ময়মনসিংহ মেডিক্যালের সাবেক পরিচালকের চাকরি চেয়ে স্ট্যাটাস!

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের সাবেক পরিচালকের চাকরি চেয়ে স্ট্যাটাস!

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) নাসির উদ্দিন আহমেদ। ছবি ফেসবুক থেকে নেয়া

যে কোনো সুস্থ পরিবেশে, ভালো মানুষের সঙ্গে কাজ করতে চান সাবেক এই সেনা কর্মকর্তা। তিনি বলেন, ‘আমার ডেজিগনেশন এমডি হলো, নাকি ডিরেক্টর হলো সেটা বড় প্রশ্ন না। সিম্পল একজন এক্সিকিউটিভ হিসেবেই কাজ করতে চাই। যেন তাদের প্রতিষ্ঠানে কোনো কল্যাণ যুক্ত করতে পারি।’

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছেন সেনা কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) নাসির উদ্দিন আহমেদ। ৪ বছর ৮ মাস দায়িত্ব পালনের পর এখন চলছে অবসর জীবন।

বছর খানেকের বেশি সময় হলো ফুরিয়েছে চাকরির মেয়াদ। এরপর করোনা মহামারির মধ্যে ঘর থেকে বের হওয়া হয়নি। দূরে আছেন ব্যস্ত জীবন থেকে। এর মধ্যেই হঠাৎ নিজের ফেসবুকে চাকরি চেয়ে আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

নাসির উদ্দীন রোববার এক পোস্টে লিখেছেন, প্রিয় ও শ্রদ্ধাভাজন শুভাকাঙ্ক্ষী। আজ ১ বছর ২ মাস ঘরে বসা। এলপিআর শেষ। সংসার ও নিজকে কর্মক্ষম রাখতে কিছু করা প্রয়োজন। নিজের ভবিষ্যৎ চিন্তা করিনি। হালাল ও হারামের সংমিশ্রনে এ জীবন।

মেডিকেল ও নন মেডিকেল যে কোন সেক্টরে কোন নিবেদিত ও সৎ ব্যক্তি হিসাবে বিবেচনায় নিয়ে কোন প্রতিষ্ঠান আমাকে বাংলাদেশের যে কোন স্থানে চাকুরির সুযোগ দিলে কৃতজ্ঞ থাকব।

সরকারি চাকরি তো আমার এক বছর ২ মাস আগেই শেষ। সিভি অনেক জায়গায় দিয়েছি, কোথাও হয়নি। নির্দিষ্ট কোনো কারণ আমি জানি না, কেন হয়নি। অনেক জায়গায় আমার পছন্দ হয়নি। তাদের নীতি-নৈতিকতা বা করপোরেট কালচারের সঙ্গে আমি অ্যাডজাস্ট হতে পারব না, সেজন্য আমি জয়েন করিনি।

চাকরি চেয়ে ফেসবুকে দেয়া এই পোস্টে নিজের ফোন নম্বররও দিয়েছেন নাসির উদ্দিন আহমেদ।

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের সাবেক পরিচালকের চাকরি চেয়ে স্ট্যাটাস!
ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) নাসির উদ্দিন আহমেদের ফেসবুক পোস্ট

এ বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে নিউজবাংলাকে তিনি বলেন, ‘আমার মতো মানুষ ঘরে বসে থাকলে কি হয়? ঘরে বসে থাকলে বিভিন্ন রকমের দুশ্চিন্তা আসে। আর এক বছর ২ মাস কোভিডের কারণে লম্বা সময় ধরে বসে আছি। ন্যাচারালি আমার মানসিক অবস্থা তো কিছুটা খারাপ হচ্ছেই।

‘এজন্য বলছি, যে কোনো সেক্টরেই, মেডিক্যাল বা নন মেডিক্যাল সেক্টরে সম্মানজনকভাবে একটা চাকরি করতে পারব। কারণ মেয়ে দুজন আছেন। বিয়ে দিতে হবে। ডাক্তার মেয়ে। সংসার চালাতে হবে। সেজন্য চাকরি চাই।’

চাকরি না চেয়ে ব্যক্তিগত চেম্বার করেও তো চিকিৎসা সেবা দেয়া যায়, এমন মন্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি কবিরাজি করতে চাই না। আমি আজকে ৩৪ বছর রোগী দেখা থেকে দূরে। আমাকে এই জ্ঞানটা আহরণ করার জন্য দুইটা বছর সময় নিতে হবে। রোগীর উপকার করতে না পারি, ক্ষতি করতে চাই না। এ কারণে আমি চেম্বার করি না।’

এ ধরনের কোনো ইচ্ছে নেই জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ওই ধরনের ইনকাম করতে চাইলে এক বছর আগেই তো বসে যেতে পারতাম।’

কেমন চাকরি প্রত্যাশা করছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ধরেন আপনি আমাকে একটা প্রতিষ্ঠানে নিলেন, সেখানে একটা সময় থাকবে। প্রতিষ্ঠানের জন্য যতটুকু সময় ব্যয় করা সেটা আমি করব। তারা আমাকে কিছু আর্থিক রিমুন্যারেশন দেবে। অফিস যাওয়া আসার ট্রান্সপোর্ট দেবে, যেহেতু আমার বাসা ঢাকা করে ফেলেছি। ঢাকার আশেপাশে হলে আমার সুবিধা হবে। কারণ আমাকে পরিবারও দেখতে হবে।’

যে কোনো সুস্থ পরিবেশে, ভালো মানুষের সঙ্গে কাজ করতে চান সাবেক এই সেনা কর্মকর্তা। তিনি বলেন, ‘আমার ডেজিগনেশন এমডি হলো, নাকি ডিরেক্টর হলো সেটা বড় প্রশ্ন না। সিম্পল একজন এক্সিকিউটিভ হিসেবেই কাজ করতে চাই। যেন তাদের প্রতিষ্ঠানে কোনো কল্যাণ যুক্ত করতে পারি।’

নিজেকে অবশ্য অর্থনৈতিকভাবে স্বচ্ছল দাবি করেছেন তিনি। বলেন, ‘আমি অর্থনৈতিকভাব স্বচ্ছল হয়েছি ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজে যাওয়ার পর। কারণ সেখানে ব্লাড ব্যাংকের কিছু অনারিয়াম পেতাম, ট্রেনিংয়ের অনারিয়াম পেতাম, বিভিন্ন মিটিংয়ে গেলে অনারিয়াম পেতাম। এতে আমার আর্থিক অবস্থা অনেক ভালো হয়েছে। ডাল-ভাত খেয়ে চলতে পারব।’

তবে ঘরে বসে থাকাটা নিতে পারছেন না তিনি। নাসির উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘আমি একা একটা হসপিটাল করে ফেলব, সেটা চালাব, সেই সামর্থ্য আমার নেই। এ কারণেই কাজ চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছি।’

আরও পড়ুন:
২৬ সহকারী পরিচালক নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
২৩ নিয়োগ দিচ্ছে বুয়েট
জনবল নিচ্ছে নেভি মটর ট্রান্সপোর্ট ওয়ার্কশপ
২৮ অফিসার নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
মাগুরা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে ৯১ নিয়োগ

শেয়ার করুন

মন্তব্য

‘মুকুটের মণি’ শেখ হাসিনা

‘মুকুটের মণি’ শেখ হাসিনা

টেকসই উন্নয়নের ওপর নবম বার্ষিক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: পিআইডি

জেফ্রি স্যাকস বলেন, ‘আমরা আপনার কথা শুনতে চাই। তার কারণও আছে। আমরা যখন পৃথিবীর দেশগুলোর টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যের অগ্রগতি বিশ্লেষণ করি, তখন দেখতে পাই, ২০১৫ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অগ্রগতিতে প্রথম হয়েছে বাংলাদেশ। এজন্য আপনাকে অভিনন্দন জানাতে চাই।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘ক্রাউন জুয়েল’ বা ‘মুকুটের মণি’ আখ্যায়িত করেছে আর্থ ইনস্টিটিউট, কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়, গ্লোবাল মাস্টার্স অফ ডেভেলপমেন্ট প্র্যাকটিস এবং ইউএন সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট সল্যুশনস নেটওয়ার্ক।

২০৩০ সালের মধ্যে জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জন নিয়ে নবম বার্ষিক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানানোর সময় ‘ক্রাউন জুয়েল’ বা ‘মুকুটের মণি’ হিসেবে অভিহিত করা হয়।

সম্মেলনটির আয়োজক আর্থ ইনস্টিটিউট, কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়, গ্লোবাল মাস্টার্স অফ ডেভেলপমেন্ট প্র্যাকটিস এবং ইউএন সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট সল্যুশনস নেটওয়ার্ক।

সম্মেলনে অংশ নেয়ার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান ইউএন সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট সল্যুশনস নেটওয়ার্কের প্রেসিডেন্ট ও যুক্তরাষ্ট্রের বিশিষ্ট উন্নয়ন অর্থনীতিবিদ জেফ্রি স্যাকস।

তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, এই সম্মেলনে অংশ নেয়ায় আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আপনার সঙ্গে একসঙ্গে হতে পেরে আমরা উদ্বেলিত। শুরুতেই স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে আমরা বাংলাদেশকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাতে চাই। এটি আসলে উদযাপনের সময়। যদিও বিশ্বজুড়ে মহামারির ভয়াবহতা চলছে, কিন্তু বাংলাদেশের এই অগ্রযাত্রায় আমরা শুভেচ্ছা জানাতে চাই।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথা শুনতে নিজের ব্যাকুলতাও প্রকাশ করেন জেফ্রি স্যাকস।

তিনি বলেন, ‘আমরা আপনার কথা শুনতে চাই। তার কারণও আছে। আমরা যখন পৃথিবীর দেশগুলোর টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যের অগ্রগতি বিশ্লেষণ করি, তখন দেখতে পাই, ২০১৫ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অগ্রগতিতে প্রথম হয়েছে বাংলাদেশ। এজন্য আপনাকে অভিনন্দন জানাতে চাই।’

এসডিজি অর্জনে এই অগ্রগতির স্বীকৃতিও দেয়া হয়েছে বাংলাদেশকে। এসডিজি অর্জনে ২০১৫ থেকে ২০২০ পর্যন্ত বিভিন্ন সূচকে এগিয়ে থাকায় বাংলাদেশকে দেয়া হয় ‘এসডিজি প্রোগ্রেস অ্যাওয়ার্ড।’

সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এ সম্মাননা গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে জেফ্রি স্যাকস বলেন, ‘আমরা খুবই আনন্দিত এবং সম্মানিত অনুভব করছি, বাংলাদেশের জনগণের জন্য এটা আমরা দিতে পারছি। এসডিজি অর্জনে বলিষ্ঠ নেতৃত্বের জন্য আমরা আপনাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

সম্মাননাটি গ্রহণ করে আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণের পক্ষে এই পদক গ্রহণ করে আমি খুবই সম্মানিত। এই পদক দিয়ে বাংলাদেশের জনগণকে সম্মানিত করায় আমি আপনাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

এসডিজি অর্জনে বাংলাদেশ আরও এগিয়ে যাবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এসডিজি অর্জনে আমাদের যে কর্মসূচি এবং এগিয়ে চলা, এই পদক তার স্বীকৃতি। এসডিজি অর্জনে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত থাকবে, যাতে একটি মানুষও বঞ্চিত না থাকে।’

পদকটি পরে দেশের মানুষের প্রতি উৎসর্গ করেছেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমার দেশের মানুষের প্রতি আমি এই পদক উৎসর্গ করতে চাই। স্বাধীনতা অর্জন থেকে আজকের যত অর্জন, সব হয়েছে দেশের মানুষের সমর্থন ও ভালোবাসার জন্য।’

আরও পড়ুন:
২৬ সহকারী পরিচালক নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
২৩ নিয়োগ দিচ্ছে বুয়েট
জনবল নিচ্ছে নেভি মটর ট্রান্সপোর্ট ওয়ার্কশপ
২৮ অফিসার নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
মাগুরা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে ৯১ নিয়োগ

শেয়ার করুন

ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি: কাদের

ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি: কাদের

নির্বাচন চলাকালে সহিংসতায় দুজনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। ছবি: নিউজবাংলা

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘গতকাল (সোমবার) অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন এবং পৌরসভা নির্বাচনে বিচ্ছিন্নভাবে দু-একটি দুঃখজনক ঘটনা, বিশেষ করে প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে কক্সবাজারে, যা অনাকাঙ্ক্ষিত, অপ্রত্যাশিত। এ কথা সত্য যে গতকালের নির্বাচন পুরোপুরি সুষ্ঠু হয়নি। তবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ বেড়েছে, দেখা গেছে স্বতঃস্ফূর্ততা।’

সারা দেশে সোমবার ১৬০টি ইউনিয়ন পরিষদে অনুষ্ঠিত নির্বাচন পুরোপুরি সুষ্ঠু হয়নি বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সচিবালয়ে মঙ্গলবার নিজ কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন তিনি। এ সময় পরবর্তী ধাপের নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নির্বাচন কমিশন আরও কার্যকর এবং কঠোর পদক্ষেপ নেবে বলেও আশা প্রকাশ করেন কাদের।

তিনি বলেন, ‘গতকাল (সোমবার) অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন এবং পৌরসভা নির্বাচনে বিচ্ছিন্নভাবে দু-একটি দুঃখজনক ঘটনা, বিশেষ করে প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে কক্সবাজারে, যা অনাকাঙ্ক্ষিত, অপ্রত্যাশিত। এ কথা সত্য যে গতকালের নির্বাচন পুরোপুরি সুষ্ঠু হয়নি। তবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ বেড়েছে, দেখা গেছে স্বতঃস্ফূর্ততা।’

সংবিধান অনুযায়ী সুষ্ঠু এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচন আয়োজনে নির্বাচন কমিশনকে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা দিয়ে আসছে বলেও জানান সরকারের এই মন্ত্রী। বলেন, ‘আমরা আশা করি নির্বাচন কমিশন পরবর্তী ধাপের নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আরও কার্যকর এবং কঠোর পদক্ষেপ নেবে।’

কাদের বলেন, ‘স্থানীয় সরকার নির্বাচন তৃণমূলে গণতন্ত্রের ভিত্তি মজবুত করে, জবাবদিহির সুযোগ বাড়ায় এবং এর ফলে উন্নয়ন কার্যক্রম প্রান্তিক পর্যায়ে পৌঁছে যায়।’

আস্থাহীনতার ফাঁদে পড়েছে বিএনপি

শীর্ষ নেতাদের ‘হঠকারিতা’ আর সরকারের বিরুদ্ধে ‘অতিমাত্রায় কৌশল’ করতে গিয়ে বিএনপি আস্থাহীনতার ফাঁদে পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ‘দলীয় শীর্ষ নেতাদের হঠকারিতা আর সরকারের বিরুদ্ধে অতিমাত্রায় কৌশল করতে গিয়ে বিএনপি এখন আস্থাহীনতার ফাঁদে পড়েছে। তাই তারা এ ফাঁদ থেকে বেরিয়ে আসতে পারছে না।’

কাদেরের ভাষ্য, এ ফাঁদ থেকে বেরিয়ে আসতে চাইলেও নেতিবাচক আর দূর-নিয়ন্ত্রিত রিমোট কন্ট্রোলের রাজনীতি নিজেদের সংকটকে আরও গভীরে নিমজ্জিত করেছে বিএনপিকে।

তিনি বলেন, ‘বিএনপির কথা শুনলে মনে হয় দেশে একমাত্র তারাই গণতন্ত্রের ধারক, বাহক ও রক্ষক। তারাই গণতন্ত্রের সোল এজেন্ট।’

দলটি নিজেদের অতীত ভুলে গেছে বলেও মনে করেন আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এই নেতা। তিনি বলেন, ‘বিএনপি নিজেদের দ্বারা গণতন্ত্র হত্যার অতীত ভুলে গেছে, ভুলে গেছে সাংবাদিক হত্যার ইতিহাস। ভুলে গেছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গণতন্ত্রের চলমান অগ্রযাত্রায় পদে পদে প্রতিবন্ধকতা তৈরির কথা। মুখে জনগণের অধিকার আর গণতন্ত্রের কথা বললেও নির্বাচনে অংশ না নেয়া বিএনপির স্পষ্ট দ্বিচারিতা।’

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সমালোচনা করতেও ছাড়েননি ক্ষমতাসীন দলের এই নেতা।

কাদের বলেন, ‘যিনি দলের মহাসচিব নির্বাচিত হয়ে সংসদে যান না, অথচ জনগণের অধিকারের কথা বলেন, এ থেকে বোঝা যায় তাদের কথা ও কাজে কোনো মিল নেই। বিএনপি চর্চা করে দ্বৈতনীতি। এ কারণে তাদের প্রার্থীদের ওপর ভোটারদের আস্থাহীনতা তৈরি হয়েছে।’

ভরাডুবি এড়াতে বিএনপি নির্বাচন থেকে দূরে সরে গেছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন থেকে দূরে সরে যাওয়া মানে জনগণ থেকে দূরে সরে যাওয়া, যা প্রকারান্তরে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে বাধাগ্রস্ত করে।’

আরও পড়ুন:
২৬ সহকারী পরিচালক নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
২৩ নিয়োগ দিচ্ছে বুয়েট
জনবল নিচ্ছে নেভি মটর ট্রান্সপোর্ট ওয়ার্কশপ
২৮ অফিসার নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
মাগুরা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে ৯১ নিয়োগ

শেয়ার করুন

সাংবাদিকদের ব্যাংক হিসাব তলব, দেখবেন প্রধানমন্ত্রী

সাংবাদিকদের ব্যাংক হিসাব তলব, দেখবেন প্রধানমন্ত্রী

সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গণমাধ্যমকর্মীদের মানববন্ধন। ফাইল ছবি/নিউজবাংলা

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সাংবাদিক নেতাদের বিরুদ্ধে ঢালাওভাবে ব্যাংক হিসাব তলবের বিষয়টি সাংবাদিক মহলে যে ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে, এ বিষয়ে আমাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কথা বলেছেন ও তথ্যমন্ত্রীও বক্তব্য দিয়েছেন। আমি আশা করি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিদেশ সফর শেষে দেশে ফিরলে বিষয়টি দেখবেন।’

সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের ঘটনায় সাংবাদিকদের মধ্যে যে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে তা লাঘবে যুক্তরাষ্ট্র সফর থেকে দেশে ফিরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সচিবালয়ে মঙ্গলবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, ‘সাংবাদিক নেতাদের বিরুদ্ধে ঢালাওভাবে ব্যাংক হিসাব তলবের বিষয়টি সাংবাদিক মহলে যে ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে, এ বিষয়ে আমাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কথা বলেছেন ও তথ্যমন্ত্রীও বক্তব্য দিয়েছেন। আমি আশা করি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিদেশ সফর শেষে দেশে ফিরলে বিষয়টি দেখবেন।’

গত ১২ সেপ্টেম্বর দেশের সাংবাদিকদের ছয়টি সংগঠনের ১১ সাংবাদিক নেতার ব্যাংক হিসাবের তথ্য চেয়ে চিঠি দেয় মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসী অর্থায়ন প্রতিরোধে গঠিত বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ)।

এমন চিঠি অপ্রত্যাশিত বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। সোমবার সচিবালয়ে তিনি বলেছেন, ‘এটা কীভাবে ঘটল, (এ বিষয়ে) আমি বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি আমাকে বলেছেন একটি উৎসের কথা। আমার মনে হয় এটি পুরোপুরি ভুল-বোঝাবুঝি। এটি কোথা থেকে এসেছে, কী হয়েছে, সেটি খতিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

১১ সাংবাদিক নেতার ব্যাংক হিসাব চাওয়ার ঘটনায় উদ্বেগের কিছু নেই বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদও।

জাতীয় প্রেস ক্লাবে গত বৃহস্পতিবার ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) বার্ষিক সাধারণ সভায় তিনি বলেন, ‘সরকার অবশ্যই যেকোনো কারণে হিসাব তলব করতে পারে, ব্যাংক হিসাবও তলব করতে পারে। তবে আমি মনে করি, এতে উদ্বেগের কোনো কারণ নেই। যাদের ব্যাংক হিসাব তলব করা হয়েছে, তাদের আমি চিনিও জানি। তাদের অনেকের আর্থিক অবস্থাও আমি জ্ঞাত।’

বিষয়টি নিয়ে সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ১১ সাংবাদিক নেতার ব্যাংক হিসাব তলবের ঘটনাকে সাংবাদিকদের ভীতি প্রদর্শনের নতুন কৌশল বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

অবিলম্বে সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে সত্য প্রকাশে দেশের বিবেক তথা গণমাধ্যম ও গণমাধ্যমের কর্মীদের স্বাধীনতা নিশ্চিতের আহ্বান জানান ফখরুল।

তার পরদিনই এ প্রসঙ্গে কথা বললেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনা সরকার গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও তথ্যের অবাধপ্রবাহে বিশ্বাসী। করোনাকালে কিংবা আগে পরে গণমাধ্যমকর্মীদের সুখে-দুঃখে জননেত্রী শেখ হাসিনা সব সময় পাশে ছিলেন, আছেন।’

বিএনপির শাসনামল গণমাধ্যমের জন্য অন্ধকারসম ছিল জানিয়ে কাদের বলেন, ‘অসংখ্য সাংবাদিক হত্যার শিকার হয়েছেন তখন। যাদের হাত সাংবাদিকদের রক্তে রঞ্জিত, আজ তারা সাংবাদিকদের জন্য মায়াকান্না করছে।’

বিএনপি মহাসচিব সরকারের বিরুদ্ধে সাংবাদিক নিপীড়নের মিথ্যা ও কাল্পনিক অভিযোগ করেছে জানিয়ে কাদের বলেন, ‘এ নিয়ে বিএনপির কুম্ভীরাশ্রু প্রদর্শন মাছের মায়ের পুত্র শোকের মতো।’

বিএনপি কখনও অবাধ তথ্যপ্রবাহে বিশ্বাস করে না বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এই নেতার।

বিএনপিকে ইঙ্গিত করে কাদের বলেন, ‘তারা বিশ্বাস করে অবাধ গুজবের প্রবাহে। তারা বিশ্বাস করে অবাধ অপপ্রচারে। কোনোভাবে জনগণের আস্থা অর্জন করতে না পেরে, দেশ-বিদেশে অর্থ বিনিয়োগ করে সরকার এবং দেশের বিরুদ্ধে মানহানিকর অপপ্রচারের পথ বেছে নিয়েছে।’

আরও পড়ুন:
২৬ সহকারী পরিচালক নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
২৩ নিয়োগ দিচ্ছে বুয়েট
জনবল নিচ্ছে নেভি মটর ট্রান্সপোর্ট ওয়ার্কশপ
২৮ অফিসার নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
মাগুরা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে ৯১ নিয়োগ

শেয়ার করুন

আইএইএ পুরস্কার পেল বিনা

আইএইএ পুরস্কার পেল বিনা

এ ছাড়া, প্ল্যান্ট মিউটেশন ব্রিডিং ও রিলেটেড বায়োটেকনোলজিতে অসামান্য অবদানের জন্য ‘উইমেন ইন প্ল্যান্ট মিউটেশন ব্রিডিং অ্যাওয়ার্ড’ পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন বিনার উদ্ভিদ প্রজনন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. শামছুন্নাহার বেগম।

মিউটেশন ব্রিডিংয়ে অসামান্য অবদান রাখার জন্য আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থার (আইএইএ) এর সম্মাননা পেয়েছে বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা)।

সংস্থার আউটস্ট্যান্ডিং অ্যাচিভমেন্ট ক্যাটাগরিতে এ পুরস্কার অর্জন করে বিনা।

এ ছাড়া, প্ল্যান্ট মিউটেশন ব্রিডিং ও রিলেটেড বায়োটেকনোলজিতে অসামান্য অবদানের জন্য ‘উইমেন ইন প্ল্যান্ট মিউটেশন ব্রিডিং অ্যাওয়ার্ড’ পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন বিনার উদ্ভিদ প্রজনন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. শামছুন্নাহার বেগম।

অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় আইএইএর প্রধান কার্যালয়ে সংস্থাটির মহাপরিচালক রাফায়েল মারিয়ানো গ্রসি দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ আব্দুল মুহিতের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কার দুটি হস্তান্তর করেন।

আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা গত কয়েক বছর ধরে সদস্য রাষ্ট্রগুলোর মিউটেশন ব্রিডিং-এ অসাধারণ অবদান রাখার জন্য তিন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার প্রদান করে আসছে।

ক্যাটাগরিগুলো হলো: আউটস্যান্ডিং অ্যাচিভমেন্ট, নারী বিজ্ঞানীদের মিউটেশন ব্রিডিংয়ে অনন্য অবদান এবং তরুণ বিজ্ঞানী পুরস্কার।

এ বছর ১৭৩টি সদস্য রাষ্ট্রের মধ্যে আউটস্যান্ডিং অ্যাচিভমেন্ট ক্যাটাগরিতে ১১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান, নারী বিজ্ঞানীদের মিউটেশন ব্রিডিং ক্যাটাগরিতে ১০ জন নারী বিজ্ঞানী ও তরুণ বিজ্ঞানী ক্যাটাগরিতে ৭ জন তরুণ বিজ্ঞানী পুরস্কার পেয়েছেন।

এর আগেও ২০১৪ সালে বিনার বর্তমান মহাপরিচালক ড. মির্জা মোফাজ্জল ইসলাম মিউটেশন ব্রিডিংয়ে অসাধারণ সফলতা পুরস্কার পেয়েছিলেন।

এক প্রতিক্রিয়ায় বিনার মহাপরিচালক মির্জা মোফাজ্জল জানান, বিনার বিজ্ঞানীরা পরমাণু শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহারের মাধ্যমে মিউটেশন ব্রিডিং (কনভেনশনাল ব্রিডিং ও অন্যান্য উন্নত কলাকৌশলের সংমিশ্রণ) প্রয়োগ করে এখন পর্যন্ত ১৮টি ফসলের ৮৩টি মিউট্যান্ট জাতসহ সর্বমোট ১১৭টি উচ্চ ফলনশীল ও উন্নত গুণাগুণ সম্পন্ন জাত উদ্ভাবন করেছে।

এসব অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ বিনা ও বিনার বিজ্ঞানীগণ বিভিন্ন সময়ে দেশি ও আন্তর্জাতিক সংস্থা হতে পুরস্কৃত হয়েছেন বলে জানান মোফাজ্জল।

আরও পড়ুন:
২৬ সহকারী পরিচালক নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
২৩ নিয়োগ দিচ্ছে বুয়েট
জনবল নিচ্ছে নেভি মটর ট্রান্সপোর্ট ওয়ার্কশপ
২৮ অফিসার নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
মাগুরা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে ৯১ নিয়োগ

শেয়ার করুন

লোভনীয় বিজ্ঞাপন বন্ধে সরকার নিষ্ক্রিয় কেন: হাইকোর্ট

লোভনীয় বিজ্ঞাপন বন্ধে সরকার নিষ্ক্রিয় কেন: হাইকোর্ট

প্রতীকী ছবি

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে তথ্যসচিব, বাণিজ্যসচিব, সংস্কৃতিসচিব এবং ভোক্তা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারম্যানকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

লোভনীয় ও অসত্য বিভ্রান্তিকর তথ্য দিয়ে বিজ্ঞাপন পরিবেশন ঠেকাতে সরকারের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে এসব বিজ্ঞাপনদাতাকে কেন আইনগত পদক্ষেপ নেয়া হবে না, তাও জানতে চেয়েছে আদালত।

বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. মাহমুদ হাসান তালুকদারের বেঞ্চ মঙ্গলবার এ রুল জারি করে।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে তথ্যসচিব, বাণিজ্যসচিব, সংস্কৃতিসচিব এবং ভোক্তা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবং প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারম্যানকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী কামরুল ইসলাম।

বিস্তারিত আসছে…

আরও পড়ুন:
২৬ সহকারী পরিচালক নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
২৩ নিয়োগ দিচ্ছে বুয়েট
জনবল নিচ্ছে নেভি মটর ট্রান্সপোর্ট ওয়ার্কশপ
২৮ অফিসার নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
মাগুরা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে ৯১ নিয়োগ

শেয়ার করুন

বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস নিয়ে রিসোর্টে ঢাবি শিক্ষক

বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস নিয়ে রিসোর্টে ঢাবি শিক্ষক

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক নিজামুল হক ভুঁইয়া বলেন, ‘শিক্ষাসংক্রান্ত কাজে তারা উত্তরা ও ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ে যাবে, এটা জানতাম। সাভারের বিরুলিয়ায় যাওয়ার কথা না। শিক্ষাসংক্রান্ত কাজের কথা বলে তারা অন্য কোথাও গেলে কী আর করা যায়।’

অ্যাকাডেমিক প্রোগ্রামে অংশ নেয়ার কথা বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস নিয়ে ঘুরতে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে ঢাবির ২০ শিক্ষকের বিরুদ্ধে।

শিক্ষকরা সোমবার উত্তরার দিয়াবাড়িতে অ্যাকাডেমিক প্রোগ্রামে যাওয়ার কথা বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত একটি মিনিবাসের অনুমতি নেন।

তবে কোনো ধরনের অ্যাকাডেমিক প্রোগ্রামে অংশ না নিয়েই তারা সাভারের একটি রিসোর্টে ঘুরতে যান।

নিয়ম অনুযায়ী, বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ ছাড়া অন্য কাজে ব্যবহারের প্রয়োজন হলে কী কারণে ব্যবহার করা হবে, কত সময় ব্যবহার করা হবে, গাড়ির গন্তব্য কোথায় হবে- এসব বিষয় একটি রিক্যুইজিশন স্লিপে লিখে অনুমোদন নিতে হয়।

সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বাসের জন্য ইসলামের ইতিহাস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাহমুদুর রহমান আবেদন করেন। সেখানে অ্যাকাডেমিক প্রোগ্রাম উল্লেখ করে বাস উত্তরা পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার কথা লিপিবদ্ধ করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইসলামের ইতিহাস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাহমুদুর রহমান নিউজবাংলাকে বলেন, ‘দিয়াবাড়িতে আমাদের একটি অ্যাকাডেমিক ওয়ার্কশপ ছিল। প্রথমে সেখানে গিয়েছি। পরে সাভারের বিরুলিয়া রিসোর্টে যাই। সেখান থেকে সন্ধ্যায় ক্যাম্পাসে ফিরে আসি।’

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সোমবার সকাল ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হল থেকে বাসটি যাত্রা করে। বাসটি বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকেয়া হল ঘুরে স্মৃতি চিরন্তন চত্বরের সামনে দিয়ে নিউ মার্কেট হয়ে সরাসরি সাভারের বিরুলিয়ায় অবস্থিত ‘কৃষিবিদ ওয়েস্ট ওয়ে’ রিসোর্টে পৌঁছায়।

বাসটি উত্তরা বা দিয়াবাড়ির কোথাও যায়নি৷ রাতে সাভার থেকেই বাসটি শিক্ষকদের নিয়ে ক্যাম্পাসে ফিরে আসে।

বাস উত্তরাতে কোথাও থামেনি জানালে জাহিদুল ইসলাম তাদের সঙ্গে যাওয়া অন্য শিক্ষকের সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দেন।

বিষয়টি নিয়ে জানতে ফোন দিলে কথা বলতে রাজি হননি ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. আবু ইউসুফ। তিনি বলেন, ‘আমাকে কেন? আইন বিভাগের নকীব নসরুল্লাহ স্যার এটির আয়োজন করেছেন। উনাকে ফোন দেন।’

আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. নকীব মোহাম্মদ নসরুল্লাহকে অনেকবার ফোন করলে ও খুদেবার্তা পাঠালেও কোনো সাড়া মেলেনি।

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস পেতে ওই শিক্ষকদের সহযোগিতা করেছেন শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক নিজামুল হক ভুঁইয়া।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘শিক্ষাসংক্রান্ত কাজে তারা উত্তরা ও ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ে যাবে, এটা জানতাম। সাভারের বিরুলিয়ায় যাওয়ার কথা না। শিক্ষাসংক্রান্ত কাজের কথা বলে যদি তারা অন্য কোথাও যায়, তাহলে কী আর করা যায়।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো আখতারুজ্জামানকে বিষয়টি অবগত করালে তিনি কোনো মন্তব্য না করে 'ঠিক আছে' বলে ফোন রেখে দেন।

অভিযোগ ওঠা শিক্ষকরা হলেন ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. আবু ইউসুফ, আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. নকীব মোহাম্মদ নসরুল্লাহ, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জাহিদুল ইসলাম সানা, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাহমুদুর রহমান, লোক প্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আবু হোসেন মুহাম্মদ আহসান, অনুজীব বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান, আরবি বিভাগের অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম ও প্রভাষক মেহেদি হাসান।

এ ছাড়া রয়েছেন ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস বিভাগের প্রভাষক কাজী মো. জামশেদ, একরামুল হুদা, অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন বিভাগের প্রভাষক রেজাউল করীম, ব্যাংকিং অ্যান্ড ইন্স্যুরেন্স সিস্টেম বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নাজমুল হাসান, ক্রিমোনোলজি বিভাগের প্রভাষক এ বি এম নাজমুস সাকিব, উইমেন অ্যান্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক অমিয় সৃজন সাম্য, পপুলেশন সায়েন্স বিভাগের প্রভাষক জাকিউল আলম ও পরিসংখ্যান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ জাকির হোসেন। বাকি চারজন শিক্ষকের নাম জানা যায়নি।

আরও পড়ুন:
২৬ সহকারী পরিচালক নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
২৩ নিয়োগ দিচ্ছে বুয়েট
জনবল নিচ্ছে নেভি মটর ট্রান্সপোর্ট ওয়ার্কশপ
২৮ অফিসার নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
মাগুরা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে ৯১ নিয়োগ

শেয়ার করুন

পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে চুল্লি স্থাপন আইএইএকে জানাল বাংলাদেশ

পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে চুল্লি স্থাপন আইএইএকে জানাল বাংলাদেশ

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে পারমাণবিক চুল্লি স্থাপন। ফাইল ছবি

আইএইএকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী জানান, সরকারের স্বচ্ছ পরমাণু নীতি, জাতীয় অংশীজনদের অক্লান্ত শ্রম, দ্বিপক্ষীয় অংশীজনের সহায়তা এবং সর্বোপরি আইএইএ-এর অকুণ্ঠ সমর্থনে বাংলাদেশ সফলভাবে পরমাণু কর্মসূচি বাস্তবায়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এই খাতে নবাগত যেকোনো দেশের জন্য অনন্য উদাহরণ হিসেবে ভূমিকা রাখতে পারবে বাংলাদেশ।’

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে রিয়েক্টর প্রেসার ভেসেল বা পারমাণবিক চুল্লি স্থাপনের কাজ শুরুর বিষয়টি আন্তর্জাতিক আনবিক শক্তি সংস্থাকে (আইএইএ) অবহিত করেছে বাংলাদেশ।

অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় সোমবার সংস্থাটির সাধারণ অধিবেশনে বিষয়টি অবহিত করেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান।

তিনি বলেন, ‘১৪ সেপ্টেম্বর থেকে রূপপুরে প্রথম ইউনিটের রিয়েক্টর প্রেসার ভেসেল ইনস্টলেশন শুরু করেছেন প্রকৌশলীরা। আশা করা হচ্ছে, ২০২৩ সালে প্রথম ইউনিট এবং ২০২৪ সালে এখানকার দ্বিতীয় ইউনিট থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে যোগ করা সম্ভব হবে।’

সারা বিশ্বে পরমাণু শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহার নিশ্চিতে ওয়াচ ডগ হিসেবে কাজ করে জাতিসংঘের সংস্থা আইএইএ।

নিরাপত্তার বিষয়ে সর্বোচ্চ সতর্ক থেকে বাংলাদেশ পরমাণু অবকাঠামোর কাজ এগিয়ে নিচ্ছে বলে জানান মন্ত্রী।

২০২৩ সাল নাগাদ নিরাপত্তা ও সুরক্ষা বজায় রেখে প্রথম ইউনিটের ফুয়েল লোডের (জ্বালানি ভরা সংক্রান্ত) আগেই বাংলাদেশ আইএইএ-এর নির্দেশনা পূরণের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলেও জানান তিনি।

ইয়াফেস ওসমান বলেন, ‘সরকারের স্বচ্ছ পরমাণু নীতি, জাতীয় অংশীজনদের অক্লান্ত শ্রম, দ্বিপক্ষীয় অংশীজনের সহায়তা এবং সর্বোপরি আইএইএ-এর অকুণ্ঠ সমর্থনে বাংলাদেশ সফলভাবে পরমাণু কর্মসূচি বাস্তবায়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এই খাতে নবাগত যেকোনো দেশের জন্য অনন্য উদাহরণ হিসেবে ভূমিকা রাখতে পারবে বাংলাদেশ।’

বাংলাদেশকে ২০৪১ সাল নাগাদ উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় নেতৃত্বের প্রসঙ্গ তুলে ধরে সম্মেলনে মন্ত্রী বলেন, এ জন্য পরমাণু শক্তি থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ পরমাণু শক্তিকে নিরাপদ, পরিবেশবান্ধব ও অর্থনৈতিকভাবে সফল প্রযুক্তি হিসেবেই বিবেচনা করে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ দৃঢ়ভাবে পরমাণুর শান্তিপূর্ণ ব্যবহারে সব নিরাপত্তা ব্যবস্থা অনুসরণ করেই এগিয়ে যেতে চায়।’

পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে চুল্লি স্থাপন আইএইএকে জানাল বাংলাদেশ
আইএইএর সাধারণ অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান। ছবি: সংগৃহীত

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মাণকাজের অগ্রগতি নিয়েও আইএইএকে অবহিত করেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী।

তিনি জানান, ২০১৭ সালে এই কেন্দ্রের ইউনিট-১ এর কংক্রিট ঢালাই এবং ২০১৮ সালের ১৪ জুলাই দ্বিতীয় ইউনিটের কংক্রিট ঢালাই সম্পন্ন হয়েছে। এই দিনগুলোকে বাংলাদেশের পরমাণুর জগতে একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যেও সাবধানতা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রকল্পটির কাজ এগিয়ে চলেছে বলে উল্লেখ করেন ইয়াফেস ওসমান।

আইএইএ-এর ৬৫তম সাধারণ সম্মেলন শুরু হয়েছে ২০ সেপ্টেম্বর। অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় এই সম্মেলন চলবে ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

পাঁচদিনের এ সম্মেলনে বাংলাদেশের নেতৃত্বে দিচ্ছেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান। প্রতিনিধি দলে অন্যদের মধ্যে আছেন বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সানোয়ার হোসেন, রূপপুর পরমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রকল্প পরিচালক ও পরমাণু বিজ্ঞানী ড. শৌকত আকবর, রূপপুর প্রকল্পের অর্থ ও প্রশাসন বিভাগের প্রধান অলোক চক্রবর্তী।

আরও পড়ুন:
২৬ সহকারী পরিচালক নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
২৩ নিয়োগ দিচ্ছে বুয়েট
জনবল নিচ্ছে নেভি মটর ট্রান্সপোর্ট ওয়ার্কশপ
২৮ অফিসার নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক
মাগুরা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে ৯১ নিয়োগ

শেয়ার করুন