এবার বন্ধ রেল

এবার বন্ধ রেল

বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক সরদার শাহদাত হোসেন জানান, ঢাকার সঙ্গে রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন থাকবে ৩০ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত। এরপর সরকারের সিদ্ধান্তের আলোকে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। এই সিদ্ধান্তের আগে যারা অগ্রিম ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কেটেছেন, তারা টিকিট ফেরত দিতে পারবেন।

করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ঢাকাকে সারা দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন রাখতে পার্শ্ববর্তী কয়েকটি জেলায় কঠোর লকডাউনের পর এবার রাজধানীর সঙ্গে সব ধরনের রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্নের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

রাত ১২টা থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে বলে মঙ্গলবার রেল মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

বিষয়টি নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক সরদার শাহদাত হোসেন বলেন, ‘এ সিদ্ধান্ত ৩০ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত কার্যকর থাকবে। এরপর সরকারের সিদ্ধান্তের আলোকে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’

সরকারের এই সিদ্ধান্তের আগে যারা অগ্রিম ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কেটেছেন, তারা টিকিট ফেরত দিতে পারবেন বলেও জানিয়েছেন সরদার শাহদাত হোসেন।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ঢাকাকে বিচ্ছিন্ন করতে পার্শ্ববর্তী ৪ জেলাসহ ৭ জেলায় ৯ দিনের কঠোর লকডাউন আরোপ করা হলেও অন্যান্য জেলার সঙ্গে রাজধানীর রেল যোগাযোগ অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সরকার। পরদিনই সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসলো রেল মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার সকালে রেল মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছিল গাজীপুরে চলাচলরত তুরাগ এক্সপ্রেস ও কালিয়াকৈর কমিউটার ট্রেন মঙ্গলবার ভোর ৬টা থেকে ৩০ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত সময়ের জন্য বাতিল করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তি আরও বলা হয়েছিল গাজীপুরের মধ্যে অবস্থিত সকল স্টপেজ লকডাউন থাকা পর্যন্ত বাতিল থাকবে, থামবে না কোনো আন্তঃনগর ট্রেন। গোপালগঞ্জ-রাজশাহীর মধ্যে চলাচলকারী টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেস, খুলনা-রাজবাড়ীর মধ্যে চলাচলকারী নকশীকাঁথা এক্সপ্রেস ও রাজবাড়ী-ভাঙ্গা-রাজবাড়ীর মধ্যে চলাচলকারী রাজবাড়ী এক্সপ্রেস বাতিল করা হয়েছে।

এ ছাড়া খুলনাগামী চলাচলকারী সকল যাত্রীবাহী ট্রেন যশোর পর্যন্ত চলাচল করবে। এ সিদ্ধান্ত ৩০ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত অথবা সংশ্লিষ্ট জেলায় লকডাউন থাকা পর্যন্ত কার্যকর থাকবে বলে জানিয়েছিল রেল মন্ত্রণালয়।

সন্ধ্যায় এসে সেসব সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে ঢাকার সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্নের সিদ্ধান্ত জানায় রেল মন্ত্রণালয়।

সচিবালয়ে সোমবার দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের জরুরি বৈঠকে ঢাকাতে করোনা রুখতে সারাদেশের সঙ্গে রাজধানীকে বিচ্ছিন্নের সিদ্ধান্ত হয়। কঠোর লকডাউন আরোপ করা হয় নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, মুন্সিগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, রাজবাড়ীতে, যা চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত।

আরও পড়ুন:
হেঁটে ঢাকা ছাড়ছে মানুষ
ময়মনসিংহ থেকে গাড়ি ঢুকতে পারছে না গাজীপুরে
মুন্সিগঞ্জে লকডাউন কার্যকরে ১০ পয়েন্টে চেকপোস্ট
গাড়ির জন্য অন্তহীন অপেক্ষা
জীবননগরে কঠোর লকডাউন শুরু বুধবার

শেয়ার করুন

মন্তব্য