নৌপথেও বিচ্ছিন্ন ঢাকা

নৌপথেও বিচ্ছিন্ন ঢাকা

মঙ্গলবার ভোর ৬টা থেকে ৩০ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত ঢাকার সঙ্গে সব ধরনের নৌযান বন্ধ থাকবে। এই অবস্থা চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত। তবে পণ্য পরিবহন এবং জরুরি সেবাদানকারী নৌযানের ক্ষেত্রে এই আদেশ কার্যকর হবে না।

করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ঢাকাকে সারা দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন রাখতে পার্শ্ববর্তী ৪ জেলাসহ ৭ জেলায় শাটডাউন চলাকালে রাজধানীর সঙ্গে নৌপথেও সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধের ঘোষণার পর, এবার ঢাকা থেকে সারা দেশের যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করা হলো।

মঙ্গলবার ভোর ৬টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ঢাকার সঙ্গে সব ধরনের নৌযান বন্ধের সিদ্ধান্ত জানিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।

সোমবার রাতে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম খান নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিন সন্ধ্যায় বিআইডব্লিউটিএ জানায়, মঙ্গলবার ভোর ৬টা থেকে ৩০ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত ঢাকার সঙ্গে সব ধরনের নৌযান বন্ধ থাকবে। এই অবস্থা চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত। তবে পণ্য পরিবহন এবং জরুরি সেবাদানকারী নৌযানের ক্ষেত্রে এই আদেশ কার্যকর হবে না।

সচিবালয়ে সোমবার দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের জরুরি বৈঠকে করোনা রুখতে ঢাকাকে বিচ্ছিন্নের সিদ্ধান্ত হয়। সে লক্ষ্যে রাজধানীর পার্শ্ববর্তী জেলা নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, মুন্সিগঞ্জ, মানিকগঞ্জে মঙ্গলবার থেকে শুরু হচ্ছে শাটডাউন। পাশাপাশি মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, রাজবাড়ীতেও শাটডাউন আরোপ করা হয়েছে। এ অবস্থা চলবে ৩০ জুন পর্যন্ত।

সন্ধ্যায় বিআইডব্লিউটিএর জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ৭ জেলায় নৌপথে অর্থাৎ ঢাকা-মাদারীপুর, ঢাকা-মিরকাদিম/মুন্সিগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ-মুন্সিগঞ্জ/চাঁদপুর/নড়িয়া, শিমুলিয়া (মুন্সিগঞ্জ)-বাংলাবাজার (মাদারীপুর)/মাঝিকান্দি (শরীয়তপুর), আরিচা (মানিকগঞ্জ) কাজিরহাট, পাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ)-দৌলতদিয়া (রাজবাড়ী) নৌপথসহ উল্লেখিত জেলার সংশ্লিষ্ট নৌপথে সকল ধরনের যাত্রীবাহী নৌযান (লঞ্চ/স্পিডবোট/ট্রলার/অন্যান্য) বন্ধ থাকবে।

এ নির্দেশনার আলোকে উল্লেখিত জেলাগুলোর লঞ্চঘাট ছাড়া দেশের যেকোনো স্থান হতে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী নৌযানগুলো পথিমধ্যে মাদারীপুর, পাটুরিয়া, দৌলতদিয়া, আরিচা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, মিরকাদিম লঞ্চঘাট ছাড়তে বা ভিড়তে পারবে না।

ঢাকার বাইরে, বিশেষ করে পশ্চিম সীমান্তে করোনার সংক্রমণ বেড়ে চলার পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকাকে চার দিকে থেকে বিচ্ছিন্ন করার পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার থেকে নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, মানিকগঞ্জ ও মুন্সিগঞ্জের ওপর দিয়ে জরুরি সেবা ছাড়া কোনো যানবাহন চলতে পারবে না।

সড়ক পথে ঢাকায় আসতে হলে এই চারটি জেলা ছাড়া কোনো উপায় নেই। ফলে কার্যত ঢাকা অবরুদ্ধ হয়ে যাবে।

এই অবস্থায় নৌপথেও ঢাকা বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার পর এখন কেবল আকাশ পথ চালু আছে। আর চালু থাকবে রেল পথ।

মঙ্গলবার থেকে ঢাকা লাগোয়া চারটি জেলা ছাড়াও রাজবাড়ী, গোপালগঞ্জ ও মাদারীপুরও অবরুদ্ধ হয়ে যাবে। রেল মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই সময়ে রেল চললেও যেসব জেলা অবরুদ্ধ থাকবে, সেগুলোতে ট্রেন থামবে না।

ঢাকায় ট্রেনে আসতে হলে গাজীপুর হয়ে আসতে হবে। অবরুদ্ধ করা হয়েছে যেসব জেলা, সেগুলোর সঙ্গে ঢাকায় ট্রেনে যোগাযোগ আছে কেবল গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জ। ফলে নারায়ণগঞ্জের ট্রেন চলবে না, আর বন্ধ থাকবে গাজীপুরগামী লোকাল ট্রেন। আর আন্তনগর ট্রেনগুলো এই জেলায় না থেমে চলাচল করবে।

আরও পড়ুন:
চলাচলের অনুমতি পেল লঞ্চ

শেয়ার করুন

মন্তব্য