× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
Policeman killed by truck
google_news print-icon

ট্রাকের ধাক্কায় নিহত পুলিশ সদস্য

ট্রাকের-ধাক্কায়-নিহত-পুলিশ-সদস্য
প্রতীকী ছবি
দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী কামাল হোসেন বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে ট্রাকের হেলপার আলম শেখকে আটক করা হয়েছে। তবে চালক ট্রাক রেখে পালিয়ে যায়। পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে ট্রাকটি। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

খুলনায় ট্রাকের ধাক্কায় পুলিশের একজন সদস্য নিহত হয়েছেন।

নগরীর দৌলতপুর থানাধীন মিনাক্ষী সিনেমা হলের সামনে সোমবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত পুলিশ সদস্য হলেন মুসাব্বির হোসেন। তিনি খুলনার খালিশপুর জোনের পুলিশের সহকারী কমিশনারের দেহরক্ষী ছিলেন।

খুলনা ট্রাফিক বিভাগের এটিএসআই জি এম খালিদুর রহমান নিউজবাংলাকে তিনি এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘সকাল পৌনে ১০টার দিকে মুসাব্বির মোটরসাইকেল নিয়ে মিনাক্ষী সিনেমা হলের সামনে পৌঁছান। এ সময়ে পেছন থেকে একটি ট্রাক তার মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। মুসাব্বির রাস্তার ওপর ছিটকে পড়ে যান। ট্রাকের একটি চাকা তার শরীরের ওপর উঠে যায় এবং তাকে টানতে টানতে ৭ গজ দূরে নিয়ে যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেয়া হয়। কিন্তু হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।’

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী কামাল হোসেন বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে ট্রাকের হেলপার আলম শেখকে আটক করা হয়েছে। তবে চালক ট্রাক রেখে পালিয়ে যায়। পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে ট্রাকটি। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

আরও পড়ুন:
বিহারে ধর্মীয় শোভাযাত্রায় ট্রাকচাপায় নিহত ১২
ট্রাকচাপায় অটোরিকশার ৫ আরোহী নিহত
দুই বাইকের সংঘর্ষে দুই কিশোর নিহত
বাবা-দাদার সঙ্গে বাইকে শিশু, বাসচাপায় তিনজনই নিহত
দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে বাসের ধাক্কায় নিহত ৩

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
Moulvibazar sadar upazila election postponed

মৌলভীবাজার সদর উপজেলার নির্বাচন স্থগিত

মৌলভীবাজার সদর উপজেলার নির্বাচন স্থগিত
রিটার্নিং কর্মকর্তা ও মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. আব্দুস সালাম চৌধুরী জানান, আপিল বিভাগের আদেশ পালনের সুবিধার্থে মৌলভীবাজার সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

মৌলভীবাজার সদর উপজেলায় সব পদে দ্বিতীয় দফার উপজেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের উপসচিব মো. আতিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে রোববার এ তথ্য জানানো হয়।

নির্বাচন স্থগিত করে ইতোমধ্যে গণবিজ্ঞপ্তিও জারি করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা ও মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. আব্দুস সালাম চৌধুরী।

রোববার রাত ৯টায় এই প্রতিবেদককে তিনি জানান, আপিল বিভাগের আদেশ পালনের সুবিধার্থে ষষ্ঠ ধাপে অনুষ্ঠেয় দ্বিতীয় ধাপে মৌলভীবাজার সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

আরও পড়ুন:
ভোট কম পড়ার বড় কারণ বিএনপির বর্জন: ইসি আলমগীর
উপজেলা নির্বাচন: দ্বিতীয় ধাপে ৪৫৭ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন
১৫৭ উপজেলায় রোববার মাঠে নামছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী
ঝিনাইদহ-১ উপনির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী আওয়ামী লীগের নায়েব
সামনের নির্বাচনগুলো আরও স্বচ্ছ হবে: ইসি

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Two students died due to lightning in Chagalnaya

ছাগলনাইয়ায় বজ্রপাতে প্রাণ গেল দুই শিক্ষার্থীর

ছাগলনাইয়ায় বজ্রপাতে প্রাণ গেল দুই শিক্ষার্থীর
বজ্রপাতে প্রাণ হারানো মাহাদি হাসান এবার দাখিল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। অন্যজন শাহীন মাহমুদ অভি নিকুঞ্জরা মাদ্রাসায় দশম শ্রেণির ছাত্র। তারা গরু আনতে মাঠে গেলে বজ্রপাতের শিকার হয়।

ফেনীর ছাগলনাইয়ায় পৃথক বজ্রপাতের ঘটনায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। রোববার দুপুরের দিকে উপজেলার উত্তর কুহুমা ও দক্ষিণ লাঙ্গল মোড়া এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।

বজ্রপাতে প্রাণ হারানো দুই শিক্ষার্থীর মধ্যে মাহাদি হাসান উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের উত্তর কুহুমা গ্রামের প্রবাসী আতিকুর রহমান মজুমদারের ছেলে। তিনি এবার দাখিল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন।

অন্যজন ঘোপাল ইউনিয়নের দক্ষিণ লাঙ্গল মোড়া এলাকার ফজলুল করিমের ছেলে শাহীন মাহমুদ অভি। সে নিকুঞ্জরা মাদ্রাসায় দশম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত ছিল।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, দুপুর ২টার দিকে বৃষ্টি শুরু হলে মাঠে গরু আনতে যান মাহাদি। সেখানেই বজ্রপাতে তার শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ছাগলনাইয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। একই সময় ঘোপালের দক্ষিণ লাঙ্গল মোড়া এলাকায় বাড়ির পাশে মাঠে গরু আনতে গিয়ে বজ্রপাতে প্রাণ হারায় অভি।

রাধানগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারাফ হোসেন বলেন, ‘উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ তাদের বাড়িতে গিয়েছি৷ সন্তানের এমন আকস্মিক মৃত্যুতে পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।’

ঘোপাল ইউপির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সেলিম বলেন, ‘ঘটনাটি জানতে পেরে তাদের পরিবারের খোঁজখবর নিয়েছি। ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ দাফন করা হয়েছে।’

ছাগলনাইয়া থানার ওসি হাসান ইমাম জানান, দুপুরে পৃথক স্থানে বজ্রপাতে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাদের মরদেহ ময়নাতদন্ত ছাড়াই হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:
নরসিংদীতে বজ্রপাতে মা-ছেলেসহ তিনজন নিহত
টাঙ্গাইলে বজ্রপাতে দুই কৃষকের মৃত্যু
গাইবান্ধার দুই উপজেলায় বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু
বজ্রপাত নিরোধ যন্ত্র স্থাপনে সহায়তা করতে চায় ফ্রান্স
বজ্রপাতে তিন জেলায় পাঁচজন নিহত, আহত ৭

মন্তব্য

বাংলাদেশ
2 including tourist killed in accident on Marine Drive road

মেরিন ড্রাইভ সড়কে দুর্ঘটনায় পর্যটকসহ নিহত ২

মেরিন ড্রাইভ সড়কে দুর্ঘটনায় পর্যটকসহ নিহত ২ মেরিন ড্রাইভ সড়কে দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত মোটরসাইকেল। ছবি: নিউজবাংলা
পুলিশ পরিদর্শক ছমি উদ্দিন জানান, মেরিন ড্রাইভ সড়কে টেকনাফ উপজেলার জাহাজপুরা এলাকায় কক্সবাজারমুখী মোটর সাইকেলের সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা ইজিবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে এই হতাহত হওয়ার ঘটনা ঘটে।

কক্সবাজারের টেকনাফে মেরিন ড্রাইভ সড়কে ইজিবাইক ও মোটর সাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে হানিমুনে আসা এক পর্যটকসহ দুজন নিহত এবং তিনজন আহত হয়েছেন।

রোববার দুপুর ১টার দিকে টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের জাহাজপুরা মেরিন ড্রাইভ সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক মো. ছমি উদ্দিন।

নিহতরা হলেন টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের হরিখোলা গ্রামের লাতাইঅং চাকমার ছেলে ও ইউনিয়ন যুবলীগের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সহ-সভাপতি বারিক্কা ওরফে কিরণ চাকমা এবং ঢাকার ডেমরা স্টাফ কোয়ার্টারের বাসিন্দা মাজহারুল ইসলামের ছেলে মো. জিহাদ।

দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন নিহত জিহাদের সদ্য বিবাহিত স্ত্রী তাসিম আক্তার মরিয়ম।

আহত অপর দু’জনের নাম-পরিচয় জানাতে না পারলেও তারা ইজিবাইকের যাত্রী বলে জানান পুলিশের এই পরিদর্শক।

ছমি উদ্দিন বলেন, দুপুরে মেরিন ড্রাইভ সড়কে টেকনাফ উপজেলার জাহাজপুরা এলাকায় কক্সবাজারমুখী মোটর সাইকেলের সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা ইজিবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মোটর সাইকেল আরোহী দু’জনসহ পাঁচজন আহত হন। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে বারিক্কা চাকমা ওরফে কিরণ মারা যান।

আহত অপর চারজনকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়ার পর আরও একজনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

নিহত জিহাদের খালাতো ভাই আবু ইউছুফ বলেন, ‘দুই মাস আগে জিহাদ ও তাসিম আক্তার মরিয়মের বিয়ে হয়। ১৬ মে তারা পরিবারের অন্যদের সঙ্গে ঢাকা থেকে কক্সবাজারে বেড়াতে আসেন।

‘শনিবার তারা সবাই একসঙ্গে ঢাকায় ফেরার কথা ছিল। কিন্তু নবদম্পতি আরও একদিন থাকার ইচ্ছে পোষণ করায় ফেরা হয়নি। পরে রোববার রাতে সবাই একসঙ্গে ফেরার সিদ্ধান্ত হয়। এর মধ্যেই এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে গেল।’

তিনি বলেন, ‘রোববার সকালে জিহাদ ও তার স্ত্রী ‘রেন্ট এ বাইক’ যোগে মেরিন ড্রাইভ সড়ক ঘুরতে টেকনাফের উদ্দেশে রওনা হন। দুপুরে কক্সবাজারে ফেরার পথে টেকনাফের জাহাজপুরা এলাকায় দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই জিহাদ মারা যায় এবং তার স্ত্রী আহত হয়।’

ময়নাতদন্ত ছাড়াই তারা মরদেহ ঢাকায় নিয়ে যেতে চান বলে জানান তিনি।

পরিদর্শক মো. ছমি উদ্দিন জানান, নিহত পর্যটকের মরদেহ কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে এবং অপরজনের মরদেহ নিজেদের বাড়িতে রয়েছে।

আরও পড়ুন:
বাড়ি ফেরার পথে ট্রাকের ধাক্কায় কলেজছাত্র নিহত
বাইক নিয়ে নির্বাচনি শোডাউনে গিয়ে প্রাণ গেল যুবকের
শেরপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
কুমিল্লায় বাস উল্টে ৫ যাত্রী নিহত
চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রাকচাপায় রাখালসহ ৬ গরুর মৃত্যু

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Land office closed for 6 hours due to bomb threat in Kapasia

কাপাসিয়ায় বোমা আতঙ্কে ৬ ঘণ্টা অচল ভূমি অফিস

কাপাসিয়ায় বোমা আতঙ্কে ৬ ঘণ্টা অচল ভূমি অফিস গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার রায়েদ ইউনিয়ন ভূমি অফিসে বোমাসদৃশ বস্তু ঘিরে সতর্ক অবস্থান। ছবি: নিউজবাংলা
ডিএমপি’র কাউন্টার টেরোরিজম ও বোমা ডিসপোজাল ইউনিটের টিম লিডার মো. মাহমুদুজ্জামান বলেন, ‘আমাদের টিম প্রাথমিক তদন্তের পর এটিকে নিষ্ক্রিয় করার প্রক্রিয়া শুরু করে। পরে দেখা যায় এটি নকল বোমা। কেউ আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য হয়তো এই কাজ করেছে।’

বোমা আতঙ্কে গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার রায়েদ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের কার্যক্রম ৬ ঘণ্টা বন্ধ ছিল। ঢাকায় বোমা নিষ্ক্রিয়করণ টিমকে খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে আসে।

ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, রায়েদ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের চারদিকে রশি দিয়ে বেষ্টনী দিয়ে রেখেছে থানা পুলিশ। বোমার আতঙ্কে ভূমি অফিসের সব কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

ভূমি অফিসের সেবাপ্রত্যাশীরা এসে বোমাতঙ্কে ফিরে যাচ্ছেন। কেউবা নিরাপদ দূরত্বে দাঁড়িয়ে বিষয়টি দেখছেন।

কাপাসিয়ায় বোমা আতঙ্কে ৬ ঘণ্টা অচল ভূমি অফিস
উদ্ধার করা বোমাসদৃশ বস্তু। ছবি: নিউজবাংলা

রায়েদ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের পশ্চিম পাশে ৩০ ফুট দূরত্বে একটি মসজিদ রয়েছে। দক্ষিণ পাশে রয়েছে একটি সড়ক। তার পাশে রায়েদ বাজার। বোমা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ার পর ভূমি অফিসকে ঘিরে স্থানীয় লোকজন ভিড় জমায়।

রোববার সকাল ৯টার সময় রায়েদ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের পরিচ্ছন্নকর্মী রেজাউল করিম প্রথম একটি বস্তু দেখতে পাযন। তিনি জানান, ‘আমি খাকি কাগজে মোড়ানো একটি প্যাকেট দেখতে পাই। প্যাকেটটি ধরতেই হাত থেকে নিচে পড়ে যায়। পরে এটি তুলে দেখি এর মধ্যে মোবাইল ডিসপ্লের মতো কী যেন লেখা। তা থেকে এক ধরনের টিক টিক শব্দ বের হচ্ছে।

‘জিনিসটি অফিসের স্যারদের দেখালে তারা এটিকে টাইম বোমা বলে উল্লেখ করেন। পরে এটি পাশের মাটির ঘরে নিয়ে রেখে দেই।’

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম ও বোমা ডিসপোজাল ইউনিটের টিম লিডার মো. মাহমুদুজ্জামান বলেন, ‘আমরা সকাল ১১টায় সংবাদ পেয়ে ঢাকা থেকে কাপাসিয়ায় ঘটনাস্থলে আসি। আমাদের টিম প্রাথমিক তদন্তের পর এটিকে নিষ্ক্রিয় করার প্রক্রিয়া শুরু করে। নিষ্ক্রিয় করতে গিয়ে দেখা যায় এটি বোমার আদলের একটি বস্তু। এটি নকল বোমা। কেউ আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য হয়তো এই কাজটি করেছে।’

বোমা আতঙ্কের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন কাপাসিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ কে এম লুৎফর রহমান ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিফাত নূর মৌসুমী।

রিফাত নূর মৌসুমী বলেন, ‘মূলত আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য কেউ কাজটি করেছে। বিষয়টি থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে। তারা প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ নেবে।’

আরও পড়ুন:
মাদারীপুরে হাতবোমা বানানোর সময় বিস্ফোরণ, নিহত ১
নারায়ণগঞ্জে বাসে উদ্ধার হওয়া বস্তুটি টাইম বোমা: পুলিশ
মেহেরপুরে চারটি বোমাসাদৃশ্য বস্তু উদ্ধার
নারায়ণগঞ্জে ট্রেনে বোমা হামলার চেষ্টা, আটক ৩
ঈশ্বরদীতে ট্রেনের নিচ থেকে বোমা উদ্ধার

মন্তব্য

বাংলাদেশ
A statue worth crores of rupees was found on the ground of pond renovation

পুকুর সংস্কারের মাটিতে মিলল কোটি টাকার মূর্তি

পুকুর সংস্কারের মাটিতে মিলল কোটি টাকার মূর্তি নওগাঁর রাণীনগরে পুকুর সংস্কারের মাটিতে পাওয়া কষ্টিপাথরের লক্ষ্মী-নারায়ণ মূর্তি। ছবি: নিউজবাংলা
রাণীনগর থানার ওসি মো. আবু ওবায়েদ বলেন, ‘মূর্তিটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এটির মূল্য আনুমানিক কোটি টাকা হবে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে মূর্তিটি সংশ্লিষ্ট দপ্তরে হস্তান্তর করা হবে।’

নওগাঁর রাণীনগরে পুকুর খননের মাটির ভেতর থেকে প্রায় কোটি টাকা মূল্যের কষ্টিপাথরের লক্ষ্মী-নারায়ন মূর্তি উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার সকালে উপজেলার কালিগ্রাম ইউনিয়নের রাতোয়াল বাজার থেকে মূর্তিটি উদ্ধার করে থানা পুলিশ।

পুলিশ বলছে, মূর্তিটি লক্ষ্মী-নারায়নের কষ্টি পাথরের। ওজন ১৪ কেজি ৭০০ গ্রাম।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কয়েকদিন আগে উপজেলার রাতোয়াল গ্রামে শুকবর নামে এক ব্যক্তির পুকুর সংস্কার করা হয়। ওই পুকুর থেকে রাতোয়াল বাজারে জায়গা ভরাটের জন্য একজনের কাছে মাটি বিক্রি করা হয়েছে।

কেটে আনা ওইসব মাটি রোববার সকালে শ্রমিকরা সমান করার কাজ করছিলেন। এ সময় এক শ্রমিকের কোদালের আঘাতে মাটির ভেতর থেকে লক্ষ্মী-নারায়ণের একটি মূর্তি বের হয়ে আসে।

বিষয়টি স্থানীয়রা জানতে পেরে থানা পুলিশকে জানায়। খবর পেয়ে সকাল ৮টায় রাণীনগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মূর্তিটি উদ্ধার করে।

রাণীনগর থানার ওসি মো. আবু ওবায়েদ বলেন, ‘মূর্তিটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এটির মূল্য আনুমানিক কোটি টাকা হবে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে মূর্তিটি সংশ্লিষ্ট দপ্তরে হস্তান্তর করা হবে।’

আরও পড়ুন:
মুন্সীগঞ্জে পুকুরের তলদেশ থেকে কষ্টিপাথরের বিষ্ণু মূর্তি উদ্ধার

মন্তব্য

বাংলাদেশ
10 hand fans for 1 rupee

১ টাকায় ১০ হাতপাখা

১ টাকায় ১০ হাতপাখা কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার পাঁচগাছি ইউনিয়নের আরাজী কদমতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাতে এক টাকার পাখা। ছবি: নিউজবাংলা
আরাজী কদমতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাসিনা আক্তার বানু বলেন, ‘ফুল সংগঠন চরাঞ্চলের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এক টাকায় ১০টি পরিবেশবান্ধব পাখা বিক্রি করছে। আমি স্কুলের শিক্ষার্থীদের জন্য দুই টাকায় ২০টি হাতপাখা কিনলাম, যা বাইরে দোকান থেকে প্রায় ৬০০ টাকায় কিনতে হতো।’

কুড়িগ্রামের প্রত্যন্ত চরাঞ্চলের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে রোববার এক টাকার বিনিময়ে ১০টি হাতপাখা উপহার দিয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন ফাইট আনটিল লাইট (ফুল)।

তীব্র গরমে স্কুলের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শিক্ষকদের সুবিধার্থে এমন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সংগঠনটি।

দুপুরে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার পাঁচগাছি ইউনিয়নের আরাজী কদমতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাতে এসব পাখা তুলে দেন প্রধান শিক্ষক হাসিনা আক্তার বানু ও ফুলের নির্বাহী পরিচালক আবদুল কাদের।

প্রায় দুই যুগ ধরে শিক্ষা, স্বাস্থ্যের পাশাপাশি অসহায় মা-বাবার মুখে হাসি ফোটাতে কাজ করছে ফুল। সংগঠনটি চরাঞ্চলের শতাধিক বিদ্যালয়ে এক টাকায় খাতা-কলম বিক্রি করে আসছে।

হাতপাখা পাওয়া আরাজী কদমতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী আকলিমা খাতুন বলে, ‘আমাদের স্কুলে বিদ্যুৎ সবসময় থাকে না। গরমে ক্লাসের বই-খাতা নিয়ে শরীরে বাতাস করতে হয়।

‘এতে বই-খাতা নষ্ট হয়ে যায়। আজ ফুল সংগঠনের পরিবেশবান্ধব হাতপাখা পাইলাম। আমাদের আর কষ্ট হবে না।’

একই স্কুলের ছাত্র রাজু আহমেদ বলে, ‘গত কয়েক দিন ধরে প্রচুর গরম। কারেন্ট ঠিকমতো থাকে না। খুব কষ্ট হয়। আজ ফুলের পরিবেশবান্ধব পাখা পেয়ে খুব ভালো লাগল।’

আরাজী কদমতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাসিনা আক্তার বানু বলেন, ‘এ অঞ্চলে পল্লী বিদ্যুৎ সবসময় থাকে না। ফলে প্রচণ্ড গরমে স্কুলের বাচ্চাদের কষ্ট হতো। হাতে যা পাইত, তা দিয়ে গরম নিবারণের চেষ্টা করত।

‘ফুল সংগঠন চরাঞ্চলের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এক টাকায় ১০টি পরিবেশবান্ধব পাখা বিক্রি করছে। আমি স্কুলের শিক্ষার্থীদের জন্য দুই টাকায় ২০টি হাতপাখা কিনলাম, যা বাইরে দোকান থেকে প্রায় ৬০০ টাকায় কিনতে হতো।’

তিনি আরও বলেন, ‘এখন বাচ্চাদের তেমন ভোগান্তিতে পড়তে হবে না। এমন উদোগ নেয়ার জন্য ফুলকে ধন্যবাদ জানাই। তাদের এ কাজগুলো অব্যাহত থাকুক।’

ফাইট আনটিল লাইট তথা ফুলের নির্বাহী পরিচালক আবদুল কাদের বলেন, ‘ফুল একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। মানুষের কল্যাণে সবসময় কাজ করার চেষ্টা করছে।

‘আমরা চরাঞ্চলের শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করে সপ্তাহব্যাপী পরিবেশবান্ধব পাখা বিক্রির উদ্যোগ নিয়েছি। আগামীতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে।’

আরও পড়ুন:
যার হাত ধরে কুড়িগ্রামের টুপি মধ্যপ্রাচ্যে
একুশে পদকের পর স্বাধীনতা পুরস্কার পাচ্ছেন কুড়িগ্রামের আব্রাহাম লিংকন
রমজানে সাঈদুলের অটোরিকশা ভাড়ায় ছাড়
কুড়িগ্রামে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়তে আসছে ভুটানের দল
চেতনানাশকে ইউপি চেয়ারম্যানসহ সাতজন অচেতন, ধারণা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার

মন্তব্য

বাংলাদেশ
RAB to investigate death of female accused in Bhairab custody

ভৈরবে হেফাজতে নারী আসামির মৃত্যু তদন্ত করবে র‌্যাব

ভৈরবে হেফাজতে নারী আসামির মৃত্যু তদন্ত করবে র‌্যাব কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে সুরাইয়া খাতুনের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ছবি: সংগৃহীত
র‌্যাব-১৪ ময়মনসিংহের অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান নিউজবাংলাকে রোববার বলেন, ‘র‌্যাব হেডকোয়ার্টার্সের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সুরাইয়া খাতুনের মৃত্যুরহস্য উদঘাটনের জন্য তদন্ত কমিটি করা হবে এবং বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।’

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) হেফাজতে নারী আসামির মৃত্যুর ঘটনাটি তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছে বাহিনীটি।

র‌্যাব-১৪ ময়মনসিংহের অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান নিউজবাংলাকে রোববার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘র‌্যাব হেডকোয়ার্টার্সের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সুরাইয়া খাতুনের মৃত্যুরহস্য উদঘাটনের জন্য তদন্ত কমিটি করা হবে এবং বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।’

প্রাণ হারানো ৫২ বছর বয়সী সুরাইয়া খাতুন ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার বরুনাকান্দা গ্রামের আজিজুল ইসলামের স্ত্রী। শনিবার সকালে কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে তার ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।

ময়নাতদন্ত করে মেডিক্যাল কলেজের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রভাষক ডা. ইমতিয়াজের নেতৃত্বাধীন একটি দল। ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের সদস্যদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়।

এর আগে শুক্রবার রাত আটটার দিকে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন কিশোরগঞ্জ কালেক্টরেটের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইসরাত জাহান। সুরতহাল প্রতিবেদনে কী ধরনের আলামত পরিলক্ষিত হয়েছে, সে বিষয়ে সংবাদকর্মীদের কিছুই জানাননি তিনি।

পুত্রবধূ রেখা আক্তার হত্যা মামলার আসামি হিসেবে বৃহস্পতিবার রাতে নান্দাইল উপজেলার নতুন বাজার এলাকা থেকে সুরাইয়া খাতুন ও তার ছেলে তাইজুল ইসলাম লিমনকে (২৩) আটক করে র‌্যাব। রাতেই তাদের র‌্যাব-১৪ কিশোরগঞ্জের ভৈরব ক্যাম্পে নেওয়া হয়। শুক্রবার সকালে সুরাইয়া খাতুনকে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় র‌্যাব। জরুরি বিভাগ থেকে জানানো হয় হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে র‌্যাব ভৈরব ক্যাম্পের পক্ষ থেকে সংবাদকর্মীদের তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করা হয়। ভৈরব ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক ফাহিম ফয়সাল বলেন, ‘ময়মনসিংহ থেকে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসে এ বিষয়ে ব্রিফ করবেন।’

যদিও র‌্যাবের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়া হয়নি।

ভৈরব থানার ওসি সফিকুল ইসলাম জানান, শনিবার ময়নাতদন্তের পর মরদেহ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘ম্যাজিস্ট্রেট ইসরাত জাহান যে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেছেন, সেটা ডিসকাস (আলোচনা) করা যাবে না, ফরম্যাট অনুযায়ী সেটা বিজ্ঞ আদালতে যাবে।’

আরও পড়ুন:
নাটোরে হত্যা মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা
সেনাবাহিনীতে চাকরির ভুয়া নিয়োগপত্র, টাকা আত্মসাতের অভিযোগে একজন আটক 
মোটরসাইকেলে বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল মামা-ভাগ্নের 
দাদির কষ্ট মনে রেখে ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস জনির
বিনা পয়সায় পছন্দের জামা পেল শিশুরা

মন্তব্য

p
উপরে