× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
More than 5 billion people use Facebook on social media
google_news print-icon

সোশ্যাল মিডিয়ায় ৫০০ কোটি মানুষ, বেশি ব্যবহার ফেসবুকের

সোশ্যাল-মিডিয়ায়-৫০০-কোটি-মানুষ-বেশি-ব্যবহার-ফেসবুকের-
গত বছর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৫.৬ শতাংশ বৃদ্ধি পায় যা বিশ্বের জনসংখ্যার ০.৯ শতাংশ বৃদ্ধিকে ছাড়িয়ে গেছে।

বিশ্বে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সক্রিয়ভাবে ব্যবহারকারীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ৫০০ কোটি ছাড়িয়ে গেছে। এ সংখ্যা বিশ্বের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৬২.৩ শতাংশ।

বুধবার প্রকাশিত এক জরিপ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। খবর এএফপির।

মিডিয়া পর্যবেক্ষণ সংস্থা মেল্টওয়াটার এবং সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থা উই আর সোশ্যালের প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বছর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৫.৬ শতাংশ বৃদ্ধি পায় যা বিশ্বের জনসংখ্যার ০.৯ শতাংশ বৃদ্ধিকে ছাড়িয়ে গেছে।

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মানুষকে সামাজিক নেটওয়ার্ক মেটার ফেসবুক ব্যবহার করে। এটি ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ২.১৯ বিলিয়ন। মেটার ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ১.৬৫ বিলিয়ন। ব্যবহারের দিকে এর পরের অবস্থানে থাকা সামাজিক মাধ্যম হচ্ছে টিকটক। বিশ্বের প্রায় ১.৫৬ বিলিয়ন মানুষ এ সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে।

প্রতিদেনে সতর্ক করে বলা হয়, স্বয়ংক্রিয় অ্যাকাউন্ট বা বিভিন্ন পরিচয় ব্যবহার করার কারণে এসব মিডিয়া ব্যবহার করা সুনির্দিষ্ট লোকের সংখ্যা পাওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে।

প্রতিবেদনটি ডিজিটাল কনসালটেন্সি কোম্পানি কেপিওস’র সংকলিত পরিসংখ্যানের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে। সূত্র: বাসস

আরও পড়ুন:
রেস্তোরাঁয় কিশোর-কিশোরীদের জরিমানার পর ভিডিও ফেসবুকে
অ্যাম্বুলেন্সে গাঁজা বহন, মন্ত্রী-মেয়রের নামে ফেসবুকে ক্ষোভ
ফেসবুকে নির্বাচনকেন্দ্রিক ‘নেতিবাচক’ কনটেন্ট চিহ্নিত করবে ইসি

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
Dictionary of Sign Language Education Launched by UNDP
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

‘ইশারায় ভাষা শিক্ষার অভিধান’ চালু ইউএনডিপির

‘ইশারায় ভাষা শিক্ষার অভিধান’ চালু ইউএনডিপির ওয়েবসাইটের স্ক্রিনশট
ই-অভিধান, ইশারার ভাষার একটি বিস্তৃত শব্দভান্ডার সরবরাহ করে, নিচের লিংকে সরাসরি প্রবেশ করা যেতে পারে- https://ishara.sonket.org/। এছাড়া গুগল প্লে স্টোর থেকেও এটি ডাউনলোড করা যাবে।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২৪ উপলক্ষে একটি উদ্ভাবনী ‘সাইন ল্যাংগুয়েজ ই-ডিকশনারি’ বা ‘ইশারার ভাষা শিক্ষার অভিধান’ চালু করেছে জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি)।

অভিধানটি ব্যক্তিদের ইশারার ভাষা শিখতে এবং শ্রবণ ও বাকপ্রতিবন্ধীদের সঙ্গে কার্যকরভাবে যোগাযোগ করতে সক্ষম করে তোলার লক্ষ্যে প্রস্তুত করা হয়েছে। খবর ইউএনবির

ই-অভিধান, ইশারার ভাষার একটি বিস্তৃত শব্দভান্ডার সরবরাহ করে, নিচের লিংকে সরাসরি প্রবেশ করা যেতে পারে-

https://ishara.sonket.org/। এছাড়া গুগল প্লে স্টোর থেকেও এটি ডাউনলোড করা যাবে।

এই উদ্যোগটি সমস্ত দিক থেকে বৈচিত্র্য, সমতা এবং প্রবেশযোগ্যতা তুলে ধরার জন্য ইউএনডিপির চলমান প্রতিশ্রুতিতে জোর দেয়।

ইশারার ভাষায় ই-ডিকশনারি উন্মোচনে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশে ইউএনডিপির আবাসিক প্রতিনিধি স্টেফান লিলার।

তিনি বলেন, শ্রবণ ও বাক প্রতিবন্ধীদের মধ্যে যোগাযোগ ও বোঝাপড়া বৃদ্ধির লক্ষ্যে ইউএনডিপি বাংলাদেশ একটি অসাধারণ ‘ইশারায় ভাষা শিক্ষার অভিধান’ উন্মোচন করেছে।

তিনি আরও বলেন, ‘এই উদ্ভাবনী উদ্যোগটি কেবল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের চেতনার সঙ্গেই সামঞ্জস্যপূর্ণ নয় বরং আমাদের কাজের সমস্ত ক্ষেত্রে বৈচিত্র্য, সমতা এবং প্রবেশযোগ্যতা প্রচারের জন্য আমাদের চলমান প্রচেষ্টাকেও প্রতিফলিত করে। ইশারায় ভাষা শিক্ষার অভিধান একটি শক্তিশালী হাতিয়ার যা সাধারণ ব্যক্তিদের আরও অন্তর্ভুক্তিমূলক এবং বোধগম্যতার সমাজ গঠনে শিখতে এবং অবদান রাখতে দেয়।

ইউএনডিপি ব্যক্তি, সম্প্রদায় এবং সংস্থাকে ইশারা ভাষা ই-অভিধান অন্বেষণ এবং ব্যবহার করতে, অন্তর্ভুক্তির সংস্কৃতি লালন করতে এবং যোগাযোগের বাধাগুলো ভেঙে ফেলতে উৎসাহিত করে।

মন্তব্য

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
Infinixs gaming smartphone Hot 40 Pro has hit the market

বাজারে এলো ইনফিনিক্সের গেমিং স্মার্টফোন হট ৪০ প্রো

বাজারে এলো ইনফিনিক্সের গেমিং স্মার্টফোন হট ৪০ প্রো ডিভাইসটির সামনে থাকা ৩২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা দিয়ে সুন্দর সেলফি তুলতে পারবেন তরুণরা। ছবি: ইনফিনিক্স
ফটোগ্রাফির জন্য ডিভাইসটিতে আছে ১০৮ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরা। এ হাই-রেজ্যুলুশন লেন্সের সঙ্গে আছে দুই মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো লেন্স। পাশাপাশি এতে আছে একটি এইচএমএস সেন্সর, যা সুন্দর ও স্পষ্ট ছবি তুলতে ব্যবহারকারীদের সাহায্য করবে।

স্মার্টফোন গেমারদের জন্য বাংলাদেশের বাজারে নতুন গেমিং ফোন ‘হট ৪০ প্রো’ নিয়ে এলো তরুণদের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড ইনফিনিক্স।

তরুণ গেমারদের সেরা গেমিং অভিজ্ঞতা দিতে শক্তিশালী ও উন্নত ফিচারে আনা হয়েছে ফোনটি। ডিভাইসটিতে উন্নত পারফরম্যান্স নিশ্চিত করতে জোর দেয়া হয়েছে খুঁটিনাটি প্রতিটি বিষয়ের ওপর।

হট ৪০ প্রো ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ৬ ন্যানোমিটারের মিডিয়াটেক হেলিও জি৯৯ আল্ট্রা-স্পিড প্রসেসের। ফলে কম শক্তি খরচেই পাওয়া যাবে কার্যকর পারফরম্যান্স। এ প্রসেসরকে আরও শক্তিশালী করেছে ইনফিনিক্সের তৈরি এক্স-বুস্ট গেমিং ইঞ্জিন। এ সমন্বয়টি তরুণদের গেমিং চাহিদা পূরণের পাশাপাশি নিশ্চিত করবে স্বাচ্ছন্দ্যময় অভিজ্ঞতা।

দিনব্যাপী নিরবচ্ছিন্ন পারফরম্যান্স নিশ্চিত করতে সাশ্রয়ী মূল্যের গেমিং ফোনটিতে আছে ৫০০০ এমএএইচের ব্যাটারি এবং ৩৩ ওয়াটের ফাস্ট চার্জার। এ চার্জার দিয়ে ৩৫ মিনিটেই ফোনটির চার্জের পরিমাণ ২০ শতাংশ থেকে ৭৫ শতাংশ করা যায়। এ ছাড়া চার্জিংয়ের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ফোনটিতে আছে রিয়েল-টাইম টেম্পারেচার মনিটরিং ফিচার।

উন্নত গেমিং পারফরম্যান্সের জন্য হট ৪০ প্রো ফোনটিতে আছে ৮ জিবি র‍্যাম, যা ১৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যায়। ১২৮ জিবি ধারণক্ষমতার স্মার্টফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১৩ ভিত্তিক এক্সওএস ১৩.৫ অপারেটিং সিস্টেমে চলে। ফোনটির সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর ব্যবহারকারীদের তথ্যের নিরাপত্তা আরও বাড়াবে।

গেমারদের ভিজ্যুয়াল অভিজ্ঞতা উন্নত করতে ডিভাইসটিতে আছে ম্যাজিক রিং ফিচারসহ ৬.৭৮ ইঞ্চির ফুল এইচডি+ আইপিএস ডিসপ্লে। জুতসই টাচ ও স্ক্রলিংয়ের জন্য ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট দেয়া হয়েছে ডিভাইসটিতে।

গেমিংয়ের সময় সর্বোত্তম স্বচ্ছতা ও দেখার স্বাচ্ছন্দ্য নিশ্চিত করতে ৯০.৭ শতাংশ স্ক্রিন-টু-বডি রেশিও এবং ৫০০ নিটস ব্রাইটনেস থাকছে এতে। এর মাল্টিফাংশনাল এনএফসির মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা ডেটা শেয়ার অথবা ক্রেডিট কার্ড দিয়ে পেমেন্ট করতে পারবেন সহজেই।

হট ৪০ প্রোতে নতুন মেটাম্যাটেরিয়াল অ্যান্টেনা নিয়ে এসেছে ইনফিনিক্স। অ্যান্টেনাটি চলে মেটাম্যাটেরিয়াল গেমিং নেটওয়ার্ক প্রযুক্তির মাধ্যমে। এ প্রযুক্তি তিন গুণ বেশি অ্যান্টেনা এরিয়া কাভার করতে পারে। ফলে গেমিংয়ের সময় নেটওয়ার্ক সিগন্যাল নিয়ে বাড়তি দুঃশ্চিন্তা করতে হয় না।

ফটোগ্রাফির জন্য ডিভাইসটিতে আছে ১০৮ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরা। এ হাই-রেজ্যুলুশন লেন্সের সঙ্গে আছে দুই মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো লেন্স। পাশাপাশি এতে আছে একটি এইচএমএস সেন্সর, যা সুন্দর ও স্পষ্ট ছবি তুলতে ব্যবহারকারীদের সাহায্য করবে।

ডিভাইসটির সামনে থাকা ৩২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা দিয়ে সুন্দর সেলফি তুলতে পারবেন তরুণরা।

উদ্ভাবনী ফিচারযুক্ত ইনফিনিক্স হট ৪০ প্রো পাওয়া যাচ্ছে চমৎকার এমএলবিবি-কাস্টমাইজড বক্সে। পাম ব্লু, হরাইজন গোল্ড ও স্টারলিট ব্ল্যাক—এ তিনটি রঙে বাজারে এসেছে ফোনটি।

১৯ হাজার ৯৯৯ টাকা মূল্যের ফোনটি পাওয়া যাচ্ছে ইনফিনিক্সের অনুমোদিত শপ ও দেশের বৃহত্তম অনলাইন শপিংপ্লেস দারাজে।

আরও পড়ুন:
ফ্ল্যাশ লাইট বনাম রিং লাইট: কোনটি বেশি উপযোগী
দেশের বাজারে ইনফিনিক্সের ইনবুক সিরিজের দুই ল্যাপটপ
সিইএস ২০২৪: স্মার্ট ডিভাইস চার্জ হবে ৮ ইঞ্চি দূর থেকেই
নতুন গেমিং ফোন নিয়ে এলো ইনফিনিক্স
বাংলাদেশের বাজারে ল্যাপটপ আনল ইনফিনিক্স

মন্তব্য

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
Rancon Motors and Genex Infrastructure contract to set up EQ charging stations

ইকিউ চার্জিং স্টেশন স্থাপনে র‍্যানকন মোটরস ও জেনেক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচারের চুক্তি

ইকিউ চার্জিং স্টেশন স্থাপনে র‍্যানকন মোটরস ও জেনেক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচারের চুক্তি

দেশব্যাপী ইকিউ চার্জিং স্টেশন স্থাপনে র‍্যানকন মোটরস (মার্সিডিজ বেঞ্জ পরিবেশক) ও জেনেক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচারের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

মার্সিডিজ-বেঞ্জ ঢাকা চলতি বছরের এপ্রিলের মধ্যে ৫টি ভিন্ন মডেলের ইকিউ লাইন-আপ চালু করার পরিকল্পনা করছে। নিরবচ্ছিন্ন সেবা এবং গ্রাহকদের সহজলভ্য ও সর্বোচ্চ সুবিধা নিশ্চিতের লক্ষ্যে জেনেক্স এবং র‍্যানকন ইকিউ যান চালুর আগে দেশব্যাপী চার্জিং স্টেশন স্থাপন করবে। প্রাথমিকভাবে ঢাকায় ৭টি এবং দেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে ১৪টি ইকিউ চার্জিং স্টেশন স্থাপন করা হবে।

সম্প্রতি তেজগাঁও শিল্প এলাকার র‌্যাংগস ব্যাবিলোনিয়া টাওয়ারের মার্সিডিজ-বেঞ্জ শোরুমে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয়।

র‍্যানকন মোটরসের প্রতিনিধি হিসেবে জনাব ইমরান জামান খান, বিভাগীয় পরিচালক; রেদওয়ানুল জিয়া, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা; চৌধুরী মো. নাবিল হাসান, হেড অব মার্কেটিং এবং জেনেক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেডের পক্ষে জনাব সৈয়দ শফিকুল হাসান, সিওও; মাহমুদুল হাসান লরেন্স, উপ-মহাব্যবস্থাপক (অর্থ); পল্লব কুমার পাল, সিনিয়র ম্যানেজার (সল্যুশন এবং গবেষণা ও উন্নয়ন) ও গালিব মোহাম্মদ করিম, সহকারী ব্যবস্থাপক বিজনেস এনগেজমেন্ট; অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

দেশে স্বাভাবিক সড়কপথ ৩০০ কিলোমিটারের বেশি নয়। তাই বাংলাদেশ ইভি বা বৈদ্যুতিক গাড়ির (ইলেকট্রিক ভেহিকেল) জন্য একটি আদর্শ দেশ। মার্সিডিজের সকল ইকিউ লাইন-আপ বিজ্ঞাপনের পরিসীমা ৪৫০ থেকে ৬৫০ কিলোমিটারের বেশি। এজন্য মার্সিডিজ-বেঞ্জ এবং জেনেক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেড দেশব্যাপী প্রিমিয়াম হোটেল, পর্যটন গন্তব্য, হাইওয়ে রেস্তোরাঁ, শপিং মল এবং গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক এলাকাগুলোতে মোট ২১টি ইকিউ চার্জিং স্টেশন স্থাপন করবে।

এই পদক্ষেপের মাধ্যমে র‍্যানকন মোটরস তাদের পরিবেশগত দায়বদ্ধতা সুচারুরূপে পালন করে দেশের বিচক্ষণ গ্রাহকদের কাছে আধুনিক বৈদ্যুতিক গতিশীলতা নিয়ে আসছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, টেকসই পরিবহন ক্ষেত্রে বৈদ্যুতিক যানবাহনকে ব্যাপকভাবে প্রতিশ্রুতিশীল প্রযুক্তি হিসেবে গণ্য করা হয়। পাশাপাশি কম আমদানি শুল্ক এবং কম জ্বালানি খরচের জন্য গ্রাহকদেরও বৈদ্যুতিক গাড়ির প্রতি আগ্রহ তৈরি করছে।

বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) সূত্রে জানা গেছে, সারা দেশে চার্জিং স্টেশনের বিস্তৃত নেটওয়ার্ক স্থাপনের জন্য একটি কাঠামো প্রদানের জন্য ‘ইলেকট্রিক ভেহিকেল চার্জিং গাইডলাইন’ প্রস্তুত করা হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারও ভবিষ্যতের স্বয়ংচালিত রূপান্তরের জন্য একে অগ্রাধিকার দিচ্ছে। ফলে র‍্যানকন মোটরস লিমিটেডের এই উদ্যোগ সরকারের লক্ষ্য অর্জনে সহায়ক হতে যাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে র‍্যানকন মোটরস লিমিটেডের ডিভিশনাল ডিরেক্টর ইমরান জামান খান বলেন, ‘আমরা স্মার্ট বাংলাদেশের লক্ষ্য অর্জনে কাজ করছি। আমাদের লক্ষ্য, বাংলাদেশে বৈদ্যুতিক গাড়ির অনুপ্রবেশ বাড়ানোর লক্ষ্যে কাজ করা এবং চার্জিং স্টেশনের মাধ্যমে গ্রাহকদের জন্য নির্বিঘ্ন এবং সর্বোচ্চ সুবিধা নিশ্চিত করা।’

জেনেক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেডের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মাহমুদুল হাসান লরেন্স বলেন, ‘মানুষ যত বেশি বৈদ্যুতিক গাড়ি ব্যবহার করা শুরু করবে, চার্জিং স্টেশনের চাহিদা বাড়বে। আমাদের দক্ষ এবং নিবেদিত ইপিসি দল নির্বিঘ্ন গ্রাহক সেবা নিশ্চিতের লক্ষে প্রকল্পটি সঠিকভাবে সম্পন্ন করতে প্রস্তুত।’

মন্তব্য

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
Flash Light vs Ring Light Which is More Useful?

ফ্ল্যাশ লাইট বনাম রিং লাইট: কোনটি বেশি উপযোগী

ফ্ল্যাশ লাইট বনাম রিং লাইট: কোনটি বেশি উপযোগী রিং লাইট চমৎকারভাবে ছবির বিষয়বস্তুগুলোকে ফুটিয়ে তুলতে সক্ষম। ছবি: সংগৃহীত
স্মার্টফোনের রিং লাইটের বৃত্তাকার ডিজাইনের মধ্যে থাকে ছোট ছোট এলইডি বাল্ব। এসব বাল্ব ও এদের সাজানোর ধরন ছবিতে ছায়া কমাতে সাহায্য করে। এর ফলে চেহারার সূক্ষ্ম বিষয়গুলোও অত্যন্ত স্বচ্ছতার সঙ্গে ফুটে ওঠে।

স্মার্টফোন ফটোগ্রাফিতে রিং লাইট ও সিঙ্গেল পয়েন্ট ফ্ল্যাশ লাইটের ব্যবহার নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে বেশ কিছুদিন ধরে। কার্যকারিতার দিক থেকে এ দুই ধরনের আলোক উৎসই ছবিকে প্রাণবন্ত করতে সহায়তা করে। পাশাপাশি এরা ছবির বিষয়বস্তুকেও আলোকিত করে।

যে উৎসটি বেছে নেয়া হবে, তার প্রভাব থাকবে ছবির মানের ওপর।

সম্প্রতি বাজারে আসা ইনফিনিক্সের স্মার্ট ও হট সিরিজের স্মার্টফোনগুলো রিং লাইট সম্পর্কিত আলোচনা আবারও সামনে নিয়ে এসেছে। ১৫ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে থাকা এই স্মার্টফোনগুলোতে আছে প্রয়োজনীয় ফিচার। পাঞ্চহোল ডিসপ্লে, ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট ও ৫ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারির সঙ্গে ফোনগুলো দেবে ছবি তোলার সুন্দর অভিজ্ঞতা।

এখন কথা হলো ফ্ল্যাশ লাইট থেকে রিং লাইট কীভাবে আলাদা?

স্মার্টফোনের রিং লাইটের বৃত্তাকার ডিজাইনের মধ্যে থাকে ছোট ছোট এলইডি বাল্ব। এসব বাল্ব ও এদের সাজানোর ধরন ছবিতে ছায়া কমাতে সাহায্য করে। এর ফলে চেহারার সূক্ষ্ম বিষয়গুলোও অত্যন্ত স্বচ্ছতার সঙ্গে ফুটে ওঠে।

রিং লাইট চমৎকারভাবে ছবির বিষয়বস্তুগুলোকে ফুটিয়ে তুলতে সক্ষম। তাই যারা স্মার্টফোনেই ভালো মানের ছবি তুলতে চান, তাদের জন্য রিং লাইট খুবই কাজের হতে পারে।

প্রচলিত ফ্ল্যাশলাইটগুলো ছবিতে যে ছায়া ফেলে, তা স্পষ্ট ও প্রকট। ফলে এটি চেহারার সূক্ষ্ম বিষয়গুলোকে ঠিকভাবে ফুটিয়ে তুলতে পারে না। অন্যদিকে রিং লাইট আলোকে আরও বেশি বিচ্ছুরিত করে, যা ছবির সামগ্রিক নান্দনিকতাকে বাড়িয়ে তোলে।

রিং লাইট ফটোগ্রাফির অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো স্পষ্ট ও নিখুঁত পোর্ট্রেট। এর মাধ্যমে ম্যাক্রো শটগুলোতেও সূক্ষ্ম বিষয়গুলো তুলে ধরা যায়। এ ছাড়াও ল্যান্ডস্কেপ শটে রিং লাইট যোগ করে একটি নরম আভা। এর ফলে স্মার্টফোন ফটোগ্রাফাররা বাড়তি ঝামেলা ও ভারী সরঞ্জাম ছাড়াই তাদের সৃজনশীলতা প্রকাশ করতে পারবেন৷

সব মিলিয়ে বলা যায়, রিং ফ্ল্যাশ লাইট এখন সিঙ্গেল পয়েন্ট ফ্ল্যাশ লাইটের চেয়ে বেশি জনপ্রিয় হচ্ছে। কারণ রিং লাইট বিচ্ছুরিত ও নরম আলো দিয়ে ছবিকে আরও উন্নত করে তোলে এবং ফটোগ্রাফিতে যোগ করে নতুন মাত্রা। এতে ছবি হয় সুন্দর ও আলোকিত। ফলে ব্যবহারকারীদের কাছে রিং লাইট আরও ফটোগ্রাফি সহায়ক হচ্ছে।

আরও পড়ুন:
দেশের বাজারে ইনফিনিক্সের ইনবুক সিরিজের দুই ল্যাপটপ
সিইএস ২০২৪: স্মার্ট ডিভাইস চার্জ হবে ৮ ইঞ্চি দূর থেকেই
ঘন কুয়াশায় ঢাকাগামী দুটি ফ্লাইট কলকাতায় অবতরণ
নতুন গেমিং ফোন নিয়ে এলো ইনফিনিক্স
বাংলাদেশের বাজারে ল্যাপটপ আনল ইনফিনিক্স

মন্তব্য

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
Ubers new round trip feature launched in the country

দেশে উবারের নতুন রাউন্ড ট্রিপ ফিচার চালু

দেশে উবারের নতুন রাউন্ড ট্রিপ ফিচার চালু নতুন এ ফিচারের সাহায্যে যাত্রীরা শহরের বাইরে ভ্রমণের সময় একই গাড়ি ও চালককে এক বা একাধিক দিনের জন্য বুক করতে পারবেন। ছবি: উবার
নতুন এ ফিচার চালু হওয়ার বিষয়ে উবার বাংলাদেশের কান্ট্রি হেড নাশিদ ফেরদৌস কামাল বলেন, ‘স্বাচ্ছন্দ্যে ও সুবিধাজনকভাবে যারা যাতায়াত করতে চান, তাদের জন্য ইন্টারসিটির রাউন্ড ট্রিপ ফিচার একটি চমৎকার সংযোজন। শহরের বাইরে যাতায়াতের বাজারটি এখন পর্যন্ত বেশ অগোছালো ছিল। ইন্টারসিটি রাউন্ড ট্রিপ সেই ব্যাপারটিকে সম্পূর্ণ পাল্টে দিচ্ছে।’

উবারের ফ্ল্যাগশিপ দীর্ঘ দূরত্বের পণ্য ইন্টারসিটিতে যুক্ত হলো রাউন্ড ট্রিপ ফিচার।

নতুন এ ফিচারের সাহায্যে যাত্রীরা শহরের বাইরে ভ্রমণের সময় একই গাড়ি ও চালককে এক বা একাধিক দিনের জন্য বুক করতে পারবেন।

এ ফিচারের মাধ্যমে ব্যবসায়িক ভ্রমণ বা কোথাও বেড়াতে যাওয়ার সময় ব্যবহারকারীরা আরও স্বাচ্ছন্দ্যে ও সুবিধাজনকভাবে যাতায়াত করতে পারবেন। এখন ঢাকা থেকে যেকোনো শহরে যাওয়ার সময় সর্বোচ্চ ৫ দিনের জন্য আউটস্টেশন রাউন্ড ট্রিপ বুক করতে পারবেন যাত্রীরা। পুরো সময়টায় ওই গাড়ি ও চালক যাত্রীর সঙ্গেই থাকবেন। আরও থাকছে যাত্রাপথে স্টপ যোগ করার বাড়তি সুবিধা।

৯০ দিন আগে পর্যন্ত অগ্রিম ট্রিপ বুক করার ফিচারটি ডিজাইন করা হয়েছে সময় নিয়ে শহরের বাইরে বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনার সুবিধার জন্য।

এ ফিচারের সাহায্যে চালকরা বেশি উপার্জন ও আগে থেকে কাজের পরিকল্পনা সাজিয়ে রাখার সুযোগ পাচ্ছেন। তাই তাদের জন্যও এটি সুবিধাজনক।

রাউন্ড ট্রিপের ভাড়ায় অপেক্ষার সময় এবং রাতে থাকার খরচও (একাধিক দিনের ট্রিপের ক্ষেত্রে) যুক্ত করা হয়। এতে নিশ্চিত হয় যে, চালকরা তাদের সময়ের জন্য যথাযথ ক্ষতিপূরণ পাচ্ছেন।

নতুন এ ফিচার চালু হওয়ার বিষয়ে উবার বাংলাদেশের কান্ট্রি হেড নাশিদ ফেরদৌস কামাল বলেন, ‘স্বাচ্ছন্দ্যে ও সুবিধাজনকভাবে যারা যাতায়াত করতে চান, তাদের জন্য ইন্টারসিটির রাউন্ড ট্রিপ ফিচার একটি চমৎকার সংযোজন। শহরের বাইরে যাতায়াতের বাজারটি এখন পর্যন্ত বেশ অগোছালো ছিল। ইন্টারসিটি রাউন্ড ট্রিপ সেই ব্যাপারটিকে সম্পূর্ণ পাল্টে দিচ্ছে।’

‘সেই সাথে প্রতিটি উবার ট্রিপে থাকছে নিরাপত্তা ও ট্র্যাকিংয়ের নানা ধরনের ফিচার। দীর্ঘ দূরত্বের ভ্রমণের ভবিষ্যৎকে বদলে দিতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত।’

এ ফিচারের মাধ্যমে ভ্রমণের জন্য স্থানীয় রেন্ট-এ-কার বুক করার ঝামেলাও দূর হবে। তা ছাড়াও অ্যাপের মাধ্যমে ট্রিপটি ট্র্যাক করা যাবে। এতে ভ্রমণের নিরাপত্তা ও নির্ভরযোগ্যতা বৃদ্ধি পায়।

যেভাবে ইন্টারসিটি রাউন্ড ট্রিপ বুক করবেন

১. সাজেশনস বার থেকে ‘ইন্টারসিটি’ অপশনে ক্লিক করুন। হোম স্ক্রিনে ‘ইন্টারসিটি’ অপশনটি দেখা না গেলে ‘সি অল’-এ ক্লিক করুন।

২. ‘রাউন্ড ট্রিপ’ সিলেক্ট করুন এবং আপনার গন্তব্য লিখুন

৩. যদি আপনার এখনই গাড়ির প্রয়োজন হয়, ‘লিভ নাউ’ সিলেক্ট করুন

৪. ভবিষ্যতের জন্য রাইড বুক করতে ‘রিজার্ভ’ সিলেক্ট করে আপনার পিক-আপের তারিখ ও সময় লিখুন

৫. আপনার ফেরার তারিখ ও সময় সিলেক্ট করুন। আপনি ৫ দিন পর্যন্ত গাড়িটি আপনার সাথে রাখতে পারবেন

৬. আপনার পছন্দ ও প্রয়োজনমতো যানবাহন বেছে নিন

৭. কনফার্মেশন স্ক্রিনে বুকিংয়ের তথ্যগুলো দেখে নিন। এরপর রাউন্ড ট্রিপ বুক করুন।

আরও পড়ুন:
উবারের দাবি, তাদের সেবায় নারী ‘নিরাপদ’
দেশের ২০ শহরে উবার মোটো
ইউটিউব ভিডিও করতে কবরে এক ভাই, বাইরে আরেকজন
রাইডশেয়ারিং: যাত্রী নিরাপত্তায় পাঠাও-উবারের যৌথ ক্যাম্পেইন
উবারে ভুলে সবচেয়ে বেশি ফেলে যাওয়া হয় ফোন

মন্তব্য

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
Two laptops of Infinix Inbook series in the country market

দেশের বাজারে ইনফিনিক্সের ইনবুক সিরিজের দুই ল্যাপটপ

দেশের বাজারে ইনফিনিক্সের ইনবুক সিরিজের দুই ল্যাপটপ অনলাইন ও অফলাইন উভয় মাধ্যমেই কেনা যাবে বাংলাদেশে তৈরি ল্যাপটপ দুটি। ছবি: ইনফিনিক্স
আকর্ষণীয় ডিজাইনের ইনবুক এক্স২ এবং ওয়াই২ প্লাস উভয়ই বেশ শক্তিশালী এবং সহজে ব্যবহারযোগ্য। টাইপিংকে আরও আনন্দদায়ক করতে এতে যোগ করা হয়েছে রেসপন্সিভ ব্যাকলিট কিবোর্ড।

বাংলাদেশের বাজারে গত বছর ডিসেম্বরে নতুন দুটি ল্যাপটপ আনে প্রযুক্তি ব্র্যান্ড ইনফিনিক্স।

ইনবুক এক্স২ এবং ওয়াই২ প্লাস মডেলের ল্যাপটপ দুটি এখন পাওয়া যাচ্ছে সারা দেশে।

অনলাইন ও অফলাইন উভয় মাধ্যমেই কেনা যাবে বাংলাদেশে তৈরি ল্যাপটপ দুটি।

ইনবুক এক্স২ ল্যাপটপটিতে আছে একাদশ প্রজন্মের ১০ ন্যানোমিটার ইন্টেল কোর আই৫ প্রসেসর। এর সঙ্গে আছে ৮ জিবি র‍্যাম। স্টোরেজের প্রয়োজন মেটানোর জন্য এতে আরও আছে দ্রুতগতির ৫১২ জিবি এনভিএমই এসএসডি।

সুন্দর ও সাবলীল অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করতে এক্স২ ল্যাপটপে রয়েছে উইন্ডোজ ১১ এর হোম ভার্সন। পাশাপাশি মাল্টিটাস্কিংয়ের সুবিধার জন্য এতে যুক্ত করা হয় কার্যকর কুলিং সিস্টেম।

এক্স২ ল্যাপটপটির ৫০ ওয়াট-আওয়ার ব্যাটারি একবার চার্জে টানা নয় ঘণ্টা পর্যন্ত চলবে। সঙ্গে থাকা ৪৫ ওয়াটের সি-টাইপ চার্জার দিয়ে ল্যাপটপ ও ফোন উভয়ই চার্জ করা যাবে।

ভিজুয়্যাল অভিজ্ঞতা উন্নত করতে এক্স২-তে আছে ৪.৭ মিলিমিটার সূক্ষ্ণ বেজেলযুক্ত ১৪ ইঞ্চি ফুল-এইচডি আইপিএস ডিসপ্লে। চমৎকার সারাউন্ড সাউন্ডের জন্য সম্পূর্ণ মেটালে তৈরি ল্যাপটপটিতে আছে দুই লেয়ারের স্টেরিও ডিজাইন। মসৃণ ও আকর্ষণীয় ডিজাইনের ১৪.৮ মিলিমিটার পাতলা এক্স২ এর ওজন ১.২৪ কেজি। বর্তমানে এটি শুধু ধূসর রঙে পাওয়া যাচ্ছে।

অন্যান্য রঙের ল্যাপটপগুলোও শিগগিরই বাজারে আসবে। ল্যাপটপটির বর্তমান বাজারমূল্য ৬১ হাজার ৯৯০ টাকা।

ইনফিনিক্সের ইনবুক ওয়াই২ প্লাস ল্যাপটপটি বাংলাদেশের বাজারে ইনফিনিক্সের প্রথম ল্যাপটপ। এতে আছে একাদশ প্রজন্মের ইন্টেল কোর আই৫ প্রসেসর। এ ল্যাপটপটি চলে উইন্ডোজ ১১ হোম অপারেটিং সিস্টেমে। এর ধারণক্ষমতা ৫১২ জিবি এনভিএমই এসএসডি এবং সঙ্গ আছে ৮ জিবি র‍্যাম।

ওয়াই২ প্লাস-এ আছে ১৫.৬ ইঞ্চি ফুল এইচডি+ ডিসপ্লে। এর ৫০ ওয়াট-আওয়ার ব্যাটারির সাহায্যে দিনব্যাপী কাজ করা যাবে স্বাচ্ছন্দ্যে। ইনফিনিক্সের এ ল্যাপটপের ওজন ১.৮ কেজি। এতেও আছে ৪৫ ওয়াট এডাপ্টারের টাইপ-সি চার্জার।

রুপালি ও ধূসর রঙে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াই২ প্লাস। এর বাজারমূল্য বর্তমানে ৫৮ হাজার ৯৯০ টাকা।

আকর্ষণীয় ডিজাইনের ইনবুক এক্স২ এবং ওয়াই২ প্লাস উভয়ই বেশ শক্তিশালী এবং সহজে ব্যবহারযোগ্য। টাইপিংকে আরও আনন্দদায়ক করতে এতে যোগ করা হয়েছে রেসপন্সিভ ব্যাকলিট কিবোর্ড।

ইনফিনিক্সের ইনবুক সিরিজের ল্যাপটপ দুটি এখন পাওয়া যাচ্ছে ইনফিনিক্স স্টোর, অনুমোদিত রিটেইলার ও দারাজে।

আরও পড়ুন:
সিইএস ২০২৪: স্মার্ট ডিভাইস চার্জ হবে ৮ ইঞ্চি দূর থেকেই
নতুন গেমিং ফোন নিয়ে এলো ইনফিনিক্স
বাংলাদেশের বাজারে ল্যাপটপ আনল ইনফিনিক্স
বাংলাদেশের বাজারে ইনফিনিক্সের ‘স্মার্ট ৮’
দুর্গাপূজায় লাখ টাকা জেতার সুযোগ দিচ্ছে ইনফিনিক্স

মন্তব্য

p
উপরে