× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
Bloody body in the house sister in law detained
hear-news
player
google_news print-icon

ঘরে রক্তাক্ত মরদেহ, ভগ্নিপতি আটক

ঘরে-রক্তাক্ত-মরদেহ-ভগ্নিপতি-আটক
সন্দেহভাজন হিসেবে নিহতের বোনজামাই মোজাফফর হোসেনকে আটক করে ডিবি। ছবি: নিউজবাংলা
মরদেহ উদ্ধার ও আটকের ঘটনায় ডিবির ইনচার্জ সাইহান ওলিউল্লাহ বলেন, ‘এটি নিয়ে কাজ চলছে। এখন কিছু বলা যাবে না।’

বগুড়া সদরে নিজ বাড়িতে জামাল উদ্দিন খাজা নামের এক ব্যক্তির রক্তাক্ত মরদেহ মিলেছে। এ ঘটনায় নিহতের ভগ্নিপতি মোজাফফর হোসেনকে আটক করেছে জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা।

এর আগে শনিবার সকালে শহরের বৃন্দাবনপাড়া এলাকা থেকে জামালের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। রাতের কোনো একসময় তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

৬০ বছর বয়সী জামাল একটি বেকারি প্রতিষ্ঠানে পণ্য পরিবহনের কাজ করতেন। এ ছাড়া বাড়ির ভেতরে থাকা একটি মাজার রক্ষণাবেক্ষণও করতেন তিনি।

মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় আটক মোজাফফর রাজমিস্ত্রির কাজ করেন। তিনি নিহত জামালের মেজো বোনের স্বামী।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বগুড়া সদর থানা পুলিশের পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুল মুন্নাফ জানান, নিহতের বাড়ির ভেতরে একটি পুরোনো মাজার রয়েছে। তাই বিষয়টি সংবেদনশীল হওয়ায় সিরাজগঞ্জ থেকে সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিট এসে সেখানে কাজ করছে।

স্বজনরা জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিহতের বড় বোন আম্বিয়ার মৃত্যু হয়। এ জন্য পরিবারের সবাই ওই রাত থেকে শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত শহরের ফুলদীঘি বোনের বাড়িতে ছিলেন। সন্ধ্যায় জামাল বাড়িতে ফিরে আসেন। বাড়িতে তিনি একাই ছিলেন। কারণ শুক্রবার সকালে ছেলেকে নিয়ে বাবার বাড়ি চাঁদমুহাতে ওয়াজ মাহফিলের দাওয়াতে গিয়েছিলেন তার স্ত্রী। সকালে তারা এসে অনেক ডাকাডাকি করেও জামালের কোনো সাড়া পাননি। পরে বাড়ির পেছন দিক দিয়ে ভেতরে ঢুকে তারা জামালের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখেন।

জামালের ছোট ভাই জহির উদ্দিন বলেন, ‘ভাই পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়তেন। তিনি কারও সঙ্গে কখনও তর্ক বা দ্বন্দ্বে জড়াতেন না। আমার মেজো বোনের স্বামী মোজ্জাফর রাজমিস্ত্রি হওয়ায় আমাদের সবার বাড়ি নির্মাণ করেছেন। জামাল ভাইয়ের বাড়ি নির্মাণের সময় কিছু ভুল ছিল। কিন্তু এটা নিয়ে দ্বন্দ্ব হতে পারে বলে মনে হয় না।’

জহিরের স্ত্রী পারভীন বেগম বলেন, ‘আমার স্বামী ও তার ভাইয়েরা ছোট থেকেই এই মাজার দেখে আসছেন। শুনেছি মহাস্থানের শাহ সুলতান বলখীর (র.)-এর সহযোগীর মাজার এটি। এই মাজার আমার ভাশুর জামাল উদ্দিন দেখাশোনা করতেন। কিন্তু কোনো অনুষ্ঠান বা অন্য কিছুর আয়োজন কখনও হয়নি এখানে।’

বগুড়া সদর থানা পুলিশের তদন্ত পরিদর্শক বাবু কুমার সাহা বলেন, ‘ক্রাইম সিন ইউনিট এসেছিল। তাদের কাজের পর জামালের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

এর আগে ক্রাইম সিন কাজ করা অবস্থায় দুপুর ১টার দিকে ডিবি পুলিশ নিহতের বোনজামাই মোজাফফর হোসেনকে হাতকড়া পরিয়ে নিয়ে যান। এ সময় কাপড়ে মোড়ানো একটি লোহার শাবলও জব্দ করে নিয়ে যাওয়া হয়।

তবে এই আটকের বিষয়ে কিছু বলতে নারাজ ডিবির ইনচার্জ সাইহান ওলিউল্লাহ। তিনি বলেন, ‘এটি নিয়ে কাজ চলছে। এখন কিছু বলা যাবে না।’

আরও পড়ুন:
জমিতে কৃষি শ্রমিকের মরদেহ
শাজাহানপুরে গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার
মসজিদের টয়লেটে যুবকের মরদেহ
বাইকের সংঘর্ষে ২ যুবক নিহত
জমির পাশ থেকে নার্সারি কর্মীর মরদেহ উদ্ধার

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
Drinking smoke comes out

পান খেলে মাথা দিয়ে বের হয় ধোঁয়া!

পান খেলে মাথা দিয়ে বের হয় ধোঁয়া! কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খেলেই ধোঁয়া বের হয় গোলাম রাব্বানীর মাথা দিয়ে। ছবি: নিউজবাংলা
রাব্বানী জানান, প্রায় সাত থেকে আট বছর আগে থেকেই কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খেলে তার মাথা দিয়ে ধোঁয়া বের হয়। এই ধোঁয়া দেখে অনেকেই আনন্দ পান। সবার আনন্দ দেখে তারও ভালো লাগে। বিভিন্ন এলাকায় গেলে রাব্বানীর কাছ থেকে অনেকে মাথা থেকে ধোঁয়া বের হওয়ার দৃশ্য দেখতে চান। আর এ জন্য প্রতিদিন প্রায় ৩০টি পান খাওয়া হয় তার।

নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার চকগাজীপুর গ্রামের বাসিন্দা গোলাম রাব্বানী কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খেলেই তার মাথা থেকে ধোঁয়া বের হয়। এ ঘটনায় চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে ওই এলাকায়। স্থানীয়রা তার নাম দিয়েছেন ‘ধোঁয়া মানব’। এ ঘটনা দেখতে প্রতিনিয়ত লোকজন ভিড় করছেন রাব্বানীর বাড়িতে।

রাব্বানী জানান, প্রায় সাত থেকে আট বছর আগে থেকেই কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খেলে তার মাথা দিয়ে ধোঁয়া বের হয়। এই ধোঁয়া দেখে অনেকেই আনন্দ পান। সবার আনন্দ দেখে তারও ভালো লাগে।

বিভিন্ন এলাকায় গেলে রাব্বানীর কাছ থেকে অনেকে মাথা থেকে ধোঁয়া বের হওয়ার দৃশ্য দেখতে চান। আর এ জন্য প্রতিদিন প্রায় ৩০টি পান খাওয়া হয় তার।

রাব্বানীর স্ত্রী তানিয়া খাতুন জানান, শারীরিক সমস্যা না হওয়ায় ধোঁয়া বের হওয়ার বিষয়টি নিয়ে কোনো চিকিৎসকের কাছে যাননি তারা। এখন অনেক লোকজন ধোঁয়া দেখার জন্য তাদের বাড়িতেও ভিড় করেন। অনেকেই এই ধোঁয়া দেখার জন্য তার স্বামীকে শখ করে পান খাওয়ান।

স্থানীয় বাসিন্দা মঞ্জুরুল আলম মাসুম বলেন, মাথা দিয়ে ধোঁয়া ওঠার ঘটনাটি বিরল ও বিস্ময়কর। রাব্বানীকে নিয়ে আড্ডা আর হাসি-আনন্দে সময় কাটায় এলাকার সব বয়সী মানুষ। তরুণরা তার সঙ্গে নিজেদের সেলফিবন্দিও করেন।

বাগাতিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘কাঁচা সুপারিতে এমন উপাদান আছে যা শরীরে অতিরিক্ত উত্তাপ সৃষ্টি করে। সেই উত্তাপ বের করে দিতে জলীয় বাষ্পের সৃষ্টি হয়। সে কারণে অতিরিক্ত ঘাম হয়। রাব্বানীর মাথা দিয়ে ধোঁয়া ওঠার বিষয়টি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বলা যাবে।’

নাটোরের সিভিল সার্জন ড. রোজী আরা খাতুন বলেন, ‘কাঁচা সুপারি দিয়ে পান খেলে নানা শারীরিক উপসর্গ দেখা দেয়। মাথা দিয়ে ধোঁয়া বের হওয়ার কারণ জানতে মেডিকেল বোর্ড গঠন করে বুধবার রাব্বানীর শরীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে।’

আরও পড়ুন:
চিনিকল রক্ষায় সমাবেশের ঘোষণা
নাটোরের তিন পৌরসভাই নৌকার
নাটোরে চুরি হওয়া সেই শিশু উদ্ধার, আটক ১
৬৫ নারী পেল সেলাই মেশিন
একা ঘরে পুড়ে মৃত্যু প্রতিবন্ধী তরুণীর

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The office of the vice chancellor in Chabi was vandalized due to the lack of jobs of Chhatra League workers

ছাত্রলীগ কর্মীর চাকরি না হওয়ায় চবিতে উপাচার্যের কার্যালয়ে ভাঙচুর

ছাত্রলীগ কর্মীর চাকরি না হওয়ায় চবিতে উপাচার্যের কার্যালয়ে ভাঙচুর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কার্যালয়ে ভাঙচুর চালিয়েছে ছাত্রলীগ। ছবি: নিউজবাংলা
চবি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মঈনুল ইসলাম রাসেল বলেন, ‘ছাত্রলীগের স্বর্ণপদক প্রাপ্ত ছেলেকে চাকরি না দিয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলন নেতা ও জামাত-শিবির মদদপুষ্ট নিয়োগপ্রার্থীকে নেয়া হচ্ছে। আমাদের দাবি এদেরকে বাদ দিতে হবে।’

শিক্ষক পদে ছাত্রলীগ কর্মীর চাকরি না হওয়ায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) উপাচার্যের কার্যালয়ে ভাঙচুর চালিয়েছে সংগঠনটির নেতা-কর্মীরা। একই সঙ্গে শাটল ট্রেন অবরোধ করে রেখেছে তারা।

চবির সিন্ডিকেট সভা চলাকালে সোমবার বিকাল চারটার দিকে ভাঙচুর চালানো হয়।

চবি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মঈনুল ইসলাম রাসেল বলেন, ‘ছাত্রলীগের স্বর্ণপদক প্রাপ্ত ছেলেকে চাকরি না দিয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলন নেতা ও জামাত-শিবির মদদপুষ্ট নিয়োগপ্রার্থীকে নেয়া হচ্ছে। আমাদের দাবি এদেরকে বাদ দিতে হবে।’

ছাত্রলীগ কর্মীর চাকরি না হওয়ায় চবিতে উপাচার্যের কার্যালয়ে ভাঙচুর

তিনি বলেন, ‘যতক্ষণ পর্যন্ত জামাত-শিবির মদদপুষ্ট নিয়োগপ্রার্থীকে বাদ দেয়া হবে না ততক্ষণ পর্যন্ত ট্রেন অবরোধ থাকবে।’

চবির প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূইয়া বলেন, ‘ভাঙচুর কেন হয়েছে সেটা তদন্ত সাপেক্ষে বুঝা যাবে। নিয়োগের বিষয়ে এক্সপার্ট বোর্ড যাদের ভালো মনে করছে তাদের নিয়েছে। শাটলের বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি।’

আরও পড়ুন:
চারুকলার সংকট নিরসনে কমিটি ঘোষণা চবির
চবির মার্কেটিং বিভাগের পোস্ট গ্র্যাজুয়েশন সিরেমনির জমকালো আয়োজন
উৎসবে রঙিন চবির মার্কেটিং বিভাগ
তৃতীয় দিনে গড়াল চবি চারুকলা শিক্ষার্থীদের আন্দোলন
চবির চারুকলার শিক্ষার্থীদের ২২ দাবিতে ক্লাস বর্জন ও অবস্থান কর্মসূচি

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Body of newborn in Bhagare

ভাগাড়ে নবজাতকের মরদেহ

ভাগাড়ে নবজাতকের মরদেহ প্রতীকী ছবি
স্থানীয়দের ভাষ্য, দুপুরের দিকে ডাস্টবিনে শিশুটির মরদেহটি দেখে জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ কল দেয়া হয়। পরে পুলিশ এসে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

কুমিল্লা নগরীতে ডাস্টবিন থেকে এক নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

নগরীর ঠাকুরপাড়া বাগানবাড়ি এলাকা থেকে সোমবার দুপুরে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়দের ভাষ্য, দুপুরের দিকে ডাস্টবিনে শিশুটির মরদেহটি দেখে জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯-এ কল দেয়া হয়। পরে পুলিশ এসে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে কুমিল্লার কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহম্মদ সনজুর মোর্শেদ বলেন, ‘নবজাতকের পরিচয় পাইনি। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে। ’

আরও পড়ুন:
কেন্দ্র দখল, কুবি শিক্ষক সমিতির ভোট পণ্ড
কুমিল্লায় বিএনপির সমাবেশে মোবাইল হারানোর ৭১ জিডি
কুমিল্লা সমাবেশ: বিএনপির ভেতরে ক্ষোভের আগুন
কুমিল্লায় সমাবেশ নিয়ে সাক্কু-কায়সারের রাজ্যের হতাশা
সম্প্রীতির অনন্য উদাহরণ কুমিল্লার সমাবেশ

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Five residential houses were burnt in short circuit

শর্ট সার্কিটে পুড়ল পাঁচটি বসতঘর

শর্ট সার্কিটে পুড়ল পাঁচটি বসতঘর
ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আকতার জানান, দুপুরে কাঁচামাল ব্যবসায়ী সেন্টু হোসেনের বাড়িতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগে। দ্রুতই আগুন পাশে থাকা অপর তিন ভাই আনোয়ার, মজনু ও আতোয়ারসহ তাদের বাবার বাড়িতে ছড়িয়ে পড়ে।

নাটোরে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে লাগা আগুনে পাঁচটি পরিবারের বাড়ি ঘরসহ সমস্ত মালামাল পুড়ে গেছে।

শহরতলীর বড়হরিশপুর পূর্বপাড়া এলাকায় সোমবার দুপুর ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আকতার হোসেন নিউজবাংলাকে এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, দুপুরে কাঁচামাল ব্যবসায়ী সেন্টু হোসেনের বাড়িতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগে। দ্রুতই আগুন পাশে থাকা অপর তিন ভাই আনোয়ার, মজনু ও আতোয়ারসহ তাদের বাবার বাড়িতে ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়রা আগুন নেভাতে ব্যর্থ হয়ে জরুরি সেবা ৯৯৯ এ ফোন দেয়। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

তার আগেই পুড়ে যায় নগদ ৯ লাখ টাকা, মোটর সাইকেল, ফ্রীজ, খাট, আসবাসসহ পাঁচ পরিবারের সব কিছু। এতে প্রায় ৩০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানান ক্ষতিগ্রস্থরা।

আরও পড়ুন:
কামরাঙ্গীরচরে জুতার কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে
কামরাঙ্গীরচরে জুতার কারখানায় আগুন
চৌমুহনী বাজারে পুড়ল ৩০ দোকান
চুলার আগুনে প্রাণ গেল এক পরিবারের পাঁচজনের
গাজীপুরে মোজা কারখানায় আগুন

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Vidyanands buffet food for 1 taka

১ টাকায় ব্যুফেতে খাবার বিদ্যানন্দের

১ টাকায় ব্যুফেতে খাবার বিদ্যানন্দের এক টাকায় ব্যুফেতে খাবার। ছবি: সংগৃহীত
দেশে অনেকে আছেন যারা তিনবেলা ঠিকমতো খেতে পান না। প্রত্যেক বেলার খাবারের জন্য তাদের নির্ভর করতে হয় অন্যদের সাহায্যের ওপর। এমন অবস্থায় তারা ভালোমানের কোনো রেস্টুরেন্টে বসে খাবার খাওয়ার কথা চিন্তাও করতে পারেন না। তবে এই রেস্টুরেন্টে মিলছে খাবারের ভালো সুযোগ।

কেমন হতো যদি দরিদ্র ক্ষুধার্ত মানুষ মাত্র ১ টাকার বিনিময়ে কোনো রেস্টুরেন্টে গিয়ে ব্যুফেতে ইচ্ছামতো তাদের পছন্দের খাবার খেতে পারতো! হ্যাঁ, এমনই এক সুযোগ মিলছে বিদ্যানন্দের ১ টাকায় রেস্টুরেন্টে।

কুড়িগ্রামের মঙ্গা পীড়িত এলাকায় বিদ্যানন্দ তৈরি করেছে এই ১ টাকায় রেস্টুরেন্ট। এই উদ্যোগের সঙ্গে ক্রিয়েটিভ পার্টনার হিসেবে আছে এশিয়াটিক মার্কেটিং কমিউনিকেশন লিমিটেড।

বিশেষ এই রেস্টুরেন্টে ১ টাকার বিনিময়ে অসহায় ক্ষুধার্ত মানুষ মনোরম ও স্বাস্থ্যকর পরিবেশে বসে খেতে পারবে তাদের পছন্দের খাবার।

দেশে অনেকে আছেন যারা তিনবেলা ঠিকমতো খেতে পান না। প্রত্যেক বেলার খাবারের জন্য তাদের নির্ভর করতে হয় অন্যদের সাহায্যের ওপর। এমন অবস্থায় তারা ভালোমানের কোনো রেস্টুরেন্টে বসে খাবার খাওয়ার কথা চিন্তাও করতে পারেন না। তবে এই রেস্টুরেন্টে মিলছে খাবারের ভালো সুযোগ।

বিদ্যানন্দের আধুনিক ঘরোয়ানা এই রেস্টুরেন্টটি নিশ্চিত করে খাবার খাওয়ার এক মনোরম এবং স্বাস্থ্যকর পরিবেশ। যেখানে রয়েছে পেশাদার বাবুর্চি, রেস্টুরেন্ট স্টাফ, মেন্যু কার্ড এবং বাহারি সব পুষ্টিকর খাবার।

বিদ্যানন্দের এই উদ্যোগে দরিদ্র ক্ষুধার্তরা খুঁজে পায় স্বপ্ন বাস্তব হওয়ার অনুভুতি। তারা এখন এই ১ টাকায় রেস্টুরেন্টে মনোরম ও স্বাস্থ্যকর পরিবেশে বসে মাত্র ১ টাকার বিনিময়ে ব্যুফে থেকে বাছাই করে খেতে পারেন তাদের ইচ্ছা মতো পছন্দের খাবার।

আরও পড়ুন:
কুড়িগ্রামে হতদরিদ্রদের জন্য বিদ্যানন্দের এক টাকার বাজার
মানবকল্যাণ পদক পাচ্ছে বিদ্যানন্দ সহ ৮ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান
বিদ্যানন্দের নাম ভাঙিয়ে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেপ্তার ৫

মন্তব্য

বাংলাদেশ
A court case involving the death of an obstetrician on the operating table

অপারেশন টেবিলে প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনায় আদালতের মামলা

অপারেশন টেবিলে প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনায় আদালতের মামলা
মামলাটি মেহেরপুর জেলা পুলিশ সুপারকে (সার্কেল) তদন্ত করে আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারির মধ‍্যে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। সেই সঙ্গে মেহেরপুর জেলা সিভিল সার্জনকে আগামী ৯ ফেব্রুয়ারির মধ‍্যে জেলার সব ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও বেসরকারি ক্লিনিকের তালিকা দেয়ার নির্দেশ দেয়।

মেহেরপুরে অপারেশনের টেবিলে প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগের ঘটনায় বেসরকারি চিকিৎসা সেবামূলক প্রতিষ্ঠান দারুস সালামের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

সিনিয়র জুডিসিয়াল ম‍্যাজিষ্ট্রেট এস এম শরিয়তুল্লাহ স্বপ্রণোদিত হয়ে সোমবার দুপুরে মামলাটি করেন।

মামলাটি মেহেরপুর জেলা পুলিশ সুপারকে (সার্কেল) তদন্ত করে আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারির মধ‍্যে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। সেই সঙ্গে মেহেরপুর জেলা সিভিল সার্জনকে আগামী ৯ ফেব্রুয়ারির মধ‍্যে জেলার সব ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও বেসরকারি ক্লিনিকের তালিকা দেয়ার নির্দেশ দেয়।

গত ২৪ জানুয়ারি মেহেরপুর শহরের সরকারি কলেজ মোড়ের সামনে অবস্থিত বেসরকারি ক্লিনিক দারুস সালাম ক্লিনিকে অপারেশনের টেবিলে ২৫ বছর বয়সী প্রসূতি সুমাইয়া খাতুনের সন্তান প্রসবের সময়ে মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। তবে এ সময় প্রসূতির একটি সুস্থ্য মেয়ে সন্তান জন্ম নেয়।

এ অপারেশনটি করেন ক্লিনিকের মালিক ডা. আব্দুস সালাম নিজেই। প্রাথমিকভাবে নিহত প্রসূতির পরিবারের পক্ষ থেকে মৌখিক অভিযোগ তুললেও লিখিত কোনো অভিযোগ না করায় বিষয়টি এতোদিন ধামাচাপা হয়ে পড়েছিল। তবে ওইদিন স্থানীয় এক গণমাধ‍্যমে সংবাদ প্রচার হলে বিষয়টি আদালতের নজরে আসে।

আরও পড়ুন:
শেরপুরে বিএনপির ১৫ নেতা-কর্মী কারাগারে
শিশু ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার
স্ত্রীকে হত‍্যার অভিযোগে মামলা
‘সিগারেট মুখে দিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা’: আইসিটি প্রতিষ্ঠানের পরিচালক কারাগারে
রক্তাক্ত বিছানার ছবি প্রকাশ, সংবাদ সম্মেলনে আসছেন পরীমনি

মন্তব্য

বাংলাদেশ
CandF agents on two day strike

দুই দিনের কর্মবিরতিতে সিএন্ডএফ এজেন্টরা

দুই দিনের কর্মবিরতিতে সিএন্ডএফ এজেন্টরা
চট্টগ্রাম কাস্টমস অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক কাজী মাহমুদ ইমাম বিলু বলেন, ‘আমরা গত জুনেও বেশ কয়েকবার এনবিআরের সঙ্গে কথা বলেছি। কাস্টমস এজেন্টস লাইসেন্সিং বিধিমালা-২০২০ এ আগের কিছু আইন সংশোধন করা হয়েছে, যা আমাদের জন্য বিষফোঁড়ার মত। এগুলো মোটেই ব্যবসাবান্ধব নয়। এই আইনের কিছু ধারা সংশোধন ও বাতিলের দাবিতে আমাদের এই আন্দোলন।’

চট্টগ্রামসহ সারাদেশে বিভিন্ন দাবিতে দুই দিনের কর্মবিরতি শুরু করেছে ফেডারেশন অব বাংলাদেশ কাস্টমস ক্লিয়ারিং অ্যান্ড ফরওয়ার্ডিং (সিএন্ডএফ) এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশন।

কাস্টমস এজেন্টস লাইসেন্সিং বিধিমালা-২০২০ এবং পণ্য চালান শুল্কায়নে এইচএস কোড ও সিপিসি নির্ধারণে প্রণীত বিভিন্ন বিতর্কিত আইন বাতিলের দাবিতে দেশের নৌ, বিমান ও স্থলবন্দরগুলোতে এই কর্মবিরতি শুরু করেছে তারা।

সোমবার সকাল থেকে দুই দিনের এ কর্মবিরতি শুরু করে সংগঠনটি। এতে চট্টগ্রামসহ সারাদেশের বন্দরগুলোতে বিল অব এন্ট্রি দাখিল ও শুল্কায়ন কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

চট্টগ্রাম কাস্টমস অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক কাজী মাহমুদ ইমাম বিলু বলেন, ‘আমরা গত জুনেও বেশ কয়েকবার এনবিআরের সঙ্গে কথা বলেছি। কাস্টমস এজেন্টস লাইসেন্সিং বিধিমালা-২০২০ এ আগের কিছু আইন সংশোধন করা হয়েছে, যা আমাদের জন্য বিষফোঁড়ার মত। এগুলো মোটেই ব্যবসাবান্ধব নয়। এই আইনের কিছু ধারা সংশোধন ও বাতিলের দাবিতে আমাদের এই আন্দোলন।’

চট্টগ্রাম কাস্টমস অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব সুলতান হোসেন খান বলেন, ‘দেশের আমাদানি-রপ্তানির সিংহভাগ এই চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে হয়ে থাকে। এ কারণে চট্টগ্রামকে দেশের বাণিজ্যিক রাজধানী বলা হয়। আমরা সরকারকে বিব্রত করতে চাইনা, এটা সরকার বিরোধী আন্দোলনও না। আমাদের এই আন্দোলন ব্যবসা রক্ষা করে বেঁচে থাকার আন্দোলন।’

বিল অব এন্ট্রি ও শুল্কায়ন বন্ধের বিষয়ে জানতে চট্টগ্রাম কাস্টমস কমিশনার মো. ফয়জুর রহমানের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার সাড়া পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন:
চা-বাগানে ফের ক্ষোভ
বাঘাবাড়ীতে নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি দ্বিতীয় দিনে
শ্রমিকদের কর্মবিরতিতে বন্ধ লঞ্চ, বিপা‌কে বরিশালের যাত্রীরা
বরিশালে নৌযান শ্রমিকদের বিক্ষোভ মিছিল
তৃতীয় দিনেও কাজে ফেরেননি নাকুগাঁওয়ের শ্রমিকরা

মন্তব্য

p
উপরে