এক কিলোমিটার সড়কে লাখো মানুষের ভোগান্তি

এক কিলোমিটার সড়কে লাখো মানুষের ভোগান্তি

দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় মানিকগঞ্জ পৌরসভার বেউথা-আন্দারমানিক সড়কটিতে চলাচলে লাখো মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ছবি: নিউজবাংলা

যোগাযোগ সহজ হওয়ায় গুরুত্বপূর্ণ এই সড়ক দিয়ে জেলার হরিরামপুর, ঘিওর, শিবালয় ও দৌলতপুর উপজেলার লক্ষাধিক মানুষ যাতায়াত করে। বাস, ট্রাক, সিএনজি, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাসহ ছোট-বড় হাজারো যানবাহন চলে এই সড়কে। তবে সংস্কারের অভাবে পিচঢালাই উঠে সড়কের বিভিন্ন স্থানে ছোট-বড় শত শত গর্ত তৈরি হয়েছে।

মানিকগঞ্জ পৌরসভার বেউথা-আন্দারমানিক সড়কটি সংস্কার করা হয়নি দীর্ঘদিন। এতে সড়কের পিচ উঠে পরিণত হয়েছে মেঠো রাস্তায়। গ্রীষ্মে এ সড়কে থাকে ধুলা, আর বর্ষায় কাদা। মাত্র এক কিলোমিটার সড়কটির এমন অবস্থায় দুর্ভোগ পোহাচ্ছে লাখো মানুষ।

স্থানীয়রা জানান, জেলা শহরের সঙ্গে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের যোগাযোগের সহজ মাধ্যম এই সড়ক। তবে সড়কটির বেহাল অবস্থায় প্রতিনিয়ত ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে যাত্রী ও যানবাহন চালকদের।

সরেজমিনে দেখা যায়, যোগাযোগ সহজ হওয়ায় গুরুত্বপূর্ণ এই সড়ক দিয়ে জেলার হরিরামপুর, ঘিওর, শিবালয় ও দৌলতপুর উপজেলার লক্ষাধিক মানুষ যাতায়াত করে। বাস, ট্রাক, সিএনজি ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাসহ ছোট-বড় হাজারো যানবাহন চলে এই সড়কে।

এক কিলোমিটার সড়কে লাখো মানুষের ভোগান্তি

তবে সংস্কারের অভাবে পিচঢালাই উঠে সড়কের বিভিন্ন স্থানে ছোট-বড় শত শত গর্ত তৈরি হয়েছে।

স্থানীয় লুৎফর রহমান লাভলু জানান, ‘গরমের দিনে নাক-মুখ ঢাইকা কোনোমতে চলা যায়, কিন্তু বৃষ্টির দিনে চলাচল করা যায় না। রাস্তায় বাইর হইলে গাড়ির চাকার কাদা-পানিতে জামা-কাপড় নষ্ট হয়ে যায়। এভাবে চলাচল করা যায় আপনেই বলেন?’

আন্দারমানিক এলাকার টুটুল মিয়া জানান, ‘দীর্ঘদিন ধইরা রাস্তার মেরামত করা হই না। বেশি খারাপ হইলে মাঝেমধ্যে ইট আর সুরকি ফালায়। বৃষ্টি নামলেই রাস্তায় অ্যাক্সিডেন্ট হয়।

‘হয় গর্তে পড়ে যায়, না হয় কাদায় পিছলাইয়া যায়। মাঝেমধ্যে দেখি অটোবাইক উল্টাইয়া রইছে। বৃষ্টির দিনে রাস্তায় কম বের হই। মাইনসের বাড়ির ওপর দিয়া যাওয়া-আসা করি।’

ট্রাকচালক আবু কাদের জানান, ‘ভাইজান সারা রাস্তা ভালোই আসি। যখনই এই রাস্তায় ঢুকি মেজাজ খারাপ হইয়া যায়। খারাপের তো একটা ধরন আছে। এই রাস্তা এতই খারাপ যে, এর চাইতে খেতও ভালো। আল্লায় জানে এইখানে প্রশাসন আছে কি না।’

এক কিলোমিটার সড়কে লাখো মানুষের ভোগান্তি

অটোরিকশাচালক হেলাল উদ্দিন বলেন, ‘অটো এমনেই ঝুঁকি। তার মধ্যে ভাঙাচোরা আর কাদার রাস্তা। মাঝেমধ্যেই গাড়ি নিয়া পইরা যাই। যাত্রীদের হাত-পা ছুইলা যায়। জামা-কাপড় নষ্ট হইয়া যায়। অনেক সময় যাত্রীরাও রাগারাগি করে। কী করুম, গাড়ি তো চালাইতে হইব।’

যাত্রী আমেনা, বিলকিস, নাজমাসহ বেশ কয়েকজন জানান, এই রাস্তায় যাতায়াত করলে শরীরের হাড় পর্যন্ত ব্যথা হয়ে যায়। বাড়িতে গিয়ে অনেকের ওষুধ খাওয়া লাগে। তা ছাড়া পড়ে গিয়ে মাঝেমধ্যেই আহত হতে হয়।

মানিকগঞ্জ পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু মো. নাহিদ বলেন, ‘রাস্তার দুই পাশের পানি বের হওয়ার ব্যবস্থা না থাকায় পানি জমে। এতে মানুষের কষ্ট হয়। নতুন একটা প্রজেক্ট হাতে নেয়া হয়েছে। আশা করি, প্রজেক্টটা পাস হলে রাস্তাও সোজা হবে এবং মানুষের ভোগান্তিও কমবে।

আরও পড়ুন:
ছুটির দিনে পাটুরিয়ায় গাড়ির চাপ
পৌরসভার সাপ্লাইয়ের পানিতে ময়লা, ভোগান্তি
ড্রেন দরকার ৫৫ কিলোমিটার, আছে ৩ কিলোমিটার
খুঁড়িয়ে চলছে ঢাকা-পঞ্চগড় আন্তনগর
ভালো রাস্তা না থাকায় ভেঙে যাচ্ছে বিয়ে 

শেয়ার করুন

মন্তব্য

তালা ভেঙ্গে দোকানে চুরির অভিযোগ

তালা ভেঙ্গে দোকানে চুরির অভিযোগ

কালকিনিতে দোকানের তালা ভেঙ্গে চুরির ঘটনার অভিযোগ উঠেছে।ছবি: নিউজবাংলা

কালকিনি থানার ওসি (তদন্ত) নাসির হোসেন বলেন, ‘আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। চুরির বিষয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। আইনগত উপায়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

মাদারীপুরের কালকিনিতে ইলেকট্রনিক্স পণ্যের একটি দোকানে তালা ভেঙ্গে চুরির অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার কুন্ডুবাড়ি নামক স্থানে শনিবার মধ্যরাতে এ ঘটনা ঘটে।

এসময় তারা ওই দোকান থেকে প্রায় ৬ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে বলে জানা যায়।

খবর পেয়ে রোববার সকালে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

তালা ভেঙ্গে দোকানে চুরির অভিযোগ

দোকান মালিকের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, পৌর এলাকার পূয়ালী মাদারীপুর গ্রামের হাবিবুর রহমান মুন্সি অনেক দিন ধরেই ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের পাশে ‘মক্কা ট্রেডার্স’ নামে একটি দোকান দিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলেন। শনিবার মধ্যরাতে ৭ থেকে ৮ জনের একটি চক্র তার দোকান থেকে ১৯০টি এলপি গ্যাস, ১টি আইপিএস ব্যাটারি, ৩টি ক্যামেরা ও নগদ ৪৮ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে গেছে।

দোকানের মালিক হাবিবুর রহমান মুন্সি বলেন, ‘অনেক কষ্ট করে এই ব্যবসা গড়ে তুলেছিলাম। কিন্তু চোররা আমার সর্বনাশ করেছে। তাদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে মালামাল উদ্ধার করতে পুলিশ ও প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।’

কালকিনি থানার ওসি (তদন্ত) নাসির হোসেন বলেন, ‘আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। চুরির বিষয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। আইনগত উপায়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

আরও পড়ুন:
ছুটির দিনে পাটুরিয়ায় গাড়ির চাপ
পৌরসভার সাপ্লাইয়ের পানিতে ময়লা, ভোগান্তি
ড্রেন দরকার ৫৫ কিলোমিটার, আছে ৩ কিলোমিটার
খুঁড়িয়ে চলছে ঢাকা-পঞ্চগড় আন্তনগর
ভালো রাস্তা না থাকায় ভেঙে যাচ্ছে বিয়ে 

শেয়ার করুন

এমপির সামনে ‘লাঞ্ছিত’ ব্যাংক কর্মকর্তা: প্রতিবাদে মানববন্ধন

এমপির সামনে ‘লাঞ্ছিত’ ব্যাংক কর্মকর্তা: প্রতিবাদে মানববন্ধন

সোনালী ব্যাংক পলাশবাড়ি শাখার অফিসার মকবুল হোসেনের বলেন, ‘সোনালী ব্যাংক পলাশবাড়ি শাখার ম্যানেজার রওশন জামিলকে গালিগালাজ করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোকসেদ চৌধুরী বিদ্যুৎ। এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় ইউএনও কামরুজ্জামান নয়নকেও অপদস্ত করা হয়। স্থানীয় এমপির উপস্থিতিতে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় চেয়ারম্যানের এমন কর্মকাণ্ড মেনে নেয়া যায় না।’

গাইবান্ধা-৩ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) ও কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতির উপস্থিতিতে এক ব্যাংক কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিত এবং ইউএনওকে অপদস্ত করার অভিযোগ এনে মানববন্ধন হয়েছে।

পলাশবাড়ি উপজেলার সোনালী ব্যাংক লিমিটেড কার্যালয়ের সামনে রোববার সকালে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

এ সময় সোনালী ব্যাংক পলাশবাড়ি শাখার অফিসার মকবুল হোসেনের বলেন, ‘সোনালী ব্যাংক পলাশবাড়ি শাখার ম্যানেজার রওশন জামিলকে গালিগালাজ করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোকসেদ চৌধুরী বিদ্যুৎ। এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় ইউএনও কামরুজ্জামান নয়নকেও অপদস্ত করা হয়।

‘স্থানীয় এমপির উপস্থিতিতে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় চেয়ারম্যানের এমন কর্মকাণ্ড মেনে নেয়া যায় না। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ ঘটনায় যদি উপজেলা চেয়ারম্যানকে শাস্তির আওতায় না আনা হয় তাহলে আগামীতে কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি দেয়া হবে।’

ব্যাংক কর্মকর্তা মকবুল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন পলাশবাড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শহীদুল ইসলাম বাদশা, সোনালী ব্যাংক গাইবান্ধা শাখার ম্যানেজার ছাবিনা ইয়াসমিন ছন্দা, সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তা শান্তনা ও আইটি অফিসার এটিএম আরিফুজ্জামান মন্ডলসহ অনেকে।

এ সময় গ্রাহকদের মধ্যে হযরত আলী, খয়রাজ্জামান, ইব্রাহিম মিয়া, সেলিম মিয়া, রহিমা বেগম, রাবেয়া বেগম ও মমতা বেগমসহ প্রায় অর্ধশতাধিক গ্রাহক অংশ নেন।

আরও পড়ুন:
ছুটির দিনে পাটুরিয়ায় গাড়ির চাপ
পৌরসভার সাপ্লাইয়ের পানিতে ময়লা, ভোগান্তি
ড্রেন দরকার ৫৫ কিলোমিটার, আছে ৩ কিলোমিটার
খুঁড়িয়ে চলছে ঢাকা-পঞ্চগড় আন্তনগর
ভালো রাস্তা না থাকায় ভেঙে যাচ্ছে বিয়ে 

শেয়ার করুন

যুবলীগ নেতা টিটু হত্যা মামলা: প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

যুবলীগ নেতা টিটু হত্যা মামলা: প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, শুক্রবার রাতে রাজধানীর দারুস সালাম থানা এলাকা থেকে জামাল উদ্দিন চকেটকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে আদালতে তুলে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।

ভোলার মেঘনায় যুবলীগ নেতা খোরশেদ আলম টিটু হত্যা মামলার প্রধান অসামিকে গ্রেপ্তারের কথা জানিয়েছে পুলিশ। এ নিয়ে হত্যা মামলায় দুজনকে গ্রেপ্তার করা হলো।

রোববার সকালে নিজ দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেন, শুক্রবার রাতে রাজধানীর দারুস সালাম থানা এলাকা থেকে জামাল উদ্দিন চকেটকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে আদালতে তুলে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।

গত ২৬ নভেম্বর বিকেলে দৌলতখানের মদনপুর ইউনিয়ন থেকে খেয়া ট্রলারে ভোলা সদরে ফেরার পথে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খোরশেদ আলম টিটু।

এ ঘটনায় টিটুর ভাই হানিফ ভুট্টো বাদী হয়ে সদর থানায় ১৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

আরও পড়ুন:
ছুটির দিনে পাটুরিয়ায় গাড়ির চাপ
পৌরসভার সাপ্লাইয়ের পানিতে ময়লা, ভোগান্তি
ড্রেন দরকার ৫৫ কিলোমিটার, আছে ৩ কিলোমিটার
খুঁড়িয়ে চলছে ঢাকা-পঞ্চগড় আন্তনগর
ভালো রাস্তা না থাকায় ভেঙে যাচ্ছে বিয়ে 

শেয়ার করুন

চট্টগ্রামে স্কুলশিক্ষার্থীদের টিকাদান শুরু

চট্টগ্রামে স্কুলশিক্ষার্থীদের টিকাদান শুরু

চট্টগ্রামে রোববার থেকে স্কুলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে টিকাদান শুরু হয়। ছবি: নিউজবাংলা

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী নিউজবাংলাকে বলেন, ‘সাইডার ইন্টারন্যাশনাল স্কুল কর্তৃপক্ষ নিজেরা তালিকা করে টিকা দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। অন্যান্য স্কুল তাদের শিক্ষার্থীদের তালিকা দিলে তাদেরও টিকা প্রদানের উদ্যোগ নেয়া হবে।’

চট্টগ্রামে প্রথমবারের মতো স্কুলশিক্ষার্থীদের মধ্যে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

নগরের সাইডার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে রোববার সকাল থেকে টিকাদান শুরু হয়।

কর্মসূচির প্রথম দিন ওই স্কুলের ৪০০ শিক্ষার্থীকে টিকা দেয়ার কথা রয়েছে। ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের ফাইজারের প্রথম ডোজের টিকা দেয়া হচ্ছে।

টিকা নেয়া শিক্ষার্থী মো. সাইফুল বলেন, ‘টিকা নেয়ার আগে একটু ভয় ভয় লাগছিল। কিন্তু পরে ভয় কেটে যায়। টিকা নিতে কোনো সমস্যা হয়নি।’

সাইডার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের অধ্যক্ষ জ্ঞানেশ চন্দ্র ত্রিপাটী বলেন, ‘আমাদের স্কুলে টিকাদানের ব্যবস্থা করায় সরকার ও স্বাস্থ্য বিভাগকে ধন্যবাদ জানাই। টিকা নেয়ায় আমাদের শিক্ষার্থীরা সুরক্ষিত থাকবে।’

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী নিউজবাংলাকে বলেন, ‘সাইডার ইন্টারন্যাশনাল স্কুল কর্তৃপক্ষ নিজেরা তালিকা করে টিকা দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। অন্যান্য স্কুল তাদের শিক্ষার্থীদের তালিকা দিলে তাদেরও টিকা প্রদানের উদ্যোগ নেয়া হবে।’

আরও পড়ুন:
ছুটির দিনে পাটুরিয়ায় গাড়ির চাপ
পৌরসভার সাপ্লাইয়ের পানিতে ময়লা, ভোগান্তি
ড্রেন দরকার ৫৫ কিলোমিটার, আছে ৩ কিলোমিটার
খুঁড়িয়ে চলছে ঢাকা-পঞ্চগড় আন্তনগর
ভালো রাস্তা না থাকায় ভেঙে যাচ্ছে বিয়ে 

শেয়ার করুন

সব সিটি সার্ভিসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া

সব সিটি সার্ভিসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া

চট্টগ্রামসহ দেশের যেখানেই সিটি সার্ভিস চালু আছে, সেখানেই হাফ ভাড়া কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। ফাইল ছবি

চট্টগ্রামে সংবাদ সম্মেলনে সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ জানান, হাফ ভাড়া শুধু চট্টগ্রাম শহরে কার্যকর হবে, বাইরে হবে না; তবে যেখানে সিটি সার্ভিস চালু আছে, সেখানেও এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

দেশের যেসব স্থানে সিটি সার্ভিস চালু আছে, সেগুলোতে শিক্ষার্থীদের শর্তসাপেক্ষ হাফ ভাড়া বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি।

চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল খালেক মিলনায়তনে রোববার বেলা সোয়া ১১টার দিকে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ।

তিনি জানিয়েছেন, সিটি সার্ভিস চালু থাকা শহরগুলোতে আগামী ১১ ডিসেম্বর, শনিবার থেকে হাফ ভাড়া কার্যকর হবে।

সব সিটি সার্ভিসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া
সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সংবাদ সম্মেলনে খন্দকার এনায়েত উল্যাহসহ নেতারা। ছবি: নিউজবাংলা

টানা আন্দোলনের মুখে গত ৩০ নভেম্বর ঢাকা মহানগরীতে বাসে শিক্ষার্থীদের ভাড়া অর্ধেক করার সিদ্ধান্ত নেয় পরিবহন মালিক সমিতি। ওই দিন সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, পয়লা ডিসেম্বর থেকে শর্তসাপেক্ষ এ ভাড়া কার্যকর হবে।

পরিবহন মালিক সমিতির সে সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করে শিক্ষার্থীদের একটি অংশ দাবি করে, দেশের সব শহরে শিক্ষার্থীদের ভাড়া অর্ধেক করতে হবে। তাদের এ দাবির মধ্যেই রোববার চট্টগ্রামসহ সিটি সার্ভিস থাকা শহরগুলোতে হাফ ভাড়া বাস্তবায়নের ঘোষণা দেন এনায়েত উল্যাহ।

তিনি বলেন, ‘আগামী শনিবার থেকে চট্টগ্রাম শহরে হাফ ভাড়া কার্যকর হবে। হাফ ভাড়া কার্যকরের সময় সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা। এ জন্য শিক্ষার্থীর ছবিযুক্ত আইডি কার্ড প্রদর্শন করতে হবে।’

ছুটির দিনে হাফ ভাড়া কার্যকর হবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘সরকারি ছুটির দিন, সাপ্তাহিক ছুটির দিন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মৌসুমি ছুটিতে হাফ ভাড়া কার্যকর হবে না।

‘আর হাফ ভাড়া শুধু চট্টগ্রাম শহরে কার্যকর হবে, বাইরে হবে না, তবে যেখানে সিটি সার্ভিস চালু আছে, সেখানেও এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।’

ঢাকায় হাফ ভাড়া কার্যকরের ঘোষণা দেয়ার দিনও একই ধরনের শর্তের কথা জানিয়েছিলেন সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির এ নেতা।

শিক্ষার্থীদের বাসায় ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা ছাত্রদের দাবির প্রতি সম্মান জানিয়ে হাফ ভাড়া কার্যকর করেছি। সুতরাং তারা তাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরে যাবে বলে আশা করছি।’

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সিনিয়র সহসভাপতি কফিল উদ্দিন আহমদ, চট্টগ্রাম সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি খোরশেদ আলম, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি, ঢাকার যুগ্ম সম্পাদক নিয়াজ মোর্শেদ এলিট, চট্টগ্রাম সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের মহাসচিব গোলাম রসুল বাবুল, যুগ্ম সম্পাদক মো. শাহজাহান, মেট্রোপলিটন পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি বেলায়েত হোসেন বেলালসহ অনেকে।

আরও পড়ুন:
ছুটির দিনে পাটুরিয়ায় গাড়ির চাপ
পৌরসভার সাপ্লাইয়ের পানিতে ময়লা, ভোগান্তি
ড্রেন দরকার ৫৫ কিলোমিটার, আছে ৩ কিলোমিটার
খুঁড়িয়ে চলছে ঢাকা-পঞ্চগড় আন্তনগর
ভালো রাস্তা না থাকায় ভেঙে যাচ্ছে বিয়ে 

শেয়ার করুন

‘দেশে-বিদেশে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করছে সেনাবাহিনী’

‘দেশে-বিদেশে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করছে সেনাবাহিনী’

সিলেট সেনানিবাসের মুজিব চত্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ‘বজ্রকণ্ঠ’ উদ্বোধন করেছেন সেনাপ্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমদ।

সেনাপ্রধান বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ‘বজ্রকণ্ঠ’ উদ্বোধন সৌভাগ্যের ব্যাপার। জাতির পিতার এই ভাস্কর্য শুধু প্রদর্শনের জন্যই নয়, স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাসের প্রতি নতুন প্রজন্মের আগ্রহ জন্মাবে।

সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমদ বলেছেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী দেশে-বিদেশে তার ওপর অর্পিত দায়িত্ব সঠিকভাবে পালনে সক্ষম।

তিনি বলেন, সেনাবাহিনীর আধুনিকায়নে প্রধানমন্ত্রী অক্লান্ত পরিশ্রম ও সহযোগিতা করছেন।

সকালে সিলেট সেনানিবাসের মুজিব চত্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ‘বজ্রকণ্ঠ’ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষে এই ম্যুরাল উদ্বোধন সৌভাগ্যের ব্যাপার। জাতির পিতার এই ভাস্কর্য শুধু প্রদর্শনের জন্যই নয়, স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাসের প্রতি নতুন প্রজন্মের আগ্রহ জন্মাবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সেনাসদস্যদের পাশাপাশি বাইরের লোকজনও এই ভাস্কর্য দেখতে ও এর প্রতি সম্মান জানাতে পারবে, এমনটাই জানান সেনাপ্রধান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ ছাড়া সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সিলেট সেনানিবাসে মুজিব চত্বরে স্থাপিত ভাস্কর্যটির বেজমেন্ট ৬ ফুট ও মূল ভাস্কর্য ১৯ ফুট দীর্ঘ। সেনাবাহিনীর সিলেট এরিয়া সদরদপ্তরের তত্ত্বাবধানে স্থাপিত হয় ভাস্কর্যটি।

আরও পড়ুন:
ছুটির দিনে পাটুরিয়ায় গাড়ির চাপ
পৌরসভার সাপ্লাইয়ের পানিতে ময়লা, ভোগান্তি
ড্রেন দরকার ৫৫ কিলোমিটার, আছে ৩ কিলোমিটার
খুঁড়িয়ে চলছে ঢাকা-পঞ্চগড় আন্তনগর
ভালো রাস্তা না থাকায় ভেঙে যাচ্ছে বিয়ে 

শেয়ার করুন

ট্রেনের ধাক্কায় যুবক নিহত

ট্রেনের ধাক্কায় যুবক নিহত

প্রতীকী ছবি

নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইমাদুল জায়েদিন বলেন, ‘কাজ শেষে আমানুল্লাহ ধান ভাঙার মেশিনে ইঞ্জিন লাগিয়ে বাড়ি যাচ্ছিলেন। পথে রেলগেট এলাকায় এসে রাস্তা পারাপারের সময় নোয়াখালী থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী উপকূল এক্সপ্রেসের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।’

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার খানাবাড়িতে ট্রেনের ধাক্কায় এক যুবক নিহত হয়েছেন।

খানাবাড়ি রেলস্টেশনের অরক্ষিত রেলগেট এলাকায় রোববার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম মো. আমানুল্লাহ। তার বাড়ি উপজেলার মির্জানগর ইউনিয়নের পূর্বপাড়া এলাকায় নিউজবাংলাকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইমাদুল জায়েদিন।

তিনি বলেন, ‘কাজ শেষে আমানুল্লাহ ধান ভাঙার মেশিনে ইঞ্জিন লাগিয়ে বাড়ি যাচ্ছিলেন। পথে রেলগেট এলাকায় এসে রাস্তা পারাপারের সময় নোয়াখালী থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী উপকূল এক্সপ্রেসের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।’

তিনি আরও বলেন, ‘স্থানীয়রা খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে। খবর পেয়ে নিহতের স্বজনরা ঘটনাস্থলে এসে মরদেহ শনাক্ত করেন। এ ঘটনায় পরিবারে স্বজনদের আপত্তি না থাকায় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।’

আরও পড়ুন:
ছুটির দিনে পাটুরিয়ায় গাড়ির চাপ
পৌরসভার সাপ্লাইয়ের পানিতে ময়লা, ভোগান্তি
ড্রেন দরকার ৫৫ কিলোমিটার, আছে ৩ কিলোমিটার
খুঁড়িয়ে চলছে ঢাকা-পঞ্চগড় আন্তনগর
ভালো রাস্তা না থাকায় ভেঙে যাচ্ছে বিয়ে 

শেয়ার করুন