× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
Transport strike is going on in Sylhet
google_news print-icon

সিলেটে চলছে পরিবহন ধমর্ঘট

সিলেটে-চলছে-পরিবহন-ধমর্ঘট
সিলেট বিভাগীয় ট্রাক পিকআপ কাভার্ডভ্যান মালিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক শাব্বীর আহমদ বলেন, ‘পাথর তুলতে না দেয়ায় আমাদের ব্যবসায় একেবারে ধস নেমেছে। শ্রমিকরাও বেকার হয়ে পড়েছে। তাই বাধ্য হয়ে ধর্মঘট ডেকেছি।’

কোয়ারিগুলো থেকে পাথর তোলার ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবিতে সিলেটে ৪৮ ঘণ্টার পণ্যবাহী পরিবহন ধর্মঘট চলছে। ৪৮ ঘণ্টার এই ধর্মঘট শুরু হয়েছে সোমবার ভোর ৬টা থেকে।

ধর্মঘটের কারণে ট্রাক, কাভার্ডভ্যান, পিকআপসহ পণ্যবাহী সব ধরনের পরিবহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে নগরে সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ধর্মঘটের তেমন প্রভাব পড়েনি।

সংবাদ সম্মেলন করে গত ১৭ অক্টোবর এই ধর্মঘটের ঘোষণা দেয় সিলেট বিভাগীয় ট্রাক, পিকআপভ্যান ও কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। একইসঙ্গে দাবি আদায় না হলে পুরো বিভাগে অনির্দিষ্টকালের পণ্যবাহী পরিবহন ধর্মঘটের হুঁশিয়ারি দিয়েছে সংগঠনটি।

এনিয়ে রোববার রাতে সিলেটের জেলা প্রশাসনের সঙ্গে পরিবহন মালিক-শ্রমিক নেতাদের বৈঠক হলেও তা ফলপ্রসূ হয়নি। ফলে সকাল থেকে শুরু হয় ধর্মঘট। তবে ধর্মঘটের মধ্যেও মহাসড়কগুলোতে কিছু কিছু পণ্যবাহী পরিবহন চলতে দেখা গেছে।

পরিবহন শ্রমিক নেতারা বলছেন, সিলেটের ভোলাগঞ্জ, বিছনাকান্দি, জাফলং এবং লোভাছড়া পাথর কোয়ারিগুলো থেকে পাথর তোলা প্রায় ৫ বছর ধরে বন্ধ। ১৫ লাখ ব্যবসায়ী-শ্রমিক ও পরিবহন মালিক-শ্রমিক চরম সংকটে পড়েছেন।

সিলেট বিভাগীয় ট্রাক পিকআপ কাভার্ডভ্যান মালিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক শাব্বীর আহমদ বলেন, ‘পাথর তুলতে না দেয়ায় আমাদের ব্যবসায় একেবারে ধস নেমেছে। শ্রমিকরাও বেকার হয়ে পড়েছে। তাই বাধ্য হয়ে ধর্মঘট ডেকেছি।

‘প্রথমে আমরা জেলায় ৪৮ ঘণ্টার ধর্মঘট ডেকেছি। এরমধ্যে দাবি পূরণ না হলে ৩ নভেম্বর আমরা বিভাগীয় সমাবেশ করব। এই সমাবেশ থেকে পুরো বিভাগে ধর্মঘটের ডাক দেয়া হবে।’

জেলা প্রশাসক মো. মজিবুর রহমান বলেন, ‘কোয়ারি থেকে পাথর তোলার দাবির পরিপ্রেক্ষিতে খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে উচ্চ পর্যায়ের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ৩ নভেম্বর এই কমিটির সদস্যরা সিলেটের কোয়ারিগুলো পরিদর্শনে আসবেন। তারা সরেজমিনে পরিদর্শন করে দেখবেন পাথর উত্তোলনের যৌক্তিকতা আছে কি না। তাদের প্রতিবেদনের ভিত্তিতে সরকার পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে।’

বাংলাদেশ খনিজসম্পদ উন্নয়ন ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী, সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় ৪, গোয়াইনঘাট উপজেলায় ২ এবং কানাইঘাট ও জৈন্তাপুর উপজেলায় একটি করে মোট ৮ পাথর কোয়ারি আছে।

২০১৯ সালের ৩ ডিসেম্বর মন্ত্রিপরিষদ ‘পাথর উত্তোলনে সমস্যা নিরসনে সুপারিশ প্রণয়ন কমিটি’ গঠনের পরিপ্রেক্ষিতে জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগের ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ও ২ নভেম্বর ২০২০ তারিখের নির্দেশনা অনুযায়ী সব পাথর কোয়ারি ইজারা বন্ধ আছে।

আরও পড়ুন:
জ্বালানি, টেলিযোগাযোগ ও আইসিটিতে ধর্মঘট ডাকলে সাজা
ন্যূনতম মজুরি ঘোষণার দাবি চালকল শ্রমিকদের
পা পিছলে ট্রাকের নিচে ‘মাতাল’ যুবক
বাস মালিকরা স্বাধীন, আমাদের কিছু করার নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
পরিত্যক্ত গভীর কূপে নারীর মরদেহ

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
Munni of the third gender showed surprise
উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

চমক দেখালেন তৃতীয় লিঙ্গের মুন্নী

চমক দেখালেন তৃতীয় লিঙ্গের মুন্নী দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মুন্নী আক্তার। ছবি: নিউজবাংলা
বিজয়ের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে মুন্নী আক্তার বলেন, ‘আমি মানুষের মৌলিক অধিকার নিয়ে কাজ করব। সমাজের অবহেলিত জনগোষ্ঠীর, বিশেষ করে মা-বোনদের মৌলিক অধিকার আদায়ে কাজ করব।’

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন তৃতীয় লিঙ্গের মুন্নী আক্তার। এই উপজেলায় এবারই প্রথম কোনো তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তি জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হলেন।

মঙ্গলবার ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী পাঁচ প্রার্থীকে পরাজিত করে বিজয়ী হন মুন্নী।

নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সেলাই মেশিন প্রতীকে ২৩ হাজার ৭৬৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন মুন্নী আক্তার। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মাজেদা বেগম কলস প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২১ হাজার ১৮৪টি।

বিজয়ের অনুভূতি ও আগামী দিনে কী কী কাজ করবেন- এমন প্রশ্নের জবাবে মুন্নী বলেন, ‘দেওয়ানগঞ্জের মানুষ আমাকে ভালোবেসে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছে। এই জন্য আমি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। তবে পুরুষের তুলনায় নারীদের ভোট বেশি পেয়েছি। আমি মানুষের মৌলিক অধিকার নিয়ে কাজ করব। সমাজের অবহেলিত জনগোষ্ঠীর, বিশেষ করে মা-বোনদের মৌলিক অধিকার আদায়ে কাজ করব।’

এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ ৩০ হাজার ২৭৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান মো. সোলায়মান হোসেন মোটরসাইকেল প্রতীকে পান ২৫ হাজার ৮৯৮ ভোট।

এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান পদে বই প্রতীক নিয়ে ২৯ হাজার ৭৭৮ ভোটে পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন মো. আরিফ খান।

আরও পড়ুন:
কালীগঞ্জে চাচাকে হারিয়ে এমপিপুত্রের জয়লাভ
সাবেক এমপি জাফরকে হারিয়ে এবারও উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুল
জিতেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শ্যালক, হেরেছেন সাবেক অর্থমন্ত্রীর ভাই
নওগাঁয় যারা ছিলেন চেয়ারে, রইলেন তারাই

মন্তব্য

বাংলাদেশ
MPs son wins by defeating his uncle in Kaliganj
উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

কালীগঞ্জে চাচাকে হারিয়ে এমপিপুত্রের জয়লাভ

কালীগঞ্জে চাচাকে হারিয়ে এমপিপুত্রের জয়লাভ কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের বেসরকারিভাবে নির্বাচিত চেয়ারম্যান রাকিবুজ্জামান আহমেদ (ডানে) ও তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মাহবুবুজ্জামান আহমেদ। কোলাজ: নিউজবাংলা
নির্বাচনে আনারস প্রতীকের প্রার্থী রাকিবুজ্জামান আহমেদকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা জহির ঈমাম। তিনি পেয়েছেন ২৪ হাজার ৩০৩ ভোট, অন্যদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী মাহবুবুজ্জামান আহমেদ পেয়েছেন ১৯ হাজার ৩৫০ ভোট।

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সাবেক সমাজকল্যাণমন্ত্রী ও লালমনিরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য নুরুজ্জামান আহমেদের ছেলে রাকিবুজ্জামান আহমেদ আপন চাচা মাহবুবুজ্জামান আহমেদকে হারিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন। ভোটের লড়াইয়ে ভাতিজার কাছে ৪ হাজার ৯৫৩ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছেন চাচা মাহবুবুজ্জামান।

নির্বাচনে আনারস প্রতীকের প্রার্থী রাকিবুজ্জামান আহমেদকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা জহির ঈমাম। তিনি পেয়েছেন ২৪ হাজার ৩০৩ ভোট, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী মাহবুবুজ্জামান আহমেদ পেয়েছেন ১৯ হাজার ৩৫০ ভোট।

এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান পদে দেবদাস কুমার রায় বাবুল বৈদ্যুতিক বাল্প প্রতীকে ১২ হাজার ৯৪৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। টিউবওয়েল প্রতীকে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আবির হোসেন চৌধুরী ১২ হাজার ৯০৫ ভোট পেয়েছেন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৮ হাজার ৬৪৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন হাঁস প্রতীকের প্রার্থী শিউলি রানি রায়। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোছাম্মদ নাজনীন রহমান পেয়েছেন ১২ হাজার ২৭৯ ভোট।

অন্যদিকে, জেলার আদিতমারী উপজেলায় ৩৩ হাজার ১৩৫ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন ইমরুল কায়েস ফারুক, ২২ হাজার ৫২৩ ভোট পেয়ে ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মাইদুল ইসলাম সরকার এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোছা. শামসুন্নাহার মিলি ২৪ হাজার ৬৮৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে লালমনিরহাটের আদিতমারী ও কালীগঞ্জ উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে দুই উপজেলায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোট ২৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলে ভোট গ্রহণ। গণনা শেষে রাত ১টার দিকে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা লুৎফর কবির বেসরকারিভাবে এসব ফলাফল ঘোষণা করেন।

আরও পড়ুন:
সাবেক এমপি জাফরকে হারিয়ে এবারও উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুল
জিতেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শ্যালক, হেরেছেন সাবেক অর্থমন্ত্রীর ভাই
নওগাঁয় যারা ছিলেন চেয়ারে, রইলেন তারাই
গাইবান্ধায় এমপি সমর্থিত প্রার্থীকে হারিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান হলেন রিংকু

মন্তব্য

বাংলাদেশ
3 dead bodies found in Mymensingh have been identified

ময়মনসিংহে উদ্ধার হওয়া ৩ মরদেহের পরিচয় শনাক্ত

ময়মনসিংহে উদ্ধার হওয়া ৩ মরদেহের পরিচয় শনাক্ত ত্রিশালের কাকচর এলাকা থেকে মঙ্গলবার বিকেলে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ছবি: সংগৃহীত
পুলিশ জানায়, ঋণের কিস্তি দেয়া নিয়ে ওই দম্পতির ঝগড়ার পর রাতে স্ত্রী ও দুই ছেলেকে হত্যা করেন আলী হোসেন। পরে পাশের নির্জন স্থানে মরদেহগুলো মাটিচাপা দিয়ে রাখেন তিনি।

ময়মনসিংহের ত্রিশালে উদ্ধার হওয়া তিন মরদেহের পরিচয় শনাক্ত হয়েছে। তারা হলেন ২৫ বছর বয়সী আমেনা খাতুন এবং তার দুই ছেলে চার বছরের আবু বক্কর সিদ্দিক ও দুই বছরের আনাস।

নিহতরা উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের কাকচর নয়াপাড়া গ্রামের আলী হোসেনের স্ত্রী ও সন্তান।

পুলিশ জানায়, অভাব-অনটনের সংসার ছিল নিহত আমেনা ও আলী হোসেনের। বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাদের সংসারে ঝগড়াঝাটি লেগেই থাকত। বিভিন্ন ব্যক্তি ও এনজিওর কাছ থেকে ঋণ নিয়ে দেনাগ্রস্ত ছিলেন তারা।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) রাতে ঋণের কিস্তি দেয়া নিয়ে ওই দম্পতির ঝগড়া হয়। এরপর রাতের কোনো এক সময় স্ত্রী ও দুই ছেলেকে হত্যা করেন আলী হোসেন। পরে রাতেই পাশের এক নির্জন স্থানে মরদেহগুলো মাটিচাপা দিয়ে রাখেন তিনি।

ঘটনার ছয়দিন পর শেয়াল গর্ত থেকে একটি শিশুর মরদেহ টেনে বের করে আনলে বিষয়টি নজরে আসে স্থানীয়দের। তারা থানায় খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে মা ও দুই সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ত্রিশাল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হুমায়ুন কবীর বলেন, ‘তিনজনকে হত্যার ঘটনায় নিহত আমেনার মা হামিদা খাতুন বাদী হয়ে মামলা করেছেন। ঘটনার পর থেকে আলী হোসেন পলাতক।

‘ঘাতক আলী হোসেন একটি হত্যা মামলার আসামি। ২০১২ সালে একটি হত্যা মামলায় সাত বছর জেল খাটেন তিনি।’

আরও পড়ুন:
ময়মনসিংহে গর্ত খুঁড়ে দুই শিশুসহ ৩ জনের মরদেহ উদ্ধার

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Detention on illegal entry from India 8

ভারত থেকে অবৈধভাবে প্রবেশের সময় আটক ৮

ভারত থেকে অবৈধভাবে প্রবেশের সময় আটক ৮ বেনাপোল পোর্ট থানার রঘুনাথপুর সীমান্ত দিয়ে পাসপোর্ট ছাড়া প্রবেশকালে আটক ৮ জন। ছবি: নিউজবাংলা
রঘুনাথপুর বিজিবি ক্যাম্পের হাবিলদার অহিদুজ্জামান জানান, রঘুনাথপুর ক্যাম্পের একটি টহল দল ১ নং ঘিবা মাঠ নামক স্থান থেকে অবৈধভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশ আসার সময় আটজনকে আটক করেছে। তাদের মধ্যে তিনজন নারী, ছয়জন পুরুষ ও একটি শিশু রয়েছে।

যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানার রঘুনাথপুর সীমান্ত দিয়ে পাসপোর্ট ও ভিসা ছাড়া ভারত থেকে বাংলাদেশে আসার সময় আটজনকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-বিজিবি। বুধবার ভোরে ১ নং ঘিবা মাঠ থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

রঘুনাথপুর ক্যাম্পের হাবিলদার অহিদুজ্জামান জানান, যশোর ব্যাটালিয়নের (৪৯ বিজিবি) অধীনস্ত রঘুনাথপুর ক্যাম্পের একটি টহল দল ১ নং ঘিবা মাঠ নামক স্থান থেকে অবৈধভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশ আসার সময় আটজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের মধ্যে তিনজন নারী, ছয়জন পুরুষ ও একটি শিশু রয়েছে।

আটককৃতদের মধ্যে সোবহান খান, তার স্ত্রী শেলি খাতুন ও আট বছরের সন্তান সাইফুল খানের বাড়ি খুলনার তেরখাদা থানার পানতিতা গ্রামে। এছাড়া মিঠুন শেখ, তার স্ত্রী আসমা খাতুন, তাদের সন্তান আরিফ ও মুন্নার বাড়ি নড়াইলের কালিয়া থানার আমবাড়ি গ্রামে। অপরজন মোছা. রেহানা যশোরের মনিরামপুর থানার সাতামতপুর গ্রামের মকবুল মোড়লের মেয়ে।

আটক আটজনের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Import export through Banglabandha land port is closed

বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ

বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর। ফাইল ছবি
তবে বন্ধের এ সময়ে ইমিগ্রেশন দিয়ে পাসপোর্টধারী যাত্রী পারাপার স্বাভাবিক রয়েছে।

বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে এক দিনের জন্য সকল ধরনের আমদানি-রপ্তানি বন্ধ রয়েছে। তবে বন্ধের এ সময়ে ইমিগ্রেশন দিয়ে পাসপোর্টধারী যাত্রী পারাপার স্বাভাবিক রয়েছে।

বুধবার বেলা ১২টার দিকে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর ল্যান্ডপোর্ট লিমিটেডের ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, বুদ্ধ পূর্ণিমার উপলক্ষে ২২ মে সকাল থেকে স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল ও ভূটানের মধ্যে সকল প্রকার আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। তবে বৃহস্পতিবার (২৩ মে) সকাল থেকে পূণরায় এ কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে চলবে।

আরও পড়ুন:
বাংলাবান্ধায় আবারও তিন দিন বন্ধ পণ্য ও যাত্রী পারাপার
বাংলাবান্ধা দিয়ে পণ্য ও যাত্রী পারাপার তিন দিন বন্ধ
চারদেশীয় বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি শুরু

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Mango planting has started in Naogaon

নওগাঁয় আম পাড়া শুরু

নওগাঁয় আম পাড়া শুরু জেলা প্রশাসনের বেঁধে দেয়া সময় অনুযায়ী বুধবার থেকে গুটি জাতের আম পাড়ার মাধ্যমে শুরু হয়েছে নওগাঁ জেলারর আম সংগ্রহ ও বাজারজাতকরণ। ছবি: নিউজবাংলা
এ বছর নওগাঁ জেলা থেকে প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকার আম বিক্রির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়ে কৃষি বিভাগ বলছে, এ ছাড়াও এক হাজার টন আম বিদেশে রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

প্রশাসনের বেঁধে দেয়া সময়সূচি অনুযায়ী নওগাঁর বাগানগুলো থেকে গুটি জাতের আম নামানোর মধ্যে দিয়ে এ মৌসুমের আম সংগ্রহ ও বাজারজাতকরণ শুরু হয়েছে।

বুধবার থেকে প্রতিবারের মতো এবারও জেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আম পাড়া শুরু হয়।

গুটি আম পাড়া শুরু হলেও উন্নতজাতের আম বাজারে আসবে আরও কিছুদিন পর। জাতভেদে আম নামানোর জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি তালিকাও প্রকাশ করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের বেঁধে দেয়া সময় অনুযায়ী আগামী ৩০ মে থেকে গোপালভোগ, ২ জুন থেকে ক্ষিরসাপাত ও হিমসাগর, ৫ জুন থেকে নাক ফজলি, ১০ জুন থেকে ল্যাংড়া ও হাড়িভাঙা, ২০ জুন থেকে আম্রপালি, ২৫ জুন থেকে ফজলি এবং আগামী ১০ জুলাই থেকে আশ্বিনা, বারি-৪, বারি-১১, গৌড়মতি ও কাটিমন আম পাড়ার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

নওগাঁয় আম পাড়া শুরু

এ বছর নওগাঁ জেলা থেকে প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকার আম বিক্রির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়ে কৃষি বিভাগ বলছে, এ ছাড়াও এক হাজার টন আম বিদেশে রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

জেলা কৃষি বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, এ বছর জেলার ৩৩ হাজার ৩০০ হেক্টর জমির বাগানে আম চাষ হয়েছে। এসব বাগানে ব্যানানা ম্যাংগো, মিয়াজাকি, কাটিমন, গৌড়মতি, বারি আমসহ দেশি-বিদেশি প্রায় ১৬ জাতের আম চাষ করেছেন চাষিরা। নওগাঁ থেকে এ বছর অন্তত ৪ লাখ ৩১ হাজার ৫০০ টন আম উৎপাদনের আশা করছে কৃষি অফিস।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘আজকে থেকে স্থানীয় গুটি জাতের আম পাড়ার তারিখ নির্ধারণ নির্ধারণ করে দেয়া ছিল। সেই সময় অনুযায়ী চাষিরা গুটি আম নামাবেন। এ ছাড়াও উন্নত জাতের যেসব আম আছে সেগুলো বাজারে আসতে আরও কয়েকদিন সময় লাগবে।’

তিনি বলেন, ‘পরিপক্ব ও ক্ষতিকারক কেমিক্যাল উপাদানমুক্ত আম নিশ্চিত করতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তবে নির্ধারিত সময়ের আগে যদি কোনো বাগানে আম পেকে যায়, তাহলে চাষিরা সেগুলো নামাতে পারবেন।’

সেক্ষেত্রে বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি বিভাগকে জানাতে হবে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন:
চাঁপাইয়ের আম পেতে আরও ১৫ দিন
নওগাঁর আম বাজারে আসবে ২২ মে থেকে

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The hanging body of the housewife was recovered from the house in Ghazaria

গজারিয়ায় বসত ঘর থেকে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

গজারিয়ায় বসত ঘর থেকে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
নিহতের বাড়িতে স্থানীয়দের ভিড়। ছবি: নিউজবাংলা
গজারিয়া থানার ওসি মো. রাজিব খান বলেন, খবর পাওয়া মাত্রই পুলিশ পাঠানো হয়েছে। মরদেহ বর্তমানে গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে। প্রাথমিকভাবে বিষয়টি আমাদের কাছে আত্মহত্যা বলে মনে হচ্ছে। ময়নাতদন্তের পরে বিস্তারিত জানা যাবে।

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় বসত ঘর থেকে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার দুপুর ১২টার দিকে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে স্থানীয়রা তার মরদেহ উদ্ধার করেন। তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি পুলিশকে জানান তারা।

প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে বিষয়টিকে আত্মহত্যা বলছে পুলিশ। দাম্পত্য কলহের জেরে এই ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা তাদের।

নিহত গৃহবধূর নাম সুরভী আক্তার (২৩)। তিনি গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর ইউনিয়নের লক্ষীপুরা গ্রামের শাহ আলমের স্ত্রী।

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, ৫ বছর আগে পারিবারিকভাবে ভবেরচর ইউনিয়নের লক্ষীপুরা গ্রামের মৃত আব্দুস সামাদের ছেলে শাহ আলমের সাথে কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার দুদ মিঞার মেয়ে সুরভীর বিয়ে হয়।

পাঁচ বছরের সংসার জীবনে তাদের তিন বছরের এক ছেলে রয়েছে। সম্প্রতি স্বামী শাহ আলম ঋণগ্রস্ত হয়ে যাওয়ায় এবং প্রতিবেশী এক মেয়ের সাথে প্রেমের গুঞ্জন ওঠায় প্রায়ই তাদের মধ্যে ঝগড়াঝাঁটি হতো।

সুরভীর মরদেহ উদ্ধারের খবর শুনে তার বাবার বাড়ির লোকজন ছুটে আসেন। বিষয়টিকে তারা পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড দাবি করে ঘটনায় জড়িতদের শাস্তির দাবি করেছেন।

গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা.আশরাফুল ইসলাম শুভ বলেন, দুপুর একটা দিকে ওই গৃহবধূকে আমাদের হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। প্রাথমিক পর্যবেক্ষণ শেষে আমরা তাকে মৃত ঘোষণা করি। হাসপাতালে আনার অনেক আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

গজারিয়া থানার ওসি মো. রাজিব খান বলেন, খবর পাওয়া মাত্রই পুলিশ পাঠানো হয়েছে। মরদেহ বর্তমানে গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে। প্রাথমিকভাবে বিষয়টি আমাদের কাছে আত্মহত্যা বলে মনে হচ্ছে। ময়নাতদন্তের পরে বিস্তারিত জানা যাবে।

মন্তব্য

p
উপরে