মাছ ধরার নৌকা ডুবে নিখোঁজ বাবা-ছেলে

মাছ ধরার নৌকা ডুবে নিখোঁজ বাবা-ছেলে

লক্ষ্মীপুরে মাছ ধরার নৌকা ডুবে নিখোঁজ রয়েছেন মো. নুরুজ্জামান ও তার ছেলে নুর উদ্দিন। ছবি: সংগৃহীত

নিখোঁজ নুরুজ্জামানের ভাগনে মো. জিল্লাল জানান, রাতে নদীতে মাছ ধরার সময় মাতব্বারহাটের দিকে মেঘনার একটি পন্টুনের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে নুরুজ্জামানের নৌকাটি ডুবে যায়। নৌকায় ছয়জন ছিলেন। ঘটনার পর চার জেলে সাঁতার কেটে কূলে উঠতে পারলেও নুরুজ্জামান ও নুর উদ্দিন নিখোঁজ হন।

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে মেঘনা নদীতে পন্টুনের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে মাছ ধরার নৌকা ডুবে নিখোঁজ রয়েছেন দুই ব্যক্তি। তারা সম্পর্কে বাবা-ছেলে।

উপজেলার মাতব্বারহাট এলাকায় মেঘনা নদীতে রোববার রাত ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিখোঁজরা হলেন উপজেলার চরফলকন ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের জাজিরা এলাকার বাসিন্দা মো. নুরুজ্জামান ও তার ছেলে নুর উদ্দিন।

রোববার দুপুরে বিষয়টি নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেন কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোসলেহ উদ্দিন।

নিখোঁজ নুরুজ্জামানের ভাগনে মো. জিল্লাল জানান, রাতে নদীতে মাছ ধরার সময় মাতব্বারহাটের দিকে মেঘনার একটি পন্টুনের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে নুরুজ্জামানের নৌকাটি ডুবে যায়। নৌকায় ছয়জন ছিলেন। ঘটনার পর চার জেলে সাঁতার কেটে কূলে উঠতে পারলেও নুরুজ্জামান ও নুর উদ্দিন নিখোঁজ হন।

জিল্লাল আরও জানান, নুর উদ্দিন একটি বিমা কোম্পানিতে চাকরি করতেন। শখ করে বাবার সঙ্গে নদীতে মাছ ধরতে গিয়েছিলেন তিনি। তবে তিনি সাঁতার জানতেন না।

পুলিশের ধারণা, সাঁতার না জানা ছেলে নুরকে বাঁচাতে গিয়েই নিখোঁজ হন নুরুজ্জামানও। নদীর বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তাদের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

ওসি মোসলেহ উদ্দিন জানান, নিখোঁজ দুজনকে উদ্ধার করতে অভিযান চালাচ্ছে নৌ-পুলিশ।

আরও পড়ুন:
খোঁজ মেলেনি স্কুলছাত্রের সুফিয়ানের
স্কুলে যাওয়ার পথে দুই ছাত্রী নিখোঁজ
মায়ের সঙ্গে গোসলে নেমে মেঘনায় নিখোঁজ  
‘নিখোঁজ’ ২ কিশোরীর সন্ধানে পেতে জিডি
প্রতিমা বিসর্জনে গিয়ে পদ্মায় যুবক নিখোঁজ

শেয়ার করুন

মন্তব্য

এইচএসসির প্রবেশপত্র না পেয়ে সড়ক অবরোধ

এইচএসসির প্রবেশপত্র না পেয়ে সড়ক অবরোধ

রংপুরে সড়ক অবরোধ করেছে এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা। ছবি: নিউজবাংলা

পরীক্ষার্থী মো. মুকুল বলেন, ‘আমাদের ফরম পূরণ বাবদ ২৬৬ জন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে তিন হাজার একশ টাকা নেয়া হয়েছে। আগামীকাল পরীক্ষা। আমরা কলেজে গেছিলাম, প্রিন্সিপল স্যার ছিলেন না। কলেজের দপ্তরি খোকন ছিলেন। আমরা প্রবেশপত্রের কথা বললে কেউ কিছু বলতে পারেনি।’

এইচএসসি পরীক্ষার প্রবেশপত্র না পাওয়ায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে রংপুরের সাহেবগঞ্জ বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থীরা। তাদের অভিযোগ, বুধবার পরীক্ষা, অথচ প্রবেশপত্র না দিয়ে উধাও হয়ে গেছেন অধ্যক্ষ।

সাহেবগঞ্জ তিন মাথার মোড়ে অবস্থান নিয়ে বুধবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে বিক্ষোভ করেছে তারা। এতে রংপুর হারাগাছ ও হারাগাছ সাত মাথা সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পরীক্ষার্থী মো. মুকুল বলেন, ‘আমাদের ফরম পূরণ বাবদ ২৬৬ জন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে তিন হাজার একশ টাকা নেয়া হয়েছে। আগামীকাল পরীক্ষা। আমরা কলেজে গেছিলাম, প্রিন্সিপল স্যার ছিলেন না। কলেজের দপ্তরি খোকন ছিলেন। আমরা প্রবেশপত্রের কথা বললে কেউ কিছু বলতে পারেনি।’

আরেক ছাত্র শাকিল ইসলাম বলেন, ‘অ্যাডমিট কার্ড না পেলে এবং পরীক্ষা দিতে না পারলে সড়ক ছাড়ব না।’

বিক্ষুব্ধ ছাত্রদের সঙ্গে রাস্তায় দেখা গেছে অভিভাবকদেরও।

এক পরীক্ষার্থীর মা নাজনীন বেগম বলেন, ‘কত কষ্ট করি আমার মেয়ের ফরম পুরণের টাকা দিচি। মেয়ে পরীক্ষা দিতে পারবে না এটা কেমন কথা। ওই প্রিন্সিপল টাকা মারি খাইচে। হামরা ওই প্রিন্সিপলের বিচার চাই।’

আরেক অভিভাবক রানু বালা বলেন, ‘আমার মেয়ের জীবনটা নষ্ট না হয়। আরও এক বছর গেলে জীবন তো শ্যাষ। আমার দুইটা মেয়ে পড়ে। অ্যাডমিট দেউক, মেয়েরা পরীক্ষা দিবে।’

এ বিষয়ে জানতে কলেজের অধ্যক্ষ মো. আইনুলের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার সাজ্জাদ হোসেন জানান, পরীক্ষার্থীদের অভিযোগ শুনেছেন। তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছেন।

আরও পড়ুন:
খোঁজ মেলেনি স্কুলছাত্রের সুফিয়ানের
স্কুলে যাওয়ার পথে দুই ছাত্রী নিখোঁজ
মায়ের সঙ্গে গোসলে নেমে মেঘনায় নিখোঁজ  
‘নিখোঁজ’ ২ কিশোরীর সন্ধানে পেতে জিডি
প্রতিমা বিসর্জনে গিয়ে পদ্মায় যুবক নিখোঁজ

শেয়ার করুন

৪২ যাত্রী নিয়ে চট্টগ্রামে বিমানের ফ্লাইটের জরুরি অবতরণ

৪২ যাত্রী নিয়ে চট্টগ্রামে বিমানের ফ্লাইটের জরুরি অবতরণ

চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করেছে বাংলাদেশ বিমানের এই ফ্লাইটটি। ছবি: নিউজবাংলা

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটটির ল্যান্ডিং গিয়ারে সমস্যা দেখা দেয়। এ কারণে সেটি জরুরি অবতরণ করে। তবে প্রথমবার অবতরণের চেষ্টা সফল হয়নি।

ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া যাত্রীবাহী একটি উড়োজাহাজে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়ার পর সেটি চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করেছে।

রাত ৯টা ৪০ মিনিটে বিমানটি অবতরণ করে বলে নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন বিমানবন্দরে বিমান বাংলাদেশের সহকারী ম্যানেজার ওমর ফারুক।

তিনি জানান, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটটির ল্যান্ডিং গিয়ারে সমস্যা দেখা দেয়। এ কারণে সেটি জরুরি অবতরণ করে। তবে প্রথমবার অবতরণের চেষ্টা সফল হয়নি।

তিনি আরও জানান, ফ্লাইটিতে ৪২ জন যাত্রী ছিলেন । ঢাকা থেকে রাত পৌনে ৯টায় এটি চট্টগ্রাম বিমানবন্দরের উদ্দেশে যাত্রা করে।

আরও পড়ুন:
খোঁজ মেলেনি স্কুলছাত্রের সুফিয়ানের
স্কুলে যাওয়ার পথে দুই ছাত্রী নিখোঁজ
মায়ের সঙ্গে গোসলে নেমে মেঘনায় নিখোঁজ  
‘নিখোঁজ’ ২ কিশোরীর সন্ধানে পেতে জিডি
প্রতিমা বিসর্জনে গিয়ে পদ্মায় যুবক নিখোঁজ

শেয়ার করুন

বল ভেবে ককটেল হাতে নিয়েছিল শিশুটি

বল ভেবে ককটেল হাতে নিয়েছিল শিশুটি

শরীয়তপুরে কুড়িয়ে পাওয়া ককটেল বিস্ফোরণে আঙুল হারিয়েছে শিশুটি। ছবি: নিউজবাংলা

দুপুরে বাড়ির পাশের ক্ষেতে খেলতে যায় ৬ বছরের মাহিম। এ সময় লাল স্কচটেপে মোড়ানো ককটেলটিকে বল ভেবে কুড়িয়ে নেয় সে। বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছালে সেটি বিস্ফোরিত হয়। আশপাশের লোকজন ও তার বাবা-মা গিয়ে তাকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নেয়।

শরীয়তপুরে কুড়িয়ে পাওয়া ককটেল বিস্ফোরণে এক শিশু আহত হয়েছে। তার একটি হাত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে আঙ্গুল, দগ্ধ হয়েছে শরীরের কিছু অংশ।

সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়নের দাদপুর গ্রামে বুধবার দুপুরে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

শিশুটির নাম মাহিম বলে জানান পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকতার হোসেন।

স্থানীয়দের বরাতে তিনি জানান, দুপুরে বাড়ির পাশের ক্ষেতে খেলতে যায় ৬ বছরের মাহিম। এ সময় লাল স্কচটেপে মোড়ানো ককটেলটিকে বল ভেবে কুড়িয়ে নেয় সে। বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছালে সেটি বিস্ফোরিত হয়। আশপাশের লোকজন ও তার বাবা-মা গিয়ে তাকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নেয়।

ওসি বলেন, ‘বিস্ফোরণে শিশুটির ডান হাতের একটি আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন হয়েছে। হাতের বিভিন্ন অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্তে কাজ শুরু হয়েছে।

আরও পড়ুন:
খোঁজ মেলেনি স্কুলছাত্রের সুফিয়ানের
স্কুলে যাওয়ার পথে দুই ছাত্রী নিখোঁজ
মায়ের সঙ্গে গোসলে নেমে মেঘনায় নিখোঁজ  
‘নিখোঁজ’ ২ কিশোরীর সন্ধানে পেতে জিডি
প্রতিমা বিসর্জনে গিয়ে পদ্মায় যুবক নিখোঁজ

শেয়ার করুন

ছাত্রীকে ‘ধর্ষণচেষ্টা’, মাদ্রাসাশিক্ষক কারাগারে

ছাত্রীকে ‘ধর্ষণচেষ্টা’, মাদ্রাসাশিক্ষক কারাগারে

বাদী বলেন, ‘মেয়ে আমার স্ত্রীকে জানায়, মাদ্রাসায় যাওয়ার ২০ মিনিট পর পাঁচতলার একটি কক্ষে নিয়ে রাকিবুল ধর্ষণের চেষ্টা করে। সে পালিয়ে বের হয়। ঘটনা শুনেই আমি ৯৯৯ এ কল দিয়ে পুলিশকে জানাই।’

নারায়ণগঞ্জ বন্দরে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মাদ্রাসাশিক্ষকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

তাকে বুধবার বিকালে নারায়ণগঞ্জের জ্যেষ্ট বিচারিক হাকিম আদালতে তোলা হলে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক বিচারক নুর নাহার ইয়াসমিন।

আদালত পুলিশের পরির্দশক মো. আসাদুজ্জামান নিউজবাংলাকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শিশুটিকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে তার বাবা মাদ্রাসাশিক্ষক রাকিবুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

বাদী বলেন, ‘আমার মেয়ে বন্দরের ওই মাদ্রাসায় চতুর্থ শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। মঙ্গলবার সকালে আমি মেয়েকে মাদ্রাসায় নামিয়ে দিয়ে কাজে যাই। আমার প্রতিবেশীর মেয়েও ওই মাদ্রাসায় পড়ে।

‘বেলা ১১ টার দিকে আমার প্রতিবেশী তার মেয়েকে আনতে গেলে দেখেন আমার মেয়ে কান্নাকাটি করছে। তাকে বাড়ি নিয়ে আসলে মেয়ে আমার স্ত্রীকে জানায়, মাদ্রাসায় যাওয়ার ২০ মিনিট পর পাঁচতলার একটি কক্ষে নিয়ে রাকিবুল ধর্ষণের চেষ্টা করে। সে পালিয়ে বের হয়। ঘটনা শুনেই আমি ৯৯৯ এ কল দিয়ে পুলিশকে জানাই।’

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিপক চন্দ্র সাহা জানান, গত রাতে ৯৯৯ নাম্বারে ফোন করে ওই ব্যক্তি ঘটনাটি জানান। পুলিশ গিয়ে ওই মাদ্রাসা থেকে রাকিবুলকে আটক করে। পরে তার নামে মামলা হয়।

আরও পড়ুন:
খোঁজ মেলেনি স্কুলছাত্রের সুফিয়ানের
স্কুলে যাওয়ার পথে দুই ছাত্রী নিখোঁজ
মায়ের সঙ্গে গোসলে নেমে মেঘনায় নিখোঁজ  
‘নিখোঁজ’ ২ কিশোরীর সন্ধানে পেতে জিডি
প্রতিমা বিসর্জনে গিয়ে পদ্মায় যুবক নিখোঁজ

শেয়ার করুন

এবার চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় পথচারী আহত

এবার চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় পথচারী আহত

পাঁচলাইশ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাদেকুর রহমান নিউজবাংলাকে জানান, সুজন নামে ওই পথচারী দুই পায়ে ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত পেয়েছেন। আহতাবস্থায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তবে তার অবস্থা আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় দুজনের প্রাণহানির রেশ কাটতে না কাটতেই এবার চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় এক পথচারী আহত হয়েছেন।

নগরীর দেওয়ানহাট সেতুর নিচে বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতের নাম মো. সুজন, তবে তার বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি। তার আনুমানিক বয়স ৬০ বছর।

পাঁচলাইশ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাদেকুর রহমান নিউজবাংলাকে জানান, সুজন নামে ওই পথচারী দুই পায়ে ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত পেয়েছেন। আহতাবস্থায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তবে তার অবস্থা আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

সিটি করপোরেশনের গাড়িটি সড়কবাতি সংস্কারের কাজে নিয়োজিত ছিল বলেও জানান তিনি।

নিরাপদ সড়ক আন্দোলন নিয়ে এমনিতেই এখন উত্তাল দেশ। ঘটনার শুরু গত ২৪ নভেম্বর রাজধানীর গুলিস্তানে হল মার্কেটের কাছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নটর ডেম কলেজের নাঈম হাসান নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে।

সেই ঘটনার বিচার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যেই ২৫ নভেম্বর ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ির চাপায় প্রাণ যায় আহসান কবির খান নামে আরেক ব্যক্তির।

এরপর নিরাপদ সড়কের দাবিতে সড়কে নামে শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন সংগঠন। এর মধ্যেই আজ দেশের দ্বিতীয় প্রধান নগরীতে সরকারি প্রতিষ্ঠানের গাড়ির ধাক্কায় আহত হলেন একজন।

আরও পড়ুন:
খোঁজ মেলেনি স্কুলছাত্রের সুফিয়ানের
স্কুলে যাওয়ার পথে দুই ছাত্রী নিখোঁজ
মায়ের সঙ্গে গোসলে নেমে মেঘনায় নিখোঁজ  
‘নিখোঁজ’ ২ কিশোরীর সন্ধানে পেতে জিডি
প্রতিমা বিসর্জনে গিয়ে পদ্মায় যুবক নিখোঁজ

শেয়ার করুন

বহুতল ভবন থেকে পড়ে প্রাণ গেল শ্রমিকের

বহুতল ভবন থেকে পড়ে প্রাণ গেল শ্রমিকের

চট্টগ্রামে বহুতল ভবন থেকে পড়ে নিহত রিয়াদ হোসাইন রনি। ছবি: নিউজবাংলা

রনির বড় ভাই কাইছার হোসেন নিউজবাংলাকে জানান, বেলা ১১টার দিকে চুনতি এলাকায় পাঁচতলা একটি ভবনে রঙের কাজ করার সময় নিচে পড়ে আহত হন রনি। তাকে উদ্ধার করে পরে আমিরাবাদের একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় বহুতল ভবন থেকে পড়ে রিয়াদ হোসাইন রনি নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

উপজেলার চুনতি এলাকায় বুধবার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ২২ বছরের রনির বাড়ি একই উপজেলার আমিরাবাদ এলাকায়।

রনির বড় ভাই কাইছার হোসেন নিউজবাংলাকে জানান, বেলা ১১টার দিকে চুনতি এলাকায় পাঁচতলা একটি ভবনে রঙের কাজ করার সময় নিচে পড়ে আহত হন রনি। তাকে উদ্ধার করে পরে আমিরাবাদের একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত রনির বন্ধু আব্দুর রহিম বলেন, ‘পারিবারিক অভাব-অনটনের কারণে পড়াশোনা বন্ধ করে রনি রঙের কাজ করত। চলতি মাসে তার দুবাই চলে যাওয়ার কথা ছিল। সব কিছু সম্পন্ন হয়েছে, শুধু ফ্লাইটের তারিখ ফিক্সড হয়নি। এর মধ্যেই এই দুর্ঘটনা ঘটে গেল।’

লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসেন নিউজবাংলাকে জানান, তারা এমন কোনো তথ্য পাননি। নিহতের পরিবার থেকেও তাদের কিছু জানানো হয়নি।

আরও পড়ুন:
খোঁজ মেলেনি স্কুলছাত্রের সুফিয়ানের
স্কুলে যাওয়ার পথে দুই ছাত্রী নিখোঁজ
মায়ের সঙ্গে গোসলে নেমে মেঘনায় নিখোঁজ  
‘নিখোঁজ’ ২ কিশোরীর সন্ধানে পেতে জিডি
প্রতিমা বিসর্জনে গিয়ে পদ্মায় যুবক নিখোঁজ

শেয়ার করুন

বাঁশখালীতে ফের মৃত হাতি

বাঁশখালীতে ফের মৃত হাতি

চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে আবারও মিলল মৃত হাতি। ছবি: নিউজবাংলা

চট্টগ্রাম দক্ষিণ বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম নিউজবাংলাকে বলেন, ‘একদল লোক ওই হাতিকে মাটিচাপা দিচ্ছিল। সেই খবর পেয়ে বনবিভাগের লোকজন সেখানে যায়। মাটি খুঁড়ে হাতির মৃতদেহটি তোলা হয়। তবে কাউকে সেখানে পাওয়া যায়নি।’ 

চট্টগ্রামের বাঁশখালীর পাহাড়ি এলাকা থেকে আবারও একটি মৃত বন্যহাতি উদ্ধার করেছে বনবিভাগ।

বাঁশখালীর সাধনপুর ইউনিয়নের লটমনি এলাকা থেকে মঙ্গলবার দুপুরে হাতির মৃতদেহটি পাওয়া গেলে বুধবার বিকালে তা সংবাদমাধ্যমকে জানান বনবিভাগ কর্মকর্তারা।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম নিউজবাংলাকে বলেন, ‘একদল লোক ওই হাতিকে মাটিচাপা দিচ্ছিল। সেই খবর পেয়ে বনবিভাগের লোকজন সেখানে যায়। মাটি খুঁড়ে হাতির মৃতদেহটি তোলা হয়। তবে কাউকে সেখানে পাওয়া যায়নি।

‘হাতিটির শরীরের আঘাতে চিহ্ন নেই। প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি, বৈদ্যুতিক ফাঁদ ব্যবহার করে মেরে ফেলা হয়েছে। এরপর বিষয়টি গোপন করার জন্য মাটিতে পুতে ফেলা হচ্ছিল।’

হাতিটি মাঝবয়সী বলে জানান এই কর্মকর্তা।

তিনি আরও জানান, ময়নাতদন্তের জন্য আলামত রেখে মৃতদেহটি মাটিচাপা দেয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য ডুলাহাজরা সাফারি পার্ক থেকে চিকিৎসক আনা হয়েছে।

বন কর্মকর্তা বলেন, ‘সাধনপুর বিট কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন এই ঘটনায় বাঁশখালী থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ময়নাতদন্ত রিপোর্টের পর আমরা পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেব।’

এই নভেম্বরেই শেরপুর, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে গুলিতে ও বিদ্যুতায়িত হয়ে ৮টি হাতি মারা গেছে।

আরও পড়ুন:
খোঁজ মেলেনি স্কুলছাত্রের সুফিয়ানের
স্কুলে যাওয়ার পথে দুই ছাত্রী নিখোঁজ
মায়ের সঙ্গে গোসলে নেমে মেঘনায় নিখোঁজ  
‘নিখোঁজ’ ২ কিশোরীর সন্ধানে পেতে জিডি
প্রতিমা বিসর্জনে গিয়ে পদ্মায় যুবক নিখোঁজ

শেয়ার করুন