বক্তব্যে মনে হয় বিএনপি নেতারা মেধাহীন: হাছান

বক্তব্যে মনে হয় বিএনপি নেতারা মেধাহীন: হাছান

সমাবেশে বিএনপির নেতারা। ফাইল ছবি

‘প্রতিবারই বাজেট পেশ হওয়ার আগেই বিবৃতি রেডি করে রাখা আবার সেটি সঙ্গে সঙ্গে বাজেট না পড়েই বলে দেয়া- এই যে সংস্কৃতি তারা লালন করছেন, তাতে তাদের নেতারা যে মেধাবী… কিন্তু বক্তব্যে মনে হচ্ছে তারা মেধাহীন হয়ে গেছেন। তারা বাজেট না পড়ে বক্তব্য দিচ্ছেন।’

বিরোধিতার খাতিরে বিরোধিতা করতেই ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট না পড়েই বিএনপি নেতারা বক্তৃতা দিচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ। বলেছেন, কথাবার্তায় মনে হচ্ছে বিএনপি নেতারা মেধাহীন হয়ে পড়েছেন।

সচিবালয়ে রোববার দুপুরে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এক প্রশ্নের জবাবে বর্তমান সরকারের তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা আওয়ামী লীগের এই নেতা এসব কথা বলেন।

জাতীয় সংসদে বৃহস্পতিবার ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বাজেটের শিরোনাম দেয়া হয়েছে ‘জীবন-জীবিকায় প্রাধান্য দিয়ে সুদৃঢ় আগামীর পথে বাংলাদেশ’।

তবে এই বাজেটে জীবন-জীবিকার কিছু দেখছে না বিএনপি। তাদের ভাষায়, এটা ভাঁওতাবাজির বাজেট। বাজেটোত্তর প্রতিক্রিয়ায় শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির মহাসচিব বলেন, ‘প্রস্তাবিত বাজেটের প্রতিপাদ্য শব্দমালার মাঝেই ভাঁওতাবাজি পরিষ্কার।’

বাজেট নিয়ে এমন বক্তব্যে চটেছেন হাছান মাহমুদ। বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘প্রতিবারই বাজেট পেশ হওয়ার আগেই বিবৃতি রেডি করে রাখা আবার সেটি সঙ্গে সঙ্গে বাজেট না পড়েই বলে দেয়া- এই যে সংস্কৃতি তারা লালন করছেন, তাতে তাদের নেতারা যে মেধাবী… কিন্তু বক্তব্যে মনে হচ্ছে তারা মেধাহীন হয়ে গেছেন। তারা বাজেট না পড়ে বক্তব্য দিচ্ছেন।’

বিএনপির বাজেট প্রতিক্রিয়ার কড়া সমালোচনা করে মন্ত্রী বলেন, ‘বাজেটের পরপর যে সমালোচনাগুলো গত ১২ বছর ধরে করে আসছে, একই ধরনের সমালোচনা, একই ধরনের বক্তব্য। তাদের কাছে প্রশ্ন যে ১২ বছরে দেশটা কীভাবে এগিয়ে গেল।’

মন্ত্রী জানান, ১২ বছর আগে দেশের বাজেটের অঙ্ক ছিল ৮৮ হাজার কোটি টাকা। সেখান থেকে ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘১২ বছরে সাত গুণের বেশি। এটি কীভাবে সম্ভব হলো? ১২ বছরে দেশের বাজেটের সাত গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং আমাদের জিডিপির আকার গত ১২ বছরে চার গুণের বেশি বেড়েছে।’

মাথাপিছু আয় ৬০০ ডলার থেকে ২ হাজার ২২৭ ডলারে উন্নীত হওয়ার বিষয়টি টেনে মন্ত্রী বলেন, ‘এখানে অবশ্য মে-জুন মাসের হিসাবটা নেয়া হয়নি। মে-জুন মাসের হিসাব নেয়ার পর এটি আরও বাড়বে। ভারতকে যে আমরা মাথাপিছু আয়ে ছাড়িয়ে গেলাম, সে জন্য ভারতের পত্রপত্রিকায়, টেলিভিশনে আলোচনার ঝড় বইছে। পাকিস্তানে আলোচনার ঝড় বইছে।’

কিন্তু এসব বিষয় সরকারের সমালোচকদের চোখে পড়ে কি না, সে প্রশ্ন রেখে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব এবং আমাদের অর্থনীতিবিদদের মুখে কোনো কথা শুনতে পেলাম না। এটা কীভাবে সম্ভব হলো বিএনপির কাছে সেই প্রশ্ন।’

আরও পড়ুন:
ভাঁওতাবাজির বাজেট: বিএনপি
‘ক্ষমতাসীনদের ভবিষ্যৎ গড়ার বাজেট’
‘বাজেটে মধ্যবিত্তের জন্য কিছু নেই’
ঋণের বাজেট: বিএনপি
খালেদার স্বাস্থ্যে আটকে বিএনপির রাজনীতি: তথ্যমন্ত্রী

শেয়ার করুন

মন্তব্য