ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট অ্যাকসেপ্ট না করায় বসকে হত্যার হুমকি

ফেসবুকে অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা ছবিতে ক্যালেব বারকজিক।

ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট অ্যাকসেপ্ট না করায় বসকে হত্যার হুমকি

পুলিশ জানিয়েছে, ২৪ ডিসেম্বরে প্রাক্তন বসকে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পাঠান বারকজিক। দুই দিন পার হলেও বস ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট অ্যাকসেপ্ট করেননি। এরপরই বারজিক তাকে মেসেজ করেন, ‘আমার ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট অ্যাকসেপ্ট করো। নাহলে আমি তোমাকে খুন করব।’

প্রাক্তন বসকে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পাঠিয়েছিলেন ফেসবুকে। সেটি অ্যাকসেপ্ট করেননি তিনি। এতেই রেগেই যান ২৯ বছর বয়সী ক্যালেব বারকজিক। মেসেজে হত্যার হুমকি দিয়ে হাজির হন বসের বাড়িতে। সেখানে দরজায় লাথি মারার ভিডিও রেকর্ড হয়েছে ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরায়। এরপরই তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ডাকোটা অঙ্গরাজ্যের উইলিস্টন শহরে।

পুলিশ জানিয়েছে, ২৪ ডিসেম্বরে প্রাক্তন বসকে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পাঠান বারকজিক। দুই দিন পার হলেও বস ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট অ্যাকসেপ্ট করেননি। এরপরই বারজিক তাকে মেসেজ করেন, ‘আমার ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট অ্যাকসেপ্ট করো। নাহলে আমি তোমাকে খুন করব।’

২৬ ডিসেম্বর নিজের স্ন্যাপচ্যাট অ্যাকাউন্টে দুটি ছবি পোস্ট করেন বারকজিক। একটি পিকআপ ট্রাকের ছবি আপলোড করে বসের উদ্দেশে লেখেন, আমি তোমাকে খুঁজতে আসলে কিন্তু বিপদ হবে!

এর কিছুক্ষণ পরেই নিজের আরেকটি ছবি পোস্ট করে বারকজিক লেখেন, বসের পরিবারের একটি নতুন দরজার প্রয়োজন পড়বে।

বসের বাড়ির সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, দরজায় লাথি মারছেন এক ব্যক্তি। ওই ব্যক্তির পোষাক স্ন্যাপচ্যাটে বারকজিকের পোস্ট করার ছবির পোষাকের সঙ্গে মিলে গেছে।

প্রাথমিক শুনানির জন্য ২৭ জানুয়ারি বারকজিককে আদালতে হাজির করবে পুলিশ।

তবে পুলিশ তার প্রাক্তন বসের নাম গণমাধ্যমে প্রকাশ করেনি।

আরও পড়ুন:
‘দেশি ফেসবুক’ বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা
বাংলাদেশের হ্যাকারদের বিরুদ্ধে ফেসবুকের ব্যবস্থা
একচেটিয়া আধিপত্যের অভিযোগে ফেসবুকের বিরুদ্ধে মামলা
'দেশি ফেসবুকের' বিরুদ্ধে মামলা ঠুকল ফেসবুক
ফেসবুকের কাছে সরকার ৩৭১ অ্যাকাউন্টের তথ্য চেয়েছে

শেয়ার করুন

মন্তব্য