নাটোরে শুরু হচ্ছে ৩ দিনের আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব

player
নাটোরে শুরু হচ্ছে ৩ দিনের আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব

উৎসব প্রযোজক হেমন্ত সাদীক জানান, প্রয়াত লেখক হাসান আজিজুল হকের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এবারের উৎসবে তিনটি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। এ ছাড়া সোমবার আমন্ত্রিত চলচ্চিত্র বিভাগে প্রদর্শিত হবে এন রাশেদ চৌধুরী নির্মিত চলচ্চিত্র চন্দ্রাবতী কথা।

লেটস সিনেমা স্লোগানে এবার নাটোরে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ‘গ্লোবাল ইয়ুথ ফিল্ম ফেস্টিভাল বাংলাদেশ’।

‘জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড’ পাওয়া দেশের চলচ্চিত্র সংসদ সিনেমা বাংলাদেশের আয়োজনে ২৬ থেকে ২৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই উৎসব চলবে।

নাটোর জেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত এই উৎসবে দেশ-বিদেশের ৭১টি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে।

উৎসবের স্থানীয় আয়োজক নাটোরের চলচ্চিত্র সংসদ ‘নাটোর ফিল্ম ক্লাব’।

লক্ষ্মীপুর, রংপুর, ময়মনসিংহ ও বান্দরবানের পর এটি এই উৎসবের পঞ্চম আসর।

রোববার সকালে উৎসবের উদ্বোধন করবেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। উৎসবসংশ্লিষ্ট নানা আয়োজনে উপস্থিত থাকবেন খ্যাতনামা চিত্রনির্মাতা আবু সাইয়িদ, গিয়াসউদ্দিন সেলিম, আরিফুর রহমানসহ অনেকে।

উৎসবের আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা বিভাগে ১০১টি দেশের তরুণদের নির্মিত ১ হাজার ৪৮০টি চলচ্চিত্র জমা পড়েছিল।

উৎসবের বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব সৈয়দ সালাউদ্দিন জাকি, নির্মাতা প্রসূন রহমান, জসিম আহমেদ, বিজন ইমতিয়াজ, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অফ ফিল্ম ক্রিটিকস (ফিপরেস্কি) সদস্য সাদিয়া খালিদ ও স্পেনের স্বনামধন্য নির্মাতা ক্রিস্টিনা ট্রেনাস।

উৎসব প্রযোজক হেমন্ত সাদীক জানান, প্রয়াত লেখক হাসান আজিজুল হকের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এবারের উৎসবে তিনটি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে।

এগুলো হলো হাসান আজিজুল হকের গল্প অবলম্বনে আকরাম খান নির্মিত চলচ্চিত্র খাঁচা, তার জীবন ও কর্ম অবলম্বনে প্রসূন রহমান নির্মিত তথ্যচিত্র এই পুরাতন আখরগুলি ও আহসান কবীর লিটন নির্মিত গল্পলোকের চিত্রকর

প্রদর্শনী শেষে সংশ্লিষ্ট পরিচালক ও কলাকুশলীরা দর্শকের সঙ্গে প্রশ্নোত্তর সেশনে অংশ নেবেন।

এ ছাড়া সোমবার আমন্ত্রিত চলচ্চিত্র বিভাগে প্রদর্শিত হবে এন রাশেদ চৌধুরী নির্মিত চলচ্চিত্র চন্দ্রাবতী কথা

উৎসব পরিচালক জিসান মাহাদি জানান, ২০১৮ সাল থেকে ভারতীয় উপমহাদেশের চলচ্চিত্রের পথিকৃৎ হীরালাল সেনের নামে একটি পুরস্কারের প্রবর্তন করেছে গ্লোবাল ইয়ুথ ফিল্ম ফেস্টিভাল বাংলাদেশ।

এবার বাংলাদেশি তরুণদের নির্মিত দুই শতাধিক চলচ্চিত্র জমা পড়েছে ‘হীরালাল সেন শ্রেষ্ঠ বাংলাদেশী চলচ্চিত্র’ বিভাগে। এর মধ্য থেকে প্রতিযোগিতা বিভাগে নির্বাচিত ১৭টি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে।

এ ছাড়া উৎসবের অংশ হিসেবে অনুষ্ঠিত হবে চারটি চলচ্চিত্র নির্মাণবিষয়ক মাস্টারক্লাস। এতে স্ক্রিপ্ট রাইটিং, আর্ট অফ ডিরেকশন, প্রডাকশন ডিজাইন এবং ডিস্ট্রিবিউশন নিয়ে আলোচনা করবেন বরেণ্য চিত্রনির্মাতা ও প্রযোজকরা।

২৮ ডিসেম্বর সমাপনী দিনে বিচারকের রায়ে পুরস্কার পাওয়া শ্রেষ্ঠ সাতটি চলচ্চিত্রের নাম ঘোষণা করা হবে।

উৎসবে প্রতিদিন তিনটি করে প্রদর্শনী হবে। উৎসবের চলচ্চিত্র দেখতে টিকিটের দরকার নেই বলে জানিয়েছেন আয়োজকরা।

আরও পড়ুন:
শুরু হচ্ছে ৭ দিনের ইয়ুথ বাংলা চলচ্চিত্র উৎসব
ইডফা’য় কামারের ‌‘অন্যদিন’
তৃতীয় বিজ্ঞান চলচ্চিত্র উৎসব শুরু শুক্রবার
বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে দেশের তিন সিনেমা
শুরু হচ্ছে কান, উদ্বোধনে থাকছেন না সাদ-বাঁধনরা

শেয়ার করুন

মন্তব্য

২৭ জানুয়ারি আসছে সিয়াম-বুবলীর ‘টান’

২৭ জানুয়ারি আসছে সিয়াম-বুবলীর ‘টান’

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় দুই অভিনয়শিল্পী সিয়াম ও বুবলী। ছবি: সংগৃহীত

সিনেমাটি নিয়ে বুবলী নিজেও বেশ উচ্ছ্বসিত। তিনি বলেন, ‘টান’-এর টিমটা আমার জন্য নতুন হলেও মানিয়ে নিতে আমার কোনো সমস্যাই হয়নি। রাফি ভাই খুব সুন্দর করে দৃশ্যগুলো বুঝিয়ে দিতেন। আর সহশিল্পী হিসেবে সিয়াম এত চমৎকার যে, আমার মনেই হয়নি তার সঙ্গে আমি প্রথম কাজ করছি।’

প্রথমবারের মতো জুটিবদ্ধ হয়ে টান নামের একটি ওয়েব ফিল্মে কাজ করেছেন দেশের জনপ্রিয় দুই অভিনয়শিল্পী সিয়াম আহমেদ ও শবনম বুবলী।

রায়হান রাফি পরিচালিত সিনেমাটি ২৭ জানুয়ারি মুক্তি পাচ্ছে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম চরকিতে।

চরকির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবার রাত ৮টা থেকে দেখা যাবে টান

গত ২০ জানুয়ারি সিনেমাটির টিজার প্রকাশের পর সিয়াম-বুবলীর রসায়ন ও লুক বেশ নজর কেড়েছে দর্শকদের।

টান-এ সিয়ামকে নতুন করে আবিষ্কার করতে পারবে দর্শক। সিনেমাটি নিয়ে এ চিত্রনায়ক নিজেও বেশ আশাবাদী। তিনি বলেন, ‘টান এ বছরে আমার প্রথম সিনেমা। সিনেমাটিতে আমাদের অনেকের অনেক প্রথম কিছু নিয়ে নির্মিত হয়েছে। এর আগেও রাফির সঙ্গে আমার কাজ হয়েছে, কিন্তু বুবলীর সঙ্গে আমার সেটে গিয়েই পরিচয়। তারপরও সবাইকে অবাক করে দিয়ে বুবলী অসাধারণ কাজ করেছেন। আমার বিশ্বাস দর্শক একদম ভিন্ন ধরনের একটি কনটেন্ট দেখবে।’

২৭ জানুয়ারি আসছে সিয়াম-বুবলীর ‘টান’
‘টান’-এর শুটিং সেটে সিয়াম ও বুবলী। ছবি: সংগৃহীত

সিনেমাটি নিয়ে বুবলী নিজেও বেশ উচ্ছ্বসিত। তিনি বলেন, টান-এর টিমটা আমার জন্য নতুন হলেও মানিয়ে নিতে আমার কোনো সমস্যাই হয়নি। রাফি ভাই খুব সুন্দর করে দৃশ্যগুলো বুঝিয়ে দিতেন। আর সহশিল্পী হিসেবে সিয়াম এত চমৎকার যে, আমার মনেই হয়নি তার সঙ্গে আমি প্রথম কাজ করছি।’

পরিচালক রায়হান রাফি বলেন, ‘চরকির সঙ্গে এটা আমার দ্বিতীয় কাজ। এই সিনেমার গল্পটা নিয়ে আমি প্রথম থেকেই এক্সসাইটেড ছিলাম। শিল্পীসহ সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতার কারণে কাজটা অল্প সময়ে শেষ করা সম্ভব হয়েছে। আপনারা টান দেখুন, হতাশ হবেন না।’

২৭ জানুয়ারি আসছে সিয়াম-বুবলীর ‘টান’
‘টান’-এর শুটিং সেটে সিয়াম ও বুবলী। ছবি: সংগৃহীত

চরকির প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা রেদওয়ান রনি বলেন, ‘বছরের শুরুতেই আমরা ঘোষণা দিয়েছিলাম যে এ বছর চরকি দর্শকদের অসাধারণ গল্পের কিছু সিনেমা ও সিরিজ উপহার দেবে। প্রথম সিরিজ শাটিকাপ-এ দর্শকদের যে ভালোবাসা পেয়েছি তাতে আমরা অভিভূত। আশা করছি, প্রথম সিনেমা টানও দর্শকদের মাঝে এমন দুর্দান্ত সাড়া ফেলবে।’

সিয়াম-বুবলী ছাড়াও সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন সোহেল মণ্ডল, নীলাঞ্জনা নীলা, ফারজানা ছবিসহ অনেকে।

আরও পড়ুন:
শুরু হচ্ছে ৭ দিনের ইয়ুথ বাংলা চলচ্চিত্র উৎসব
ইডফা’য় কামারের ‌‘অন্যদিন’
তৃতীয় বিজ্ঞান চলচ্চিত্র উৎসব শুরু শুক্রবার
বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে দেশের তিন সিনেমা
শুরু হচ্ছে কান, উদ্বোধনে থাকছেন না সাদ-বাঁধনরা

শেয়ার করুন

জানের ভয়ে চলচ্চিত্র থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছিলাম: পপি

জানের ভয়ে চলচ্চিত্র থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছিলাম: পপি

জাতীয় চলচ্চিত্র প্রাপ্ত অভিনেত্রী সাদিকা পারভিন পপি। ছবি: নিউজবাংলা কোলাজ

চলচ্চিত্র থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেয়ার কারণ জানিয়ে পপি বলেন, ‘আমার মতো শিল্পীকে, যে তিন-তিনবার ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড পেয়েছি, আমাকে সদস্যপদ বাতিলের জন্য চিঠি দেয়া হয়েছে। এত বছর কাজ করার পর এটা একটা শিল্পীর জন্য কতটুকু অপমানের সেটা আমি বুঝতে পারি বা আমার মতো শিল্পী যারা ভিকটিম হয়েছে তারা। এই নোংরামির কারণে আমি আমার মানসম্মান নিয়ে থাকার জন্য বা আমার জানের ভয় ছিল- সবকিছু মিলে আমি নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছি চলচ্চিত্র থেকে, আপনাদের কাছ থেকে।

দীর্ঘদিনের আড়াল ভেঙে প্রকাশ্যে এলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী সাদিকা পারভিন পপি। বুধবার এক ভিডিও বার্তায় আসন্ন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের জন্য ভোট চেয়ে জানালেন, এতদিন জানের ভয়ে চলচ্চিত্র থেকে নিজেকে গুটিয়ে রেখেছেন।

ফেসবুক, ইউটিউবে প্রকাশ হওয়া সেই ভিডিও বার্তার শুরুতে সবার সুস্থতা কামনা করে পপি বলেন, ‘আমাদের শ্রদ্ধেয় বড় ভাই ইলিয়াস কাঞ্চন, একুশে পদকসহ একাধিক পদকপ্রাপ্ত এবং নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের একক পৃষ্ঠপোষক, আমাদের জনগণের কাছে পরীক্ষিত একজন সৈনিক ইলিয়াস কাঞ্চন, যিনি একজন সফল হিরো, প্রযোজক, পরিচালক। আর সঙ্গে আছেন আমার বোন নিপুণ, যার মনটা অনেক বড়। আরও সঙ্গে আছেন আমার বন্ধু, আমার কলিগ আমার হিরো আপনাদের সবার প্রিয় নায়ক রিয়াজ। কাঞ্চন ভাই এবং নিপুণ প্যানেলে যারা যারা আছেন সকলকে জানাচ্ছি আমার তরফ থেকে অনেক অনেক শুভ কামনা-ভালোবাসা।’

তিনি বলেন, ‘ভেবেছিলাম আর কখনোই ক্যামেরার সামনে আসব না, কিন্তু একজন শিল্পী হিসেবে নিজের কিছু দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে আজকে কিছু কথা না বললেই না। দীর্ঘ ২৬ বছর ইন্ডাস্ট্রিতে অনেক সুনামের সঙ্গে কাজ করার চেষ্টা করেছি। দেশ-বিদেশ থেকে বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করার জন্য অনেক কাজ করেছি। তিনবার ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড পেয়েছি। আজকে অনেক কষ্ট নিয়ে কথাগুলো বলা, আজ আমি কোথায়? আমি আছি, আমি আছি আপনাদের মাঝেই, হয়তো ভাগ্যে থাকলে আবার ফিরব কাজে।’

কারও নাম উল্লেখ না করলেও চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির একজনের কারণে বারবার তাকে অপমানিত হতে হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘যে কথাটি বলতে চেয়েছিলাম, সেটি হচ্ছে বর্তমান সমিতির (চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি) একটিমাত্র ব্যক্তির কারণে, তার পলিটিকস, তার নোংরামি এবং অনেক রকম অপকর্মের অসহযোগিতা করার কারণে আমাকে বারবার অপমানিত হতে হয়েছে। শুধু আমি না, আমার মতো রিয়াজ, ফেরদৌস, পূর্ণিমা, নিপুণ আমাদের সকলকে ব্যবহার করে, আমাদের কাঁধে বন্দুক রেখে যে এই চেয়ারটিতে বসেছে, বসেই বিভিন্ন রকম অপকর্ম করার চেষ্টা করেছে, যেখানে আমি সায় দিইনি বা আমরা সায় দিইনি। যার কারণে আজকে আমি ভিকটিম এবং আমাকে অনেক অপমানিত হতে হয়েছে।’

চলচ্চিত্র থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেয়ার কারণ জানিয়ে কুলি খ্যাত এই চিত্রনায়িকা বলেন, ‘আমার মতো শিল্পীকে, যে তিন-তিনবার ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড পেয়েছি, সদস্যপদ বাতিলের জন্য চিঠি দেয়া হয়েছে। এত বছর কাজ করার পর এটা একটা শিল্পীর জন্য কতটুকু অপমানের সেটা আমি বুঝতে পারি বা আমার মতো শিল্পী যারা ভিকটিম হয়েছে তার। ১৮৪ জন শিল্পী যারা ভিকটিম হয়েছে তারা হয়তো আমার কষ্টটা বুঝতে পারবে বা আমিও তাদের কষ্টটা বুঝতে পারি। এই নোংরামির কারণে আমি আমার মানসম্মান নিয়ে থাকার জন্য বা আমার জানের ভয় ছিল- সবকিছু মিলে আমি নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছি চলচ্চিত্র থেকে, আপনাদের কাছ থেকে।

‘আমার কাছে সদস্যপদ বাতিলের চিঠিটা পর্যন্ত আছে। আমি যখন এটা পেয়েছি তখন আমি স্পিচলেস ছিলাম। তখনই সিদ্ধান্ত নিয়েছি এই নোংরামির মধ্যে আমি আর কখনো যাব না। যদি কখনো পরিবেশ ভালো হয়, এই নোংরা মানুষগুলো যদি সরে যায় ইন্ডাস্ট্রি থেকে তখনই আবার কাজ করব।’

এফডিসি নিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের কথা উল্লেখ করে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘আমরা সকলে জানি আমাদের এই এফডিসি আমাদের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের এফডিসি। আমাদের এই এফডিসি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নে গড়া এফডিসি। আমরা তাদের এ স্বপ্নকে বৃথা যেতে দিতে পারি না।’

আসন্ন শিল্পী সমিতির নির্বাচনে কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের জন্য ভোট চেয়ে পপি বলেন, ‘ছোট্ট করে হাত জোড় করে একটা কথা বলব, আমরা যে ভুলটা করেছি, আমাদের যে নির্বাচন আসছে সেই নির্বাচনে আপনারা সেই ভুলটা করবেন না। সঠিক মানুষ পছন্দ করে ভোটটা দেবেন। যাতে আমাদের চলচ্চিত্র বাঁচে। চলচ্চিত্র বাঁচলেই আমরা বাঁচব। আমরা পরিবর্তন চাই, আমরা কাজ চাই, তার জন্য আমার কাছে মনে হয়েছে, আমার কাজের অভিজ্ঞতা থেকে আমি বলছি, হয়তো আগে একটা ভুল করেছি, সেটা একটা ভুল মানুষকে আমরা সাপোর্ট করেছি, যেটার কারণে আজ অনেকগুলো মানুষ বিপদের মধ্যে। ইন্ডাস্ট্রি আজকে বিপদের মুখে, সমালোচনার মুখে। এগুলো থেকে মুক্তি পেতে হলে আমার কাছে মনে হয়েছে যে আমাদের পরীক্ষিত সৈনিক কাঞ্চন ভাই, নিপুণ, রিয়াজ, তায়েব ভাই যারা যারা এই প্যানেলে আছেন তাদেরকে একটা সুযোগ দেয়া উচিত ভালো কাজের জন্য।’

এই প্যানেল শিল্পীদের অসম্মান করবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয় অ্যাটলিস্ট শিল্পীর মূল্যায়ন করবে, কাজের মূল্যায়ন করবে, কাজ দিয়ে আমাদেরকে ব্যস্ত রাখার চেষ্টা করবে। অন্তত পক্ষে শিল্পীদের নিয়ে অসম্মান করবে না বা রাজনীতি করবে না। এই বিশ্বাসটুকু আমার আছে। প্লিজ আপনারা ইন্ডাস্ট্রিকে ভালোবাসলে আমাদের চলচ্চিত্রকে ভালোবাসলে, চলচ্চিত্রকে বাঁচাতে হলে অবশ্যই কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের যারা যারা আছেন সকলকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করুন।’

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২৮ জানুয়ারি। শিল্পী সমিতির নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে মিশা সওদাগর-জায়েদ খান এবং ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল।

আরও পড়ুন:
শুরু হচ্ছে ৭ দিনের ইয়ুথ বাংলা চলচ্চিত্র উৎসব
ইডফা’য় কামারের ‌‘অন্যদিন’
তৃতীয় বিজ্ঞান চলচ্চিত্র উৎসব শুরু শুক্রবার
বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে দেশের তিন সিনেমা
শুরু হচ্ছে কান, উদ্বোধনে থাকছেন না সাদ-বাঁধনরা

শেয়ার করুন

বিয়ে নিয়ে ভক্তের প্রশ্নে কী বললেন সোনাক্ষী

বিয়ে নিয়ে ভক্তের প্রশ্নে কী বললেন সোনাক্ষী

বলিউড অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা। ছবি: সংগৃহীত

গত বছরের শেষের দিকে যখন বলিউডে বিয়ের ধুম চলছিল, সে সময় শোনা যাচ্ছিল বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন সোনাক্ষী। পুরোনো প্রেমিকের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়তে রাজি হয়েছেন ‘দাবাং’ অভিনেত্রী।

প্রায়ই ইনস্টাগ্রামে প্রশ্ন-উত্তর সেশন করেন তারকারা, যেখানে ভক্ত-অনুরাগীদের নানা কৌতূহলের জবাব দেন তারা। সম্প্রতি সে রকমই একটি সেশনের পোস্ট করেছিলেন বলিউড অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা।

সেখানে নায়িকাকে নানা ধরনের প্রশ্ন করেন তার ভক্তরা। এর মধ্যে এক ভক্ত সোনাক্ষীকে প্রশ্ন করেন, সবাই তো বিয়ে করছে, আপনি কবে বিয়ে করবেন?

এমন প্রশ্নের জবাবে অভিনেত্রীর উত্তর, ‘সবার তো কোভিড হচ্ছে, তাহলে কি আমারও হওয়া উচিত।’

বিয়ে নিয়ে ভক্তের প্রশ্নে কী বললেন সোনাক্ষী
বলিউড অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা। ছবি: সংগৃহীত

এমন উত্তরে সোনাক্ষীর সেন্স অফ হিউমারের প্রশংসা করেছেন অনেকেই। খুব বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে অবশ্য বিয়ের প্রশ্নও এড়িয়ে গেছেন অভিনেত্রী।

গত বছরের শেষের দিকে যখন বলিউডে বিয়ের ধুম চলছিল, সে সময় শোনা যায় বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন সোনাক্ষী। পুরোনো প্রেমিকের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়তে রাজি হয়েছেন দাবাং অভিনেত্রী।

সূত্রের বরাত দিয়ে সে সময় ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়, তার বয়ফ্রেন্ড সেলিব্রেটি ম্যানেজার বান্টি সাজদেহকে বিয়ে করতে মত দিয়েছেন অভিনেত্রী।

বিয়ে নিয়ে ভক্তের প্রশ্নে কী বললেন সোনাক্ষী
সোনাক্ষী সিনহা ও বান্টি সাজদেহ। ছবি: সংগৃহীত

২০১২ সাল থেকে বান্টির সঙ্গে সম্পর্ক সোনাক্ষীর। নিজেদের মুখে কখনও সম্পর্কের কথা স্বীকার করেননি কেউই, তবে বলিউডের বিভিন্ন পার্টিতে একসঙ্গে হাজির হন তারা।

খবরে বলা হয়েছে, সোনাক্ষীর পরিবারও মেয়ের জন্য আদর্শ পাত্র হিসেবে বান্টিকে বেশ পছন্দ করে।

বান্টি সালমান খানের ঘনিষ্ঠ আত্মীয়। খান পরিবারের সূত্রেই সোনাক্ষীর সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার। সালমানের ছোট ভাই সোহেল খানের স্ত্রী সীমা খানের ভাই বান্টি।

একই সঙ্গে বিরাট কোহলি ও যুবরাজ সিংয়ের বন্ধুও বান্টি। প্রায়ই একসঙ্গে পার্টি করতে দেখা যায় তাদের।

বিয়ে নিয়ে ভক্তের প্রশ্নে কী বললেন সোনাক্ষী
বলিউড অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা। ছবি: সংগৃহীত

দাবাং সিনেমার শুটিং চলাকালেই সোনাক্ষী ও বান্টির সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মাঝে ২০১৬ সালে তাদের সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার খবর পাওয়া যায়। পরে জানা যায়, ফাটল ধরা সম্পর্ককে জোড়া লাগিয়েছেন তারা।

গত বছরের শেষের দিকে সোনাক্ষীর ঘনিষ্ঠ সূত্রটি জানান, বিয়ের এখনও ঢের দেরি। ২০২২ সালে তো নয়ই, বরং ২০২৩ কিংবা ২০২৪ সালে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে পারেন তারা।

আরও পড়ুন:
শুরু হচ্ছে ৭ দিনের ইয়ুথ বাংলা চলচ্চিত্র উৎসব
ইডফা’য় কামারের ‌‘অন্যদিন’
তৃতীয় বিজ্ঞান চলচ্চিত্র উৎসব শুরু শুক্রবার
বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে দেশের তিন সিনেমা
শুরু হচ্ছে কান, উদ্বোধনে থাকছেন না সাদ-বাঁধনরা

শেয়ার করুন

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে বাধা নেই: হাইকোর্ট

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে বাধা নেই: হাইকোর্ট

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে পরিচিত অনুষ্ঠানে নিপুণ-কাঞ্চন প্যানেল। ছবি: নিউজবাংলা

শাহ মনজুরুল হক নিউজবাংলাকে বলেন, ‘যেহেতু নির্বাচনের আর দুই দিন বাকি, সে জন্য আদালত নির্বাচন স্থগিত করেননি। তবে সম্পূরক রুল চেয়ে যে আবেদন ছিল, সেটি নথিভুক্ত করেছেন আদালত। পাশাপাশি নতুন করে ৮৭ জনের অন্তর্ভুক্তির আবেদন গ্রহণ করেছেন। এখন রুলের চুড়ান্ত শুনানি শেষে আদালত রায় ঘোষণা করবেন।’

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচন স্থগিত চেয়ে করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছে হাইকোর্ট। ফলে আগের তারিখ, অর্থাৎ আগামী ২৮ জানুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠানে কোনো বাধা থাকছে না।

বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. মাহমুদ হাসান তালুকদারের হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এ নির্দেশ দেয়।

আদালতের আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন শাহ মনজুরুল হক, অন্যদিকে চলচ্চিত্র সমিতির পক্ষে শুনানি করেন আহসানুল করিম ও নাহিদ সুলতানা যুথি। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দ কুমার রায়।

পরে শাহ মনজুরুল হক নিউজবাংলাকে বলেন, ‘যেহেতু নির্বাচনের আর দুই দিন বাকি, সে জন্য আদালত নির্বাচন স্থগিত করেননি। তবে সম্পূরক রুল চেয়ে যে আবেদন ছিল, সেটি নথিভুক্ত করেছেন আদালত। পাশাপাশি নতুন করে ৮৭ জনের অন্তর্ভুক্তির আবেদন গ্রহণ করেছেন। এখন রুলের চুড়ান্ত শুনানি শেষে আদালত রায় ঘোষণা করবেন।’

কোনো ধরেনের নোটিশ ছাড়া বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ১৮৪ জন পূর্ণ সদস্যকে সহযোগী সদস্য করা হয়। ফলে তারা ভোটার তালিকা থেকে বাদ যান তারা।

সমিতির এ সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে প্রথমে ১৬ জন হাইকোর্টে রিট করেন। ওই রিটের শুনানি নিয়ে গত ১১ জানুয়ারি শিল্পী সমিতির পুরোনো সদস্যদের সহযোগী সদস্য করা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করে হাইকোর্ট।

সংশ্লিষ্টদের ১০ দিনের মধ্যে এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

পরে আরও ৮৭ জন এ মামলায় অন্তর্ভুক্ত হতে এবং নির্বাচন স্থগিত চেয়ে আবেদন করেন। ওই আবেদনের আজকে শুানানি শেষে আদালত এ আদেশ দেয়।

আগামী শুক্রবার এফডিসির আর্টিস্ট স্টাডিরুমে অনুষ্ঠিত হবে ভোটগ্রহণ। সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে ভোটগ্রহণ। নামাজ ও মধ্যাহ্নভোজের জন্য বেলা ১টা থেকে ২টা পর্যন্ত বিরতি দেয়ার কথা রয়েছে।

আরও পড়ুন:
শুরু হচ্ছে ৭ দিনের ইয়ুথ বাংলা চলচ্চিত্র উৎসব
ইডফা’য় কামারের ‌‘অন্যদিন’
তৃতীয় বিজ্ঞান চলচ্চিত্র উৎসব শুরু শুক্রবার
বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে দেশের তিন সিনেমা
শুরু হচ্ছে কান, উদ্বোধনে থাকছেন না সাদ-বাঁধনরা

শেয়ার করুন

এবার বলিউডে আইটেম গানে সামান্থা

এবার বলিউডে আইটেম গানে সামান্থা

দক্ষিণী সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সামান্থা রুথ প্রভু। ছবি: নিউজবাংলা কোলাজ

ইতিমধ্যেই সামান্থার সঙ্গে ‘লাইগার’ টিমের আলোচনাও হয়েছে। সেই গানে তার সঙ্গে থাকবেন ‘লাইগার’-এর নায়ক দক্ষিণী তারকা বিজয় দেবেরাকোন্ডা।

গত ১৭ ডিসেম্বর মুক্তি পায় ভারতের দক্ষিণী সুপারস্টার আল্লু অর্জুন অভিনীত সিনেমা পুষ্পা: দ্য রাইজ। বক্স অফিসে ঝড় তোলা এই সিনেমাটিতেই প্রথমবারের মতো একটি আইটেম গানে নেচেছেন দক্ষিণী সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সামান্থা রুথ প্রভু।

গানটি যেমন তুমুল দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছে, তেমনই খোলামেলা দৃশ্যের জন্য সমালোচনার মুখেও পড়েছিলেন অভিনেত্রী। তিন মিনিট ৪৮ সেকেন্ডের এই গানটিতে নাচের জন্য ৫ কোটি রুপি পারিশ্রমিক দেয়া হয়েছে সামান্থাকে।

এবার নতুন খবর হচ্ছে বলিউড সিনেমায় আইটেম গানে দেখা যেতে পারে সামান্থাকে। ভারতীয় একাধিক সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, করণ জোহর প্রযোজিত লাইগার সিনেমায় এক আইটেম গানে নাচবেন তিনি।

এবার বলিউডে আইটেম গানে সামান্থা
দক্ষিণী সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সামান্থা রুথ প্রভু। ছবি: নিউজবাংলা কোলাজ

জানা যায়, ইতিমধ্যেই সামান্থার সঙ্গে লাইগার টিমের আলোচনাও হয়েছে। সেই গানে তার সঙ্গে থাকবেন লাইগারের নায়ক দক্ষিণী তারকা বিজয় দেবেরাকোন্ডা।

পরিচালক পুরী জগন্নাথ চান, সামান্থা এই আইটেম গানটি করুক, কিন্তু এ বিষয়ে এখনও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

লাইগার দিয়ে বলিউডে অভিষেক হচ্ছে বিজয়ের। এতে তার বিপরীতে দেখা যাবে অনন্যা পান্ডেকে। এ ছাড়া এই সিনেমা দিয়ে বলিউডের বড় পর্দায় নাম লেখাতে যাচ্ছেন বক্সিং লেজেন্ড মাইক টাইসন।

আরও পড়ুন:
শুরু হচ্ছে ৭ দিনের ইয়ুথ বাংলা চলচ্চিত্র উৎসব
ইডফা’য় কামারের ‌‘অন্যদিন’
তৃতীয় বিজ্ঞান চলচ্চিত্র উৎসব শুরু শুক্রবার
বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে দেশের তিন সিনেমা
শুরু হচ্ছে কান, উদ্বোধনে থাকছেন না সাদ-বাঁধনরা

শেয়ার করুন

ঢাকার রাস্তায় ‘ব্যালেরিনা’

ঢাকার রাস্তায় ‘ব্যালেরিনা’

রাজু ভাস্কর্যের সামনে মুবাশ্‌শীরা কামাল ইরা। ছবি: জয়িতা তৃষা

রাজধানীর বুকে এই ব্যালে নাচের সময় এক তরুণীর কিছু ছবি মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে আলোচনার কেন্দ্রে। ফেসবুকে নাচের বিভিন্ন ভঙ্গির ছবিতে মুগ্ধ ফেসবুক ব্যবহারকারীরা। শেয়ার হচ্ছে দেদার।  

পঞ্চদশ ও ষোড়শ শতাব্দীতে রেনেসাঁর সময়ে নাচের একটি ধরন ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়। পরে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পরে নাচের এই অনন্য কৌশল।

মূলত এটি একটি নৃত্য ও নৃত্যকলা কৌশলের এক সমন্বিত রূপ। ব্যালেতে নাচ, মূকাভিনয়, অভিনয় ও সংগীতের (কণ্ঠ ও যন্ত্র) সমন্বয়ে সৃষ্টি করা হয় শিল্প। ব্যালে এককভাবে বা অপেরার অংশ হিসেবে উপস্থাপন করা হয়। অভাবনীয় শারীরিক কৌশলের সঙ্গে সংগীতের এক অপূর্ব মিলন দেখা যায় এতে।

রাজধানীর বুকে এই ব্যালে নাচের সময় এক তরুণীর কিছু ছবি মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে আলোচনার কেন্দ্রে। ফেসবুকে নাচের বিভিন্ন ভঙ্গির ছবিতে মুগ্ধ ফেসবুক ব্যবহারকারীরা। শেয়ার হচ্ছে দেদার।

ছবিগুলো নিউজবাংলার নজরে এসেছে। ঘটনাটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে। ওই শিল্পীর নাম মুবাশ্‌শীরা কামাল ইরা। একজন ফটোগ্রাফার তুলেছেন ফেসবুকে শেয়ার হওয়া ছবিগুলো। তার নাম জয়িতা তৃষা।

নিউজবাংলাকে ইরা বলেন, ‘আমি তৃষার মডেল। ২৩ জানুয়ারি ছবিগুলো তোলা। দুই দিন পর ২৫ জানুয়ারি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপলোড হয়। সেদিন থেকে তৃষার সঙ্গে আমিও আলোচিত।’

ছবির নিচে নেটিজেনরা ব্যাপক কমেন্ট করছেন। প্রশংসায় ভাসাচ্ছেন ছবির কারিগরকে। বাদ যাচ্ছেন না মডেলও।

ঢাকার রাস্তায় ‘ব্যালেরিনা’

নিউজবাংলার কথা হয় তৃষার সঙ্গে। তার কাছ থেকেই ইরার সন্ধান মেলে।

তৃষা বলেন, ‘আমার জন্ম ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। এসএসসির পর ঢাকায় আসি। বিশ্ববিদ্যালয় শেষ করে ফটোগ্রাফিতে ডিপ্লোমা ও অ্যাডভান্স ডিপ্লোমা করি। চার বছর ধরে ফটোগ্রাফি করছি। ফ্রিল্যান্সিংয়ের পাশাপাশি নিয়মিত ফ্যাশন হাউসে ফটোশুট করি।

‘আমি মূলত পোর্ট্রেট ছবি তুলি। ভিন্ন কিছুর চিন্তা করতাম। ঢাকার রাস্তায় ব্যালে নাচ পরিবেশনের পরিকল্পনা হঠাৎ মাথায় আসে। নাম দিই ‘ব্যালেরিনা’। ইচ্ছা আছে ঢাকার আইকনিক জায়গাগুলোর সামনে ব্যালে নাচ অবস্থায় শিল্পীর ছবি তুলব।’

ঢাকার রাস্তায় ‘ব্যালেরিনা’

তৃষা আরও বলেন, ‘ইনস্টাগ্রামে অনেক ফটোগ্রাফারদের কাজ ফলো করি। সেখানে দেখি অনেকেই ব্যালে নাচটাকে সুন্দর করে ফুটিয়ে তোলে। ব্যালে চমৎকার একটা নাচের ফর্ম। বিদেশে দেখবেন অনেকেই ব্যালে নাচ শিখছে বা রাস্তায় এই নাচ করছে। বাচ্চারাও করে, দেখতে অনেক সুন্দর লাগে।’

বছরখানেক আগে এই পরিকল্পনা করেন জানিয়ে তৃষা আরও বলেন, ‘এমন কাউকে খুঁজছিলাম যার সাহায্যে কাজটা করতে পারব। ৫-৬ মাস আগে ফেসবুকের একটি গ্রুপে ইরার সঙ্গে পরিচয় হয়। আমার কাজ আর আইডিয়া শেয়ারে সে রাজি হয়ে যায়।’

ঢাকার রাস্তায় ‘ব্যালেরিনা’

তৃষার পর কথা হয় ইরার সঙ্গে। নিউজবাংলাকে ইরা বলেন, ‘পরিবারের সঙ্গে নওগাঁয় থাকি। তৃষার সঙ্গে কাজ করার জন্য ঢাকায় এসেছিলাম। তিন মাস আগে কাজ শুরু হয়। পরীক্ষামূলকভাবে ধানমন্ডির রাস্তায় কিছু ছবি তোলা হয়েছিল।’

এ প্রসঙ্গে তৃষা বলেন, ‘ওই কাজটি করে ভুলগুলো ধরতে পারি। সে কারণে আরও প্রস্তুতি নিই। পরে রাজু ভাস্কর্যের সামনে কাজটা করার সিদ্ধান্ত নিই।’

তৃষা আরও বলেন, ‘পরিকল্পনা অনুযায়ী ২৩ জানুয়ারি সকালে বের হই আমরা। ব্যস্ত এলাকা হওয়ায় ঠিকমতো কাজটা হচ্ছিল না। এই হর্ন বাজছে, চিৎকার, হাসি চলছেই। কিন্তু উপায় নেই। এসবের মধ্যেই ছবিগুলো তুলেছি। এর জন্য ইরাকে ধন্যবাদ। চারপাশের সবকিছু পাশ কাটিয়ে ও ঠিকই ফোকাস ধরে রেখেছিল।’

ইরাকে নিয়ে আরও কাজ করার ইচ্ছা জানিয়ে তৃষা বলেন, ‘ব্যালেরিনা’ নামের এই প্রজেক্ট চালিয়ে যাব।’

ইরা বলেন, ‘আমার আসলে জিমন্যাস্টিকস ভালো লাগে। আমার ইচ্ছা জিমন্যাস্টিকসের স্ট্রেন্থ এবং ব্যালে নাচের ফ্লেক্সিবিলিটি মিশিয়ে কাজ করা।’

মজার বিষয় হলো, ইরা এসব শিখেছে ঘরে বসেই। ইউটিউব তার শিক্ষক। অনুপ্রেরণা মা। এখন ঢাকায় মাঝেমধ্যে পারফরম্যান্স করেন।

ঢাকার রাস্তায় ‘ব্যালেরিনা’

ইরা বলেন, ‘প্রথম দিকে বাবা রাজি হতেন না। মা আমাকে সাহস জুগিয়েছে। কিছুটা এগোতে পেরেছি দেখে বাবাও তার জায়গা থেকে সরে এসেছেন।’

এমন নানা গল্পের মধ্য দিয়ে এগিয়েছে তৃষা-ইরার যুগলবন্দি। ভবিষ্যতে তাদের কাছ থেকে দারুণ কিছুর অপেক্ষায় থাকবে সংস্কৃতিমনারা।

তৃষার ক্যামেরা ফ্রেমে ইরার ফ্লেক্সিবল নাচের মুদ্রা তাক লাগিয়ে দিয়েছে নেটদুনিয়ার মানুষদের।

আরও পড়ুন:
শুরু হচ্ছে ৭ দিনের ইয়ুথ বাংলা চলচ্চিত্র উৎসব
ইডফা’য় কামারের ‌‘অন্যদিন’
তৃতীয় বিজ্ঞান চলচ্চিত্র উৎসব শুরু শুক্রবার
বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে দেশের তিন সিনেমা
শুরু হচ্ছে কান, উদ্বোধনে থাকছেন না সাদ-বাঁধনরা

শেয়ার করুন

২২ দফা ইশতেহার কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের

২২ দফা ইশতেহার কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে সামনে রেখে বুধবার রাজধানীর মগবাজারে ২২ দফা ইশতেহার প্রকাশ করেন ইলিয়াস কাঞ্চন। ছবি: নিউজবাংলা

রাজধানীর মগবাজারের একটি রেস্তোরাঁয় বুধবার ইশতেহার প্রকাশ করেন ইলিয়াস কাঞ্চন। ওই সময় তার পাশে ছিলেন প্যানেলের বিভিন্ন পদের প্রার্থীরা।

আগামী শুক্রবার অনুষ্ঠেয় চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে সামনে রেখে ২২ দফা ইশতেহার ঘোষণা করেছে অভিনয়শিল্পী ইলিয়াস কাঞ্চন ও নাসরিন আক্তার নিপুণের কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল।

রাজধানীর মগবাজারের একটি রেস্তোরাঁয় বুধবার ইশতেহার প্রকাশ করেন ইলিয়াস কাঞ্চন। ওই সময় তার পাশে ছিলেন প্যানেলের বিভিন্ন পদের প্রার্থীরা।

ইশতেহারের ২২ দফা

১. জাতির পিতার প্রতিষ্ঠিত এফডিসিতে প্রধানমন্ত্রীর আগমনের উদ্যোগ নেয়া।

২. চলচ্চিত্র শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট ২০২১-এর নীতিমালা অনুযায়ী শিল্পীদের কল্যাণে এর সর্বোচ্চ ব্যবহার।

৩. প্রধানমন্ত্রীর কাছে সার্বিক অবস্থা তুলে ধরে চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য সহজ শর্তে বড় অঙ্কের ফান্ডের ব্যবস্থা করা।

৪. ‘অন্যায়ভাবে’ যেসব সদস্যের সদস্যপদ বাতিল, স্থগিত ও ভোটাধিকার হরণ করা হয়েছে, তাদের অধিকার ফেরত দেয়া ও সদস্যপদ পুনর্বহাল করা।

৫. শিল্পী সমিতির মর্যাদা রক্ষা ও সদস্যদের অধিকার সংরক্ষণে সচেষ্ট থাকা এবং কেউ একবার সদস্য হলে তাদের সদস্যপদ আজীবন সংরক্ষিত থাকবে, তবে সংগঠনের গঠনতন্ত্রও রাষ্ট্রবিরোধী গুরুতর কর্মকাণ্ডে কেউ সংশ্লিষ্ট থাকার অভিযোগ এলে এবং তদন্তসাপেক্ষে অভিযোগ প্রমাণ হলে সদস্যপদ স্থগিত হতে পারে। এটি সাধারণ সভায় উত্থাপন করে চূড়ান্ত অনুমোদন নেয়া হবে।

৬. যেকোনো দুর্যোগ, সমস্যা ও প্রতিকূল পরিস্থিতিতে শিল্পী সমাজের পাশে দাঁড়ানো ও সহায়তা করা।

৭. সহায়তা গ্রহণকারীদের সম্মান ও আত্মমর্যাদা রক্ষায় এ ধরনের কর্মকাণ্ডের ছবি/ভিডিও জনসমক্ষে প্রকাশ না করা।

৮. আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে সব ধর্মীয় উৎসবে (যেমন: দুই ঈদ, দুর্গাপূজা, বড়দিন ও বৌদ্ধ পূর্ণিমা) স্বল্প আয়ের সদস্যদের উৎসব ভাতা ও উপহার দেয়ার ব্যবস্থা করা।

৯. পার্শ্ববর্তী দেশ ও বিভিন্ন দেশের শিল্পী সংগঠনের সঙ্গে পারস্পরিক মতবিনিময় এবং শিল্পী বিনিময় চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে বিদেশে বাংলাদেশি শিল্পীদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা।

১০. শিল্পী সমিতির ওয়েবসাইট সমৃদ্ধ করতে প্রযুক্তিগত আরও উন্নয়ন করা।

১১. সব শিল্পীর প্রোফাইল তৈরি করা। বিশেষ করে নৃত্য ও অ্যাকশন দৃশ্যে শিল্পীদের প্রোফাইল তৈরি করে আন্তর্জাতিক কাস্টিং ডিরেক্টরদের দেয়া হবে। নৃত্য ও অ্যাকশন দৃশ্যে ভাষার ব্যবহার না থাকায় বিশ্বের যেকোনো দেশের চলচ্চিত্রে নৃত্য ও অ্যাকশন দৃশ্যের বাংলাদেশি শিল্পীরা যেন কাজ করতে পারে, সেই ব্যবস্থা করা।

১২. শিল্পী সমিতির সভাপতিকে পদাধিকার বলে চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্যসহ তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় এবং সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের চলচ্চিত্র ও সংস্কৃতি সংক্রান্ত বিভিন্ন কমিটিতে প্রতিনিধিত্বের জন্য অন্তর্ভুক্তির ব্যবস্থা করা।

১৩. ঝুঁকিপূর্ণ দৃশ্যে অভিনয় করা শিল্পীদের জন্য বিশেষ বিমা ও সবার জন্য গ্রুপ বিমা নিশ্চিত করা।

১৪. শিল্পীদের চিকিৎসা কার্যক্রমের সুবিধার্থে কয়েকটি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক ল্যাবের সঙ্গে বিশেষ ছাড়ের জন্য চুক্তির উদ্যোগ ও বাস্তবায়ন করা।

১৫. শিল্পীদের মেধাবী সন্তানদের শিক্ষাবৃত্তি ও তাদের বাবা-মাকে সংবর্ধনা দেয়া।

১৬. চলচ্চিত্র শিল্পকে আরও সমৃদ্ধ ও অচলাবস্থা কাটিয়ে তুলতে চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব ও অভিজ্ঞদের নিয়ে উপদেষ্টা কমিটি গঠন এবং নতুন প্রযোজকদের চলচ্চিত্রের পাণ্ডুলিপি থেকে শুরু করে ছবি মুক্তি পর্যন্ত যাবতীয় সহায়তা দেয়া।

১৭. চলচ্চিত্র সংক্রান্ত সব সংগঠনের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখা এবং পারস্পরিক স্বার্থে মতবিনিময় করা।

১৮. শিল্পী প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া, যেখানে সব ধরনের শিল্পী তৈরির পাঠ্যসূচি ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা থাকবে।

১৯. নৃত্যের শিল্পীদের জন্য ড্যান্স স্টুডিও ও ফাইট অ্যান্ড স্টান্ট স্টুডিও এবং অত্যাধুনিক ইকুইপমেন্ট সমৃদ্ধ জিমনেসিয়াম স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া।

২০. সব শিল্পীর উপযোগী মেকআপ সেলুন ও পার্লার স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া।

২১. শিল্পীদের পেশার মান বৃদ্ধিতে দেশের ও দেশের বাইরের কিংবদন্তি শিল্পীদের নিয়ে বিশেষ সেমিনার ও ওয়ার্কশপের ব্যবস্থা করা।

২২. প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রীয় সফর ও বিদেশে সাংস্কৃতিক সফরে শিল্পীদের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করা।

আরও পড়ুন:
শুরু হচ্ছে ৭ দিনের ইয়ুথ বাংলা চলচ্চিত্র উৎসব
ইডফা’য় কামারের ‌‘অন্যদিন’
তৃতীয় বিজ্ঞান চলচ্চিত্র উৎসব শুরু শুক্রবার
বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে দেশের তিন সিনেমা
শুরু হচ্ছে কান, উদ্বোধনে থাকছেন না সাদ-বাঁধনরা

শেয়ার করুন