× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
The depression is likely to weaken further over Sylhet
google_news print-icon

নিম্নচাপটি সিলেটে, আরও দুর্বল হওয়ার আভাস

নিম্নচাপটি-সিলেটে-আরও-দুর্বল-হওয়ার-আভাস
ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে ডুবে যাওয়া নোয়াখালীর একটি এলাকা। ছবি: নিউজবাংলা
নিম্নচাপটি বর্তমানে সিলেট ও এর আশপাশের এলাকায় অবস্থান করছে। এটি উত্তরপূর্ব দিকে এগিয়ে আরও দুর্বল হতে পারে। এর প্রভাবে সমুদ্রবন্দর, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও দেশের উপকূলীয় এলাকায় ঝড়ো হাওয়া অব্যাহত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

বাংলাদেশ উপকূলে আঘাত হানা প্রবল ঘূর্ণিঝড় রিমাল আরও দুর্বল হয়েছে। এটি নিম্নচাপে পরিণত হয়ে বর্তমানে সিলেট ও এর আশপাশের এলাকায় অবস্থান করছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের এক বিজ্ঞপ্তিতে মঙ্গলবার সকালে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, নিম্নচাপটি বর্তমানে সিলেট ও এর আশপাশের এলাকায় অবস্থান করছে। এটি উত্তরপূর্ব দিকে এগিয়ে আরও দুর্বল হতে পারে। এর প্রভাবে সমুদ্রবন্দর, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও দেশের উপকূলীয় এলাকায় ঝড়ো হাওয়া অব্যাহত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। সেইসঙ্গে উত্তর বঙ্গোপসাগরে থাকা সব মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

এ ছাড়া মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়; বরিশাল ও রংপুর বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও রাজশাহী বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

তবে ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা ১-৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়লেও রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকায় সকাল ৭টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে।

এ সময় এই এলাকার আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকার পাশাপাশি পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ২০-৩০ কিলোমিটার বেগে বাতাস বয়ে যেতে পারে যা ঝড়ো হাওয়া রূপে ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
Sheikh Hasinas visit will strengthen bilateral partnership Indian External Affairs Ministry
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে জয়শঙ্করের সাক্ষাৎ

শেখ হাসিনার সফর দ্বিপক্ষীয় অংশীদারত্ব জোরদার করবে: ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

শেখ হাসিনার সফর দ্বিপক্ষীয় অংশীদারত্ব জোরদার করবে: ভারতীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে শুক্রবার দিল্লির হোটেল তাজ প্যালেসে সাক্ষাৎ করেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর। ছবি: সংগৃহীত
ভারত সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে পারস্পরিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন সে দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর। শুক্রবার ভারতের রাজধানী দিল্লির হোটেল তাজ প্যালেসে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

ভারত সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে পারস্পরিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন সে দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর।

শুক্রবার ভারতের রাজধানী দিল্লির হোটেল তাজ প্যালেসে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সূত্র: ইউএনবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নয়াদিল্লিতে পৌঁছানোর পর ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রণধীর জয়সওয়াল বলেন, ‘বাংলাদেশ ভারতের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার ও বিশ্বস্ত প্রতিবেশী। এই সফর দ্বিপক্ষীয় অংশীদারত্বকে আরও জোরদার করবে।’

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান এবং পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দু’দিনব্যাপী এই ভারত সফর করছেন।

অষ্টাদশ লোকসভা নির্বাচনের পর ভারতে সরকার গঠনের পর এটাই প্রথম দ্বিপাক্ষিক রাষ্ট্রীয় সফর।

সফরকালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় আলোচনা ছাড়াও দেশটির প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মু ও উপ-রাষ্ট্রপতি শ্রী জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করার কথা রয়েছে।

গত ৯ জুন ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দেয়া আন্তর্জাতিক নেতাদের মধ্যে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আরও পড়ুন:
প্রধানমন্ত্রী নয়াদিল্লি পৌঁছেছেন
নয়াদিল্লি গেলেন প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী দিল্লি সফরে যাচ্ছেন ২১ জুন
গণভবনে আ.লীগ নেতাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়
ত্যাগের চেতনায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করার আহ্বান

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Sadarghat is crowded with passenger launches during holidays

ছুটির দিনে সদরঘাটে ভিড়ছে যাত্রীবোঝাই লঞ্চ

ছুটির দিনে সদরঘাটে ভিড়ছে যাত্রীবোঝাই লঞ্চ শুক্রবার প্রতিটি লঞ্চ যাত্রী বোঝাই অবস্থায় সদরঘাটের পন্টুনে ভেড়ে। ছবি: নিউজবাংলা
শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত সদরঘাটের লঞ্চ টার্মিনালে দেখা গেছে মানুষের ঢাকা ফেরার চিত্র। এদিন দুপুরের পর থেকেই ঢাকা-বরিশাল নৌরুটের সব লঞ্চ ডেকে পরিপূর্ণ যাত্রী নিয়ে ঘাটে ভিড়েছে। ধারণ ক্ষমতার বেশি যাত্রী নিয়েও কিছু লঞ্চ ঢাকার এসে পৌঁছায়।

ঈদের ছুটি শেষে কর্মজীবী মানুষ এখন ঢাকামুখী। গ্রামে যাওয়া নগরের মানুষগুলো ফিরছে কর্মস্থলে। আর রাজধানী ফিরে পাচ্ছে তার ব্যস্ততম চেহারা।

বাস ও ট্রেনের পাশাপাশি সরকারি ছুটির দিনে শুক্রবার রাজধানীর প্রধান নদীবন্দর সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালেও যাত্রীর ভিড় দেখা গেছে।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত সদরঘাটের লঞ্চ টার্মিনালে দেখা গেছে মানুষের ঢাকা ফেরার চিত্র। এদিন দুপুরের পর থেকেই ঢাকা-বরিশাল নৌরুটের সব লঞ্চ ডেকে পরিপূর্ণ যাত্রী নিয়ে ঘাটে ভিড়েছে। ধারণ ক্ষমতার বেশি যাত্রী নিয়েও কিছু লঞ্চ ঢাকার এসে পৌঁছায়। নৌপথ ছাড়াও অনেকে আবার সড়ক অথবা রেলপথে ফিরছেন।

ছুটির দিনে সদরঘাটে ভিড়ছে যাত্রীবোঝাই লঞ্চ

ঈদের পর শহরে ফেরা মানুষে আবারও কর্মচঞ্চল হয়ে উঠেছে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষজনের চিরচেনা নৌবন্দর সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল। লঞ্চের হর্ন আর যাত্রীদের পদচারণায় সদরঘাট তার পুরনো রূপ ফিরে পেয়েছে।

সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনাল ঘুরে দেখা যায়, পন্টুনগুলোতে ছিলো ঢাকায় ফেরা মানুষের ভিড়। কেউ বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে ফিরছেন। কেউবা ফিরছেন পরিবার-পরিজন নিয়ে। কারও সঙ্গে রয়েছে বাড়ি থেকে নিয়ে আসা বিভিন্ন জিনিসপত্রের ব্যাগ।

তবে লঞ্চের মাধ্যমে ঢাকামুখী এ যাত্রায় এখনও কোনো অনিয়ম বা বড় ধরনের ভোগান্তির অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

শুক্রবার দুপুর থেকে বরিশাল, ভোলা, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, চরফ্যাশন, হুলারহাট, ভান্ডারিয়া, লালমোহনসহ দেশের বিভিন্ন রুটের যাত্রী বোঝাই লঞ্চ টার্মিনালে ভিড়তে থাকে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে টার্মিনালে লঞ্চ এবং নগরমুখো যাত্রীও বাড়তে থাকে।

চাঁদপুর থেকে আসা ‘এমভি রহমত’ নামের একটি লঞ্চ সদরঘাটে আসে বিকেল ৩টায়। লঞ্চটিতে বৃহস্পতিবারের চেয়ে যাত্রীর ভিড় তুলনামূলক বেশি ছিল।

এই লঞ্চের যাত্রীরা বলেন, যাদের রোববার থেকে অফিস রয়েছে তারা এ দুদিনের মধ্যেই ঢাকায় ফিরবেন। ফলে এ দুদিন একটু চাপ বেশি থাকবে এটাই স্বাভাবিক।

ছুটির দিনে সদরঘাটে ভিড়ছে যাত্রীবোঝাই লঞ্চ

দুপুরে ভোলা থেকে ছেড়ে আসা ঈগল-৪ লঞ্চটি ঘাটে ভেড়ার সঙ্গে সঙ্গে যাত্রীরা হুড়োহুড়ি করে নামতে শুরু করেন।

তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, রোববার থেকে অফিস-আদালত, মার্কেট সবকিছু খোলা হবে। এজন্য তারা ঢাকায় চলে এসেছেন।

ভাড়া কেমন নিয়েছে জানতে চাইলে তারা বলেন, এখন তো ঈদের সিজন। ভাড়া তো একটু বেশি নেবেই। মানুষ ঢাকায় ফিরছে, ভাড়া তেমন একটা বেশি নেয়নি।

ভোলা থেকে আসা বেসরকারি এক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মামুনুর রশীদ বলেন, ‘পরিবারের সঙ্গে ঈদ কাটিয়ে আবার ঢাকায় ফিরলাম। আসতে তেমন কোনো ভোগান্তি হয়নি। ভালোভাবেই পৌঁছে গেছি।’

এদিকে সদরঘাট দিয়ে ঢাকা ছেড়ে যাওয়া সংখ্যা খুব কম দেখা গেছে। লঞ্চ কর্মকর্তারা জানান, সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে সকাল থেকেই একে একে ভিড়তে থাকে বিভিন্ন রুটের লঞ্চ। এদিন বরিশাল নদীবন্দর থেকে বেশ কয়েকটি লঞ্চ সদরঘাট টার্মিনালে এসে পৌঁছেছে।

ঈদযাত্রার পর মানুষ এখন আর তেমন বাড়ি যাচ্ছে না। এখন সবাই ফিরছে। সরকারি ছুটির এই দুদিন কর্মস্থল ঢাকায় ফিরতে লঞ্চে মানুষের বাড়তি চাপ থাকবে বলে জানিয়েছেন জাহাজ মালিক, স্টাফ ও কর্মকর্তারা।

ঈদের ছুটির আগের দুদিন ১৪ ও ১৫ এপ্রিল (শুক্র ও শনিবার) ছিল সাপ্তাহিক ছুটি। এরপর ১৬ থেকে ১৮ জুন তিনদিন ছিল ঈদের ছুটি। পরবর্তীতে ১৯ ও ২০ জুন অফিস-আদালত খুললেও অনেকেই এ দুদিন বাড়তি ছুটি কাটিয়েছেন।

ঈদের নির্ধারিত ছুটি শেষে বুধ ও বৃহস্পতিবার কাজে যোগ দিয়েছেন অনেকে। তবে পুরোদমে ফেরেনি কর্মচাঞ্চল্য।

যাত্রীর মূল চাপটা ২১ ও ২২ জুন (শুক্রবার, শনিবার) সাপ্তাহিক ছুটির দিনে থাকবে বলে জানিয়েছেন লঞ্চ-সংশ্লিষ্টরা। এই ছুটি শেষে ২৩ জুন রোববার থেকে রাজধানী ফিরে যাবে চিরচেনা সেই আগের রূপে।

সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালের ট্রাফিক কন্ট্রোল বিভাগের কর্মকর্তা এস এম মামুন জানান, ঈদের ছুটি শেষে যেমন যাত্রী থাকার কথা তেমনই হয়েছে। স্বাভাবিক সময়ে যেমন থাকে তার চেয়ে বেশি যাত্রীই লক্ষ্য করা গেছে।

বিআইডব্লিটিএ’র বাদিং সারেং আলমগীর হোসেন বলেন, ‘খুব সকাল থেকে এ পর্যন্ত ৭৮টি লঞ্চ ঢাকায় এসেছে। বৃহস্পতিবার একই সময়ে ৬১টি লঞ্চ রাজধানীতে এসেছিল। এদিন আসা প্রায় সব লঞ্চ ঢাকায় যাত্রী রেখে দ্রুত টার্মিনাল ত্যাগ করেছে।

‘লঞ্চগুলো হলো- এম ভি সুন্দরবন ১৬, মানামী, অ্যাডভেঞ্জার ১ ও ৯, সুন্দরবন ১০ ও ১৪, প্রিন্স আওলাদ ৭, এম ভি কুয়াকাটা ২, প্রিন্স রাসেল ৫, শুভরাজ ৯ ইত্যাদি। বেশ কয়েকটি স্পেশাল সার্ভিসের লঞ্চ বরিশাল থেকে ঢাকায় এসেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘লম্বা ছুটি থাকায় মানুষ ধাপে ধাপে ফিরছে। বিগত দুদিনের তুলনায় রাজধানীতে ফেরা মানুষের চাপ শুক্রবার কিছুটা বেড়েছে। চলতি সপ্তাহের মধ্যে রাজধানীর অধিকাংশ মানুষ কাজের টানে ফিরে আসবে।’

বিআইডব্লিউটিএ সদরঘাটের নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের যুগ্ম-পরিচালক মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন বলেন, ‘৪০টি নৌরুটে দিন ও রাত্রিকালীন সার্ভিস মিলিয়ে শতাধিক লঞ্চ ঢাকা থেকে বরিশাল, ঝালকাঠি, পটুয়াখালী, বরগুনা, ভোলা রুটে সরাসরি যাতায়াত করছে। তবে বিশেষ লঞ্চগুলো অতিরিক্ত যাত্রীর চাহিদা বিবেচনা করে চলাচল করে। সাধারণ সময়ে লঞ্চগুলো বাই রোটেশন তালিকা অনুসারে চলাচল করবে।’

সদরঘাট নৌ-পুলিশ থানার ওসি মো. আবুল কালাম বলেন, ‘সদরঘাট এলাকায় যানজট নিয়ন্ত্রণে ট্রাফিক পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে। পাশাপাশি নৌ-পুলিশ ঘাট ও আশপাশের এলাকায় সার্বক্ষণিক নজরদারি অব্যাহত রেখেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজ (শুক্রবার) সকাল থেকেই ঘাটে লঞ্চ আসতে শুরু করেছে। কিছু লঞ্চ আবার সদরঘাট ছেড়েও গেছে। পুলিশ বাহিনী সার্বক্ষণিক সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।’

আরও পড়ুন:
ঈদ শেষে ঢাকায় ফিরছে মানুষ, সরগরম সদরঘাট
ঈদের ছুটি শেষে ঢাকায় ফিরছে মানুষ

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The Prime Minister arrived in New Delhi on a two day state visit

প্রধানমন্ত্রী নয়াদিল্লি পৌঁছেছেন

প্রধানমন্ত্রী নয়াদিল্লি পৌঁছেছেন নয়াদিল্লির পালাম বিমানবন্দরে ভারতের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল ও বাংলাদেশের হাইকমিশনার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থনা জানান। ছবি: বাসস
প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট স্থানীয় সময় শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩টায় নয়াদিল্লির পালাম বিমানবন্দরে অবতরণ করে। ভারতের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল ও বাংলাদেশের হাইকমিশনার বিমানবন্দরে শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থনা জানান।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে দুদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে নয়াদিল্লি পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট স্থানীয় সময় শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩টায় নয়াদিল্লির পালাম বিমানবন্দরে অবতরণ করে। সূত্র: বাসস

এর আগে ফ্লাইটটি দুপুর ২টা ৩ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে।

ভারতের উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধিদল এবং বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. মুস্তাফিজুর রহমান বিমানবন্দরে শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থনা জানান।

লোকসভা নির্বাচনে জয়ী বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠনের পর ভারতে কোনো সরকার প্রধানের এটিই প্রথম দ্বিপাক্ষিক সফর।

সফরকালে উভয় প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে একান্তে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে এবং তারপর প্রতিনিধি পর্যায়ে আলোচনা হবে। উভয় দেশের মধ্যে বিদ্যমান দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও জোরদার করতে ঢাকা ও নয়াদিল্লির মধ্যে বেশ কিছু চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হবে এই সফরে।

এছাড়া একটি সম্ভাব্য বাণিজ্য চুক্তির বিষয়ে আলোচনা হবে বলে আশা করা হচ্ছে। গত এক দশকে শক্তিশালী আঞ্চলিক অংশীদারত্বের অংশ হিসেবে বেশ কিছু আন্তঃসীমান্ত উদ্যোগ চালু করা হয়েছে।

এটি ১৫ দিনেরও কম সময়ের মধ্যে ভারতের রাজধানীতে শেখ হাসিনার দ্বিতীয় সফর। ৯ জুন ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নরেন্দ্র মোদির শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মধ্যে শেখ হাসিনা উপস্থিত ছিলেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার অবস্থানস্থলে সাক্ষাৎ করবেন।

শনিবার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাতে রাষ্ট্রপতি ভবনে লালগালিচা বিছানো হবে। এ সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আনুষ্ঠানিকভাবে শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থনা জানাবেন এবং দু’দেশের জাতীয় সঙ্গীত বাজানো হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গার্ড অফ অনার দেয়া হবে এবং তিনি গার্ড পরিদর্শন করবেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এরপর রাজঘাটে ভারতের জাতির পিতা মহাত্মা গান্ধীর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। সেখানে পরিদর্শন বইয়ে তিনি স্বাক্ষর করবেন।

একই দিন শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে একান্ত বৈঠক এবং প্রতিনিধি পর্যায়ে আলোচনার জন্য হায়দরাবাদ হাউসে যাবেন।

উভয়েই সমঝোতা স্মারক ও চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান প্রত্যক্ষ করবেন। এরপর দুই প্রধানমন্ত্রী বিবৃতি দেবেন। হায়দ্রাবাদ হাউসে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সম্মানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী আয়োজিত ভোজসভায় যোগ দেবেন তিনি।

বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের উপ-রাষ্ট্রপতি জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে তার সচিবালয়ে সাক্ষাৎ করবেন। সন্ধ্যায় শেখ হাসিনা রাষ্ট্রপতি ভবনে ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে দেখা করবেন।

স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় প্রধানমন্ত্রী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে পালাম বিমানবন্দর থেকে ভারতের রাজধানী ত্যাগ করবেন এবং রাত ৯টায় ঢাকায় অবতরণ করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন:
ভোট চুরি করলে কেউ ক্ষমতায় থাকতে পারে না: প্রধানমন্ত্রী
গাজীপুরের ফজিলাতুন্নেসা হাসপাতালে রুটিন চেকআপ প্রধানমন্ত্রীর
ভিসা দেয়ার আগে কর্মী নিয়োগের নিশ্চয়তা চায় আমিরাত
গ্রেনেড হামলা মামলায় তারেকসহ ১৫ জন পলাতক: প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Foreign Minister congratulates the Saudi expatriates

সৌদি প্রবাসীদের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর অভিনন্দন

সৌদি প্রবাসীদের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর অভিনন্দন সৌদি প্রবাসীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। ছবি: বাসস
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সৌদি আরবে প্রায় ৩০ লাখ বাংলাদেশি আছেন। বিশ্বের অনেক দেশের মোট জনসংখ্যাও এর থেকে কম। ৩০ লাখ প্রবাসী বৈধপথে রেমিটেন্স পাঠালে দেশের জন্য তা বড় অবদান। এ বিষয়ে যত্নবান হতে হবে।

বৈধ উপায়ে রেমিটেন্স পাঠিয়ে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখা ও আইন মাফিক কাজের মাধ্যমে দেশের মর্যাদা বৃদ্ধির জন্য সৌদি প্রবাসী বাংলাদেশিদেরকে অভিনন্দন জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

একই সঙ্গে প্রবাসীদের জন্য বিশেষ পেনশন স্কিম, অফশোর ব্যাংকিং ও প্রবাসে ব্যবসায় মালিকানা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনাও দিয়েছেন মন্ত্রী। খবর বাসসের

সৌদি আরবে পবিত্র হজ পালন ও মহানবী (সা.)-এর রওজা শরীফ জিয়ারত শেষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মদিনার স্থানীয় একটি হোটেলে প্রবাসী বাংলাদেশিদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ অভিনন্দন ও নির্দেশনা দেন।

শুক্রবার ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে একথা বলা হয়েছে।

আওয়ামী যুবলীগ মদিনা শাখার সভাপতি জহিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে সৌদি আরবে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, জেদ্দায় নিযুক্ত কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ নাজমুল হক ও প্রবাসী বাংলাদেশিরা সভায় যোগ দেন।

সভায় ড. হাছান মাহমুদ তার দীর্ঘ প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা ও বিদেশে থাকাকালে দেশের জন্য মনের আকুতি তুলে ধরে বর্তমান প্রবাসীদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, সৌদি আরবে প্রায় ৩০ লাখ বাংলাদেশি আছেন। বিশ্বের অনেক দেশের মোট জনসংখ্যাও এর থেকে কম। ৩০ লাখ প্রবাসী বৈধপথে রেমিটেন্স পাঠালে দেশের জন্য তা বড় অবদান। এ বিষয়ে যত্নবান হতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রবাসীদেরকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে মূল্যায়ন করেন উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান বলেন, একজন প্রবাসী যত সহজে প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছতে পারেন, দেশের জেলা আওয়ামী লীগের নেতার পক্ষেও তা সম্ভব হয় না। প্রধানমন্ত্রী প্রবাসীদের জন্য বিশেষ পেনশন স্কিম চালু করেছেন, যার সুবিধা ৫৫ বছর বয়সের মানুষও নিতে পারেন। প্রবাসীদের জন্য অফশোর ব্যাংকিং সুবিধা রয়েছে, যেখানে সহজে ডলার একাউন্টও খোলা যায়।

প্রবাসে শুধু অন্যের প্রতিষ্ঠানে কাজ না করে ব্যবসায়ের মালিকানা অর্জনে উৎসাহ দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। পাশাপাশি তিনি বলেন, প্রত্যেক প্রবাসীই বিদেশে তার দেশের প্রতিনিধি। তিনি যদি অপরাধ করেন, তবে তার দেশের বদনাম হয়। সে কারণে বসবাসরত দেশের আইনকানুন মেনে চলা উচিত।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ শুক্রবার সৌদি আরব থেকে সরাসরি ভারতের নয়াদিল্লি গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে সঙ্গী হচ্ছেন।

আরও পড়ুন:
খালেদা জিয়া কেন জিয়া হত্যার বিচার করেননি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
বাংলাদেশ গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার: পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে জাতিসংঘ মহাসচিব
দৃষ্টি প্রতিবন্ধকতার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেতৃত্বে থাকবে বাংলাদেশ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
নেতানিয়াহুকে গ্রেপ্তারের দাবির প্রতি বাংলাদেশেরও সমর্থন আছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
এমপি আনারের হত্যাকাণ্ড দুই রাষ্ট্রের বিষয় নয়: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মন্তব্য

বাংলাদেশ
419 pilgrims returned to Dhaka

প্রথম ফ্লাইটে ঢাকায় ফিরলেন ৪১৯ হজযাত্রী

প্রথম ফ্লাইটে ঢাকায় ফিরলেন ৪১৯ হজযাত্রী ফিরলেন হজযাত্রীরা। ছবি: সংগৃহীত
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, শুক্রবার ভোর ৫টা ৪০ মিনিটে হজযাত্রীদের নিয়ে 'বিজি ৩৩২' ফ্লাইটটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।আগামী ২২ জুলাই পর্যন্ত ফিরতি হজ ফ্লাইট চলবে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রথম ফিরতি হজ ফ্লাইট সৌদি আরব থেকে ৪১৯ জন হজযাত্রী নিয়ে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) বুশরা ইসলামের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। খবর ইউএনবির

এতে বলা হয়, শুক্রবার ভোর ৫টা ৪০ মিনিটে হজযাত্রীদের নিয়ে 'বিজি ৩৩২' ফ্লাইটটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।আগামী ২২ জুলাই পর্যন্ত ফিরতি হজ ফ্লাইট চলবে।

ফেরত আসা হজযাত্রীদের হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বোর্ডিং গেটে ফুল দিয়ে স্বাগত জানানো হয় এবং প্রত্যেক হাজিকে বিমান এয়ারলাইন্সের স্থাপিত বিতরণ বুথ থেকে জমজমের পানি সরবরাহ করা হয়।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম ভূঁইয়া পানি বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মোহাম্মদ মফিদুর রহমান, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কাস্টমার সার্ভিস পরিচালক হায়াত-উদ-দৌলা খানসহ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ফেরত আসা হাজিরা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সার্বিক সেবায় সন্তোষ প্রকাশ করেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ১০৭টি হজ-পূর্ব ফ্লাইটের মাধ্যমে ৪০ হাজার ৯৬৭ জন হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন।

হজ পরবর্তী সময়ে হাজিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে ১২৫টি ফ্লাইট পরিচালনা করবে এয়ারলাইন্সগুলো।

এর মধ্যে মদিনা-চট্টগ্রাম রুটে ৯টি ও মদিনা-সিলেট রুটে ৫টিসহ মোট ৩৪টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। জেদ্দা থেকে জেদ্দা-চট্টগ্রাম-ঢাকা রুটে ১২টি এবং জেদ্দা-সিলেট-ঢাকা রুটে ৫টিসহ মোট ৯১টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।

হজ ফিরতি ফ্লাইটের অর্ধেক যাত্রী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে এবং বাকিরা সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স ও ফ্লাইনাসে করে দেশে ফিরবেন।

গত ৯ মে প্রথম হজ ফ্লাইট ছেড়ে যায়। সৌদি আরবে ফ্লাইট চলবে ১২ জুন পর্যন্ত। হজযাত্রীদের জন্য মোট ২১৮টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হয়। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স পরিচালিত ১০৬টি, সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্সের ৭৫টি এবং ফ্লাইনাসের ৩৭টি ফ্লাইট রয়েছে।

এ পর্যন্ত ২১ জন বাংলাদেশি হাজি ইন্তেকাল করেছেন। তাদের মধ্যে ১৮ জন পুরুষ ও তিনজন নারী। এদের মধ্যে মক্কায় ১৬ জন, মদিনায় ৪ জন ও জেদ্দায় ১ জন ইন্তেকাল করেন।

মন্তব্য

বৃষ্টি হতে পারে

বৃষ্টি হতে পারে ফাইল ছবি
রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

সারা দেশে অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়েছে, সারা দেশে অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বোচ্চ ১৩৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

অধিদপ্তর বলছে, সারা দেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আবহাওয়ার সার্বিক পর্যবেক্ষণে বলা হয়, পশ্চিমবঙ্গ থেকে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত একটি নিম্নচাপ অবস্থান করছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মাঝারি থেকে শক্তিশালী পর্যায়ে রয়েছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যান্য স্থানে মাঝারি পর্যায়ে রয়েছে।

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Myanmar has been told to retaliate Home Minister

মিয়ানমারকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে পাল্টা গুলি চালাব: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মিয়ানমারকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে পাল্টা গুলি চালাব: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। ছবি: সংগৃহীত
আসাদুজ্জামান খান বলেন, ‘নাফ নদ মোহনা কিছু নাব্য হারিয়েছে। কাজেই সেখানে আমাদের নৌযান মিয়ানমারের অংশ দিয়ে যেতে হয়। কখনও মিয়ানমার আর্মি, কখনও আরাকান আর্মি ফায়ার ওপেন করে। আমরা উভয়কেই বলে দিয়েছি- তারা যদি আর গুলি করে, আমরাও পাল্টা গুলি ছুড়ব।’

মিয়ানমার থেকে আর কোনো গুলি বাংলাদেশ ভূখণ্ডে এলে পাল্টা গুলি চালানো হবে- সেদেশে বিবাদমান দুপক্ষকে এমনটা হুঁশিয়ারি দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিজ দপ্তরে বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘মিয়ানমারে বিভিন্ন জাতি-গোষ্ঠী সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে। আমরা যতদূর শুনেছি আরাকান রাজ্যে আরাকান আর্মি অনেক এলাকা দখল করে নিয়েছে। সেজন্য মিয়ানমারের যে বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) তারা আত্মরক্ষার্থে আমাদের এলাকায় পালিয়ে আসছে। কাজেই সেখানকার অবস্থা কী, সেটা আমরা বলতে পারব না।

‘তবে এটুকু বলতে পারি, তারা মাঝে মাঝে ভুল করে আমাদের বিজিবির দলের ওপর গুলি ছুড়েছে। বিষয়টি তাদেরকে জানিয়েছি। তারা বলছে যে, সুনির্দিষ্টভাবে বাংলাদেশের পতাকা যেন উড়িয়ে যায়, তাহলে আর কেউ গুলি করবে না।’

আসাদুজ্জামান খান বলেন, ‘টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনে যেতে হলে আমাদের এলাকায় নাফ নদ মোহনা কিছু নাব্য হারিয়েছে। কাজেই সেখান দিয়ে আমাদের নৌযান চলাচল করতে পারে না। মিয়ানমারের অংশ দিয়ে যেতে হয়। আর সে কারণে এই বিপত্তিটা ঘটেছে।

‘কখনও মিয়ানমার আর্মি, কখনও আরাকান আর্মি ফায়ার ওপেন করে। আমরা উভয়কেই বলে দিয়েছি, তারা যদি আর গুলি করে, আমরাও পাল্টা গুলি ছুড়ব। ওখান থেকে আর কোনো গোলাগুলি হচ্ছে না। এখানে মিয়ানমারের যে দুটি জাহাজ ছিল সেগুলো ফেরত নিয়ে গেছে।

‘আমরা আশা করছি, সেখানে আর গুলি হবে না। তারপরও আমাদের যারা ওই পথ দিয়ে যাতায়াত করছেন, তারা সাবধানতা অবলম্বন করবেন।’

আরও পড়ুন:
সার্বভৌমত্ব চলে গেলে আমাদেরই বেশি ব্যথা লাগবে: কাদের
সেন্টমার্টিনে মিয়ানমারের গুলির ঘটনায় প্রয়োজনে জবাব: কাদের
মিয়ানমার থেকে আসা গুলির শব্দে টেকনাফে নির্ঘুম রাত
রোহিঙ্গাদের সহায়তায় বাংলাদেশের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্রের
ফিরলেন ৪৫ বাংলাদেশি, মিয়ানমারে ফেরত গেলেন ১৩৪ বিজিপি-সেনা

মন্তব্য

p
উপরে