× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ পৌর নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট

বাংলাদেশ
Four people were sentenced to death for killing Mahendrachalak
hear-news
player
print-icon

হত্যা মামলায় চারজনের মৃত্যুদণ্ড

হত্যা-মামলায়-চারজনের-মৃত্যুদণ্ড-
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কাজী সাব্বির আহমেদ জানান, ২০১৬ সালের ১১ জানুয়ারি সকালে ওহিদুর মাহিন্দ্রা নিয়ে বের হন। পরদিন একটি জমিতে তার মরদেহ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় গোপালগঞ্জের কা‌শিয়া‌নি থে‌কে চারজনকে আটক করে পুলিশ।

খুলনায় মাহিন্দ্রাচালক হত্যা মামলায় চারজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত।

খুলনা মহানগর অতিরিক্ত দায়রা ও জজ আদালতের বিচারক এস এম আশিকুর রহমান মঙ্গলবার দুপুরে এ রায় দেন।

দণ্ডিতরা হলেন কিশোরগঞ্জের ইলচ্চা বাজারের সাদির চর গ্রামের নূর ইসলাম, একই এলাকার জনি দাস, চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার ফল সমস্যা বাজার এলাকার রনি শিকদার এবং খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার মাসুদ রানা মোল্লা।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী শুভেন্দু রায় চৌধুরী নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কাজী সাব্বির আহমেদ জানান, নিহত ওহিদুর রহমান রিপনের বাড়ি সাতক্ষীরার লাবশা এলাকায়। ২০১৬ সালের ১১ জানুয়ারি সকালে তিনি মাহিন্দ্রা নিয়ে বের হন। পরদিন লবণচরা থানার একটি জমিতে তার মরদেহ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় গোপালগঞ্জের কা‌শিয়া‌নি থে‌কে চারজনকে আটক করে পুলিশ।

১৩ জানুয়ারি ওহিদুরের ছোট ভাই শেখ শহিদুল ইসলাম চারজনের নামে লবণচরা থানায় মামলা করেন।

আসামিদের স্বীকারোক্তির বরাতে সাব্বির জানান, মাহিন্দ্রা ছিনতাইয়ের জন্য ১১ জানুয়ারি সন্ধ্যায় আসামিরা তাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী খুলনা যাওয়ার জন্য ওহিদুরের মাহিন্দ্রা ভাড়া করে। লবণচরা এলাকায় মাসুদ ও র‌নি ওহিদুরের শ্বাসরোধের চেষ্টা করে।

শ্বাসরোধে মৃত্যু না হলে নূর ইসলাম তাকে ছুরিকাঘাত করে। ওহিদুরের মৃত্যু হলে তারা মাহিন্দ্রা নিয়ে পালিয়ে যায়।

আইনজীবী সাব্বির বলেন, ‘১৫ জনের স্বাক্ষ্য নেয়া শেষে আদালত চারজনকে মৃত্যুদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড দিয়েছে। তবে আসামিরা সবাই জামিনে পলাতক।’

আরও পড়ুন:
বাবাকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ড, পরে মুক্তি
স্ত্রী হত্যায় মৃত্যুদণ্ড
গৃহবধূ হত্যায় সাবেক স্বামীর মৃত্যুদণ্ড   
ধর্ষণের পর শিশু হত্যায় যুবকের মৃত্যুদণ্ড
তিন খুনে ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
The seller rescued the seller in an hour long effort of hand fire service in Akhmarai machine

আখমাড়াই য‌ন্ত্রে হাত, ফায়ার সার্ভিসের এক ঘণ্টার চেষ্টায় বিক্রেতা উদ্ধার

আখমাড়াই য‌ন্ত্রে হাত, ফায়ার সার্ভিসের এক ঘণ্টার চেষ্টায় বিক্রেতা উদ্ধার
শিক্ষার্থী মো. জিসান বলেন, ‘ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিসকে কল দিলে তাদের একটি দল ঘণ্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে মেশিন খুলে শিপনকে উদ্ধার করে। পরে অ্যাম্বুলেন্সে করে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।’

বরিশাল আখমাড়াইয়ের ডিজেলচালিত যন্ত্রে হাত ঢুকে গুরুতর আহত হয়েছে এক রস বিক্রেতা।

নগরীর গীর্জা মহল্লার বিবির পুকুর পাড়ে সোমবার দুপুর পৌনে দুইটার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

বরিশাল ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের দুটি দল এক ঘণ্টারও বে‌শি সময় চেষ্টা চালিয়ে ওই কিশোরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

আহত মো. শিপন নগরীর ৫ নম্বর ওয়া‌র্ডের তিন নম্বর পলাশপুর এলাকার বাসিন্দা।

প্রত্যক্ষদর্শী শিক্ষার্থী জিসান বলেন, ‘আমি শিপনের কাছ থেকে রস কিনে খাচ্ছিলাম। তখন শিপন ডান হাত দিয়ে মেশিন পরিষ্কার করছিলেন এবং পাশের দোকানদার বন্ধু আকিবের সঙ্গে কথা বলছিলেন। একপর্যায়ে হঠাৎ শিপনের ডান হাতের বাহু পর্যন্ত মেশিনের মধ্যে ঢুকে আটকে যায়।

‘ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিসকে কল দিলে তাদের একটি দল ঘণ্টাব্যাপী চেষ্টা চালিয়ে মেশিন খুলে শিপনকে উদ্ধার করে। পরে অ্যাম্বুলেন্সে করে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।’

বরিশাল ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সহকারী পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) বেলাল উদ্দিন জানান, দুটি টিম নিয়ে এক ঘণ্টারও বেশি সময় চেষ্টা চালিয়ে তাকে উদ্ধার করেছি। তার হাতের বাহু পর্যন্ত ঢুকে যাওয়ায় খুব সাবধানে উদ্ধার কাজ পরিচালনা করতে হয়েছে। অভিযানে ভারী মেশিন ব্যবহার করা অসম্ভব ছিল তাই ছোট যন্ত্রাংশের মাধ্যমে মেশিন খুলে হাত বের করা হয়েছে।

ব‌রিশাল শের ই বাংলা মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ হাসপাতা‌লের প‌রিচালক এইচ এম সাইফুল ইসলাম ব‌লেন, আহ‌তের চি‌কিৎসা চল‌ছে। বিস্তা‌রিত পরে বলা যাবে।

আরও পড়ুন:
পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় চিকিৎসাধীন নারীর মৃত্যু
খিলগাঁও ফ্লাইওভারে গেল যুবকের প্রাণ
বিকল ট্রেন উদ্ধার, দেড় ঘণ্টা পর চালু সিলেটের রেলপথ
ট্রাকচাপায় অটোরিকশাযাত্রী মা-ছেলে নিহত
সিগন্যালবারে আঘাত লেগে ট্রেনযাত্রী নিহত

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Two workers died in the septic tank

সেপটিক ট্যাংকে প্রাণ গেল দুই শ্রমিকের

সেপটিক ট্যাংকে প্রাণ গেল দুই শ্রমিকের
ওসি জানান, গদাইরচর আছিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার সেপটিক ট্যাংকে শ্রমিকরা কাজ করার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। আরেকজন শ্রমিক অসুস্থ হয়েছেন। তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নরসিংদী সদরে সেপটিক ট্যাংকে কাজ করার সময় দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

উপজেলা মাধবদীর নুরালাপুর ইউনিয়নে সোমবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুজ্জামান।

তিনি জানান, গদাইরচর আছিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার সেপটিক ট্যাংকে শ্রমিকরা কাজ করার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। আরেকজন শ্রমিক অসুস্থ হয়েছেন। তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মৃত শ্রমিকদের পরিচয় নিশ্চিত করেননি ওসি।

আরও পড়ুন:
সেপটিক ট্যাংকে নারীর মরদেহ
ডিএনসিসির সব ভবনে বসাতে হবে সেপটিক ট্যাংক
সেপটিক ট্যাংকে পড়ে নারীর মৃত্যু
সেপটিক ট্যাংকে গৃহবধূর গলাকাটা মরদেহ
সেপটিক ট্যাংকের গ্যাসে প্রাণ হারালেন ২ শ্রমিক

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Student injured in bike collision 2 hours road blockade

বাইকের ধাক্কায় শিক্ষার্থী আহত, ২ ঘণ্টা সড়ক অবরোধ

বাইকের ধাক্কায় শিক্ষার্থী আহত, ২ ঘণ্টা সড়ক অবরোধ
সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী কামরুল হাসান সরকার বলেন, ‘সড়ক অবরোধের খবর পেয়ে আমি তাৎক্ষণিক কলেজ কর্তৃপক্ষকে সঙ্গে নিয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছি। কলেজের সামনে দুটি ও হাসপাতালের সামনে দুটি নতুন স্পিডব্রেকার নির্মাণ করা হবে বলে তাদের জানিয়েছি। পরে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ তুলে নেন।’

দিনাজপুর শহরে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজের এক ছাত্রী আহতের ঘটনায় ২ ঘণ্টা ধরে দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ সড়ক আটকে রাখেন সহপাঠীরা।

এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যালের সামনে সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত শিক্ষার্থীর নাম হুমায়রা ফেরদৌস প্রমি। তিনি ২৯তম ব্যাচের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী। ওই মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালেই তিনি চিকিৎসাধীন।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (অপারেশন) গোলাম মওলা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে জানান, দুপুরে কলেজের ফটকের সামনে রাস্তা পার হওয়ার সময় বাইকের ধাক্কায় আহত হন প্রমি। তখনই অন্য শিক্ষার্থীরা বাইকচালক মোমিনুল ইসলামকে আটক করে। প্রমিকে হাসপাতালে পাঠানোর পর শিক্ষার্থীরা কলেজ ও হাসপাতালের সামনের স্পিডব্রেকারের দাবিতে সড়ক আটকে বিক্ষোভ করেন।

পরে কলেজের অধ্যক্ষ মোমেনুল হক, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী কামরুল হাসান সরকার ও দিনাজপুর কোতোয়ালি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন। ২ ঘণ্টা পর তারা সড়ক ছেড়ে চলে যান।

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী কামরুল হাসান সরকার বলেন, ‘সড়ক অবরোধের খবর পেয়ে আমি তাৎক্ষণিক কলেজ কর্তৃপক্ষকে সঙ্গে নিয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছি। কলেজের সামনে দুটি ও হাসপাতালের সামনে দুটি নতুন স্পিডব্রেকার নির্মাণ করা হবে বলে তাদের জানিয়েছি। পরে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ তুলে নেন।’

আরও পড়ুন:
শ্রমিকনেতার ওপর হামলা, সড়ক অবরোধ
কুবি শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ
আ. লীগের কমিটি নিয়ে বিরোধে সড়ক অবরোধ
ইন্টার্নশিপ ও মাইগ্রেশনের দাবিতে শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ
দুই জেলায় পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The body of the missing child was recovered from the boat

নৌকা থেকে পড়ে নিখোঁজ শিশুর মরদেহ উদ্ধার

নৌকা থেকে পড়ে নিখোঁজ শিশুর মরদেহ উদ্ধার প্রতীকী ছবি
শিশুর বাবা মামুন সরদার বলেন, ‘রোববার সকাল সাড়ে ৯টায় নদীতে পেতে রাখা জাল তুলছিলাম। নৌকায় আমার স্ত্রী সুমী বেগম ও একমাত্র ছেলে হাসান ছিল। আমার সঙ্গে স্ত্রীও নৌকায় জাল তুলছিল। তখন খেলতে খেলতে হঠাৎ বাচ্চাটা পানিতে পড়ে যায়।’

নৌকা থেকে পড়ে ঝালকাঠির বাসন্ডা নদীতে ডুবে যাওয়া দেড় বছরের শিশু হাসানের মরদেহ মিলেছে।

পৌর এলাকার নেছারাবাদ মহিলা মাদ্রাসার সামনে বাসন্ডার তীরে সোমবার দুপুরে মরদেহটি ভেসে উঠলে স্থানীয়রা তা উদ্ধার করে।

পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুল কুদ্দুস হাওলাদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শিশুর বাবা মামুন সরদার বলেন, ‘রোববার সকাল সাড়ে ৯টায় নদীতে পেতে রাখা জাল তুলছিলাম। নৌকায় আমার স্ত্রী সুমী বেগম ও একমাত্র ছেলে হাসান ছিল। আমার সঙ্গে স্ত্রীও নৌকায় জাল তুলছিল। তখন খেলতে খেলতে হঠাৎ বাচ্চাটা পানিতে পড়ে যায়।’

তিনি জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে সোমবার দুপুরে গিয়ে ছেলের মরদেহ পায়।

আরও পড়ুন:
মিরসরাইয়ে ঝরনায় তলিয়ে দুই ছাত্রের মৃত্যু, নিখোঁজ ১
‘দুই মেয়েকে নিয়ে ঝাঁপ দেন মা’
বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকে ডুবে ছাত্রের মৃত্যু
তিস্তার ক্যানেলে নিখোঁজ স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার
পুকুরে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু

মন্তব্য

বাংলাদেশ
5 injured in clashes and vandalism over eating jhalamuri

ঝালমুড়ি খাওয়া নিয়ে দফায় দফায় সংঘর্ষ-ভাঙচুর, আহত ৫

ঝালমুড়ি খাওয়া নিয়ে দফায় দফায় সংঘর্ষ-ভাঙচুর, আহত ৫
ওসি মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা জানান, ২ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর মো. অলিউল্লাহ ও বর্তমান কাউন্সিলর হুমায়ুন কবিরের লোকজনের মধ্যে ঝালমুড়ি খাওয়াকে কেন্দ্র করে তর্ক-বিতর্ক হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়ায়।

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরের পৌর এলাকার ঝালমুড়ি খাওয়াকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

রোববার সন্ধ্যায় এবং সোমবার দুপুরে কুলিয়ারচর পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের নোয়াগাঁও ও বেপারীপাড়ায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ সময় বেশকিছু বাড়িঘর ও দোকানপাটে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ৫/৬ জন আহত হয়েছেন।

কুলিয়ারচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা নিউজবাংলাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, রোববার সন্ধ্যায় ২ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর মো. অলিউল্লাহ ও বর্তমান কাউন্সিলর হুমায়ুন কবিরের লোকজনের মধ্যে ঝালমুড়ি খাওয়াকে কেন্দ্র করে তর্ক-বিতর্ক হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়ায়।

পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে আজকে (সোমবার) দুপুরে আবারও তাদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পুলিশ উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ দেয়নি উল্লেখ করে তিনি বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কুলিয়ারচর পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর মো. অলিউল্লাহ নিউজবাংলাকে বলেন, ‘রোববার সন্ধ্যায় বাড়ির পাশে একটি দোকানে আমার ছেলে আলভী ও ভাতিজা জনি ঝালমুড়ি খেতে যায়। এ সময় বর্তমান কাউন্সিলর হুমায়ুন কবিরের ভাতিজা হাবিব, মামাতো ভাই সুজনসহ বেশসহ কয়েকজন একই দোকানে ঝালমুড়ি খেতে আসে। পরে এসে তারা আগে খেতে চাইলে এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে তর্ক-বিতর্ক হয়।

‘এক পর্যায়ে তারা আমার ছেলে এবং ভাতিজা ওপর হামলা করে। স্থানীয়রা এসে তাদের ধাওয়া দেয়। চলে যাওয়ার পথে আমার বড় ভাই জালালের দোকানে হামলা করে ভাঙচুর ও লুটপাট করে তারা।’

তিনি আরও বলেন, হুমায়ুন কবিরের সঙ্গে কোনো বিরোধ নাই। তাহলে কী নিয়ে ঝামেলা? এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘তার লোকজন এলাকায় মাদক কারবার পরিচালনা করে আর আমরা সেগুলোর প্রতিবাদ করি। এ নিয়ে আমাদের প্রতি তাদের ক্ষোভ রয়েছে।’

এ বিষয়ে কুলিয়ারচর পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর হুমায়ুন কবির বলেন, ‘তার লোকজনের সঙ্গে আমার লোকজনের কোনো সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেনি। সংঘর্ষ হয়েছে স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে।

‘রোববার রাতে ঝালমুড়ি ও ফুচকার দোকানদার আল-আমিনের দোকানে বেশ কয়েকটি মেয়ে ফুচকা খেতে আসে। এ সময় সাবেক কাউন্সিলর অলিউল্লাহর ছেলে আর ভাতিজা এসে তাদেরকে উত্ত্যক্ত করে। দোকানদার বিষয়টিতে প্রতিবাদ করলে তার তাকে মারধর করে। এতে স্থানীয়রা উত্তেজিত হয়ে তাদেরকে ধাওয়া দেয়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।’

আরও পড়ুন:
দুই ফেরির সংঘর্ষ, গাড়িচাপায় যুবক নিহত
ঢাল-কাতরা নিয়ে সংঘর্ষ, থামাতে সাউন্ড গ্রেনেড
তিন গাড়ির সংঘর্ষে নিহত ১
সিদ্ধিরগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে এলাকাবাসীর সংঘর্ষ
বরিশাল-ভোলার সীমানায় সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধসহ আহত ১২

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Bayazid remanded in custody

পদ্মা সেতুর নাট খুলে গ্রেপ্তার বাইজীদ রিমান্ডে

পদ্মা সেতুর নাট খুলে গ্রেপ্তার বাইজীদ রিমান্ডে পদ্মা সেতুতে উঠে রেলিংয়ের নাট খুলে টিকটক ভিডিও বানান বাইজীদ। ছবি: সংগৃহীত
পদ্মা সেতুতে যান চলাচল শুরুর দিন রোববার রেলিংয়ের নাট খোলার ভিডিও টিকটকে ছড়িয়ে সন্ধ্যায় সিআইডির হাতে গ্রেপ্তার হন এক যুবক। পরে জানা যায়, তিনি বায়েজিদ তালহা নামে পরিচিত, তবে তার জাতীয় পরিচয়পত্রের নাম মো. বাইজীদ। তার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে।

পদ্মা সেতুর নাট খুলে টিকটক করা যুবক বাইজীদকে সাত দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।

শরীয়তপুরের মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক মো. সালেহুজ্জামান সোমবার বিকেলে তাকে রিমান্ডে পাঠান।

আদালতের কোর্ট পরিদর্শক মো. জাহাঙ্গীর নিউজবাংলাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পদ্মা সেতুতে যান চলাচল শুরুর দিন রোববার রেলিংয়ের নাট খোলার ভিডিও টিকটকে ছড়িয়ে সন্ধ্যায় সিআইডির হাতে গ্রেপ্তার হন এক যুবক। পরে জানা যায়, তিনি বায়েজিদ তালহা নামে পরিচিত, তবে তার জাতীয় পরিচয়পত্রের নাম মো. বাইজীদ। তার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে।

আইনটির যে ধারায় তার নামে মামলা হয়েছে, সে ধারায় এ ধরনের অপরাধের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) মনে করছে, সেতুর ওপরের রেলিংয়ের ইস্পাতের পাতের সংযোগস্থলের নাট খোলা নিছক খেয়ালের ছলে হয়নি; এটা পরিকল্পিত।

কী আছে বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৫ ধারায়

বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৫ ধারায় ‘অন্তর্ঘাতমূলক’ (স্যাবোটাজ) কর্মকাণ্ডের ব্যাখ্যা ও শাস্তির উল্লেখ রয়েছে।

এই আইনের ১৫(খ) ধারায় বলা হয়, কোনো রেলপথ, রোপওয়ে, রাস্তা, খাল, সেতু, কালভার্ট, বন্দর, ডকইয়ার্ড, লাইটহাউস, বিমানবন্দর, টেলিগ্রাফ বা টেলিফোনের লাইন অথবা টেলিভিশন বা বেতার স্থাপনার দক্ষতা বিনষ্ট বা ক্ষতিসাধনের মতো কাজ করা যাবে না।

এ ধরনের অপরাধের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। এ ছাড়া যাবজ্জীবন বা ১৪ বছর পর্যন্ত সশ্রম কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে আইনে।


আরও পড়ুন:পদ্মা সেতুতে নাট খোলা বাইজীদ পটুয়াখালীর, করতেন ছাত্রদ

বাইজীদ তালহার বাড়ি পটুয়াখালী সদর উপজেলার তেলীখালী গ্রামে। একসময়ের ছাত্রদলকর্মী বাইজীদ বর্তমানে ঢাকায় ব্যবসার সঙ্গে জড়িত বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী ও পটুয়াখালী বিএনপিসংশ্লিষ্টরা।

তারা বলছেন, বাইজীদ অতীতে ছাত্রদলের সক্রিয় কর্মী ছিলেন। পটুয়াখালী জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপ‌তি গাজী আশফাকুর রহমান বিপ্লবের সময়ে বিএন‌পি ও ছাত্রদলের মি‌ছিল-মি‌টিংয়ে নিয়মিত অংশ নিতেন তিনি।

পটুয়াখালী জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আল-হেলাল নয়ন নিউজবাংলাকে বলেন, ‘বাইজীদ আগে পটুয়াখালীতে ছাত্রদলের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তবে তিনি অনেক দিন ধরে এলাকায় নেই। এখন ঢাকায় রাজনীতি করেন কি না তা জা‌নি না। ব্যক্তির অন্যায় অপরাধ দল কখনই দায় নেবে না।’

আরও পড়ুন:
শুধু হাত দিয়ে পদ্মা সেতুর নাট খোলা অসম্ভব: সিআইডি
শরীয়তপুর থেকে ফিরতি পথে বিপাকে ঢাকার বাইকাররা
পদ্মা সেতু জাতীয় সম্পদ, বিরোধীরা জাতির শত্রু: হাইকোর্ট
নিষেধাজ্ঞার পরও বাইকে পদ্মা সেতু পাড়ি দেয়ার চেষ্টা
প্রথম দিনে পদ্মা সেতুতে টোল ২ কোটি ৯ লাখ টাকা

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Polytechnic student dies in Mahananda

মহানন্দায় নেমে পলিটেকনিক শিক্ষার্থীর মৃত্যু

মহানন্দায় নেমে পলিটেকনিক শিক্ষার্থীর মৃত্যু
ওসি মোজাফফর হোসেন জানান, সোমবার বেলা ১১টার দিকে মাসুদ রানা তার দুই বন্ধুকে নিয়ে নদীর সিএন্ডবি ঘাটে গোসল করতে নামে। রাকিব হোসেন ও আবু তালিব নামে দুই শিক্ষার্থী সাঁতার কেটে নদী থেকে উঠতে পারলেও মাসুদ রানা উঠে না আসায় ফায়ার সার্ভিসকে জানানো হয়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের মহানন্দা নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

নদীর সিএন্ডবি ঘাট এলাকা থেকে সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার হয়।

মৃত মাসুদ রানা রাজশাহী মহানগরের তেরখাদিয়া এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ইলেকট্রোনিকস বিভাগে পড়তেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাফফর হোসেন জানান, সোমবার বেলা ১১টার দিকে মাসুদ রানা তার দুই বন্ধুকে নিয়ে নদীর সিএন্ডবি ঘাটে গোসল করতে নামে। রাকিব হোসেন ও আবু তালিব নামে দুই শিক্ষার্থী সাঁতার কেটে নদী থেকে উঠতে পারলেও মাসুদ রানা উঠে না আসায় ফায়ার সার্ভিসকে জানানো হয়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার ফরিদ উদ্দিন জানান, রাজশাহী থেকে আসা ডুবরি দলের চেষ্টায় কিছুক্ষণ আগে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে পরে বিস্তারিত জানানো হবে।

আরও পড়ুন:
নিখোঁজ ছাত্রলীগ নেতার মরদেহ উদ্ধার
চিকিৎসা নিতে বেরিয়ে ১১ দিন ধরে নিখোঁজ
‘সাগরে ভেসে চেন্নাই যাওয়া’ ফিরোজের তথ্যে বহু অসংগতি
নিখোঁজ কুয়াকাটায়, চেন্নাইয়ে সন্ধান নিয়ে রহস্য
বাবা-মায়ের সঙ্গে অভিমান করে নিরুদ্দেশ হয়েছিল চার বোন

মন্তব্য

p
উপরে