চলে গেলেন কমরেড মোর্শেদ

চলে গেলেন কমরেড মোর্শেদ

কমরেড মোর্শেদ আলী

ডাকসুর সাবেক জিএস বীর মুক্তিযোদ্ধা মোর্শেদ আলী গত ২৬ মার্চ সকালে ব্রেইন স্ট্রোক করেন। এরপর থেকে বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। মাঝে একটু সুস্থ হলেও মঙ্গলবার থেকে আবার লাইফ সাপোর্টে দেয়া হয়।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) কেন্দ্রীয় কমিটির কন্ট্রোল কমিশনের সদস্য ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক জিএস এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা কমরেড মোর্শেদ আলী মারা গেছেন।

বুধবার সকাল সাড়ে ৭টায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।

মোর্শেদের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিশ্চিত করেছেন সিপিবির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স।

নিউজবাংলাকে তিনি বলেন, ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা মোর্শেদ আলী গত ২৬ মার্চ সকালে ব্রেইন স্ট্রোক করে বারডেম হাসপাতালের এইচডিইউতে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন। এর মাঝে অবস্থার কিছুটা উন্নতি হওয়ায় লাইফ সাপোর্ট নেয়ার প্রয়োজন হয়নি। কিন্তু গতকাল থেকে আবার লাইফ সাপোর্টে ছিলেন।’

প্রিন্স জানান, বেলা সাড়ে ১১ টায় পল্টনে সিপিবির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তার প্রথম জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর মরদেহ তার গ্রামের বাড়ি পাবনার ঈশ্বরদীতে নিয়ে যাওয়া হবে।

মোর্শেদ আলী কিশোর বয়স থেকে ছাত্র আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। পরে তিনি কমিউনিস্ট রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন।

তার সুদীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে তিনি ’৬৬ সালের ৬ দফা, ’৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান, ৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধ, স্বৈরাচার এরশাদ আন্দোলন, শ্রমিক ও কৃষক আন্দোলনে অংশ নেন। শ্রমিক ও কৃষক আন্দোলনে তার ভূমিকা অগ্রগণ্য।

মুক্তিযুদ্ধের পর থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত তিনি ঢাকা মহানগরে কমিউনিস্ট পার্টির মুখ্য নেতা হিসেবে পার্টি ও গণসংগঠন বিস্তারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন।

আরও পড়ুন:
সৈয়দ আবুল মকসুদের জীবনাবসান
‘বারুদের গন্ধ মাখা কিশোরীর’ প্রয়াণ দিবস আজ
আলী যাকেরের জীবনাবসান

শেয়ার করুন

মন্তব্য