রূপগঞ্জ দুর্ঘটনায় দায়ীদের ছাড় নয়: কাদের

রূপগঞ্জ দুর্ঘটনায় দায়ীদের ছাড় নয়: কাদের

রূপগঞ্জের কারখানাটিতে আগুনে অসংখ্য প্রাণ ঝলসে গেছে, সেই ভবনটির চারপাশে দিনভর ছিল স্বজনহারা মানুষের কান্না আর আহাজারি। ছবি: নিউজবাংলা/সাইফুল ইসলাম

ওবায়দুল কাদের বলেন, এ ঘটনায় ইতোমধ্যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত রিপোর্ট অনুযায়ী যারা দায়ী হবেন, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই এ বিষয়টি মনিটর করছেন।

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে কারখানায় মর্মান্তিক অগ্নিদুর্ঘটনায় দায়ীদের ছাড় দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শনিবার সকালে বঙ্গবন্ধু আদর্শ ফোরামের দেড় যুগপূর্তি উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন তিনি।

এ সময় অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ ও স্বজনহারা পরিবারগুলোর প্রতি সমবেদনা জানান ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় ইতোমধ্যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত রিপোর্ট অনুযায়ী যারা দায়ী হবেন, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই এ বিষয়টি মনিটর করছেন’, বলেন ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার রাতে রূপগঞ্জে হাশেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজ কারখানায় আগুন লাগার পর শুরুতে তিনজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেলেও পরের দিন উদ্ধার করা হয় ৪৯ জনের মরদেহ। মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫২ জনে। বেশির ভাগ মরদেহই পুড়ে কয়লা হয়ে গেছে। এখন পরিচয় শনাক্তের কাজ চলছে।

আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও এখনও পুরোপুরি নেভেনি। ভবনের সব কটি ফ্লোর এখন ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। তীব্র ধোঁয়া এবং তাপ বের হচ্ছে। আছে উৎকট ঝাঁঝালো গন্ধ। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পানি ছিটিয়ে ধোঁয়া নিবারণ এবং আবারও যাতে আগুন না লাগে, সে চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

এ ঘটনার পর শনিবার সজিব গ্রুপের চেয়ারম্যান ও এমডিসহ আটজনকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে করা হয়েছে হত্যা মামলা।

অনুষ্ঠানে করোনার বিরুদ্ধে সচেতন হতে দেশবাসীকে আহ্বান জানান ক্ষমতাসীন দলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ নেতা। তিনি বলেন, ‘বিশ্ব এখন করোনাবিরোধী লড়াইয়ে অবতীর্ণ। বিশ্বের সমৃদ্ধ দেশগুলোও করোনার অভিঘাত মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে। সংক্রমণ ও মৃত্যুহার উচ্চমাত্রা পেয়েছে। চলমান ধারা অব্যাহত থাকলে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হবে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

‘এ অবস্থায় মানুষের জীবন ও জীবিকার সুরক্ষাই সরকারের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার। অসহায় খেটে খাওয়া মানুষের সুরক্ষা এবং সংক্রমণ রোধ এখন আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার। এ চ্যালেঞ্জিং কাজে সরকারের প্রচেষ্টা তখনই সফল হবে যদি সবাই সংকটের ভয়াবহতা উপলব্ধি করে এবং সচেতনতার সর্বোচ্চ মাত্রা অনুসরণ করে।’

রূপগঞ্জ দুর্ঘটনায় দায়ীদের ছাড় নয়: কাদের
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি

এ সময় সমালোচকদের সমালোচনাও করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে এখন মাথাপিছু আয় ২ হাজার ২০০ ডলার ছাড়িয়েছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ছাড়িয়েছে ৪৬ বিলিয়ন ইউএস ডলার। এত সব উন্নয়ন আর অর্জন একটি দল দেখতে পায় না।

শেখ হাসিনার উন্নয়ন, অর্জন দেখলে একশ্রেণির বুদ্ধিজীবী রাজনীতিবিদদের গাত্রদাহ হয়, তারা দিনের আলোতে রাতের অন্ধকার দেখতে পায়। আওয়ামী লীগের শিকড় এ দেশের মাটির অনেক গভীরে। বাংলাদেশ রাষ্ট্রের জন্ম ও চেতনার সঙ্গে আওয়ামী লীগের সম্পর্ক।’

কাদের বলেন, ‘বাংলাদেশকে মর্যাদাশীল করতে হলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করতে হবে। আর মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বাঁচাতে হলে আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর অসীম সাহসে দেশে বাস্তবায়িত হচ্ছে একের পর এক মেগা প্রকল্প।

নির্মাণের শেষপ্রান্তে স্বপ্নের পদ্মা সেতু, দৃশ্যমান হয়েছে দেশের প্রথম মেট্রোরেল আর এগিয়ে চলছে কর্ণফুলীর তলদেশ দিয়ে বঙ্গবন্ধু টানেলের নির্মাণকাজ। মাতারবাড়ী প্রজেক্ট, রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎ প্রকল্প, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, চার লেনের মহাসড়ক, বাস র‌্যাপিড ট্রানজিটসহ (বিআরটি) একাধিক মেগা প্রকল্পের কাজ এগিয়ে চলেছে।’

আরও পড়ুন:
‘মোর বুকখান খালি হই গেইল’
‘যে তালা মারছে, সে-ও মরছে’
হাশেম ফুডের কারখানার ছয়তলায় তল্লাশি শুরু
বিচার হয় না, এমনকি মামলাতেও বাধা
২৮ ঘণ্টা পরও নেভেনি আগুন

শেয়ার করুন

মন্তব্য