× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
Even though the bus was running the previous days BNP rally was held in Comilla
google_news print-icon

আগের রাতে পিকনিক আমেজ কুমিল্লায় বিএনপির সমাবেশে

আগের-রাতে-পিকনিক-আমেজ-কুমিল্লায়-বিএনপির-সমাবেশে
একদিন আগেই কুমিল্লার সমাবেশস্থলে বিএনপির নেতা-কর্মীরা। ছবি: নিউজবাংলা
সকালে কুমিল্লার সমাবেশ নিয়ে বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘শনিবারের সমাবেশ হবে স্মরণকালের সর্ববৃহৎ সমাবেশ। সমাবেশ সফল হবে। কোনো অপশক্তি সমাবেশকে ব্যর্থ করতে পারবে না।’

একদিন আগেই কুমিল্লায় বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশস্থল ভরে গেছে নেতা-কর্মীতে। কুমিল্লাসহ আশপাশের বিভিন্ন জেলা উপজেলা থেকে খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে আসছেন তারা। ভিড় সামলাতে বেগ পোহাচ্ছেন সমাবেশস্থলের দায়িত্বে থাকা নেতারা।

শুক্রবার রাতে সমাবেশস্থলে গিয়ে দেখা গেছে, মঞ্চ তৈরির কাজ প্রায় শেষ। এখন চলছে গণসমাবেশ পরিচালনার রিহার্সেল। এই রির্হাসেলের মাঝেও খন্ড খন্ড মিছিলে সমাবেশ স্থলে প্রবেশ করছিল নেতাকর্মীরা। তবে অন্য সব বিভাগীয় সমাবেশের আগে পরিবহন ধর্মঘট হচ্ছে না কুমিল্লায়। এতে স্বস্তিতে রয়েছে দলটির নেতাকর্মীরা।

কুমিল্লার ওপর দিয়ে বয়ে গেছে দেশের গুরুত্বপূর্ণ সব সড়ক। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ১০৫ কিলোমিটার এবং রেলওয়ের প্রায় ১০০ কিলোমিটার পথ অতিবাহিত হয়েছে কুমিল্লা ওপর দিয়ে। তাই আঞ্চলিক অবস্থান বিবেচনায় কুমিল্লায় পরিবহন ধর্মঘট ডাকেননি সংশ্লিষ্টরা।

জেলা দ্য মোটরস অ্যাসোসিয়েশন এর সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা মিটিং করেছি। পরিবহণ ধর্মঘট হবে না। হওয়ার সম্ভাবনাও নেই।’

কুমিল্লা পরিবহণ মালিক সমিতির এক নেতা নাম প্রকাশ না করে বলেন, ‘ভৌগোলিক অবস্থান বিবেচনায় কুমিল্লার ওপর দিয়ে যাতায়াত করা যেকোনো সড়কে ধর্মঘট হলে তার নেতিবাচক প্রভাব পড়বে সারা দেশে। এ ছাড়া ট্রেন বন্ধ করারও সুযোগ নেই।’

আগের রাতে পিকনিক আমেজ কুমিল্লায় বিএনপির সমাবেশে

এর আগে শুক্রবার বিকেল ৫টায় কুমিল্লা টাউনহল মাঠে গিয়ে দেখা যায়, একের পর এক মিছিল আসছে টাউনহল মাঠে সমাবেশস্থলের মঞ্চের দিকে। শনিবার সকালে এই মঞ্চ থেকেই উদ্দেশে বক্তব্য দেবেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতারা।

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আমিনুর রশীদ ইয়াছিন বলেন, ‘এটি শুধু বিএনপির সমাবেশ নয়, এটি দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির বিরুদ্ধে সমাবেশ। এটি গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার সমাবেশ। রাত যত বাড়বে নেতা-কর্মী আরও আসবেন। শুধু টাউনহল না, আশপাশের এলাকাতেও আমরা জায়গা দিতে পারবো না।’

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক হাজি আমিনুর রশীদ ইয়াছিন বলেন, ‘দুইদিন আগ থেকেই নেতা-কর্মীরা কুমিল্লায় আসতে শুরু করেছেন। তাদের থাকা-খাওয়াসহ সব রকম ব্যবস্থা করা হয়েছে। আজ শুক্রবার আমরা নেতা-কর্মীরা মিলে জুমার নামাজ আদায় করেছি। নেতা-কর্মীরা বেশ উৎফুল্ল।’

সমাবেশস্থলে নিজের সমর্থিত নেতা-কর্মীদের নিয়ে আলাদাভাবে জুমার নামাজ আদায় করেন বিএনপির বহিষ্কৃত নেতা কুমিল্লা সিটির সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু।

এদিকে সমাবেশস্থলের অদূরে কেন্দ্রীয় ঈদগাহে জুমার নামাজ আদায় করেন কুমিল্লা বুড়িচং ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার নেতা-কর্মীরাও।

বুড়িচং উপজেলা বিএনপির সভাপতি এটিএম মিজানুর রহমান বলেন, ‘আমরা আগে থেকে প্রস্তুতি নিয়েই জুমার নামাজ আদায় করেছি। এ বিষয়ে আমাদের সার্বিক সহযোগিতা করেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সদস্যসচিব হাজি জসিম উদ্দিন।’

রাত ১১টায় গিয়ে দেখা যায়, টাউনহলের পশ্চিমপার্শ্বে একদল কর্মী ডিজে গানের সঙ্গে নাচ-গানে মত্ত। তারা এসেছেন চাঁদপুর জেলার শাহারাস্তি উপজেলা থেকে। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন অন্যান্য এলাকা থেকে আসা আরও সহস্রাধিক নেতা-কর্মী।

সমাবেশস্থলের আরেকপাশে ত্রিপাল টাঙিয়ে অবস্থান নিয়েছেন আরও বহু নেতা-কর্মী। একপাশে চলছে খাবারের পর্বও।

আগের রাতে পিকনিক আমেজ কুমিল্লায় বিএনপির সমাবেশে

এর আগে শুক্রবার সকাল ১০টায় কুমিল্লার একটি রেস্তোরাঁয় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন মন্তব্য করেন, তারা খেলা করেন না, রাজনীতি করেন।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘সরকারের উচ্চ পর্যায়ের নেতারা বলছেন খেলার কথা। আমরা বলি, রাজনীতি আর খেলা এক নয়। আমরা সাধারণ মানুষের জন্য রাজনীতি করি। খেলা করি না।’

তিনি বলেন, ‘দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে আজ মানুষ দিশাহারা। সাধারণ মানুষের চাওয়া নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে ভোটে যাওয়া। এসব অধিকার আদায়ে আমাদের গণসমাবেশের আয়োজন।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘কুমিল্লার সমাবেশ যেন সফল না হয়, সে জন্য নেতা-কর্মীদের বাড়ি গিয়ে সাদা পোশাকের আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী হুমকি দিচ্ছে। কৌশলে পরিবহন বন্ধ করা হচ্ছে। পথে পথে হয়রানি করা হচ্ছে। এসব হয়রানিকে উপেক্ষা করে ইতোমধ্যে কুমিল্লায় এসে পৌঁছেছেন বিভিন্ন জেলার নেতা-কর্মী।’

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘শনিবারের সমাবেশ হবে স্মরণকালের সর্ববৃহৎ সমাবেশ। সমাবেশ সফল হবে। কোনো অপশক্তি সমাবেশকে ব্যর্থ করতে পারবে না।’

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক হাজি আমিনুর রশীদ ইয়াছিন বলেন, ‘সকাল ১০টায় সমাবেশ শুরু হবে। বিকেল ৪টার মধ্যেই শেষ হবে। ইতোমধ্যে নেতা-কর্মীরা এসে গেছেন।’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কুমিল্লা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়া, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সদস্যসচিব জসিম উদ্দিন, মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক উৎবাতুল বারি আবু, সদস্য সচিব ইউসুফ মোল্লা টিপুসহ শতাধিক নেতা-কর্মী।

সমাবেশ ও নিরাপত্তার বিষয়ে কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান বলেন, ‘বিএনপি তাদের রাজনৈতিক সমাবেশ করবে। করুক। তবে সাধারণ মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা দিতে কুমিল্লা জেলা পুলিশ বদ্ধপরিকর। সে লক্ষ্যে শনিবার নগরীজুড়ে সর্বোচ্চ সংখ্যাক পুলিশ সদস্য কাজ করবে।’

আরও পড়ুন:
১০ ডিসেম্বর না হলেও সরকার পতন দূরে নয়: নোমান
আমরা খেলা করি না: খন্দকার মোশাররফ
সমাবেশস্থলে বড় পর্দায় বিশ্বকাপ
সোহরাওয়ার্দী নয়, নয়াপল্টনই চায় বিএনপি
নয়াপল্টন নয়, বিএনপিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান দেবে সরকার

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
A youth was killed in a clash between the A League parties in Munshiganj

মুন্সীগঞ্জে আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে যুবক নিহত

মুন্সীগঞ্জে আ.লীগের দুপক্ষের সংঘর্ষে যুবক নিহত সংঘর্ষের পর ওই গ্রাম থেকে বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ। কোলাজ: নিউজবাংলা
ঘটনার পর পুলিশের অভিযানে একটি পাইপ গান, ৭ রাউন্ড কার্তুজ, একটি বুলেট প্রুফ জ্যাকেট ও ৭টি হকিস্টিক উদ্ধার করা হয়েছে।

মুন্সীগঞ্জ সদরের ছোট মোল্লাকান্দি গ্রামে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর পুলিশি অভিযানে আগ্নেয়াস্ত্র, কার্তুজ ও বুলেট প্রুফ জ্যাকেট উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার দুপুর ১টার দিকে পুলিশ গ্রামটিতে অভিযান চালায়।

এর আগে এদিন ভোরে মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মো. ফয়সালের বিপ্লবের অনুসারী আহম্মেদ আলী ও সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাসের অনুসারী মো. মামুনের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ ও গুলির ঘটনা ঘটে।

এতে পারভেজ খান নামের ২০ বছর বয়সী এক যুবক গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার থান্দার খায়রুল হাসান জানান, পুলিশের অভিযানে একটি পাইপ গান, ৭ রাউন্ড কার্তুজ, একটি বুলেট প্রুফ জ্যাকেট ও ৭টি হকিস্টিক উদ্ধার করা হয়েছে।

পরিত্যক্ত অবস্থায় ওইসব আগ্নেয়াস্ত্র ও কার্তুজ উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি।

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Fugitive accused in Natore rape case arrested

নাটোরে ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

নাটোরে ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামি গ্রেপ্তার গ্রেপ্তারকৃত সাজিদ আলী। ছবি: র‌্যাব
র‌্যাবের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ২০২৩ সালের ১০ অক্টোবর বিকেলে প্রতিবেশী সাজিদ আলী ভুক্তভোগীকে কৌশলে নিজের ঘরে নিয়ে যান। পরে ঘরের দরোজা আটকে তাকে ধর্ষণ করেন তিনি।

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় সাজিদ আলী নামের ধর্ষণ মামলার এক পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। শনিবার সকালে র‌্যাবের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

২১ বছর বয়সী সাজিদ উপজেলার ডাকারমারিয়া এলাকার বাসিন্দা।

নাটোর র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক আবদুল্লাহ মওদুদ স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ২০২৩ সালের ১০ অক্টোবর বিকেলে প্রতিবেশী সাজিদ আলী ভুক্তভোগীকে কৌশলে নিজের ঘরে নিয়ে যান। পরে ঘরের দরোজা আটকে তাকে ধর্ষণ করেন তিনি। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা করলে আসামি সাজিদ আত্মগোপনে চলে যান।

পরবর্তীতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামি গ্রেপ্তারের জন্য র‌্যাবের সহযোগিতা চান। এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব সদস্যরা গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধিসহ তথ্য ও প্রযুক্তির মাধ্যমে সাজিদ আলীর অবস্থান শনাক্ত করেন।

শেষ পর্যন্ত শুক্রবার বিকেলে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার মাল্লাপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় র‌্যাব। পরে গ্রেপ্তারকৃত সাজিদকে বাগাতিপাড়া থানায় হস্তান্তর করা হয়।

আরও পড়ুন:
কিশোর গ্যাংয়ের হাত থেকে ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে আহত সেই বাবা মারা গেছেন
মাদারীপুরে নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস চক্রের সদস্য গ্রেপ্তার
সর্বহারা নেতা রাজ্জাক হত্যার রহস্য উদঘাটন, গ্রেপ্তার ৫
বন কর্মকর্তা হত্যা মামলার প্রধান আসামি চট্টগ্রামে গ্রেপ্তার
বান্দরবানে কেএনএফের তিন সদস্যসহ গ্রেপ্তার ৪

মন্তব্য

বাংলাদেশ
3 friends were killed in a collision between two motorcycles

দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে ৩ বন্ধু নিহত

দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে ৩ বন্ধু নিহত ফাইল ছবি
এদের মধ্যে দুজনের ঘটনাস্থলে এবং একজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ দুর্ঘটনায় আরও দুজন আহত হয়েছেন।

সিলেটের জকিগঞ্জে দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে তিন বন্ধু নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার রাত ১২টার দিকে জকিগঞ্জ-সিলেট সড়কে উপজেলার শাহবাগ মুহিদপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এদের মধ্যে দুজনের ঘটনাস্থলে এবং একজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ দুর্ঘটনায় আরও দুজন আহত হয়েছেন।

নিহতরা হলেন- জকিগঞ্জের খলাছড়া ইউনিয়নের মাদারখাল গ্রামের আফতার আলীর ছেলে আদিল হোসাইন (২০), একই গ্রামের জমির আলীর ছেলে জাকারিয়া আহমদ (২১) ও একই গ্রামের সুবহান আলীর ছেলে মিলন আহমেদ (২০)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঈদের পরদিন রাতে আদিল, জাকারিয়া ও মিলন এরকটি মোটরসাইকেল নিয়ে ঘুরতে বের হয়েছিলেন। সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের শাহবাগে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি মোটরসাইকেলের সাথে তাদের সংঘর্ষ হয়।

দ্রুত গতির দুটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে আদিল, জাকারিয়া ও মিলন গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে তাৎক্ষণিক স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আদিল হোসাইন ও জাকারিয়া আহমদকে মৃত ঘোষণা করেন এবং মিলনের আশঙ্কাজনক অবস্থা হওয়ায় দ্রুত সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার ভোরে মিলনও মারা যান।

তিনজনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে জকিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাবেদ মাসুদ বলেন, মরদেহগুলো ওসমানী হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

তিনি বলেন, আরেক মোটরসাইকেলের দুই যাত্রী আহত হয়েছেন। তাদের ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Hard stone Vishnu idol recovered in Munshiganj

মুন্সীগঞ্জে কষ্টিপাথরের বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জে কষ্টিপাথরের বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার ছবি: নিউজবাংলা
শনিবার সকাল দশটার দিকে রামপালের খানকা দালালপাড়া এলাকায় ফসলি জমির পাশে রাস্তা থেকে মূর্তিটি উদ্ধার করা হয়।

মুন্সীগঞ্জ সদরের রামপালে এক কৃষকের কাছ থেকে প্রায় ৩৭ কেজি ওজনের কষ্টিপাথরের একটি বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার করেছে পুলিশ। মূর্তিটির আনুমানিক বাজারমূল্য ১৫ কোটি টাকা।

শনিবার সকাল দশটার দিকে রামপালের খানকা দালালপাড়া এলাকায় ফসলি জমির পাশে রাস্তা থেকে মূর্তিটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, তিনদিন আগে ফসলি জমি থেকে মূর্তিটি পাওয়া গেলেও বিষয়টি গোপন করার চেষ্টা করেন ওই কৃষক।

জমির মালিক মো. রিপন জানান, গত ১০ এপ্রিল খানকা দালালপাড়া এলাকায় তাদের ফসলি জমিতে মাটি কাটার সময় কৃষক খোরশেদ ৬ ইঞ্চি গভীর থেকে মূর্তিটি দেখতে পেয়ে বাসায় নিয়ে যান। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে ভয়ে নিজেই পুলিশকে খবর দেন তিনি।

খোরশেদকে জমিটি বাৎসরিক ফিসের বিনিময়ে চাষাবাদের জন্য দেয়া হয়েছিলো বলেও জানান তিনি।

হাতিমারা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক এনামুল হক জানান, মূর্তিটি পুলিশি হেফাজতে রয়েছে। প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের কাছে মূর্তিটি হস্তান্তর করা হবে।

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Crowds to watch the Eid festival of farmers and farmers in Kurigram

কুড়িগ্রামে কৃষাণ-কৃষাণীর ঈদ উৎসব, দেখতে ভিড়

কুড়িগ্রামে কৃষাণ-কৃষাণীর ঈদ উৎসব, দেখতে ভিড় কোলাজ: নিউজবাংলা
কৃষকদের সঙ্গে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে ব্যতিক্রমী এ আয়োজন করে  ফাইট আনটিল লাইট (ফুল) নামে একটি সামাজিক সংগঠন। মূলত কৃষকদের ঈদকে প্রাণবন্ত করতে এ উৎসবের আয়োজন করে সংগঠনটি।

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ি উপজেলায় ঈদ উৎসবে কৃষাণ-কৃষাণীদের নিয়ে ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ খেলাধুলার আয়োজন করা হয়। সেসব খেলা দেখতে বিভিন্ন জায়গা থেকে হাজারো দর্শনার্থী এস ভিড় জমায়।

কৃষকদের সঙ্গে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে ব্যতিক্রমী এ আয়োজন করে ফাইট আনটিল লাইট (ফুল) নামে একটি সামাজিক সংগঠন। মূলত কৃষকদের ঈদকে প্রাণবন্ত করতে এ উৎসবের আয়োজন করে সংগঠনটি। খেলা শেষে ৩৫ জন বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়।

শুক্রবার দিনব্যাপী ফুলবাড়ী উপজেলার উত্তর বড়ভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এসব খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

কুড়িগ্রামে কৃষাণ-কৃষাণীর ঈদ উৎসব, দেখতে ভিড়

দিনব্যাপী চলা অনুষ্ঠানে প্রায় ২২ ধরনের ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ খেলা অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল হাঁড়ি ভাঙা, বালিশ খেলা, সুঁইসুতা, সাঁতার, তৈলাক্ত কলাগাছ বেয়ে চড়া, স্লো সাইকেল রেস, বেলুন ফাটানো এবং কৃষাণীদের বল ফেলা, বালিশ খেলা এবং যেমন খুশি তেমন সাঁজোসহ আরও অন্যান্য খেলা। এসব খেলায় অংশ নেন বিভিন্ন বয়সের শতাধিক কৃষাণ-কৃষাণী।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক আইনুল ইসলাম, সাংবাদিক শফি খান, রংপুর বিভাগীয় হিসাবরক্ষক সাইদুল হক, ফুল-এর নির্বাহী পরিচালক আব্দুল কাদের প্রমুখ।

খেলা দেখতে আসা ময়নাল হক বলেন, ‘গ্রামে এসব খেলা দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে। প্রায় ১০-১৫ বছর পর গ্রামের ঐতিহ্যবাহী খেলা দেখে খুবই আনন্দ পেলাম। সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে কৃষকদের হাঁড়ি ভাঙা, সাইকেল খেলা দেখে। এছাড়া কৃষাণীদের সুঁইসুতা খেলা ও বালিশ খেলা ছিল বেশ আনন্দের।’

কুড়িগ্রামে কৃষাণ-কৃষাণীর ঈদ উৎসব, দেখতে ভিড়

কৃষক নুর ইসলাম বলেন, ‘কৃষকদের নিয়ে এমন ব্যতিক্রমী আয়োজন সত্যি ভালো লেগেছে। আমরা এখানে শতাধিক কৃষাণ-কৃষাণী আজকের খেলায় অংশ নিয়েছি। খু্ব ভালো লেগেছে।’

ফুল-এর নির্বাহী পরিচালক আব্দুল কাদের বলেন, ‘কৃষক হাসলে বাংলাদেশ হাসে- এ প্রতিপাদ্যকে ধারণ করে দিনব্যাপী শতাধিক কৃষাণ-কৃষাণীকে নিয়ে প্রায় ২২টি খেলার আয়োজন করা হয়েছে।

‘এ খেলার মাধ্যমে সমাজে বাল্যবিয়ে বন্ধে সচেতনতা বাড়াতে চেষ্টা করেছি। এছাড়া গ্রামীণ ঐতিহ্যবাহী খেলাধুলা সম্পর্কে নতুন প্রজন্মকে জানাতেও এ খেলার আয়োজন করা হয়েছে।’

মন্তব্য

বাংলাদেশ
3 Awami League leaders injured in shooting in Abhaynagar

অভয়নগরে গুলিতে ৩ আওয়ামী লীগ নেতা আহত

অভয়নগরে গুলিতে ৩ আওয়ামী লীগ নেতা আহত প্রতীকী ছবি
আহতদের মধ্যে দুজনকে খুলনার ফুলতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও একজনকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

যশোরের অভয়নগরে গুলিতে আওয়ামী লীগের ৩ নেতা গুরুতর আহত হয়েছেন।

উপজেলার রাজঘাট এলাকায় শুক্রবার রাত ৯টার দিকে একটি চায়ের দোকানে এ হামলার ঘটনা ঘটে। খবর ইউএনবির

আহতদের মধ্যে দুজনকে খুলনার ফুলতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও একজনকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন- খুলনার ফুলতলা উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হেদায়েত হোসেন লিটু ওরফে লিটু মেম্বার, ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা খায়রুজ্জামান সবুজ ও আওয়ামী লীগ নেতা নাসিম।

অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুল ইসলাম জানান, শুক্রবার রাত ৯টার দিকে রাজঘাট বাসস্ট্যান্ডের একটি চায়ের দোকানে চা পান করছিলেন ওই তিন নেতা। এ সময় অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে তারা তিনজনই গুরুতর আহত হন। তাদের মধ্যে একজনের পেটে এবং দুজনের হাতে গুলি লেগেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে ফুলতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। তাদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার সাথে জড়িতদের আটক করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The bride did not like the husbands brother in law so he beat him to death

পাত্রীকে পছন্দ হয়নি পাত্রের, দুলাভাইকে তাই ‘পিটিয়ে হত্যা’

পাত্রীকে পছন্দ হয়নি পাত্রের, দুলাভাইকে তাই ‘পিটিয়ে হত্যা’ 
বিয়ের আয়োজন ভেঙে যাওয়ার পর হামলা হয় পাত্রপক্ষের ওপর। ছবি: নিউজবাংলা
মোল্লাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এম আশরাফুল আলম বলেন, আজিজুল হকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

বিয়ে করতে এসে পাত্রীকে দেখে পাত্রের পছন্দ না হওয়ায় ভেঙে যায় সব আয়োজন, এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে পাত্রের দুলাভাইকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার রাত ৮টার দিকে বাগেরহাটের মোল্লাহাট উপজেলার আংড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আজিজুল হক (৪৫) খুলনার তেরখাদা উপজেলার ইছামতি গ্রামের শাহাদাত মোল্লার ছেলে এবং দফাদার মোহাম্মদ আলীর মেয়ের জামাই।

স্থানীয়রা জানান, মোল্লাহাট উপজেলার আংড়া গ্রামে শাহদাত মুন্সির মেয়ের সঙ্গে দফাদার মোহাম্মাদ আলী গাজীর ছেলে হাফিজুর রহমান গাজীর বিয়ের কথা হয়েছিল। এদিন বরপক্ষ কনেকে দেখতে তাদের বাড়িতে যায়। কিন্তু ছেলের মেয়ে পছন্দ না হওয়ায় তারা ফিরে আসার সময় তাদের ওপর হামলা করে কনে পক্ষ। এতে বরের দুলাভাই আজিজুল নিহত হন।

মোল্লাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম আশরাফুল আলম বলেন, আজিজুল হকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

মন্তব্য

p
উপরে