× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বাংলাদেশ
Next Bangladesh will be cashless Joy
google_news print-icon

আগামীর বাংলাদেশ হবে ক্যাশলেস: জয়

আগামীর-বাংলাদেশ-হবে-ক্যাশলেস-জয়
সোনালী ব্যাংকের চালু করা ব্লেজ সার্ভিসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব আহমেদ ওয়াজেদ জয়। ছবি: ফোকাস বাংলা
সোনালী ব্যাংকের ডিজিটাল গেটওয়ে ব্লেজ সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে প্রবাসীদের পাঠানো টাকা মাত্র পাঁচ সেকেন্ডে সরাসরি গ্রাহকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে যুক্ত হবে। এ সেবা বিরতিহীনভাবে চালু থাকবে। ব্লেজ সার্ভিস মঙ্গলবার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব আহমেদ ওয়াজেদ জয়।

আগামী ১০ বছরে বাংলাদেশকে পরিপূর্ণভাবে ক্যাশলেস বা কাগুজে টাকামুক্ত হিসেবে গড়ে তোলার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব আহমেদ ওয়াজেদ জয়।

রেমিট্যান্স পাঠাতে সোনালী ব্যাংকের চালু করা ব্লেজ সার্ভিসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পুরো অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয় ডিজিটাল মাধ্যমে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, সোনালী ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান সিদ্দিকী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। ভার্চুয়ালি আরও যুক্ত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামাল, সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আতাউর রহমান প্রধান, হোমপে এলএলসি, ইউএস-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল আহসান এবং আইটিসিএল-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী সাইফুদ্দিন মুনির প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি উপদেষ্টা বলেন, ‘ক্যাশলেসই ভবিষ্যৎ। এটাই ডিজিটাল বাংলাদেশের পরবর্তী স্বপ্ন।

‘ব্লেজের মাধ্যমে বিদেশ থেকে সরাসরি সাধারণ মানুষের মোবাইলে রেমিট্যান্স পৌঁছে যাবে। তিনি যেকোনো কেনাকাটার পেমেন্ট মোবাইল ফোন থেকেই করতে পারবেন। তাদের ক্যাশ হাতে রাখতে হবে না। প্রবাসীদের পাঠানো কষ্টের উপার্জন আর কেউ চুরি করতে পারবে না।’

ব্লেজ সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে প্রবাসীদের পাঠানো টাকা মাত্র পাঁচ সেকেন্ডে সরাসরি গ্রাহকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে যুক্ত হবে। এ পদ্ধতিতে টাকা পাঠানো যাবে সাত দিন ২৪ ঘণ্টা। সোনালী ব্যাংকের সঙ্গে এই উদ্যোগে রয়েছে হোমপে এবং আইটিসিএল।

অনুষ্ঠানে জয় বলেন, ‘আওয়ামী লীগের নজর শুধু আজকের দিকে নয়। ভবিষ্যতে কী হবে, সেদিকেও আমাদের নজর রয়েছে। এটিকে কেন্দ্র করেই আমাদের সব প্রস্তুতি। আজ থেকে ১০ বছর পর আমরা কোথায় যাব, সেটাই ডিজিটাল বাংলাদেশের ভিশন। আমাদের এখনকার স্বপ্ন হচ্ছে আমরা হব একটি ক্যাশলেস সোসাইটি।

‘আমাদের দেশের ৫ কোটি মানুষের এখনও কোনো ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নেই। তারা পুরোপুরি ক্যাশের ওপর নির্ভরশীল। কিন্তু তাদের এই টাকা তো চুরি হতে পারে। পথে অনেকেই লুটে নিতে পারে। ক্যাশ ব্যবস্থাপনায় দুর্নীতির সুযোগ থাকে, কিন্তু ক্যাশলেস হয়ে গেলে এই দুর্নীতির সুযোগ বন্ধ হয়ে যাবে।’

তিনি বলেন, ‘সরকারি সব ভাতা এখন ডিজিটালি দেয়া হচ্ছে। আগে যারা এসব বিতরণ করত, তাদের চুরি করার সুযোগ থাকত। আমরা সেটা বন্ধ করে দিয়েছি।

‘আজকাল ডিজিটাল যুগে কোনো লিমিটেশনের মানে নেই। এ জন্যই ব্লেজের উদ্বোধন। যেমন আমার এখানে এখন দিন কিন্তু বাংলাদেশে রাত। আমি যদি দেশে কাউকে টাকা পাঠাই, সে কিন্তু এখন সেটা পাবে না। হয়তো তাকে আরো দু-এক দিন অপেক্ষা করতে হবে। কিন্তু ব্লেজের মাধ্যমে টাকা পাঠালে সেটা রাত দুইটা বাজলেও পেয়ে যাবে। আর এর জন্য কোথাও যেতে হবে না।’

জয় বলেন, ‘আমিও একজন প্রবাসী, আমার হয়তো সেভাবে দেশে কোনো টাকা পাঠাতে হয়তো হয় না। আমাদের দেশের আয়ের সবচেয়ে বেশি আসে রেমিট্যান্স থেকে। এটা গার্মেন্টসের চেয়েও বেশি। প্রবাসী শ্রমিক বা ইঞ্জিনিয়ার যারা বিদেশে কাজ করেন, তারা পরিবারকে প্রতি মাসেই টাকা পাঠান। আমি বাংলাদেশ ব্যাংককে কৃতজ্ঞতা জানাই, ধন্যবাদ জানাই, তারা এই টাকা পাঠানোর পদ্ধতিটি সহজ করেছে। বিভিন্ন দেশে রেমিট্যান্স সেন্টার খুলেছে।

‘এখন যারা টাকা পাঠান, তাদের আগে ব্যাংকে বা রেমিট্যান্স সেন্টারে যেতে হয়। সেখানে ভেরিফিকেশনের পর তারা টাকা জমা দেন। আবার এসব স্থানে টাকা পাঠাতে হয় সপ্তাহে ৫ দিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টার মধ্যে। সেটা পৌঁছাতে পৌঁছাতে আরো দু-এক দিন লেগে যায়।’

সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, ‘এখন কোভিডের কারণে ব্যাংকে বা রেমিট্যান্স সেন্টারে নানা শঙ্কা থাকে। এ পদ্ধতিতে টাকা পাঠালে সেটা থাকছে না। আমি আশা করি, সারা বিশ্বেই প্রবাসীরা এ পদ্ধতিতে টাকা পাঠাতে পারবেন। এই ব্লেজ সার্ভিসটা হবে ক্যাশলেস সোসাইটির একটি অংশ।

‘আপনারা (প্রবাসীরা) যখনই রেমিট্যান্স পাঠাতে চান, এটা ব্যবহার করুন। ভবিষ্যতের বাংলাদেশ হবে সম্পূর্ণ ডিজিটাল ও ক্যাশলেস। এটাই আগামী ১০ ও ২০ বছরের স্বপ্ন।’

তথ্য ও প্রযুক্তি উপদেষ্টা বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন হচ্ছে বাংলাদেশকে উন্নত করা, এগিয়ে নিয়ে যাওয়া এবং মানুষের জীবনকে সহজ করা। কোভিডের সময় আমরা এর সবচেয়ে বেশি সুফল পেয়েছি। এ সময় অনেক দেশের সরকার অসহায় হয়ে গেছে। সরকার পরিচালনা করতে পারেনি, স্কুল-কলেজ বন্ধ হয়ে যায়।

‘আমরা অনেক আগে থেকেই ডিজিটাল হওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছি। শুরু থেকেই বিভিন্ন সরকারি কাজে ভিডিও কনফারেন্সের ব্যবহার হয়েছে অনেক আগেই। কোভিডের আগে থেকে সিস্টেমটা ছিল।

‘আমরা ইউনিয়ন পর্যায়ে অপটিক্যাল ফাইবার স্থাপন করি। কোভিড হওয়ার আগে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অতটা কাজ হয়নি। কিন্তু যখন কোভিড শুরু হলো, তখন সিস্টেমটা ছিল বলে দ্রুত এই পদ্ধতিতে চলে যেতে পেরেছি। আর এ কারণে আমাদের অর্থনীতিতে কোভিডের প্রভাব তেমন একটা পড়েনি।’

অনুষ্ঠানে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক জানান, আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে কাগজহীন দপ্তর কার্যক্রমে প্রায় ১১ হাজার দপ্তর যুক্ত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘বিশ্বের খুব কম দেশই পাওয়া যাবে যারা হয়ত অর্থনৈতিকভাবে উন্নত, কিন্তু (বাংলাদেশে) দেড় কোটি পেপারলেস ই-ফাইল সম্পাদন করা হয়েছে, খরচ-অর্থ-দুর্নীতি কমিয়ে জনগণের দোড়গোড়ায় সেবা পৌঁছে দেয়া সম্ভব হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘১২ বছর আগে প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল বাংলাদেশের যে রূপকল্পটি ঘোষণা করেছিলেন, সজীব ওয়াজেদ জয় ভাইয়ের অনুপ্রেরণায় এবং পরামর্শে সেই ডিজিটাল বাংলাদেশের সব লক্ষ্য পূরণ করে আমরা দক্ষ মানবসম্পদে পরিণত হয়েছি। আমাদের ১৫ লক্ষাধিক তরুণ-তরুণীর আইসিটি সেক্টরে কর্মসংস্থান হয়েছে।

‘বাংলাদেশে ১২ কোটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী সৃষ্টি হয়েছে এবং একেবারে গ্রাম পর্যন্ত সরকারের সেবা ৮ হাজার ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে ১৬ হাজার তরুণ-তরুণী গ্রামে বসে প্রদান করছে।’

অনুষ্ঠানে সোনালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান সিদ্দিকী বলেন, “সোনালী ব্যাংক ডিজিটাল ব্যাংকিংয়ে অনেক দূর এগিয়ে গেছে। অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য এখন আর সরাসরি ব্যাংকে যেতে হয় না। মুঠোফোন অ্যাপ্লিকেশনে ‘সোনালী ই-সেবা’-এর মাধ্যমে ২ মিনিটে ঘরে বসেই খোলা যায় অ্যাকাউন্ট।”

তিনি বলেন, ‘সোনালী ই-সেবা অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যাংকের নিজস্ব জনবল ও ব্যবস্থাপনায় তৈরি করেছে। আমরা সোনালী ব্যাংককে পুরোপুরি ডিজিটালাইজেশনের জন্য নানা ধরনের উদ্যোগ নিয়েছি। ব্যাংকের উদ্যোগে চালু হওয়া রেমিট্যান্স সেবা ব্লেজ সে উদ্যোগেরই একটি।’

অনুষ্ঠানে সোনালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান সিদ্দিকীর ভূয়সী প্রশংসা করে জানানো হয়, তিনি এক সময়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর ছিলেন এবং যুগোপযোগী অনেকগুলো পদক্ষেপ নিয়েছেন। এগুলো ব্যাংক খাতকে গতিশীল করতে অনেক সহায়তা করেছে।

অনুষ্ঠানে সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আতাউর রহমান প্রধান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রবর্তিত ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে সক্রিয় অংশীদার হিসেবে সোনালী ব্যাংক প্রযুক্তিনির্ভর আধুনিক ব্যাংকিং সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় প্রবাসীদের কষ্টার্জিত অর্থ ব্যাংকিং চ্যানেলে ডিজিটাল পদ্ধতিতে তাৎক্ষণিক পরিশোধের জন্য সোনালী ব্যাংক এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।’

সোনালী ব্যাংকের প্রযুক্তিগত আধুনিকায়নের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘সারা দেশে সোনালী ব্যাংকের ১ হাজার ২২৮টি শাখার সবগুলোতে এখন আমরা অনলাইন সুবিধা থেকে শুরু করে প্রযুক্তিগত সব ধরনের সেবা দিয়ে যাচ্ছি।’

সোনালী ব্যাংকের প্রযুক্তিগত সক্ষমতা বাড়ানোর ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সার্বক্ষণিক সহায়তার কথা তুলে ধরেন মো. আতাউর রহমান প্রধান।

সোনালী ব্যাংক প্রযুক্তির মাধ্যমে ব্যাংক সেবা কী করে গ্রাহকের ঘর পর্যন্ত পৌঁছে দিচ্ছে তাও তুলে ধরেন তিনি।

ব্লেজ সেবাটি যেভাবে পাওয়া যাবে

সোনালী ব্যাংকের ব্লেজ সেবা চালু হওয়ার ফলে প্রবাসীদের কষ্টার্জিত অর্থ বিশ্বের যে কোনো প্রান্ত থেকে ব্যাংকিং চ্যানেলে ডিজিটাল পদ্ধতিতে মাত্র ৫ সেকেন্ডে বাংলাদেশে বেনিফিসিয়ারির ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা হবে।

প্রাথমিক পর্যায়ে দেশের ৩৫টি ব্যাংকের গ্রাহক ব্লেজ সেবাটি গ্রহণ করতে পারবে। পর্যায়ক্রমে দেশের সব ব্যাংকের গ্রাহক ও এমএফএস হিসাবধারীরা এই সেবার আওতায় আসবেন। নিরবচ্ছিন্নভাবে সপ্তাহে সাত দিন ২৪ ঘণ্টা এই সেবা পাওয়া যাবে।

প্রাথমিক পর্যায়ে অ্যাপ/ওয়েবভিত্তিক ইন্টারন্যাশনাল মানি ট্রান্সফার প্রতিষ্ঠান যেমন Skrill, Tranglo (Malaysia), Taptap Send ইত্যাদির ব্যবহারকারীরা তার ওয়ালেট অ্যাকাউন্ট বা অ্যাপ হতে বেনিফিসিয়ারির ব্যাংক হিসাব সংশ্লিষ্ট তথ্য পূরণ করে ‘সেন্ড’ বাটনে ক্লিক করার সঙ্গে সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বেনিফিসিয়ারির রেমিট্যান্সের তথ্য হোমপের মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকে চলে আসবে। বেনিফিসিয়ারি সোনালী ব্যাংকের গ্রাহক হলে ২ শতাংশ প্রণোদনাসহ রেমিট্যান্স গ্রাহকের হিসাবে তাৎক্ষণিকভাবে জমা হবে। যদি বেনিফিসিয়ারি অন্য ব্যাংকের গ্রাহক হয় তবে আইটিসিএল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে ২ শতাংশ প্রণোদনাসহ তাৎক্ষণিক টাকা বেনিফিসিয়ারির সংশ্লিষ্ট ব্যাংক হিসাবে জমা হবে। রেমিট্যান্স প্রেরণকারী ও বেনিফিসিয়ারি উভয়ই রেমিট্যান্সের অর্থ জমা হওয়ার তথ্য তাৎক্ষণিক পেয়ে যাবেন। এ পর্যায়ে ব্লেজের মাধ্যমে পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত রেমিট্যান্স আনা যাবে।

সোনালী ব্যাংকের সঙ্গে রক্ষিত মানি ট্রান্সফার প্রতিষ্ঠানের প্রিপেইড হিসাবের মাধ্যমে ওই রেমিট্যান্স সেটেলমেন্ট হবে।

আরও পড়ুন:
হলমার্কের সেই ৩৮ একর জমি সোনালী ব্যাংকের

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বাংলাদেশ
Autorickshaw driver killed after being hit by a bus in Kapasia

কাপাসিয়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার চালক নিহত

কাপাসিয়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার চালক নিহত গাজীপুরের কাপাসিয়ায় অটোরিকশায় বাসের ধাক্কায় একজন নিহত হয়েছেন। ছবি: নিউজবাংলা
গাজীপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফিন বলেন, “বুধবার সকালে টোক বাজার এলাকায় গাজীপুরগামী ‘পথের সাথী রাজদূত’ পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে কিশোরগঞ্জগামী সিএনজি চালিত অটোরিকশার সংঘর্ষ হয়। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে খবর পেয়ে ফায়ার কর্মীরা গিয়ে অটোরিকশাটির গ্রিল কেটে চালকের মরদেহ উদ্ধার করে।”

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশায় বাসের ধাক্কায় একজন নিহত হয়েছেন।

কাপাসিয়া-টোক সড়কের বাইপাসে টোক বাজার সংলগ্ন এলাকায় বুধবার সকাল ৬টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রাণ হারানো মো. ফজলুর রহমান (৩৬) কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার কৃষ্টপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি অটোরিকশাটির চালক ছিলেন।

টোক নয়ন বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই সুজন রঞ্জন তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সংঘর্ষে অটোরিকশাটির সামনের অংশ দুমড়েমুচড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই চালকের মৃত্যু হয়। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে অটোরিকশাটির গ্রিল কেটে চালকের মরদেহ উদ্ধার করেন।

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফিন বলেন, “বুধবার সকালে টোক বাজার এলাকায় গাজীপুরগামী ‘পথের সাথী রাজদূত’ পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে কিশোরগঞ্জগামী সিএনজি চালিত অটোরিকশার সংঘর্ষ হয়। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে কাপাসিয়া ফায়ার সার্ভিসের ওয়্যারহাউজ ইন্সপেক্টর মাহফুজুর রহমানের নেতৃত্বে ফায়ার কর্মীরা গিয়ে অটোরিকশাটির গ্রিল কেটে চালকের মরদেহ উদ্ধার করে।”

এসআই সুজন রঞ্জন তালুকদার সাংবাদিকদের জানান, বাস ও অটোরিকশাটি জব্দ করা হয়েছে। নিহতের মরদেহ পুলিশের হেফাজতে রয়েছে এবং তার স্বজনদের জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন:
তেজগাঁওয়ে পড়ে গেছে যমুনা এক্সপ্রেসের বগি
বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা
ত্রাণের টিন আনতে গিয়ে হারিয়ে গেল পুরো পরিবার
ঈদ ছুটির তিনদিনে দুই শতাধিক দুর্ঘটনা, শীর্ষে মোটরসাইকেল
ফরিদপুরের দুর্ঘটনার যেসব কারণ জানা গেল

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Two people died due to lightning in Sunamganjs Dirai

দিরাইয়ে বজ্রপাতে ২ জনের মৃত্যু

দিরাইয়ে বজ্রপাতে ২ জনের মৃত্যু ফাইল ছবি
সুনামগঞ্জ দিরাই থানার ওসি (তদন্ত) রতন দেবনাথ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে বজ্রপাতে দুজনের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে বজ্রপাতে তাদের মৃত্যু হয়।

উপজেলার ভাটিপাড়া ইউনিয়নের মধুরাপুর গ্রামের মালেক নূর (৪৫) ও কুলঞ্জ ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের আব্দুর নূর (৪০)।

দিরাই থানার ওসি (তদন্ত) রতন দেবনাথ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, উপজেলার মধুরাপুর মান্দার হাটির মৃত উকিল উদ্দিনের ছেলে মালেক নুর মধুরাপুর গ্রামের রমজানপুর হাওরে নিজের জমিতে ধান মাড়ার মেশিন নিয়ে ধান মাড়াই করতে যান। সন্ধ্যা ৭টার দিকে হঠাৎ বজ্রপাত শুরু হলে তিনি বজ্রাঘাতে আহত হন। পরে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

অন্যদিকে একই সময় কুলঞ্জ ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের আব্দুর নূর বাড়ির পাশে কাজ করছিলেন। এ সময় বজ্রের আঘাতে তিনি মারা যান।

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Reporter of fake milk production in Pabna allegedly beaten and broken leg

নকল দুধের সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিকের পা ভাঙার অভিযোগ

নকল দুধের সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিকের পা ভাঙার অভিযোগ আহত মানিক হোসেন। ছবি: নিউজবাংলা
ভাঙ্গুড়া থানার ওসি নাজমুল হক বলেন, ‘পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিল। এ বিষয়ে মামলা রুজু হলে আসামিদের আটক করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া নকল দুধ তৈরির বিষয়টি বর্তমানে খুবই আলোচিত। এ বিষয়েও আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় সংবাদ প্রকাশের জেরে এক সাংবাদিককে পিটিয়ে পা ভেঙে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

উপজেলার পুঁইবিল গ্রামে মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহত দৈনিক খোলা কাগজের প্রতিনিধি মানিক হোসেনকে গুরুতর অবস্থায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মারধরের সময় তার মোটরসাইকেল ও মোবাইল কেড়ে নেয়া হয়। মানিক ভাঙ্গুড়া প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

অভিযোগে জানা যায়, ভাঙ্গুড়া উপজেলার দিলপাশার ইউনিয়নের চক লক্ষীকোল গ্রামের দুগ্ধ ব্যবসায়ী রাজীব আহমেদ এবং কৈডাঙ্গা গ্রামের আবুল বাশার দীর্ঘদিন ধরে নকল দুধ তৈরির করে বাজারজাত করে আসছেন। এ নিয়ে কিছুদিন আগে মানিক হোসেনসহ কয়েকজন সাংবাদিক নকল দুধ তৈরির ভিডিও ধারণ করেন।

এসব ভিডিও উপজেলা প্রশাসন ও থানা প্রশাসনকে দেখালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মতবিনিময় সভায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সুশীল সমাজের বক্তারা এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ করেন।

পরে এ নিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রাজিব আহমেদ ও আবুল বাশারের নেতৃত্বে বায়েজিদ, রাজিব ও মাহাতাবসহ ১০ থেকে ১২জন ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী মঙ্গলবার সকালে পুঁইবিল সড়কে মানিককে একা পেয়ে পিটিয়ে পা ভেঙে দেযন।

পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে মানিককে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। অবস্থা মুমূর্ষু হওয়ায় হাসপাতালের চিকিৎসকরা মানিককে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করেন।

আহত প্রতিনিধি মানিক বলেন, ‘সংবাদ প্রকাশের পর থেকে নকল দুধ তৈরির ব্যবসায়ীরা বাড়িতে এসে কয়েকদিন হুমকি দিচ্ছে। এ অবস্থায় আমাকে পিটিয়ে পা ভেঙে দিয়েছে এবং সেই পেটানোর ভিডিও করেছে তারা। আমার মোটরসাইকেল ও মোবাইল কেড়ে নিয়েছে। আমি আমার পরিবার নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন।’

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ইকরামুন নাহার শেলী বলেন, ‘এক্সরেতে দেখা যায় মানিকের পায়ের হার ডিসপ্লেস হয়ে গেছে। এর চিকিৎসা ভাঙ্গুড়ায় সম্ভব নয়। তাই পাবনা পাঠানো হয়েছে।’

ভাঙ্গুড়া থানার ওসি নাজমুল হক বলেন, ‘পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিল। এ বিষয়ে মামলা রুজু হলে আসামিদের আটক করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া নকল দুধ তৈরির বিষয়টি বর্তমানে খুবই আলোচিত। এ বিষয়েও আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

মন্তব্য

বাংলাদেশ
A coach of Yamuna Express fell in Tejgaon

তেজগাঁওয়ে পড়ে গেছে যমুনা এক্সপ্রেসের বগি

তেজগাঁওয়ে পড়ে গেছে যমুনা এক্সপ্রেসের বগি ফাইল ছবি
দুর্ঘটনার পর ঢাকাগামী ট্রেন আটকে যায়। এ ছাড়া কারওয়ান বাজার রেলক্রসিং এবং মগবাজারেও তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

রাজধানীর তেজগাঁও এলাকায় যমুনা এক্সপ্রেস ট্রেনের একটি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে।

বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে জামালপুর থেকে ঢাকায় ঢাকায় আসার পথে এ দুর্ঘটনায় পড়ে ট্রেনটি।

কমলাপুর রেলওয়ে থানার পরিদর্শক ফেরদৌস আহমেদ বিশ্বাস এসব বিষয় নিশ্চিত করেছেন।

দুর্ঘটনার পর ঢাকাগামী ট্রেন আটকে যায়। এ ছাড়া কারওয়ান বাজার রেলক্রসিং এবং মগবাজারেও তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

ফেরদৌস আহমেদ জানান, দ্রুতই উদ্ধারকাজ শুরু হয়। সকাল ১০টার দিকে লাইনচ্যুত বগি ছাড়াই ট্রেনটি চলা শুরু করে।

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Youth arrested in case of rape of madrasa student

মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় যুবক গ্রেপ্তার

মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় যুবক গ্রেপ্তার ময়মনসিংহের গৌরীপুরে মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। ছবি: নিউজবাংলা
এ বিষয়ে ময়মনসিংহ র‌্যাব-১৪ সদর দপ্তরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জুলফিকার আলী বলেন, ‘গত বছরের ৭ আগস্ট মেয়েটির বাবা বাড়িতে না থাকার সুযোগে সুমন মেয়ের ঘরে ঢুকে খাটের নিচে লুকিয়ে থাকে। পরে রাতে মেয়েটির মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে সুমন।

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে পঞ্চম শ্রেণির মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

গাজীপুরের টঙ্গী পূর্ব থানার হোসেন মার্কেট এলাকা থেকে সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ময়মনসিংহ র‌্যাব-১৪ সদর দপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গ্রেপ্তার মহিদুল ইসলাম ওরফে সুমন (২৮) গৌরীপুরের মাওয়া ইউনিয়নের কুমড়ী গ্রামের বাসিন্দা।

এ বিষয়ে ময়মনসিংহ র‌্যাব-১৪ সদর দপ্তরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জুলফিকার আলী বলেন, ‘স্থানীয় একটি মহিলা মাদ্রাসায় পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে ওই শিক্ষার্থী। মাদ্রাসায় আসা-যাওয়ার পথে মেয়েটিকে বিরক্ত করত সুমন। কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সুমন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। গত বছরের ৭ আগস্ট মেয়েটির বাবা বাড়িতে না থাকার সুযোগে সুমন মেয়ের ঘরে ঢুকে খাটের নিচে লুকিয়ে থাকে।

‘পরে রাতে মেয়েটির মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে সুমন। এ সময় ডাক-চিৎকারের একপর্যায়ে মেয়েটির মানসিক প্রতিবন্ধী মা এগিয়ে এলে সুমন দৌড়ে পালিয়ে যায়।’

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, ‘এ ঘটনায় ২২ আগস্ট মেয়েটির বাবা থানায় বাদী হয়ে সুমনকে আসামি করে ধর্ষণ মামলা করেন। ঘটনাটি র‌্যাবের নজরে আসলে ছায়াতদন্ত শুরু করা হয়। পরবর্তীতে বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও বিশ্লেষণের মাধ্যমে সুমনের পালিয়ে থাকার অবস্থান জানতে পেরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার সুমনকে থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন:
নাটোরে ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামি গ্রেপ্তার
বন কর্মকর্তা হত্যা মামলার প্রধান আসামি চট্টগ্রামে গ্রেপ্তার
সাংবাদিককে মারধর: আওয়ামী লীগ নেতাসহ তিনজনের নামে মামলা
বান্দরবানে সোনালী ও কৃষি ব্যাংকে ডাকাতির ঘটনায় ৪ মামলা
চট্টগ্রামে শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা, গ্রেপ্তার ১

মন্তব্য

বাংলাদেশ
Prime Minister pays tribute to Bangabandhus portrait on Mujibnagar Day

মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: ফোকাস বাংলা
পুষ্পস্তবক অর্পণের পর প্রধানমন্ত্রী স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সেখানে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন।

ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার সকালে তিনি রাজধানীর ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। খবর ইউএনবির

পুষ্পস্তবক অর্পণের পর প্রধানমন্ত্রী স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সেখানে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে আরেকটি পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

১৯৭১ সালের এই দিনে তৎকালীন কুষ্টিয়া জেলার অন্তর্গত মেহেরপুরের বৈদ্যনাথতলার আম্রকাননে বাংলাদেশের প্রথম সরকার গঠিত হয়।

বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পরবর্তীতে স্থানটির নাম পরিবর্তন করে মুজিবনগর রাখা হয়। প্রথম সরকারের রাষ্ট্রপতি ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

তাজউদ্দীন আহমদকে প্রথম প্রধানমন্ত্রী নিযুক্ত করা হয়, ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী ও এএইচএম কামারুজ্জামানকে মন্ত্রিসভার সদস্য করা হয়। মূল মন্ত্রিসভার সফল নেতৃত্ব সেই বছরের ১৬ ডিসেম্বর মুক্তিযুদ্ধকে বিজয়ের দিকে নিয়ে যায়।

মন্তব্য

বাংলাদেশ
In Munshiganj Awami Leagues two groups attacked and looted the marriage house of the cocktail explosion

মুন্সীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধসহ আহত ৭

মুন্সীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধসহ আহত ৭ হামলা, ঘরবাড়ি ভাঙচুর। ছবি: নিউজবাংলা
মুন্সীগঞ্জ থানার ওসি আমিনুল বলেন, আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ববিরোধের জেরে এ সংঘাতের ঘটনা। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করবে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মাঠে কাজ করছে পুলিশ, জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে।
মুন্সীগঞ্জে পূর্ব বিরোধের জেরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের হামলা-পাল্টা হামলা হয়েছে। এতে একজন গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছেন সাতজন।
সদর উপজেলার মোল্লাকান্দি ইউনিয়নে এলাকায় মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টা থেকে এ ঘটনার শুরু, চলে বেশ কিছুক্ষণ। এ সময় উভয় পক্ষের ছোড়া ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে পুলিশ জানায়, ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিপন হোসেন পাটোয়ারীর অনুসারী বাহাদুর মিয়া ও ইউপি সদস্য ডলি বেগম গ্রুপের সঙ্গে সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোহসিনা হক কল্পনার অনুসারী বাবু কাজী, শওকত ও ইউপি সদস্য সুমা গ্রুপের মধ্যে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব বিরোধের জেরে উভয় পক্ষ মঙ্গলবার সকাল থেকে এলাকায় উত্তেজনা ছড়াতে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটাতে থাকে। এ সময়ে গাবুয়া বাড়ি এলাকার বাবু কাজী নেতৃত্বে বিয়ে বাড়িতে হামলা করে করে নিয়ে যায় সবকিছু।
এক পর্যায়ে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে উভয় পক্ষ ধাওয়া- পাল্টা ধাওয়ায় জড়িয়ে পড়ে। থেমে থেমে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা চলতে থাকে এবং ওই ইউনিয়নের ঢালীকান্দি, মুন্সীকান্দি ও উত্তর বেহেরকান্দি গ্রামে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় উভয় পক্ষ গুলিবর্ষণ করে ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে একজন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত সাতজন আহত হন।
গুলিবিদ্ধ সিফাত (২০) ও ককটেল বিস্ফোরণে গুরুতর আহত আম্বিয়া খাতুনকে (৬০) মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল থেকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
সংঘাতের সময় মুন্সীকান্দি গ্রামে একটি বিয়ে বাড়িতে মালামাল লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বাহার উদ্দিনের ছেলে আশিকের বিয়ে সোমবার অনুষ্ঠিত হয়। বাহার উদ্দিনের ছেলে আশিকের বিয়েকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার বাড়িতে আনন্দ করছিলেন আত্মীয় স্বজনরা। এ সময় প্রতিপক্ষ বাবু কাজীর লোকজন অস্ত্র ও ককটেল নিয়ে বিয়ে বাড়িতে হামলা করে গুলিবর্ষণ করে বলে অভিযোগ।

বাহার উদ্দিনের ভাষ্য, ব্যাপক ভাঙচুর, নববধুর পরিহিত স্বর্ণালংকারসহ বাড়ির অন্যদের গহনা লুটপাট করা হয়েছে।

এ বিষয়ে মুন্সিগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) থান্ডার খায়রুল হাসান বলেন, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুইপক্ষের উত্তেজনা সংঘর্ষে রূপ নেয়। সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। কয়েকজন আহত হয়েছে শুনেছি।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ওসি আমিনুল বলেন, ‘আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ববিরোধের জেরে এ সংঘাতের ঘটনা। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করবে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মাঠে কাজ করছে পুলিশ, জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে। বিয়ে বাড়িতে হামলা করে, ঘরবাড়ি ভাঙচুর করেছে। তবে এখানে কেউ আহত হয়নি। বিয়ে বাড়ির লোকজন অভিযোগ করেছে তাদের স্বর্ণালংকার, খাবার নিয়ে গেছে।’

মন্তব্য

p
উপরে