× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
3 lives were lost on Tangail road including college students
hear-news
player
google_news print-icon

কলেজছাত্রসহ টাঙ্গাইলে সড়কে ঝরল ৩ প্রাণ

কলেজছাত্রসহ-টাঙ্গাইলে-সড়কে-ঝরল-৩-প্রাণ
মির্জাপুর থানা ও গোড়াই হাইওয়ে থানা পুলিশ দুর্ঘটনা কবলিত যানবাহন রেকারের সাহায্যে সরিয়ে নেয়। ছবি: নিউজবাংলা
টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরের তারাকান্দি-ভূঞাপুর সড়কের জগৎপুরা এলাকায় ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা দুমড়েমুচড়ে যায়। এতে অটোতে থাকা কলেজছাত্র মো. ইশরাক নিহত হন। আহত হন তার বাবা সোলায়মান।

টাঙ্গাইলের মির্জাপু‌র, ভুঞাপু‌র ও বাসাইলে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় ক‌লেজছাত্রসহ তিনজন নিহত হ‌য়ে‌ছে।

এতে আহত হ‌য়ে‌ছে ১২ জন। আহত‌দের উদ্ধার ক‌রে বিভিন্ন হাসপাতা‌লে ভর্তি করা হয়ে‌ছে।

বৃহস্পতিবার সকালে টাঙ্গাইলের তিন উপজেলায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

সকাল সা‌ড়ে ৯টার দি‌কে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরের তারাকান্দি-ভূঞাপুর সড়কের জগৎপুরা এলাকায় ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা দুমড়েমুচড়ে যায়। এতে অটোতে থাকা কলেজছাত্র মো. ইশরাক নিহত হন। আহত হন তার বাবা সোলায়মান। তাদের বাড়ি জামালপুরের সরিষাবাড়ীর থল এলাকায়। এতে আহত হয় আরও একজন। আহতদের উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ইশরা‌কের স্বজন জানান, ‘বাবার সঙ্গে ইশরাক টাঙ্গাইলের মাওলানা ভাসানী প্রযু‌ক্তি বিশ্ব‌বিদ‌্যাল‌য়ে ভ‌র্তি হ‌তে যা‌চ্ছিল। কিন্তু পথিমধ্যে বালুবাহী বেপরোয়া ট্রাকচাপা দিয়ে তার জীবন কেড়ে নিল।’

এ ছাড়া সকাল ৯টার দি‌কে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে মির্জাপু‌রের পোস্টকামুরী চড়পাড়া, দুল্যা, ইচাইল, কুরনী, শুভূল্যা ও ধল্যা নামক স্থানে এসব দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় অ্যাম্বুলেন্স, মালভর্তি ট্রাক, পিকআপ, প্রাইভেট, যাত্রীবাহী বাসসহ কমপক্ষে ২০টি যানবাহন দুর্ঘটনায় পড়ে। এ সময় একটি পিকআপ ট্রাকে পেছন থেকে ঢাকাগামী দ্রুতগতির একটি বাস ধাক্কা দিলে বা‌সের হেলপার নিহত হয়। পরে মির্জাপুর থানা ও গোড়াই হাইওয়ে থানা পুলিশ দুর্ঘটনাকবলিত যানবাহন রেকারের সাহায্যে সরিয়ে নেয়।

গোড়াই হাইওয়ে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও ভুঞাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ঘটনার সত‌্যতা স্বীকার ক‌রেছেন।

এ বিষয়ে মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম জানান, কুয়াশার কারণে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সামনের গাড়িতে ধাক্কা মারে। এভাবে কয়েকটি দুর্ঘটনা ঘটেছে। এ দুর্ঘটনায় একজন মারা গেছেন।

অন্যদিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহসড়কের বাসাইল ‍উপজেলার বাঐখোলা এলাকায় ঢাকাগামী একটি মোটরসাইকেলকে অজ্ঞাতনামা একটি গাড়ি পেছন থেকে চাপা দিলে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হন।

নিহত দুজনের লাশ গোড়াই হাইওয়ে থানায় ও একজনের লাশ ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতাল মর্গে রয়েছে।

আরও পড়ুন:
অটোরিকশায় বাসের ধাক্কা, দম্পতিসহ নিহত ৪
বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার তিন যাত্রী নিহত
বাসের জানালার বাইরে মাথা, প্রাণ গেল শিশুর
ধানমন্ডির দুর্ঘটনায় কাভার্ডভ্যানের চালক গ্রেপ্তার
ট্রেনে কাটা পড়ে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
No cure for Nipah virus Health Minister

নিপাহ ভাইরাসের চিকিৎসা নেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিপাহ ভাইরাসের চিকিৎসা নেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানিকগঞ্জ বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলার মাঠে শনিবার রাতে একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিচ্ছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। ছবি: নিউজবাংলা
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘নিপাহ একটি মারাত্বক ভাইরাস। এতে আক্রান্তদের ৭৫ শতাংশেরই মৃত্যু হয়। এ ভাইরাসের কোনো ভ্যাকসিন ও চিকিৎসা নেই। কাজেই আমাদের সবাইকে সাবধানে থাকতে হবে।’

বাদুড় থেকে সংক্রমিত নিপাহ ভাইরাসের কোনো চিকিৎসা নেই বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

মানিকগঞ্জ বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলার মাঠে শনিবার রাতে একটি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এমনটি জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘নিপাহ একটি মারাত্বক ভাইরাস। এতে আক্রান্তদের ৭৫ শতাংশেরই মৃত্যু হয়। এ ভাইরাসের কোনো ভ্যাকসিন ও চিকিৎসা নেই। কাজেই আমাদের সবাইকে সাবধানে থাকতে হবে।’

জাহিদ মালেক জানান, চলতি শীত মৌসুমে নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত আটজনের মধ্যে পাঁচজনই মারা গেছেন। এরইমধ্যে আক্রান্তদের জন্য ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) হাসপাতালে ২০টি এবং মহাখালীর বক্ষব্যাধি হাসপাতালে ৫টি বেড চিকিৎসার জন্য তৈরি করা হয়েছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের দেশে অনেক উন্নয়ন হয়েছে ও অনেক উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে। আগামীতে বিএনপি ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন থমকে যাবে, গরীব মানুষের ভাতা বন্ধ হয়ে যাবে। কারন ইতিপূর্বে বিএনপির আমলে আমরা তা দেখেছি।’

বিএনপি করোনাভাইরাসের টিকাবিরোধী প্রচারণা চলিয়েছিল উল্লেখ করে জাহিদ মালেক বলেন, ‘আমাদের দেশের প্রতিটি মানুষ ভ্যাকসিন পেয়েছে। কাজেই আমরা নিরাপদে আছি। বিএনপি ভ্যাকসিনকে গঙ্গার জল বলেছিল।’

অনুষ্ঠানে মানিকগঞ্জের জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ, পুলিশ সুপার মুহাম্মদ গোলাম আজাদ খান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সুদেব কুমার সাহাসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন:
শেখ হাসিনা ক্ষমতায় যতদিন, উন্নয়নও ততদিন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক কিনলে শাস্তি
চলতি শীতে নিপা ভাইরাসে ৮ জনের মধ্যে ৫ জনই মারা গেছেন
হাসপাতালেই চেম্বার করতে পারবেন চিকিৎসকরা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
অন্তর্দ্বন্দ্ব নির্বাচনে হারার কারণ হতে পারে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Govt sings song of development by kicking people in stomach Selima

জনগণের পেটে লাথি মেরে সরকার উন্নয়নের গান গাইছে: সেলিমা

জনগণের পেটে লাথি মেরে সরকার উন্নয়নের গান গাইছে: সেলিমা শনিবার সিলেট নগরের রেজিস্টারি মাঠে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে বক্তব্য দেন বেগম সেলিমা রহমান। ছবি: নিউজবাংলা
তাহসিনা রুশদীর লুনা বলেন, সরকার রাষ্ট্রের সব প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করেছে। তাদের দুর্নীতির খেসারত দিচ্ছে জনগণ। না খেয়ে মরার চেয়ে পুলিশের গুলি খেয়ে মরা অনেক সম্মানের। তাই জনগণকে এই সরকারের জুলুমের বিরুদ্ধে রাস্তায় নামতে হবে।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান বলেছেন, ‘জনগনের পেটে লাথি মেরে সরকার উন্নয়নের গান গাইছে। উন্নয়ন মানে হলো জনগণের উন্নয়ন। কিন্তু এই সরকার জনগনের কোন উন্নয়ন করেনি। আজ দেশে দুর্ভিক্ষের অবস্থা। বিদ্যুতসহ সবকিছুর মূল্য বৃদ্ধির কারণে জনগণের নাভিশ্বাস উঠেছে। তাই জনগণ আর এই সরকারকে চায় না।’

শনিবার দুপুরে সিলেট নগরের রেজিস্টারি মাঠে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকীর সভাপতিত্বে সমাবেশে তিনি আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগের কোনো রাজনীতি নেই। তাদের কেবল আছে দখল আর লুটপাট। এসব করে তারা আবার দেশকে তলাবিহীন ঝুড়িতে পরিণত করেছে।’

সিলেট মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব মিফতা সিদ্দিকীর সঞ্চালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তাহসিনা রুশদীর লুনা। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার জগদ্দল পাথরের মতো আমাদের ওপর চেপে বসেছে। রাষ্ট্রের সব প্রতিষ্ঠানকে তারা ধ্বংস করেছে। তাদের দুর্নীতির খেসারত দিচ্ছে জনগণ।

‘না খেয়ে মরার চেয়ে পুলিশের গুলি খেয়ে মরা অনেক সম্মানের। তাই জনগণকে এই সরকারের জুলুমের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে আসতে হবে।’

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ডা. এনামুল হক চৌধুরী বলেন, ‘সরকারকে বিদায় করতে না পারলে রাষ্ট্র মেরামত করা যাবে না। এজন্য বিএনপির ১০ দফা বাস্তবায়ন করতে হবে।’

চেয়ারপারসনের আরেক উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির বলেন, ‘দেশ ও দেশের মানুষকে মুক্তি দিতে হলে হায়েনাদের ক্ষমতা থেকে সরাতে হবে। সরকার যদি গণতন্ত্রের ভাষা না বোঝে তাহলে দেশে শ্রীলংকার অবস্থা হবে।’

যুগ্ন মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল বলেন, ‘আমরা যখন এখানে সমাবেশ করছি তখন সিলেটে আরেকটি সমাবেশ হচ্ছে। পিস্তল, রাইফেল, বন্দুক নিয়ে শান্তি সমাবেশ করা হচ্ছে। আমাদের চুলকানি দেয়ার জন্যই একই দিনে সমাবেশ করছে আওয়ামী লীগ।’

সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন, সহ-ক্ষুদ্র ঋণ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উদ্দিন মিলন, সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আবুল কাহের শামীম, মিজানুর রহমান, শাম্মী আখতার প্রমুখ।

আরও পড়ুন:
রক্তচক্ষু দেখিয়ে শেখ হাসিনাকে দমানো যাবে না: নানক
সিলেট ও খুলনায় পাল্টাপাল্টি সমাবেশ, সংঘাতের শঙ্কা
সিলেটে আওয়ামী লীগ-বিএনপি মুখোমুখি
নামেই ডিজিটাল নগর সিলেট
সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির নেতৃত্বে অশোক-সুহেল

মন্তব্য

বাংলাদেশ
3 forest guards scared of tigers

৩ বাঘে আতঙ্কিত বনরক্ষীরা

৩ বাঘে আতঙ্কিত বনরক্ষীরা বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের সুপতি স্টেশনের চান্দেশ্বর ফরেস্ট অফিস এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছে বাঘগুলো। ছবি: নিউজবাংলা
চান্দেশ্বর ফরেস্ট টহল ফাঁড়ির ইনচার্জ ফারুক বলেন, ‘ এখনও বাঘগুলো অফিসের দক্ষিণ পাশে নদীর তীরে অবস্থান করছে। আমরাও সতর্ক অবস্থানে থেকে বাঘের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করছি।’

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের সুপতি স্টেশনের চান্দেশ্বর ফরেস্ট অফিস এলাকায় তিনটি বাঘকে ঘুরতে দেখা গেছে। এতে আতঙ্ক বিরাজ করছে চান্দেশ্বর ফরেস্ট অফিসের পাঁচ বনরক্ষীর মাঝে।

বনরক্ষীদের ভাষ্য, শুক্রবার দুপুর দুইটার দিকে তিনটি বাঘ তাদের অফিস প্রাঙ্গনে ঢুকে পড়ে। শনিবারও বাঘগুলো দেখা গেছে।

চান্দেশ্বর ফরেস্ট টহল ফাঁড়ির ইনচার্জ ফারুক বলেন, ‘ এখনও বাঘগুলো অফিসের দক্ষিণ পাশে নদীর তীরে অবস্থান করছে। আমরাও সতর্ক অবস্থানে থেকে সেগুলোর গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করছি।’

শরণখোলা রেঞ্জ কর্মকর্তা মো সামসুল আরেফীন বলেন, এই সময়টা বাঘের প্রজননকাল। তাই সঙ্গীসহ বাঘগুলো নিজস্ব প্রকৃতিতে চলাচল করছে। তাদের কোনো ক্ষতি না করতে বনরক্ষীদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন:
সন্ধ্যা হলেই বাঘের আতঙ্ক সেখানে
বাঘের মুখে থেকে ফিরলেন বাগেরহাটের অনুকুল
ফাঁদে আটকা মেছো বাঘ
বাঘ গুনতে সুন্দরবনে বসছে ক্যামেরা
তিন কোটি টাকায় সুন্দরবনে বাঘ গণনা শুরু

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The last Hasina cannot be suppressed by showing bloodshot eyes Nanak

রক্তচক্ষু দেখিয়ে শেখ হাসিনাকে দমানো যাবে না: নানক

রক্তচক্ষু দেখিয়ে শেখ হাসিনাকে দমানো যাবে না: নানক শনিবার সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শান্তি সমাবেশে বক্তব্য দেন জাহাঙ্গীর কবির নানক। ছবি: নিউজবাংলা
সিলেটে আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশে জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, ‘বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে আমাদের সভা-সমাবেশ করতে দেয়নি। এখন তারা গণতন্ত্রের কথা বলে। দেশে গণতন্ত্র আছে। কিন্তু বিএনপির জনসমর্থন নেই। জনগণের সমর্থন হারিয়ে দলটির নেতারা এখন আবোলতাবোল বলছেন।’

আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, ‘সরকারকে নিয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র চলছে। এই ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। তবে কোনো রক্তচক্ষু দেখিয়ে শেখ হাসিনাকে দমানো যাবে না।’

শনিবার সিলেটে আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সমাবেশ বিকেল ৪টায় শুরু হলেও তার অনেক আগে থেকেই দলীয় নেতাকর্মী-সমর্থকরা সমাবেশস্থল সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এসে জড়ো হতে থাকেন।

সমাবেশে নানক বলেন, ‘বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে আমাদের সভা-সমাবেশ করতে দেয়নি। এখন তারা গণতন্ত্রের কথা বলে। দেশে গণতন্ত্র আছে। কিন্তু বিএনপির জনসমর্থন নেই। জনগণের সমর্থন হারিয়ে দলটির নেতারা এখন আবোলতাবোল বলছেন।’

বিএনপিকে নেতাবিহীন দল উল্লেখ করে তিনি প্রশ্ন রাখেন, ‘তারেক রহমানের লন্ডনে রাজকীয় জীবনের টাকা কোথা থেকে আসে।’

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সৈয়দা জেবুন্নেছা হক।

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন খানের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আসাদ উদ্দিন আহমদ, আব্দুল খালিক, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক আনোরুজ্জামান চৌধুরী প্রমুখ।

আরও পড়ুন:
বেশির ভাগ সময় বন্ধ থাকে যে হাসপাতাল
ধুঁকছে সিলেটের ‘নগর এক্সপ্রেস’
সমাবেশ শেষ হতেই উঠে গেল পরিবহন ধর্মঘট
তত্ত্বাবধায়কের বিরোধীরা হবে গণশত্রু: ফখরুল
ইলিয়াস গুম, গণতন্ত্রও গুম: গয়েশ্বর

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The Jubo League leader who beat the journalist in Bogra was arrested

বগুড়ায় সাংবাদিক পেটানো সেই যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার

বগুড়ায় সাংবাদিক পেটানো সেই যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার বগুড়ায় যুবলীগ নেতা শরিফুল ইসলাম শিপুলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ছবি: নিউজবাংলা
পুলিশের ভাষ্য, বগুড়া-৪ ও ৬ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলমের সংবাদ করায় ওই দুই সাংবাদিকের ওপর হামলার অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় শনিবার মামলা করা হয়।

বগুড়ায় দুই সাংবাদিকের ওপর হামলার অভিযোগে যুবলীগ নেতা শরিফুল ইসলাম শিপুলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শহরের কলোনী বাজার থেকে শনিবার দুপুর সোয়া ২ টার দিকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার শিপলু বগুড়া জেলা যুবলীগের প্রস্তাবিত কমিটির সহ-সভাপতি।

হামলার শিকার দুই সাংবাদিক হলেন-বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক কালেরকণ্ঠের জেলা প্রতিনিধি জে এম রউফ ও দৈনিক বগুড়ার পত্রিকার জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক জহুরুল ইসলাম।

পুলিশের ভাষ্য, বগুড়া-৪ ও ৬ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলমের সংবাদ করায় ওই দুই সাংবাদিকের ওপর হামলার অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় শনিবার মামলা করা হয়।

বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নূরে আলম সিদ্দিকী বলেন, হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত যুবলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।
হামলার সময় সাংবাদিককর হিরো আলমের নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করার সংবাদ লিখছিলেন।

আরও পড়ুন:
বাগেরহাট জেলা যুবলীগের সভাপতি নাসির, সম্পাদক জেমস
খ্রিষ্টানপল্লিতে হামলার ঘটনায় যুবলীগের ২ নেতা বহিষ্কার
খ্রিস্টান পল্লীতে যুবলীগ নেতার নেতৃত্বে দুই দফা হামলা
মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত যুবলীগ নেতার মৃত্যু
যুবলীগ নেতার চোখ উপড়ে ফেলা আসামি গ্রেপ্তার

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Human chain in case of female vice chairmans attack on female doctor

নারী চিকিৎসকের ওপর মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের হামলার ঘটনায় মানববন্ধন

নারী চিকিৎসকের ওপর মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের হামলার ঘটনায় মানববন্ধন
চিকিৎসকরা মানববন্ধনে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের আল্টিমেটাম দেন। পাশাপাশি সব চিকিৎসকদের নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ চার দফা দাবি তুলে ধরেন।

কক্সবাজার সদর হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসকের ওপর জনপ্রতিনিধির নেতৃত্বে হামলার ঘটনায় প্রতিবাদ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে চিকিৎসকরা।

কক্সবাজার সদর হাসপাতাল চত্বরে শনিবারের সকালে এ প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন চিকিৎসকেরা।

মানববন্ধনে চিকিৎসকরা বলেন, গত ৩ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাতে উখিয়া উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কামরুন্নেছা বেবীর এক স্বজনকে চিকিৎসা সেবা দেয়ার সময় হঠাৎ উত্তেজিত হয়ে ভাইস চেয়ারম্যান বেবীর নেতৃত্বে কয়েকজন মিলে মেডিক্যাল অফিসার ফাতেমা ইব্রাহিম মিশুর ওপর বর্বরোচিত হামলা চালায়। কিন্তু দুদিন অতিবাহিত হলেও কোনো ধরনের ব্যবস্থা নেয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

চিকিৎসকরা মানববন্ধনে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের আল্টিমেটাম দেন। পাশাপাশি সব চিকিৎসকদের নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ চার দফা দাবি তুলে ধরেন।

আরও পড়ুন:
ব্যক্তিমালিকানার সম্পত্তিকে খেলার মাঠ দাবি
সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালকদের হয়রানি বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন
নিখোঁজ চিকিৎসক, কলেজছাত্রকে ফেরত চাইলেন স্বজনরা 
মানুষের নিরাপত্তার কোনো নিশ্চয়তা নেই: দুদু
গৃহবধূ হত্যার ঘটনায় ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Bangladesh will never have a caretaker government again Tofail

বাংলাদেশে আর কখনও তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না: তোফায়েল 

বাংলাদেশে আর কখনও তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না: তোফায়েল  ভোলায় নিজের নির্বাচনী এলাকায় বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের বর্ষীয়ান নেতা তোফায়েল আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত
আওয়ামী লীগের বর্ষীয়ান নেতা তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘বিএনপি নতুন করে রাজপথে নেমেছে ১০ দফা দাবিতে। তারা আগামী নির্বাচন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে চায়। আমি স্পষ্ট বলে দিতে চাই, বাংলাদেশে আর কখনও তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না। বর্তমান ক্ষমতাসীন দলের অধীনে নির্বাচন হবে সংবিধান অনুসারে। বিএনপি যে অবাস্তব দাবি করে তার কোনো মূল্য নেই।’

বিএনপি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন করলেও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ভোলা-১ আসনের সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, এ দেশে আর কখনও তত্ত্বাবধায়ক সরকার গঠিত হবে না।

ভোলায় নিজের নির্বাচনী এলাকার কাচিয়া,পূর্ব ইলিশা ও রাজাপুর ইউনিয়নে শনিবার একাধিক পথসভায় তিনি এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের বর্ষীয়ান নেতা তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘বিএনপি নতুন করে রাজপথে নেমেছে ১০ দফা দাবিতে। তারা আগামী নির্বাচন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে চায়। আমি স্পষ্ট বলে দিতে চাই, বাংলাদেশে আর কখনও তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না। বর্তমান ক্ষমতাসীন দলের অধীনে নির্বাচন হবে সংবিধান অনুসারে। বিএনপি যে অবাস্তব দাবি করে তার কোনো মূল্য নেই।’

ভোলার বিভিন্ন উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে তিনি আরও বলেন, ‘ভোলায় পর্যাপ্ত গ্যাস রয়েছে যা সারা দেশে সরবরাহের পাশাপাশি ভোলায় শিল্পকারখানা গড়ে তোলা হবে। ভোলা-বরিশালের মধ্যে ব্রিজ হবে। এ জেলা হবে অন্যতম একটি বৃহৎ অর্থনৈতিক জোন।’

তোফায়েল আহমেদ ৫ দিনের সংক্ষিপ্ত সফরে তার নির্বাচনী এলাকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পরিদর্শন, নেতা-কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় ও পথসভায় বক্তব্য দেন।

আরও পড়ুন:
সিলেটে বিএনপির সমাবেশ শুরু
সিলেটে প্রস্তুত হচ্ছে আওয়ামী লীগ-বিএনপির মঞ্চ
খুলনায় বিএনপির সমাবেশস্থলে জড়ো হচ্ছেন নেতা-কর্মীরা
সিলেটে আওয়ামী লীগ-বিএনপি মুখোমুখি
উপনির্বাচনে ভোটার নিয়ে ফখরুলের বক্তব্য বানোয়াট: কাদের

মন্তব্য

p
উপরে