নৌকার নির্বাচনি ক্যাম্পে আগুন

নৌকার নির্বাচনি ক্যাম্পে আগুন

নৌকার প্রার্থী আবুল হোসেন বলেন, ‘গতকাল বুধবার বিএনপি-জামায়াতের কয়েকজন সন্ত্রাসী সন্ধ্যায় নলতার কাশিবাটি গ্রামের আওয়ামী লীগের কর্মী আনসার আলি সরদার, রশিদ, জয়নাল ও মিজানুর রহমানকে হত্যার হুমকি দেয়। বিষয়টি রাতেই থানায় মৌখিকভাবে জানানো হয়। বুধবার রাত ৩টার দিকে ওই সন্ত্রাসীরা আমার নির্বাচনি ক্যাম্প অফিসে আগুন দেয়।’

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের নলতা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর ক্যাম্পে দুর্বৃত্তরা আগুন দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আসবাবপত্র এবং বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি।

উপজেলার ৬ নম্বর নলতা ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম পাইকাড়ার ওই ক্যাম্পে বুধবার গভীর রাতে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানান নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল হোসেন।

তবে ঘটনাটি জানাজানি হয়েছে বৃহস্পতিবার সকালে।

তিনি অভিযোগে বলেন, ‘বেশ কিছুদিন ধরে গত ইউপি নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমানে স্বতন্ত্র প্রার্থী আজিজুর রহমানের লোকজন এলাকায় ঢুকে নৌকার সমর্থকদের হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছিল। ওই লোকজন বিএনপি-জামায়াতের ১৩ সালের নাশকতা মামলার আসামি। তারা জামিনে মুক্ত হয়ে এলাকায় এসেছেন।

‘গতকাল বুধবার বিএনপি-জামায়াতের কয়েকজন সন্ত্রাসী সন্ধ্যায় নলতার কাশিবাটি গ্রামের আওয়ামী লীগের কর্মী আনসার আলি সরদার, রশিদ, জয়নাল ও মিজানুর রহমানকে হত্যার হুমকি দেয়। বিষয়টি রাতেই থানায় মৌখিকভাবে জানানো হয়। বুধবার রাত ৩টার দিকে ওই সন্ত্রাসীরা আমার নির্বাচনি ক্যাম্প অফিসে আগুন দেয়।’

কালিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তফা জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। আগুন লাগার কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। মামলা হলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে বিএনপি সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী আজিজুর রহমানকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি সাড়া দেননি।

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে এই ইউনিয়নে ভোট হবে আগামী ২৮ নভেম্বর।

আরও পড়ুন:
নৌকা-সাইকেলের জমজমাট লড়াইয়ের আভাস রঘুনাথপুরে
কেন্দ্র থেকে বেরোনোর পরই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টকে কুপিয়ে জখম 
ইউপি নির্বাচন: দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ‘গুলিবিদ্ধ ২’
নেতা নৌকা না পাওয়ায় সড়ক অবরোধ
সব ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে, দাবি সিইসির

শেয়ার করুন

মন্তব্য

ছাত্রীকে ধর্ষণে মাদ্রাসাশিক্ষকের যাবজ্জীবন

ছাত্রীকে ধর্ষণে মাদ্রাসাশিক্ষকের যাবজ্জীবন

সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে এই মাদ্রাসাশিক্ষককে। ছবি: নিউজবাংলা

২০১৯ সালের ২০ জানুয়ারি দুপুরে গাইড বই দেয়ার কথা বলে ওই ছাত্রীকে মাদ্রাসায় ডেকে নেন সাইফুল। মাদ্রাসার কাছেই নিজ বাড়ির দোতলায় নিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন। মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ঘরে রেখেই পালিয়ে যান তিনি।

বরগুনায় সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে মাদ্রাসাশিক্ষক সাইফুল ইসলামকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় খালাস দেয়া হয়েছে মামলার আরেক আসামি সাইফুলের ভাবী রাশেদা বেগমকে।

বরগুনার জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক হাফিজুর রহমান মঙ্গলবার দুপুরে এই রায় দেন।

সাইফুল ইসলামের বাড়ি বরগুনা সদর উপজেলার ফুলঝুরি ইউনিয়নের সাহেবের হাওলা গ্রামে।

২০১৯ সালের ২০ জানুয়ারি দুপুরে গাইড বই দেয়ার কথা বলে ওই ছাত্রীকে মাদ্রাসায় ডেকে নেন সাইফুল। মাদ্রাসার কাছেই নিজ বাড়ির দোতলায় নিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন। মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ঘরে রেখেই পালিয়ে যান তিনি।

আশপাশের লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নেয়। সেখান থেকে পরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়।

ঘটনার দিন বিকেলেই সাইফুল ও তার ভাবীর বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা করেন ওই কিশোরীর বাবা। সে বছরের ২০ ফেব্রুয়ারি সাইফুলকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

আরও পড়ুন:
নৌকা-সাইকেলের জমজমাট লড়াইয়ের আভাস রঘুনাথপুরে
কেন্দ্র থেকে বেরোনোর পরই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টকে কুপিয়ে জখম 
ইউপি নির্বাচন: দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ‘গুলিবিদ্ধ ২’
নেতা নৌকা না পাওয়ায় সড়ক অবরোধ
সব ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে, দাবি সিইসির

শেয়ার করুন

ট্রেনে কাটা পড়ে লাইনে বসে থাকা স্কুলছাত্রী নিহত

ট্রেনে কাটা পড়ে লাইনে বসে থাকা স্কুলছাত্রী নিহত

ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত স্কুলছাত্রী নুসরাত জাহান তোয়া। ছবি: নিউজবাংলা

তোয়ার মা শায়লা বেগম বলেন, ‘সকালে বান্ধবীর বাসায় যাওয়ার কথা বলে আমার মেয়ে বের হয়। আমি আর আমার ছোট মেয়ে তাকে খানিকটা এগিয়েও দিয়ে আসি। বান্ধবীর বাসা থেকে তার স্কুলে পরীক্ষা দিতে যাওয়ার কথা। ও রেললাইনে কীভাবে গেল বুঝতে পারছি না।’

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে ট্রেনে কাটা পড়ে এক স্কুলছাত্রী নিহত হয়েছে।

কালিহাতী উপজেলার ধলাটেঙ্গর এলাকায় মঙ্গলবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নুসরাত জাহান তোয়া এলেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। সে পরিবারের সঙ্গে এলেঙ্গা শামসুল হক কলেজের সামনে একটি ভাড়া বাসায় থাকত। তাদের বাড়ি চট্টগ্রামে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তারা স্কুলের পোশাক পরা দুটি ছেলেমেয়েকে রেললাইনে এসে বসে থাকতে দেখেন। মেয়েটি লাইনের ওপর আর ছেলেটি একটু নিচে পাথরের ওপর বসা ছিল। এ সময় উত্তরবঙ্গগামী নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনে ওই স্কুলছাত্রী কাটা পড়ে। এরপর ছেলেটি দ্রুত সেখান থেকে চলে যায়।

পুলিশ তার মোবাইল চেক করে জানায়, দুর্ঘটনার আধ ঘণ্টা আগে সোহাগ আল হাসান জয় নামের এক ছেলের সঙ্গে মেয়েটির মেসেঞ্জারে কথা হয়। তারা রেললাইনে দেখা করতে আসে।

তবে তোয়ার মা শায়লা বেগম বলেন, ‘সকালে বান্ধবীর বাসায় যাওয়ার কথা বলে আমার মেয়ে বের হয়। আমি আর আমার ছোট মেয়ে তাকে খানিকটা এগিয়েও দিয়ে আসি। বান্ধবীর বাসা থেকে তার স্কুলে পরীক্ষা দিতে যাওয়ার কথা। ও রেললাইনে কীভাবে গেল বুঝতে পারছি না।’

এলেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাজমুল করিম বলেন, ‘আজকে তোয়াদের গণিত পরীক্ষা ছিল। সকালে খবর পাই সে ট্রেনে কাটা পড়ে মারা গেছে।’

ঘারিন্দা রেলওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ এএসআই আব্দুস সবুর জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন:
নৌকা-সাইকেলের জমজমাট লড়াইয়ের আভাস রঘুনাথপুরে
কেন্দ্র থেকে বেরোনোর পরই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টকে কুপিয়ে জখম 
ইউপি নির্বাচন: দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ‘গুলিবিদ্ধ ২’
নেতা নৌকা না পাওয়ায় সড়ক অবরোধ
সব ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে, দাবি সিইসির

শেয়ার করুন

মা-মেয়েকে ধর্ষণ মামলা: দুজনকে যাবজ্জীবন

মা-মেয়েকে ধর্ষণ মামলা: দুজনকে যাবজ্জীবন

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে মা মেয়েকে ধর্ষণ মামলায় দুজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া একজনকে এক বছর কারাদণ্ডসহ দুই আসামিকে খালাস দিয়েছে আদালত।

গাইবান্ধার নারী ও শিশু ট্রাইব্যুনাল-২ আদালতের বিচারক মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে আবদুর রহমান এ রায় দেন।

নিউজবাংলাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ফারুক আহমেদ প্রিন্স।

যাবজ্জীবন দণ্ডিতরা হলেন এমদাদুল হক ও বেলাল হোসেন। এক বছর কারাদণ্ড পেয়েছেন আসামি খাজা মিয়া।

খালাস পাওয়া দুজন হলেন আজিজুল ইসলাম ও আসাদুল ইসলাম।

বিস্তারিত আসছে...

আরও পড়ুন:
নৌকা-সাইকেলের জমজমাট লড়াইয়ের আভাস রঘুনাথপুরে
কেন্দ্র থেকে বেরোনোর পরই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টকে কুপিয়ে জখম 
ইউপি নির্বাচন: দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ‘গুলিবিদ্ধ ২’
নেতা নৌকা না পাওয়ায় সড়ক অবরোধ
সব ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে, দাবি সিইসির

শেয়ার করুন

নির্বাচনি সহিংসতা: ছাত্রলীগ নেতা হত্যায় মামলা

নির্বাচনি সহিংসতা: ছাত্রলীগ নেতা হত্যায় মামলা

ইউপি নির্বাচনে সহিংসতায় নিহত লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জের ইছাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সজিব হোসেন। ছবি: নিউজবাংলা

রামগঞ্জ থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, ইছাপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হিসেবে সদ্য জয়ী আমিরকে প্রধান আসামি করে সজিবের বোন ২১ জনের নামসহ অজ্ঞাতপরিচয় ২০ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। এ ঘটনায় পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জের ইছাপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ ও এর বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি নিহতের ঘটনায় হত্যা মামলা হয়েছে।

নিহত সজিব হোসেনের বোন মঙ্গলবার সকালে বিজয়ী চেয়ারম্যান প্রার্থীকে প্রধান আসামি করে রামগঞ্জ থানায় মামলা করেন।

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, ২৮ তারিখের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন আমির হোসেন খাঁন। তিনি এই নির্বাচনে জয় পান।

আমিরকে প্রধান আসামি করে সজিবের বোন ২১ জনের নামসহ অজ্ঞাতপরিচয় ২০ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। এ ঘটনায় পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

এর আগে রোববার ওসি জানান, রোববার বিকেল পৌনে ৪টার দিকে নৌকা ও এর বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। পরে এটি সংঘর্ষ পর্যন্ত গড়ায়। সে সময় মাথায় আঘাত পান সজিব হোসেন।

তাকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে নেয়া হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সেখান থেকে চাঁদপুরের হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু হয়।

আরও পড়ুন:
নৌকা-সাইকেলের জমজমাট লড়াইয়ের আভাস রঘুনাথপুরে
কেন্দ্র থেকে বেরোনোর পরই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টকে কুপিয়ে জখম 
ইউপি নির্বাচন: দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ‘গুলিবিদ্ধ ২’
নেতা নৌকা না পাওয়ায় সড়ক অবরোধ
সব ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে, দাবি সিইসির

শেয়ার করুন

শফি-বাবুনগরীর পাশে শায়িত হলেন জিহাদী

শফি-বাবুনগরীর পাশে শায়িত হলেন জিহাদী

শফি-বাবুনগরীর পাশে শায়িত হলেন নুরুল ইসলাম জিহাদী। সংগৃহীত ছবি

হেফাজতে ইসলামের নতুন কমিটির নায়েবে আমির সালাউদ্দিন নানুপুরী নিউজবাংলাকে বলেন, ‘রাতে ঢাকায় জানাজা শেষে মাদ্রাসায় নিয়ে আসা হয় হুজুরের মরদেহ। শফি সাহেব ও বাবুনগরী সাহেবের কবরের পাশে তার জন্য কবর তৈরি করা হয়েছিল। মরদেহ মাদ্রাসায় আনার পর ফজরের আজানের আগে দাফন করা হয়েছে।’

আল্লামা শাহ আহমদ শফী ও জুনায়েদ বাবুনগরীর পাশে শায়িত হলেন হেফাজতে ইসলামের প্রয়াত মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদী।

মঙ্গলবার ফজরের আজানের আগে হাটহাজারী দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসায় সংলগ্ন বায়তুন নূর মসজিদের পেছনে তাকে দাফন করা হয়।

নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হেফাজতে ইসলামের নতুন কমিটির নায়েবে আমির সালাউদ্দিন নানুপুরী।

তিনি নিউজবাংলাকে বলেন, ‘রাতে ঢাকায় জানাজা শেষে মাদ্রাসায় নিয়ে আসা হয় হুজুরের মরদেহ। শফি সাহেব ও বাবুনগরী সাহেবের কবরের পাশে তার জন্য কবর প্রস্তুত করে রাখা হয়েছিল। মরদেহ মাদ্রাসায় আনার পর ফজরের আজানের আগে দাফন করা হয়েছে।’

এর আগে সোমবার সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালের চিকিৎসধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। শনিবার রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ায় ল্যাবএইডে ভর্তি করা হয়েছিল তাকে।

আরও পড়ুন:
নৌকা-সাইকেলের জমজমাট লড়াইয়ের আভাস রঘুনাথপুরে
কেন্দ্র থেকে বেরোনোর পরই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টকে কুপিয়ে জখম 
ইউপি নির্বাচন: দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ‘গুলিবিদ্ধ ২’
নেতা নৌকা না পাওয়ায় সড়ক অবরোধ
সব ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে, দাবি সিইসির

শেয়ার করুন

গাজীপুরে পোশাক কারখানায় আগুন

গাজীপুরে পোশাক কারখানায় আগুন

কোনাবাড়িতে পোশাক কারখানায় লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ছয়টি ইউনিট। ছবি: নিউজবাংলা

জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার তাশারুফ হোসেন বলেন, প্রথমে কাশিমপুর ডিবিএলের একটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। পরে জয়দেবপুর থেকে আরও তিনটি ইউনিট যোগ দেয়। ভবনের নিচতলায় আগুনের সূত্রপাত। আশাকরি দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হবে।

গাজীপুরের কোনাবাড়িতে একটি পোশাক কারখানায় আগুন লেগেছে। ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে।

জরুন এলাকার রিপন গার্মেন্টসে মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১২টার দিকে আগুন লাগে।

নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার তাশারুফ হোসেন।

তিনি বলেন, প্রথমে কাশিমপুর ডিবিএলের একটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। পরে জয়দেবপুর ও উত্তরা থেকে আরও পাঁচটি ইউনিট যোগ দেয়। ভবনের নিচতলায় আগুনের সূত্রপাত। আশাকরি দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হবে।


গাজীপুরে পোশাক কারখানায় আগুন


কারখানার নিরাপত্তাকর্মী কাজল কুমার ও বিপ্লব বলেন, দুপুর সোয়া ১২ টার দিকে হঠাৎ নিচতলার গোডাউনে আগুন লাগে। পরে ফায়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করেছে।

শ্রমিক হাবিব বলেন, ‘কারখানায় প্রায় ৩ হাজার শ্রমিক কাজ করেন। হঠাৎ নিচতলায় আগুন লাগলে আমরা সবাই নিরাপদে বের হয়ে যাই। এখন আগুন আরও বেড়েছে।’

আরও আসছে...

আরও পড়ুন:
নৌকা-সাইকেলের জমজমাট লড়াইয়ের আভাস রঘুনাথপুরে
কেন্দ্র থেকে বেরোনোর পরই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টকে কুপিয়ে জখম 
ইউপি নির্বাচন: দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ‘গুলিবিদ্ধ ২’
নেতা নৌকা না পাওয়ায় সড়ক অবরোধ
সব ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে, দাবি সিইসির

শেয়ার করুন

চট্টগ্রামে ট্রাকের ধাক্কায় তরুণ নিহত

চট্টগ্রামে ট্রাকের ধাক্কায় তরুণ নিহত

ফাইল ছবি

কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) চৌধুরী রেজাউল করিম জানান, ভোরে ওভারটেক করতে গিয়ে ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী ওই তরুণ আহত হন। তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালিতে ট্রাকের ধাক্কায় এক তরুণ নিহত হয়েছেন।

কোতোয়ালি থানার নিউমার্কেট এলাকায় মোটেল সৈকতের সামনে মঙ্গলবার ভোর ৫টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) চৌধুরী রেজাউল করিম নিউজবাংলাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের নাম জগদীশ দাশ। তিনি চকবাজারের জয়নগর এলাকার নির্মল কান্তি দাশের ছেলে।

কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) চৌধুরী রেজাউল করিম নিউজবাংলাকে জানান, ভোরে ওভারটেক করতে গিয়ে ট্রাকের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী ওই তরুণ আহত হন। তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন:
নৌকা-সাইকেলের জমজমাট লড়াইয়ের আভাস রঘুনাথপুরে
কেন্দ্র থেকে বেরোনোর পরই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টকে কুপিয়ে জখম 
ইউপি নির্বাচন: দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ‘গুলিবিদ্ধ ২’
নেতা নৌকা না পাওয়ায় সড়ক অবরোধ
সব ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে, দাবি সিইসির

শেয়ার করুন