হাসপাতালে থাকতে চান বাবুল

হাসপাতালে থাকতে চান বাবুল

স্ত্রী হত্যা মামলায় সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আকতারকে আদালতে পাঠানো হয়। ছবি: নিউজবাংলা

‘বাবুল আকতার নানা রোগে ভুগছেন। তার চিকিৎসা প্রয়োজন। কারাগারে পর্যাপ্ত চিকিৎসাব্যবস্থা নেই। তাই আমরা কারাগারের বাইরে অন্য যেকোনো হাসপাতালে তার চিকিৎসার অনুমতি চেয়ে আদালতে আবেদন করেছি।’

স্ত্রী হত্যা মামলায় কারাবন্দি সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আকতার হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আদালতে আবেদন করেছেন।

চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম সরোয়ার জাহানের আদালতে বৃহস্পতিবার এ আবেদন করা হয় বলে জানিয়েছেন বাবুলের আইনজীবী মো. আরিফুর রহমান।

শুক্রবার বিকেলে আরিফুর রহমান বলেন, ‘বাবুল আকতার নানা রোগে ভুগছেন। তার চিকিৎসা প্রয়োজন। কারাগারে পর্যাপ্ত চিকিৎসাব্যবস্থা নেই। তাই আমরা কারাগারের বাইরে অন্য যেকোনো হাসপাতালে তার চিকিৎসার অনুমতি চেয়ে আদালতে আবেদন করেছি। আগামী রোববার এ বিষয়ে শুনানি হবে।’

তিনি জানান, বাবুল আকতারের ফুসফুসে সমস্যা আছে। অনিয়মিত রক্তচাপে ভুগছেন। এ ছাড়া তার অ্যাজমা ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা রয়েছে।

শারীরিক সমস্যার কারণে বাবুল গত জানুয়ারি থেকে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত রাজধানীর দুটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন বলেও জানান পুলিশের এই সাবেক কর্মকর্তার আইনজীবী।

বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের জেরে স্ত্রী মিতুকে হত্যার অভিযোগে বাবুলের বিরুদ্ধে গত ১২ মে পাঁচলাইশ থানায় মামলা করা হয়। মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেনের করা সেই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে ওই দিনই বাবুলকে আদালতে তোলা হলে বিচারক পাঁচ দিনের রিমান্ডে পাঠানোর আদেশ দেন।

২০১৬ সালের ৫ জুন ভোরে ছেলেকে স্কুলে পৌঁছে দিতে বের হওয়ার পর চট্টগ্রাম শহরের জিইসি মোড়ে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করা হয় মিতুকে।

ঘটনার পর তৎকালীন এসপি বাবুল আকতার পাঁচলাইশ থানায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা করেন। মামলায় তিনি অভিযোগ করেন, তার জঙ্গিবিরোধী কার্যক্রমের জন্য স্ত্রীকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।

তবে বাবুলের শ্বশুর সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন ও শাশুড়ি সাহেদা মোশাররফ এই হত্যার জন্য বাবুল আকতারকে দায়ী করে আসছিলেন।

শুরু থেকে চট্টগ্রাম পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) মামলাটির তদন্ত করে। পরে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে আদালত মামলাটির তদন্তের ভার পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) দেয়।

আরও পড়ুন:
মুসাকে নিয়ে পুলিশ লুকোচুরি করছে: দাবি স্ত্রীর
মিতু হত্যা: কারাবন্দি শাহজাহানকে গ্রেপ্তার দেখানোর আদেশ
মিতু হত্যা: আটকে গেল বাবুলের করা মামলার শুনানি
ডিভিশন পাননি বাবুল, থাকছেন সাধারণ বন্দিদের সঙ্গে
মিতু হত্যা: কারাবন্দি আরেক আসামিকে গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন

শেয়ার করুন

মন্তব্য