× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
The permission of the city corporation will also be required for the construction of the building
hear-news
player
google_news print-icon

ভবন নির্মাণে লাগবে সিটি করপোরেশনের অনুমতিও

ভবন-নির্মাণে-লাগবে-সিটি-করপোরেশনের-অনুমতিও
রাজধানীতে ভবন নির্মাণ করতে গেলে সিটি করপোরেশনের অনুমতিও নিতে হবে। ছবি: নিউজবাংলা
‘যে কোনো কাজ দেশের স্বার্থে ও দশের স্বার্থে হলে আমি আপনাদের সঙ্গে যোগ দেবো। যদি নিজের স্বার্থে হয় তাহলে আমি আপনাদের সঙ্গে নাই। সুন্দর নগরায়ন করতে গেলে সবাইকে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে। অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে হবে।’

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বা রাজউকের মতো এখন থেকে রাজধানীতে ভবন নির্মাণ করতে গেলে সিটি করপোরেশনের অনুমতিও নিতে হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে একটি হোটেলে ‘নিম্ন আয়ের মানুষের আবাসন ও নাগরিক সুবিধাসমূহ: প্রেক্ষিত ঢাকা’ বিষয়ে এক আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন।

মেয়র বলেন, ‘ঢাকা শহরে উন্মুক্ত স্থান ও গাছপালা ধ্বংস করে একের পর এক ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। নগরে অপরিকল্পিতভাবে স্থাপনা করা হচ্ছে। এগুলো কেন করা হচ্ছে, কার পরামর্শে হচ্ছে?

‘আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কথা ভাবতে হবে। সবুজ এলাকা ও উন্মুক্ত স্থান ধ্বংস করে কিছু করতে দেওয়া হবে না।’

আতিকুল বলেন, ‘এয়ারপোর্ট সড়কে বনানী চেয়ারম্যান বাড়ির সামনে সিটি ফরেস্ট ছিল, সেটা ধ্বংস করে কেন সেতু ভবন করা হয়েছে। সেতু ভবনের পাশে আবার বিআরটিএ ভবন করা হয়েছে।

‘কিছুদিন আগে আবারও গাছপালা কেটে ভবন নির্মাণ করতে গেলে আমি বন্ধ করে দেই। ড্যাপের মধ্যে এবং নগর পরিকল্পনায় এই জায়গাগুলোতে যদি সিটি ফরেস্ট থাকে তাহলে ভবন ভাঙতে হবে। নগরের প্রয়োজনে, জনগণের স্বার্থে যে কোনো ভবন ভাঙতে হবে।’

সব বিভাগের সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘যে কোনো কাজ দেশের স্বার্থে ও দশের স্বার্থে হলে আমি আপনাদের সঙ্গে যোগ দেবো। যদি নিজের স্বার্থে হয় তাহলে আমি আপনাদের সঙ্গে নাই। সুন্দর নগরায়ন করতে গেলে সবাইকে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে। অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে হবে।

মিরপুর প্যারিস রোড সংলগ্ন মাঠটি প্লট আকারে বরাদ্দ দিয়ে মেয়র বলেন, ‘ষাটের দশকে মাস্টারপ্লানে ও ১৯৮৭ সালের ন্যাশনাল হাউজিং অথরিটির লেআউটেও এটি উন্মুক্ত স্থান হিসেবে দেখানো আছে। ড্যাপের নকশায়ও এটি উন্মুক্ত স্থান হিসেবে রয়েছে। এখানে কিছুতেই প্লট হতে পারে না।’

বর্তমান জলবায়ু পরিবর্তনের উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, ‘আমরা পরিবেশ ধ্বংশ করেছি। এখন পরিবেশ সেই ধ্বংসের প্রতিশোধ নিচ্ছে।’

খাল উদ্ধার ও নদী বাঁচাতে হবে জানিয়ে মেয়র বলেন, ‘ঢাকার নদী বাঁচাতে হবে আর নদী বাঁচাতে হলে খাল খনন করতে হবে। ঢাকার খালকে বাঁচাতে হলে সিএস দাগের মাধ্যমে সীমানা নির্ধারণ করতে হবে।

‘মহানগর জরিপ অনুসরণ করলে শহরকে বাঁচানো যাবে না। কল্যাণপুর রিটেনশন পন্ড দখল হয়ে গেছে। এগুলো উদ্ধারে আমরা কাজ করছি। খাল উদ্ধারে সীমানা পিলার লাগানো শুরু করেছি।’

গাছ লাগানোর তাগিদও দেন মেয়র। বলেন, ‘নগরবাসীকে ছাদবাগান করতে উৎসাহিত করছি। ছাদবাগান করলে ১০ শতাংশ ট্যাক্স রিবেট দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে। এই ফাইলটি মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়েছে। আশা করি দ্রুতই অনুমোদন হয়ে যাবে।’

নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য সিটি করপোরেশন কাজ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, 'হকারদের নগরের অংশ হিসেবে চিন্তা করে স্মার্ট ব্যবস্থাপনার আওতায় আনার জন্য মিরপুর-১০ নম্বরে পাইলট প্রকল্প নিয়েছি। সপ্তাহে পাঁচ দিন নির্দিষ্ট হকাররা বিকাল ৪টার পর থেকে ফুটপাতে বসছে। অন্য সময় ফুটপাতে কোনো হকার বসতে পারবে না। পর্যায়ক্রমে পুরো এলাকায় এটি চালু করা হবে। হলিডে মার্কেট ও ইভিনিং মার্কেট করার পরিকল্পনাও রয়েছে।’

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, ‘সবার বাস উপোযোগী দৃষ্টিনন্দন ঢাকা গড়ে তুলতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। নিম্নবিত্ত, মধ্যবিত্ত ও উচ্চবিত্ত সব শ্রেণির মানুষ ঢাকায় বসবাস করে। তাই সবার বিষয়কে বিবেচনায় রেখেই ঢাকাকে গড়ে তুলতে হবে।’

যে কোনো শহরেই সব শ্রেণির মানুষের প্রয়োজন রয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘সব শ্রেণির মানুষের জন্য সুন্দর ও নিরাপদ জীবন যাপনের সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। রাজধানীতে শ্রেণিভেদে মানুষের আয়ের তারতম্য রয়েছে। পানি, গ্যাস, বিদ্যুৎসহ অন্যান্য ইউটিলিটি সার্ভিসের মূল্য নির্ধারণে মানুষের আয়ের বিষয়কে বিবেচনায় রাখতে হবে। এজন্য জোনভিত্তিক পানি, গ্যাস, বিদ্যুৎসহ অন্যান্য ইউটিলিটি সার্ভিসের দাম নির্ধারণ করা যৌক্তিক।’

তিনি বলেন, ‘গুলশান, বারিধারা, বনানীসহ অভিজাত এলাকায় বসবাসরত মানুষ যে নাগরিক সুযোগ সুবিধা ভোগ করেন, যাত্রাবাড়ী অথবা পুরান ঢাকার মানুষ তা পায় না। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সমতাভিত্তিক উন্নয়নের কথা বলেছেন। সমাজ ও মানুষের মধ্যে বৈষম্য প্রতিষ্ঠিত করার জন্য বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীন করেননি বলে উল্লেখ করেন মন্ত্রী।’

সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা, প্রধান পরিকল্পনাবিদ মাকসুদ হাসেম, সেন্টার অফ আরবান স্টাডিজের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, জাতিসংঘ উন্নয়ন বাংলাদেশের প্রকল্প ব্যবস্থাপক ও বিশিষ্টজনরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন:
মাঠ দখলমুক্ত করে ফুটবল খেললেন মেয়র আতিকুল
কোরবানির বর্জ্য অপসারণে মাঠে দুই সিটির কর্মীরা
বকেয়া বিলের অর্ধেক শোধ করল সিলেট সিটি করপোরেশন
সিটি করপোরেশনকে আর টাকা দিতে চায় না সরকার
যাদের প্রাপ্যতা আছে, শুধু তারা প্রকল্পের সুবিধাভোগী: তাপস

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
Writ seeking stall allocation in book fair

বই মেলায় স্টল বরাদ্দ চেয়ে রিট

বই মেলায় স্টল বরাদ্দ চেয়ে রিট ফাইল ছবি।
রিট আবেদনে বলা হয়েছে, একটি বইয়ের জন্য মেলায় পুরো প্রকাশনীর অংশগ্রহণ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। অথচ সে বইটি কালো তালিকাভুক্ত নয়। বাংলা একাডেমি আইন-২০১৩ অনুযায়ী তাদের এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার কোনো বৈধতা নেই।

অমর একুশে বই মেলায় আদর্শ প্রকাশনীকে স্টল বরাদ্দ না দেয়ার বাংলা একাডেমির সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। রিটে বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক ও সভাপতিসহ চারজনকে বিবাদী করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি দায়ের করেন প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী মো. মাহবুবুর রহমান। তার পক্ষে আইনজীবী হিসেবে আছেন ব্যারিস্টার অনীক আর হক।

আগামী সপ্তাহে রিট আবেদনটির ওপর শুনানি হতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি।

রিট আবেদনে আদর্শ প্রকাশনীকে স্টল বরাদ্দ না দেয়ার সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারির আবেদন করা হয়েছে। একইসঙ্গে দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রকাশনীটিকে স্টল বরাদ্দ দিতে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

রিট আবেদনে বলা হয়েছে, ‘শুধু একটি বইয়ের জন্য মেলায় পুরো প্রকাশনীর অংশগ্রহণ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। অথচ সে বইটি ব্যান্ড লিস্টেড বা কালো তালিকাভুক্ত নয়। বাংলা একাডেমি আইন-২০১৩ অনুযায়ী তাদের এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার কোনো বৈধতা নেই।

‘একইসঙ্গে প্রতিবছর একাডেমি থেকে যে নীতিমালা করা হয়, তারও ব্যত্যয় ঘটিয়ে সিদ্ধান্ত দিয়েছে বাংলা একাডেমি। তাদের এ সিদ্ধান্ত সংবিধানের বাক-স্বাধীনতার বিরোধী।’

আরও পড়ুন:
বইমেলা উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর
বইমেলা উদ্বোধনে বাংলা একাডেমিতে প্রধানমন্ত্রী
হুমকি থাকলে লেখক-প্রকাশকদের নিরাপত্তা দেবে ডিএমপি
বইমেলার নীতিমালা দেখতে টাস্কফোর্স গঠন
কাগজে হাহাকার, প্রভাব পড়বে বইমেলাতেও

মন্তব্য

বাংলাদেশ
DMP DB searches for gang of hit and run housewives while stealing cows

গরু চুরির সময় গৃহবধূকে গাড়িচাপা, চক্রের খোঁজে ডিএমপি ডিবি

গরু চুরির সময় গৃহবধূকে গাড়িচাপা, চক্রের খোঁজে ডিএমপি ডিবি সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার পঞ্চ সারটিয়াচর গ্রামে গত সোমবার রাতে পিকআপ ভ্যান চাপা দিয়ে গৃহবধূকে হত্যা করা হয়। ছবি: নিউজবাংলা
ডিবি মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার রাজিব আল মাসুদ বলেন, ‘ঘটনাটি আমাদের জুরিসডিকশনের বাইরে হলেও সিনিয়র স্যারদের নির্দেশনায় সিরাজগঞ্জ পুলিশকে আমরা সহায়তা করছি।’

সিরাজগঞ্জে গরু চুরির সময় গৃহবধূকে গাড়িচাপা দিয়ে হত্যার ঘটনায় চালকসহ চোর চক্রের সদস্যদের খুঁজছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)।

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার পঞ্চ সারটিয়াচর গ্রামে গত সোমবার রাতে গৃহবধূকে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারে সিরাজগঞ্জ পুলিশকে সহায়তা করছে ডিএমপির ডিবি।

ডিবি মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার রাজিব আল মাসুদ বলেন, ‘ঘটনাটি আমাদের জুরিসডিকশনের বাইরে হলেও সিনিয়র স্যারদের নির্দেশনায় সিরাজগঞ্জ পুলিশকে আমরা সহায়তা করছি।’

গাড়িচাপা দিয়ে হত্যার ঘটনায় সিরাজগঞ্জ সদর থানায় মামলা করেছেন নিহতের স্বামী আমির চাঁন। সে মামলায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে সিরাজগঞ্জ পুলিশ। তাকে দুই দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

নিহতের ভাই রিপন সরকার বলেন, ‘রাতে কে বা কারা একটি পিকআপ ভ্যান নিয়ে আমির চাঁনের গরুর খামারে গরু চুরি করতে আসে। আমার ভাগ্নে জুবায়ের বুঝতে পেরে খামারে গেলে তাকে বেধড়ক মারধর করে চোরেরা।

‘এদিকে আমার বোন সেলিনা বেগম রাস্তায় পিকআপ ভ্যানে দুটি গরু নিয়ে পালিয়ে যেতে দেখলে বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে পিকআপ ভ্যানের নিচে চাপা পড়ে মারা যায়। এ সময় ভাগ্নে ও দুলাভাইয়ের চিৎকারে আশপাশের লোকজন জড়ো হলে চোররা পিকআপ ভ্যানটি রেখে পালিয়ে যায়।’

সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির বলেন, ‘আমরা ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছি। আমাদের পাশাপাশি অন্যান্য আইন প্রয়োগকারী সংস্থাও কাজ করছে।’

আরও পড়ুন:
ডিবির হারুনের নামে মামলা নেয়নি আদালত
বিএনপি অফিসে ভাঙচুরের অভিযোগে ডিবির হারুনের নামে মামলার আবেদন
জাল ভিসা নিয়ে আমেরিকান দূতাবাসের অভিযোগে ছয়জন গ্রেপ্তার
চালকের গলাকেটে অটোরিকশা ছিনতাই করতো ওরা
সিরাজগঞ্জে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় দুজন নিহত

মন্তব্য

বাংলাদেশ
After Sara two others received Nanditas corneas after posthumous donation

সারার পর মরণোত্তর দেহদান নন্দিতার, কর্নিয়া পেল আরও দুজন

সারার পর মরণোত্তর দেহদান নন্দিতার, কর্নিয়া পেল আরও দুজন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) অ্যানাটমি বিভাগের পক্ষে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে প্রতিষ্ঠানের উপাচার্য অধ্যাপক শারফুদ্দিন আহমেদ নন্দিতা বড়ুয়ার মরণোত্তর দেহ গ্রহণ করেন। ছবি: নিউজবাংলা
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন নন্দিতা বড়ুয়ার মৃত্যু হয় ৩০ জানুয়ারি রাত আড়াইটার দিকে। দীর্ঘদিন ধরে তিনি কিডনিজনিত জটিল রোগে ভুগছিলেন। কিডনি রোগের পাশাপাশি এসএলই ও ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত ছিলেন। মরণোত্তর দেহদানের বিষয়ে সন্তানদের বলে গিয়েছিলেন তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী সারা ইসলামের পর মরণোত্তর দেহ দান করেছেন ৬৯ বছর বয়সী নন্দিতা বড়ুয়া, যার কর্নিয়ায় চোখের আলো ফিরে পেয়েছেন দুজন।

তারা হলেন পিরোজপুরের কাউখালী কলেজের ব্যবস্থাপনার বিভাগের অনার্স প্রথম বর্ষের ২৩ বছর বয়সী ছাত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস ও পটুয়াখালীর ৫০ বছর বয়সী দলিল লেখক আবদুল আজিজ।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) অ্যানাটমি বিভাগের পক্ষে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে প্রতিষ্ঠানের উপাচার্য অধ্যাপক শারফুদ্দিন আহমেদ নন্দিতা বড়ুয়ার মরণোত্তর দেহ গ্রহণ করেন। ওই সময় তিনি বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ঢাকার বাসাবোর বাসিন্দা নন্দিতা বড়ুয়ার দেহ গ্রহণের সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএসএমএমইউর উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ছয়েফ উদ্দিন আহমদ, সার্জারি অনুষদের ডিন অধ্যাপক মোহাম্মদ হোসেন, অ্যানাটমি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক লায়লা আনজুমান বানু, ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক শাহ আলম, হৃদরোগ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আরিফুল ইসলাম জোয়ারদার (টিটো), কর্নিয়া বিশেষজ্ঞ সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ শীষ রহমান, কর্নিয়া বিশেষজ্ঞ সহকারী অধ্যাপক রাজশ্রী দাস, অ্যানাটমি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শারমিন আক্তার সুমি, নন্দিতা বড়ুয়ার দুই মেয়ে শাপলা বড়ুয়া ও সেঁজুতি বড়ুয়া. নন্দিতা বড়ুয়ার কর্নিয়াগ্রহীতা জান্নাতুল ফেরদৌস ও আবদুল আজিজসহ আরও অনেকে।

অনুষ্ঠানে নন্দিতা বড়ুয়ার দুই মেয়ে শাপলা বড়ুয়া ও সেঁজুতি বড়ুয়াও মরণোত্তর দেহদানের ইচ্ছা কথা জানান।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন নন্দিতা বড়ুয়ার মৃত্যু হয় ৩০ জানুয়ারি রাত আড়াইটার দিকে। দীর্ঘদিন ধরে তিনি কিডনিজনিত জটিল রোগে ভুগছিলেন। কিডনি রোগের পাশাপাশি এসএলই ও ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত ছিলেন। মরণোত্তর দেহদানের বিষয়ে সন্তানদের বলে গিয়েছিলেন তিনি।

গত ৩১ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের চক্ষু বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ শীষ রহমান আবদুল আজিজের চোখে ও অপথালমোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রাজশ্রী দাস জান্নাতুল ফেরদৌসির চোখে নন্দিতা বড়ুয়ার একটি করে কর্নিয়া সফলভাবে প্রতিস্থাপন করেন।

এর আগে গত ১৯ জানুয়ারি মরণোত্তর অঙ্গদান করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন ২০ বছর বয়সী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী সারা ইসলাম।

তার দুটি কিডনি প্রতিস্থাপন করা হয় দুই নারীর শরীরে। আর কর্নিয়া প্রতিস্থাপন করা হয় আরও দুজনের চোখে।

আরও পড়ুন:
মেডিক্যালের শিক্ষার্থীদের জন্য মরণোত্তর দেহদান স্কুলশিক্ষকের

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Lawyer Bucks Kallol passed away

আইনজীবী বকস কল্লোল মারা গেছেন

আইনজীবী বকস কল্লোল মারা গেছেন সৈয়দ মোহাইমেন বকস কল্লোল
মোহাইমেন বকস কল্লোল হার্ট অ্যাটাক করে মারা যান। তার মৃত্যুতে প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী গভীর শোক প্রকাশ করছেন।

সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ও আমাদের সময় পত্রিকার প্রকাশক সৈয়দ মোহাইমেন বকস কল্লোল মারা গেছেন।

বুধবার রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন আপিল বিভাগের রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান।

এই আইনজীবীর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান জানান, মোহাইমেন বকস কল্লোল হার্ট অ্যাটাক করে মারা যান। তার মৃত্যুতে প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী গভীর শোক প্রকাশ করছেন।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক পুত্র, এক ভাইসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তার গ্রামের বাড়ি যশোরে।

মোহাইমেন বকস কল্লোল আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হন ২০১০ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি। সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সদস্য লাভ করেন ২০১১ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি।

আমাদের সময় পত্রিকা অফিস ও সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে আজিমপুর কবরস্থানে তার মরদেহ দাফন করা হবে।

আরও পড়ুন:
ইউনাইটেডের ভুল চিকিৎসায় পাইলট ভাইয়ের মৃত্যু, দাবি আমেরিকান তালার
নওগাঁর সাবেক এমপি সামসুল আলম প্রামাণিকের মৃত্যু  
বাসায় যেতে চাওয়া রেজাকে মর্গে পাঠাল মধ্যরাতের ট্রাক

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Charge sheet against cricketer Al Amin in wife torture case

স্ত্রী নির্যাতনের মামলায় ক্রিকেটার আল আমিনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

স্ত্রী নির্যাতনের মামলায় ক্রিকেটার আল আমিনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র ক্রিকেটার আল আমিন হোসেন। ফাইল ছবি
ঢাকার মহানগর হাকিম আতাউল্লাহর আদালতে বৃহস্পতিবার অভিযোগপত্র জমা দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার পরিদর্শক সোহেল রানা। বিচারক অভিযোগপত্র দেখেছেন মর্মে স্বাক্ষর করেন।

যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগে করা মামলায় জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার আল আমিন হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র জমা দিয়েছে পুলিশ।

ঢাকার মহানগর হাকিম আতাউল্লাহর আদালতে বৃহস্পতিবার এ অভিযোগপত্র জমা দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার পরিদর্শক সোহেল রানা।

বিচারক অভিযোগপত্র দেখেছেন মর্মে স্বাক্ষর করেন। পরবর্তী বিচারেরর জন্য মামলাটি ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৮-এ বদলির আদেশ দেন বিচারক।

গত বছরের ২ সেপ্টেম্বর মিরপুর মডেল থানায় আল আমিনের নামে স্ত্রী ইসরাত জাহানের করা অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা নথিভুক্ত করা হয়।

ইশরাত জাহানের অভিযোগ, তাকে অত্যাচার করে বাসা থেকে বের করে দিয়েছেন আল আমিন। দীর্ঘদিন ধরে তার ওপর এমন অত্যাচার চালাচ্ছেন তিনি।

আরও পড়ুন:
ক্রিকেটার আল-আমিনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
আদালতে স্ত্রীকে তালাকের কথা জানালেন আল আমিন
এখনও কিছু হয়নি: আল আমিন
স্ত্রীর মামলায় ক্রিকেটার আল আমিনের জামিন
জামিনের পরদিনই ক্রিকেটার আল আমিনের নামে আরেক মামলা

মন্তব্য

বাংলাদেশ
A young man died after being hit by a train at a railway crossing

রেল ক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় গেল যুবকের প্রাণ

রেল ক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় গেল যুবকের প্রাণ ফাইল ছবি
ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, মহাখালী রেল ক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় আহত এক যুবককে হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রাজধানীর মহাখালী রেল ক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় এক যুবক নিহত হয়েছেন।

বুধবার রাত ১০টার দিকে দুর্ঘটনায় আহত হন ওই যুবক, উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়া হলে সাড়ে ১১টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত ২১ বছর বয়সী মোহাম্মদ মোক্তার হোসেন শেরপুর জেলা সদরের পাঁজরডাঙ্গা গ্রামের চানমিয়ার ছেলে। মহাখালী-বনানী কড়াইল বস্তিতে থাকতেন তিনি।

মোক্তারকে হাসপাতালে আনা তার বন্ধু মো. শিমুল বলেন, মোক্তার আমার সঙ্গে মহাখালী ব্রিটিশ-আমেরিকান টোবাকো কোম্পানিতে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। রাতে কাজ শেষে কর্মস্থল থেকে বাসায় ফিরছিলাম।

তিনি বলেন, পথে মহাখালী রেলগেট অতিক্রম করার সময় কমলাপুরগামী একটি ট্রেন মোক্তারকে ধাক্কা দিলে সে রেল লাইনের পাশ থেকে ২০০ গজ দূরে ছিটকে পড়ে।

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, মহাখালী রেল ক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় আহত এক যুবককে হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি জানান, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি ঢাকা রেলওয়ে থানায় জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন:
ফোনে কথা বলতে বলতে ট্রেনের নিচে গেলেন যুবক
পাটগ্রামে ট্রেনে কাটা পড়ে মা ও দুই সন্তানের মৃত্যু
ট্রেনে কাটা পড়লেন দুই প্রতিবন্ধী

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Improvements in the list of unsanitary air in Dhaka

তালিকায় উন্নতি, বাতাস ‘অস্বাস্থ্যকর’ ঢাকার

তালিকায় উন্নতি, বাতাস ‘অস্বাস্থ্যকর’ ঢাকার ঢাকায় ধুলার মধ্য দিয়ে হেঁটে যাচ্ছে এক শিশু। ছবি: এএফপি
বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকার বাতাসের স্কোর ছিল ১৬৩। এর মানে হলো ওই সময়টাতে অস্বাস্থ্যকর বাতাসের মধ্যে বসবাস করতে হয়েছে রাজধানীবাসীকে।

বাতাসের মানের দিক থেকে আইকিউএয়ারের তালিকায় নিয়মিত ওপরে থাকা ঢাকা শীর্ষ ১০ থেকে বের হলেও ‘অস্বাস্থ্যকর’ ক্যাটাগরি থেকে মুক্ত হতে পারেনি শহরের বাতাস।

সুইজারল্যান্ডভিত্তিক বাতাসের মানবিষয়ক প্রযুক্তি কোম্পানিটির র‌্যাঙ্কিংয়ে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় বাতাসের মানে ১০০টি শহরের মধ্যে ১১তম অবস্থানে ছিল বাংলাদেশের রাজধানী।

র‌্যাঙ্কিংয়ে বাতাসের নিম্নমানের দিক থেকে ওই সময়ে শীর্ষে ছিল পাকিস্তানের করাচি। দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে ছিল পাকিস্তানের লাহোর ও কুয়েতের কুয়েত সিটি।

তালিকায় উন্নতি, বাতাস ‘অস্বাস্থ্যকর’ ঢাকার

নির্দিষ্ট স্কোরের ভিত্তিতে কোনো শহরের বাতাসের ক্যাটাগরি নির্ধারণের পাশাপাশি সেটি জনস্বাস্থ্যের জন্য ভালো নাকি ক্ষতিকর, তা জানায় আইকিউএয়ার।

কোম্পানিটি শূন্য থেকে ৫০ স্কোরে থাকা শহরগুলোর বাতাসকে ‘ভালো’ ক্যাটাগরিতে রাখে। অর্থাৎ এ ক্যাটাগরিতে থাকা শহরের বাতাস জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর নয়।

৫১ থেকে ১০০ স্কোরে থাকা শহরগুলোর বাতাসকে ‘মধ্যম মানের বা সহনীয়’ হিসেবে বিবেচনা করে কোম্পানিটি।

আইকিউএয়ারের র‌্যাঙ্কিংয়ে ১০১ থেকে ১৫০ স্কোরে থাকা শহরগুলোর বাতাসকে ‘সংবেদনশীল জনগোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর’ ক্যাটাগরিতে ধরা হয়।

১৫১ থেকে ২০০ স্কোরে থাকা শহরের বাতাসকে ‘অস্বাস্থ্যকর’ ক্যাটাগরির বিবেচনা করা হয়।

র‌্যাঙ্কিংয়ে ২০১ থেকে ৩০০ স্কোরে থাকা শহরগুলোর বাতাসকে ‘খুবই অস্বাস্থ্যকর’ ধরা হয়। তিন শর বেশি স্কোর পাওয়া শহরের বাতাসকে ‘বিপজ্জনক’ হিসেবে বিবেচনা করে আইকিউএয়ার।

সকালের নির্দিষ্ট ওই সময়ে ঢাকার বাতাসের স্কোর ছিল ১৬৩। এর মানে হলো ওই সময়টাতে অস্বাস্থ্যকর বাতাসের মধ্যে বসবাস করতে হয়েছে রাজধানীবাসীকে।

র‌্যাঙ্কিংয়ে বুধবার সকাল ৯টা ৪১ মিনিটে দূষিত বাতাসে ১০০টি শহরের মধ্যে দশম অবস্থানে ছিল বাংলাদেশের রাজধানী। স্কোর ছিল ১৬৮।

আইকিউএয়ার জানায়, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকার বাতাসে মানবস্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ অতি ক্ষুদ্র কণা পিএম২.৫-এর উপস্থিতি ছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইও) আদর্শ মাত্রার চেয়ে ১৫ দশমিক ৬ গুণ বেশি।

আরও পড়ুন:
ঢাবিতে ভর্তির আবেদন শুরু ২৭ ফেব্রুয়ারি, ট্রান্সজেন্ডার কোটা
স্নাতক নয়, ঢাবিতে এবার ভর্তি পরীক্ষা আন্ডারগ্র্যাজুয়েট নামে
নারীর চোখে দেখা গল্প তারা বলতে পারছে কি?
জয়ের জন্য ঢাকার দরকার ১১৪ রান
পর্দা উঠল ঢাকা লিট ফেস্টের

মন্তব্য

p
উপরে