20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
আবারও জকোভিচ-নাদাল ফাইনাল

আবারও জকোভিচ-নাদাল ফাইনাল

জকোভিচ সেমিফাইনালে ৩-২ সেটে হারিয়েছেন গ্রিসের স্টেফানোস সিসিপাসকে। নাদাল সরাসরি সেটে জয় পেয়েছেন আর্জেন্টিনার দিয়েগো শোয়ার্টজম্যানের বিপক্ষে। রোববার ফাইনালে ক্যারিয়ারের ৫৬তম বারের মত মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন এই দুই বন্ধু। পেশাদার টেনিসে অন্য কোনো দুই খেলোয়াড় এতবার মুখোমুখি হননি।

ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছেন টুর্নামেন্টের দুই শীর্ষ বাছাই নোভাক জকোভিচ ও রাফায়েল নাদাল। এই নিয়ে নয়টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের ফাইনাল খেলবেন এই দুই অল টাইম গ্রেট। জকোভিচ সেমিফাইনালে ৩-২ সেটে হারিয়েছেন গ্রিসের স্টেফানোস সিসিপাসকে। নাদাল সরাসরি সেটে জয় পেয়েছেন আর্জেন্টিনার দিয়েগো শোয়ার্টজম্যানের বিপক্ষে।

১৭টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতা জকোভিচ দারুণ শুরু করেন পঞ্চম বাছাই সিসিপাসের বিপক্ষে। প্রথম দুই সেট ৬-৩, ৬-২ গেমে জিতে এগিয়ে যান এই সার্বিয়ান। এরপরই ম্যাচে কামব্যাক করেন সিসিপাস।

টাইব্রেকে তৃতীয় সেট জিতে নেন ৭-৫ গেমে। চার নম্বর সেটেও ছিল এই ২২ বছর বয়সী তরুণের প্রাধান্য। ৬-৪ গেমে সেট জিতে ম্যাচ নিয়ে যান পঞ্চম সেটে।
ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালে জকোভিচ

প্রায় চার ঘন্টা লড়াইয়ের পর শেষ সেটে অভিজ্ঞ জকোভিচের বিপক্ষে ক্লান্ত হয়ে পড়েন সিসিপাস। ওয়ার্ল্ড নাম্বার ওয়ান প্রতিপক্ষকে কোন সুযোগ না দিয়ে ৬-১ গেমে সেট জিতে নিশ্চিত করেন ফাইনাল।

আরেক সেমিতে, নাদাল দিয়েগো শোয়ার্টজম্যানকে হারিয়েছেন ৬-৩, ৬-৩, ৭-৬ গেমে। টুর্নামেন্টের ১২ বারের চ্যাম্পিয়ন নাদালের বিপক্ষে প্রথম দুই সেটে দাঁড়াতেই পারেননি ১৪তম বাছাই শোয়ার্টজম্যান।

তৃতীয় সেটে ক্লে-কোর্ট কিংবদন্তির বিপক্ষে লড়াইয়ের চেষ্টা করেন এই আর্জেন্টিনিয়ান। সেট নিয়ে যান টাইব্রেকে। তবে, ৭-০ তে টাইব্রেক জিতে নিজের ১৫তম ফ্রেঞ্চ ওপেন ফাইনালে পৌছান দ্বিতীয় বাছাই নাদাল।

রোববার ফাইনালে ক্যারিয়ারের ৫৬তম বারের মত মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন এই দুই বন্ধু। পেশাদার টেনিসে অন্য কোনো দুই খেলোয়াড় এতবার মুখোমুখি হননি।

ফাইনালে জকোভিচকে মোকাবিলা করা নিয়ে নাদাল বলেন, 'নোভাকের বিপক্ষে খেলতে হলে একটা বিষয়ই জানি আমি, সেটা হচ্ছে আমাকে সেরাটা দিয়েই খেলতে হবে। নিজের সেরা টেনিস খেলতে না পারলে পরিস্থিতি আমার জন্য খারাপ হয়ে যেতে পারে।'

জকোভিচও প্রস্তুত চেনা প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ফাইনাল খেলতে। তিন ঘন্টা ৫৪ মিনিটের সেমিফাইনালের পরও ক্লান্ত নন তিনি এমনটাই দাবী করেছেন জকোভিচ, 'আমি শারীরিক ভাবে ক্লান্ত নই। দারুণ একটা লড়াই ছিল কিন্তু আমি ঠিক আছি। আমার মনে হয় দেড় দিনের রিকভারি যথেষ্ট হবে। রাফার বিপক্ষে আরও একটা চমৎকার ম্যাচের অপেক্ষায় আছি।'

শেয়ার করুন

মন্তব্য