× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
If there is no vote the Bar Council will run the ad hoc committee and pass the bill
google_news print-icon

ভোট না হলে বার কাউন্সিল চালাবে অ্যাডহক কমিটি, বিল পাস

ভোট-না-হলে-বার-কাউন্সিল-চালাবে-অ্যাডহক-কমিটি-বিল-পাস-
খসড়া আইনে বলা হয়েছে, তিন বছর মেয়াদের কমিটির জন্য বছরের ৩১ মের মধ্যে বার কাউন্সিলের নির্বাচন হবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বার কাউন্সিলের নির্বাচন করা না গেলে সরকার একটি ১৫ সদস্যের অ্যাডহক কমিটি গঠন করবে। এই কমিটির প্রধান হবেন অ্যাটর্নি জেনারেল।

নির্বাচিত কমিটির মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ার পর ভোট না হলে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলে সরকারিভাবে অ্যাডহক কমিটি করে দেয়ার বিধান রেখে জাতীয় সংসদে বিল পাস হয়েছে। তবে এই কমিটির মেয়াদ হবে এক বছর।

শনিবার একাদশ সংসদের চতুর্দশ অধিবেশনে বিলটি পাসে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক প্রস্তাব করলে স্পিকার শিরীন শারমীন চৌধুরী সেটি কণ্ঠ ভোটে নেন। পরে সেটি সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে পাস হয়।

এর আগে শুক্রবার বিকেলেও একাদশ সংসদের চতুর্দশ অধিবেশনের তৃতীয় সেশনে এই প্রস্তাব তোলা হয়েছিল।

‘বাংলাদেশ লিগ্যাল প্রাকটিশনার্স অ্যান্ড বার কাউন্সিল (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল-২০২১’ এই বিলটি পাসের মধ্য দিয়ে বার কাউন্সিলে নির্বাচন করা না গেলে অ্যাডহক কমিটি গঠন করা যাবে।

করোনাভাইরাসের কারণে নির্ধারিত সময়ে নির্বাচন না করতে পারায় বাংলাদেশ বার কাউন্সিল পরিচালনার জন্য ১৫ সদস্যের অ্যাডহক কমিটি গঠন করে ২৮ জুলাই একটি অধ্যাদেশ জারি করেন রাষ্ট্রপতি।

অধ্যাদেশ জারির পর সংসদের প্রথম বৈঠকেই সেটি উত্থাপনের নিয়ম রয়েছে। ওই অধ্যাদেশটি নিয়ম অনুযায়ী সংসদে তোলেন আইনমন্ত্রী। অধ্যাদেশের বিধানগুলো বিদ্যমান আইনে সংযোজন করতেই এবার সরকার বিলটি এনেছে।

খসড়া আইনে বলা হয়েছে, তিন বছর মেয়াদের কমিটির জন্য বছরের ৩১ মের মধ্যে বার কাউন্সিলের নির্বাচন হবে। মহামারি, দৈব দুর্বিপাক অথবা অন্য কোনো অনিবার্য কারণে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বার কাউন্সিলের নির্বাচন করা না গেলে সরকার একটি ১৫ সদস্যের অ্যাডহক কমিটি গঠন করবে। এই কমিটির প্রধান হবেন অ্যাটর্নি জেনারেল।

বিলে বলা হয়েছে, এই অ্যাডহক কমিটির মেয়াদ হবে সর্বোচ্চ এক বছর। এই কমিটির মেয়াদ বাড়বে না বলেও বিলে উল্লেখ করা হয়েছে।

১৮ মার্চ বার কাউন্সিল নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছিল। তফসিল অনুযায়ী ২৫ মে নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় জরুরি সভা করে ৩ এপ্রিল বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নির্বাচন স্থগিত করা হয়।

পদাধিকার বলে বার কাউন্সিলের কার্যনির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান হন রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অর্থাৎ অ্যাটর্নি জেনারেল। তাকে নিয়ে ১৫ সদস্যের কার্যনির্বাহী কমিটি বার কাউন্সিলের।

ভোটের মাধ্যমে দেশের সনদপ্রাপ্ত প্রায় অর্ধলাখ আইনজীবী তিন বছরের জন্য ১৪ জন প্রতিনিধি নির্বাচন করেন। এর মধ্যে সাধারণ সদস্য পদে সাতজন ও দেশের সাতটি অঞ্চল থেকে বাকি সাতজনকে নির্বাচন করা হয়। নির্বাচিত সদস্যরা তাদের মধ্য থেকে একজনকে ভাইস চেয়ারম্যান মনোনীত করেন।

২০১৮ সালের বার কাউন্সিল নির্বাচনে ১৪ সদস্যের নির্বাহী কমিটিতে সরকার সমর্থক বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের প্রার্থীরা ১২টি পদে এবং বিএনপি সমর্থক আইনজীবীরা দুটি পদে জয়ী হন।

পরে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের আহ্বায়ক ও জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন ভাইস চেয়ারম্যান মনোনীত হন। বার কাউন্সিলের বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হয় জুন মাসে।

আরও পড়ুন:
বার কাউন্সিল অ্যাডহক কমিটি বিল সংসদে
আইনজীবী নিবন্ধনে মৌখিক পরীক্ষা ৩১ আগস্ট থেকে
বার কাউন্সিলে ১৫ সদস্যের অ্যাডহক কমিটি
ভোট না হলে বার কাউন্সিলে থাকবে অ্যাডহক কমিটি
অবশেষে পরীক্ষা স্থগিত করে বার কাউন্সিলের আদেশ

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
Army personnel killed in Bandarban blast

বান্দরবানে বিস্ফোরণে সেনা সদস্য নিহত

বান্দরবানে বিস্ফোরণে সেনা সদস্য নিহত বান্দরবানের একটি এলাকা। ছবি: সংগৃহীত
সেনাসদস্যকে আশংকাজনক অবস্থায় হেলিকপ্টারে করে চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে তিনি মারা যান।

বান্দরবানের রুমায় সেনাবাহিনীর একটি টহল দল কেএনএফের (কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট) সদর দপ্তরসহ একটি গোপন প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে।

বৃহস্পতিবার রুমা উপজেলার ছিলোপি পাড়া এলাকায় ওই অভিযানের সময় পুঁতে রাখা আইইডি (ইম্প্রোভাইসড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস) বিস্ফোরণে এক সেনা সদস্য গুরুতর আহত হন।

সেনাসদস্যকে আশংকাজনক অবস্থায় হেলিকপ্টারে করে চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে তিনি মারা যান।

৩০ বছর বয়সী নিহত সৈনিকের নাম তুজাম।

বৃহস্পতিবার বিকেলে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

আইএসপিআর জানায়, কেএনএফের প্রশিক্ষণ ক্যাম্প এলাকার আশেপাশে বসবাসকারী স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে সেখানে অভিযান চালায় সেনাবাহিনী।

রুমা সেনা জোনের একটি টহল দল কেএনএফ প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের কাছাকাছি পৌঁছালে কেএনএফের সশস্ত্র সন্ত্রাসী দলটি পালিয়ে যায়।

তবে আনুমানিক ৯টা ২০ মিনিটের দিকে সন্ত্রাসীদের বিক্ষিপ্তভাবে পুঁতে রাখা আইইডি (ইম্প্রোভাইসড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস) বিস্ফোরণে এক সেনাসদস্য আহত হন।

সাধারণ জনগণের নিরাপত্তার স্বার্থে সেনাবাহিনীর বিশেষায়িত দল এ ধরনের আরও সম্ভাব্য আইইডি সনাক্ত ও নিষ্ক্রিয়করণ প্রক্রিয়া অব্যাহত রেখেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে দেশের জন্য আত্মোৎসর্গকারী সেনা সদস্যকে শহীদ এবং তার মৃত্যুকে অনাকাঙ্খিত উল্লেখ করা হয়। বলা হয়, এ ঘটনায় সেনাবাহিনী প্রধান গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এবং শহীদ সৈনিকের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।

আইএসপিআর আরও জানায়, সাম্প্রতিক সময়ে কেএনএফ সন্ত্রাসীরা বান্দরবানের রুমা, রোয়াংছড়ি ও থানচি উপজেলার পাহাড়ি জনপদে ক্রমাগত হত্যা, অপহরণ, জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির মতো মানবাধিকার লঙ্ঘনমূলক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে অরাজকতা সৃষ্টি করছে।

তাদের এ ধরণের মানবাধিকার লঙ্ঘন প্রতিহত করতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তৎপর রয়েছে।

আরও পড়ুন:
সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে যোগ দিন, আবেদন ফি ২০০ টাকা
সম্মানসূচক পদক পেলেন ৩০ সেনা
সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে ২ লাখ ৬০ হাজার টাকা বেতনে চাকরি
শান্তি রক্ষা মিশনে নিহত তিন সৈনিকের জানাজা ও দাফন সম্পন্ন
সাঁজোয়া কোরের বার্ষিক অধিনায়ক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The price of mobile sets made in the country is increasing

দেশে তৈরি মোবাইল সেটের দাম বাড়ছে

দেশে তৈরি মোবাইল সেটের দাম বাড়ছে প্রতীকি ছবি
মোবাইলে সেটের দাম বাড়লেও মোবাইলের চার্জার উৎপাদন ও আমদানিতে কোনো পরিবর্তন না আনায় পণ্যটির দাম অপরিবর্তিত থাকবে।

ঘন ঘন মোবাইল সেট পরিবর্তন যাদের ফ্যাশনের অংশ তাদের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে দুঃসংবাদ দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত মোবাইল সেটের ওপর ভ্যাট বাড়ানোর প্রস্তাব করায় বাড়তে পারে এ পণ্যটির দাম।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০২৩-২৪ অর্থবছরের বাজেট পেশ করার সময় এই প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী।

তবে মোবাইলের চার্জার উৎপাদন ও আমদানিতে কোনো পরিবর্তন না আনায় পণ্যটির দাম অপরিবর্তিত থাকবে।

বর্তমানে দেশে মোবাইল ফোন সেট উৎপাদনে ভ্যাট অব্যাহতি রয়েছে। তবে প্রস্তাবিত বাজেটে ২ শতাংশ ভ্যাট বসানোর কথা বলেছেন অর্থমন্ত্রী।

এছাড়া যেসব প্রতিষ্ঠান মুঠোফোন সংযোজন করে, তাদের ক্ষেত্রে দুভাবে ভ্যাট আরোপের প্রস্তাব করা হয়েছে।

কমপক্ষে দুটি যন্ত্রাংশ দেশে উৎপাদন করে মোবাইল ফোন বানালে বর্তমানে ৩ শতাংশ হারে ভ্যাট দিতে হয়। প্রস্তাবিত বাজেটে তা বাড়িয়ে ৫ শতাংশ করা হয়েছে।

আর আমদানি করা যন্ত্রাংশ অ্যাসেম্বল করে তৈরি মোবাইল সেটের ওপর ভ্যাট ৩ শতাংশ থেকে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

২০১৭-১৮ সাল থেকে স্যামসাং, অপো, ভিভো, শাওমি, রিয়েলমি, টেকনোসহ ১৫টি কোম্পানি বাংলাদেশে মোবাইল উত্পাদন করে আসছে।

আরও পড়ুন:
ফেসওয়াশ মুখে লাগাতে গুনতে হবে বেশি টাকা
বাড়ছে বিদেশ থেকে স্বর্ণ আনার খরচ
একাধিক গাড়ি থাকলেই কার্বন কর
মিষ্টিমুখ করার খরচ কমল বাজেটে

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Dhaka 17 Constituency Voting on July 17

ঢাকা-১৭ আসনের ভোট ১৭ জুলাই

ঢাকা-১৭ আসনের ভোট ১৭ জুলাই   ঢাকা-১৭ আসনের ভোট হবে ১৭ জুলাই। ছবি: নিউজবাংলা
ইসি সচিব বলেন, ‘মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ১৫ জুন, মনোনয়নপত্র বাছাই ১৮ জুন, প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৫ জুন এবং ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ১৭ জুলাই।’  

চিত্রনায়ক আকবর হোসেন পাঠানের (ফারুক) মৃত্যুতে শূন্য হওয়া ঢাকা-১৭ শূন্য আসনে আগামী ১৭ জুলাই উপনির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে এ উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলম।

ইসি সচিব বলেন, ‘মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ১৫ জুন, মনোনয়নপত্র বাছাই ১৮ জুন, প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৫ জুন এবং ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ১৭ জুলাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘ব্যালটের মাধ্যমে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে এ উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ হবে।’

দীর্ঘদিন নানান শারীরিক জটিলতায় ভুগে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ১৫ মে মৃত্যু হয় ফারুকের। এরপর আসনটি শূন্য ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করে সংসদ সচিবালয়।

সংসদের কোনো আসন শূন্য হলে নব্বই দিনের মধ্যে উপনির্বাচন করতে হয়। এই হিসাবে আসনটিতে ১২ আগস্টের মধ্যে উপনির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা ছিল।

আরও পড়ুন:
প্রথম দিনে মনোনয়নপত্র কেনেননি কেউ
চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপনির্বাচনে চলছে ভোট
চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপ-নির্বাচন বৃহস্পতিবার
ভোটের খবর সংগ্রহে সাংবাদিকদের মোটরসাইকেল নিতে মানা
ইভিএম শতভাগ স্বচ্ছতার প্রতীক: নির্বাচন কমিশনার

মন্তব্য

বাংলাদেশ
The burning may continue

দাবদাহ অব্যাহত থাকতে পারে

দাবদাহ অব্যাহত থাকতে পারে গরম থেকে বাঁচতে মাথায় গামছা জড়িয়েছেন এক শ্রমিক। ফাইল ছবি
তাপমাত্রার বিষয়ে পূর্বাভাসে বলা হয়, রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে এবং দেশের অন্যান্য জায়গায় তা অপরিবর্তিত থাকতে পারে। সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

দেশের সব বিভাগে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বা দাবদাহ বয়ে যাচ্ছে জানিয়ে আবহাওয়া অধিদপ্তর বলেছে, এ অবস্থা অব্যাহত থাকতে পারে।

রাষ্ট্রীয় সংস্থাটি বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে এমন বার্তা দিয়েছে।

পূর্বাভাসে সিনপটিক অবস্থা নিয়ে বলা হয়, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও সংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে।

দিনভর আবহাওয়া কেমন থাকবে, তা নিয়ে জানানো হয, ঢাকা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দুই-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া দেশের অন্যান্য জায়গায় অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

তাপপ্রবাহ বা দাবদাহের বিষয়ে বলা হয়, চট্টগ্রাম, রাঙ্গামাটি, কুমিল্লা, চাঁদপুর, নোয়াখালী ও ফেনী জেলা এবং রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

তাপমাত্রার বিষয়ে পূর্বাভাসে বলা হয়, রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে এবং দেশের অন্যান্য জায়গায় তা অপরিবর্তিত থাকতে পারে। সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

ঢাকায় বাতাসের গতি ও দিক নিয়ে বলা হয়, দক্ষিণ/দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ ১০ থেকে ১৫ কিলোমিটার।

ঢাকায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা ৪২ মিনিটে সূর্য অস্ত যাবে জানিয়ে আবহাওয়া অধিদপ্তর বলেছে, ঢাকায় শুক্রবার সূর্যোদয় ভোর ৫টা ১১ মিনিটে।

পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার আবহাওয়ার অবস্থা নিয়ে জানানো হয়, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু টেকনাফ উপকূল পর্যন্ত অগ্রসর হতে পারে।

আরও পড়ুন:
সব বিভাগে ঝড়-বৃষ্টির আভাস
গরম একটু কমতে পারে শিগগিরই
দেশে বিক্ষিপ্তভাবে হতে পারে শিলা বৃষ্টি
চাল কিনবেন না ঘর বাঁধবেন, দুশ্চিন্তায় সেন্ট মার্টিনের বাসিন্দারা
বৃষ্টির প্রবণতা বাড়তে পারে সোমবার থেকে

মন্তব্য

বাংলাদেশ
What happened to Erdoğan on the phone to Sheikh Hasina?

শেখ হাসিনাকে ফোন এরদোয়ানের, কী কথা হলো

শেখ হাসিনাকে ফোন এরদোয়ানের, কী কথা হলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। কোলাজ: বাসস
প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইংয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বুধবার রাত সোয়া ১১টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফোন কল দেন রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। দুই নেতা কুশল বিনিময়ের পাশাপাশি বিভিন্ন বিষয়ে ১০ মিনিট কথা বলেছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফোন করেছেন তুরস্কে সদ্য অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান।

বুধবার রাতে দুই দেশের সরকারপ্রধান ও রাষ্ট্রপ্রধানের মধ্যে এ ফোনালাপ হয়।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইংয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বুধবার রাত সোয়া ১১টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফোন কল দেন রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। দুই নেতা কুশল বিনিময়ের পাশাপাশি বিভিন্ন বিষয়ে ১০ মিনিট কথা বলেছেন।

বার্তা সংস্থা বাসসের প্রতিবেদনে জানানো হয়, ফোনালাপে দ্বিতীয় দফায় অনুষ্ঠিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী এরদোয়ানকে অভিনন্দন জানিয়েছেন শেখ হাসিনা। তুরস্কের জনগণ যোগ্য নেতা নির্বাচন করায় তার সন্তোষের কথা জানান প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, সাম্প্রতিক ভূমিকম্পের সময়ের মতো ভবিষ্যতেও দৃঢ়ভাবে তুরস্কের ভ্রাতৃপ্রতিম জনগণের পাশে দাঁড়াবে বাংলাদেশের মানুষ।

দ্বিতীয় দফা জয়ের পর তুরস্কের উচ্ছ্বসিত জনগণের সঙ্গে একাত্মতা পোষণ করায় বাংলাদেশের ভ্রাতৃপ্রতিম জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এরদোয়ান।

বাংলাদেশের জনগণকে ধন্যবাদ জানিয়ে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরও জোরদার করার বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তুরস্কের রাষ্ট্রপ্রধান। বাংলাদেশের সঙ্গে তুরস্কের বিদ্যমান দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে অন্য মাত্রায় নিতে শেখ হাসিনার সঙ্গে কাজ অব্যাহত রাখার ইচ্ছার কথা পুনর্ব্যক্ত করেন তিনি।

তার এ বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে শেখ হাসিনা প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান ও তার পরিবারের প্রতি শুভকামনা জানান। একই সঙ্গে এরদোয়ানের নেতৃত্বে তুরস্কের জনগণের শান্তি, উন্নতি ও সমৃদ্ধি যাতে অব্যাহত থাকে, সেই কামনা করেন।

আরও পড়ুন:
অস্ত্র প্রতিযোগিতার অর্থ কেন ক্ষুধার্ত শিশুদের জন্য নয়: প্রধানমন্ত্রী
দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী
বর্তমান সরকারের অধীনেই আগামী নির্বাচন: প্রধানমন্ত্রী
ক্ষমতা আঁকড়ে থাকতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী
পরিবর্তিত বাংলাদেশ নারী-পুরুষের সম্মিলিত চেষ্টার ফসল: প্রধানমন্ত্রী

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Moodys negative rating on 7 banks in the country

দেশের ৭ ব্যাংককে মুডি’স-এর নেতিবাচক রেটিং

দেশের ৭ ব্যাংককে মুডি’স-এর নেতিবাচক রেটিং যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আন্তর্জাতিক ঋণমান প্রদানকারী সংস্থা মুডি’স ইনভেস্টর সার্ভিস-এর প্রধান কার্যালয়। ছবি: সংগৃহীত
রেটিং কমানো ব্যাংকগুলো হলো- ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড, দ্য সিটি ব্যাংক লিমিটেড, ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড, এনসিসি ব্যাংক লিমিটেড ও প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড। আর মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেডের রেটিং নিশ্চিত করা হয়েছে বলে মুড ‘স-এর প্রতিবেদনে জানানো হয়।

দেশের সাতটি বেসরকারি ব্যাংককে ‘নেতিবাচক’ রেটিং দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আন্তর্জাতিক ঋণমান প্রদানকারী সংস্থা মুডি’স ইনভেস্টর সার্ভিস। এর মধ্যে ছয়টির ‘দীর্ঘমেয়াদী ডিপোজিট’ ও ‘ইস্যুয়ার রেটিং’ অবনমন এবং আরেকটি ব্যাংকের প্রথম রেটিং করা হয়েছে, যা নেতিবাচক বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

বুধবার এক প্রতিবেদনে বাংলাদেশের ব্যাংকগুলোর রেটিং বা ঋণমান কমানোর কথা জানায় মুডি’স।

রেটিং কমানো ব্যাংকগুলো হলো- ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড, দ্য সিটি ব্যাংক লিমিটেড, ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড, এনসিসি ব্যাংক লিমিটেড ও প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড। আর মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেডের রেটিং নিশ্চিত করা হয়েছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়।

২০২২ সালের ডিসেম্বরে এসব ব্যাংকের রেটিং পুনর্মূল্যায়নের ঘোষণা দিয়েছিল মুডি’স। পর্যালোচনার পর বুধবার নতুন রেটিংয়ের ঘোষণা এল।

মঙ্গলবার বাংলাদেশের ঋণমান কমানোর ঘোষণা দিলেও তাদের পূর্বাভাস স্থিতিশীল রাখে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ঋণমান প্রদানকারী এ সংস্থাটি।

২০২২ সালের ১২ ডিসেম্বর মুডি’স জানায়, দীর্ঘমেয়াদে বাংলাদেশের সর্বভৌম রেটিং ‘বিএ৩’ থেকে পুনর্মূল্যায়ন করতে এসব ব্যাংকের রেটিং পুনর্মূল্যায়ন করা হচ্ছে।

সে সময় সংস্থাটি জানিয়েছিল, বাংলাদেশের সার্বভৌম রেটিংয়ে ব্যাংক খাতের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা থাকে। ব্যাংকের ঋণ দেয়ার সক্ষমতা সরকারের সক্ষমতাতেও প্রভাব ফেলে।

সংস্থাটি বলেছিল, পুনর্মূল্যায়নের সময় বেশ কিছু বিষয় তারা বিবেচনায় নেবে; বাংলাদেশের বিদেশি মুদ্রার রিজার্ভও এর মধ্যে রয়েছে। পরিস্থিতির উন্নয়নে বাংলাদেশ ব্যাংকের পদক্ষেপগুলোও এক্ষেত্রে বিবেচনায় নেয়া হবে।

প্রতিষ্ঠানের সার্বিক আর্থিক অবস্থার ওপর রেটিং নিতে ব্যাংকগুলো আন্তর্জাতিক রেটিং সংস্থাগুলোর সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়। রেটিং পাওয়ার জন্য একটি নির্দিষ্ট ফি দিয়ে থাকে ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠানগুলো। মুডি’স-এর সঙ্গে চুক্তি করেছিল বলে বাংলাদেশের শুধু এ সাত ব্যাংকেরই রেটিং করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

মুডি’স-এর রেটিং বা ঋণমান একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সক্ষমতা প্রকাশ ও আন্তর্জাতিক গ্রহণযোগ্যতা নির্ধারণে সহায়ক হয়।

বিবৃতিতে মুডি’স জানিয়েছে, সাত ব্যাংকের মধ্যে চারটির ‘বেজলাইন ক্রেডিট অ্যাসেসমেন্ট’ করা হয়েছে। আর এনসিসি ও প্রিমিয়ার ব্যাংকের রেটিং বি৩ থেকে বি২ এবং মার্কেন্টাইল ব্যাংকের দীর্ঘমেয়াদী আমানত ও ইস্যুয়ার রেটিং বি২ করা হয়েছে।

অপরদিকে এবারের রেটিং মূল্যায়নের প্রভাব সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের (সিএএ১ নেগেটিভ, সিএএ২) রেটিংয়ে পড়েনি বলে বিবৃতিতে বলা হয়।

২০২৩-২৪ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণার আগে বাংলাদেশের ঋণমান সূচক কমানোর ব্যাখ্যায় বেশ কিছু কারণ তুলে ধরে মুডি’স। এর মধ্যে ডলারের সংকট অব্যাহত থাকা, বিদেশি মুদ্রার মজুদ কমে যাওয়ায় বৈদেশিক লেনেদেনে চাপ তৈরি হওয়া ও আমদানি কার্যক্রম ব্যাহত, রাজস্ব আহরণে পিছিয়ে থাকা এবং জ্বালানি সরবরাহে ঘাটতি দেখা দেয়ার মতো বিষয় রয়েছে বলে জানায় প্রতিষ্ঠানটি।

বিবৃতিতে মুডি’স বলছে, আগের মতোই একাধিক বিনিময় হার ও বেঁধে দেয়া সুদের হারের সীমা বহাল থাকায় তা সাধারণ কার্যক্রমকে বিঘ্নিত করছে।

দেশের রিজার্ভের পরিমাণ ৩০ বিলিয়ন ডলারের ওপরে যেতে আরও দুই থেকে তিন বছর লাগবে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

আরও পড়ুন:
বাংলাদেশের ঋণ মান এক ধাপ কমিয়ে দিয়েছে মুডিস

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Not first class travel by air at government expense

সরকারি খরচে আকাশপথে প্রথম শ্রেণিতে ভ্রমণ নয়

সরকারি খরচে আকাশপথে প্রথম শ্রেণিতে ভ্রমণ নয়
প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব এম. এম. ইমরুল কায়েস জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সরকারি খরচে আকাশ পথে বিজনেস ক্লাসে বিদেশ ভ্রমণ স্থগিত করা হয়েছে। আজ (বুধবার) এ সংক্রান্ত সারসংক্ষেপে প্রধানমন্ত্রী সই করেছেন। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এই সুবিধা স্থগিত থাকবে।

সরকারি ব্যয়ে আকাশ পথে বিজনেস ক্লাসে (প্রথম শ্রেণি) বিদেশ ভ্রমণ স্থগিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সংক্রান্ত সারসংক্ষেপে বুধবার স্বাক্ষর করেছেন তিনি। কোভিড-পরবর্তী অর্থনীতি পুনরুদ্ধার ও বৈশ্বিক সংকটের প্রেক্ষাপটে নানামুখী পদক্ষেপের আওতায় এই নির্দেশনা দিয়েছেন সরকার প্রধান।

প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব এম. এম. ইমরুল কায়েস বুধবার এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সরকারি খরচে আকাশ পথে বিজনেস ক্লাসে বিদেশ ভ্রমণ স্থগিত করা হয়েছে। আজ (বুধবার) এ সংক্রান্ত সারসংক্ষেপে প্রধানমন্ত্রী সই করেছেন। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এই সুবিধা স্থগিত থাকবে।

এদিকে বৃহস্পতিবার ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জন্য বাজেট ঘোষণা করতে যাচ্ছে সরকার। এবারের বাজেটে ডলার সংকট, রিজার্ভ কমে যাওয়া ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির বিষয়টি বিবেচনায় রাখা হয়েছে। মূলত ডলারের ব্যয় কমাতেই সরকারি খরচে আকাশ পথে বিজনেস ক্লাসে বিদেশ ভ্রমণ স্থগিত করা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের ওপর চাপ কমাতে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ সফর বন্ধের নির্দেশ দিয়ে গত বছরের ১২ মে একটি পরিপত্র জারি করেছিল অর্থ মন্ত্রণালয়।

পরে ওই বছরের ১৯ সেপ্টেম্বর এক আদেশে সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণের শর্ত কিছুটা শিথিল করা হয়। সীমিত আকারে কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নিয়ে কর্মকর্তাদের বিদেশে যাওয়ার সুযোগ দিয়ে আদেশ জারি করে অর্থ মন্ত্রণালয়। ৯ নভেম্বর আবারও সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিদেশ ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দেয় সরকার।

মন্তব্য

p
উপরে