল। আর ভারতকে সবশেষ নেপাল হারিয়েছে ২০১৩ সালের সাফে।

মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে বাংলাদেশ সময় শনিবার রাত ৯টায় শিরোপার জন্য লড়বে দুই দল। খেলাটি দেখাবে টি-স্পোর্টস।

আরও পড়ুন:
চট্টগ্রামে হচ্ছে উন্নতমানের ক্রিকেট অ্যাকাডেমি
ঢাকার বাইরের ক্রিকেটে নজর দুর্জয়ের
বৃষ্টিতে ভেসে গেল তামিমদের প্রথম ম্যাচ
এনসিএল দিয়ে টেস্ট মৌসুমের প্রস্তুতি শুরু করতে চায় বিসিবি
পাঁচ ওয়ানডে খেলতে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে যুবদল

শেয়ার করুন

সড়কপথে দুবাই থেকে ওমানে সাকিব

সড়কপথে দুবাই থেকে ওমানে সাকিব

বাসে উঠছেন সাকিব। ছবি: ফাইল ছবি

শনিবার সড়কপথে ৪০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে দলে যোগ দেবেন সাকিব। এসে কোয়ারেন্টিন পর্ব পালন করতে হবে না তাকে। সরাসরি যোগ দেবেন দলের সঙ্গে। বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডে স্কটল্যান্ডের ম্যাচে খেলতে পারছেন সাকিব।

কলকাতা নাইট রাইডার্সের জার্সিতে আইপিএল পর্ব চুকিয়ে ওমানের পথ ধরেছেন সাকিব আল হাসান। জাতীয় ক্রিকেট দলে যোগ দিতে সড়কের পথ ধরে ইতিমধ্যে রওনা দিয়েছেন দেশসেরা এই অলরাউন্ডার।

দলের সূত্রে এ খবর জানা যায়।

শনিবার সড়কপথে ৪০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে দলে যোগ দেবেন সাকিব। এসে কোয়ারেন্টিন পর্ব পালন করতে হবে না তাকে। সরাসরি যোগ দেবেন দলের সঙ্গে। বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডে স্কটল্যান্ডের ম্যাচে খেলতে পারছেন সাকিব।

যদিও দলের সঙ্গে তার যোগ দেয়ার কথা ৮ অক্টোবর। তবে আইপিএলের এলিমিনেটর ও ফাইনালে কলকাতা নাইট রাইডার্স খেলায় দলের সঙ্গে থেকে গেছেন সাকিব। টুর্নামেন্টের ফাইনাল শেষ হয়েছে শুক্রবার। রানার্সআপ হয়ে ওমানের পথে রওনা দিয়েছেন সাকিব।

সাকিবের দলে যোগ দেয়ার বিষয়টি জানিয়েছেন জাতীয় ক্রিকেট দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন।

তিনি বলেন, ‘যতটুকু জানি, সাকিব সড়কপথে দলের সঙ্গে যোগ দেবে। সে ফ্লাইটের ঝুঁকি নেবে না। যেহেতু বাবল থেকে বাবলে আসবে তাই কোয়ারেন্টিনের কোনো ব্যাপার থাকবে না।’

এক দিন বাদেই শুরু হতে যাচ্ছে বিশ্বকাপের মূল পর্বে বাংলাদেশে জায়গা করে নেয়ার লড়াই। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে বাংলাদেশকে খেলতে হবে স্কটল্যান্ড, ওমান ও পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে।

বাছাইপর্বে খেলার আগে সাকিববিহীন তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে টাইগাররা। কেবল ওমানের এ-দলের বিপক্ষে জয়ের দেখা পেয়েছে লাল সবুজ জার্সিধারীরা। বাকি দুই ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে হারকে সঙ্গী করে মাঠ ছাড়তে হয়েছে ডমিঙ্গোর শিষ্যদের।

সাকিবসহ পূর্ণ শক্তির দল নিয়ে বিশ্বকাপের মঞ্চে নামছে বাংলাদেশ।

১৭ অক্টোবর স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে বাংলাদেশের বাছাইপর্বের খেলা। এরপর ১৯ ও ২১ অক্টোবর বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ হিসেবে থাকছে ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি।

আরও পড়ুন:
চট্টগ্রামে হচ্ছে উন্নতমানের ক্রিকেট অ্যাকাডেমি
ঢাকার বাইরের ক্রিকেটে নজর দুর্জয়ের
বৃষ্টিতে ভেসে গেল তামিমদের প্রথম ম্যাচ
এনসিএল দিয়ে টেস্ট মৌসুমের প্রস্তুতি শুরু করতে চায় বিসিবি
পাঁচ ওয়ানডে খেলতে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে যুবদল

শেয়ার করুন

কোহলিদের দায়িত্ব নিচ্ছেন কিংবদন্তি দ্রাবিড়

কোহলিদের দায়িত্ব নিচ্ছেন কিংবদন্তি দ্রাবিড়

ভারতের সাবেক অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড়। ছবি: এএফপি

ভারতের একাধিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, শুক্রবার রাতে আইপিএলের ফাইনালের পর এ বিষয়ে ভারত ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি ও সচিব জয় জয় শাহর সঙ্গে বৈঠক হয়েছে রাহুল দ্রাবিড়ের। বৈঠকে প্রধান কোচের দায়িত্ব নিতে রাজী হয়েছেন তিনি।

ভিরাট কোহলিদের দায়িত্ব নিতে চলেছেন ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার রাহুল দ্রাবিড়।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর থেকে সিনিয়র পুরুষ ক্রিকেট দলের প্রধান কোচের ভার দেয়া হচ্ছে ভারতের সাবেক অধিনায়কের হাতে।

ভারতের একাধিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, শুক্রবার রাতে আইপিএলের ফাইনালের পর এ বিষয়ে ভারত ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি ও সচিব জয় জয় শাহর সঙ্গে বৈঠক হয়েছে রাহুল দ্রাবিড়ের। বৈঠকে প্রধান কোচের দায়িত্ব নিতে রাজী হয়েছেন তিনি।

বিসিসিআই সূত্রে বলা হয়েছে ‘দ্রাবিড় ভারতীয় জাতীয় পুরুষ সিনিয়র দলের কোচ হওয়ার বিষয়ে সম্মতি দিয়েছেন। তিনি কয়েকদিন পরেই জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির প্রধান পদ থেকে ইস্তফা দেবেন।’

গত কয়েক মাস থেকেই প্রধান কোচের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়ার কথা বলে আসছেন রবি শাস্ত্রী। বিশ্বকাপের পরপরেই দায়িত্ব হস্তান্তর করবেন তিনি। তার জায়গায় স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন রাহুল দ্রাবিড়।

তার বেতন ধরা হচ্ছে প্রায় ১১ কোটি টাকা। দ্রাবিড়ের পাশাপাশি ভারতের সাবেক সিম বোলার বোলার পারাস মামব্রেকে বোলিং কোচের দায়িত্বে চূড়ান্ত করা হয়েছে।

ফিল্ডিং কোচ আর শ্রিধরের পরিবর্তে বিসিসিআই এখনও কাউকে চূড়ান্ত করেনি। দলের ব্যাটিং কোচ হিসেবে কাজ চালিয়ে যাবেন ভিক্রম রাঠোর।

বিদেশি কোচ নির্ভরতা ছেড়ে ভারত এখন জাতীয় দলে দেশি কোচদের নিয়োগে বেশি ঝুঁকছে।

আরও পড়ুন:
চট্টগ্রামে হচ্ছে উন্নতমানের ক্রিকেট অ্যাকাডেমি
ঢাকার বাইরের ক্রিকেটে নজর দুর্জয়ের
বৃষ্টিতে ভেসে গেল তামিমদের প্রথম ম্যাচ
এনসিএল দিয়ে টেস্ট মৌসুমের প্রস্তুতি শুরু করতে চায় বিসিবি
পাঁচ ওয়ানডে খেলতে শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে যুবদল

শেয়ার করুন