× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিনোদন
Udichira warns of movement if teacher abuse is not brought to justice
hear-news
player
print-icon

শিক্ষক লাঞ্ছনার বিচার না হলে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি উদীচীর

শিক্ষক-লাঞ্ছনার-বিচার-না-হলে-আন্দোলনের-হুঁশিয়ারি-উদীচীর
নড়াইল সদর উপজেলার মির্জাপুর ইউনাইটেড ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসকে পুলিশের সামনে জুতার মালা পরানোর ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। ছবি: সংগৃহীত
উদীচী মনে করে, প্রায় ৮ ঘণ্টা ধরে কলেজ ক্যাম্পাসে তাণ্ডব চালানো হলেও তা ঠেকাতে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে স্থানীয় পুলিশ ও প্রশাসন। শুধু তাই নয়, অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসকে নিরাপত্তা না দিয়ে উল্টো তাকে অসম্মানিত করার পূর্ণ সুযোগ করে দিয়েছে পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা। কেননা, তাদের উপস্থিতিতেই বিনা বাধায় ওই শিক্ষকের গলায় জুতোর মালা পরানো হয়।

নড়াইলে শিক্ষক লাঞ্ছনায় জড়িতদের বিচার চায় উদীচী।

ধর্ম অবমাননার অজুহাতে নড়াইলের মির্জাপুর ইউনাইটেড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসের গলায় জুতোর মালা পরিয়ে প্রকাশ্যে লাঞ্ছিতের ঘটনায় জড়িত এবং এর পেছনে ইন্ধনদাতাদের অবিলম্বে খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। একই সঙ্গে এ ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মন্তব্যেরও তীব্র নিন্দা জানিয়েছে সংগঠনটি।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ উদীচী সংসদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ নিন্দা জানানো হয়েছে।

এক বিবৃতিতে উদীচীর সভাপতি অধ্যাপক বদিউর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক অমিত রঞ্জন দে জানান, গণমাধ্যমের অনুসন্ধানে সুস্পষ্টভাবে উঠে এসেছে যে নড়াইলের ওই কলেজে শিক্ষক লাঞ্ছনার পেছনে শুধু ধর্ম অবমাননার মিথ্যা অভিযোগই কারণ নয়। কলেজটিতে কিছুদিন আগে অবৈধভাবে কয়েকজনকে নিয়োগের বিরোধিতা করেন স্বপন কুমার বিশ্বাস।

এরপর থেকেই ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় নেতাদের রোষানলে পড়েন তিনি। পরে কলেজের এক ছাত্রের ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্র করে একদল মানুষ কলেজে হামলা করলে তিনি কলেজের নিরাপত্তা রক্ষায় ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে স্বাভাবিকভাবেই সহায়তা চেয়ে পুলিশকে ফোন করেন।

এ ঘটনায় অধ্যক্ষ ওই ছাত্রের পক্ষ নিয়েছেন এবং স্বপন কুমার বিশ্বাসও ধর্ম অবমাননা করেছেন বলে গুজব রটিয়ে মানুষকে উত্তেজিত করে তোলা হয়।

পুলিশের উপস্থিতিতেই অধ্যক্ষসহ তিনজনের গলায় জুতোর মালা পরিয়ে কলেজ ক্যাম্পাস থেকে পুলিশের ভ্যানে তোলা হয়। যা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে স্পষ্ট বোঝা যায়।

উদীচী মনে করে, প্রায় ৮ ঘণ্টা ধরে কলেজ ক্যাম্পাসে তাণ্ডব চালানো হলেও তা ঠেকাতে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে স্থানীয় পুলিশ ও প্রশাসন। শুধু তাই নয়, অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসকে নিরাপত্তা না দিয়ে উল্টো তাকে অসম্মানিত করার পূর্ণ সুযোগ করে দিয়েছে পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা। কেননা, তাদের উপস্থিতিতেই বিনা বাধায় ওই শিক্ষকের গলায় জুতোর মালা পরানো হয়।

এত কিছুর পরও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যখন বলেন, পুলিশ কিছু করার আগেই উত্তেজিত জনতা লাঞ্ছনার ঘটনা ঘটিয়ে ফেলেছে, তখন সেটি নিছক দায়িত্বহীন মন্তব্য ছাড়া আর কিছু নয়।

একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে যেখানে ব্যর্থতার দায়ে নড়াইলের পুলিশ ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিকভাবে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার কথা সেখানে ঘটনার ১১ দিন পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলছেন, দায়িত্বে কারো গাফিলতি ছিল কি না তিনি তা খতিয়ে দেখবেন। এসব মন্তব্য এবং অহেতুক কালক্ষেপণের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীদের আড়াল করার চেষ্টা চলছে কি না সে প্রশ্নও তোলেন উদীচীর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

অতীতে নারায়ণগঞ্জের শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্ত, নওগাঁর আমোদিনী পাল বা মুন্সিগঞ্জের হৃদয় চন্দ্র মণ্ডলকে হেনস্তা ও হয়রানির ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হওয়ার ফলেই বারবার শিক্ষকদের লাঞ্ছনার এমন ঘটনা ঘটছে বলেও মন্তব্য করেন অধ্যাপক বদিউর রহমান ও অমিত রঞ্জন দে।

নড়াইলে শিক্ষক লাঞ্ছনার সুষ্ঠু বিচার না হলে প্রগতিশীল সংগঠনসমূহ এবং শিক্ষক সংগঠনগুলোকে সঙ্গে নিয়ে উদীচী দেশব্যাপী আন্দোলন গড়ে তুলবে বলেও বিবৃতিতে হুঁশিয়ারি দেন উদীচীর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

আরও পড়ুন:
উদীচী সম্মেলনে বোমা হামলা, বিচারের দাবিতে মানববন্ধন
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলে উদীচীর হুঁশিয়ারি
সাম্যবাদী সমাজ গঠনে লড়াইয়ের অঙ্গীকার উদীচীর
অপশক্তি রুখতে গণসঙ্গীত নাটক মশাল মিছিল
৫২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সভা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উদীচীর

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
Posting his sons photo Parimoni wrote "Be a bearer of light"

ছেলের ছবি পোস্ট করে পরীমনি লিখলেন, ‘আলোর বাহক হও’

ছেলের ছবি পোস্ট করে পরীমনি লিখলেন, ‘আলোর বাহক হও’ ছেলের এ ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত
ছেলের ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে পরীমনি লেখেন, ‘শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য। তুমি পৃথিবীর জন্যে আলোর বাহক হও। অভিনন্দন তোমাকে।’

চিত্রনায়িকা পরীমনির কোল আলো করে এসেছে নতুন অতিথি। রাজধানীর একটি হাসপাতালে বুধবার বিকেলে অস্ত্রোপচারে ভূমিষ্ঠ হয় পরীমনির ছেলেসন্তান।

নবজাতককে বুকে জড়িয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেছেন পরী; জানিয়ে দিয়েছেন ছেলের পুরো নামও।

সেই ছবির ক্যাপশনে পরীমনি লেখেন, ‘শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য। তুমি পৃথিবীর জন্যে আলোর বাহক হও। অভিনন্দন তোমাকে।’

সন্তান ছেলে হলে নাম রাজ্য রাখবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন পরীমনি। কথা অনুযায়ী করলেনও তা-ই।

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে বুধবার ৫টা ৩৬ মিনিটে পৃথিবীতে আসে পরী-রাজের সন্তান।

২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর বিয়ে করেন শরিফুল রাজ ও পরীমনি। দীর্ঘদিন গোপনেই ছিল তাদের বিয়ের খবর। চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি তাদের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসে।

পরীমনির অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবরটিই প্রথমে সামনে আসে। পরে জানা যায় তাদের বিয়ের খবর।

আরও পড়ুন:
রাজ-পরীর ঘরে নতুন অতিথি আসার আয়োজন
নাসিরের বিরুদ্ধে পরীমনির মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল
পরীকে খাওয়াতে এলেন আরেক ‘মা’ 
এমন আদর বাকি জীবনেও চাইলেন পরী
মায়ার জালে পরীর চোখ

মন্তব্য

বিনোদন
The son of the fairy king is seen from afar Chayanika

দূর থেকে দেখতে হচ্ছে পরী-রাজের ছেলেকে: চয়নিকা

দূর থেকে দেখতে হচ্ছে পরী-রাজের ছেলেকে: চয়নিকা নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীর সঙ্গে অভিনেত্রী পরীমনি। ফাইল ছবি
হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে চয়নিকা চৌধুরী বলেন, ‘ভেতরে গিয়ে দেখলাম; দূর থেকেই দেখলাম। কারণ খুব রেস্ট্রিকশন (কড়াকড়ি) আছে। খুবই খুশির খবর। পরী-রাজের ছেলে হয়েছে; রাজপুত্র হয়েছে। অবশ্যই অনেক আনন্দের খবর।’

অভিনয়শিল্পী দম্পতি পরীমনি ও শরিফুল রাজের ঘর আলো করে এসেছে নতুন অতিথি।

রাজধানীর একটি হাসপাতালে বুধবার বিকেলে অস্ত্রোপচারে ভূমিষ্ঠ হয় পরীমনির ছেলেসন্তান।

নবজাতক, তার মা ও বাবাকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী।

রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিনি হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে কথা বলেন সাংবাদিকদের সঙ্গে।

চয়নিকা বলেন, ‘ভেতরে গিয়ে দেখলাম; দূর থেকেই দেখলাম। কারণ খুব রেস্ট্রিকশন (কড়াকড়ি) আছে। খুবই খুশির খবর। পরী-রাজের ছেলে হয়েছে; রাজপুত্র হয়েছে। অবশ্যই অনেক আনন্দের খবর।’

তিনি বলেন, ‘রাজকে দেখলাম। বেচারা খুবই টেনশনে; দুই দিন ধরে খাওয়া-দাওয়া বন্ধ। এখনও খায়নি সে। হয়তো পরী যখন খাবে, তখন সেও খাবে। কারণ দুজন দুজনকে প্রচণ্ড কেয়ার করে ও ভালোবাসে।’

চয়নিকা বলেন, ‘দুজনই ভালো আছে, সুস্থ আছে। খুবই রেস্ট্রিকটেড এবং দর্শনার্থী প্রবেশ নিষেধ।’

নবজাতককে দূর থেকে দেখেছেন জানিয়ে এ নির্মাতা বলেন, ‘আমিও দূর থেকে দেখেছি; কাছ থেকে দেখতে পারিনি। আমাকেও নিষেধ করা হয়েছে, যেহেতু নিয়ম।’

পরী, রাজ ও তাদের সন্তানের জন্য সবাইকে প্রার্থনার আহ্বান জানিয়ে চয়নিকা বলেন, ‘পরীকে অনেক ভালোবাসি। সে আমার সন্তানসম। এ ভালো লাগা বলে বোঝানো যাবে না।’

নবজাতককে কোলে নেয়ার অপেক্ষায় আছেন চয়নিকা। এ অপেক্ষা ৭ থেকে ৯ দিন করতে হবে বলে জানান নির্মাতা।

তিনি বলেন, ‘কিছু নিয়মের মধ্যে আছে নবজাতক। যেহেতু ছোট বাচ্চা, সব নিয়ম মেনেই কোলে নেব এবং তার জন্য অপেক্ষা করব।’

আরও পড়ুন:
নাসিরের বিরুদ্ধে পরীমনির মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল
পরীকে খাওয়াতে এলেন আরেক ‘মা’ 
এমন আদর বাকি জীবনেও চাইলেন পরী
মায়ার জালে পরীর চোখ
মাদকের মামলা: সশরীরে আদালতে যেতে হবে না পরীমনিকে

মন্তব্য

বিনোদন
Parimani is the mother of the boy

‘রাজ্য’ এলো রাজ-পরীর ঘরে

‘রাজ্য’ এলো রাজ-পরীর ঘরে অভিনয়শিল্পী দম্পতি রাজ-পরী। ছবি: সংগৃহীত
পরীমনি ইচ্ছে প্রকাশ করে জানিয়েছিলেন, তার ছেলেসন্তান হলে নাম রাখবেন রাজ্য।

ছেলেসন্তানের জন্ম দিয়েছেন দেশের আলোচিত অভিনেত্রী পরীমনি। বাবা হয়েছেন শরিফুল রাজ। রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে বুধবার ৫টা ৩৬ মিনিটে পৃথিবীতে আসে রাজ-পরীর সন্তান।

শরিফুল রাজ নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমি এখনও ‍ওটির ভেতরে। কথা বলতে পারছি না। অনেকে ফোন করছেন, যেটুকু না বললেই না, সেটুকু বলছি।’

ছেলেকে কোলে নিয়েছিলেন কি না, জানতে চাইলে রাজ হেসে বলেন, ‘হ্যাঁ নিয়েছিলাম’।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে এভারকেয়ার হাসপাতালের এক কর্মকর্তা নিউজবাংলাকে বলেন, ‘বেলা ৩টা নাগাদ এখানে ভর্তি হন তিনি (পরীমনি)। সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়েছে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে।'

রাজ-পরীর সন্তানের নাম এখনও ঠিক করা হয়নি। রাজ জানান, এগুলো এখনও ঠিক করেননি তারা এবং এগুলো নিয়ে ভাবছেনও না। ছেলে ও মা সুস্থ আছেন বলে জানান রাজ।

পরীমনি ইচ্ছে প্রকাশ করে সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছিলেন, তার ছেলেসন্তান হলে নাম রাখবেন রাজ্য।

২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর বিয়ে করেন শরিফুল রাজ ও পরীমনি। দীর্ঘদিন গোপনেই ছিল তাদের বিয়ের খবর। চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি তাদের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসে। পরীমনির অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবরটিই প্রথমে জানা যায়, পরে জানা যায় তাদের বিয়ের খবর।

আরও পড়ুন:
পরীকে খাওয়াতে এলেন আরেক ‘মা’ 
এমন আদর বাকি জীবনেও চাইলেন পরী
মায়ার জালে পরীর চোখ
মাদকের মামলা: সশরীরে আদালতে যেতে হবে না পরীমনিকে
পরীমনির মামলা: নাসির-অমির বিচার শুরু

মন্তব্য

বিনোদন
Musician Saraswati Asha Bhosle cooked in her own restaurant

নিজের রেস্তোরাঁয় রান্না করলেন ‘সংগীতের সরস্বতী’ আশা ভোঁসলে

নিজের রেস্তোরাঁয় রান্না করলেন ‘সংগীতের সরস্বতী’ আশা ভোঁসলে দুবাইতে নিজের রেস্তোরাঁয় রান্না করছেন আশা ভোঁসলে। ছবি: ভিডিও থেকে নেয়া
ভিডিও দেখে নানান মন্তব্য করছেন ভক্তরা। এক অনুরাগী লিখেছেন, ‘গানা আর খানা- মারাত্মক কম্বিনেশন, দুটোই মনের খুব কাছের।'

সবাই বলে, গলায় তার স্বয়ং সরস্বতীর বাস। সেই আশা ভোঁসলেকে সবাই রেকর্ডিং স্টুডিওতেই দেখে অভ্যস্ত। কিন্তু তাকে হঠাৎ করেই দেখা গেল রান্নাঘরে।

দুবাইতে নতুন রেস্তোরাঁ খুলেছেন কিংবদন্তি এ শিল্পী। সম্প্রতি সেখানকার সুসজ্জিত কিচেন থেকে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন তিনি। ভিডিওতে তাকে রাঁধতে দেখা যাচ্ছে।

ভিডিওতে শেফের অ্যাপ্রন পরে দেখা গেছে তাকে। রান্না ঠিকঠাক হয়েছে কি না তা দেখতে গন্ধ নিচ্ছেন খাবারের।

ভিডিও দেখে নানান মন্তব্য করছেন ভক্তরা। এক অনুরাগী লিখেছেন, ‘গানা আর খানা- মারাত্মক কম্বিনেশন, দুটোই মনের খুব কাছের।' আরেকজন লিখেছেন, ‘এবার কিংবদন্তি গায়িকার পাশাপাশি মাস্টার শেফও আপনি’।

আশা ভোঁসলে একজন উদ্যোক্তাও। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, ২০ বছর ধরে হসপিটালিটি ব্যবসা করছেন তিনি। ইংল্যান্ড, ম্যানচেস্টার, বাহরিন, কুয়েত, আবুধাবি, বার্মিংহামের মতো শহরে রেস্তোরাঁ রয়েছে আশা ভোঁসলের।

মন্তব্য

বিনোদন
Popstar actress Olivia Newton John has died

গ্র্যামিজয়ী পপস্টার অলিভিয়া নিউটন-জনের প্রয়াণ

গ্র্যামিজয়ী পপস্টার অলিভিয়া নিউটন-জনের প্রয়াণ অলিভিয়া নিউটন-জন। ছবি: সংগৃহীত
অলিভিয়ার ক্যানসার ধরা পড়ে ১৯৯২ সালে। পরে তিনি ক্যানসার গবেষণার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। তার দাতব্য প্রতিষ্ঠান অলিভিয়া নিউটন জন ফাউন্ডেশন, ক্যানসার গবেষণাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য লাখ লাখ পাউন্ড সংগ্রহ করে।

আশির দশকের তুমুল জনপ্রিয় পপস্টার গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড বিজয়ী অলিভিয়া নিউটন-জন মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর। দীর্ঘদিন ক্যানসারের সঙ্গে লড়ে অবশেষে হার মারলেন ১৯৭০-এর দশকের তুমুল জনপ্রিয় এই সংগীতশিল্পী।

যুক্তরাষ্ট্রের সাদার্ন ক্যালিফোর্নিয়ায় খামার বাড়িতে স্থানীয় সময় সোমবার সকালে তার মৃত্যু হয়।

অলিভিয়ার স্বামী জন ইস্টারলিং ফেসবুকে অলিভিয়ার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে লিখেছেন, ‘এই কঠিন সময়ে পরিবারের গোপনীয়তার প্রতি সম্মান বজায় রাখতে সবাইকে অনুরোধ করছি।’

১৯৭৩ সাল থেকে ১৯৮৩ সাল পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় সংগীতশিল্পীদের একজন ছিলেন অলিভিয়া। এ সময়ে তিনি চারটি গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড জিতে নেন। জন ট্র্যাভোল্টার সঙ্গে তার ডুয়েট ‘ইউ আর দ্য ওয়ান দ্যাট আই ওয়ান্ট’ ১ কোটি ৫০ লাখের বেশি কপি বিক্রি হয়। অলিভিয়ার কণ্ঠে ‘ফিজিকাল’ গানটিও পায় আকাশছোঁয়া জনপ্রিয়তা।

গ্র্যামিজয়ী পপস্টার অলিভিয়া নিউটন-জনের প্রয়াণ

ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত অস্ট্রেলিয়ান এ গায়িকা-অভিনেত্রী ‘গ্রিজ’ নামের মিউজিক্যাল সিনেমায় স্যান্ডি চরিত্রে অভিনয় করে তুমুল পরিচিতি ও জনপ্রিয়তা পান।

অলিভিয়ার স্তন ক্যানসার ধরা পরে ১৯৯২ সালে। পরে তিনি ক্যানসার গবেষণার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। তার দাতব্য প্রতিষ্ঠান, অলিভিয়া নিউটন জন ফাউন্ডেশন, ক্যানসার গবেষণাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য লাখ লাখ পাউন্ড সংগ্রহ করে।

মন্তব্য

বিনোদন
Amirs family was struggling to pay the schools salary of Rs6

স্কুলে ৬ রুপি বেতন দিতে কষ্ট হতো আমিরের পরিবারের

স্কুলে ৬ রুপি বেতন দিতে কষ্ট হতো আমিরের পরিবারের বলিউড সুপারস্টার আমির খান। ছবি: সংগৃহীত
ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে আমির বলেন, ‘আমরা সব সময় দেরিতে বেতন দিতাম। সবার সামনে নাম ধরে ধরে ডাকা হত আমাদের’। এ কথা বলতে গিয়ে থেমে যান আমির, চোখ ভিজে যায় তার।

আমিরের চার ভাই-বোনে স্কুলের বেতন দিতে কষ্ট হতো আমির খানের বাবা-মা’র। তারা চিলেন ঋণগ্রস্ত। ভাই-বোনদের মধ্যে সবচেয়ে বড় আমির খান।

এখন আমিরকে বলিউডের ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ বলা হলেও অভাব-অনটনে কেটেছে তার ছোটবেলা। সেসব কথা চাইলেই ভোলা যায় না, ভোলেননি আমিরও।

সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেয়ার সময় ফিরে গিয়েছিলেন ছোটবেলার দিনগুলোতে। সেই সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, স্কুলে যেতেই ভয় পেতেন আমির। স্কুলের অধ্যক্ষ সবার সামনে তার নাম ধরে ডাকতেন আর মনে করিয়ে দিতেন যে, তার স্কুলের ফি বাকি রয়েছে।

এখন স্কুলের বেতনের অর্থকে সামা সামান্য মনে হয় আমিরের। কিন্তু তখন এটুকু জোগাড় করতেই ঘাম ছুটে যেত আমিরের বাবা-মা’র।

আমির জানান, ৮ বছর আমির ও তার পরিবার নানা রকমের আর্থিক কষ্টের মধ্যে দিয়ে গেছেন। ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ার সময় আমিরের স্কুলের বেতন ছিল ৬ রুপি। সপ্তম শ্রেণিতে ছিল ৭ রুপি। সেটাই দিতে পারতেন না আমির ও তার ভাই-বোনেরা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে আমির বলেন, ‘আমরা সব সময় দেরিতে বেতন দিতাম। সবার সামনে নাম ধরে ধরে ডাকা হত আমাদের’। এ কথা বলতে গিয়ে থেমে যান আমির, চোখ ভিজে যায় তার।

ইয়াদো কি বরাত (১৯৭৩) সিনেমায় শিশুশিল্পী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন আমির। নায়ক হিসেবে তার প্রথম সিনেমা কেয়ামত সে কেয়ামত তাক (১৯৮৮)। প্রথম সিনেমাতেই সাড়া ফেলে সিনেমাটি। তার পর আর পিছে তাকাতে হয়নি আমিরের।

আরও পড়ুন:
কঙ্গনার নিশানায় এবার আমির
আসামের বন্যাদুর্গতদের জন্য ২৫ লাখ রুপি দিলেন আমির খান
আইপিএলের মাঝেই এলো ‘লাল সিং চাড্ডা’র ট্রেলার
কবে আসছে আমিরের ‘লাল সিং চাড্ডা’র ট্রেলার
‘আইপিএলে চান্স হবে’, ব্যাট হাতে প্রশ্ন আমিরের

মন্তব্য

বিনোদন
In the video Masu draws the lively Masuda Khan outside

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান মাসুদা খান। ছবি: সংগৃহীত
আর্টের মধ্যে সব সময় থাকতে চান মাসুদা। আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘আমি একদিন বইও লিখতে চাই এবং সব সময় পড়াশোনা করে যেতে চাই। এটাই আমার ক্যারিয়ার চয়েস। জানি একটু এলোমেলো।’

মঞ্চে বসেই কণ্ঠশিল্পী তপু এক ঘোষণা দিলেন। বললেন, ‘দর্শক সারিতে যারা আছেন, তাদের মধ্য থেকে কেউ যদি গান গাইতে চান, তারা মঞ্চে চলে আসুন, আপনাদের গান শুনব আমরা সবাই।’

ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে একজন ছেলে ওঠেন মঞ্চে; নিজের লেখা, সুর করা গান করেন। পরে আরেকজন নারী কণ্ঠশিল্পী যান; তিনি শোনান লালনের গান।

দ্বিতীয় জন যখন মঞ্চে উঠে গেছেন, তখন মঞ্চের নিচে আরেকজন অপেক্ষা করছিলেন। মূলত তিনিই দ্বিতীয় শিল্পী হিসেবে মঞ্চে উঠতে চেয়েছিলেন; কিন্তু মঞ্চের কাছে আসতে দেরি হওয়ায় তৃতীয় হতে হয় তার।

দ্বিতীয় শিল্পী নামার সঙ্গে সঙ্গে প্রবল আগ্রহ নিয়ে মঞ্চে উঠলেন তৃতীয় জন। গাইলেন ‘তোমাকে চাই আমি আরও কাছে’ গানটির প্রথম কয়েক লাইন। গান গাওয়ার পাশাপাশি তার হাসির ফোয়ারা আর অভিব্যক্তির কারণে সবাই তাকে বাহবা দিলেন।

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান
চিত্রশিল্পী, অভিনেত্রী মাসুদা খান। ছবি: সংগৃহীত

মঞ্চ থেকে তিনি নেমে আসার পর গানটি বেজে ওঠে সাউন্ড বক্সে। গানের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নেচে ওঠেন তিনি।

তার এই প্রাণবন্ত ভাবটাকে আগত অতিথিরা হাত তালি ও চিৎকারে স্বাগত জানান। গত জুলাইয়ের ২৮ তারিখে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের ঘটনা এটি।

প্রাণবন্ত এ মেয়েটির নাম মাসুদা খান। অনেকে তাকে চিনবেন ‘মাসু আঁকে’ শব্দটি বললে। কারণ এই শব্দে তিনি পরিচিত ফেসবুক ইনস্টাগ্রামে। মাসুদা ছবি আঁকেন, ছবি আঁকা শেখান।

ফেসবুক, ইনস্টায় তার পেজ ও অ্যাকাউন্ট রয়েছে। সেখানে পোস্ট করা ভিডিওগুলো মাসুদাকে ‘মাসু আঁকে’ বলে ভিডিও শুরু করতে দেখা যায়। আঁকার ভিডিও বানানো ছাড়াও ইদানীং তিনি অভিনয় করেন, ফটোশুটে অংশ নেন, কমিক বুক লেখেন।

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান
চিত্রশিল্পী, অভিনেত্রী মাসুদা খান। ছবি: সংগৃহীত

মাসুদা নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমার এখন ২৪ বছর বয়স। আমি একটু এক্সপ্লোর করছি কী কী করতে পারি। অভিনয় করলাম কিছুদিন আগে। ইউএনডিপির সঙ্গে একটা কমিক বুক লিখেছে ও এঁকেছি। মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশেও অংশ নিয়েছিলাম। আমি আসলে অনেক কিছুই ট্রাই করে দেখছি, কোনটা করতে ভালো লাগে।’

মাসুদ লেখাপড়া করছেন ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে, অ্যাপ্লাইড লিঙ্গুইস্টিকস বিষয়ে চতুর্থ বর্ষে। তিনি মনে করছেন, ইংরেজি সাবজেক্টটি তাকে অনেক কিছু করতে সাহায্য করছে।

মাসুদা বলেন, ‘যেহেতু আমার টেকনিক্যাল সাবজেক্ট না, তাই আমার অনেক কিছু করার সুযোগ আছে। যদি আমি ডক্টর বা ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার জন্য পড়তাম, তাহলে সাবজেক্টে ফোকাস বেশি করতে হতো।’

আর্টের মধ্যে সব সময় থাকতে চান মাসুদা। আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘আমি একদিন বইও লিখতে চাই এবং সব সময় পড়াশোনা করে যেতে চাই। এটাই আমার ক্যারিয়ার চয়েস। জানি একটু এলোমেলো।’

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান
চিত্রশিল্পী, অভিনেত্রী মাসুদা খান। ছবি: সংগৃহীত

মাসুদা নিজেকে কনটেন্ট ক্রিয়েটর হিসেবেও দাবি করেন। ফেসবুকে তার পেজের নাম ‘জলতরঙ্গ: মাসু.আকে’স আর্ট জার্নাল উপ’, ইনস্টাগ্রামে তার অ্যাকাউন্টের নাম ‘মাসু.আঁকে’।

ফেসবুক পেজ ও অ্যাকাউন্টে রয়েছে মাসুদার ভিডিও ও নানা ছবি। ২০১৮ থেকে আঁকা নিয়ে তার ভিডিও বানানো শুরু, করোনার সময় সেটি বেড়ে যায়। মাসুদা জানান, শখ থেকেই ভিডিও বানানো শুরু তার।

মাসুদা বলেন, ‘আমার তো আঁকতে ভালো লাগে। প্রথম দিকে সিলি সিলি ভিডিও বানিয়ে বন্ধুদের পাঠাতাম। অনলাইনে আপলোড করার পর অনেকে বললেন যে, ভিডিওগুলো লম্বা করার জন্য। তারপর নিজের পছন্দের পাশাপাশি দর্শকের পছন্দকেও প্রাধান্য দেয়া শুরু করলাম।’

নিজের ফোনেই কনটেন্ট তৈরির সব কাজ করেন মাসুদা। তার ভিডিওতে একটি ইমপারফেকশন থাকবে, সেটাই মাসুদার পছন্দ। মাঝে মাঝে মনে হয় কেউ সাহায্য করলে ভালো হতো, কিন্তু সেটাও তার কাছে তেমন সমস্যার কিছু না।

নিজের প্ল্যাটফর্মটাকে আরও অনেক বড় করতে চান। কিন্তু এ মুহূর্তে সাবস্ক্রাইবাররা যেভাবে ভালোবাসা দিচ্ছে সেটা তার কাছে পারফেক্ট মনে হচ্ছে। যদি সপ্তাহে দুটি করে কনটেন্ট দিতে পারতেন, তাহলে হয়তো ফলোয়ার আরও বাড়ত বলে মনে করেন মাসুদা। কিন্তু যা হচ্ছে বা যেভাবে এগোচ্ছে সেটাও তার কাছে ঠিকই মনে হচ্ছে।

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান
চিত্রশিল্পী, অভিনেত্রী মাসুদা খান। ছবি: সংগৃহীত

মাসুদা বলেন, ‘ছবি আঁকা আমার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। কিন্তু আমার কিছু এক্সট্রা কারিকুলারও আছে। আমি সব কিছুর একটা ব্যালান্স রাখতে চাই জীবনে।’

কনটেন্ট ক্রিয়েশনের কারণেই চমৎকার, ফাটাফাটি, জোস জোস জায়গায় কোলাবোরেশন করতে পেরেছেন বলে জানান মাসুদা। বলেন, ‘এটা আমার জন্য একটা ক্যারিয়ার চয়েস এবং এটা আমি কনসিডার করছি।’

মাসুদা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ পরিচিত। তার করা ভিডিও কিংবা নানা আয়োজনে তাকে যে প্রাণবন্ত মুডে অন্য মানুষরা আবিষ্কার করেন, তাতে তিনি আরও পছন্দের হয়ে ওঠেন সবার কাছে।

নুহাশ হুমায়ূনের পরিচালনায় একটি কনটেন্টে কাজ করে তার পরিচিতি বেড়েছে আরও কিছুটা। এই পরিচিতি পাওয়ার বিষয়টায় বেশ মজা পাচ্ছেন মাসুদা। কী করবেন তিনি, কী হবে, তা নিয়ে এত ভাবছেন না। সময়টা উপভোগ করছেন আর যে কাজটি করতে ইচ্ছে করছে সেখানে নিজের শতভাগ দিয়ে যুক্ত হচ্ছেন মাসুদা খান।

মন্তব্য

p
উপরে