× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
Kalmi vegetables 1 taka mustard 3 taka
hear-news
player
google_news print-icon

কলমিশাকের আঁটি ১ টাকা, সরিষা ৩ টাকা!

কলমিশাকের-আঁটি-১-টাকা-সরিষা-৩-টাকা
শুক্রবার ভোরে দিনাজপুর বাহাদুর বাজারে কলমি শাক ১ টাকা আঁটি বিক্রি হয়েছে। ছবি: নিউজবাংলা
ভোরে গ্রাম থেকে কৃষকরা শহরের বাজারে শাক-সবজি এনে বিক্রি করছেন অতি সস্তায়। সেই সবজির দাম ওই বাজারেই বেড়ে যাচ্ছে কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে। লাভের টাকা ঢুকছে স্থায়ী দোকানদারদের পকেটে। কৃষক বঞ্চিত হচ্ছেন। এটি দিনাজপুরের চিত্র।

দিনাজপুর শহর থেকে ১৮ কিলোমিটার দূরের গ্রাম কমলপুর। এখানকার কৃষক শরিফুল ইসলাম শুক্রবার ভোর ৫টায় ২৫০ আঁটি কলমিশাক নিয়ে এসেছেন শহরের বাহাদুর বাজারে। আসা-যাওয়ায় ইজিবাইকে ভাড়া পড়েছে ১২০ টাকা।

দিনাজপুর শহরের সবচেয়ে বড় বাজার বাহাদুর বাজারে পাইকারি দরে কলমিশাক বিক্রি করলেন প্রতি আঁটি ১ টাকা দরে ২৫০ টাকায়। ১২০ টাকা ইজিবাইকের ভাড়া দিয়ে তার হাতে অবশিষ্ট থাকে ১৩০ টাকা। এর মধ্যে ৩০ টাকা দিয়ে চা-নাশতা। অবশেষে সকাল ৮টায় ১০০ টাকা হাতে বাড়ির পথ ধরেন শরিফুল।

অথচ এই কলমিশাক মাত্র ৩ ঘণ্টা পরই সেই ৫ টাকা আঁটি দরে বিক্রি করেন দোকানদার।

বাহাদুর বাজার ঘুরে দেখা গেছে, শুক্রবার ভোর ৫টায় এই বাজারে কলমিশাক ১ টাকা, সরিষাশাক ৩ টাকা, পুঁইশাক ৭ টাকা, মুলাশাক ৩ টাকা, লালশাক ৬ টাকা ও পাটশাক ৪ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

ফুলকপি ১৫ টাকা, বাঁধাকপি ১৫ টাকা, বেগুন প্রকারভেদে ১৫ থেকে ২৫ টাকা ও শিম ২৫ টাকা দরে বিক্রি হয়।

জেলার প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে কৃষকরা নিজেদের উৎপাদিত শাক-সবজি প্রতিদিন ভোরে এই বাজারে নিয়ে আসেন। আর এখানকার স্থায়ী সবজি বিক্রেতা ও শহরের বিভিন্ন পাড়ায় গিয়ে ফেরি করে বিক্রি করা সবজি বিক্রেতারা এ শাক-সবজি কিনে নিয়ে যান।

ভোর ৫টায় এই বাজারে পাইকারি হিসেবে শাক-সবজি বিক্রি করা হলেও মাত্র ৩ ঘণ্টার ব্যবধানে তা বেড়ে যায় কয়েক গুণ। কলমিশাক তখন বিক্রি হয় প্রতি আঁটি ৫ টাকা, সরিষারশাক ৭ টাকা, পুঁইশাক ১৫ টাকা, মুলাশাক ৫ টাকা, লালশাক ১২ থেকে ১৫ টাকা ও পাটশাক ১০ টাকা দরে বিক্রি হয়। এ ছাড়া ফুলকপি ৩০ টাকা, বাঁধাকপি ৩৫ টাকা, বেগুন প্রকারভেদে ২৫ থেকে ৩০ টাকা ও শিম ৪০ টাকা দরে।

কলমিশাকের আঁটি ১ টাকা, সরিষা ৩ টাকা!

সবজি বিক্রেতা শরিফুল ইসলাম বলেন, ‘বাড়ির পাশে অল্প একটু জমি আছে। সেই জমিতে আমি বিভিন্ন ধরনের শাক-সবজি ফলাই। আজকে ২৫০টি কলমিশাকের আঁটি বাজারে নিয়ে আসছি। কিন্তু বাজারে ১ টাকা করে আঁটি বিক্রি করলাম। বিক্রির পর আসা-যাওয়া, নাশতার টাকা বাদ দিয়ে ১০০ টাকা নিয়ে বাড়ি যাচ্ছি। অথচ আমাদের এই শাক কিছুক্ষণ পরই কয়েকগুণ দাম বেড়ে যায়। লাভ করেন বাজারের স্থায়ী সবজি ব্যবসায়ীরা ও ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ীরা। কী আর করার আছে, সব কপালের দোষ।’

কৃষান বাজারের সবজি বিক্রেতা জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘আমি প্রতিদিন শাক-সবজি বাজারে বিক্রি করতে আসি। কিন্তু আমরা সব সময় কম দামে বিক্রি করতে বাধ্য হই। বাজারের অন্য ব্যবসায়ীরা আমাদের কাছ থেকে কম দামে কিনে, পরে বেশি দামে বিক্রি করেন। তাহলে তো সাধারণ ক্রেতারা বলবেনই, সবজির দাম বেশি।’

সবজি ক্রেতা আব্দুর রশিদ বলেন, ‘কয়েক দিনের তুলনায় আজকে বাজারে সবজির দাম একটু কম। আজ ১০০ টাকা দিয়ে ব্যাগভর্তি সবজি বাজার করতে পারলাম। কয়েক দিন আগে এই টাকায় ব্যাগের অর্ধেকই ভরে না। এভাবে বাজারে সবজির দাম কম থাকলে আমাদের মতো গরিব মানুষ সবজি খেয়ে বেঁচে থাকতে পারব।’

বাহাদুর বাজারের সবজি বিক্রেতা কাশেম হোসেন বলেন, ‘ভোরে এই বাজারে পাইকারি দরে শাক-সবজি কিনে বাজারেই সারা দিন বিক্রি করি। ভোরে কম দামে শাক-সবজি কিনি। কিন্তু একটু বেশি দামে বিক্রি না করলে তো পোষাবে না। কারণ বাজারের ট্যাক্স ও সারা দিনের শ্রমিক আছে। তার ওপর অনেক সময় সারা দিনে সবজি বিক্রি না হলে সেই সবজি নষ্ট হয়ে যায়। সেটাতে তো লোকসান আছে।’

আরও পড়ুন:
নওগাঁয় বাজারে নতুন আলুর কেজি ২০০ টাকা
সাকিব-হিরুর প্রতিষ্ঠানের মার্কেট মেকার লাইসেন্স অনিশ্চিত
ঘুমন্ত পুঁজিবাজারে হঠাৎ চাঙা জীবনবিমা, আগ্রহ ব্যাংকেও
ব্লক মার্কেটে যে দরে বিক্রি হলো ফ্লোরে থাকা শেয়ার
৩০ লাখ বিনিয়োগ ছাড়াই কেনা যাবে এসএমইর শেয়ার

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
Two people died in a mountain collapse in Ramu

রামুতে পাহাড় ধসে ৪ জনের মৃত্যু

রামুতে পাহাড় ধসে ৪ জনের মৃত্যু
ইউএনও জানান, রামুর কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের ফরেস্ট অফিস এলাকায় বুধবার রাত ৮টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। আজিজ ও তার পরিবার রাতে এক সঙ্গে বসে খাবার খাচ্ছিলেন। সে সময় পাহাড় ধসে বাড়ির উপর পড়লে চাপা পড়ে যান তারা।

কক্সবাজারের রামুতে পাহাড় ধসে একই পরিবারের চার জনের মৃত্যু হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফাহমিদা মুস্তফা।

তিনি জানান, রামুর কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের ফরেস্ট অফিস এলাকায় বুধবার রাত ৮টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলেন, কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের ফরেস্ট অফিস এলাকার আজিজুর রহমান, তার স্ত্রী রহিমা খাতুন, শাশুড়ি দিল ফুরুস বেগম ও পুত্রবধূ নাছিমা আকতার।

ইউএনও জানান, আজিজ ও তার পরিবার রাতে এক সঙ্গে বসে খাবার খাচ্ছিলেন। সে সময় পাহাড় ধসে বাড়ির উপর পড়লে চাপা পড়ে যান তারা।

রামুতে পাহাড় ধসে ৪ জনের মৃত্যু

আরও পড়ুন:
সন্তানদের আগলে রেখে প্রাণ হারিয়েছেন মা
চট্টগ্রামে আলাদা পাহাড় ধসে দুই ভাইসহ ৪ মৃত্যু
পাহাড়ধসের শঙ্কা, সরানো হচ্ছে রোহিঙ্গাদের
ধস এড়াতে পাহাড় কাটার প্রস্তাব
পাহাড়ধসে শিশুর মৃত্যু

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Navanna festival with pitha puli and dance song

পিঠা-পুলি আর নাচ-গানে নবান্ন উৎসব

পিঠা-পুলি আর নাচ-গানে নবান্ন উৎসব ছবি: নিউজবাংলা
উৎসবে প্রধান অতিথি খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. ইসমাইল হোসেন বলেন, ‘আমাদের দেশীয় অনেক ঐতিহ্য রয়েছে, তা আমাদের লালন করতে হবে। নিজেদের সংস্কৃতিকে অস্বীকার করা যাবে না।’

নতুন ধানের মৌ মৌ গন্ধে শুরু হয় নবান্ন। ঘরে ঘরে পিঠা-পুলির নানা আয়োজন। এমন আনন্দ আর উৎসব গ্রাম বাংলায় চিরন্তন।

এবার নতুন ধানের ভাপা পিঠা, রস পিঠা, তিল পিঠা, আন্ধাসা, চিতই পিঠা, খেজুর গুড়ের পিঠাসহ হরেক রমকের খাবার প্রদর্শনী এবং লোকজ সংগীত, নৃত্য ও আবৃত্তির মধ্য দিয়ে চাঁদপুরে অনুষ্ঠিত হয়েছে নবান্ন উৎসব।

চাঁদপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে বুধবার গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী এ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে পিঠা উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. ইসমাইল হোসেন।

পিঠা-পুলি আর নাচ-গানে নবান্ন উৎসব

তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশীয় অনেক ঐতিহ্য রয়েছে, তা আমাদের লালন করতে হবে। নিজেদের সংস্কৃতিকে অস্বীকার করা যাবে না।’

জেলা প্রশাসক কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল।

আরও পড়ুন:
ওয়ানগালায় মুখরিত গারো পাহাড়
নবান্নের আয়োজনে মেতেছে নওগাঁ
শিল্পকলায় নাচে গানে নবান্ন উৎসব

মন্তব্য

বাংলাদেশ
A fire broke out in a chemical shop in Khulna

খুলনায় মার্কেটে আগুন

খুলনায় মার্কেটে আগুন
খুলনা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সহকারী পরিচালক ফারুক হোসেন রাত ১২টার দিকে বলেন, ‘আগুন লাগার খবর পেয়ে খুলনার বিভিন্ন স্টেশনের ৫টি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেছে। এখন ডাম্পিংয়ের কাজ চলছে।’

খুলনা মহানগরীর বড়বাজারের হকার্স মার্কেটের একটি কেমিক্যাল এর দোকানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ফায়ার সার্ভিসের ৫ ইউনিটের প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে আসে আগুন। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হননি।

ক্লে রোডে অবস্থিত ওই মার্কেটে বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে আগুনের সূত্রপাত হয়।

খুলনা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সহকারী পরিচালক ফারুক হোসেন রাত ১২টার দিকে বলেন, ‘আগুন লাগার খবর পেয়ে খুলনার বিভিন্ন স্টেশনের ৫টি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেছে। এখন ডাম্পিংয়ের কাজ চলছে।

‘হকার্স মার্কেটের একটি কসমেটিকের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। সেখান থেকে আরও দুটি দোকানে ছড়িয়ে পড়ে। ধারণা করা হয়েছিল দোকানগুলিতে কেমিক্যাল রয়েছে। পরে দেখা গেছে সেখানে রং, পারফিউম ও কসমেটিকের বিভিন্ন পণ্য ছিল।’

আগুন লাগার কারণ তদন্তের পর জানা যাবে বলেও জানান তিনি।

খুলনায় মার্কেটে আগুন

পুরো মার্কেটে অগ্নি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেই জানিয়ে তিনি বলেন, ‘খুলনার বড়বাজারটি মারাত্মক অগ্নিঝুঁকিতে আছে। আমরা বারবার চেষ্টা করেও এখানের ব্যবসায়ীদের নিয়ে মহড়া দিতে পারিনি। ব্যবসায়ীর আমাদের কথা শুনেন না।’

আরও পড়ুন:
বাকপ্রতিবন্ধী তরুণীকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ
তুলার গুদামে আগুন
তিন ঘণ্টা পুড়িয়ে নিভল মার্কেটে লাগা আগুন
ভৈরবে মার্কেটে আগুন
অটোরিকশায় আগুন দেয়ার অভিযোগে বিএনপি নেতা গ্রেপ্তার

মন্তব্য

বাংলাদেশ
After 14 years Awami League woke up BNP Mirza Azam

১৪ বছর পর আওয়ামী লীগের ঘুম ভাঙাল বিএনপি: মির্জা আজম

১৪ বছর পর আওয়ামী লীগের ঘুম ভাঙাল বিএনপি: মির্জা আজম মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন মির্জা আজম। ছবি: নিউজবাংলা
মির্জা আজম বলেন, ‘বাংলাদেশ ছিল বিশ্বের সবচেয়ে দরিদ্রতম দেশ ও একটা ভিক্ষুকের জাতি। গত ১৪ বছরে সেই জাতি আজ উন্নয়নশীল দেশের কাতারে পৌঁছেছে। শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন।’

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম মন্তব্য করেছেন, আওয়ামী লীগের নেতারা ১৪ বছর ঘুমিয়েছিলেন। সেই ঘুম ভাঙিয়ে দিয়েছে ফখরুল ইসলাম আলমগীররা।

এভাবে নেতা-কর্মীদের ঘুম ভাঙিয়ে দেয়ার জন্য বিএনপির নেতাদের তাই ধন্যবাদ জানিয়েছেন মির্জা আজম।

বুধবার সন্ধ্যায় মানিকগঞ্জ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের খেলার মাঠে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব মন্তব্য করেন।

মির্জা আজম বলেন, ‘১৪ বছরের ক্ষমতার আমলে আওয়ামী লীগের সকল নেতা ঘুমিয়েছিল। সেই ঘুম ভাঙিয়ে দিয়েছে ফখরুল ইসলাম আলমগীররা (বিএনপি)। তারা বলেছেন, আগামী ১০ ডিসেম্বরের পর থেকে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বাংলাদেশ চলবে এবং ১১ ডিসেম্বর তারেক জিয়া বাংলাদেশের ক্ষমতায় বসবেন। এসব কথা বলে তারা আওয়ামী লীগের ঘুম ভাঙিয়ে দিয়েছে।’

এ সময় সরকারের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে মির্জা আজম বলেন, ‘বাংলাদেশ ছিল বিশ্বের সবচেয়ে দরিদ্রতম দেশ ও একটা ভিক্ষুকের জাতি। গত ১৪ বছরে সেই জাতি আজ উন্নয়নশীল দেশের কাতারে পৌঁছেছে। শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন। আরও এগিয়ে যাবে। শেখ হাসিনার লক্ষ্য আগামী ৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে আমেরিকা ও ইউরোপ বানাবেন এবং উন্নত দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে বিশ্বের মানচিত্রে প্রতিষ্ঠা করবেন।’

এ সময় তিনি সংগঠনের গঠনতন্ত্র মেনে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের কমিটিগুলোকে প্রত্যেক মাসে নির্বাহী সভা, তিনমাস পর বর্ধিত সভা ও ছয় মাস পর পর কর্মীসভা এবং বছর শেষে একবার করে জনসভা করার আহ্বান জানান।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ইস্রাফিল হোসেনের সভাপতিত্বে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, মানিকগঞ্জ-১ আসনের সাংসদ মমতাজ বেগম, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এবিএম রিয়াজুল কবির কাওসার, শাহাবুদ্দিন ফরাজী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট গোলাম মহীউদ্দীন ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালামসহ দলীয় নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সম্মেলন শেষে দলীয় নেতা-কর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে আগামী তিন বছরের জন্য মানিকগঞ্জ সদরে মো. ইস্রাফিল হোসেনকে সভাপতি ও আফসার উদ্দিন সরকারকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়।

এ ছাড়াও মানিকগঞ্জ পৌরসভায় আরশেদ আলী বিশ্বাসকে সভাপতি ও মো. জাহিদুর রহমানকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়।

আরও পড়ুন:
২০২৪-এর প্রথম সপ্তাহে নির্বাচন, ভোট চাইলেন শেখ হাসিনা
বিএনপি কার্যালয় ঘিরে পুলিশের পাশাপাশি সোয়াট
দ্বিধা নয়, ১০ ডিসেম্বরের সমাবেশ হবেই: ফখরুল
১০ ডিসেম্বর সংঘাতের শঙ্কায় যুক্তরাজ্যের ভ্রমণ সতর্কতা
সমাবেশ নিয়ে সমঝোতায় আসবে বিএনপি: কাদের

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Sleepless night in fear of miking robbers in the mosque without verification

যাচাই ছাড়াই মসজিদে মাইকিং, ডাকাত আতঙ্কে নির্ঘুম রাত

যাচাই ছাড়াই মসজিদে মাইকিং, ডাকাত আতঙ্কে নির্ঘুম রাত
কাশিপুরের বাঘিয়া আল আমিন জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন নেছার উদ্দিন বলেন, ‘অন্য মসজিদের মাইকে ডাকাত হানা দেয়ার খবর শুনে ঘুম ভেঙে যায়। এরপর স্বপ্রণোদিত হয়ে আমি মাইকে সবাইকে সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানাই।’ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কেন বিষয়টি জানাননি- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি উত্তেজিত ও আতঙ্কিত ছিলাম। আমার ভুল হয়ে গেছে।’

বরিশাল নগরীতে ডাকাত আতঙ্কে মঙ্গলবার রাত নির্ঘুম কাটিয়েছেন বাসিন্দারা। গভীর রাত থেকে ডাকাত হানা দিয়েছে বলে ঘোষণা দেয়া হয় প্রতিটি এলাকার মসজিদের মাইকে। প্রতিরোধে অনেক এলাকায় লাঠিসোটা নিয়ে রাস্তায় নেমে পড়ে লোকজন। তবে ডাকাতদলের দেখা মেলেনি কোথাও।

পুলিশ সকালে জানিয়েছিল, গুজব ছড়ানো হয়েছে। মসজিদে এমন ঘোষণা দেয়ার কারণ জানতে গেলে নিউজবাংলাকে স্থানীয়রা জানায়, অপরিচিত কয়েকজন ব্যক্তি এসে এমন ঘোষণা দিতে বলেছে। যাচাই ছাড়াই সে কথা মেনে মধ্যরাতে মাইকিং করে এলাকার লোকজনদের আতঙ্কে ফেলায় বিব্রত মসজিদের লোকজন।

বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার দেহেরগতি এলাকায় মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টার দিকে প্রথম ডাকাত হানা দিয়েছে বলে ঘোষণা দেয়া হয়। এরপর বরিশাল নগরীতে রাত ২টা থেকে এই আতংক ছড়িয়ে পরে। প্রথমে পশ্চিম কাউনিয়ার একটি মসজিদ থেকে ঘোষণা আসে। এরপর একে একে নগরীর প্রায় সব এলাকার মসজিদের মাইকে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানানো হয়।

নগরীর মুসলিম গোরস্থান রোড জামে মসজিদের খাদেম আব্দুল হালিম বলেন, ‘রাত ২টার দিকে কয়েকজন লোক মুখ ঢেকে মসজিদের সামনে এসে ইমাম ও খাদেমকে ডাকাডাকি করে। এক পর্যায়ে আমি দরজা না খুলে ডাকাডাকির কারণ জানতে চাইলে তারা আমাকে জানায়- এলাকায় ডাকাত হানা দিয়েছে। মসজিদের মাইকে দ্রুত ঘোষণা দিয়ে সবাইকে সতর্ক করতে বলে।

‘কিন্তু আমি ঘোষণা না দিয়ে তাদেরকে মসজিদের সভাপতির বাসায় গিয়ে অনুমতি আনতে বলি। কিছু সময় তারা আমাকে ঘোষণা দিতে চাপাচাপি করে চলে যায়।’

কাশিপুরের বাঘিয়া আল আমিন জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন নেছার উদ্দিন বলেন, ‘অন্য মসজিদের মাইকে ডাকাত হানা দেয়ার খবর শুনে ঘুম ভেঙে যায়। এরপর স্বপ্রণোদিত হয়ে আমি মাইকে সবাইকে সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানাই।’

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কেন বিষয়টি জানাননি- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি উত্তেজিত ও আতঙ্কিত ছিলাম। আমার ভুল হয়ে গেছে।’

জিয়া সড়ক জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন মো. হেলাল জানান, এলাকার বেশ কয়েকজন লোক ফোন করে মাইকে সবাইকে সতর্ক করার জন্য বলে। এ কারণে তিনি ঘোষণা দেন।

কলেজ অ্যাভিনিউ বায়তুন নূর জামে মসজিদ এলাকার শেখ কাজল বলেন, ‘রাত সোয়া ২টার দিকে পালসার মোটরসাইকেলে দুই ব্যক্তি মসজিদের সামনে এসে ডাকাত পরার খবর ঘোষণা দেয়ার জন্য ডাকাডাকি করেন মসজিদের ইমামকে। তবে মসজিদের মধ্যে থেকে কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে তারা চলে যান।’

যাচাই ছাড়াই মসজিদে মাইকিং, ডাকাত আতঙ্কে নির্ঘুম রাত

বাঘিয়া এলাকার ব্যবসায়ী মোফাজ্জেল হোসেন বলেন, ‘ডাকাতের খবরে সারা রাত আতঙ্কে থাকতে হয়েছে। মসজিদের মাইকে এমন ভাবে ডাকাত হানা দেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়েছে- যেটা সত্যিই ভয়ানক ছিল।’

কাউনিয়া এলাকার বাসিন্দা আব্দুর রহমান বলেন, ‘যারা এই গুজব ছড়িয়েছে তাদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি। পরিবারের সবাই সারা রাত জেগে ডাকাতের আতঙ্কে ছিলাম।’

ডাকাত আতঙ্ক ছড়ানোর পেছনে জড়িতদের শনাক্তে কাজ চলছে বলে জানিয়েছেন মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার ফজলুল করিম।

তিনি বলেন, ‘আমাদের গোয়েন্দা তৎপরতা বৃদ্ধি করা হয়েছে। যারা ডাকাত আতঙ্কের গুজব ছড়িয়েছে, তাদের বিষয়ে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। আমরা বিষয়টি খুব গুরুত্বের সঙ্গেই দেখছি।’

শুধু বরিশাল নগরীই নয়, গত ২৮ নভেম্বর রাতে গৌরনদী ও ২৯ নভেম্বর রাতে মেহেন্দীগঞ্জে বিভিন্ন গ্রামে ডাকাত পড়েছে- এমন খবর মসজিদের মাইকে প্রচার করা হয়। উজিরপুর, বাবুগঞ্জ, গৌরনদী, মেহেন্দীগঞ্জে ডাকাতির কিছু ঘটনার রেশ ধরে নগরীজুড়ে ভিত্তিহীন আতঙ্ক ছড়ানো হয়েছে বলে প্রাথমিক ধারণা পুলিশের।

বরিশাল জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহজাহান হোসেন বলেন, ‘গত ৩ ডিসেম্বর রাতে জেলার উজিরপুরে ব্যাংকের এজেন্ট শাখাসহ চারটি দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। একই রাতে বাবুগঞ্জে বিয়েবাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।

‘এসব ঘটনায় মামলা করা হয়েছে। গোয়েন্দারা তৎপর রয়েছেন। দ্রুত অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারসহ এসব ঘটনার রহস্য উদঘাটন করব আমরা।’

আরও পড়ুন:
বরিশালে ডাকাত আসা নিয়ে মসজিদে মাইকিং, পুলিশ বলছে গুজব
কুমিল্লায় ডিবির গাড়িতে হামলা, গুলিবিদ্ধ ১ ‘ডাকাত’
ডাকাত আতঙ্কে মাদারীপুরের পাঁচ উপজেলার মানুষ
আ.লীগ নেতার খামারে ডাকাতি, নিয়ে গেছে বিদেশি ৬ গাভি
র‍্যাব পুলিশ ডিবির বেশে ডাকাতির প্রস্তুতি, গ্রেপ্তার ৪

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The death of the worker by twisting the machine

মেশিনে পেঁচিয়ে শ্রমিকের মৃত্যু

মেশিনে পেঁচিয়ে শ্রমিকের মৃত্যু
ক্ষতিপূরণের বিষয়ে পাকিজা টেক্সটাইল লিমিটেডের ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মফিদুল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের কালচারটা একটু ভিন্ন। আইনিভাবে ওই শ্রমিক যে ক্ষতিপূরণ পাবে সেটি তো দেয়া হবেই, একইসাথে তার পরিবারকে পুনর্বাসনেরও উদ্যোগ নেয়া হবে।’

ঢাকার সাভারে পাকিজা টেক্সটাইল লিমিটেড কারখানায় কর্মরত অবস্থায় প্রিন্টিং মেশিনে পেঁচিয়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার পাকিজা টেক্সটাইল লিমিটেডের ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মফিদুল ইসলাম ওই শ্রমিকের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, মঙ্গলবার ওই কারখানায় রাত্রিকালীন দায়িত্ব পালনের সময় দুর্ঘটনার শিকার হন শ্রমিক মো. শাহজাহান। ৫০ বছর বয়সী শাহজাহান লক্ষীপুর জেলার রামগঞ্জ থানাধীন মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে। তিনি সাভারের পৌর এলাকায় পরিবার নিয়ে বসবাস করছিলেন। কারখানাটির প্রিন্টিং শাখায় কাজ করতেন তিনি।

পাকিজা টেক্সটাইল লিমিটেডের ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মফিদুল ইসলাম বলেন, ‘রাতে কাজ করতে করতে ওই শ্রমিক চলন্ত প্রিন্টিং মেশিনের পাশেই ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে রোলারে কম্বল পেঁচিয়ে তিনি মেশিনের ভেতরে চলে যান। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।’

ক্ষতিপূরণের বিষয়ে এই কর্মকর্তা বলেন, ‘আমাদের কালচারটা একটু ভিন্ন। আইনিভাবে ওই শ্রমিক যে ক্ষতিপূরণ পাবে সেটি তো দেয়া হবেই, একইসাথে তার পরিবারকে পুনর্বাসনেরও উদ্যোগ নেয়া হবে। তার পরিবারের সদস্যদের চাকরি দেয়া থেকে শুরু করে পুনর্বাসনের জন্য যা যা করণীয় আমরা করবো।’

এ বিষয়ে শিল্প পুলিশ-১ এর সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) কোরবান আলী বলেন, ‘এ ঘটনায় মামলা হওয়ার তেমন কোনো সম্ভাবনা নেই। কেন না কারখানা কর্তৃপক্ষ আন্তরিক। নিহতের পরিবারের ক্ষতিপূরণ বা যা কিছু প্রয়োজন কারখানা কর্তৃপক্ষ পরিশোধের আশ্বাস দিয়েছে।’

আরও পড়ুন:
রামপুরায় ৬ তলার ছাদ থেকে পড়ে রডমিস্ত্রি নিহত
চা শ্রমিকেরা কেন পিছিয়ে
২৬ নভেম্বর থেকে নৌ-শ্রমিকদের কর্মবিরতির ঘোষণা
অ্যাম্বুলেন্স গেল চা বাগানে
পরিবহন শ্রমিকদের নিয়োগপত্র-বেতন-কর্মঘণ্টা নির্ধারণের দাবি

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Bomb attack on Chhatra League bus case against half a hundred leaders of BNP

ছাত্রলীগের বাসে বোমা হামলা, বিএনপির অর্ধশত নেতার বিরুদ্ধে মামলা

ছাত্রলীগের বাসে বোমা হামলা, বিএনপির অর্ধশত নেতার বিরুদ্ধে মামলা মঙ্গলবার বাসে বোমা বিস্ফোরণের পর বিক্ষোভ করেন ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা। ছবি: নিউজবাংলা
ঝালকাঠিতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বহনকারী দুটি বাসে বোমা হামলার ঘটনায় বুধবার সদর থানায় মামলা করা হয়। জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও যুবলীগের বর্তমান আহ্বায়ক পৌর কাউন্সিলর রেজাউল করিম জাকির এ মামলা করেন।

বরিশাল-পিরোজপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের ঝালকাঠির কৃষ্ণকাঠি ব্রাকমোড় ব্রিজে মঙ্গলবার রাত ৯টায় জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মী বহনকারী দুটি বাসে বোমা হামলার অভিযোগ ওঠে।

এ ঘটনার পরদিন বুধবার অস্ত্র ও বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে ঝালকাঠি সদর থানায় মামলা করা হয়। জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও যুবলীগের বর্তমান আহ্বায়ক পৌর কাউন্সিলর রেজাউল করিম জাকির মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ১৪ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ২৫/৩০ জনকে আসামি করা হয়।

এজাহারনামীয় আসামিরা হলেন- জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো.মনিরুল ইসলাম নুপুর, জেলা যুবদলের আহ্বায়ক শামিম তালুকদার, পৌর শাখার সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান তাপু, সাদ্দাম হোসেন, সরদার এনামুল হক এলিন, আনিসুর রহমান, গোলাম কিবরিয়া, শফিকুল ইসলাম লিটন, সরদার সফায়েত হোসেন, মো.নাছির উদিন খানন, আরিফুর রহমান খান, কেশব সুমন, জেলা বিএনপির আহবায়ক অ্যাড. শহাদাৎ হোসেন ও মো. জাহিদ হাসেন।

মামলার বাদী রেজাউল করিম জাকির নিউজবাংলাকে বলেন, ‘বিএনপিতে কে সাবেক এবং কে বর্তমান সেটা মুখ্য বিষয় না। কারা বোমা হামলা করেছে, কারা পরিকল্পনা করেছে, কারা উসকানি দিয়েছে সেটাই মুখ্য বিষয়। আমি ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হিসেবে এই মামলা করেছি।’

মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সম্মেলনে শেষে ঝালকাঠি ফেরার পথে রাত ৯টায় জেলা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের বহনকারী দুটি বাস ঝালকাঠি ব্রাকমোড় ব্রিজের ওপর এলে কে বা কারা পরপর পাঁচটি বোমা ছোড়ে। এতে ছাত্রলীগের ছয় নেতা-কর্মী আহত হন। তাদের সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়।

মামলার আসামিদের গ্রেপ্তারে দ্রুতই অভিযান চালানো হবে বলে নিউজবাংলাকে জানিয়েছেন ঝালকাঠির পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল।

আরও পড়ুন:
ছাত্রলীগের পদপ্রত্যাশীদের বায়োডাটা গণভবনে
২৪ ডিসেম্বরের মধ্যেই ছাত্রলীগের নতুন নেতৃত্বের নাম ঘোষণা
বড় ভাইকে মেইনটেইন করা ছাত্রলীগের কাজ নয়: কাদের
ছাত্রলীগের কর্মীদের মুখে নতুন নেতৃত্ব নিয়ে জল্পনা
ছাত্রলীগের নতুন নেতৃত্বে আসছেন কারা

মন্তব্য

p
উপরে