× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ পৌর নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য

বাংলাদেশ
Rizvi will file case against BNP even if he dies of cholera
hear-news
player

কলেরায় মারা গেলেও বিএনপির বিরুদ্ধে মামলা দেবে: রিজভী

কলেরায়-মারা-গেলেও-বিএনপির-বিরুদ্ধে-মামলা-দেবে-রিজভী নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের ছাত্রদের সংঘর্ষ।
‘এখন আমার কাছে মনে হয়, যদি কেউ আমাশয়-কলেরায় মারা যায়, অভিমানে কেউ যদি আত্মহত্যা করে মারা যায় এসব মৃত্যুর জন্যও বিএনপির নেতাকর্মীর নামে মামলা দেবে।’

রাজধানীর নিউ মার্কেটে সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়ায় সরকারের কড়া সমালোচনা করেছেন বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী। বলেছেন, এখন কেউ অভিমানে মারা গেলেও হয়তো বিএনপিকে দায় দেবে সরকার।

রোববার নয়াপল্টনে ভাসানী ভবন মিলনায়তনে সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন বিএনপি নেতা। এর আয়োজক ছিল ‘নাগরিক অধিকার পরিষদ’ নামে একটি সংগঠন।

গত সোম ও মঙ্গলবার নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের ছাত্রদের সংঘর্ষের পর বিএনপি নেতা মকবুল হোসেন সরদারকে প্রধান আসামি করে মামলা করেছে পুলিশ। এই মামলায় উসকানিদাতা হিসেবে দলটির এমন নেতার নাম আছে, যারা দেশের বাইরে আছেন।

সংঘর্ষের সময় নাহিদ মিয়া নামে ব্যবসায়ীদের পক্ষে সংঘর্ষে অংশ নেয়া একজনকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় যিনি চিহ্নিত হয়েছেন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে, আসামি করা হয়নি তাকেও।

রিজভী বলেন, ‘আজকে দেশের প্রধানতম গণমাধ্যমগুলোতে আসছে, নিউ মার্কেটের ঘটনায় যারা জড়িত তাদের চিহ্নিত করা হয়েছে, তারা সবাই ছাত্রলীগের নেতাকর্মী। আর আসামি করা হয়েছে বিএনপির নেতাকর্মীদের, গ্রেপ্তার করা হয়েছে নিউ মার্কেট থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি মকবুলকে।

‘এখন আমার কাছে মনে হয়, যদি কেউ আমাশয়-কলেরায় মারা যায়, অভিমানে কেউ যদি আত্মহত্যা করে মারা যায় এসব মৃত্যুর জন্যও বিএনপির নেতাকর্মীর নামে মামলা দেবে।’

এবার ভোট হবে নিশিরাতে
গত জাতীয় নির্বাচনে নিশিরাতে ভোট হয়েছে অভিযোগ করে রিজভী বলেন, শেখ হাসিনা সরকারপ্রধান থাকলে এবার জাতীয় নির্বাচনের ভোট হবে ভোরে, নয়তো আগের দিনের সন্ধ্যায়।

ভোটের আগে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জাতীয় সরকার হলে নেই সরকার ‘নেকড়ের ভূমিকা’ পালন করবে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

কলেরায় মারা গেলেও বিএনপির বিরুদ্ধে মামলা দেবে: রিজভী
নয়াপল্টনে ভাসানী ভবন মিলনায়তনে বক্তব্য দিচ্ছেন রুহুল কবির রিজভী। ছবি: নিউজবাংলা

রিজভী বলেন, ‘কেউ কেউ বলেন নির্বাচনের আগে জাতীয় সরকার। কার অধীনে জাতীয় সরকার এটা তো বলেন না। তার মানে বোঝাতে চাচ্ছেন, শেখ হাসিনার অধীনে? নিরীহ প্রাণী ছাগল-মুরগির নিরাপত্তার দায়িত্বে যদি আপনি নেকড়েকে রাখেন এটা যেমন হাস্যকর শোনা যায়, তেমনি শেখ হাসিনার অধীনে জাতীয় সরকার, তার অধীনে নির্বাচন- এটা তো নেকড়ের বন পাহারা দেয়ার মতো ঘটনা।

‘সবচেয়ে হিংস্র প্রাণীকে বলা হলো আমার বাড়িতে যে মুরগি-ছাগল আছে, এগুলো তুমি পাহারা দেবে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যদি জাতীয় সরকার হয় ওই সরকার তো নেকড়ের ভূমিকা পালন করবে। নির্বাচনের আগে যদি জাতীয় সরকার হয় আর সেটার প্রধান যদি শেখ হাসিনা থাকেন, গতবার ভোট নিশিরাতে হয়েছে, এবার হবে না হয় ভোরবেলায় অথবা সন্ধ্যেবেলায় এই ধরনের কিছু একটা ঘটনা ঘটবে। সুতরাং এগুলো যারা বলছেন তারা প্রকারান্তরে শেখ হাসিনার এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছেন, গোয়েন্দা সংস্থার এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছেন।’

নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে, তার আগে এই সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে- ভোট নিয়ে বিএনপির শর্ত আবার জানিয়ে দেন রিজভী। বলেন, ‘সেই পদত্যাগের যে আন্দোলন, সেই আন্দোলনে এবার সবাইকে কোমর বেঁধে নামতে হবে। এটা জীবন-মরণের প্রশ্ন। আমাদের স্বাধীনতার প্রশ্ন, আমাদের সার্বভৌমত্বের প্রশ্ন, ভোটের প্রশ্ন। এগুলোর সুরক্ষার জন্য এবার জীবন পণ করে আমাদের রাস্তায় নামতে হবে।’

কোথায় উন্নয়ন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার শাসনামলে দেশে ব্যাপক উন্নয়নের দাবি করলেও কোথাও উন্নয়ন দেখতে পান না রিজভী।

তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনা কথায় কথায় উন্নয়নের কথা বলেন, একেবারে মনে হয় উন্নয়নে দেশ সয়লাব করে দিয়েছে। আজকের যিনি ফুল বিক্রেতা ফুলবানু, তার উন্নয়ন কোথায়, আজকে যে ইট ভেঙে জীবন নির্বাহ করছে আছিয়া বেগম, তার উন্নয়ন কোথায়।
‘আপনি (শেখ হাসিনা) কিছু লুটেরা শ্রেণি তৈরি করেছেন, আপনার আশীর্বাদপুষ্ট আপনার দলের লোকরা। তারা আবার লুটের, লুটের টাকা তারা হয় নিয়ে গেছেন কানাডায়, না ইংল্যান্ডে, না হয় ইউরোপের কোনো দেশে নিয়ে গিয়ে সেই টাকা ইনভেস্ট করেছেন। এই তো শেখ হাসিনার উন্নয়নের বৈশিষ্ট্য।’

বিএনপি সব সময় মানবতার সেবায় ব্রত হয়ে রাজনীতি করে দাবি করে রিজভী বলেন, ‘যেকোনো দুর্যোগময় মুহূর্তে বিএনপি অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ায়। করোনার কারণে যখন মানুষের আয় ছিল না, তখনও আমরা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি, নিম্ন আয়ের মানুষ এখন আরও খুব কষ্টে আছেন শেখ হাসিনার উন্নয়নের লুটপাটের গণতন্ত্রের কারণে। এদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের সকলের কর্তব্য।’

সংগঠনের সভাপতি মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনায় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী, ফ্লোরিডা বিএনপির আহ্বায়ক ইমরানুল হক চাকলাদার, জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক দলের সভাপতি হুমায়ূন কবির বেপারীও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন:
ষড়যন্ত্র কেন, মানুষ আপনাদের পতন চায়, প্রধানমন্ত্রীকে রিজভী
জয়ের তথ্যের উৎস জানতে চান রিজভী
আল্লাহ আপনাদেরকে ক্ষমা করবে না: দুদককে রিজভী
বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কার মতো হতে যাচ্ছে: রিজভী
টিকা কেনার টাকা লোপাট করেছে সরকার: রিজভী

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
TIB calls for formation of economic committee

অর্থনৈতিক কমিটি গঠনের আহ্বান টিআইবির

অর্থনৈতিক কমিটি গঠনের আহ্বান টিআইবির ফাইল ছবি
খ্যাতিমান অর্থনীতিবিদ, সমাজবিজ্ঞানী এবং অন্য সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে জরুরি ভিত্তিতে একটি অর্থনৈতিক কৌশল বিষয়ক পরামর্শক কমিটি গঠন করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে টিআইবি।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি ও ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে সৃষ্ট অস্থিরতা ও সম্ভাব্য মন্দা মোকাবিলায় সরকারের সহায়ক হিসেবে জরুরি ভিত্তিতে স্বাধীন অর্থনৈতিক কৌশলবিষয়ক উপদেষ্টা কমিটি গঠনের আহ্বান জানিয়েছে দুর্নীতি বিরোধী সংস্থা ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল, বাংলাদেশ (টিআইবি)।

শুক্রবার টিআইবির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ আহ্বান জানানো হয়। একই সঙ্গে এরই মধ্যে সংকট মোকাবিলায় সরকারের নেয়া নানা উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী, নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্যের দামের ঊর্ধ্বগতি, ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতি, ডলারের বিপরীতে টাকার অবমূল্যায়ন ও রিজার্ভের ওপর সৃষ্ট চাপ এবং ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে অর্থনীতির ওপর বহুমুখী চ্যালেঞ্জ তৈরি হয়েছে।

সংকট মোকাবিলায় করণীয় ঠিক করতে অর্থ, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ ব্যাংককে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এমন পরিস্থিতিতে অহেতুক ব্যয় কমিয়ে সবাইকে সাশ্রয়ী ও যৌক্তিক হওয়ার আহবান জানিয়েছেন সরকারপ্রধান।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ, বিপুল আমদানি ব্যয়, বৈদেশিক লেনদেনে ভারসাম্যহীনতা, রিজার্ভের ওপর তৈরি হওয়া চাপ মোকাবিলায় ব্যয় হ্রাস করতে হবে। জনকল্যাণ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন সর্বোচ্চ প্রাধান্য দিয়ে সুচিন্তিত অর্থনৈতিক কর্মকৌশল নেওয়া এবং সাহসের সঙ্গে তা বাস্তবায়ন জরুরি।’

তাই খ্যাতিমান অর্থনীতিবিদ, সমাজবিজ্ঞানী এবং অন্য সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে জরুরি ভিত্তিতে একটি অর্থনৈতিক কৌশল বিষয়ক পরামর্শক কমিটি গঠন করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দা ও দুর্ভিক্ষের আশঙ্কা করা হচ্ছে বলেও জানান ইফতেখারুজ্জামান।

তিনি বলেন, ‘অন্য সব দেশের মত বাংলাদেশকেও সম্ভাব্য খাদ্যঘাটতিসহ বহুমুখী সংকটের মুখোমুখি হতে হবে বলে উদ্বেগ বাড়ছে। সংকটে বৈশ্বিক অভিজ্ঞতা অনুযায়ী যেকোনো দেশেই সুশাসন অধিকতর ব্যাহত হয়। দুর্নীতি ও অর্থ পাচারসহ আর্থিক খাতের বহুমুখী অনিয়ম গভীর ও ব্যাপক হয়। আর্থসামাজিক বৈষম্য, দারিদ্র্য ও প্রান্তিকতার বিকাশ ঘটে। পাশাপাশি মৌলিক মানবাধিকার সুরক্ষা চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়।’

সংকট মোকাবিলায় কৌশল প্রণয়নে বস্তুনিষ্ঠ, পেশাগত উৎকর্ষ ও বিজ্ঞানভিত্তিক এবং নিরপেক্ষ দিক-নির্দেশনা সরকারের জন্য বিশেষভাবে সহায়ক হবে বলে মনে করেন ইফতেখারুজ্জামান।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক বলেন, ‘এই কমিটি ২০২১-৪১ এর টার্গেট অনুযায়ী ২০৩১ সালের মধ্যে উচ্চ-মধ্যম ও ২০৪১ সালের মধ্যে উচ্চ আয়ের দেশে পৌঁছাতে সহায়তা করবে।

‘পাশাপাশি ২০৩১ সালের মধ্যে অতিদারিদ্র্য দূর এবং ২০৪১ সালের মধ্যে দারিদ্র্য শুন্যে নিয়ে আসার জন্য নির্দিষ্ট কৌশল প্রণয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।’

আরও পড়ুন:
তিন বিদ্যুৎকেন্দ্রে ৩৯০ কোটি টাকার দুর্নীতি: টিআইবি
উপাত্ত সুরক্ষা আইনের খসড়া নিয়ে টিআইবির উদ্বেগ
টিআইবির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থার পক্ষে তথ্যমন্ত্রী

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Gas shut off in Mirpur Pallabi on Saturday

মিরপুর, পল্লবীতে গ্যাস বন্ধ শনিবার

মিরপুর, পল্লবীতে গ্যাস বন্ধ শনিবার পুরো মিরপুর এলাকা ও পল্লবীতে থাকবে না গ্যাস। ফাইল ছবি/নিউজবাংলা
শনিবার সকাল ৯টা হতে রাত ৯টা পর্যন্ত ১২ ঘণ্টা রাজধানীর মিরপুর ১, ২, ৬, ৭, ১০, ১১, ১২, ১৩, ইস্টার্ন হাউজিং (পল্লবী), রূপনগর, আরামবাগ, আলুবদি, মিরপুর ডিওএসএইচ পর্যন্ত এলাকায় সব শ্রেণির গ্রাহকদের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। সে সঙ্গে আশপাশের এলাকায় গ্যাসের স্বল্প চাপ থাকতে পারে।

পাইপলাইন সংস্কারের জন্য শনিবার মিরপুরে ১২ ঘণ্টা গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখবে তিতাস গ্যাস অ্যান্ড ট্রান্সমিশন কোম্পানি।

সেই সঙ্গে মিরপুরের পার্শ্ববর্তী এলাকাগুলোতেও এ সময় গ্যাসের চাপ কম থাকবে।

শুক্রবার এক জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে সংস্থাটি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জরুরি গ্যাস পাইপলাইন সংস্কার কাজের জন্য শনিবার সকাল ৯টা হতে রাত ৯টা পর্যন্ত ১২ ঘণ্টা রাজধানীর মিরপুর ১, ২, ৬, ৭, ১০, ১১, ১২, ১৩, ইস্টার্ন হাউজিং (পল্লবী), রূপনগর, আরামবাগ, আলুবদি, মিরপুর ডিওএসএইচ পর্যন্ত এলাকায় সব শ্রেণির গ্রাহকদের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। সে সঙ্গে আশপাশের এলাকায় গ্যাসের স্বল্প চাপ থাকতে পারে।

গ্রাহকের সাময়িক অসুবিধার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে তিতাস।

আরও পড়ুন:
গ্যাসের লিকেজের আগুনে দগ্ধ আনোয়ারের মৃত্যু
কৈলাশটিলার ৭ নম্বর কূপ থেকে গ্যাস সরবরাহ শুরু
গ্রিডে দৈনিক যুক্ত হবে ২ কোটি ঘনফুট গ্যাস
ঈদে গ্যাসের চাপ কম থাকবে ঢাকার যেসব এলাকায়
গ্যাসের দাম বাড়লে আরও বাড়বে পণ্যমূল্য: ক্যাব

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The body of the housewife was hanging with the fan

ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছিল গৃহবধূর মরদেহ

ফ্যানের সঙ্গে ঝুলছিল গৃহবধূর মরদেহ মরদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। ছবি: নিউজবাংলা
কামরাঙ্গীরচর থানার এসআই ফাহমিদা ইয়াসমিন বলেন, ‘খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে কামরাঙ্গীরচর মধ্য ইসলামনগর মজিবর ঘাট এলাকার ৭ নম্বর রোডের একটি বাসা থেকে ওই গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করি। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।’

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ পাওয়া গেছে। তার নাম আলিফা আক্তার।

বৃহস্পতিবার রাতের দিকে এ ঘটনা ঘটে।

বরিশালের মুলাদী উপজেলার নন্দিরবাজার গ্রামের বাসিন্দা তিনি। বর্তমানে কামরাঙ্গীরচরের মধ্য ইসলামনগর মজিবর ঘাট এলাকার একটি বাসায় স্বামী আব্দুর রহিমকে নিয়ে থাকতেন।

কামরাঙ্গীরচর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফাহমিদা ইয়াসমিন বলেন, ‘খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে কামরাঙ্গীরচর মধ্য ইসলামনগর মজিবর ঘাট এলাকার ৭ নম্বর রোডের একটি বাসা থেকে ওই গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করি। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

‘স্বামী-স্ত্রীর পারিবারিক কলহের জেরে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।’

আলিফার বাবা নান্নু মিয়া বলেন, ‘পাঁচ মাস আগে আমার মেয়ের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য আমার মেয়েকে বিভিন্ন সময়ে মানসিকভাবে নির্যাতন করা হতো। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া লেগেই থাকত।

‘কয়েক দিন আগে স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া করে আমার বাসায় চলে আসে। পরে বুঝিয়ে তাকে আবার স্বামীর সঙ্গে পাঠিয়ে দেয়া হয়। গত রাতে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ার একপর্যায়ে অভিমান করে আমার মেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।’

আরও পড়ুন:
‘বিদ্যুৎস্পর্শে’ যুবকের মৃত্যু 
ধান ক্ষেতের পাশে নারীর গলিত মরদেহ
ফ্যানে ঝুলছিল প্রাথমিক স্কুলছাত্রীর মরদেহ
মধুমতীতে হাত-পা বাঁধা মরদেহ
বিয়েবিচ্ছেদের প্রতিশোধ নিতেই শিশুকে খুন

মন্তব্য

বাংলাদেশ
There is no way for BNP without elections Nanak

নির্বাচন ছাড়া বিএনপির সামনে পথ নেই: নানক

নির্বাচন ছাড়া বিএনপির সামনে পথ নেই: নানক শুক্রবার ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে এক সমাবেশে বক্তব্য দেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক। ছবি: নিউজবাংলা
আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘বিএনপি অহেতুক অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে। বিএনপির কর্মকাণ্ড মানুষ ভুলে নাই। তাদের নেতা নাই। নেতৃত্বশূন্য দল বিএনপি। তাই এখন পানি ঘোলা করে দেশে একটি অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করার চেষ্টা করছে। কোনো লাভ হবে না, বিএনপিকে নির্বাচনে আসতে হবে।’

নির্বাচনে অংশ নেয়া ছাড়া বিএনপির সামনে আর কোনো পথ খোলা নেই বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক।

শুক্রবার ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতির সামনে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে এক সমাবেশে অংশ নিয়ে তিনি এমন মন্তব্য করেন। সমাবেশের আয়োজন করে মহিলা আওয়ামী লীগ।

নির্বাচন ছাড়া বিএনপির সব পথ বন্ধ উল্লেখ করে নানক বলেন, ‘গত রমজান থেকেই বিএনপির প্রার্থীরা তাদের এলাকায় নির্বাচনি প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। তারা আসলে আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন। এ ছাড়া তাদের কোনো পথ খোলা নেই। এখন হয়তো পানি ঘোলা করার চেষ্টা করছেন।’

আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘বিএনপি অহেতুক অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে। বিএনপির কর্মকাণ্ড মানুষ ভুলে নাই। তাদের নেতা নাই। নেতৃত্বশূন্য দল বিএনপি। তাই এখন পানি ঘোলা করে দেশে একটি অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করার চেষ্টা করছে। কোনো লাভ হবে না, বিএনপিকে নির্বাচনে আসতে হবে।’

মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া খাতুনের সভাপতিত্বে সমাবেশের সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম। এ সময় আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, মহিলাবিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকিসহ মহিলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

আরও পড়ুন:
দুই-এক মাসের মধ্যে বিএনপির সঙ্গে সংলাপ: সিইসি
নির্বাচন নিয়ে ফন্দিফিকির করে বিএনপি: হানিফ
নিউ মার্কেটে সংঘর্ষ: বিএনপি নেতা মকবুলের জামিন নাকচ
বিএনপি ক্ষমতালোভী ফ্যাসিবাদী: কাদের

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Peoples Commission has no legal basis Home Minister

গণকমিশনের আইনি ভিত্তি নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

গণকমিশনের আইনি ভিত্তি নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুক্রবার দুপুরে লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনালের ২৭তম বার্ষিক সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। ছবি: নিউজবাংলা
মন্ত্রী বলেন, ‘গণকমিশনের আইনি কোনো ভিত্তি নেই। তারা একটি বই প্রকাশ করেছে ২ হাজার দিন সন্ত্রাস নামে। বইয়ের ভেতরে কী লিখেছে, তা আমি জানি না। এগুলো আমাদের দেখতে হবে।’

দেশের এক হাজার মাদ্রাসা ও শতাধিক ইসলামি বক্তার বিভিন্ন তথ্য দিয়ে ‘ধর্ম ব্যবসায়ীদের’ দুর্নীতির তদন্তের আহ্বান জানানো গণকমিশনের আইনি ভিত্তি নেই বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুক্রবার দুপুরে লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনালের ২৭তম বার্ষিক সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘গণকমিশনের আইনি কোনো ভিত্তি নেই। তারা একটি বই প্রকাশ করেছে ২ হাজার দিন সন্ত্রাস নামে। বইয়ের ভেতরে কী লিখেছে, তা আমি জানি না। এগুলো আমাদের দেখতে হবে।

‘তারা কাদের নামে সন্ত্রাস ও দুর্নীতির দায় দিয়েছেন এগুলো আমরা কেউই কোনো তদন্ত করিনি। সুতরাং এ বিষয়ে আমরা কিছু বলতে পারব না। তারা দিয়েছেন। আমরা না দেখে বলতে পারব না। দেখে বলতে হবে।’

গণকমিশনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে হেফাজত আন্দোলনে নামার ঘোষণা দিয়েছে। তারা আন্দোলনে নামলে কী ব্যবস্থা নেয়া হবে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আইন কেউ হাতে নিলে আমাদের যা করণীয়, সেটাই করব। এটা স্পষ্ট করে বলে দিচ্ছি।

‘আমরা একটি কথা জোর দিয়ে বলতে চাই, যে অভিযোগের কোনো প্রমাণ নেই, সে অভিযোগ আমরা আমলে নিই না।’

প্রেক্ষাপট

গত ১১ মে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান মঈনউদ্দীন আবদুল্লার কাছে শ্বেতপত্র ও সন্দেহভাজন শতাধিক ব্যক্তির তালিকা হস্তান্তর করে ‘বাংলাদেশে মৌলবাদী ও সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস তদন্তে গণকমিশন’।

কমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক ও সদস্যসচিব ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধিদল এ তালিকা হস্তান্তর করে।

গণকমিশনের তালিকায় সন্দেহভাজন হিসেবে ১১৬ জনের নাম রয়েছে। শ্বেতপত্র ও তালিকাটি একই সঙ্গে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনেও দেয়া হয়েছে।

একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি এবং জাতীয় সংসদের আদিবাসী ও সংখ্যালঘুবিষয়ক ককাসের যৌথ উদ্যোগে গঠন করা হয় গণকমিশন।

এর আগে ‘বাংলাদেশে মৌলবাদী সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের ২০০০ দিন’ শীর্ষক শ্বেতপত্রটির মোড়ক উন্মোচন করা হয় ১২ মার্চ।

আরও পড়ুন:
আ.লীগের নেতৃত্বে থাকলে বাংলাদেশ এগিয়ে চলবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
হরতালে ভাঙচুর হলে ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
কারও হুংকারে দেশ স্বাধীন হয়নি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
২৬ মার্চ সকালে আমিনবাজার সড়কে সাধারণ যানবাহন বন্ধ
খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের আবেদন আইন মন্ত্রণালয়ে

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Passengers arrested at the airport with 1258 grams of gold

বিমানবন্দরে ১২৫৮ গ্রাম স্বর্ণসহ যাত্রী গ্রেপ্তার

বিমানবন্দরে ১২৫৮ গ্রাম স্বর্ণসহ যাত্রী গ্রেপ্তার সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসা এক যাত্রীর লাগেজ থেকে ৮টি, প্যান্টের পকেট থেকে ২টি স্বর্ণের বারসহ ১.২৫৮ কিলোগ্রাম স্বর্ণালংকার পাওয়া যায়। ছবি: নিউজবাংলা
এয়ারপোর্ট কাস্টম হাউসের প্রিভেন্টিভ কর্মকর্তা প্রদীপ কুমার বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যাত্রী ওমর ফারুক গ্রিন চ্যানেল পার হওয়ার সময় তার লাগেজ স্ক্যান করা হয় এবং তাকেও আর্চওয়ে দিয়ে পার করানো হয়। স্ক্যানের সময় ফারুকের লাগেজ ও প্যান্টের পকেটের ভেতর স্বর্ণের ইমেজ পাওয়া যায়।’

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ থেকে আসা এক যাত্রীকে ১.২৫৮ কিলোগ্রাম স্বর্ণসহ গ্রেপ্তার করেছে কাস্টম হাউসের ঢাকার প্রিভেন্টিভ টিম।

গ্রেপ্তার যাত্রীর নাম ওমর ফারুক। তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার সময় এয়ার এরাবিয়ার জি-৯৫১৮ ফ্লাইটে বিমানবন্দরে নামার পর লাগেজ স্ক্যানের সময় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এয়ারপোর্ট কাস্টম হাউসের প্রিভেন্টিভ কর্মকর্তা প্রদীপ কুমার এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যাত্রী ওমর ফারুক গ্রিন চ্যানেল পার হওয়ার সময় তার লাগেজ স্ক্যান করা হয় এবং তাকেও আর্চওয়ে দিয়ে পার করানো হয়। স্ক্যানের সময় ফারুকের লাগেজ ও প্যান্টের পকেটের ভেতর স্বর্ণের ইমেজ পাওয়া যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘পরে কাস্টম ব্যাগেজ কাউন্টারে ফারুকের লাগেজ খুলে ৮টি, প্যান্টের পকেট থেকে ২টি স্বর্ণের বারসহ ৯৮ গ্রাম স্বর্ণালংকার পাওয়া যায়। যার ওজন ১.২৫৮ কেজি এবং বাজারমূল্য প্রায় ৯৩ লাখ টাকা।’

এ ঘটনায় ফৌজদারি মামলাসহ ওই যাত্রীর বিরুদ্ধে কাস্টম আইনে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন:
বিমানবন্দরের টয়লেটে ৪৬টি স্বর্ণের বার
বিমানের ভেতর কাপড়ে লুকানো ছিল ১০ কেজি স্বর্ণ

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Police arrested at Nagar Bhaban

নগর ভবনে পুলিশ আটক

নগর ভবনে পুলিশ আটক ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ভবন। ছবি: সংগৃহীত
দরপত্র জমা দিতে গিয়ে এএসআই কামরুল বিতর্কে জড়ান। অপ্রীতিকর ঘটনার পর তাকে শাহবাগ থানায় হস্তান্তর করা হয়। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ডিএমপি কমিশনারকে চিঠি দিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সম্পত্তি বিভাগ।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নগর ভবনে দরপত্র জমা দেয়ার সময় আটক করা হয়েছে পুলিশের এক সহকারী উপপরিদর্শককে (এএসআই)। তাকে শাহবাগ থানায় হস্তান্তরের পাশাপাশি অভিযোগ দেয়া হয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনারের কাছে।

অভিযুক্ত পুলিশের নাম কামরুল হাসান। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে আটক করা হয়।

নগর ভবনের কর্মকর্তারা জানান, বৃহস্পতিবার ডিএসসিসির মালিকানাধীন ফুলবাড়িয়া সুপার মার্কেট-২, ব্লক-এ, ব্লক-বি, ব্লক-সি এর বেইজমেন্টগুলোতে কার পার্কিংয়ের দরপত্র দাখিলের তারিখ ছিল।

এএসআই কামরুল এ সময় দরপত্র জমা দিতে যান। উপস্থিত অন্যদের সঙ্গে তার ঝামেলা হয়। অপ্রীতিকর ঘটনার পর তাকে শাহবাগ থানায় হস্তান্তর করা হয়।

তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ডিএমপি সদর দপ্তরে চিঠি দিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সম্পত্তি বিভাগ। কামরুল হাসানের বিরুদ্ধে ‘টেন্ডার ফেলে’ আইশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানোর অভিযোগ করা হয়েছে।

শাহবাগ থানার এসআই দীপক বালা নিউজবাংলাকে বলেন, সিটি করপোরেশন থেকে দুপুরের পরে আমাদের কাছে কামরুলক হাসানকে হস্তান্তর করা হয়। সিনিয়র স্যাররা বিষয়টি দেখছেন। তদন্তের পর তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে শুনেছি।

মামলার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সে বিষয়ে আমি জানি না।

আরও পড়ুন:
একটি দুর্নীতিমুক্ত প্রতিষ্ঠান থাকলে সেটি ঢাকা দক্ষিণ: মেয়র

মন্তব্য

উপরে