20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
‘কোটি বৃক্ষের ফল দল নয়, দেশের মানুষ ভোগ করবে’

‘কোটি বৃক্ষের ফল দল নয়, দেশের মানুষ ভোগ করবে’

পরিবেশ রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকার প্রসঙ্গ টেনে আওয়ামী লীগের পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয়ক সম্পাদক মঙ্গলবার এক ভিডিওবার্তায় তিনি এ কথা বলেছেন।

আওয়ামী লীগের পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন বলেছেন, দেশ ও মানুষকে ভালোবেসে পিতার জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক কোটি গাছ লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর ফল কিন্তু জননেত্রী শেখ হাসিনা ভোগ করবেন না, আওয়ামী লীগও ভোগ করবে না, দেশ এবং দেশের মানুষ এর ফল ভোগ করবে।

পরিবেশ রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকার প্রসঙ্গ টেনে আওয়ামী লীগের পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয়ক সম্পাদক মঙ্গলবার এক ভিডিওবার্তায় তিনি এসব কথা বলেছেন।

দেলোয়ার হোসেন বলেন, পরিবেশ বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে পিতার মতোই দেশ ও মানুষকে ভালোবেসে এই বৃক্ষরোপণের দায়িত্ব নেন বঙ্গবন্ধুকন্যা।

ধরিত্রী যদি বিরূপ হয়, তাহলে উন্নত রাষ্ট্রগুলোও বিপর্যস্ত হবে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘কিন্তু এখন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি আমরা। এই যে জলবায়ু পরিবর্তন হচ্ছে। এজন্য আমাদের মতো যেসব দেশ দায়ী না, আমরা অন্যায় না করেও ফল ভোগ করছি।

‘এই বিপর্যয় অবস্থা কাটিয়ে ওঠার জন্য এবং যাদের কারণে পরিবেশ বিপর্যয় হচ্ছে, তাদের বাধ্যবাধকতায় আনার জন্য নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরিবেশ রক্ষার জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনা পৃথিবীর সবচেয়ে সোচ্চার রাজনীতিবিদ।’

আওয়ামী লীগের পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয়ক সম্পাদক বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে কয়েকটি দুর্যোগ, বড় বড় ঝড় গেল, সেগুলোর কারণে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত আমরা। আমাদের ১৭ ভাগ উপকূলবর্তী অঞ্চলে ঝড় এলে মানুষের ফসল, মৎস্য চাষ, সবকিছু দুর্যোগের কবলে পড়ে।

‘ক্ষতি আমাদের যেহেতু বেশি, তাই নিজ দেশের পাশাপাশি আমাদের মতো রাষ্ট্র যারা আছে, তাদের সবার দায়িত্বও নিতে হয় আমাদের। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন- আমি বিশ্বের নির্যাতিত মানুষের নেতা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জলবায়ু বিষয়ে পিতার মতো বিশ্ববাসীর নেতৃত্ব দিচ্ছেন।’

শেয়ার করুন

মন্তব্য