সোফিয়া থেকে এলো ২ লাখ ৭০ হাজার টিকা

সোফিয়া থেকে এলো ২ লাখ ৭০ হাজার টিকা

বুলগেরিয়া অ্যাস্ট্রাজেনেকার যেসব টিকা কিনেছিল, তার একটা অংশ অব্যবহৃত থেকে যায়। সেটাই বাংলাদেশকে উপহার দিয়েছে তারা।

ভারত ও জাপানের পর এবার করোনা প্রতিরোধী অক্সফোর্ড–অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আসলো পূর্ব ইউরোপের দেশ বুলগেরিয়া থেকে। যদিও তাদের টিকাদানের হার ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সদস্য দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে কম।

বুধবার টার্কিশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে ২ লাখ ৭০ হাজার ডোজ টিকার এই চালানটি হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায় বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা বিমানবন্দরে চালানটি গ্রহণ করেন।

গত সপ্তাহে ঢাকাকে এই টিকা উপহার দেয়ার কথা ঘোষণা করে সোফিয়া।

মন্ত্রণালয় জানায়, বুলগেরিয়া অ্যাস্ট্রাজেনেকার যেসব টিকা কিনেছিল, তার একটা অংশ অব্যবহৃত থেকে যায়। সেটাই বাংলাদেশকে উপহার দিয়েছে তারা।

সূত্র জানায়, বুলগেরিয়ায় টিকা অব্যবহৃত আছে জেনে রোমানিয়ার বুখারেস্টে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত দাউদ আলী বুলগেরিয়ার কাছে ওই টিকা থেকে বিক্রি বা উপহার পেতে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুরোধ জানান।

এই অনুরোধে সাড়া দিয়ে বুলগেরিয়া ২ লাখ ৭০ হাজার অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা বাংলাদেশে পাঠিয়েছে।

বুলগেরিয়া এর আগে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভুটানকেও টিকা উপহার দিয়েছিল।

আরও পড়ুন:
১২ বছর হলেই টিকা: প্রধানমন্ত্রী
ক্যাম্পাসেই টিকা পাবেন চবির শিক্ষার্থীরা   
মজুত শেষ, যশোরে করোনার টিকাদান বন্ধ
দুপুরে টিকা, রাতে মৃত্যু
১ লাখ ডোজ পৌঁছেছে কুষ্টিয়ায়, ফের শুরু টিকাদান

শেয়ার করুন

মন্তব্য

এবার নড়াইলে শিক্ষক-ছাত্রের করোনা

এবার নড়াইলে শিক্ষক-ছাত্রের করোনা

বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক নুর জাহান জানান, ১৪ সেপ্টেম্বরের পর থেকে তারা দুজন বিদ্যালয়ে আসেননি। বর্তমানে তারা সুস্থ আছেন। বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন। বিদ্যালয়ের বাকি শিক্ষার্থী, শিক্ষক সবাই সুস্থ আছেন। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে ঘটনা জানানো হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে পাঠদান চলছে।

নড়াইল সদর উপজেলার একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষক ও এক ছাত্রের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বিষয়টি শনিবার নিশ্চিত করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

তারা জানিয়েছে, নড়াইল দক্ষিণ-পূর্ব মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সালমা ইয়াসমিনের করোনা শনাক্ত হয় ১৪ সেপ্টেম্বর। সেদিন থেকে তিনি বিদ্যালয়ে আসেননি। তার সঙ্গে বিদ্যালয়ে আসা বন্ধ করে দেয় এই বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র তাহমিদ। সম্পর্কে তারা মা-ছেলে। গত ২৩ সেপ্টেম্বর তাহমিদেরও করোনা শনাক্ত হয়।

বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক নুর জাহান জানান, ১৪ সেপ্টেম্বরের পর থেকে তারা দুজন বিদ্যালয়ে আসেননি। বর্তমানে তারা সুস্থ আছেন। বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন।

বিদ্যালয়ের বাকি শিক্ষার্থী, শিক্ষক সবাই সুস্থ আছেন। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে ঘটনা জানানো হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে পাঠদান চলছে।

এ বিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন নাসিমা আক্তার বলেন, ‘১২ সেপ্টেম্বর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর কোনো শিক্ষক বা শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে কি না, এ ধরনের কোনো তথ্য আমাদের কাছে নেই। এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।’

এর আগে লক্ষ্মীপুরে এক মাদ্রাসাছাত্রীর করোনা শনাক্ত হয়। দাখিল মাদ্রাসার পঞ্চম শ্রেণির ওই ছাত্রী শুক্রবার রাত ১২টার দিকে মারা যায়।

করোনা উপসর্গ নিয়ে মানিকগঞ্জে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীর মৃত্যু হয় বুধবার রাতে।

আরও পড়ুন:
১২ বছর হলেই টিকা: প্রধানমন্ত্রী
ক্যাম্পাসেই টিকা পাবেন চবির শিক্ষার্থীরা   
মজুত শেষ, যশোরে করোনার টিকাদান বন্ধ
দুপুরে টিকা, রাতে মৃত্যু
১ লাখ ডোজ পৌঁছেছে কুষ্টিয়ায়, ফের শুরু টিকাদান

শেয়ার করুন

অক্সিজেনারেটর আমদানি শিগগিরই

অক্সিজেনারেটর আমদানি শিগগিরই

বরিশাল শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে শনিবার দুপুরে সেমিনারে বক্তব্য দেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব লোকমান হোসেন। ছবি: নিউজবাংলা

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব লোকমান হোসেন বলেন, ‘দেশে শিগগিরই অক্সিজেনারেটর আমদানি করা হচ্ছে। এই মেশিন বাতাস থেকে প্রতি মিনিটে ৫০০ লিটার অক্সিজেন সরবরাহ করতে পারে। একটি মেশিন ১০০ জনকে অক্সিজেন দিতে সক্ষম।’

দেশে শিগগিরই অক্সিজেনারেটর আমদানি করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব লোকমান হোসেন মিয়া।

বরিশাল শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে শনিবার দুপুরে বিভাগীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের সেমিনারে তিনি এ ঘোষণা দেন।

সমন্বিত কোভিড ব্যবস্থাপনাবিষয়ক সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার সাইফুল হাসান বাদল।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে লোকমান হোসেন বলেন, ‘দেশে শিগগিরই অক্সিজেনারেটর আমদানি করা হচ্ছে। এই মেশিন বাতাস থেকে প্রতি মিনিটে ৫০০ লিটার অক্সিজেন সরবরাহ করতে পারে। একটি মেশিন ১০০ জনকে অক্সিজেন দিতে সক্ষম।

‘এরই মধ্যে তিনটি অক্সিজেনারেটর আমদানি করা হয়েছে। সেগুলো চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও গোপালগঞ্জে ব্যবহার হচ্ছে। আরও ৮০টি মেশিন আমদানি করা হবে। বরিশালবাসী শিগগিরই অক্সিজেনারেটর পাবে।’

লোকমান হোসেন মিয়া আরও বলেন, ‘করোনা কাউকেই করুণা করে না । ঢাকা শহরে এখন যত রোগী হাসপাতালে ভর্তি আছে, সব গ্রামের। রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে ভিজিট করে এই তথ্য জেনেছি।’

বরিশাল বিভাগে চিকিৎসক সংকটের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘বরিশালে চিকিৎসকের প্যাটার্ন দেখে আমরা খুবই হতাশ। পটুয়াখালী মেডিক্যাল কলেজে ৫৮ জনের জায়গায় আছেন ১২ জন, বরিশালে ২২৪ জনের মধ্যে আছেন ১৫০ জন। খুবই নাজুক অবস্থা দেখে নিজের কাছে কষ্ট লেগেছে।

‘অল্প সময়ের মধ্যে সংকট সমাধানের চেষ্টা করব। চিকিৎসক-নার্সের সংকট নিরসনে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। বেসরকারি হাসপাতালে কোনো নার্স নেই; আমরা সব নিয়ে আসছি। নতুন চিকিৎসকরা অল্প দিনের মধ্যে যোগদান করলে অনেক সমস্যার সমাধান হবে।’

সবাইকে মাস্ক পরার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনারা নিয়মিত মাস্ক ব্যবহার করুন। টিকা নিয়ে বাংলাদেশে কোনো সমস্যা হবে না। চীন থেকে প্রচুর টিকা আমদানি হচ্ছে। এ ছাড়া দেশে দ্রুত করোনার টিকা উৎপাদন শুরু হবে।’

সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল বশির আহমেদ, পুলিশের বরিশাল রেঞ্জের উপমহাপরিদর্শক এস এম আক্তারুজ্জামান, বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস, বরিশাল পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের পরিচালক এম ডি আব্দুস সালাম ও ইউনিসেফ বাংলাদেশের হেলথ সেকশন চিফ সানজানা ভার্দওয়াজ।

আরও পড়ুন:
১২ বছর হলেই টিকা: প্রধানমন্ত্রী
ক্যাম্পাসেই টিকা পাবেন চবির শিক্ষার্থীরা   
মজুত শেষ, যশোরে করোনার টিকাদান বন্ধ
দুপুরে টিকা, রাতে মৃত্যু
১ লাখ ডোজ পৌঁছেছে কুষ্টিয়ায়, ফের শুরু টিকাদান

শেয়ার করুন

করোনায় ২৫ মৃত্যু, শনাক্ত হাজারের নিচে

করোনায় ২৫ মৃত্যু, শনাক্ত হাজারের নিচে

দেশে এ পর্যন্ত করোনার সংক্রমণ ধরা পড়েছে ১৫ লাখ ৫০ হাজার ৩৭১ জনের দেহে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২৭ হাজার ৩৯৩ জনের।

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে সংক্রমণ ধরা পড়েছে ৮১৮ জনের দেহে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে শনিবার পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, দেশে এ পর্যন্ত করোনার সংক্রমণ ধরা পড়েছে ১৫ লাখ ৫০ হাজার ৩৭১ জনের দেহে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২৭ হাজার ৩৯৩ জনের।

দেশের ৮১৫টি ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় ২৭ হাজার ১৪১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। শনাক্তের হার ৪ দশমিক ৫৯ শতাংশ। এ নিয়ে শনাক্তের হার টানা পাঁচ দিন ৫ শতাংশের নিচে।

এর চেয়ে কম শনাক্ত ছিল গত ১৭ মে। ওই দিন ৬৯৮ জন করোনা রোগী শনাক্তের খবর দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন অনুযায়ী, কোনো দেশে টানা দুই সপ্তাহ শনাক্তের হার ৫ শতাংশের নিচে থাকলে সে দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে বলে ধরা হয়।

গত মঙ্গলবার থেকে দেশে করোনা শনাক্তের হার ৫ শতাংশের নিচে নামতে থাকে। মঙ্গলবার শনাক্তের হার ছিল ৪ দশমিক ৬৯ শতাংশ, বুধবার ছিল ৪ দশমিক ৭৯ শতাংশ ও বৃহস্পতিবার ছিল ৪ দশমিক ৬১। শক্রবার ছিল ৪ দশমিক ৫৬।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে শুক্রবার বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ব্যক্তিদের মধ্যে পুরুষ ১৪ জন, নারী ১১জন। মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

গত একদিনে মৃতদের মধ্যে বিশোর্ধ্ব ১, ত্রিশোর্ধ্ব ২, চল্লিশোর্ধ্ব ৪, পঞ্চাশোর্ধ্ব ৬, ষাটোর্ধ্ব ৭ ও সত্তরোর্ধ্ব ৫ জন।

বিভাগ অনুযায়ী সর্বোচ্চ ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে। এরপর চট্টগ্রামে ৬, রংপুরে ২, খুলনায় ৪ ও সিলেটে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আরও পড়ুন:
১২ বছর হলেই টিকা: প্রধানমন্ত্রী
ক্যাম্পাসেই টিকা পাবেন চবির শিক্ষার্থীরা   
মজুত শেষ, যশোরে করোনার টিকাদান বন্ধ
দুপুরে টিকা, রাতে মৃত্যু
১ লাখ ডোজ পৌঁছেছে কুষ্টিয়ায়, ফের শুরু টিকাদান

শেয়ার করুন

করোনা উপসর্গে এবার পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীর মৃত্যু

করোনা উপসর্গে এবার পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীর মৃত্যু

সিভিল সার্জন আবদুল গফ্ফার জানান, চার দিন ধরে জান্নাতুল জ্বর, সর্দি ও কাশিতে ভুগছিল। শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে হঠাৎ সে অসুস্থ হয়ে পড়লে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে তার অক্সিজেন লেভেল ৬৫ শতাংশের নিচে নেমে আসে। উন্নত চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে নেয়ার পর রাত ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

মানিকগঞ্জের পর এবার লক্ষ্মীপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে।

সদর হাসপাতালে শুক্রবার রাত ১২টার দিকে জান্নাতুল ফিজা মারা যায়। ফিজা রায়পুর উপজেলার সায়েস্তানগর ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসায় পড়ত। সে দেবীপুর এলাকার সেলিম উদ্দিনের মেয়ে।

স্বজনরা জানায়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পর নিয়মিত মাদ্রাসায় যাচ্ছিল জান্নাতুল। চার দিন আগে তার জ্বর হয়। ছিল কাশি-সর্দিও।

এরপর পল্লি চিকিৎসক দেখিয়ে প্যারাসিটামল ট্যাবলেট এবং আরও কিছু ওষুধ খাওয়ানো হয় তাকে। শুক্রবার সকালে জ্বর তেমন ছিল না। কিন্তু সন্ধ্যার দিকে শ্বাস-প্রশ্বাসের কষ্ট দেখা দিলে হাসপাতালে নেয়ার পর জান্নাতুল ফিজা মারা যায়।

সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক কমলা শীষ রায় জানান, হাসপাতালে আনার আগে জান্নাতুল ফিজা মারা যায়। তবে তার করোনা উপসর্গ ছিল।

সিভিল সার্জন আবদুল গফ্ফার জানান, চার দিন ধরে জান্নাতুল জ্বর, সর্দি ও কাশিতে ভুগছিল। এ সময় পল্লি চিকিৎসকের পরামর্শে কিছু ওষুধ খায়। শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে হঠাৎ সে অসুস্থ হয়ে পড়লে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়।

সেখানে তার অক্সিজেন লেভেল ৬৫ শতাংশের নিচে নেমে আসে। উন্নত চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে নেয়ার পর রাত ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরও জানান, যেহেতু তার করোনা উপসর্গ ছিল, সে অনুযায়ী তার নমুনা নিয়ে করোনা পরীক্ষা করা হবে। রিপোর্ট হাতে এলে নিশ্চিত হওয়া যাবে, সে করোনায় মারা গেছে কি না।

এর আগে মানিকগঞ্জে করোনা উপসর্গে অষ্টম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর মৃত্যুর হয়। ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে নেয়ার পথে বুধবার রাতে ওই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়।

মৃত সুবর্ণা ইসলাম রোদেলার বাড়ি জেলার বেউথা এলাকায়। সে স্থানীয় এসকে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়ত।

আরও পড়ুন:
১২ বছর হলেই টিকা: প্রধানমন্ত্রী
ক্যাম্পাসেই টিকা পাবেন চবির শিক্ষার্থীরা   
মজুত শেষ, যশোরে করোনার টিকাদান বন্ধ
দুপুরে টিকা, রাতে মৃত্যু
১ লাখ ডোজ পৌঁছেছে কুষ্টিয়ায়, ফের শুরু টিকাদান

শেয়ার করুন

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে করোনায় এক দিনে মৃত্যু ৯

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে করোনায় এক দিনে মৃত্যু ৯

জেলা সিভিল সার্জন নজরুল ইসলাম বলেন, ময়মনসিংহে এক দিনে ১৮২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২ জনের শরীরে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে এক দিনে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শনিবার সকাল ৮টার মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা গেছেন।

মৃতদের মধ্যে ১ জন করোনায় এবং বাকি ৮ জন মারা গেছেন উপসর্গে। তাদের মধ্যে ৪ জন নারী ও ৫ জন পুরুষ ছিলেন।

হাসপাতালের করোনা ইউনিটের (ফোকাল পার্সন) মহিউদ্দিন খান মুন শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বর্তমানে করোনা ইউনিটে ১৩৩ জন রোগী ভর্তি আছেন। এর মধ্যে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ জন। আইসিইউতে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১২ জন। এই সময়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১২ জন। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ওয়ান স্টপ ফ্লু কর্নারে সেবা নিয়েছেন ৪৬ জন।

জেলা সিভিল সার্জন নজরুল ইসলাম বলেন, ময়মনসিংহে এক দিনে ১৮২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২ জনের শরীরে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত জেলায় ২১ হাজার ৮৫৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

আরও পড়ুন:
১২ বছর হলেই টিকা: প্রধানমন্ত্রী
ক্যাম্পাসেই টিকা পাবেন চবির শিক্ষার্থীরা   
মজুত শেষ, যশোরে করোনার টিকাদান বন্ধ
দুপুরে টিকা, রাতে মৃত্যু
১ লাখ ডোজ পৌঁছেছে কুষ্টিয়ায়, ফের শুরু টিকাদান

শেয়ার করুন

মৃত্যুপথযাত্রী করোনা সনদ পাবে কোথায়

মৃত্যুপথযাত্রী করোনা সনদ পাবে কোথায়

যেকোনো রোগের চিকিৎসা করাতে গেলে হাসপাতালগুলো আগে চায় করোনা সনদ। এমন নীতির কারণে অন্যান্য জটিল রোগে আক্রান্তদের ভোগান্তির শেষ নেই। ছবি: নিউজবাংলা

আগে করোনা টেস্ট, পরে যেকোনো রোগের চিকিৎসা, হাসপাতালগুলোর এমন নীতির অজুহাতে জরুরি সেবা দেয়া থেকে বিরত থাকছেন চিকিৎসকরা। বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত রোগীরা দ্রুত চিকিৎসাসেবা পাচ্ছেন না। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটা মেনে নেয়া যায় না।

দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগে ভুগছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান। নরসিংদীতে নিজ এলাকায় এক হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের অধীনে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। গত বুধবার হঠাৎ তার অবস্থার অবনতি হয়।

তীব্র শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়ায় আজিজুর রহমানকে দ্রুত ঢাকার হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসক। রোগীর স্বজনরা তাৎক্ষণিকভাবে অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে রাজধানীর ইব্রাহিম কার্ডিয়াক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসেন।

চিকিৎসকরা প্রথমে রোগীকে ভর্তি নিতে অনীহা প্রকাশ করেন। রোগীর স্বজনদের তারা বলেন, চিকিৎসা নেয়ার আগে করোনা পরীক্ষা করতে হবে। রোগীর স্বজনদের অনুনয়-বিনয়েও কর্তব্যরত চিকিৎসকদের মন গলেনি। একপর্যায়ে তারা জানিয়ে দেন কোভিড পরীক্ষা ছাড়া কোনো রোগীর চিকিৎসা হবে না।

আজিজুরের দুই ডোজ করোনা প্রতিরোধী টিকা নেয়ার সনদ সঙ্গেই ছিল। এর পরও সংকটাপন্ন এই রোগীকে দ্রুত মহাখালী কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালে নেয়ার পরামর্শ দেন ইব্রাহিম কার্ডিয়াকের চিকিৎসকরা।

তবে অ্যাম্বুলেন্সে পর্যাপ্ত অক্সিজেন মজুত ছিল না। অ্যাম্বুলেন্সচালক রোগীর স্বজনকে জানান, যে অক্সিজেন আছে, সেটা দিয়ে ৪০ মিনিট রোগীকে অক্সিজেনের আওতায় রাখা সম্ভব হবে।

যানজটের কারণে ইব্রাহিম কার্ডিয়াক থেকে ডিএনসিসির করোনা হাসপাতালে আসতে সময় লাগে ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট। রাস্তায় রোগীর মৃত্যু ঘটে। ডিএনসিসি হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ইব্রাহিম কার্ডিয়াক হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক বলছেন, তাদের হাসপাতালে করোনা চিকিৎসার জন্য আলাদা কোনো ইউনিট নেই। আজিজুর রহমানের করোনা উপসর্গ ছিল, সেই কারণে করোনা পরীক্ষা করার কথা বলা হয়। সেই সঙ্গে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের সুযোগ নেই হাসপাতালে, যা দিয়ে আধা ঘণ্টায় করোনা পরীক্ষা করা যেত।

শুধু আজিজুর রহমান নন, বিভিন্ন হাসপাতালে গিয়ে নন-কোভিড (অন্য রোগে আক্রান্ত) সংকটাপন্ন রোগীদের এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হচ্ছে। যথাসময়ে প্রয়োজনীয় জরুরি চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন এসব রোগী। এমন পরিস্থিতিতে রীতিমতো দিশেহারা সাধারণ মানুষ।

রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের পথে। ডেঙ্গু পরিস্থিতিও অনেকটা স্থিতিশীল। এর মধ্যে মৌসুমি জ্বর ও সর্দি দেখা দিয়েছে। এসব কারণে সাধারণ রোগীর চাপ বেড়েছে হাসপাতালগুলোতে। এমন বাস্তবতায় সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতালগুলো। ফলে আগে কোভিড টেস্ট, পরে যেকোনো রোগের চিকিৎসা- এমন নীতিতে জরুরি সেবা থেকে বিরত থাকছেন সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকরা।

একই নীতির কারণে জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলায় প্রসববেদনা নিয়ে পরপর তিনটি হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা না পেয়ে আল্পনা নামের এক প্রসূতির মৃত্যু এবং এক প্রসূতির ক্লাবে সন্তান প্রসবের ঘটনা ঘটে।

এসব ঘটনার পর নাগরিকদের জরুরি চিকিৎসাসেবা দিতে হাসপাতালগুলো বাধ্য বলে উল্লেখ করেছে হাইকোর্ট। কোনো হাসপাতাল অসম্মতি জানাতে পারবে না বলেও জানানো হয়েছে। ১২ সেপ্টেম্বর বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেয়।

সেই সঙ্গে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ ধরনের আচরণ কোনোভাবে কাম্য নয়। কোভিড, নন-কোভিড সব রোগীর চিকিৎসা সমভাবে নিশ্চিত করতে হবে।

এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য নজরুল ইসলাম নিউজবাংলাকে বলেন, চিকিৎসকদের দায়িত্ব করোনা, নন-করোনা সব রোগীর চিকিৎসা নিশ্চিত করা। করোনা পরীক্ষার জন্য চিকিৎসা বন্ধ রাখতে হবে- এমন কোনো কথা নেই। এ ক্ষেত্রে দ্রুত পরীক্ষার জন্য সব হাসপাতালে করোনা পরীক্ষায় র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের ব্যবস্থা রাখতে হবে। অবশ্যই লক্ষ রাখতে হবে করোনার কারণে নন-কোভিড রোগীদের চিকিৎসা যাতে ব্যাহত না হয়।

এ বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুুুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম নিউজবাংলাকে বলেন, ‘করোনার মধ্যে অন্যান্য সেবাও অব্যাহত রাখতে হবে। একই সঙ্গে চিকিৎসদের নিরাপত্তার জন্য করোনা পরীক্ষা করানো হয়। তবে করোনা পরীক্ষার সনদের অপেক্ষায় চিকিৎসাসেবা পাবে না সাধারণ মানুষ, এমনটা হতে পারে না।

‘এ বিষয়ে অবশ্যই চিকিৎসকদের সদয় হতে হবে। এ সমস্যা সমাধানে ইতিমধ্যে অনেক হাসপাতালে এখন র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ওখানে ৩০ মিনিটের মধ্যে ফল পাওয়া যাবে। আমি সংশ্লিষ্ট হাসপাতালের চিকিৎসকদের বলব, তারা যেন এ বিষয়ে মানুষের প্রতি মানবিক হন। এ ছাড়া এ সমস্যা সমাধানে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করার জন্য নতুন ৩০টি মেশিন কেনার প্রস্তুতি চলছে।’

আরও পড়ুন:
১২ বছর হলেই টিকা: প্রধানমন্ত্রী
ক্যাম্পাসেই টিকা পাবেন চবির শিক্ষার্থীরা   
মজুত শেষ, যশোরে করোনার টিকাদান বন্ধ
দুপুরে টিকা, রাতে মৃত্যু
১ লাখ ডোজ পৌঁছেছে কুষ্টিয়ায়, ফের শুরু টিকাদান

শেয়ার করুন

বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষায় আরও অপেক্ষা

বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষায় আরও অপেক্ষা

বিমানবন্দরে নমুনা নিয়ে সেখানেই পিসি আর ল্যাবের মাধ্যমে পরীক্ষার ফলাফল দেয়া হবে বিদেশগামী বাংলাদেশিদের। ফাইল ছবি

শাহজালাল বিমানবন্দরের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহরিয়ার সাজ্জাদ বলেন, ‘বিমানবন্দরে আরটি-পিসিআর ল্যাব স্থাপনের জন্য ৭টি প্রতিষ্ঠানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। কিছু কাজ এখনও বাকি রয়েছে। শনিবার পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও আর এক দিন অপেক্ষা করতে হবে। কাজ শেষ হলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে বুঝিয়ে দেয়া হবে। কারণ পরীক্ষা ও কারিগরি বিষয়টি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর দেখছে। শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এমআইএসের পরিচালকের বিমানবন্দরে আসার কথা রয়েছে।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের ঘোষণা অনুযায়ী বিমানবন্দরে প্রবাসীদের করোনা পরীক্ষা শনিবার থেকে চালু হবার কথা থাকলেও সব প্রস্তুতি শেষ না হওয়ায় অপেক্ষার পালা আরও দীর্ঘ হতে পারে বলে জানিয়েছে হযরত শাহজালাল বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

শাহজালাল বিমানবন্দরের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহরিয়ার সাজ্জাদ নিউজবাংলাকে বলেন, ‘বিমানবন্দরে আরটি-পিসিআর ল্যাব স্থাপনের জন্য ৭টি প্রতিষ্ঠানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। কিছু কাজ এখনও বাকি রয়েছে। শনিবার পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও আর এক দিন অপেক্ষা করতে হবে। কাল কাজ শেষ হলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে বুঝিয়ে দেয়া হবে। কারণ পরীক্ষা ও কারিগরি বিষয়টি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর দেখছে। শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এমআইএসের পরিচালকের বিমানবন্দরে আসার কথা রয়েছে।’

এর আগে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ জানান, লক্ষ্য অর্জনে প্রস্তুতি চলমান রয়েছে। সব কিছু ঠিক থাকলে শুক্রবার রাতের মধ্যে ট্রায়াল রান হবে।

এর আগে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে শনিবার থেকে আরটি-পিসিআর ল্যাবে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি জানান, আন্তর্জাতিক চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে করোনাভাইরাসের পরীক্ষা স্বল্প সময়ের মধ্যে করতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, ‘হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আরটি-পিসিআর ল্যাব বসানোর কাজ অতি দ্রুততম সময়ে করার জন্য আমি নিজে গত পরশু দিন এসে সেখানে জায়গা নির্ধারণ করে দিয়ে গেছি। আশা করছি, আজ সন্ধ্যার মধ্যেই অবকাঠামো নির্মাণকাজ শেষ করা সম্ভব হবে।’

বিদেশগামীদের সুবিধার্থে দেশের তিনটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দ্রুত করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য আরটি-পিসিআর ল্যাবের ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ নির্দেশনার তিন সপ্তাহ পার হলেও দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতি চোখে পড়েনি। এমন পরিস্থিতিতে নির্ধারিত সময়ে কর্মস্থলে যোগ দিতে পারছেন না সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ বিভিন্ন দেশের অর্ধকোটি শ্রমিক।

আরও পড়ুন:
১২ বছর হলেই টিকা: প্রধানমন্ত্রী
ক্যাম্পাসেই টিকা পাবেন চবির শিক্ষার্থীরা   
মজুত শেষ, যশোরে করোনার টিকাদান বন্ধ
দুপুরে টিকা, রাতে মৃত্যু
১ লাখ ডোজ পৌঁছেছে কুষ্টিয়ায়, ফের শুরু টিকাদান

শেয়ার করুন