× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
Nakful Babes Muskil League wants registration with Vairabari Party
google_news print-icon

নাকফুল, বাবেস, মুসকিল লীগ, বৈরাবরী পার্টিসহ নিবন্ধন চায় যারা

নাকফুল-বাবেস-মুসকিল-লীগ-বৈরাবরী-পার্টিসহ-নিবন্ধন-চায়-যারা
বিএলডিপির পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধন আবেদন জমা দেয়া হচ্ছে। সাম্প্রতিক ছবি
হয়তো কালকে কমিশন সচিবালয় ফাইল তুলবে। এরপর তারা যাচাইবাছাই করে দেখবে। তারপর আমাদের কাছে দেবে, আমরা যদি কাগজপত্র দেখে মনে করি আরও যাচাই করতে হবে, তাহলে সেটা করা হবে। আর যদি ১০০ ভাগ শর্ত পূরণ হয় নিবন্ধন পাবে। সব দলের জন্য সেই একই শর্ত: নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের যোগ্যতা অর্জনে নির্বাচন কমিশনে আবেদন করেছে মোট ৮০টি দল। এসব দলের মধ্যে সিংহভাগই অখ্যাত। কখনও তাদের অস্তিত্বের কথা এতদিন জানাই যায়নি।

নির্বাচন কমিশনের জনসংযোগ পরিচালক আসাদুজ্জামান আরজু দলগুলোর সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দেড় বছরেরও বেশি আগে নতুন রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে নিবন্ধন আবেদন চেয়ে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। কমিশনের কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী আগামী বছর মে মাসের মধ্যেই নতুন দলগুলোর নিবন্ধন প্রক্রিয়া শেষ করতে চায়।

আগামী বছর ডিসেম্বরে অথবা পরের বছর জানুয়ারিতে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কর্মপরিকল্পনা করছে আউয়াল কমিশন। যার ফলে নিবন্ধন পেলেও দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ভোটারদের কাছে নিজেদের পরিচিত করতে সময় পাবেন সাত থেকে আট মাস।

বাংলাদেশে জিয়াউর রহমানের সেনাশাসনের সময় প্রথম রাজনৈতিক দলগুলোর নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু হয়। এরপর ২০০৭ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত সেনা-সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে দ্বিতীয় দফা নিবন্ধন দেয়া হয়। নিবন্ধিত না হলে কোনো দল তাদের প্রতীক ব্যবহার করে ভোটে অংশ নিতে পারে না।

তখন ১১৭টি দল নিবন্ধনের আবেদন করে। যাচাইবাছাই শেষে নিবন্ধন দেয়া হয় ৩৯টি দলকে। পরে আরও পাঁচটি দল পায় নিবন্ধন। আবার পাঁচটি দল শর্ত ভঙ্গ করায় তাদের নিবন্ধন বাতিলও হয়। ফলে এখনও নিবন্ধিত দলের সংখ্যা ৩৯।

যেসব দলের পক্ষে নিবন্ধন আবেদন

নতুন যেসব দল নিবন্ধন চেয়েছে, তাদের মধ্যে আছে বাংলাদেশ জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলমেন্ট পার্টি, বাংলাদেশ আম জনতা পার্টি, বাংলাদেশ ডেমোক্রেসি মুভমেন্ট (বিডিএম), বাংলাদেশ তৃণমূল জনতা পার্টি (বাংলাদেশ টিজেপি), এবি পার্টি, সম্মিলিত সংগ্রাম পরিষদ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলন-বিএনএম, বাংলাদেশ এলডিপি, বাংলাদেশ জাস্টিস পার্টি।

আরও আছে, বাংলাদেশ ন্যাশনাল গ্রিন পাটি, বাংলাদেশ সর্বজনীন দল, বাংলাদেশ ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক লীগ, গণ রাজনৈতিক জোট (গর্জো), বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট পার্টি, বাংলাদেশ বেকার সমাজ (বাবেস), নতুন ধারা বাংলাদেশ এনডিবি, বাংলাদেশ হিন্দু লীগ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ও নেজামে ইসলাম পার্টি, বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টি, যুব স্বেচ্ছাসেবক লীগ।

আবেদন জমা পড়েছে বাংলাদেশ জাতীয় দল, জাতীয় জনতা পার্টি, কৃষক শ্রমিক পার্টি (কেএসপি), বাংলাদেশ তৃণমূল লীগ, বাংলাদেশ ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (বিএলডিপি), ভাসানী অনুসারী পরিষদ, নাকফুল বাংলাদেশ, মুক্ত রাজনৈতিক আন্দোলনের পক্ষ থেকেও।

বাংলাদেশ তৃণমূল কংগ্রেস, মুক্তিযোদ্ধা কমিউনিজম ডেমোক্রেটিক পার্টি, রাজনৈতিক আন্দোলন, বাংলাদেশ জনতার অধিকার পার্টি, বাংলাদেশ হিউম্যানিস্ট পার্টি (বিএইচপি), বাংলাদেশ ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (বিএনডিপি), জাতীয় স্বাধীনতা পার্টি, ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ভাসানী-ন্যাপ), ন্যাপ ভাসানী, বাংলাদেশ জাতীয় লীগের (বিজেএল) পক্ষ থেকেও।

আবেদন করেছে বাংলাদেশ ইসলামিক গণতান্ত্রিক লীগ, বাংলাদেশ মাইনরিটি পার্টি, বাংলাদেশ জাতীয় লীগ, বাংলাদেশ আওয়ামী পার্টি, গণ অধিকার পরিষদ, নাগরিক ঐক্য, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলন, বাংলাদেশ সনাতন পার্টি, বাংলাদেশ জনতা পার্টি (বিজেপি)ও আবেদন করেছে।

আবেদন জমা দিয়েছে নৈতিক সমাজ, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা দল, বাংলাদেশ ন্যাশনাল রিপাবলিকান পার্টি, মুসকিল লীগ, নতুন বাংলা, বঙ্গবন্ধু দুস্থ ও প্রতিবন্ধী উন্নয়ন পরিষদ, বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক মুক্তি আন্দোলন (বিজিএম), বাংলাদেশ কৃষক শ্রমিক পাটি (কেএসপি), বাংলাদেশ ইত্যাদি পার্টিও।

প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক জোট (পিডিএফ), বাংলাদেশ রিপাবলিকান পার্টি (বিআরপি), বৈরাবরী পার্টি, বাংলাদেশ বিদেশ প্রত্যাগত প্রবাসী ও নন প্রবাসী কল্যাণ দল, বাংলাদেশ জনমত পার্টি, জনতার অধিকার পার্টি (পিআরপি), বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি (বিএসপি), বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা লীগ, ইনসানিয়াত বিপ্লব বাংলাদেশও আবেদন করেছে।

বাংলাদেশ লেবার পার্টি, জনস্বার্থে বাংলাদেশ, বাংলাদেশ জাতীয় ইনসাফ পার্টি, বাংলাদেশ মানবতাবাদী দল, বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামিক পার্টি (বিইউআইপি), বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক দল (বিডিপি), মুক্তিযোদ্ধা যুব কমান্ড, গণ অধিকার পার্টি (পিআরপি), বাংলাদেশ মাইনরিটি জনতা পার্টি, যুবসমাজ পার্টিও চেয়েছে নিবন্ধন।

ন্যাপ (ভাসানী), সাধারণ জনতা পার্টি, ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি), বাংলাদেশ এনভায়নমেন্ট গ্রিন পার্টি, বাংলাদেশ গণ আজাদী লীগ, বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা কল্যাণ পরিষদ পক্ষ থেকেও জমা পড়েছে আবেদন।

নির্বাচন কমিশনের অবস্থান কী

নতুন দলের নিবন্ধন প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের বলেন, ‘হয়তো কালকে কমিশন সচিবালয় ফাইল তুলবে। এরপর তারা যাচাইবাছাই করে দেখবে। তারপর আমাদের কাছে দেবে, আমরা যদি কাগজপত্র দেখে মনে করি আরও যাচাই করতে হবে, তাহলে সেটা করা হবে। আর যদি ১০০ ভাগ শর্ত পূরণ হয় নিবন্ধন পাবে। সব দলের জন্য সেই একই শর্ত।’

কবে নাগাদ শেষ হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমাদের বলা আছে মে মাসে নিবন্ধন কার্যক্রম শেষ হবে। মে মাসের শেষে যারা নিবন্ধন পাবে তাদের দেয়া হবে, আর যারা পাবে না তাদের জানিয়ে দেয়া হবে কোন শর্ত পূরণ না করার জন্য তাদের নিবন্ধন দেয়া হলো না।’

নিবন্ধন দেয়নি হুদা কমিশন

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে কে এম নূরুল হুদার নেতৃত্বাধীন কমিশনের কাছে ৭৬টি দল নিবন্ধনের জন্য আবেদন করলেও কোনো দলকে নিবন্ধন দেয়া হয়নি। আগ্রহী দলগুলো শর্ত পূরণ করেছে বললেও যাচাইবাছাইয়ের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারেনি।

অবশ্য ভোটের পরে আদালতের আদেশে নিবন্ধন পায় দুটি দল। জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন-এনডিএম ও বাংলাদেশ কংগ্রেস।

আরও পড়ুন:
ইসির রোডম্যাপে ১৪ চ্যালেঞ্জ উত্তরণে ১৯ পরিকল্পনা
জাতীয় নির্বাচনে ইসির রোডম্যাপ বুধবার
তুরুপের তাস ‘ইভিএম’
বদিউল আসলে কী চান, প্রশ্ন নির্বাচন কমিশনারের
জাফরুল্লাহর অনুরোধে নিবন্ধনের সময় বাড়ল দুই মাস

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
Indian Foreign Secretarys visit postponed due to internal reasons Hasan Mahmood
পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বললেন

ভারতের পররাষ্ট্র সচিবের সফর স্থগিত অভ্যন্তরীণ কারণে

ভারতের পররাষ্ট্র সচিবের সফর স্থগিত অভ্যন্তরীণ কারণে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে রোববার সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন ড. হাছান মাহমুদ। ছবি: সংগৃহীত
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ওখানে (ভারতে) নির্বাচন চলছে। তাদের অভ্যন্তরীণ নানা কারণে সফর স্থগিত করা হয়েছে। আর এই সফর আবার কবে হতে পারে তা ঢাকাকে এখনও জানানো হয়নি।’

ভারতের অভ্যন্তরীণ নানা কারণে দেশটির পররাষ্ট্র সচিব বিনয় মোহন কোয়াত্রার বাংলাদেশ সফর স্থগিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সূত্র: ইউএনবি

রোববার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ওখানে (ভারতে) নির্বাচন চলছে। তাদের অভ্যন্তরীণ নানা কারণে সফর স্থগিত করা হয়েছে। আর এই সফর আবার কবে হতে পারে তা ঢাকাকে এখনও জানানো হয়নি।’

কূটনৈতিক সূত্র জানায়, পারস্পরিক সুবিধাজনক সময়ে সফর করবেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে উচ্চ পর্যায়ের বিনিময় এবং দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা এজেন্ডার অগ্রগতি পর্যালোচনার অংশ হিসেবে এই সফর অনুষ্ঠিত হবে।

সফরের বিষয়ে ঢাকা ও নয়াদিল্লির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা না থাকলেও সোমবার (২০ এপ্রিল) সংক্ষিপ্ত সফরে ঢাকায় আসার কথা ছিল ভারতের পররাষ্ট্র সচিবের।

ভারতে জাতীয় নির্বাচন শেষ হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিবেশী দেশটি সফরে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে ইঙ্গিত কূটনৈতিক সূত্রগুলোর।

বিশ্বের বৃহৎ গণতান্ত্রিক দেশ ভারতে সাতটি ধাপে ১৯ এপ্রিল লোকসভার ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। তা চলবে ১ জুন পর্যন্ত। আর ভোট গণনা করা হবে ৪ জুন।

প্রাক-নির্বাচনি জরিপে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন জোট আবারও নির্বাচিত হতে পারে। তারাও পুনঃনির্বাচিত হওয়ার জন্য ব্যাপকভাবে আশাবাদী।

এ বিষয়ে সম্প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর (শেখ হাসিনা) ভারত সফর অবশ্যই হবে। তবে এটি ভারতের নির্বাচনের পর অনুষ্ঠিত হবে।’

সফরটি ঠিক কবে হবে তা নিয়ে সরকারি পর্যায়ে এখনও আলোচনা হয়নি বলে জানান তিনি।

গত জানুয়ারিতে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়লাভ করলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উষ্ণ অভিনন্দন জানান মোদি। সে সময় ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ঐতিহাসিকভাবে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক অব্যাহতভাবে জোরদার করার আশা প্রকাশ করেন তিনি।

এর আগে ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বরে জি-২০ লিডারস সামিটে বাংলাদেশ অতিথি দেশ হিসেবে অংশগ্রহণ করলে সেখানে দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে সবশেষ দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হয়।

ভারতে চলমান নির্বাচনে নির্বাচিত হয়ে আবার ক্ষমতায় এলে আঞ্চলিক সহযোগিতা জোরদার করতে প্রধানমন্ত্রী মোদি তার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে দক্ষিণ এশীয় এবং বিমসটেক দেশের নেতাদের আমন্ত্রণ জানাবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

গত মার্চ মাসে পররাষ্ট্র সচিব হিসেবে বিনয় কোয়াত্রার কার্যকালের মেয়াদ ছয় মাস বাড়িয়েছে ভারত সরকার।

১৯৮৮ সালে ভারতীয় পররাষ্ট্র পরিষেবায় যোগ দেয়া কোয়াত্রা ২০২২ সালের ১ মে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারে পররাষ্ট্র সচিব হিসেবে দায়িত্ব পান।

আরও পড়ুন:
বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি ও শিক্ষার পরিবেশ দুই-ই থাকা উচিত
জুলাইয়ে প্রধানমন্ত্রীর ব্রাজিল সফরের সম্ভাবনা, জানালেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী
ভারতীয় পণ্য বর্জনের ডাকে সাড়া দেয়নি বিএনপি নেতা-কর্মীরাও: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
ইসরায়েলে অস্ত্র সরবরাহ বন্ধের আশা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর
বিএনপি নেতারা ভোটে না আসার যন্ত্রণা বুঝতে পারছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The Emir of Qatar is coming to sign 6 agreements and 5 MoUs on Monday

কাতারের আমির আসছেন সোমবার, সই হবে ৬ চুক্তি ও ৫ এমওইউ

কাতারের আমির আসছেন সোমবার, সই হবে ৬ চুক্তি ও ৫ এমওইউ কাতারের আমিরের ঢাকা সফরকে কেন্দ্র করে সেজেছে রাজধানী ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক দ্বীপ। ছবি: সংগৃহীত
পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ জানান, চলতি বছর নতুন সরকার গঠনের পর মধ্যপ্রাচ্য থেকে এটিই প্রথম উচ্চ পর্যায়ের সফর। ছয়টি চুক্তির মধ্যে একটি হলো বন্দিবিনিময় চুক্তি। এছাড়া বাণিজ্য ও বিনিয়োগ, দ্বৈত কর পরিহার, জনশক্তি রপ্তানি সংক্রান্ত নথিও সই হবে।

কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি বাংলাদেশ সফরে আসছেন সোমবার। অতিথিকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত ঢাকা। তার এই সফরে বাংলাদেশ ও কাতারের মধ্যে ১১টি সহযোগিতার বিষয়ে ছয়টি চুক্তি ও পাঁচটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) সই হবে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘এই সফরের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও কাতারের মধ্যকার সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছবে। চলতি বছর নতুন সরকার গঠনের পর মধ্যপ্রাচ্য থেকে এটিই প্রথম উচ্চ পর্যায়ের সফর।’

তিনি জানান, ছয়টি চুক্তির মধ্যে একটি হলো বন্দিবিনিময় চুক্তি। এছাড়া বাণিজ্য ও বিনিয়োগ, দ্বৈত কর পরিহার, জনশক্তি রপ্তানি সংক্রান্ত নথিও সই হবে।

দ্বিপক্ষীয় ক্ষেত্রে সহযোগিতার ক্ষেত্র ছাড়াও ফিলিস্তিন-ইসরায়েলসহ বৈশ্বিক ইস্যু নিয়েও আলোচনা হবে, যেখানে বাংলাদেশ তার অবস্থান তুলে ধরবে।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘স্বাভাবিকভাবেই এ আলোচনা উঠতে পারে। গাজায় হত্যাকাণ্ড বন্ধ করতে হবে। সবাই এটা চায়। আমরাও চাই। বাংলাদেশ শান্তির পক্ষে, যুদ্ধের পক্ষে নয়।’

বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির আমন্ত্রণে দু’দিনের এই রাষ্ট্রীয় সফরে আসছেন কাতারের আমির।

এক গেজেট বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আমিরের এই সফরে তাকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে ঘোষণা করেছে সরকার।

সফর উপলক্ষে ঢাকার কয়েকটি রাস্তা বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কাতারের আমিরের ছবি দিয়ে সাজানো হয়েছে।

প্রায় ১৯ বছর পর বন্ধুপ্রতীম দেশ কাতার থেকে ২৪ ঘণ্টা স্থায়ী এমন উচ্চ পর্যায়ের সফর হচ্ছে। এর আগে ২০০৫ সালের এপ্রিলে কাতারের তৎকালীন আমির শেখ হামাদ বিন খলিফা আল-থানি বাংলাদেশ সফর করেন।

সোমবার বিকেলে ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কাতারের আমিরকে গান স্যালুট ও আনুষ্ঠানিকভাবে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন অভ্যর্থনা জানাবেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মঙ্গলবার সকালে আমিরকে তার কার্যালয়ে অভ্যর্থনা জানাবেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দুজনের মধ্যে বৈঠকের পর আরও একটি দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হবে।

আর সহযোগিতাবিষয়ক নথি সই হওয়ার পর দুই নেতা যৌথ সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেবেন।

মঙ্গলবার বিকেলে বঙ্গভবনে যাবেন আমির। সেখানে রাষ্ট্রপতি সাহাবুদ্দিন তাকে অভ্যর্থনা জানাবেন।

বঙ্গভবনের দরবার হলে আমিরের সম্মানে মধ্যাহ্নভোজের আয়োজন করবেন রাষ্ট্রপতি।

এরপর পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আমিরের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন।

কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানির নামে রাজধানীর একটি সড়ক ও একটি পার্কের নামকরণ করা হবে।

এদিন বিকেল ৩টায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) আওতাধীন মিরপুরের কালশী এলাকায় পার্ক এবং মিরপুর ইসিবি চত্বর থেকে কালশী ফ্লাইওভার পর্যন্ত সড়ক উদ্বোধন করবেন তিনি।

সফররত আমির ঢাকায় তার অবস্থানস্থলে বাংলাদেশের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সম্প্রদায়ের সদস্যদের সঙ্গে একান্ত বৈঠক করবেন। এদিনই সন্ধ্যা ৬টায় বিশেষ ফ্লাইটে তার ঢাকা ত্যাগ করার কথা রয়েছে।

আরও পড়ুন:
কাতারের আমিরের বাংলাদেশ সফরে গুরুত্ব পাবে যেসব বিষয়

মন্তব্য

বাংলাদেশ
MV Abdullah has arrived at Al Hamria port in Dubai

দুবাইয়ের আল হামরিয়া বন্দরে পৌঁছেছে এমভি আব্দুল্লাহ

দুবাইয়ের আল হামরিয়া বন্দরে পৌঁছেছে এমভি আব্দুল্লাহ
কেএসআরএম গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেরুল করিম জানান, জাহাজটিতে থাকা কয়লা খালাসের জন্য রাতেই এটি জেটিতে ভেড়ানোর কথা রয়েছে। তা সম্ভব না হলে সোমবার জাহাজটি জেটিতে ভিড়বে।

সোমালিয়ার জলদস্যুদের জিম্মি অবস্থা থেকে মুক্ত হওয়া জাহাজ এমভি আব্দুল্লাহ দুবাইয়ের আল হামরিয়া বন্দরের বহির্নোঙ্গরে পৌঁছেছে। রোববার বিকেল সাড়ে ৪টায় জাহাজটি এই বন্দরে পৌঁছে।

জাহাজের মালিক পক্ষের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, সোমালীয় জলদস্যুদের কবল থেকে মুক্ত হওয়ার পর চার দিনে ইউরোপীয় ইউনিয়ন নেভির এসকর্টে ভারত মহাসাগর পাড়ি দিয়েছে এমভি আব্দুল্লাহ। সে কারণে গতি নামিয়ে আনতে হয়েছিল সাড়ে ৭ নটিক্যাল মাইলে।

আর জলদস্যু ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা অতিক্রম শেষে ওমানের কাছাকাছি যুদ্ধকবলিত ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা ১১ নটিক্যাল মাইল গতিতে পাড়ি দেয় বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজ এমভি আব্দুল্লাহ।

মালিক পক্ষ কবির গ্রুপের মিডিয়া উপদেষ্টা মিজানুল ইসলাম জানান, জাহাজটি রোববার বিকেলে দুবাইয়ের আল হামরিয়া বন্দরে পৌঁছেছে। জাহাজের নাবিকরা সবাই সুস্থ আছেন।

কেএসআরএম গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেরুল করিম জানান, জাহাজটিতে থাকা কয়লা খালাসের জন্য রাতেই এটি জেটিতে ভেড়ানোর কথা রয়েছে। তা সম্ভব না হলে সোমবার জাহাজটি জেটিতে ভিড়বে।

প্রায় ৩৩ দিনের জিম্মি দশার পর ১৩ মার্চ রাত ১২টা ৮ মিনিটে ২৩ নাবিকসহ এমভি আব্দুল্লাহ মুক্ত হয়। এরপরই জাহাজটি এক হাজার ৪৫০ নটিক্যাল মাইল দূরে থাকা আরব আমিরাতের আল-হামরিয়া বন্দরের উদ্দেশে রওনা হয়। এই পথ পাড়ি দিয়ে আট দিনের মাথায় জাহাজটি আমিরাতের আল-হামরিয়া বন্দরে পৌঁছল।

মোজাম্বিকের মাপুতো বন্দর থেকে আরব আমিরাতের আল-হামরিয়া বন্দরে যাওয়ার পথে ১২ মার্চ ভারত মহাসাগরে এমভি আব্দুল্লাহ দস্যুদের কবলে পড়ে।

কেএসআরএম গ্রুপ জানায়, জাহাজটি আল হামরিয়া বন্দরে পৌঁছানোর পর দুজন নাবিকের উড়োজাহাজে করে দেশে ফেরার কথা রয়েছে। বাকি ২১ জন নাবিক ওই জাহাজে করেই দেশে ফেরার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

আরও পড়ুন:
মুক্তিপণ পৌঁছায় দুই রাত আগে, ডলার জাল কি না পরীক্ষার পরই ছাড়া পান নাবিকরা
এমভি আবদুল্লাহর ক্রুরা দেশে ফিরছেন কবে
মুক্ত ক্রুদের ঘরে ঈদের আনন্দ
আন্তর্জাতিক চাপ ও আলোচনায় মুক্ত ২৩ নাবিকসহ এমভি আবদুল্লাহ: নৌ প্রতিমন্ত্রী
উড়োজাহাজ থেকে পানিতে ফেলা হয় ডলারভর্তি ব্যাগ, দুবাইয়ের পথে এমভি আবদুল্লাহ

মন্তব্য

বাংলাদেশ
All hospitals have been ordered to be ready to deal with the fire situation

দাবদাহ পরিস্থিতি মোকাবিলায় সব হাসপাতাল প্রস্তুত রাখার নির্দেশ

দাবদাহ পরিস্থিতি মোকাবিলায় সব হাসপাতাল প্রস্তুত রাখার নির্দেশ ফাইল ছবি
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে গরম চরম আকার ধারণ করেছে। তীব্র তাপপ্রবাহের মধ্যে প্রতিকূল পরিস্থিতিমোকাবিলায় সারা দেশের হাসপাতালগুলোকে প্রস্তুত রাখা এবং একই সঙ্গে হাসপাতালগুলোতে জরুরি রোগী ছাড়া ভর্তি না করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।’

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন তীব্র দাবদাহের কারণে প্রতিকূল পরিস্থিতিতে সারা দেশের হাসপাতালগুলোকে প্রস্তুত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

রোববার সচিবালয়ে সারাদেশের হাসপাতালের পরিচালক এবং সিভিল সার্জনদের সঙ্গে অনলাইনে আয়োজিত এক সভা থেকে তিনি এই নির্দেশনা দেন। সভা শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের এই নির্দেশনার কথা জানান। খবর বাসসের

তিনি বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে গরম চরম আকার ধারণ করেছে। তীব্র তাপপ্রবাহের মধ্যে প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবিলায় সারা দেশের হাসপাতালগুলোকে প্রস্তুত রাখা এবং একই সঙ্গে হাসপাতালগুলোতে জরুরি রোগী ছাড়া ভর্তি না করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।’

বয়স্ক ও শিশুরা যেন প্রয়োজন ছাড়া বাসার বাইরে না যায়, সে বিষয়েও পরামর্শ দেয়া হয়েছে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এই গরমে সবচেয়ে বেশি ভালনারেবল বয়স্ক এবং বাচ্চারা। এবার এমন একটা জলবায়ু পরিবর্তন হলো যে আমরা জীবনে কখনো শুনিনি যে দুবাই বিমানবন্দর পানিতে ডুবে গেছে। যাহোক এটা প্রকৃতির নিয়ম। আমাদের এগুলোফেস করতে হবে।’

তীব্র দাবদাহে বাচ্চাদের ঝুঁকি এড়াতে পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, আমার কাছে যখন মেসেজ আসলো (হিট অ্যালার্ট), আমি শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে আমরা প্রধানমন্ত্রীর সান্নিধ্যে গিয়ে স্কুলটা বন্ধ করে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি। কারণ, সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকে বাচ্চা এবং বয়স্করা।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের ওরাল স্যালাইনের কোথাও কোনো ঘাটতি হলে যেন আমাকে সঙ্গে সঙ্গে জানানো হয়। এখন পর্যন্ত আমাদের নিয়ন্ত্রণে আছে। প্রকৃতির ওপর তো আমাদের কারও হাত নেই। এটা আমাদের রেডি রাখতে হবে।

শিশুদের জন্য হাসপাতালগুলোতে পর্যপ্ত ব্যবস্থা আছে কি না- জানতে চাইলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমি শনিবার শিশু হাসপাতালে গিয়েছিলাম। শিশু হাসপাতালগুলোকে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা রাখার জন্যই সারাদেশের হাসপাতালগুলোকে নির্দেশ দিয়েছি। কোল্ডকেসগুলোকে এখন হাসপাতালে ভর্তি না করতে বলা হয়েছে।

তিনি বলেন, বাচ্চাদের ব্যাপারে আজকে থেকে একটা অনলাইন ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করছি সারা দেশের চিকিৎসকদের নিয়ে।

সভায় জানানো হয়, মহাখালীতে করোনা চিকিৎসার জন্য ডিএনসিসি হাসপাতালে শিশু ও বয়স্কদের জন্য আলাদাভাবে বেড রাখতে বলা হয়েছে।

এ সময় স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. রোকেয়া সুলতানা, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The deadline for withdrawing candidacy in the first phase of upazila elections is Monday

উপজেলা নির্বাচনে প্রথম ধাপে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় সোমবার

উপজেলা নির্বাচনে প্রথম ধাপে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় সোমবার নির্বাচন ভবন। ফাইল ছবি
নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার উপসচিব আতিয়ার রহমান জানান, প্রথম ধাপের তফসিল অনুযায়ী আপিল নিষ্পত্তি রোববার শেষ হচ্ছে। মনোনয়নপত্র বাছাই শেষে বৈধ প্রার্থী এক হাজার ৭৮৬ জন। এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ২২ এপ্রিল।

আসন্ন ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপের ভোটে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় সোমবার।

পরের দিন প্রতীক বরাদ্দ নিয়ে প্রচারে নামবেন প্রার্থীরা।

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার উপসচিব আতিয়ার রহমান জানান, প্রথম ধাপের তফসিল অনুযায়ী আপিল নিষ্পত্তি রোববার শেষ হচ্ছে। মনোনয়নপত্র বাছাই শেষে বৈধ প্রার্থী এক হাজার ৭৮৬ জন। এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ২২ এপ্রিল।

তিনি জানান, প্রতীক বরাদ্দ ২৩ এপ্রিল। আর ১৫০ উপজেলায় ভোটগ্রহণ হবে ৮ মে।

উপজেলার নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপের তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় রোববার। মনোনয়নপত্র বাছাই ২৩ এপ্রিল, আপিল গ্রহণ ২৪ থেকে ২৬ এপ্রিল এবং আপিল নিষ্পত্তি ২৭ থেকে ২৯ এপ্রিল। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ৩০ এপ্রিল।

প্রতীক বরাদ্দ ২ মে। আর ১৬১ উপজেলায় ভোটগ্রহণ হবে ২১ মে।

এ ধাপের নির্বাচনে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকদের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। ভোটারের সংখ্যা ৫ লাখের বেশি যেখানে, সেখানে একাধিক সহকারী রিটার্নিং অফিসার নিয়োজিত থাকবেন।

এ ধাপের নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তাদের নিয়োগ করা হয়েছে। আপিল কর্তৃপক্ষ জেলা প্রশাসক।

তৃতীয় ধাপের তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমার শেষ তারিখ ২ মে, মনোনয়ন যাচাই-বাছাই ৫ মে। রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল ৬ থেকে ৮ মে। আপিল নিষ্পত্তি ৯ থেকে ১১ মে। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ১২ মে। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ ১৩ মে এবং ভোট ২৯ মে। এই ধাপে ৪৭ জেলার ১১২ উপজেলায় ভোট হবে।

এ ধাপে রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে অতিরিক্ত জেলা ও অতিরিক্ত আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল আবেদন আপিল কর্তৃপক্ষ হিসেবে নিষ্পত্তি করবেন জেলা প্রশাসক।

আগামী ৫ জুন চতুর্থ ধাপের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে।

আরও পড়ুন:
বিজেপির হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনার মধ্যে ভারতের লোকসভা নির্বাচনে ভোট শুরু
উপজেলায় মন্ত্রী-এমপির স্বজনদের প্রার্থিতা চায় না আওয়ামী লীগ
প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনে বৈধ প্রার্থী ১৭৮৬ জন
লোকসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু শুক্রবার
‘ভোটার কীভাবে হলাম নিজেও বলতে পারি না’

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Upazila Election The EC must inform who will give candidates for the third phase

উপজেলা নির্বাচন: তৃতীয় ধাপের প্রার্থী দেবে কে, জানাতে হবে ইসিকে

উপজেলা নির্বাচন: তৃতীয় ধাপের প্রার্থী দেবে কে, জানাতে হবে ইসিকে প্রতীকী ছবি
তৃতীয় ধাপের তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়ন ফরম জমার শেষ তারিখ ২ মে, মনোনয়ন যাচাই-বাছাই ৫ মে। রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল ৬ থেকে ৮ মে।

আসন্ন তৃতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থী মনোনয়ন কে দেবে তা দলগুলোকে জানাতে বলেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

সংস্থাটির জনসংযোগ পরিচালক মো. শরিফুল আলম রোববার এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, আগামী ২৯ মে বিভিন্ন উপজেলা পরিষদ সাধারণ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বিধিমালা, ২০১৩ এর বিধি ১৫ এর উপবিধি (৩)(গ)(ইইই) অনুযায়ী চেয়ারম্যানভাইস চেয়ারম্যানমহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে অংশগ্রহণের জন্য নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদক বা সমপর্যায়ের পদাধিকারী বা তাহাদের নিকট হতে ক্ষমতাপ্রাপ্ত ব্যক্তির স্বাক্ষরসহ তালিকা বর্ণিত বিধি অনুযায়ী তফসিল ঘোষণার সাত দিনের মধ্যে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসারগণকে প্রেরণের জন্য এবং একই সঙ্গে নির্বাচন কমিশনে পাঠাতে হবে।

তৃতীয় ধাপের তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়ন ফরম জমার শেষ তারিখ ২ মে, মনোনয়ন যাচাই-বাছাই ৫ মে। রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল ৬ থেকে ৮ মে।

আপিল নিষ্পত্তি ৯ থেকে ১১ মে। প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ১২ মে।

প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ ১৩ মে এবং ভোট ২৯ মে। এই ধাপে ৪৭ জেলার ১১২ উপজেলায় ভোট হবে।

আরও পড়ুন:
বিজেপির হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনার মধ্যে ভারতের লোকসভা নির্বাচনে ভোট শুরু
উপজেলায় মন্ত্রী-এমপির স্বজনদের প্রার্থিতা চায় না আওয়ামী লীগ
প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচনে বৈধ প্রার্থী ১৭৮৬ জন
লোকসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু শুক্রবার
‘ভোটার কীভাবে হলাম নিজেও বলতে পারি না’

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Anu Mohammad cut his finger in the train

ট্রেনে আঙুল কাটা পড়ল আনু মুহাম্মদের

ট্রেনে আঙুল কাটা পড়ল আনু মুহাম্মদের ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিচ্ছেন অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ। ছবি: নিউজবাংলা
আনু মুহাম্মদকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া শিক্ষার্থী মাহতাব বলেন, ‘খিলগাঁও রেলগেট এলাকায় ধীরগতিতে চলা একটি ট্রেন কমলাপুরের দিকে যাওয়ার সময় অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ ওই ট্রেনে উঠতে যান। ওই সময় পা পিছলে চাকার নিচে পা চলে যায়। এতে তার বাম পায়ের আঙুল থেঁতলে যায় এবং কাটা পড়ে।’

রাজধানীর খিলগাঁওয়ে ট্রেনে উঠতে গিয়ে বাম পায়ের আঙুল কাটা পড়েছে তেল-গ্যাস-খনিজসম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদের।

কমলাপুর যাওয়ার জন্য ট্রেনে ওঠার সময় রোববার বেলা ১১টার দিকে অসাবধানতাবশত পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সাবেক এ শিক্ষক।

পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসার জন্য নেয়া হয় তাকে, যেখানে এই মুহূর্তে চিকিৎসা চলছে তার।

আনু মুহাম্মদকে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া শিক্ষার্থী মাহতাব বলেন, ‘খিলগাঁও রেলগেট এলাকায় ধীরগতিতে চলা একটি ট্রেন কমলাপুরের দিকে যাওয়ার সময় অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ ওই ট্রেনে উঠতে যান। ওই সময় পা পিছলে চাকার নিচে পা চলে যায়। এতে তার বাম পায়ের আঙুল থেঁতলে যায় এবং কাটা পড়ে।’

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ সহকারী উপপরিদর্শক মাসুদ মিয়া বলেন, ‘খিলগাঁও রেলগেট থেকে ট্রেনে পায়ের আঙুল কাটা অবস্থায় আনু মুহাম্মদকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।’

আরও পড়ুন:
ঝালকাঠিতে দুর্ঘটনা: স্বামী হারিয়ে দিশাহারা হেনারা
মোটরসাইকেলে বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল মামা-ভাগ্নের 
ঝালকাঠিতে সড়ক দুর্ঘটনা: নিহত প্রত্যেকের পরিবার পাবে ৫ লাখ টাকা
সড়কে প্রাণ গেল জনপ্রিয় শিল্পী পাগল হাসানের
মার্চে ৫৫২ সড়ক দুর্ঘটনায় ৫৬৫ জন নিহত

মন্তব্য

p
উপরে