বিশ্বকাপের পর টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক থাকছেন না কোহলি

বিশ্বকাপের পর টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক থাকছেন না কোহলি

ভারতের অধিনায়ক ভিরাট কোহলি। ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ব্যস্ত সূচির প্রেক্ষিতে ও টেস্ট ও ওয়ানডে দলের অধিনায়ক হিসেবে আরও বেশি সময় দিতে ও সম্পৃক্ত হতে চান তিনি। 

যেমন জল্পনা-কল্পনা চলছিল তেমনটা সত্যি হলো। ভারতীয় টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডের অধিনায়কত্ব থেকে নিজেকে সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দিলেন ভিরাট কোহলি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর দলের অধিনায়ক আর থাকছেন না বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান।

বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় এক টুইটার বার্তায় নিজের এই সিদ্ধান্ত জানান কোহলি। কোহলি জানান দলের সিনিয়র সদস্য রোহিত শর্মা ও কোচ রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে নিজের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

তিনি লেখেন, ‘সিদ্ধান্তটা নিতে সময় লেগেছে। রোহিত ও রবি ভাইয়ের মতো নেতৃস্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে দুবাইয়েরটি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়াব।’

কারণ হিসেবে কোহলি তুলে ধরেছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ব্যস্ত সূচির প্রেক্ষিতে ও টেস্ট ও ওয়ানডে দলের অধিনায়ক হিসেবে আরও বেশি সময় দিতে ও সম্পৃক্ত হতে চান তিনি।

তিনি লেখেন, ‘আমার মনে হয়েছে ভারতীয় দলকে ওয়ানডে ও টেস্টে অধিনায়কত্ব করার জন্য আরও বেশি সময় প্রয়োজন। অধিনায়ক হিসেবে আমি টি-টোয়েন্টি দলকে সবকিছু উজাড় করে দিয়েছি। ব্যাটসম্যান হিসেবেও তাই করতে চাই।’

গত সোমবার টাইমস অফ ইন্ডিয়া এক প্রতিবেদনে জানায় যে অধিনায়কত্ব ছাড়ার বিষয়ে বিসিসিআইয়ের সঙ্গে আলোচনা সেরেছেন কোহলি।

২০১৪ সালে মহেন্দ্র ধোনির কাছ থেকে টেস্ট অধিনায়কত্ব পান কোহলি। আর ২০১৭ সাল থেকে ভারতকে তিন ফরম্যাটে নেতৃত্ব দিচ্ছেন নভেম্বরে ৩৩ পূর্ণ করতে যাওয়া এই ব্যাটসম্যান।

তার অধীনে ভারত ২০১৭ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ও ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের ট্রফি জিততে ব্যর্থ হয় ভারত।

আরও পড়ুন:
ভারতকে দোষারোপ করায় ক্ষেপেছেন শাস্ত্রী
অধিনায়কত্ব ছাড়তে চান কোহলি
টেন্ডুলকার-ধোনিকে টপকে গেলেন কোহলি

শেয়ার করুন

মন্তব্য

জিম্বাবুয়েতে দর্শক পাচ্ছেন সালমা খাতুনরা

জিম্বাবুয়েতে দর্শক পাচ্ছেন সালমা খাতুনরা

অনুশীলনে বাংলাদেশ নারী দলের ক্রিকেটাররা। ছবি: বিসিবি

বোর্ডের দেয়া তথ্য মতে এক হাজার টিকা গ্রহীতাকে দেয়া হবে মাঠে বসে ম্যাচ দেখার সুযোগ। শুক্রবার এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ড।

চলতি বছরের নভেম্বর শুরু হচ্ছে নারী বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব। বাছাইপর্বে পরীক্ষা দেয়ার আগে জিম্বাবুয়ে সফরে যাচ্ছেন জাতীয় দলের নারী ক্রিকেটাররা। নভেম্বরের শুরুতে জিম্বাবুয়ে যাবেন রুমানা-সালমারা।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটাররা। আর এই সিরিজের মধ্য দিয়ে মাঠে দর্শক ফেরাতে যাচ্ছে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ড (জেডসি)। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে করোনাভাইরাসের কারণে মাঠে দর্শক প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল জিম্বাবুয়ে সরকার।

বোর্ডের দেয়া তথ্য মতে এক হাজার টিকা গ্রহীতাকে দেয়া হবে মাঠে বসে ম্যাচ দেখার সুযোগ। শুক্রবার এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ড।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘এক হাজার ক্রিকেটভক্ত, যারা কিনা পুরোপুরি কোভিডরোধী টিকা নেয়া, তাদের প্রতিটি ম্যাচ মাঠে বসে দেখার সুযোগ দেয়া হবে। তবে সে জন্য প্রমাণস্বরূপ মাঠে প্রবেশের সময় তাদের ভ্যাকসিন সনদ দেখাতে হবে।’

বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের আগে প্রস্তুতি হিসেবে খেলা হবে সিরিজটি। জিম্বাবুয়ের হারারেতে নভেম্বরের ২১ তারিখ থেকে শুরু হবে বাছাইপর্বের ম্যাচগুলো।

বাছাইপর্বে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, পাপুয়া নিউ গিনি, থাইল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, জিম্বাবুয়ে ও আমেরিকা।

২১ নভেম্বর থেকে শুরু হবে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব। ৫ ডিসেম্বরে হবে এই পর্বের শেষ খেলা। আর নিউজিল্যান্ডে ২০২২ সালের ৪ মার্চ থেকে শুরু হবে বিশ্বকাপ। চলবে ৩ এপ্রিল পর্যন্ত।

গত বছর মার্চে সবশেষ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছেন জাতীয় দলের নারী ক্রিকেটাররা। এরপর করোনার কারণে লম্বা সময় ধরে নেই তাদের কোনো খেলা।

করোনার সময়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) পুরুষদের ক্রিকেট ফিরলেও প্রায় দেড় বছর ধরে বন্ধ রয়েছে নারী ক্রিকেটের সফর। মাঝে ইমার্জিং দলের হয়ে সাউথ আফ্রিকা এমার্জিং দলের বিপক্ষে খেলেন রুমানা-জ্যোতিরা। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা হয়নি।

আরও পড়ুন:
ভারতকে দোষারোপ করায় ক্ষেপেছেন শাস্ত্রী
অধিনায়কত্ব ছাড়তে চান কোহলি
টেন্ডুলকার-ধোনিকে টপকে গেলেন কোহলি

শেয়ার করুন

সুপার টুয়েলভ খেলতে দুবাইয়ে সাকিব-মুশফিকরা

সুপার টুয়েলভ খেলতে দুবাইয়ে সাকিব-মুশফিকরা

বিমানবন্দরে টিম টাইগার্স। ফাইল ছবি

সুপার টুয়েলভের ম্যাচগুলো খেলতে শুক্রবার দুবাই পৌঁছেছেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ছয়টায় দুবাই পৌঁছেছে দল।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব শেষ হয়েছে বাংলাদেশের গত বৃহস্পতিবার। বাছাইপর্ব উৎরে যাওয়ায় এবারে টাইগারদের লক্ষ্য সুপার টুয়েলভ।

সুপার টুয়েলভের ম্যাচগুলো খেলতে শুক্রবার দুবাই পৌঁছেছেন সাকিব-রিয়াদরা। বাংলাদেশ সময় শুক্রবার সন্ধ্যা ছয়টায় দুবাই পৌঁছেছে দল।

সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশের ঠাঁই হয়েছে এ-গ্রুপে। যেখানে বাংলাদেশকে লড়তে হবে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, সাউথ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে।

পাশাপাশি বাছাইপর্বের এ-গ্রুপ থেকে সম্ভাব্য গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কাও থাকবে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ হিসেবে।

বাছাইপর্বে স্কটল্যান্ড তিন ম্যাচ জিতে নেয়ার গ্রুপ রানার্স আপ হয়েই বিশ্বকাপের মূল পর্বে যাচ্ছে বাংলাদেশ। আগামী ২৪ অক্টোবর শ্রীলঙ্কার (সম্ভাব্য) বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে টাইগারদের মূল পর্বের লড়াই।

টাইগারদের সুপার টুয়েলভের সূচি:

২৪ অক্টোবর বিকেল ৪টা- বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা (যদি শ্রীলঙ্কা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়)

২৭ অক্টোবর বিকেল ৪টা- বাংলাদেশ বনাম ইংল্যান্ড

২৯ অক্টোবর বিকেল ৪টা- বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ

২ নভেম্বর বিকেল ৪টা- বাংলাদেশ বনাম সাউথ আফ্রিকা

৪ নভেম্বর বিকেল ৪টা- বাংলাদেশ বনাম অস্ট্রেলিয়া

আরও পড়ুন:
ভারতকে দোষারোপ করায় ক্ষেপেছেন শাস্ত্রী
অধিনায়কত্ব ছাড়তে চান কোহলি
টেন্ডুলকার-ধোনিকে টপকে গেলেন কোহলি

শেয়ার করুন

খুদে ক্রিকেটার সাদিদের দায়িত্ব নিলেন ব‌রিশালের ডিসি

খুদে ক্রিকেটার সাদিদের দায়িত্ব নিলেন ব‌রিশালের ডিসি

ব‌রিশাল জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আসাদুজ্জামান সাদিদ। ছবি: নিউজবাংলা

সাদিদ ও তার পরিবারের স্বপ্ন জাতীয় দলের হয়ে ক্রিকেট খেলা। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের মতো ক্রিকেটার হতে চায় সে। তার এই স্বপ্ন পূরণের দায়িত্ব নিয়েছে বরিশাল জেলা প্রশাসন।

সম্প্রতি খুদে ক্রিকেটার আসাদুজ্জামান সাদিদের বোলিংয়ের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। সেই ভিডিও দৃষ্টি কেড়েছে শচীন টেন্ডুলকার ও শেন ওয়ার্নের মতো কিংবদন্তিদের।

ভাইরাল হওয়া সাদিদ বরিশালের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের মহাবাজ এলাকার উলালঘুনি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্র।

তার ও তার পরিবারের স্বপ্ন জাতীয় দলের হয়ে ক্রিকেট খেলা। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের মতো ক্রিকেটার হতে চায় সাদিদ। তার এই স্বপ্ন পূরণের দায়িত্ব নিয়েছে বরিশাল জেলা প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার রাতে সাদিদকে তার মামা সিরাজুল ইসলাম শুভসহ নিজ কার্যালয়ে আমন্ত্রণ জানান বরিশালের জেলা প্রশাসক (ডিসি) জসীম উদ্দীন হায়দার। জেলা প্রশাসক সাদিদের সার্বিক দায়িত্ব গ্রহণের সিদ্ধান্ত জানান।

তিনি বলেন, ‘সাদিদ বরিশালের গর্ব। এত কম বয়সে, বিস্ময় বালক হয়ে নিজের প্রতিভা প্রকাশ করেছে। যার পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়দের মন কেড়েছে সে। আমাদের উচিত ওর দেখভাল করা, যাতে করে ওর হাতের জাদু হা‌রিয়ে না যায়। সাদিদের খেলার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আমরা সাদিদের প্রতিভা ধরে রাখতে ওর পাশে থাকব।’

সাদিদের সঙ্গে এ সময় তার মামা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিসিবির পরিচালক আলমগীর খান আলো।

ছয় বছরের সাদিদের বাবা নেই। মা গৃহিণী। সাদিদ নানাবাড়ি থাকে। মামা সিরাজুল ইসলাম সাদিদের ক্রিকেটের প্রতি আগ্রহ দেখে তাকে নিয়ে প্রতিদিন অনুশীলনে যান।

ভাগ্নের বোলিংয়ের ভিডিও তেমন কিছু না ভেবেই ফেসবুকে আপলোড দিয়ে দেন।

ভিডিওতে ছোট্ট এই শিশুকে দেখা যায় লেগ স্পিন দিয়ে ব্যাটারদের পরাস্ত করতে। মুগ্ধ হয়ে শচীন টেন্ডুলকার সাদিদের ভিডিও পোস্ট করেন। সেখানে কমেন্ট করে বিশ্বসেরা লেগ স্পিনার রাশিদ খানও তার প্রশংসা করেন।

সর্বকালের সেরা লেগস্পিনার হিসেবে খ্যাত শেন ওয়ার্নও নিজের টুইটারে ভিডিওটি পোস্ট করেন।

আরও পড়ুন:
ভারতকে দোষারোপ করায় ক্ষেপেছেন শাস্ত্রী
অধিনায়কত্ব ছাড়তে চান কোহলি
টেন্ডুলকার-ধোনিকে টপকে গেলেন কোহলি

শেয়ার করুন

শিরোপার জন্যে ইনজির ফেভারিট ভারত

শিরোপার জন্যে ইনজির ফেভারিট ভারত

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে ভারতীয় ক্রিকেট দল। ছবি: এএফপি

বিশ্বকাপের আগে দুই প্রস্তুতি ম্যাচে দাপট দেখিয়ে জয় পেয়েছে ভারত। এই জয় ভারতকে বাড়তি আত্মবিশ্বাস দেবে বলে মনে করেন ইনজামাম।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শিরোপা দৌড়ে ভারতকে এগিয়ে রাখছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ইনজামাম উল হক। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে বিশ্বকাপ নিয়ে কথা বলতে গিয়ে এমন মন্তব্য করেন পাকিস্তানের এ কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান।

২০০৭ সালে সাউথ আফ্রিকার মাটিতে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয় ভারত। এরপর ২০১৪ সালে বাংলাদেশের মাটিতে হওয়া আসরের ফাইনালে খেলে ধোনির দল। কিন্তু ফাইনালে শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে যায়।

২০১৬ সালে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আসর আয়োজন করেও ফাইনালে উঠতে পারেনি তারা। সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিতে হয় ভারতকে।

২০১৩ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জয়ের পর গত আট বছরে আইসিসির কোনো শিরোপা জিততে পারেনি কাগজে-কলমে সাদা বলের বিশ্বসেরা দল ভারত।

তবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ইনজামাম মনে করেন, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর জয়ের বড় সুযোগ আছে ভারতের।

ইনজি বলেন, ‘টুর্নামেন্ট কে জিতবে তা আগে থেকে বলা সম্ভব নয়। তবে জেতার কতটা সুযোগ রয়েছে তা বলা যেতে পারে। আমার মতে, জেতার সুযোগ সবচেয়ে বেশি রয়েছে ভারতের। তাদের দলে অভিজ্ঞ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার রয়েছে, যারা যেকোনো সময় ম্যাচ পাল্টে দিতে পারে।’

বিশ্বকাপের আগে দুই প্রস্তুতি ম্যাচে দাপট দেখিয়ে জয় পেয়েছে ভারত। এই জয় ভারতকে বাড়তি আত্মবিশ্বাস দেবে বলে মনে করেন ইনজামাম।

তিনি বলেন, ‘ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুটি অনুশীলন ম্যাচ খুব সহজে জিতেছে ভারত। উপমহাদেশের মতো কন্ডিশনে ভারত ভয়ংকর টি-টোয়েন্টি দল।’

২৪ অক্টোবর বিশ্বকাপের ম্যাচে লড়বে ভারত ও পাকিস্তান। ম্যাচটি নিয়ে দুই দলের সমর্থকদের উত্তেজনা তুঙ্গে।

ম্যাচটিকে ফাইনালের আগে ফাইনাল উল্লেখ করে ইনজি বলেন, ‘কোনও ম্যাচ নিয়ে এত আলোচনা হয় না, যেমনটা হয় ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে। ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে প্রথম ও শেষ ম্যাচ ছিল ভারত-পাকিস্তানের। দুটি ম্যাচই ফাইনালের মতো ছিল। যে দল মানসিকভাবে এগিয়ে থাকবে, সেই দলই জিতবে। টুর্নামেন্টের পরের ম্যাচগুলোতে নির্ভার হয়ে খেলবে।’

আরও পড়ুন:
ভারতকে দোষারোপ করায় ক্ষেপেছেন শাস্ত্রী
অধিনায়কত্ব ছাড়তে চান কোহলি
টেন্ডুলকার-ধোনিকে টপকে গেলেন কোহলি

শেয়ার করুন

দল চাইলে সরে যাবেন মরগান

দল চাইলে সরে যাবেন মরগান

আউট হয়ে ফিরছেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ওইন মরগান। ছবি: এএফপি

সবশেষ সাতটি টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের হয়ে ৮২ রান করেছেন মরগান। আইপিএলেও হাসেনি মরগানের ব্যাট। কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে ১৬ ইনিংসে ১১.০৮ গড়ে ও ৯৫.৬৮ স্ট্রাইক রেটে ১৩৩ রান করেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ব্যাট হাতে ফর্মে না থাকায় দলের অধিনায়ক ওইন মরগানকে নিয়ে চিন্তায় ইংল্যান্ড। লম্বা সময় ধরে ব্যাটে রান নেই মরগানের। দলের প্রয়োজনে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণাও দিলেন মরগান।

তিনি জানালেন, দলের প্রয়োজনে নিজেকে প্রত্যাহার করে নিতে তিনি প্রস্তুত। বিশ্বকাপ জয়ের পথে দলের বোঝা হতে চান না।

সবশেষ সাতটি টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের হয়ে ৮২ রান করেছেন মরগান। আইপিএলেও হাসেনি মরগানের ব্যাট। কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে ১৬ ইনিংসে ১১.০৮ গড়ে ও ৯৫.৬৮ স্ট্রাইক রেটে ১৩৩ রান করেন তিনি।

অধিনায়কের এমন ফর্ম ভাবিয়ে তুলেছে ইংল্যান্ডের টিম ম্যানেজমেন্টকে। সেটি বুঝতে পারছেন মরগান নিজেও। এক ভার্চুয়াল সাংবাদিক সম্মেলনে প্রয়োজনে নিজেকে দল থেকে সরিয়ে নেয়ার ইঙ্গিত দেন তিনি।

মরগান বলেন, ‘বিকল্প পরিকল্পনা সব সময় তৈরি থাকে। বিশ্বকাপ জয়ে আমি কখনও দলের অন্তরায় হয়ে দাঁড়াব না। এ মুহূর্তে আমি ছন্দে নেই। রান না পেলেও অধিনায়কত্ব ভালো করছি বলে মনে করি।’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে খেলেননি মরগান। ওই ম্যাচে সাত উইকেটে হারে ইংল্যান্ড। দ্বিতীয় ও শেষ প্রস্তুতিমূলক ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলেন মরগান। ১০ রানের বেশি করতে পারেননি তিনি।

মরগান বলেন, ‘ব্যাটিং নিয়ে এর আগেও সমস্যায় পড়েছি। তা থেকে উদ্ধারও পেয়েছি। এ কারণে আমি আজ এখানে। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ধাঁচ, আর যেখানে আমি ব্যাট করি, সেখানে আমাকে সব সময় ঝুঁকি নিয়ে খেলতে হবে। দল যদি নির্দেশ দেয় ঝুঁকি নেয়ার, তা হলে আমি সেটাই করব। দল না চাইলে করব না।’

রানের মধ্যে না থাকলেও নিজের নেতৃত্বে কোনো সমস্যা দেখছেন না আয়ারল্যান্ডের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হওয়া এ ক্রিকেটার।

তিনি বলেন, ‘আমি সব সময় রান করা ও অধিনায়কত্ব এই দুই বিষয়কে আলাদাভাবে দেখেছি। আমি বোলার নই। বয়সও বাড়ছে। যে কারণে ফিল্ডিংয়ে হয়তো তেমন অবদান রাখতে পারি না। তবে অধিনায়কের ভূমিকা পালন করতে পছন্দ করি।’

২০১৬ সালে সবশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মরগানের নেতৃত্বে ফাইনাল খেলে ইংল্যান্ড। উইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ ওভারে ম্যাচটি হারতে হয় ইংলিশদের। সেই যন্ত্রণা তিন বছর পর মুছে ফেলেন ৩৫ বছর বয়সী মরগান। তার অধিনায়কত্বে ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপ শিরোপার স্বাদ পায় ইংল্যান্ড।

শনিবার রাত ৮টায় দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু হচ্ছে ইংল্যান্ডের।

আরও পড়ুন:
ভারতকে দোষারোপ করায় ক্ষেপেছেন শাস্ত্রী
অধিনায়কত্ব ছাড়তে চান কোহলি
টেন্ডুলকার-ধোনিকে টপকে গেলেন কোহলি

শেয়ার করুন

বিশ্বকাপের মূল পর্বে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ যারা

বিশ্বকাপের মূল পর্বে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ যারা

বাংলাদেশ জাতীয় দল। ছবি: আইসিসি

মূল পর্বে বাংলাদেশ তাদের প্রতিপক্ষ হিসেবে পাচ্ছে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, সাউথ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। পাশাপাশি বাছাইপর্বের এ-গ্রুপ থেকে সম্ভাব্য গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কাও থাকবে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ হিসেবে।

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে আট উইকেটের পরাজয়ের ফলে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে স্বাগতিক ওমান। বিদায় নেয়ার সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশকে তারা ঠেলে দিয়েছে মূল পর্বের শক্তিশালী গ্রুপ-এতে।

মূল পর্বে বাংলাদেশ তাদের প্রতিপক্ষ হিসেবে পাচ্ছে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, সাউথ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজকে।

পাশাপাশি বাছাইপর্বের এ-গ্রুপ থেকে সম্ভাব্য গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কাও থাকবে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ হিসেবে। সব মিলিয়ে এখন প্রায় নিশ্চিত করা যাচ্ছে বাংলাদেশের মূল পর্বের সূচি।

যদি শ্রীলঙ্কা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত করে তাহলে মূল পর্বের প্রথম ম্যাচ তারা খেলবে বাংলাদেশের বিপক্ষে।

টাইগারদের সুপার টুয়েলভের সূচি:

২৪ অক্টোবর বিকেল ৪টা- বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা

২৭ অক্টোবর বিকেল ৪টা- বাংলাদেশ বনাম ইংল্যান্ড

২৯ অক্টোবর বিকেল ৪টা- বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ

২ নভেম্বর বিকেল ৪টা- বাংলাদেশ বনাম সাউথ আফ্রিকা

৪ নভেম্বর বিকেল ৪টা- বাংলাদেশ বনাম অস্ট্রেলিয়া

আরও পড়ুন:
ভারতকে দোষারোপ করায় ক্ষেপেছেন শাস্ত্রী
অধিনায়কত্ব ছাড়তে চান কোহলি
টেন্ডুলকার-ধোনিকে টপকে গেলেন কোহলি

শেয়ার করুন

১০ সেকেন্ড বিজ্ঞাপনের মূল্য ৩৪ লাখ টাকা!

১০ সেকেন্ড বিজ্ঞাপনের মূল্য ৩৪ লাখ টাকা!

ফাইল ছবি

ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচটি অনলাইনে সম্প্রচার স্বত্ব কিনে নিয়েছে ভারতীয় একটি প্ল্যাটফর্ম। আর সেখানে প্রতি ১০ সেকেন্ড বিজ্ঞাপনের জন্য দর হাঁকা হয়েছে ২৫ থেকে ৩০ লাখ রুপি। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ প্রায় ৩৪ লাখ টাকা।

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তানের মাঠের লড়াইয়ের সময় পুরো ক্রিকেট বিশ্ব থাকে উত্তপ্ত। আর সেটি যদি হয় বিশ্বকাপের মতো ইভেন্টে, তাহলে তো কথাই নেই।

ভক্তদের ভেতর উন্মাদনার পাশাপাশি ভারত বনাম পাকিস্তানের ম্যাচকে ঘিরে উত্তপ্ত থাকে সম্প্রচার সংস্থাগুলোও। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের চতুর্থ ম্যাচে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এই দুই দল।

আর সেই ম্যাচকে কেন্দ্র করে অনলাইনে সম্প্রচার ও ম্যাচ চলাকালীন বিজ্ঞাপনের জন্য বিরাট অঙ্ক চাইছে সম্প্রচার সংস্থা।

ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচটি অনলাইনে সম্প্রচার স্বত্ব কিনে নিয়েছে ভারতীয় একটি প্ল্যাটফর্ম। আর সেখানে প্রতি ১০ সেকেন্ড বিজ্ঞাপনের জন্য দর হাঁকা হয়েছে ২৫ থেকে ৩০ লাখ রুপি। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ প্রায় ৩৪ লাখ টাকা।

পাঁচ বছর পর শর্টার ফরম্যাটের ক্রিকেট বিশ্বকাপে দর্শক দেখতে যাচ্ছে হাইভোল্টেজ এই ম্যাচ। সে কারণে হয়তো এত উত্তেজনা দুই দেশের ভক্তদের ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের দেয়া তথ্য মতে, ইতিমধ্যে এই হাইভোল্টেজ ম্যাচকে কেন্দ্র করে প্রায় ৯০০ কোটি রুপি লাভ করেছেন ভারতীয় সম্প্রচারকরা।

আরও পড়ুন:
ভারতকে দোষারোপ করায় ক্ষেপেছেন শাস্ত্রী
অধিনায়কত্ব ছাড়তে চান কোহলি
টেন্ডুলকার-ধোনিকে টপকে গেলেন কোহলি

শেয়ার করুন