আবারও বন্ধ হলো অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট

আবারও বন্ধ হলো অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ৮ জুলাই প্রথম প্রহর থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত সব ধরনের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলাচল বন্ধ থাকবে।

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে আবারও সব ধরনের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।

সোমবার বিকেলে বেবিচকের এক সার্কুলারে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়। এতে বলা হয়, ৮ জুলাই প্রথম প্রহর থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত সব ধরনের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলাচল বন্ধ থাকবে।

দেশে করোনার দ্বিতীয় পর্যায়ের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে ১ জুলাই থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত কঠোর বিধি নিষেধ জারি করে সরকার, যা শাটডাউন নামে পরিচিতি পেয়েছে। সোমবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এই বিধি নিষেধ ১৪ জুলাই পর্যন্ত বর্ধিত করে প্রজ্ঞাপণ জারি করে।

এই বিধিনিষেধের মধ্যে অন্যান্য গণপরিবহনের মতো বন্ধ রাখা হয় অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলাচল। তবে আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট স্বাভাবিক রয়েছে।

অবশ্য চলমান বিধিনিষেধের জারির একদিন পরই বিদেশগামীদের জন্য সীমিত সংখ্যক অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলাচলের অনুমতি দেয় বেবিচক। বেবিচক জানায়, শুধুমাত্র বিদেশগামীদের আনা-নেয়া করতে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চালাতে পারবে দেশি এয়ারলাইনসগুলো।

দেশে করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর গত বছরের মার্চে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক সব রুটে ফ্লাইট চলাচল স্থগিত করে বেবিচক। অবশ্য জুলাই থেকে ধীরে ধীরে খুলতে শুরু করে আকাশপথ।

চলতি বছর করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হলে ৫ এপ্রিল থেকে নানা বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। সে সময় আন্তজেলা পরিবহনের মতো বন্ধ করা হয় অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলাচলও। তবে ২১ এপ্রিল থেকে আবারও সীমিত পরিসরে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলাচলের অনুমতি দেয় বেবিচক।

আরও পড়ুন:
যাত্রী পাচ্ছে না অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট
শুধু বিদেশগামীদের জন্য চলবে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট
বিদেশগামীদের আকাশপথে ঢাকায় আনবে বিমান
বিমান নিয়ে নাশকতার মামলায় বৈমানিকের জামিন নাকচ
৬ মাসের কাজ শেষ হয়নি ৫৪ মাসেও

শেয়ার করুন

মন্তব্য