প্রযোজক রাজকে জামিন দেয়নি হাইকোর্ট

player
প্রযোজক রাজকে জামিন দেয়নি হাইকোর্ট

চলচ্চিত্র পরিচালক ও প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজের সঙ্গে পরীমনি। ফাইল ছবি

আইনজীবী মানিক জানান, নজরুল ইসলাম রাজের জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দিয়েছে আদালত। গত ৪ আগস্ট বিকেলে পরীমনির বাসায় অভিযান চালায় র‍্যাব। এরপর রাতে তার সহযোগী রাজের বনানীর বাসায়ও অভিযান চালানো হয়। অভিযানে রাজের দুই সহযোগীসহ তিনজনকে আটক করা হয়।

চিত্রনায়িকা পরীমনির বাসায় অভিযানের দিন মাদকদ্রব্যসহ গ্রেপ্তার প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজকে অর্থ পাচার মামলায় জামিন দেয়নি হাইকোর্ট।

সোমবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ তার জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দেয়।

আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ কে রাশেদুল হক। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

পরে আইনজীবী মানিক জানান, নজরুল ইসলাম রাজের জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দিয়েছে আদালত।

গত ৪ আগস্ট বিকেলে পরীমনির বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এরপর রাতে তার সহযোগী রাজের বনানীর বাসায়ও অভিযান চালানো হয়। অভিযানে রাজের দুই সহযোগীসহ তিনজনকে আটক করা হয়।

এ সময় তার বাসা থেকে সাতটি গ্ল্যানলিভেট, দুটি গ্ল্যানফিডিচ, চারটি ফক্স গ্রোভ, একটি প্লাটিনাম লেভেল, এক প্যাকেট সিসায় ব্যবহৃত চারকোল, দুই সেট সিসার সরঞ্জাম, দুই ধরনের সিসা তামাক ফ্লেভারযুক্ত, এক রোল সিসা সেবনের জন্য ব্যবহৃত অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল, ৯৭০ পিস ইয়াবা, বিকৃত যৌনাচারের জন্য ব্যবহৃত ১৪টি বিভিন্ন সামগ্রী, একটি সাউন্ড বক্স, দুটি মোবাইল ফোন ও একটি মেমোরি কার্ড উদ্ধার করা হয়।

পরে সিআইডি ২৯ সেপ্টেম্বর বনানী থানায় তার বিরুদ্ধে অর্থ পাচারের মামলা করে।

একটি ব্যাংকের বনানী শাখায় নজরুল ইসলাম রাজের হিসাবে ১৮ কোটি ৭ লাখ ২১ হাজর ৩৫০ টাকা জমা হয়। এর মধ্যে ৬টি জমা চেকের মাধ্যমে করা হলেও অবশিষ্ট টাকা নগদ জমা করা হয়। তার নামে বিভিন্ন ব্যাংকে একাধিক হিসাবের তথ্য পাওয়া যায়। এসব হিসাব পর্যালোচনায় দেখা যায, হিসাবে ব্যাপক লেনদেন হয়েছে, যা মাদক ব্যবসা থেকে আয় বলে প্রতীয়মান হয়। ব্যবসার নাম দিয়ে ২০১২ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ২০২১ সালের ৪ আগস্ট পর্যন্ত আড়াই কোটি টাকা মূল্যমানের স্থাবর অস্থাবর সম্পদে রূপান্তর করেন। এসব অভিযোগ এনে সিআইডির পুলিশ পরিদর্শক ২৯ সেপ্টেম্বর বনানী থানায় এ মামলা করেন।

এ মামলায় গত ১৬ নভেম্বর ঢাকার মহানগর বিশেষ জজ আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করেন। এরপর তিনি জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন তিনি।

আরও পড়ুন:
পরীমনির রিমান্ড: বিচারকদের বিষয়ে রায় জানুয়ারিতে
পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আমলে নিল আদালত
হাজিরা দিতে আদালতে পরীমনি
সোমবার আদালতে যাচ্ছেন পরীমনি
পরীমনির ‘মনকেমন’, ছড়িয়ে দিলেন অভিমান!

শেয়ার করুন

মন্তব্য

অস্কারে সব বিভাগের জন্য যোগ্য ‘দ্য গ্রেভ’

অস্কারে সব বিভাগের জন্য যোগ্য ‘দ্য গ্রেভ’

‘দ্য গ্রেভ’ সিনেমার দৃশ্যে গাজী রাকায়েত ও তার সহশিল্পী। ছবি: সংগৃহীত

তালিকায় জায়গা করে নেয়ার ফলে সেরা সিনেমা থেকে শুরু করে পরিচালক, অভিনেতা, অভিনেত্রী, সিনেমাটোগ্রাফিসহ অন্য যেকোনো বিভাগে মনোনয়ন পাওয়ার সুযোগ রয়েছে দ্য গ্রেভ সিনেমাটির।

৯৪তম অস্কারে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র বিভাগ ছাড়া সব বিভাগে মনোনয়ন পাওয়ার যোগ্যতা যে সিনেমাগুলোর আছে, সেসব সিনেমার একটি তালিকা প্রকাশ করেছে অস্কার কর্তৃপক্ষ। সেই তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে দেশের সিনেমা দ্য গ্রেভ। বাংলায় সিনেমাটির নাম গোর

গাজী রাকায়েত পরিচালিত সিনেমাটি বাংলাদেশের সিনেমা হলেও এটি অস্কারের সাধারণ শাখাগুলোয় প্রতিযোগিতা করার সুযোগ পেয়েছে। এটি দেশের সিনেমার ইতিহাসে প্রথম ঘটনা। ২০ জানুয়ারি অস্কার এ তালিকা প্রকাশ করে।

অস্কার তাদের প্রেস নোটে জানিয়েছে, এবার অ্যাকাডেমি অফ মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস (অস্কার) অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসের জন্য ২৭৬টি সিনেমা নির্বাচন করেছে।

এ সিনেমাগুলোর মধ্যে ভোট করবেন অস্কার মনোনয়ন কমিটির সদস্যরা। ২৭ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে ভোটিং, চলবে ১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। আর মনোনয়ন ঘোষণা করা হবে ৮ ফেব্রুয়ারি।

গোর বা দ্য গ্রেভ সিনেমার পরিচালক গাজী রাকায়েত নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমি গতকাল (শুক্রবার) বিষয়টি জানতে পেরেছি। এটা দেশের সিনেমার জন্য নতুন একটি যাত্রা। আমরা মনোনয়ন পাব কি না জানি না, তবে নিশ্চিতভাবে এটি আমাদের দেশের পরিচালকদের জন্য অনন্য এক পাওয়া বলে মনে করি।’

রাকায়েত আরও বলেন, ‘একটা বিষয় পরিষ্কার করতে চাই। আমাদের সিনেমা কিন্তু বিদেশি সিনেমা হিসেবে অস্কারের আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র পুরস্কার যে বিভাগটি রয়েছে সেখানে মনোনয়ন পায়নি। আমাদের সিনেমা অন্যান্য আমেরিকান সিনেমা যেভাবে অস্কারের সব বিভাগে মনোনয়ন পাওয়ার যোগ্যতা রাখে, সেই সব সিনেমার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে। এটা সত্যি অনেক বড় পাওয়া।’

সরকারি অনুদান পাওয়া গোর বা দ্য গ্রেভ সিনেমাটি দেশের প্রথম বাইলিঙ্গুয়াল সিনেমা। বাংলা ও ইংরেজিতে সিনেমাটির দৃশ্যায়ন হয়েছে এবং দুটি সিনেমা ভিন্ন ভিন্নভাবে সেন্সর পেয়েছে।

তাহলে দেশের সিনেমাটি কীভাবে আমেরিকান সিনেমা হিসেবে অস্কারের সব শাখায় মনোনয়ন পাওয়ার যোগ্যাতা রাখে?

অস্কার কমিটি তাদের প্রেস নোটে জানিয়েছে, অস্কারের সব শাখায় মনোনয়ন পাওয়ার যোগ্যতা অর্জনের জন্য যেকোনো দেশের পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা কমপক্ষে ছয়টি মার্কিন মেট্রোপলিটান এলাকার মধ্যে একটিতে বাণিজ্যিকভাবে মোশন পিকচার থিয়েটারে প্রদর্শিত হতে হবে।

মেট্রোপলিটান এলাকাগুলো হলো লস অ্যাঞ্জেলেস কাউন্টি, নিউ ইয়র্ক শহর, উপসাগরীয় এলাকা; শিকাগো, ইলিনয়; মিয়ামি, ফ্লোরিডা এবং আটলান্টা ও জর্জিয়া।

২০২১-এর ১ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে এ ভেন্যুর যেকোনো একটিতে টানা সাত দিন প্রদর্শন করতে হবে সিনেমা। দ্য গ্রেভ সিনেমাটি এ প্রক্রিয়ায় অর্জন করেছে অস্কারের সব শাখায় মনোনয়ন পাওয়ার যোগ্যতা।

রিমাইনডার লিস্ট অফ প্রডাকশন ইলিজিবল ফর দ্য নাইনটি ফোর্থ অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড’ তালিকায় জায়গা করে নেয়ার ফলে সেরা সিনেমা থেকে শুরু করে পরিচালক, অভিনেতা, অভিনেত্রী, সিনেমাটোগ্রাফিসহ অন্য যেকোনো বিভাগে মনোনয়ন পাওয়ার সুযোগ রয়েছে দ্য গ্রেভ সিনেমাটির।

তবে এরই মধ্যে অস্কারের ১০টি বিভাগের শর্ট লিস্ট প্রকাশ করা হয়েছে। সেগুলো হলো ইন্টারন্যাশনাল ফিচার ফিল্ম, ডকুমেন্ট্রি ফিচার, ডকুমেন্ট্রি শর্ট সাবজেক্ট, মেকআপ ও হেয়ারস্টাইলিং, অরিজিনাল স্কোর, অরিজিনাল সং, অ্যানিমেটেড শর্ট ফিল্ম, লাইভ অ্যাকশন শর্ট ফিল্ম, সাউন্ড এবং ভিজ্যুয়াল ইফেক্টস।

এসব বিভাগে নেই দ্য গ্রেভ সিনেমার মনোনয়ন। এর আগে বাংলাদেশ থেকে অস্কারের আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র বিভাগে প্রতিযোগিতা করার জন্য পাঠানো হয়েছিল রেহানা মরিয়ম নূর। সিনেমাটি শর্টলিস্টে আসতে পারেনি।

আরও পড়ুন:
পরীমনির রিমান্ড: বিচারকদের বিষয়ে রায় জানুয়ারিতে
পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আমলে নিল আদালত
হাজিরা দিতে আদালতে পরীমনি
সোমবার আদালতে যাচ্ছেন পরীমনি
পরীমনির ‘মনকেমন’, ছড়িয়ে দিলেন অভিমান!

শেয়ার করুন

‘পুষ্পা’র গানে নাচলেন ডেভিড ওয়ার্নার

‘পুষ্পা’র গানে নাচলেন ডেভিড ওয়ার্নার

‘পুষ্পা’র গানে আল্লু অর্জুনের মতো নাচার চেষ্টা করলেন ডেভিড ওয়ার্নার। ছবি সংগৃহীত

ইনস্টাগ্রামে সেই নাচের ছোট্ট একটি ভিডিও ক্লিপ পোস্ট করেছেন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার ডেভিড ওয়ার্নার। এরপর হ্যাশট্যাগ পুষ্পা দিয়ে ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘এরপর কী?’

গত ১৭ ডিসেম্বর মুক্তি পায় ভারতের দক্ষিণী সুপারস্টার আল্লু অর্জুন অভিনীত সিনেমা পুষ্পা: দ্য রাইজ। সিনেমাটির সঙ্গে সঙ্গে এর গানগুলো পেয়েছে তুমুল জনপ্রিয়তা।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ভাইরাল হয়েছে ‘শ্রীভাল্লি’, ‘সামি সামি’, উঁ বলেগা’, শিরোনামের গানগুলো।

এর মধ্যে ব্যাপকভাবে সাড়া ফেলেছে ‘শ্রীভাল্লি’ গানের সঙ্গে আল্লু অর্জুনের নাচের একটি দৃশ্য।

সাধারণ নেটিজেনদের পাশাপাশি এবার সেই হুক স্টেপ করতে দেখা গেল অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার ডেভিড ওয়ার্নারকে।

ইনস্টাগ্রামে এর ছোট্ট একটি ভিডিও ক্লিপ পোস্ট করেছেন আন্তর্জাতিক এই খেলোয়াড়। এরপর হ্যাশট্যাগ পুষ্পা দিয়ে ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘এরপর কী?’

সেই পোস্টের নিচে আল্লু অর্জুনও বিশেষ কয়েকটি ইমো দিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। ডেভিড ওয়ার্নারের বুঝিয়ে দিয়েছেন, তার এই স্টেপ দেখে বেশ মজা পেয়েছেন ও পছন্দ করেছেন তিনি।

এই পোস্টের আগে পুষ্পার দৃশ্যে আল্লুর একটি ছবি পোস্ট করে ডেভিড ওয়ার্নার লিখেছিলেন, ‘আমার কি পুষ্পার একটি গানে নাচের চেষ্টা করা উচিত।’

তামিল, তেলেগু, মালয়ালাম, কন্নড়, হিন্দিসহ পাঁচটি ভাষায় মুক্তি পাওয়া এই সিনেমাটি ঝড় তুলেছে বক্স অফিসে। মুক্তির এক মাসের মধ্যে ৩০০ কোটি রুপির বেশি ব্যবসা করেছে সিনেমাটি।

আরও পড়ুন:
পরীমনির রিমান্ড: বিচারকদের বিষয়ে রায় জানুয়ারিতে
পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আমলে নিল আদালত
হাজিরা দিতে আদালতে পরীমনি
সোমবার আদালতে যাচ্ছেন পরীমনি
পরীমনির ‘মনকেমন’, ছড়িয়ে দিলেন অভিমান!

শেয়ার করুন

ইমন লাঞ্ছিত, রিয়াজ বললেন, ‘হাত রেখে আসিনি, সঙ্গেই আছে’

ইমন লাঞ্ছিত, রিয়াজ বললেন, ‘হাত রেখে আসিনি, সঙ্গেই আছে’

লাঞ্ছিত হবার পর সংবাদমাধ্যমে বখা বলছেন ইমন, দুই পাশে নিপুন-রিয়াজ। ছবি: সংগৃহীত

রিয়াজ প্রতিপক্ষকে সাবধান করে দিয়ে বলেন, ‘ধাক্কাধাক্কি করার অভ্যাসটা অনেক পুরনো তাদের। এটারই মনে হয় রিহার্সেল করছে। আমরাও কিন্তু হাত বাড়িতে রেখে আসিনি, হাত আমাদের সঙ্গেই আছে। আমরা চরম সহনশীলতার পরিচয় দিচ্ছি।’

শুক্রবার রাতে এফডিসিতে লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন চিত্রনায়ক ইমন। অভিনেতার দাবি, এ ঘটনা তার প্রতিপক্ষ প্যানেলের সভাপতি পদপ্রার্থী মিশা সওদাগরের সামনেই ঘটেছে এবং ইমনকে যিনি ধাক্কা দিয়েছেন, সে ব্যক্তি মিশা-জায়েদ প্যানেলের হয়ে কাজ করে। তিনি শিল্পী সমিতির সদস্য নন বা কোনো শিল্পীও নন।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ইমন বলেন, ‘সবাই নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত। আমি এক পর্যায়ে মিশা সওদাগর ভাইয়ের কাছে যেতে চাইলাম, তার সঙ্গে কথা বলার জন্য এগিয়ে যেতে চাইলে সেই ব্যক্তি আমাকে বাধা দেয়।

‘আমি তাকে বললাম, মিশা ভাই কি আমার চেয়ে বেশি আপন তোমার? সে কোনো উত্তর না দিয়ে ভিড় হলে মানুষ যেভাবে সরিয়ে দেয়, সেভাবে আমাকে ধাক্কা দেয়।’

ইমনের দাবি, মিশা সওদাগরের সামনে এ ঘটনা ঘটেছে এবং মিশা সেই ব্যক্তিকে সেখানে সঙ্গে সঙ্গেই ইমনের কাছে দুঃখ প্রকাশ করতে বলেন। সে দুঃখ প্রকাশ করেনি উল্টা তর্ক করেছে বলে জানান ইমন।

ইমন বলেন, ‘এই ছেলেকে আমি চিনিনা ঠিকমতো। সে বহিরাগত। তবে সে মিশা-জায়েদ প্যানেলের জন্য যে জায়গা বরাদ্দ সেখানেই থাকে এবং তাদের হয়ে কাজ করে।’

এ নিয়ে নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ দিয়েছেন ইমন। অভিযোগটি খুবই গুরুত্বের সঙ্গে নেয়া হয়েছে বলে জানায় কমিশন।

নিজের প্যানেলের একজন প্রার্থীর সঙ্গে ঘটা এমন ঘটনায় ক্ষেপেছেন রিয়াজ। তিনি প্রতিপক্ষকে সাবধান করে দিয়ে বলেন, ‘ধাক্কাধাক্কি করার অভ্যাসটা অনেক পুরনো তাদের। এটারই মনে হয় রিহার্সেল করছে। আমরাও কিন্তু হাত বাড়িতে রেখে আসিনি, হাত আমাদের সঙ্গেই আছে। আমরা চরম সহনশীলতার পরিচয় দিচ্ছি। এফিডিসির শিল্পীদের হাত কিন্তু সঙ্গে আছে, যেটা আমাদের মাথার ওপর আছে, সেটা কিন্তু অন্য জায়গায় চলে যেতে পারে। আমি সাবধান করে বলতে চাই।’

ঘটনাটি নিয়ে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। তিনি শুক্রবার রাতে সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি এখনও বিষয়টা খুব ভালো করে জানিনা। তবে শুনেছি, খোঁজ নিয়ে জানব।’

তিনি বলেন, ‘আমি বহিরাগতমুক্ত এফডিসি চাই। আমার তরফ থেকে যদি কোনো বহিরাগত এখানে আসে, তার দায়ভার আমার, তার শাস্তি আমি আমার মাথা পেতে নেব। আমি আমার পরিচিত, আত্মীয়-স্বজনকে বলেছি, তোমরা কেউ এফডিসিতে আসবানা।’

জায়েদ জানান, তিনি দায় এরানোর চেষ্টা করছেন না; তিনি ইমনের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি নিয়ে পদক্ষেপ নেবেন।

জায়েদ আরও বলেন, ‘শুক্রবার বিকেলে যদি এফডিসি দেখতেন, তাহলে মনে হতো একটা বাজার বসেছে। এমন অবস্থায় কোনো সিনিয়রশিল্পী এখানে আসবেন না।’

শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২৮ জানুয়ারি। এতে মোট ভোটার সংখ্যা ৪২৮ জন।

আরও পড়ুন:
পরীমনির রিমান্ড: বিচারকদের বিষয়ে রায় জানুয়ারিতে
পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আমলে নিল আদালত
হাজিরা দিতে আদালতে পরীমনি
সোমবার আদালতে যাচ্ছেন পরীমনি
পরীমনির ‘মনকেমন’, ছড়িয়ে দিলেন অভিমান!

শেয়ার করুন

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা

অভিনয়শিল্পী দম্পতি শরিফুল রাজ ও পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত

শুক্রবার রাতে অনুষ্ঠিত হয়েছে অভিনয়শিল্পী দম্পতি পরীমনি ও শরিফুল রাজের গায়ে হলুদ। আয়োজনের কিছু ছবি পরীমনি এবং অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতরা পোস্ট করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

শুক্রবার রাতে অনুষ্ঠিত হয়েছে অভিনয়শিল্পী দম্পতি পরীমনি ও শরিফুল রাজের গায়ে হলুদ। পরীমনির বাসাতেই হয় এ আয়োজন। এতে উপস্থিত ছিলেন পরীমনি ও রাজের মিডিয়ার বন্ধুরা। দুই পরিবারের সদস্যরাও ছিলেন আয়োজনে।

নির্মাতা গিয়াসউদ্দিন সেলিম নিউজবাংলাকে জানান, শনিবার রাতে পরী ও রাজের বিয়ের আয়োজন রয়েছে। মূলত সবাইকে নিয়ে আনুষ্ঠানিকতা করতে এবং পরিবারের মানুষদের পরিচয় করাতেই এ আয়োজন বলে জানান সেলিম।

গায়ে হলুদের কিছু ছবি পরীমনি এবং অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতরা পোস্ট করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
অভিনয়শিল্পী দম্পতি পরীমনি ও রাজ। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যার কেক। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীর সঙ্গে পরী ও রাজ। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
নির্মাতা রেদওয়ান রনির সঙ্গে পরী ও রাজ। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
রাজের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে পরীও রাজ। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
হলুদ সন্ধ্যায় এভাবে সাজানো হয়েছিল পরীমনির বাসা। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
অভিনয়শিল্পী দম্পতি শরিফুল রাজ ও পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
অভিনয়শিল্পী দম্পতি শরিফুল রাজ ও পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
হলুদ সন্ধ্যায় পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
হলুদ সন্ধ্যায় পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
নির্মাতা গিয়াসউদ্দিন সেলিম ও চয়নিকার সঙ্গে পরী-রাজ। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
অভিনেতা ডি এ তায়েবের সঙ্গে পরীমনি-রাজ। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে পরী-রাজের হলুদ সন্ধ্যা
অভিনয়শিল্পী দম্পতি শরিফুল রাজ ও পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত

আরও পড়ুন:
পরীমনির রিমান্ড: বিচারকদের বিষয়ে রায় জানুয়ারিতে
পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আমলে নিল আদালত
হাজিরা দিতে আদালতে পরীমনি
সোমবার আদালতে যাচ্ছেন পরীমনি
পরীমনির ‘মনকেমন’, ছড়িয়ে দিলেন অভিমান!

শেয়ার করুন

ফের করোনায় আক্রান্ত পূর্ণিমা

ফের করোনায় আক্রান্ত পূর্ণিমা

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা। ছবি: ফেসবুক

শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে এ খবর নিজেই জানিয়েছেন অভিনেত্রী। সেই পোস্টে পূর্ণিমা লেখেন, ‘কোভিড পজিটিভ।’ সঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন মুখে মাস্ক পরিহিত একটি ইমো। 

দ্বিতীয়বারের মতো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে এ খবর নিজেই জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

সেই পোস্টে পূর্ণিমা লেখেন, ‘কোভিড পজিটিভ।’ সঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন মুখে মাস্ক পরিহিত একটি ইমো।

এর আগে ২০২০ সালের অক্টোবরে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এ অভিনেত্রী।

সবশেষ গত ৩১ ডিসেম্বর মুক্তি পাওয়া চিরঞ্জীব মুজিব সিনেমায় দেখা গেছে পূর্ণিমাকে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত আত্মজীবনী অবলম্বনে নির্মিত এই সিনেমায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছার চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন:
পরীমনির রিমান্ড: বিচারকদের বিষয়ে রায় জানুয়ারিতে
পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আমলে নিল আদালত
হাজিরা দিতে আদালতে পরীমনি
সোমবার আদালতে যাচ্ছেন পরীমনি
পরীমনির ‘মনকেমন’, ছড়িয়ে দিলেন অভিমান!

শেয়ার করুন

হয়ে গেল পরী-রাজের হলুদ, বিয়ে আজ

হয়ে গেল পরী-রাজের হলুদ, বিয়ে আজ

হলুদ শাড়িতে পরীমনি এবং সাদা-হলুদ পায়জামা-পাঞ্জাবিতে সেজেছেন শরিফুল ইসলাম রাজ। ছবি: নিউজবাংলা

পরিচালক গিয়াসউদ্দিন সেলিম বলেন, ‘এখন আসলে কিছু আনুষ্ঠানিকতা হচ্ছে। তখন (১৭ অক্টোবর) তো কোনো আয়োজন করা হয়নি। তাই কাছের মানুষ এবং পরিবারের সদস্যদের নিয়ে এ আয়োজন।’ এরই মধ্যে হলুদের কিছু ছবি প্রকাশ পেয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

শুক্রবার রাতে হলুদ সন্ধ্যা হয়ে গেল অভিনয়শিল্পী দম্পতি পরীমনি ও শরিফুল ইসলাম রাজের। শনিবার হবে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা।

নিউজবাংলাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন পরিচালক গিয়াসউদ্দিন সেলিম।

পাঠক হয়তো ভাবছেন, এখন আবার হলুদ-বিয়ে কিসের! সবাইকে চমকে দিয়ে সম্প্রতি মা হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন পরীমনি। বাবার নামে বলেছেন শরিফুল ইসলাম রাজের নাম। রাজও জানিয়েছেন, তাদের বিয়ে হয়েছে ১৭ অক্টোবর। তাহলে এখন আবার কিসের হলুদ-বিয়ে!

গিয়াসউদ্দিন সেলিম বলেন, ‘এখন আসলে কিছু আনুষ্ঠানিকতা হচ্ছে। তখন (১৭ অক্টোবর) তো কোনো আয়োজন করা হয়নি। তাই কাছের মানুষ এবং পরিবারের সদস্যদের নিয়ে এ আয়োজন।’

এরই মধ্যে হলুদের কিছু ছবি প্রকাশ পেয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। হলুদ শাড়িতে পরীমনি এবং সাদা-হলুদ পায়জামা-পাঞ্জাবিতে সেজেছিলেন রাজ। হলুদ ফুলে সাজানো হয়েছিল ঘরের দেয়াল।

আয়োজনে আমন্ত্রিত ছিলেন নির্মাতা গিয়াসউদ্দিন সেলিম, চয়নিকা চৌধুরী, রেদওয়ান রনি। কিছু অপরিচিত মুখও দেখা গেছে ফেসবুকে প্রকাশ পাওয়া ছবিতে। ধারণা করা হচ্ছে তারাই হয়তো পরিবারের সদস্য। এ ব্যাপারে তেমন কিছু বলতে চাননি সেলিম।

তিনি বলেছেন, ‘এ আয়োজনের মাধ্যমে পরী-রাজের পরিবারের সদস্যদের দেখা হওয়ার সুযোগ হয়েছে।’

সেলিমের পরিচালনায় গুণিন ওয়েব ফিল্মে প্রথমবার একসঙ্গে কাজ করেন রাজ-পরী। পরী শিগগিরই মা নামের একটি সিনেমার শুটিংয়ে অংশ নেবেন।

আরও পড়ুন:
পরীমনির রিমান্ড: বিচারকদের বিষয়ে রায় জানুয়ারিতে
পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আমলে নিল আদালত
হাজিরা দিতে আদালতে পরীমনি
সোমবার আদালতে যাচ্ছেন পরীমনি
পরীমনির ‘মনকেমন’, ছড়িয়ে দিলেন অভিমান!

শেয়ার করুন

মা-বাবা হলেন প্রিয়াঙ্কা-নিক

মা-বাবা হলেন প্রিয়াঙ্কা-নিক

মা-বাবা হয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া-নিক জোনাস। ছবি: সংগ্রহীত

সন্তানের জন্য সবার কাছে আশীর্বাদ চেয়েছেন তারকা দম্পতি। সেই সঙ্গে অনুরোধ করেছেন, আপাতত তাদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বাড়তি কৌতূহল দেখানো যেন বন্ধ করেন সবাই।

বিচ্ছেদ নিয়ে কত কথাই না হলো কিছুদিন আগে। প্রিয়াঙ্কা চোপড়া আর নিকের বিচ্ছেদের জল্পনায় পাকাপাকি দাড়ি টানলেন দম্পতি। নিন্দুকদের মুখ বন্ধ করে খুশির খবর দিলেন ‘নিকিয়াঙ্কা’।

মা-বাবা হয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া-নিক জোনাস। শুক্রবার মধ্যরাতে নিজের ইনস্টাগ্রামে মা হওয়ার কথা জানান অভিনেত্রী।

জানিয়েছেন, সারোগেসির মাধ্যমে সন্তান এসেছে নিকিয়াঙ্কার কোলে। সারোগেসি হলো অন্যের গর্ভে সন্তান বড় করা এবং জন্ম দেয়া। অর্থাৎ প্রিয়াঙ্কা-নিকের সন্তান অন্য কোনো নারীর গর্ভে বড় হয়েছে এবং জন্ম দিয়েছে।

সন্তানের জন্য সবার কাছে আশীর্বাদ চেয়েছেন তারকা দম্পতি। একই সঙ্গে অনুরোধ করেছেন, আপাতত তাদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বাড়তি কৌতূহল দেখানো যেন বন্ধ করেন সবাই।

প্রিয়াঙ্কার নামের পাশ থেকে জোনাস পদবি তুলে দিতেই জল্পনায় মেতে উঠেছিল আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। ছড়িয়েছিল নিক-প্রিয়াঙ্কার বিচ্ছেদের গুঞ্জনও। তার মধ্যেই মাতৃত্বের ইঙ্গিত দিয়েছেন অভিনেত্রী, কিন্তু কেউ বুঝতে পারেনি।

গত বছর বিয়ের তিন বছর উদযাপন করেছেন তারকা দম্পতি। নিকের চেয়ে ১০ বছরের বড় প্রিয়াঙ্কা; প্রণয় থেকে পরিণয়, প্রতি ক্ষেত্রেই ছিল সমালোচনা। সব কিছু ছাপিয়ে নিকিয়াঙ্কা যেন আবারও প্রমাণ করে দিলেন, বয়স নিছকই সংখ্যামাত্র। চাইলে যে কোনো বয়সেই সুখটা উপভোগ করা যায়।

আরও পড়ুন:
পরীমনির রিমান্ড: বিচারকদের বিষয়ে রায় জানুয়ারিতে
পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আমলে নিল আদালত
হাজিরা দিতে আদালতে পরীমনি
সোমবার আদালতে যাচ্ছেন পরীমনি
পরীমনির ‘মনকেমন’, ছড়িয়ে দিলেন অভিমান!

শেয়ার করুন